Skip to main content

Full text of "Gyan O Bigyan Barsha.27(february-april)1974"

See other formats




ইংশতিতস বধ, ছিতীয সংখ্যা .. অকয়ারী। 194 


০০০০০৮০০১৮০ ১--১০০-১--১০০০১২৭১১ ফু সকল লাজ ও লী লিপি চাটি 





বিদেশী সহযৌগিত। বাতাচ ভাবছে শিমিত 
একার ডিফ্াকশন যন্ত্র চিধাাক*ণ আামপা টিপ ৩ 
ভীব বিজগানে গবেষণার উপণ্যাশী এস্সার খধ 5 কাঠ চালন্টজ 
ট্রা্সফপ্রারের একমা গ্রপ্বীতকারব শারভাধ গতিষ্জান 


্ম্যাত্তন, ক্রান্উচ্ন ওশ্রাইজ্ডেউ ভিনম্মষিক্রেভ 
7, লঙার শঙ্গর রোড, কলিকাতী। - 2$ 
কাল? ৭1121 





বঙ্গীয় বিজ্ঞান পরিষদ 





পরিচালিত মাসিক পত্রিক! 
ডু 
জ্ঞান ও বিজ্ঞান: 
উপদে! মণ্ডলী সম্পাদক মণ্ডলী £ 
স্ীপ্রিয়াদরঞ্জন রায় হ্বীগোপালচদ্্র ভটাচার্ধ 
ধা চা (প্রধান সম্পাদক ) 
গ্রীজ্জানেশ্মলাল ভাগ ঈীপরিমলকাস্তি ঘোষ 
্ীবলাইটাদ কু হমবপালকুমার দাশগুপ 
শীকরেজকুখার পাল পরানোর 
শ্ীজয়ন্ত বসু 
স্রীরবীন বন্দ্যোপাধ্যায় 


সম্পাদন।-সহায়কৰন্দ £--শ্রীমহাদেব দত্ত, প্রীমৃত্যুঞজয় গ্রসাদ গুহ, শ্্রীস্ুনীল 
সিংহ, শ্রীতড়িৎ চট্টোপাধায়, প্রীব্রক্মানন্দ দাশগ্প্র, ভ্রীমাধবেন্ীনাথ 
পাল, শ্রীরাধাকান্চ মণ্ডল ও গ্রীশ্বামএ্রন্দর দে। 


নু সপ বার চস ০ [রা পপাা৯ঞ সা ডগা 80848 
পিকের গাই ১৬এতিমেহহস 








 কেসুতে পাতার 






রসে ওগন্ধে 


কেশত॥ 


কেশতৈল স্ট/ 


১৮১৯ পা? 


নিধ্যাস পারফিউম, 
(প্রাড়াক্স ।শ্রাত লিমিটেড. 
৮৮ 5: ১ 


পা 
১৯৪? 


শাসপাপীপিশ্্মাকরাডীজলজরন্দা ফাশপ পানী রাবাজন পক বরা রাধা সবজী শপ সিসি 5৭৭ প্লান, ০. পক সে লাজ নবরনাডনসর এস হাহা পাস পি ৯৯০০,৪ 


2 জান ও বিজ্ঞান-ফেকুগজ রী, 1974 





০০০০১৩০৩১১১ 


আঞদীভ্ব ব্তাম্্তত্তেজ বাচতে হলে, বাড়াতে হবে শশা পভ নকমত্জা 
তার জন্যে দরকার স্মপিক্ঞ ৩5 ন্বিভগ্ঞাজ্ন শিক্ষার বহুল প্রলায়ণ 


চাই বহু ভ্হিভভাক্ৰী -ড স্পশিরজীী খার 


এনা ৩শ শর গা লধেত গবেধ্পাগপার ও বিজ্ঞান প্রতিষ্ঠান 


নি 


বাবস্ঠীয় লরঞ্ানের একজ্র লষাবেশ ও প্রাপ্তিশ্বান £-. 


নদীয়। কেমিক্যাল ঢয়ার্কঘ ২২৯১ লিঃ 


ফোন : ৩৪---৩১৭৬) লিপি 8৪৮5৬ পেস টি জরি, কলিকাতা--১২ 








1 1711 10071088511 71061 








8 51711168 
না 78808 

মি 80116716813 

১১ ৃ 0০07) ৩ 
8057 17101588150211 

পি] 9002] 

রদ 80509008699 
















70871 | শপ 
07010 | 0100 [01 00113101$ 
নিও মা ৯4111) 87116 ৬316, 
01. 0 6১. 
56810 14100818016 ৩1৬৩5 9 
8৮1) শা (/11-16191 9০9) 
77659507 ০7৬১7 ২ র 
| দি81106) 1045 লা 10. 
, 10 গা 10] ৬10 845%21)) টিনাতা তি 
9.01 দীন 51050 8 
তে ০ 50 11011651960. 
60878171601 ০1161510119 1 01 17016 


০ ১1০৫০ 


71811/৮017960 তি 2 


88516 & 51111156716 0757101 2171416 চাট, 


হাড়ি, 8.৮ শি ৫0৯৯5. কয লি এডি তি, তির ৮০ ৯০2, 


ভান ও বিজ্ঞান--ফেব্রয়ারী, 1974 3 


মাটি, সিমে, কংক্রীট, শিলা, আকরিক, খনিজ, থাত, 
(পট্রালিয়াম, হিটুমিনাস প্রড়ুতি পরীক্ষার সহায়কসমূহ 
এবং সরঙজামাদির জন্য-_ 


যোগাযোগ করন 2-- 


ভিওলজিষ দিঞিকেট প্রাইাভিট ভি 
১৩৭, বিপ্লবী রাসবিহারী বস্ত্র রোড, 
কলিকাত-১ 


গ্রাম £ জিওিন (0৮:0৯) ফোন £ ২২-৩৫৭১ 








৫ ্ লস-ব-চে-়ে প্রিষ্থ 1 





ন জাল ও [বজ্ঞান---ফক্রয়াযী, 1974 


4 2৮109 
171৬11৮0978 


114৯1105৬57 চস হাোবি ০ 
21৭0 ৮৮020 হারিতে 01717] 
৬৬] ৬097) হচ৯াা0)৬5 
41711571৮01) 05 009৬ ৮1২1190) 
4৯ ৬৮11) [ঠেটিতে টে আহত & 
৭, 


০01৮1100005 176110৭0% তত €৫ হামলা 
19101 219800716051 ক. 21600710 ]1700501 
(17100017066 0176003176৮, 


1441). 5২012১00081), 
[00 [5 এব) বা 7২ব271011 
5120171087101৭ 50172 01 
£1.50২1041, & ছটা ২০9৯০ 
£সয্708210, 





11107 70117117710] 


১1০২৬ 0. 
1714 107 100:411509 : 








7৮৮৫ - ৮৪ 
২০৫04, 4718 28 2০ 60৫0 
পা 024 পেশ খা (লিন ৮106 





/066444 7424ন রি 





7 ৮৮4 -৬7 
265757৮62হ ৪০৫০2249458 
৫ 7১৮4 27/17/4764 


ৃ $৮/ গাল পশি৮ক 


$ 


৫4246 ৫44 








1.8.681178108715 800. 


19 017981017] 021 56 21065-13, ৮০৫-7 
17, 0905 0, 5956 ঢ02 2/0.4 £ /21%4৫ 
(1)0150:24758925 তে লঘছ 7 ৮85৬1525600 £/রধা 2৩ সনিতা 


০0৮7155 

















লী 88৩৮2077872 80658 


জগ্ভ প্রকাবিত--- ৮07 1067 78001728824 7৩5 £ঠি 


1, আ্যলবার্ট আইনস্টাইন-_থিজে শচন্ 
রঃ মুল্য ছয় টাকা। 
2, মহাকাশ পরিচয় ( দ্বিতীয় জংক্করণ ) 
_জিতেজাকুমার গুহ, মুল্য -_-আট টাকা! 
১. বোস জংখ্যায়ল--মহাদের দাত, যুল্য-_ 
ছুই টাক 


গ্রকাশক--বঙ্গীয় বিজ্ঞান পরিষদ 
একমাত্ত পরিবেশক ঃ 


£৯1] 89105 01 
[2015 870৬৬ | 01,555 ৯৮৮28 2195 


101 59170015, 50816592 & 
[82558101 11751160810172 


89809018157) 80151 116 
69282688710 


232 5, তত ০18001589৮9 
(4১107018274 


ওরিয়েন্ট লঙ ম্যান আযাগু কোং লিঃ 
ফোন £--23-160] 
17, চিত্তরঞ্জন আভিনিউ, 


কলিকাতা-13 মিরা 
০০০৫ 2 55-1588 
5৪138006 1 55-2001 


হর ! মি 
১১0 ১১১১১ পিস প্রা 


3285 78501 003৮? 


আন ও বিজ্ঞান-ফেব্রুয়ীরী, 1974 0 


বিষয়-সূচী 


বিষয় দেখক পৃ 

ভারতীয় বিজ্ঞান-সাধনার ধার! * হুধন্ুবিকাশ ক? 57 

নিকোলাস কোপাশিকাস্--নর্তমাঁন মগের অগ্রধন্ :ত। বৈদ্কনাখ বন্ধু 

গঠন-বিশ্লেধণে ফটোইলাছিক পঞ্চ *ত দ/ফাজ্শী কর 24 

প্রাচিন পিসের নগর-খিগ্ঠাস টু আবনীকু মার ক 36) 

কনি-সংবাদ 9) 
শাগপুরে ভার তীয় [বজ্ঞ।ন কংগ্রেসে 01তম 

পধিনেশন রা বদন শর্দোপাধ্যা $) | 

বজ্ঞাপ প্রণলানখ 4 অহী বনু ১৫ 

(বজআকান-স*ব।৮ 100 





৮1867 18915 81.071 1 
01.855 988 


আমর। পাইরেজ্স কাচের-টিউব হইতে 
সকল প্রকার বৈজ্ঞানিক গবেষণাগারের 
জগ্ত যাবতীয় যন্ত্রপাতি প্রস্তত ও সরবরাহ 
করিয়। থাকি । 





০ সপ পপ 


উর 


চ0 10051, 18582101 
[08008110191 11511108195 
& 6041. 607180101$ | 9. 16. 918ত/88 ৫ 3০. 


01:১০ ভাখওে1557133 ০০17৭ | না 
0০৮7 ৫৭, উ. উ, 057758458 5০৯০১ 101৩ 35021077585, (081০88-12 
(৫:৫০ ৮ 20 এজ 
নাতো : ৬0122 ০80 হা, ৪:80 ৯৯ 


৯ জা, উায * পারার ৩ 05187 :90277160, 11002 : 35-9915 


কিস 





নিয় ঠিকানায খন্থসন্ধান করুন ; 





সি 
স্ঈপিঠলিিরিি50285 তত উিাদ ০ ০০০০০০০ 





0... জান ও বিজ্ঞান_ ফেব্রুয়ারী, 1074 টিটি 


বিষয়-সূচী 











কিশোর বিজ্ঞানীর দপ্তর 
বিষর লেখক পৃষ্ঠা 
জাতীর পণ্ড-_বাধ *** গ্রবিশ্বনাঁথ মিত্র 101 
পারদশিতার পরীক্ষা *** বরঙ্গানন্ন দাশগুগু ও জয়ন্ত বসু 106 
সরদিগমি *" পার্থসারখি চক্রবতা 103 
উত্তর (পারদশিতার পরীক্ষা ) *** 109 
প্রত ও উত্তর ১, খ্বামনুপ্র দে 109 
বিবিধ রঃ 111] 
আযানালিটিক্যাল ব্যালাজগ 





গবেষণা, শিল্প ও শিক্ষা বিভাগের প্রস্নোজনীয় 
হুক্পতম পরিমাপ বস প্রস্তুতকারক 


(সায়েছিয়া ই (ইত) গাইছে লিমিটেড 


ও৪, ব্যানাজা বাগান জেন ূ ২, ধর্মতলা রোড 
গাজকিয়া, ছাড়া নু সি শি” | বেঙুড়, হাওড়া .. 





30৬ 0 শালা 89710 08২07000 
1 /বাটদ£0শা্দ) ৪ 05 





54০০7, চলাদার 8০ দা, হাতা, 01৮ উহ 09 
৪174210 2010, 97,৯3৮ 29, 07770 20005 2175০ 5তিত 


1010-57-48 
4১159 01724 27201400502] 71507 10ঞা তি 
(10/.5 & 04308 808 £ই৯ তোতা 5 


0 শা 
088.00775 01168810088. ০০. 80. 


0০/৯১/০074 29 








আমরা তৈরী করি ঃ 
* পদার্থবিজ্ঞান, রসা়ম, জীববিজ্ঞান, শারীয়তত্ব, 
ভূগোল ও ভূষিষ্ভাক় ব্যবহৃত বিবিধ বন্ত্রপাতি, 
মডেল ও চার্ট 
« উঞ্জিনিক্ারিৎ এবং টেকনোপজিক্যাল অভতেঙ্গ 
ও বক্সপাতি 


বিজঞানাগাবের সাজসরঞ্জাম ও জআঙবাব পঞ্জ 
আমাদের কারখামাক় প্রস্তত গ্যাম প্রাযাণ্ট, 
ভিহিজ্ড ওয়াটার প্র্যাপ্ট, হাঁচিং গু ব্যাকৃটিরিও- 
ূ লজিক]াল ১৯৯৯ খার্ষোস্ট্যাটিক গওতেন 
ৃ ও বাথ, সেকিং মেশিন, ভ্যাকুয়াষ পাম্প 
পিুকো? গাল গ্যাপ্ট ্রতৃতি সর্ব সমাদৃত 
নি আআহ্মাক্েস্লস রানুকে *ম্ঞ্যা আত ৪ 
যুনিয়াছি শিক্ষা! প্রতিষ্ঠান, উচ্চ মাধ্যমিক ও বহুমুখী বিভ্ভালয়, মহাবিদ্তালয়, ইঞ্জিনিক্ারিং মেডিক্যাল 
ও এগ্রিকালচান্ষেল শিক্ষা! প্রতিষ্ঠান এবং কেন্দ্রীয় ও ক্নাজ্য সরকারেক্ব বিভিন্ন গবেষণাগার ও 
৮ | বিবিধ দু, / ৮ 
ূ যন্ত্র নিষাতা গু ইংলণ্ড, জ আমেরিকা, জাপান গ্রতৃতি দেশ হইতে 
আমদানী যাবতীয় যত্রপাতি ও রাসায়নিক পদার্থের সম্বব্য়াহুকারী মিত্তরধোগায প্রতিষ্ঠান রা 


আ্োশিসন ইনউ,মেণ্ট কাপারেশন (ইপিয়া)া$ ভি 


“টেনিকোন ২৪ ৩২৭১ ৪৬, ধর্মতল! ্রাট, কজিকাতা”১৩ গ্রাম £ পিন্কো, কলিকাতা 





ক ক 








জাল গ বিজ্ঞান-ফেজগ রী, 1974 


[96591 08107765 [017156151 00791186101 
1, 88178125 52101000525 ডো 262007855 (1743-1867) (বাখলা আআ ভিধন' 
গ্রন্থের পরিচয়) (১৭৪৩-১৮৬৭ খ্বঃ) (117 30127119 05 911 15৮চলাছ ০৮217 


315809901081550, 20591 8 ৮০. 200. 3356. 1920. চ055 5, 22,090 
2. 71175382767 00055 005%5101 ( বুন্নাবনের ছয় গোন্যামী ) (10 86176811), 105 
10 টি 2105510010510015 যাব, 10, 16 100. 701, 339. 1970. [1106 (৪, 15.00 


3, 0:01160650 06705 & [08115 [১০9০105 8 1,600615, 05 911 79101000181 

(1১086, 1£:0650 0৮ 910. 1,00112. 17056, 10591 8 ৬০, 01320. 

1970. 1১706 হও, 25.00. 
4, 2915 1001917 17018010605 00175, ০0160 05 10, 0, 912001৭10৩0 


16 17)0, 2০. 16411 01566, 192], 1102 3. 1200 
5, 01081061262] 06 [01177001510 (254 5.0161011)5 105 1027 9, 05 0109061156, 
[61705 16 হ0. 00. 220. 1920. ০7106 135. 500 


6, চ01:51802াতি 06 £001তা [0015 &11215001  321230526 2 16 ৪ 
10061500165 60160 05 10. 0, 9108, 10515 16 200, 0০, 200-+9 
015665, 1970. 10105 তি, 12.00 
7, (3০1702৬1185 (গোবিন্দ বিজয়) (17 3০175511), 541060 0৬ 
[01,.0100315510061 11910010566, 01106100516 010, 00, 584.11969, 0166 5. 25,00 
8. (5001 00509550885 05 02, 2যরচএএজ 01610270166, 10705 


16100. 1079. 122, 1970. [2102 ঘিও, 10.00 
9, 1110751017 নাও 105 00115011005, 005 [0£.050115০00080 61151210176, 
0531 8 ৮০. 00. 534, 1969, | 2৪86০ ৩. 20.00 


10. 119108৮2াগেত। ( রিও] ১2105) (মহাতারত--কবি সঙ্জন্ব বিরচিত ), 05 ২ 
[01 2৮017100182 1আ2001 ড1056, 205৭1 8 ৬০. 90, 1070. 1663, 97106 ২ 40.00 


10৮ 11191 0969115, 10192959 917704119 £ 
1১109110901018 10605107167), 00181৬91515 01 (816862 


পক দত পা জন চ্সা হুসি পা 


লেক্সিন 


*সর্পদংললেল শ্রবিয্যাত মহৌষধ, 








সব্বপ্রকাদ্প পর্পঘিষ নঙফ কার । 


| কলেরায় নিররযোগা ওীঁষধ, গ্রতিষেধক 
হিসাবেও নিশ্চিত কলপ্রদ ৷ 


লেক্সিন সকল সন্বান্ত দোকানে পাওয়া যায়। 





পি.ব্যানারজি মিতিজায়, বিভার 
কলিকাতা অফিস £ ১*৯ ডি, শ্যামাপ্রসাদ মুখাজী রোড. 
কলিকাতা-২৬ ক 


কারিগর 








কবির 09৬ 














জন্ম -]ল! জান্ুয়ারী, 1894 মৃত্যু--4ঠা ফেব্রুয়ারী, 1974 


বিজ্ঞানাচার্য সত্যেন্্রনাথের মহাপ্রয়াণ 


বঙ্গীয় বিজ্ঞান পরিষদের প্রতিষ্ঠা তা-সভাপতি বিজ্ঞানাচার্য সত্যেক্জনাথ বন্র 
মহাপ্রয়াণে আমর!--বলগীয় বিজ্ঞান পরিষদের সদস্য ও কর্মীবৃন্দ_গভীর শোকসম্তগু | 
তঙ্থার পবিভ্র স্থৃতির প্রতি আমর! আস্তিক শ্রদ্ধাঞ্জলি নিবেদন করিতেছি। 








গত লা জানুয়ারী (1974) পিজ্ঞানাচাধ মভোন্পনাণ পসন্তর আশীতিতম জম্মাজযন্ধী উপলন্ষে নঙ্গীয় 
বিজ্ঞান পরিষদের পক্ষ হইতে তাহাকে সন্বর্পনা জাপন করা হয়। এই অনুষ্টানে মভাপতিৰ 
আসন গ্রহণ করেন কলিকাতা নিশ্ববিদ্ালয়ের উপাচার্য ডক্টর সভোন্দ্রনাগ সেন। ঢ1ক! নিশ্ববিগ্যালরের 
উপাচার্য ডক্টর আন্দুল মোতিন চৌধুরী শিশিষ্ট "অতিথি হিসাবে অন্ষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন। 


চিত্রের বামপার্থে বিজ্ঞানাচাধ সতোন্দ্রনাথ, মধান্থলে ডক্টর সেন ও মাইকোকফোনের সম্মুখে ভরীর 
চৌধুরীকে দেখা যাইতেছে । 


5 ৮8 কপ, কত তত ও 


না 


দেল পু 


চা, 


নপক - 5 


দিপা আপদ শপ এ. 





বিজ্ঞান।চার্য সন্তোন্রনাথ বন্গর 'অশীতিতম জন্মজয়ন্তী উপলক্ষে গত ]ল1 জানুয়ারী 
(1974) বঙ্গীয় বিজ্ঞান পরিষদের পক্ষ হইতে তাহাকে প্রদত্ত রৌপাফলকে 


উত্কীর্ণ মান্পঞ্জের গ্রঙ্চিলিপি । 


বিজ্ঞানাচার্ধ লত্যোন্দ্রনাথ বন্থব অশীতিতম ক্গন্মক্জয়স্ত্রী ও বঙ্গী্প বিজ্ঞান পরিষদের রজত জয়ন্তী উপলক্ষে 
বিজ্ঞান কলেজে আয়োজিত বিজ্ঞান প্রদর্শনীর উদ্বোধন-অনুষ্ঠানে বিজ্ঞানাচার্য সত্যেন্্রনাথ বন ও মুখ্যমন্ত্রী 


্ীসিদ্ধার্থশঙ্ষর রায় ( উপরের চিত্র )। অনুষ্ঠানের পর প্রীরায় প্রদর্শনীটি উদ্বোধন করেন ( নীচের চিত্র )। 
[ বিশেষ রচনা 96নহ পৃষ্ঠায় রষ্টব্য ] 





জাম & 


অপ্তবিংশভি্ বর 


০০০০ আরা অরপা। »প্ারা ১ 





0 পস্পস্কািপনি 





ফেব্রুয়ারী, 1974 


বিজ্ঞান 


িীয় মংখ্যা 


পা সপ তকে জেল 









ভারতীয় বিজ্ঞান-সাঁধনার ধারা 


বিজ্ঞানের সাধনা কোন দ্বেশ। জাতি বা 
ভামার মঙ্গো সীমাবন্ধ নছে। প্রারৃতিফ শক্তিকে 
মানুষের কাজে ব্যবহার তাগিদে প্রান্থাতিয 
রক্ত উন্মোচনে আদিষ যুগ হইতেই খুদ্ধিমাজ 
হাযুম বিভিন্ন ঘ্বেশে ও দিভিন ভাষার জান, 
বিজানের সাধন! করি আপিয়াছে। ভারতে 
টদিক বুখে বেদগাঁথার আছুরণনের সঙ্গে 
আধচাত্িক ফিাকাণ্ডের পাশাপাশি সেই যুগে 
মাভঘ। খাথিধ বিজ্ঞামের চাও করিয়াছে। 
রাধর্ধদেদ হইতে ড়াহার দিরর্পনগ্ডলি উদ্ধায় 
কির! শযয়াচার্দ ৬5৫1০ 81898828005 যা 
দিক দাশিড়।€ বাছাপপ! হিন্দু,বিপ্ববিষ্ঞালয় বব 
প্রকাশিত) বায়ক পুতাক লাঙলক করিরাছিজেন। 
আই, গুভকে বে কুছ ছরিখিত হইয়াছে, তাহার 
ব্যাখ্যার বৈদিক খুগন্জ। তাকতীগ্গ গলিত থে 
উদ্ধর্ন, লা দিছিল পাছায় সাধক পরিচয় 
পাথর! সা? 


পরব কালে জর্মতই, বদ %, লীঙলাবন্ী। 
ভাক্ছজাচার্য, নাগাদছুনি। জীধরঃ চরক, গুজড় পরের 
যে বব বিজ্ঞানীর মাণ ক্ষারহীগ বিজাখৈর 
ইতিহানে উজ্জল হুইগ! জহিয়াছেলঠাহাদৈর 
সাধনার পরার! ছিল একা ারতীন্ব। বৈশে হি 
ছর্শবে কথা কষুন্বতদ বস্তকপার ধারণা ব্যাখ্যা 
কুরিস্বাছিতিলন। পরবত্তা কালে জ্াধুনিক বিজানেনে 
পল্পঘাপুসপ্পর্িত ধারণার ইঙ্গিক্ষপে তা! 
ঝাহ্ণবেগয হইতে পারে। ভাঁগ্ত যে খু 
ভাহ্যাত্থিক ধর্ম ও দর্পন হাধনার পীঃভুমি লন 
জড়, সিজ্ঞানের লাধনায যে ভারকীর ভান 
প্ররিগতিহাশিক কাল হইতে প্রাবহঘাদ। খরছ। 
তা! নিন্বৃত। হইছার নছে। শপ, বাব, টির 
দানি ভৎকানীন হসড়ঃ গেপঞ্জপির 'লাশাগাখি 
ভার গর্দি, জ্যোকিকিরাৰ, খাও) বলার 
ও” কিতাব খে মিথ সাধদার । 
অধ্যাহক,;। রাধিয়াছিধ, ভাঙতে দভারিগাকাপীঃ 


58 ভান ও বিজ্ঞান 


গৌরব বোধ করিতে পারে। প্রাচীন কালে বিভিন্ন 
দেশ ও ভাষাভাষীর মধ্যে মত বিনিময়ের কিছুমান 
গ্ছষোগ ছিল ন1। তাই অভ্তান্ত দেশের মত 
ভারতীয় বিজ্ঞানিগণ ত্বাঁধীনভাবেই তাহাদের 
লাধনার ধার! অব্যাহত রাখিয়াছিলেন। 

উনবিংশ শত্তান্ধীতে ইউরোপীয় নবজাগরণের 
ফলে সারা পৃথিবীব্যাপী চিস্তাজগতে একটি 
নিঃশব বিদব ঘটিয়! যার। তাহার সুলে ছিল 
আধুনিক বিজ্ঞান ও প্রযুক্কিবিস্তার উন্মেষ। 
সেই নবজাগরণের ঢেউ ভারতে আতখাত 
হানিয়াছিল। আধুনিক শিক্ষার বছুল প্রচারের 
জন্ত সেই সময় এই দেশে করেকটি বিশ্ববিদ্যা লন 
প্রতিতিত হুইরাছিল। কিন্তু বিজ্ঞান-গবেষণার 
ক্ষেত্রে উল্লেখযোগ্য ফোন প্রচেষ্টা তখন সম্ভব 
হয় নাঁই। তখন সরকারী আন্দকুল্যই বে শুধু 
পাগুয়া যায় দাই) তাহা! নহে--বিদেশী। শাঁসক- 
গোষ্ঠী আধুনিক বিজ্ঞানের কিছু শিক্ষক এই দেশে 
আমদানী করিয়াছিল, কিন্তু সমকালীন বিজ্ঞান 
গবেষণার প্রসার কর প্রয়োজন মনে করে নাই। 
সেই ঘুগে তারতীর আধুনিক বজ্ঞানের পথিকৃৎ, 
বিনি বিদেশে বিজ্ঞান শিক্ষালাত কির! ভারতের 
মাটিতে পদার্থবিজ্ঞান গবেষণার প্রথম প্রদীপ 
প্রজলিত করিয়াছিলেন, তিনি আচার্য জগপীশচন্ 
বঙ্ছ। বিদেশী বিজ্ঞান"সাধনার ধারা তিনিই 
প্রথম এই দেশে আমদানী করিয়াছিলেম। কিন্ত 
এই খানায় অনুসরণে তাছার তৃপ্তি ছয় নাই। 
যদিও বেতাঁর-বিজ্ঞানে তাহার উল্লেখযোগা 
অবদান রহিক্নাছে, কিন্তু জড় ও জৈৰ চেতনার 
পমন্থদী যোগশ্থত সন্ধানে তিনি যে কৃতিত্বের 
স্বাক্চর বাখিগ্াছিলেন, তাহা! সম্পূর্ণ ভারতী্ষ 
ধারার নিজস্ব সম্পদ। সেই যুগের পটভূমিতে 
জগশিশচঙ্ত্রের অবদানের মুল্যায়ন প্রয়াস | 
নবীন ভাবখারার সহিগ্চ সমহয়ের সাধনা সেগিব 
ভাতের প্রতি ক্ষেত্রে ঘটিগাছিল টৈলবিক প্রান | 
আবেছিফাত্ধ ধর্ষ পশ্মেশনে শ্বামী বিষেকানন্ 


[ 27তম বর্ধ, 2য় সংখ্যা 


সর্ব ধর্ম সমন্বয়ের পতাকা উড্ডীন করিয়াছেন। 
সমাজে, সংস্কৃতিতে চলিয়াছে সমহ্থগ্ের সাধন1। 
এই সমন্ক্ের সাধনায় বিজ্ঞানের ক্ষেত্রে ভারতী 
দার্শনিকের অন্তর লইয়! তিনি যেন এক নূতন 
সমশ্বয়ের সাধনায় জীবন উৎপর্গ করিয়! দিলেন। 
সেই যুগে একক প্রচেষ্টা তিনি বে সাঞল্য 
অর্জন করিগ়াছিলেন, বছ বৈজ্ঞানিক একযোগে 
এই সাফল্য লার করিতেন কিন! সন্দেহ আছে। 
তাঞার এই সাধনার ফল প্রচারে বিদেশে 
তাঞছাকে বিরূপ সমালোচনার সন্মুধীন হইতে 
হইয়াছে এবং তিনি ভাঙার চিজ্তাধারা হইতে 
বিচ্যুত হন নাঁই। সাধনার ধারা যাহাই হুউক 
না! কেন, বিজ্ঞানের আবেদন সাধঙ্বনীন। 
সাঁইবারনেটিক্স (05091052009) নামে বিজ্ঞানের 
যে শাখা বর্তধান একটি উদ্গেবষোগ্য ভূমিক। 
গ্রন্থ করিয়াছে, জগদীশচজ্জের গবেষণ! যে 
তাার ইঙ্গিত দিয়াছিল__ইছা! অস্বীকার করা 
বায় না। বর্তমান যুগে জড় ও শক্তির অভিন্নত। 
একটি গুরুত্বপুর্ণ আআবিক্কার। জীব-বিজ্ঞানের 
প্রগতি আজ এমন একটি পর্যায়ে আপিন 
পড়িয়াছে, যাহাতে অদূর ভবিষ্যতে জড় ও 
জীবনের আঅভিনতা প্রধাপণের বোগগুঙটি হতো! 
খুজির! পাওয়া বাইবে।. সেদিন দ্বগদীশ5ঞ্জের 
'বদানের গরু বিশ্ববাপী উপপন্ধি করিতে পারিবে, 
সন্দেহ নাই। তাহার প্রতিষ্ঠিত বোন ইনভিটিউট 
ভারতের বিজঞান-পাধনাকে আধুনিক খারা 
সঞ্জীবিত করিয়াছে । এই প্রতিষ্ঠানের বিশিষ্ট 
বিজ্ঞাশী শীদেবেপ্র মোহন বসুর বিজ্ঞান-গবেষণা ৪ 
জারভীর বিজ্ঞ/নে উল্লেখযোগ্য আবদান। পদার্থ 
বিজ্ঞানে নতোরশ্মটি ও অন্তান্ত কয়েকটি বিধগে 
এদেশে নিনিভত বহ্গপাতির পাহাবধ্ে তিন্গি 
যে গবেষণার পরিকৎ্ক্পে চিছিত, ভারতনা লী. 
মাত্রেই তাহ! চিরকাল স্মরশ কফরিষে। 

বিংশ শতাব্দীর শ্রধমাংণে পাধার তাশীর 
আদদন তত্ব জ্যোতিপনার্খবিজ।নে সঠিক পখ' 


নির্দেশ করিতে পারিয়াছিল। পরবততণ কালে বিজ্ঞানী 


লাংমুইর (7.87182)02) সাহার শুজের সাহায্যে 


সাধারণ মোঁলিক পদার্থের তাপজ্নিত আয়ননের 
মান পরিমাণে ধে সমীকরণ রচনা করিয়াছিলেন, 
তা! সাহা-ল্যাংমুইর সমীকরণ নামে আখ্যাত 
হইয়াছে । কঠিন পদার্থের তাপীয় আয়নন সমস্যায় 
অর্ধশতাবীর পরেও এই সমীকরণের উপযোগিতা 
কমেনাই। সাহার আবিরের প্রায় ত্রিশ বৎসর 
পূর্বে বিজ্ঞানী লক্ইয়ার একটি পরীক্ষায় তাপ ও 
আঁছ়ননের মাত্রার সম্পর্ক লইয়! নিজের গবেষণা” 
গারে কিছু সাফলা লাভ করিক্জাছিলেন-স্কিত্ত সেষ্ট 
ফলাফলের উপর কেহ গুরুত্ব দেয়নাই। সাহার 
আবিরের পর বিজ্ঞানীদের মধ্যে তাপীর আয়নন 
সম্পর্কে গব্যেণার সাড়। পড়িয়া গেল। ই সময় 
লকইয়ারের বিধব! পত্বী মিসেস লকৃইয়ার অগ্ন্যাপক 
সাহাকে অতিনন্বন জানাইক়! লিখিয়াছিলেন, “ক্দামার 
স্বামীর গবেষণার ফল এতদিন আবজ্ঞাত ছিল; 
আপনার মহান আবিষ্কারের, কলে তাহার গুরুত্ব 
বিজ্ঞানী সমাজে ধর। পড়িগ্লাছে, সেই জগ্ভ আমি 
আপনার নিকট কৃতজ্ঞ”! নোঁবেল পুরস্কারের জ্ত 
অধ্যাপক সাহার নাম এক সময়ে প্রস্তাবিত 
ইইগাছিল। কিন্তু কোন পুরস্কারের আকাজ্ক। না 
করিকা ক্ষমতা ও পদদর্যাদার লিগ্প1! ব্যতিক্জেকে 
তিনি আজীবন যে সাধনা করিঝাছেন, তাহা 
চির়ম্যরণীয় হইয়া থাকিবে। 0. ৪1. ঘি কর্তৃক 
প্রকাশিত ভাঙার যৌলিক গবেষণা-নিবদ্ধের 
সন্ধপন হইতে বিজ্ঞানের বিডির ক্ষেত্রে তাহার 
বিপুল অবদানের পরিচয় পাওয়া যা। তাহার 
বিজন্থ অবদান ছাড়া তিপি এই দেশে পিউলীগ 
বিজ্ঞানের অগ্রগতিতে যে পথ প্র্র্পন করিমাছেন, 
তাঁছাও শ্রদ্ধাদপ লছিত স্মরণ করিতে হয়। 
কণাত্বণ-বন্ত সাইক্রোইন এই গেশে তিনিই প্রথম 
প্রবর্তন করেন। তাহা ভাঁড় বিটা-গামা স্পেক্টে 
স্কোপি, দিউরীয়ীর জগ নোটক রেজেোনেজ, 
ইঠলকট্রন, প্ারাধাঁগ লেটিক রেজোনেন্স, হাস" 


59 


স্পেক্টেক্ষোপি, নিউক্লিয়ার রসায়ন, নিউক্রিগার 
ইলেক্ট্রনিক সংক্রান্ত বু আধুনিক বক ্রপাতি 
নির্যাণে ম্বরস্তরতা ও গবেষণার প্রবর্তলে তিনি 
ভারঙকে প্রা পঞ্চাণ বখলর কালাধিক লবয়ের 
অগ্রবর্তী করিয়া গিয়াছেন। এই কথা হুহতে। 
অনেকেই জানেন না যে, দ্বিতীয় মহাযুদ্ধের, 
সময় নিউক্লীর় বোমা ও রিক্নযাউটর আবিরের 
পুর্বে বখন ফিলন সংক্রান্ত গবেষণা বিদেশে 
গোপনীয় ছিল, অন্ভনিরপেক্ষতাবে অধ্যাপক 
সাহার গবেষণাগারে মৃদু নিউট্রন সংঘাতে 
ইউরেশিহ্থাম বিভাজনের সম্ভাব্যতা সম্পর্কে একটি 
উল্লেখযোগ্য পরীক্ষা সম্পাদিত হইক়্াছিল। 
তারতের প্রথম ইলেকট্রন মাইক্রোক্ষোপটি 
ভাঙার গবেষণাগারে নিনিত হইঘ্াছিল. ও 
এই দেশে ইলেকট্রন মাইক্রোক্ষোপের সাহাছ্যে 
জীব-পদার্থ-বিজ্ঞানের গবেষণার তিনিই প্রথম 
প্রবর্তক। 

অধ্যাপক সাহার পূর্ববর্তী যুগে আচার্য 
প্রফু্চঙ্জ য়ায় রসারন-বিআান গবেষণানর €ষ 
ভাবধূতির প্রতিষ্ঠা করিয়াছিলেন, তাহাতে তাঙাকে 
আধুনিক ভারতীয় রসার়ন-বিজ্ঞানের জনক বলিজেও 
অভ্যুক্তি হছুন্ন না। বিদেশে শিক্ষাপ্রাঞ্তধা অথচ 
সম্পুর্ণ ভারতীয় চিন্তাধারার অন্কপ্রাণিত, প্রাচীন 
যুগের বিশ্বত বিজ্ঞানীদের প্রতীকক্ষপে তিনি 
বিজন ও বৈজানিক শিল্প প্রচেষ্টায় একটি নৃতন 
যুগের হুচনা করিগা গিয়াছেন। 

নোবেল পুরস্কার বিজত্নী ভারতীয় বিজানী রাঁষন 
রামবএফেজের। জাবিফানে বিশ্বের বিজান-জগতে 
চিরন্ছরণীর হইছা আছেন! আলোক*বিআানে 
ভারতের গবেষণাকে তিনি বিশ্বলভাম় প্রতিতিও 
কৰিস্ান্ছেন। বাঁধন-এফেরের গুরুত্ব লেলার 
আবিষ্কানের পর খবরও বুদ্ধি পাইহাছে। একবপা 
পারদ-্দীপের পরিবর্তে পেসারের আলো ও 
উদ্নততয়. ইলেকট্রনিক পরিষাপক'যছে জধুনিক 
মুগে 'লিণতঘ বামনস্যশালীরশ পরিষাপ কর! শস্বব 


60 
হইতেছে। ফলে বস্কজগতের নৃন নৃঙন রহত্ট 
উঈঘ।টমের সপ্তাবনা দেখা দিয়াছে। 


আচার্য পরীপতোজনাথ বহু আর একটি নাম, 
বাহ্াক্ বিজ্ঞান-সাধনা, জীবন-ঈর্শন এই যুগের 
মাঞ্ছষের কাছে ক্ধপকথার মত গ্রতীক্মান হুইবে। 
পরাধীন ভারতে আকঙজ্গন তরুণ সম্পূর্ণ তাকতীয় 
পরিবেশে লালিত গত শিক্ষিত, নিজত্ব বিজ্ঞান 
বিষয়ে কোন শিক্ষকের বিনা তত্বাবধানে, যে 
অভুলনীয় আবিষফষারে আপন প্রতিভার স্বাক্ষর 
রাখিক়াছেন, তাগাই বোল-সংধ্যাক়ন নামে খ্যাত । 
এই ব্সাবিষ্ষারের প্রশ্নোগ বে কত সুদূরপ্রসারী, 
আজ পঞফাশ বৎসরের ব্যবধানে তাছার সম্যক 
পরিচয় আমরা পাইয়াছি। বোঁপ-সংখ্াকন 
মুলতঃ শক্তিফণার পরিপ্রেক্ষিতে রচিত ছইয়াছিল। 
গত পঞ্চাশ বৎসরে বিজ্ঞানের ত্বত্ত অশ্রগতিতে 
বিচিত্র থে মৌলিক কণা জগতের সন্ধান 
মিলিয়াছে, তাহাদের কিছু অংশ বোস-সংখ্যাক়ন 
মানিক ৮লে। আচার বন্ুর নাযাধাক়ী 
উষ্থারা মোঁসন (8০৪০) আখ্যায় বিশ্ব-বিজ্ঞানী 
সমাজে চিহ্নিত হইয়াছে? অন্তান্ত যে কপাগুলি 
ফেমি সংখ্যাকন মানি! চলে, সেগুলি ফেনিঙন 
(26£00107) নাষে অভিষিত হয়? আচার্য বসুর 
এই আবিকার তাই এই শতাঙ্ধীর কতিপক্গ 
মৌলিক আবিষান্সের অগ্তগুম বপিয়! গণা হইবে। 
তাছাড়া ক্ষেত্রততু ও বিজ্ঞানেন্ন বিভি্গ কষে 
খআচার্ধ বনু অনেক অবদান »হিগ্াছে। 

ভারতীয় বিজ্ঞানীগ্ের মধ্যে ড্র তাবার 
বাম এই যুগে বিশেষ উল্লেখযোগ্য । তাহার 
মভোরশ্থি সম্পকিত গবেষণা বিশেষ গুরুতবপুপ, 
অন্ত দিকে পিউকীক় বিজ্ঞান-গবেষণার স্বাধীন 
ভারতে তিনি বে গ্রতিষ্ঠানগুলিত্র জনক, সেগুলিকে 
খ্বাধুনিক বিজ্ঞানণগবেষপাঁয় শীঠস্থান বল! হলে | " 

উলিখিত বিজঞানিগণ ছাড়া আরে! বহু বিখ্যাত 
বিজ্ঞানী বিগত এক শত বহ্পঞ্গ ধরিয়া পার, 
রসাক়ন, উদ্থিদ ও জীব-বিজান প্রস্ততি বিজআাদের 


উনি ও বিটা 


2১তম বর্ঘ,) একক সংখা? 


বিভিষ্ন শাখার বহু অবদান রাঁখিঙ1 গিকাছেদ 
গ এখনও দিয়লল সাধনা করিয়া চলিঘাছেন |” 
তধু একটি প্রথথ খাকিছ। বার-*তাহা হইল বর্ডষান 
স্বাধীন ভারতে ধিজাঁন-পাঁধনার ধারা, ফি সঠিক 
পথে চলিনাছে? ধাযাটি বদি অভ্রান্ত হগ্, তবে 
পরাধীন ভারতে সীমিত ম্ুযোগ আুবিধ! সরতে 
এই দেশে বলিয়া আচার পত্যেজ্নাথ, বেঘখনাঘ 
ও রামন বখন বিশ্বখ্যাত আবিফারন করিতে 
সক্ষম হুইগ়াছিলেন, তখন স্বাধীন তারতে সেই 
দিনেত তুলনায় প্রচুর মুযোগ-লুবিধা থাকা সত্ত্ব 
উন্নত বিদেশী গবেষণাগারে শিক্ষা লাভ করিয়া 
এবং বিদেশের লঞ্ছিত ঘনিষ্ঠ যোগাযোগের 'দবোগ 
পাইয়া আমাদের বিজ্ঞানীরা কেন শিশ্বখ্যাতি 
শাত কক্সিতে সক্ষঘ হইবেন না? সম্প্রতি আচার্ধ 
সত্যেক্নাথ বন্ুর জশীতিতম জন্মপ্তর্য পুতি ও 
বোস-সংগ্যাক়নের হ্ুবর্ণ জয়স্তী উপলক্ষ্যে কলি- 
কাতার খআদ্গটেজিত একটি আস্বর্জাতিক আলোচনা 
চক্রের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে আয়োজক সমিতির 
সভাপতি কল্সিকাত1 বিশ্ববিদ্তাপয়ের উপাচার্য ডউর 
সতে)জানাগ সেন ভাছার স্বাগত ভাষণে এই প্রস্থ 
্বাক্তাবিকতাবে তুলিয়া ধরিয়াছেন। তাহার 
মতে, বর্তমান যুগে বিজ্ঞানীদের . বিজ্ঞানের, শ্রপ্ধি 
সিষ্ কাময়াছে। অবশ্য এই প্রয়ের উত্তর পাইতে 
হইলে থ্াক্‌-খাখীনতা যুগের বিআান-সাধনার 
ধাঙগার মূল হুটি খুাজয়া দেখিতে হইবে লেই 
বুগে সমান্ধের সর্বস্তরে দেশাস্মধোধের : প্লাবন 
খলিয়াছিল। বিজ্ঞানীছাও : তাহার লা খিল 
ছিলেন, প্রতিভ।' তাগার আপন পথ খু'জিযা 
শাটিযাছিল। স্বাধীন ভারচ্তে নানা ছিকে সধানের 
জবক্ষন ঘটিযাছে। গার কারণ জবহী সমাজ" 
তাত্তিকের অঙলন্ধানের বিষ ।. ফলে (দখা 
হাইতেছে। বিজ্ঞানীদের কর্মজীবন ও অর্ছের, প্রতি 
হোক খাড়িহাছেবিজ্ঞানের প্রতি : দিও. হ্রাস 
পইয়াছে। এই দেশে বেকোন হড়কাজ করা 
ধা বাংকোম কাজের সমবদর পাওয়া 


ফেব্রুয়ারী, 1974] 


পারে, ভারতীয় বিজ্ঞানীর] এই বিশ্বাসটুকুও 
হারাইস্া ফেলিক্াছেন। অতি গৌড় দেশপ্রেমিকও 
বোধ ছত্র স্বীকার করিবে বে, নোবেল পুঃহাি- 
বিজপ্নী ডক্টর হরগোবিদ থোরানার প্রতিভা-- 
তিনি এই ক্েশে খাকিলে উন্মেষলাভ করিত না। 
ভারতীয় বিজ্ঞানীর! বিদেশকে স্বদেশ করিবার 
জন্ত বাাকুল, ধাহারা এই দেশে আছেন, তাহ।দের 
সাধনার ধারা পরকারী আমলাভঙ্েষ নিগড়ে 
বাঁধা । বর্তমান ভারতীয় বিজ্ঞান মুলতঃ সরকার 
শিক্ষজ্িত | দেশের কল্যাণে প্রযোজনমা ফিক 
(০০৭ 0:101)160) বিজাঁন-গবেধণায় সরকাী 
করৃত্ব অবশ্যই প্রয়োজন। কিন্তু বিজ্ঞানের প্রয়ো- 
জনে বিজ্ঞানণ-গবেষধার মাধাষেই মহৎ আবিষার 
সম্ভব ছইাথাকে। ফোন পরিকল্পবাবিদ্‌, রাষ্রেয 
কোন কর্ণধার ভীাছাদের নিক্মঘাকফিক নীতির 
নিগড়ে সেই শ্রেমীর গব্ষেণাপ ফরমায়েস করিবার 
ক্ষমতা বাথেন না। বিজ্ঞানীর খুশীমাফিক গবেষণা 
হইতেই মহৎ আধিহার জদ্মলাভ করে। গেই 
গবেষণার স্থল হুইল বিশ্ববিদ্যালয় । বস্ততঃ প্রাক" 
স্বাধীনতাধুগে বখন কোন সরকারী নিস্রিত 
বিজ্ঞানাগার ছিল না, আমাদের বিশ্ববিদ্াালয়গুলিই 
ছিল বিখ্যাত বিজ্ঞানীদের কর্মস্থল। আজ প্রার 
শতাধিক বিশ্ববিগ্তালর প্রতিঠিত হুইরাছে-_কিন্তু 
তাহাদের বিজঞান-গবেষণায় সরকারাঁ অর্থাসকুপ্য 
অত্যন্ত লীমিত। ওারতীক়্ বিজান-সাধমার ধার 
অব্যাহত রাখিতে হইলে বিশ্ববিস্াালগগুপির বিজাঁন- 
গবেষণার মান উত্নত করা প্রয়োজন। গবেষণার 
উপর সরকারী নিয়্রণও শিথিল করিতে হইবে! 
বিজ্ঞানীদের জীবনধারশের মান উপ্নয়নের প্রসঙ্জ 
অতীতে বু ক্ষেত্েই আলোচিত হইয়াছে, তাছা 
ছাড়া আর একটি পমশ্টার বিধগন হইল তরুণ বকা 
বিজ্ঞানীদের লইরা। এই দেশে যে তরুণের যিজানে 
ধথেঠ পারদশিতা দেখাইগাছেন, তীছাদেক জন 
চাকুরীর গ্ুযোগ ধর্তমানে শীগিত ছইয়। পড়িয়াছে। 
সরকারকে মনে রাখিতে হইবে যে, এই সংল গুকুগ 


ভারতীয় বিজ্ঞান-সাধনার ধারা 61 


বিজ্ঞানীদের জন্ত দেশ বদি কোন গযোগ দিতে 
না পারে তবে, সেই গ্গেশের সর্বাজীন উন্নয়নের 
আশা বিলুপ্ত চুইবে- মৌলিক বিজ্ঞানশ্গব্ষেণা পর 
গৌরব হইতেও দেশ বঞ্চিত হ$বে। 

বিজ্ঞাণ-্চর্চাঞ্স নীতি নির্ধারক কর্তাব)ভিরা অধুন। 
একটি ধুলা তুলিয়াছেন বে, ফলিত বিজ্ঞানকে 
বর্তমান ভাতে অগ্রাধিকার দিতে হুইবে। 
তাহাদের শ্মরপ রাখা প্রয়োজন বে, বিশুদ্ধ বিআনই 
ফলিত বিজঞাদের পথিকৎ। ফলিত বিজ্ঞানের 
বু মৌপিক আবিষ্কারের জনক নিঃসলোছে 'রামন- 
এফেক্ট”, যাহা বিশুদ্ধ-বিজ্ঞানের ফপল। এইঞ্প 
আরও বহু উদাহরণ দেওয়া যাইতে পাবরে। ভ্রাস্ত- 
নীতি অগ্গপরথ কনিলে আশাঞয়প ফল কোন 
ক্ষেত্রেই পাওয। সম্তব নহে। 

বিআন-্সাধনার ভাষ। সম্পকেও সজাগ 
ছইধার সময় আপিয়াছে। উদ্গিখিত আলোচনা- 
চক্রের উদ্বোধনী ভাষণে কেজীয মসত্রী সত ধদ নীয়ম 
ও ডর্টর পেন উভয়েই যাতৃভাষাঙগ বিজঞান-চা 
ক্ষেঞঙ্জে আচার্য সতোঙজনাথ বনুর অবদানের কথ 
শ্রদ্ধার সহিত স্মরণ কহিয়ছেন। শ্রীহব্র্ধনীপ্পষ 
আরখ উল্লেখ করেন বে, প্রধান মন্ত্রীর পৃষ্ঠপোধ" 
কতার আচার্ধ বসুর সম্মাননার জলন্ত একটি জাতী 
কমিটি গঠিত হইগাছে। উদার অন্ততম উদ্দেশ 
হুইল সর্বভারতীয় তিষ্তিতে মাতৃভাষাপ বিজঞানের 
ধ্যানধারণা জনগণের লাকগিধ্টে পৌছাইছ! দেওয়া | 

এই কমিটি নিশ্চগ্লই উল্লেধর্ষোগ্য কার্যক্রম 
গ্রচ্ছধ করিধেন। আমর] শুধু উহা "মরণ ফরাইথা 
দিতে চাই বে, শুধু জনপ্রিয় বিআনের গান 
নছে, পর্যন্ত সর্বস্তরে মাতৃভাধাই বিজ্ঞানের বাছুন 
হওয়! প্রয়োজন । আচাধ বন্গুর লমগ্র জীবনের 
এই উপলগ্ধিকে ফাঞ্জে লাগাইতে না পারিলে 
ভারতীক বিজাঁন*পাথনার ধার যে তাহা 
খাতাবিক পথ ছারাইয়া ফেলিবে-""এই কথা বিস্মক 


হইলে চলিবে না 
গুর্ধেজ্গুবিকাশ কর 





নিকোলান কোপানিকাঁদ__বর্তমান যুগের অগ্রদূত 


(500তম জন্মবাধিকী উপলক্ষে শ্রদ্ধাঞ্জলি ) 
(1473-1543) 
বৈভ্ভনাথ বনু 


বিজ্ঞানের অগ্রগতির ইতিহাশ আলোচন! 
করলে আমর! দেখতে পাই যে, এই অগ্রগতি 
হযেছে ধাপে ধাপে, কখনও নিরবচ্ছিন্ন অগ্রগতি 
হয় গি। একথা সাধারণভাবে বিজ্ঞানের সকল 
শাখা সনন্ধেই গ্রযোজা। কিন্ত সবচেয়ে বেশী 
প্রযোজ্য বোধ হুম জ্যোতিধিজ্ঞানের ক্ষেত্রে। 
আধুনিক বিজ্ঞানের এই শাখাটি যেমন ঝআআতি 
প্রাচীন, তেমনই আবার এটিকে বিজ্ঞানের 
নবীনতম শাখারপেগ অভিছিত কর! বায়। 
কারণ, আধুনিক পদার্থবিস্তা ও কারিগরিবিদ্যার 
নবম জ্ঞানের সফল প্রগোগ করা ভয় জ্যোতি” 
বিজ্ঞানের গেত্রে। বাগুবিকপক্ষে। জ্যোতি- 
বিজ্ঞানের প্রাচীনতম ধ্যান-ধারণা থেকে এর 
আধুনিকতম পর্যায়ের ক্রমবিকাশের যে সুদীর্ঘ 
ইতিছাল, তা নানাদিক থেকে চধকপ্রদ ও 
বৈচিআযমন্জ। নিকোলাল কোপ|শিকাস (1০ 
1839 (0০906121583) সেই ইতিগাসের এক 
জ্যোতির্ময় পুরুষ এক শভিধর মহানায়ক যে 
শৃধ ইহুদী দেবতা বশুয়্ার নির্দেশে অনাদিকাল 
থেকে পৃধিবী প্রদক্ষিণ করে যাচ্ছিল, কোপা- 
নিকাসের অমোধ ইঙ্গিতে সে হঠাৎ ভন্ধ হয়ে 
গ্রেল এবং তৎ্পরিবর্তে পৃথিবী অনন্তকালের 
জঙ্টে দুর্ব'পরিজ্ম! সুক্ষ করে দিল। 

ফোপানিকাসেন আবির হঞ্জেছিল ইতিহাসের 
এক বৃগসদ্ধিক্ণে। 1453 লীলে ভুকাঁবিজেতাদের 
সাতে কনষ্টার্টিনোপলের পঙনের পরে রী ও 
ঘোধান সাহিত্য, দর্পন ও বিজানের জাল, 
তাঁশার সারা ইউরোপে ছড়িয়ে পড়ে। কলে 


মধ্যযুগ গতান্গগতিক চিন্তাধারার পরিবর্তে 
মৌলিক চিস্তার প্রচার ও প্রসারের নুত্রপাত 
হয়। পঞ্চদশ শতাববীর শেষ লগ্ে (1492) নতুন 
জগৎ আমেধিকা! আবিষ্ষারের ফলে নতুন 
কর্মোন্ধয ও চিত্তার দিগন্ত বহু দুর প্রসারিত হয়ে 
পড়ে। ধর্মজগতে মার্টিন লুখায়ের সংস্কার 
আন্দোলন সনাতন বাজকীয় লামাজ্যের ভিতে 
কাটল ধরিয়ে দ্বেয়। এই সর্বব্যাপী নতুন চিন্তার 
ঢেউ তত্কালীন বৈজ্ঞাশিক চিন্তাধারাকেও 
প্রবলভাবে আলোড়িত করেছিল। এই 
আলোড়নের প্রথম প্রবাহ্ই এসেছিল গ্্যোতি- 
বিজ্ঞানের ক্ষেত্রে, কোপানিকাসের প্রতিভার 
আলোকিত পথ বেছে। 

পিখাগোরান (55989:83) থেকে কোপা" 
মিকাসের পূর্ববর্তাঁ কাল পর্যন্ত প্রা ছু-হাজার 
বছর যাবৎ জে)াতিবিজ্ঞাশের ক্ষেতে কো 
নুন মৌলিক চিন্তার আবির্ভাব হুন্বনি। এই 
সুদীর্ধকালের মধ্যে বন অনেক জ্যোতিধিজানীর 
আবিঙাব হয়েছে এব, জ্যোতিবিজানের উপর 
অনেক কাজ হয়েছে। গ্রেটো (215০), 
আরিষ্টোটল (4১:29:90), হিপারকান (17298 
০08), টলেশী -020915005) প্রযুখ মহাষনীষিগণ 
ভাদের তিস্তায় এবং কাজে বিজ্ঞানের এই 
শাখাটিকে বথেষ্ট লম্বদ্ধ করেছেন। কিন্ত এক 
হিসাবে এদের প্রত্যেকের চিন্তাই ছিল গতাছ- 
গৃতিকতায় লীঘাবন্ধ। এর! প্রতোকেই প্রথিবীকে 


* গণিত বিভাগ, বাদবপুর বিশ্বধিষ্কালয়, 
কলির 'তা-34 


ফেকরারী, 1971] 


খঙ্ছের মিশ্টল কেজন্ধণপে কঙ্জানা করেছেন। 
অদেরই সমাস্তরালভাবে অপর একদল প্রো 
চিন্তাধারকের অবনত আবিাব ঘটেছিল, ধাদের 
অনেকে বিশ্বাস করতেন যে, পৃথিবী স্থিছ নক়্। 
নিজ অক্ষে্ উপর ঘূর্ণায়মান এবং হুর্ধের চার- 
দিকে আবর্তনলগীল। ফিলোলাউল (210110193), 
ছ্রাক্তিভিল (061:50161068), আগিষার কাস 
(811505101৭) প্রমুখ এদের অভ্ভতম। কিন্তু 
শেযোক্ক এই মনীধীঙ্গের বাস্তব মতবাদ জন- 
সধারণের মনে কখনও দাগ কাটতে পায়ে ছি, 
সস্ভবতঃ ছুটি কারপে। প্রণমতডঃ, এই মতবাদ 
বাইবেলে বর্ধিত বিশ্বগ্ছগৎসব্বস্বীষ মতবাদের 
সঙ্গে মেলে না। দ্বিতীয়তঃ, পিখাগোরাস, 
প্লেটে! এবং আরিষ্টোটল ছিলেন তৎকালীন 
চিন্তাজগতের মহানায়ক | তাদের বিরুদ্ধ মতবাদ 
মাহুষের মনে স্থানলাতে সক্ষম হয় নি। ছু হাজার 
বছর যাবৎ একটা ভ্রান্ত তথ্য মানুষের চিস্তা- 
জগৎকে আচ্ছর করে রেখেছে। এরকম ছ্িতণয় 
নজীর বিজ্ঞানেয় ইতিহাসে আর খুজে পাওয়া 
য।ষে না। বুগাস্তপঞ্চিত এই অধ্চকাঁরের মাঝে 
আলোকবঠিক! নিদ্বে আবিভূ্তি হলেন আধুনিক 
চিন্তাধারার অগ্রদূত নিকোলাস কোপারিকাপ। 
খুব সম্ভবতঃ ব্যাবিলোনীয়ে্াই সর্থপ্রথষ 
বৈজ্ঞানিক প্রপ/লীতে গ্রঙ-নক্ষত্রাদির বিষে 
গভীরভাবে চিন্তাভাবনা করেন, এবং পর্যবেক্ষণের 
সাহায্য অনেক কথ্য আবির করেন। কিন্ত 
গ্রীক চিত্তানারক পিখাগোরাসই খ্বঃ পৃঃ 6 
শতাবীতে বোখ হয় পর্ষপ্রথম অনুমান করেন 
বে, পৃথিবী গোলাকার এবং দৃমান বিশ্বচরাঁচর়ও 
গোলাকান্ধ। কিন্ত পৃথিবী যে বিখের শির 
কেজবিনু। একথা পিখাগোয়াস অন্াত হলে 
মনে করতেস। লসমঞ্স বিগোলকটি (0:516805] 
৪1১816) জোযাতিকফদের নিতে একটি অন্যয়েখায 
উপর পাতি 2% তফাত একধান্ব কছে খুদে 
ভাসে । খই অগবেখাটির অবস্থান শিপ পৃথিবীর 


জিকোলাস কোপার্জিকাল--.বর্তম।ন যুগের আগ্রতুত 


6? 


মধো। ফলত:, জ্োতিফদের উদয় এবং আন্ত 
গাখন, গুর্ফোগি্গ এবং হুর্ধাপ্ের সঙ্গে দিনরাহির 
আনাগোনা ইত্যাগি খটনাবলী সাধারণ নিক্নষেই 
দেখা দের! এই ছিল পিখাঁগোরাসের বিশ্ব- 
তদ্্বের (0০957101085) মুগ ধারণা । পাত্র বছর 
ধরে '্সাকাশে হুর্ধের গতিবিধি অবস্ঠ অপেক্ষাকৃত 
জটিল। কারণ, আপাতঃদৃষ্টিতে ছুর্ধের আছি 
গতি ছাঁড়াগ্ড একটা বাবিক গতি আছে। এই 
জটিল শৌরগতি ব্যাখ্যা করবার জন্কে পিথা- 
গোরাপ ছুর্যের একই সঙ্গে ছুটি অক্গকেন্ত্রিক 
গতির অনুমান করেছিলেন। প্রথমটি হচ্ছে, 
সমগ্র বিশ্বগোলকের সঙ্গে পুর্ধের আহিক গভি। 
এস সঙ্গে তিনি যেগ কমেছিলেন ছিতীয় আর 
একটি ভিন অঙ্ষকেন্ত্রিক বাধিক গতি। শর্ট 
ছুষ্টি পরস্পর স্বাধীন অক্ষকেন্ত্িক গতিই শুর্ধের 
জটিল গতিকে স্বপাক্সি্ করে বলে পিখাগোরাস 
বিশ্বাপ করতেন। এই একই যুগ্জির মাধামে 
চক্রে এবং গ্রন্থাদির জটিল গতির ব্যাখ্যা 
ধুজেছেন ঙিনি। ভাবতে আশ্চর্য লাগে ধে, 
পরবর্তী কাজে প্লেটো, আরিষ্টোটল এবং টলেখির 
মত মগাচিষ্তানরকেরাও গ্রহার্ির গতি বিষে 
পিখাগ্োকানের অপেক্ষা ভিপ্রতর মৌলিক কোন 
র্যাখ্যা দিতে পারেন নি এবং কোপাশিকাসের 
আগে পর্বস্ত 2090 বছর যাবৎ খিশ্বগতীগগ এই 
ভ্রান্ত ধারণা মানবজাতির চিস্তাকে আচ্ছন্ন কহে 
রেখেছিল। 

পিখাগে(রাসের প্রান 200 বছর পরে প্লেটো 
এবং তায় ছাত্রের বে বিশ্বতত্তবের ধারণ দিয়েছেন, 
তা মূলতঃ পিখাগোরাসের তত থেকে বিশেষ 
ভিগ্ন ছিল না। কিন্তু তার গ্রহদের বিপরীত 
গতি (06৮:0£790৩  10011078) এবং সৌর 
কান্তি €5:০112010) খেকে ভাগের বিডি চুর 
প্রীতি বিধন্ছে চিত্তী-ভাধনা কষেছেদ। বা 
পিখাগোরাসের তি সরল বিশ্বতদ্ের মো 
আবহর। দেখি দা। প্লেটোনিয়ামদের বিশ্বততুও 


64 জান গ বিজ্ঞা 


পৃথিবীকেজিক এবং এঙাদির জটিল গতিকে 
তারা এক!বিক খব়ী্ গতিষ্ব সসষ্টি হিপাবে 
খ্যাথা! করবার চেষ্টা করেছেন। এভাবে ব্যাখ্যা 
করতে গিয়ে প্রেটোর শিল্প ইউডোকান (৫- 
4০01709) বিশ্বের যে জ্যামিতিক চিআটি একেছেন, 
ত1! অতি অনুত।| তার মতে, প্রতিটি প্রাহ 
একটি আদর্শ গোলকের (10681 9217876) নিরগিয় 
তলে (£.20909£) আবন্িত। এই গোঁলকগুলি 
এমনভাবে লাজানে! যে, প্রথমটির মেরুন ছ্িঠীর 
গোলকের গায়ে স্ববস্থিত, ছি তীয়টির মেদ 
উীকষ গোপকের গায়ে ইত্যাদি এবং এই 
সব গোঁলকের কেজবিন্দুই পৃথিবীতে অবস্থিত। 
এখন বদি সব গোলকই সধভাবে তাদের 
অক্ষের চারদিকে ঘুওতে থাকে, ছাহুলে বিছিন্ন 
গোঞকের গতির সম পিছে এক একটি জ্যোতিক্ষের 
গতিকে প্রকাশ কর! বান্। খধাইভাবে হুর্য ও 
চঙ্র প্রতোকের গতিকে ইউঞোক্সাপ তিনটি 
গোলকের গতির সমগ্রিরপে ব্যাখ্যা করেছেন। 
এভাবে মোট 27টি গোলকের সাহায্যে ইউ- 
ডোজাস শুর্ধ, চা ও গ্রঙদের জটল গতির 
জনেক (কিছুই ব্াখ্যা! করতে সবর্থ হযজেছিলের 
বং তার এই ব্যাখ্যা তৎকালীন ও পরদর্জ 
কালের ধ্হ বিদঞ্ধগনের কাছে সম্পূর্ণ গ্রহণযোগ্য 
মনে হয়েছিল। 

গ্রেটোক শিল্ত আরিষ্টোটল ছিজেন বিশ্বের 
সর্বকালের সেরা মশীষাদের অগ্রগণ্য । শ্বভাবতঃই 
বিশ্বতত্ব এবং বিশ্বের ভৌত প্রকৃতি সন্বদ্ধে তার 
একট! দ্বচিদ্তিত মতবাদ থাকবে। তার মঞ্জে। 
পৃথিবী একটি গোলক এবং তা বিশ্বের দিত 
কেপে জঅবস্থিত। বিশ্বের অপরাপর যাবতীয় 
ব্য্কনিচয় পৃথিবীর সঙক্ষে সষকেন্রিক বিভিন্ন 
গো।ল।+14 (খে।কাকেঞ (51১1১670581 81610) উপর 
পর পর সানানে! বঞেছে। পৃর্বীর নিকটদথ 
খোলকের উপর চাদের এবং দূরঙ্ঘ খেলকের 
উপর নক্ষ্ররার্জির অবস্থান। পৃর্থবী ও উদের 


[ 275 বর্ষ: 2 নংখ্য। 


মধাবন্কা অঞ্চলকে বিডি শুরে পুর্বকরে রেখেছে 
মথাক্রমে দল, নাসু এবং খগ্চন। চাজগোলকের 
পরে ক্ষণে সাজালে! রয়েছে বিভিঙ্ন গ্রহের 
গোপক। ধঞ্চলি পরস্পয়ের সক্ষে সংযুড় এবং 
প্রত্যেক গোপকের গতি তার মধ্যবর্তী নিকটতম 
গোলকের গতিকে প্রভাবিত করে। আরিক্টোটলের 
বিশ্বপরকতিতে চাঞ্রগোল্কটির অবস্থান অনি 
গুরুদ্পু্থ | কিনি বিশ্বাস করতেন যে, চাজ- 
গোলকের মধাবতা সকল স্বান মাটি, জল, বায 
এবং আগুন--এই চারটি বসন্তে পরিপুণ? উপরস্ত 
এই বন্তচতুইিয়ের যে কোন একটি অপর একটিতে 
দ্ূপাস্তরিত হতে পারে। কিন্ত চাআগোলকের 
বাইরের সমস্ত স্থান পুর্ণ কে পরেছে একটি 
পঞ্চম বভ্ভ। এই বস্তবটির শাষ দিয়েছেন [৩শি 
ঈখার (72557)। ঈখার স্থান পন্রিবর্তন করতে 
পারে, কিন্ত এর রূপাত্তর সম্ভব নয়। আপি 
&োটরল ছিলেন মহা! দার্শনিক। বিশ্বপ্রক্কাতির 
ব্যাখ্যার মধ্যে তিনি দার্শনিক তন্বেছ একটি 
চমত্কার ছবি উপস্থাপিত করেছেস। হিন্দু 
দর্শশোজ্ দেহ ও আ]ত্বার পার্থকোর অচুন্ধপ 
একটি কন] অমর আরিক্টোটলের উপগ্িউজ 
বিশ্বতত্বের ব্যাথ্যার মধ্যে খুজে গাই। এখন 
আমর) জানি যে, আগিঞ্টোটলের বিশ্বপ্রক্কতির 
কঞ্পনার সঙ্গে বান্তবের কোন ফিলনেই। কিন 
তাঝতে আশ্র্য লাগে যে, ভার কল্পিত আঅপরি- 
বর্তণীর় ঈখার জগতের নাঞ্তব অভিত্ব সছছ্ছে 
প্রায় 2000 বছর যাব মাজুষের মনে €কান 
নিগ্গ জাগে বি। সধদশ শতাব্দীতে বৈল্ভঞা।নকের! 
যখন ধৃ্কেতুকে গাগনিক (05158:591) বন্ধ 
ছিলাৰে চিনতে পারেন এবং মহোজ্জন নতুল নগর 
(94706737959) আবিক্ষার কগেন,। তৃখনর কেলি 
ছাাঙিঞ্ঠোটলের অপারন্নীক্ক ঈখাকক্গতের 
জিত দরে, ধীরে জান্তছিত হলে! 

পৃিবীকেজিক নিশগততবের ব্যাথ্য। পরিপুর্ণক। 
পা্ধ করেল উবে হাক্ষে। উললেমীর আবিান 


ফেক্মারী, 1974 ] 


হথ্েছিল খুরীগ দ্বিতীয় শতাব্দীর প্রথম দিকে 
মিশরের আলেকজান্শরিক্স] মহানগরীতে । তার 
রচিত মহাগ্রন্থ আল্ঘাগেষ্ট (41705£656) পরব 
1400 বছর যাবৎ জ্যোতিবিজ্ঞানীদের কাছে 
বাঈবেলম্বরপণ ছিল। টলেমীর প্রদত্ত বিশ্বতত্তে 
গ্রহের গতি ও অবস্থানবিষপ্তক দৃশ্ঠমান ঘটনাবলীর 
এমন গু এবং সন্তোষজনক ব্যাখ্যা দেওয়া 
হয়েছে যে, পরবত্ত্ণ 1400 বছর বাঁবৎ জ্যোতি- 
বিআাঁনীদের কাছে তা অভ্রাস্ত মনে হয়েছে। 
গ্রঙ্থের গতি ও অবস্থান সম্থদ্ধে একটু গভীরভাবে 
চিন্তা করলে ছুটি ব্যাপার স্পইতঃ ধর! পড়ে। 
প্রথমতঃ, পৃথিবীর সাপেক্ষে গ্রহগুলির অবস্থান 
সারা বছর ক্রমশঃ বদলায় এবং একই সঙ্গে 
তাদের উজ্জ্পতার হ্রাপ-বৃদ্ধি ঘটে ; অর্থাৎ পৃথিবী 
থেকে কোন একটি গ্রঙ্থের দূরত্ব সমান থাকে না, 
কক্ষপথে তাঁর চলবার সঙ্গে সঙ্গে এই দুরত্ব 
বদলায় । দ্বিতীরতঃ, পৃথিবীর সাপেক্ষে শ্রহদের 
গতি কখনও ঘড়ির কাটার বিপরীত দিকে 
(সম্দুখ গতি বা [01:20 £000102)» আবার 
কখনও এই গতি খড়ির কাটার দিকে (বিপরীত 
গতি বা 2০0:০9৪:০৭০  0808100)। দৃশ্যমান 
এই গতির প্রক্কতি মুঠুভাবে ব্যাখা! করবার অন্তে 
টলোঁষ প্রত্যেক গ্রহের গতিকে ছুটি বুভভীর় 
গতিয় যুগ্মকাল হিপাবে কল্পনা করেছেন। তার 
মতে, প্রতোক গ্রহের একটি বু্ান (8291০5০15) 
বরাধর নিজস্ব গতি আছে, আর সেই বৃত্তার 
কেশ্রটি আবার একই সঙ্গে একটি বুতপথে 
(06£5:576) পৃথিবী পরিক্ষমা করে। এখন 
বাদ বৃতাহ্ছতে গ্রছের গতি এবং বুত্াচুর 
কেশ্রটির প্রদক্ষিণ গতি-উ্য্নই সম্মুখ গতি হস, 
তাহলে এই উভদ্ব গতির যুগ্ম ফল পৃথিবীর সাপেক্ষে 
কখনও সম্মুখ গতি এ২ং কখনগু বিপরীত গন্ডি- 
রূপে প্রতিভাত হবে এবং পৃথিবী থেকে গ্রহটির 
দুরত্থেরও হ্বাস-সুদ্ধি ঘটবে! এ (ক) নং চিত্র থেকে 
এই সমগ্র ব্যাপারটি হুম্বরতাঁবে যোঁঝা ধেতে 
2 


নিকোলাগ কোপানিকাস--বর্তনান যুগের অগ্রুত ৫১ 


পারে। ধরাঘাক, একটি প্রধান খ্রর্থ (906:201 
21281) 0, 0-কেশ্তিক বুষ্তাক্ছতে ঘড়ির কাটার 
বিপরীত দিকে গতিশীল। বৃতাঙ্ছর কেঙ্জে ০ 
আবার বুত্তপথে ঘড়ির কাটার বিপরীত বরাবর 
পৃথিবী গুদক্ষিণ করে। তাছলে এই গ্রছটির 
পৃথিবী প্রদক্ষিণ পথে এর গভি পৃথিবীর সাপেক্ষে 
কখনও সন্দুধ গতি এবং কখনও বিপরীত গতি 
হবে। আবার পর্ধবেক্ষণে দেখা বায় বে, বছদের 
কোন সমস্বেই সুর্ধ থেকে বুধ এবং শুক্র গ্রছের 
দূরত্ব বথাক্রমে 23 এবং 49 ডিগ্রির বেশী হয় 
না। এই দৃহমান ঘটনার টলেমীর ব্যাখ্যা এই 
ষেঃ বুধ বা শুক্রের বুস্তান্ুর কেজা ০ সর্বদা 
পৃথিবী ও নুর্যের সংযোজক সরলরেখার উপর 
থাকে। কাজেই ওই গ্রন্বরকে পূর্বে থেকে খুব 
বেশী দুরে কখনই দেখা বাবে না। 

অতএব আমরা দেখতে পাই যে, টলেমিন 
ভূকেজ্মিক বিশ্বতত্ভে হুর্ধ চস্র-গ্রহ্মগ্ডলীর গতি 
ও অবস্থানাদির একটি স্বয়ংসম্পূর্ণ সন্তোষজনক 
এবং সুষ্ঠু ব্যাখ্যা রয়েছে । এই ব্যাখ্যা এত 
পরিষ্কার এবং সন্তোষজনক যে, পরবতাঁ 1400 
বছর বাবৎ এর সত্যত। লম্পর্কে কার মনে 
কোন প্রথধধ জাগে নি। পিখাগোরাপ এবং 
গ্রেটার গ্রছজগতের ব্যাখ্যা ছিল দত্যন্ত সরল 
এবৎ অসম্পূর্ণ [1 খে) নং চিত্র] তাতে 
গ্রথাদি' সম্পর্কে দৃশ্টযান ঘটনাবপীর অনেক 
কিছুরই ব্যাখ্যা ছিল না। তাদের মতে, প্রতিটি 
গ্রহ একটি নিখৃৎ বুতে 'অথব! কয়েকটি বুতাকার 
গতির সমষ্টি্পে পৃথিবী পরিক্রম৷ করে। পৃথিবী 
থেকে তাদের দূরত্বের হ্রাপ-বৃদ্ধির বা বিপন্ীত 
গতির কোন সন্তোষজনক ব্যাখ্যা তাতে নেই। 
আরিষ্টোটলের তত্ব এই তত্ব থেকে মুলতঃ ভিন্ন 
নক়। তবে তোৌত জগতের প্রকৃতি (2০0৩ 
০6 101081021 1001656) সব্থদ্ধে ভার বযেমতবাদ 
পুর্ব অন্থচ্ছেদে ধর্িত হয়েছে, তা ছিল সম্পূর্ণ 
ভার নিদ্ষন্ব পরব প্রান ছুই শতাব্দী যাবৎ 


66 ভ্যান $ বিজ্ঞান 


গ্রীক জ্যোতিবিজ্ঞ।শীর তাদের বিশ্বততে গ্রহদের 


দূরত্বের হ্রাস-বৃদ্ধি এবং তাঁদের গতির বিভিন্ন 
হার প্রভৃতি খটনাবপ্টীর 


বাখ)! করবার চেষ্টা 





] (ক) নং চিত্র £ টলেমীর ভুকেন্ত্রিক বিশ্বজ্গৎ। 


করেছিলেন। এদের মধ্যে এপোলে।নিয়!স 
(4১0011017105) এবং হিপারকাসের (11797791003) 
নাম বিশেষ উল্লেখযোগ)। গ্রহদের দৃংছের এই 
হ্রাস-বুদ্দি এবং বিপরীত গতি এই সকল জ্যোতি- 
ধিজ্ঞানী ছুট বিভিন্ন জ্যাখিতিক উপায়ে বাখা 
করবার চেষ্টা করেছিলেন। ] (গ) নং চিত্রে, 
৮ গ্রহ একটি চলমান বিন্দু 0-কে কেন্দ্র করণে 
একটি বৃত্তাকার পথ পাশ্িক্রমা করে এবৎ 0 
চলমান বিন্দুট স্থির পৃথিবী চু কে অপর একটি 
বৃত্তপথে পরিক্রমা করে। এই চিতটি কোন 
প্রধান গ্রহের (১০৪1০110 012750 গতির 
মোটামুটি সন্তোষজনক ব্যাখ্যার জন্তে বিশেষ 
উপযোগ্নী। আবার দুর্সত্বের হ।স-বৃছ্ধির অন্ত আর 
একভাবেও ব্যাখা পাওয়া যেতে পারে 1 (ঘ) নং 
চিত্র থেকে । এই চিত্রে 7 গ্র্ছটি একটি স্থির 
বিন্ু ০-কে বৃত্তাকার পথে পরিক্রমা করে। এই 
স্থির 0 বিন্দুটি স্থির পুিবী 2 থেকে খানিকটা 
দুরে গবাস্থিত এবং চ0 রেখা শ্বির নক্ষত্রদের 
লাপেক্ষ একটি নিদিই দিক চিষ্তিত কয়ে। 


| 27তম বধ, 2 সংখ্যা 


হিপারকাপ এই জ্যামিতিক চিত্রের সাহাধ্ে 
পৃথিবীর চরদিকে শুর্ধের আপাত্ঃ বাধিক 
গতিকে ব্যাখা করবার চেষ্টা করোছলেন। 





] খে) নংটিত্র 
পিখাগোরাল এবং প্রেটোর 
অতি সরল তৃকেশ্রিক বিশ্ব । 


এখানে ৮ গ্রহটির কক্ষপথ একটি উৎকেনম্ত্রিক 
বৃত্ত (ঘ০০61)0050 ০1:01) । বিভিন্ন খু দৈর্ঘ্য 
থেকে হিপারকাঁল বৃত্তের উৎকেক্জিকতা অথাৎ 
0, £ 04 এই অন্ুপাতটির মানও নিণয় 
করেছিলেন। পরব কালে টলেমি৪ লুর্ষের 
বাধিক গতি ব্যাখ্যা করবার জন্তে হিপারকাসের 
এই জ্যামিঠিই গ্রহণ কখেছিলেন। কিন্তু গ্রছদের 
গতির নু ব্যাখ্যার জনে ] (ক) নং চিত্রে 
বরিত টলেমীর জ্যামিতি ছিল আনেক উদ্নহ 
এবং নাঁনাদিক থেকে প্রান নিখুৎ। কিন্ত 
দুর্ভাগ্যবশতঃ বিশ্বের শ্থির কেন্দ্র পৃথিবী, এই 
্রাস্ত ধারণাই ছিল সমগ্র টলেমীন্গ তত্র মুগ 
ভিত্তি! 

আগেই আমর বলেছি যে, স্থির পৃথিবী- 
কেন্ত্রিক বিশ্বতত্বের পাণ্টা জার এক ধরণের 
বিশ্বতত্বের. ধারণা প্রাচীনকাল থেকেই একদূল 
জোতির্িজঞানীর আলোচনায় স্বীনলাভ করেছিল। 
এই তত পৃথিবীকে বিশেষ কোন মরধাদার 
আপন দেওয়া হয়নি। এই মতাঙ্বাদী পৃথিবী 


ফেব্রুয়। রী, 1974 ] 


স্থির নর, ঘৃশীকমান ও আবর্তনলীল এবং সে 
বিশ্বের কেশ্ত্রেও অবস্থিত নয়। এক্প তত্বের 
প্রাপীনতম প্রবন্তা! সম্ভবতঃ "গ্রীক জ্যোতি- 
বিজ্ঞানী ফিলোলাউস। তার' বআবির্ভাবকাঁল 


0৪৮ 





1] (গ)নং চিত্র: হিপার+(স-বশি 5 ভুকোন্রিক 
বিশ্বঃ ০ বিন্দুটি চলমান। 


খ: পুঃ পঞ্চম শতাক্ীতে। ভার প্রতিষ্ঠিত 
বি্বতত্বে যদিও পৃথিবী গতিশীগ, কিন্ত এর 
বাকী সব্টুকুই অতি অবাস্তব কল্পনার উপর 
গড়ে উঠেছে। ফিলোলাউসের ধারণার পৃথিণী 
প্রতি 24 ঘণ্টা একবার করে পশ্চিঘ থেকে 
পূর্ব দিকে একট! কেজীয় অগ্নিগোলক্ষের (০8091 
816) চারদিকে এমনভাবে খুরে আপে যে, এর 
জনবসতিপুর্ণ গোঁলাধ সর্বদাই এই অগ্নিগোলকের 
বিপরীত দিকে থাকে! কলে মানুষ কখনও 
এই অগ্নিগোলকের সাক্ষাৎ পার না। উপরষ্থ 
ফিলোলাউপ পৃথিবীর ঠিঞ্জ নীচেই পৃথিবীর লঙগে 
পমগতিগীগ একটি প্রতি-পৃখিবীর (0০096. 
8319) অবস্থান কল্পনা কষেছিলেন,। বার ফলে 
প্রতিপা ব্ন্ফৃ (2১106100৩95) থেকেও কেত্রীয় 
কসিগেরলকটিকে': দেখা 'অন্তব নপব): ফিশো- 


নিকোলাস কোপান্সিকাস__বর্তমান যুগের আগ্রেদূত 6? 


লাউসের এই তত পৃথিবীর গঠি অনেকট। 
চাঁদের গতির মত। আমরা জানি, চাঁদ পৃথিবীর 
চারদিকে প্রতি চাশ্রমাসে একবার করে এমন- 
ভাবে ঘোরে যে, তার একই গোলার্ধ চিরকাল 


) 
ৃ 
] 
7 


টি টির ইিিজলিটা বল কল ওক রনী এপি পাদ এপ ৮০ ৮ 828 টু 
রি 1 ট 
| | | | 
হ্‌ 
শ 
সি 


্‌ 
? 





উঃ 
সস 


| (ঘ) নং চিত্রঃ. হিপারকাস-বণিত 
বিশ্বের দ্থিতীয় ব্যাখ্যা; এখানে 0 বিল্দুটি 
স্থির এবং 20 শরলরেখার একটি শির্দি 
পিক ছুচিত করে। 


মাহযের দৃষ্টির আড়ালে থাকে । পৃথিবীর আহক 
গতির ফলে যে সব ঘটন। দৃষ্টগোচও হয়, পৃথিবীর 
প্রতি 24 ঘন্টান্ছ কেস্ত্রীর অগ্নিগোলকটিকে 
পরিক্রমার ফলেও অনুরূপ ঘটনাবলী প্রত্যক্ষ 
করা বাবে অর্থাৎ দিনরাত্রি হবে এবং বিশ্ব 
গোলকটকে প্রতি 2 ঘন্টার একবার কছে 
ঘুবতে দেখা যাবে। উপরস্ত, পৃথিবীর এই 
কক্ষধপথটর ব্যাশ বশি চাদ, শুর্ধ এবং গ্রহ- 
নক্ষত্রার্দির দূরত্বের তুলনা খুবই ছোট হন্গ, তবে 
এই নব প্র্োতিক্ষের আকারের কোন তারতম্য 
বা দুরবর্তাঁ নক্ষত্রের কোন লঙ্ঘন (79181188) 
বোঝা বাবে লা। ফিলোলাউসের তত্বীছ্ধাী 
কেস্ীর অমিগোলকের চারধারে পৃথিবীর কক্ষ" 
পথের পরে ক্রমান্বয়ে সাঙগগানো পয়েছে চাঁদ, 
দুর্ধ এবং প্রহদৈর কক্ষপথ অব বিশ্বের শেষ 


68 


সীমানায় রয়েছে স্থির নক্ষত্রদের বুকে লিয়ে 
বিশ্বগোলকটি। 


পরব কালে পিরাকিউজের হিকেটাশ 
(1710555 06 95180056) আবহ পণ্টাসের 
হিরাক্রিডস (7361920151065 ০? 70090105) 


প্রসুখ গতিশীল পৃথিবী তত্ত্বের প্রবস্তাগণ ফিলো- 
লাউসের তস্তকে আরও নানাদিক থেকে উরততর- 
রূপে ভাববার চেষ্কা করেছিলেন। প্রথমতঃ, 
কেন্দ্রীয় অগ্নিগোলকের চারদিকে একাট ক্ষুদ্র 
কক্ষপথে 24 ঘণ্টার পৃথিবীর আবর্তনের পরিবর্তে 
তাঁর! কম্পন! করেছেন যে, অশ্িগোলকট পৃথিবীর 
মধ্যেই অবস্থিত এবং পৃথিবী তাঁর নিজ অঙ্গের 
উপরই প্রতি 24 ঘণ্টায় একবার করে ঘোরে। 
নিজ অক্ষের উপর পৃথিবীর ঘূর্ণনের তাদের এই 


ঠা 





ও (ক) নং চিত্র ঃ গতানুগতিকভূকেজ্রিক 
বিশ্বজগৎ ৷ 


কল্পনা, সেদিন এনে দিয়েছিল জ্যোতিবিজ্ঞাঁনের 
অগ্রগরত্তির পথে এক খিপাল পদক্ষেপ। এতে 
ফিজোলাউসের তত্র গুণাবলী বজানর রেখে 
তার ক্রটিগুলি বর্জন কর! সন্তব হয়েছে। কারণ 
এতে একদিকে যেষশ ধিনরাজি, উদয়-অত্ত 


ভান ও বিজ্ঞান 


[ 27তম বধ, 2য় সংখা 


প্রস্কৃতি দৈনন্দিন ঘটনাবলীর হু ব্যাথা! রয়েছে, 
অপয়দিকে নিকটবত জ্যোতিক্ষদের আক্ঘতন এবং 
দূরবর্তী পক্ষব্রর্গের অবস্থানের তারতম্য খিষন্বে 
বে সন্দেহগুলি ফিলোলাউসের ব্যাখ্যার মধ্যে 
নিহিত ছিল, সেগুলি দুরীভূত হর়েছে। হিরা- 
ক্লিডিসের ব্যাখ্যার অলর এক উল্লেখযোগ্য বিষয় 
এই ধে, বুধ এবং শুক্র গ্রহছরকে তিনি শৃর্ষের 
চারদিকে 'আবর্তনশীল বলে বুঝতে পেরেছিলেন । 
কাজেই এই তত্ব সনাতন পৃথিবীকেশ্ত্রিক বিশ্বতত 
[2 (ক) নং চিত্র] থেকে অনেক ভিপ্ন। কিন্তু 
মনে রাখতে হবে বে, হুর্ধকেশ্থ্িক গ্রছত্গতের 
কল্পনা এই তবে ছিল না। এই তত্তবানধায়ী 
পৃথিবী নিজ অক্ষের উপর ঘূর্ণায়মান এবং বুধ ও 
শুক্র গ্রন্থ শুর্ধকেন্দ্িক কক্ষপথে আবর্তননীল। 





2 খে)নং চিত্র £ হিরাক্রিভিস-বশিনত 
ভূকেজিক বিখজগত্। 


কিন্ত আবার শুর্ধ, চাদ এবং অন্তাত গ্রহগুলি 
মৃততীর পথে পৃথিবী পরিক্রমানীল [3 (খ) নং চিত্র ]। 
কাজেই এই গ্রহজগত প্রায় 2000 বছর পরব্ত 
টাইকে! আ্রাহীর (15০5০ 8:৪1) খ্রহজগতের 
সঙ্গে তুলনীয়। টাইকোনর গ্রহজগৎ সুলবঃ' 


ফেরারী, 1974 ] 


হুর্ধকেন্সিক। পৃথিবী ছাড়! অপর সকল গ্রহ- 
গুলিকেই তিশি সুর্যের চারদিকে আবর্তনশীল মনে 
করেছেন। কিন্তু তার মতে, চাদ এবং সুর্য 
ঘৃতীর় পথে পৃথিবী পরিক্রমাশীল [৫ গগন) নং চিত্র )। 





টাইকো ব্রাহীর বিশ্বজগৎ্। 


2 (গ) নং চিত্র £ 


নিকোলাস কোপারিকাস-_বর্তমান যুগের অগ্রদ্ধুত 69 


জগতের “বটুকৃষ্ট তাঁর নিজন্ব কৃতি! কোন খাঁর 
করা তত্কে কিছুটা উদ্গত রূপ দিয়ে ভার 
বিশ্বতত্ব জন্মলাভ করে নি। প্রাপ্ন 1600 বছর 
ঘবৎ এই তত্বের প্রথম এবং শেষ প্রবক্তা 





আরিষ্টারকাসের 
সর্যকেশ্থিক বিশ্বজগৎ। 


2 (খ) নং চিত্র ঃ 


উট সুর্য, ৫ চে, 5 সৃথিবী . বুধ, ক শুঞ ৩ সঙ্গল জ বৃহএি,স শনি 


কিন্তু ত্রীক যুগেই হুর্যকেশ্রিক গ্রহজগতের 
শার্থক বূপার়ণ ঘটেছিল মহান জ্যোতিবিজ্ঞানী 
আরিষারকাঁলের (১0525101005 06 9520809) 
বিশ্বতত্বের ধারণায় [2 ঘে)নং চিত্র )। 'আরি- 
্ারকাঁসের আবির্ভাব হবেছিল খৃঃ গৃঃ তৃতীয় 
দশকের গোড়ার দিকে । ঙিনি ছিলেন মহা" 
বিজ্ঞানী আঁকিমিডিসের (4১:0131205955) সম- 
সামঙ্কিক। সে যুগে ছুর্ধকেজিক গ্রহজগতের 
নিখুৎ্খ ধারপা আতিষ্টীরকাস কিভাবে পেয়েছিলেন, 
তা এক পরমাশ্চর্ষের বিষস্ব। প্রতিভার গ্বচ্ছ 
আলোর উদ্ভতাপিভ সত্যের লঙ্গে তিনি মুখাগুখি 
পরিচয় লা করেন। এই ব্যাপারে ভার কোন 
গুর্বহূধী ছিলেন ন1। ভান গুর্ঘকেজিক গ্রন্থ 


ছিলেন তিনি নিজে। 1600 বছর পগ্ে 
কোপাশিকাস আবার তার নিজস্ব ভঙ্গীতে এই 
তত্বকে পুনঃপ্রতিষ্ঠিত করেন। আরিষ্রারকাঁসের 
হুর্কেজ্জিক গ্রহজগতের ধারণ গতাচ্গতিক 
ধারণা থেকে মূলতঃ এত আকাশ-পাতাল তফাৎ 
যে, তৎকালীন এবং পরব্তা চিস্তানাক্কক এবং 
বিজ্ঞানীর] ভার তত্বের তাৎপর্য কিছুমাত্র বোঝেন 
নি এবং কোন মন্তব্য পর্ধস্ত করেন নি। কিছু 
লোক অবশ্ট তাকে বিধর্মী এবং অপরের সুস্থ 
চিন্তায় অগ্তারভাবে হত্ক্ষেপকারীন্ধপে আখ্যাত 
করেছেন। কাজেই সুদীর্ঘ 1500 বছর যাবৎ 
আমিই্ারকাসপ ছিলেন সম্পূর্ণ উপেক্গিত এবং 
আখক্লিতস্পবিজানজগতের এক হহাপায়ক 14. 


8 

আমরা আগেই দেখেছি, ছিরাক্রিডিসের 
বিশ্বতত্তে বুধ এবং শুক্র গ্রহ জুটি শুর্ষের চারদিক 
পরিক্ষা করে, কিন্তু এই গ্রহদ্বাসমেত নুর্ধ 
আবার পৃথিবী প্রদর্ষিণ করে। কাজেই এই 
তন্তু বদিও আরিষ্টারকাসের পুর্ব, কিন্তু তিনি 
এই তত খেকে কোনরূপ সাহাবা পেয়েছেন বলে 
মনে হয় লা; তার গ্রহজগৎ এর চেয়ে একে- 
বারেই ভির। তীর তত মূলতঃ ভার শিশুর 
পর্ধবেক্ষণলকধ তথ্যের উপর প্রতিষ্ঠিত। পৃথিবী 
থেকে চাদ এবং হুর্বের দুরত্ব নির্ণয় ছিল তার 
গবেষণার একটি প্রধান বিষয়। ওনং চিত্রে 
আগিষ্টারকালের এই দুরত্ব নির্ণককের পদ্ধতি বণিত 





জান ও বিজলি 


[ 27তম ব্খ, 2 সংখ্যা 


হুর্ষেই হচ্ছে বিশ্বজগতের কেম এবং পৃথিবীলহ 
অন্তান্ত গ্রহগুলি বৃত্ীর পথে সুর্ধকে প্রদক্ষিণ 
করে চলেছে। ঠিমি আরও পিদ্ধাস্তে আঁপেন 
যে, হুর্ধ নক্ষত্রদের মতই বিশাল, অতএব তাঁদের 
মত স্থির। অতএব দেধা যাচ্ছে যে, পর্যবেফণ 
পদ্ধতির নৃত্তনত্বে এবং তার বিশ্লেষণ থেকে 
পিদ্ধান্ত গ্রহণের ব্যাপারে আরিষ্টারকাস এক 
মহ? টৈজ্জানিক প্রতিভার প্রচ দিক়েছেন। 
তার তত নৃতনত্ব সে যুগের তুলনার এত 
বিস্ময়কর যে, তা নিচ্ছে চিস্তাভাবনা করবার 
ক্ষমতা্ড কারোর ছিল না। 2নং চিআগুলি পর্যা- 
লোচনা করলে বোঝা বাঁবে--খিশ্বতত্বের ক্রম- 


ভ১২ম্বনা 


ওনং চিত্র £ আরিষ্রারকাস কর্তৃক টাদ এবং হুূর্ষের দূরত্ব নির্ণয়ের পদ্ধতি. 


হয়েছে। হুর্যালোকে চাঙ্রগোলক যখন ঠিক 
অর্ধেক উত্তাপিত, অর্থাৎ 35 কোটি সমকোশ, 
তখন [29 কোপটিএ তিনি পরিমাপ করেন 
এবং ০ কোণটটির মান পান 3" (বাস্তবিক- 
পক্ষে। এই কোপটি মাত 10)1 এখেকে 
কিমি বুঝতে পারেন যে, পৃথিবী থেকে হুর্ষের 
দুরত্ব চাদের দুক্্কের অন্ততঃ 18 গুণ এবং 
তিনি এই পিছনে আপেন যে, ছুর্ধ পৃিবী 
থেকে অন্ততঃ 300 গ্রখ বড় (সুখের প্রকৃত 
দুরত্ব এবং আরতঙন আরও অনেক বেশী, আমরা 
এখন জানি )। এই পর্যবেক্ষণঞ্্ধ তখ্য খেকে 
আরিষ্টারকাস অবিলগ্গে এই সিঙ্ধান্তে লেন 
থে, হুর্ষের মত বিশাল একটি জ্যোতি: কখদওড 
পথেবীকে প্রদক্ষিণ করতে পাতে না; ব্ধং 


বিবর্তনে আরিষ্টাপকাঁস কি বিশাল এবং ছুঃসাঁহপিক 
পদক্ষেপ করেছিলৈন। 

বিশ্বততু শিষ্ে চিস্তাঁতাবনা করবার শময় 
কোপাশিকাদ নিশ্চরই পৃখিবীকেন্িক এবং শুর্থ- 
কেচ্ছিক--এই উভন্ন তত্র গুণাগুণ বিশেষভাবে 
পর্যালোচনা করেছেদ। পরবতী কাঁগে যে' তত্ব 
তিনি তার বুগাঁস্তকাণী "সক রিভোলিউসনিবুল' 
(05 2501061071005) গ্রন্থে পিপিষন্ধ 
করেছেন, তা প্রাপ্ত আরিষীপকাসের তর্ক 
অনুরূপ । আবার দেখা বার বে, হিনি ভার 
গ্রত্থের অনেক জায়গার টউপ্গেমীর আলদাগেক 
(51082650 থেকে জা।নিতিক এবং আহা 
সাহাধা দিয়েছেন। কাজেই পরপ্ন হতে পারে, 
কৌপার্দিকীশের যোঁলিকন্ব কতখানি? ভাই 


ফেরারী, 1974] 


প্রদত্ত হুর্ধকেত্সিক তত্র ধারণ] কি পুর্বহ্রীদের 
কাছ থেকে ধারকর11? ভ্ব রিতোলিউপনিবুম 
আলোচনা করলে স্পষ্টই বোঝ! যায় ষে, 
কোপ।শিকাসের প্রদত্ত বিশ্বতত্ব তার মৌলিক 
চিন্তার অবদাঁন। এই নতুন ততুকে দার্শনিক 
এবং গাণিতিক ভিত্তির উপর প্রতিঠিত করবার 
জন্যে তিনি পুর্বহুদীদের চিস্তা এবং কাঁজের 
সাহাধা নিক্সেছেন মাত্র! চক, কুর্য, গ্রহাদির 
অবস্থান ও গতিবিধি নিগ্নে চিস্তাঁভাঁবন! করতে 
গিয়ে তিনি দেখলেন যে, ভুকেন্তিক টলেমীর় 
তত্বে পর্যবেক্ষণযোগ্য যে সব ঘটনার ব্যাখয! 
কর! বায়, পৃথিবীকে নিজ অক্ষের উপর ঘূর্ণাম।ন 
এবং হুর্যের চারদিকে আবর্তনশীণ বলে ভাবতে 
পারলেও সেই শব ঘটনার প্রতিটিরই কুষ্ঠ 
ব্যাখ্য) দেওয়া সম্ভব। কোপাঁনসিকাণ আরও 
দেখলেন যে, শেষোক্ প্রণাঙীতে ব্যাখা! অনেক 
বেশী সরল এবং অহজবোধ্া হু! এইট সহ জ- 
বে।ধাতাই সুর্বকেন্্িক তত্বের দিকে কোপাশিকাশকে 
বিশেবভাবে আক করে! ভিনি ভাবলেন যে, 
দৃশ্তমান কোন ঘটনাকে ষর্দি পরস্পর নিরপেক্ষ 
ছুটি তত্বের সাহাধেয সমানভাবে ব্যাখ্যা করা 
বাঁর। তবে এ ত্তৃদ্বয়ের মধ্যে অপেক্ষাকৃত 
সহজটিই অধিকভর মনোযোগের দাবী রাখে। 


কোপানিকাঁস ষখন তার তত্ব উপস্থাপিত করেন, 


তখন খ্রহজগতের দৃশ্মান এমন কোন ঘটন! 
ছিল না, ব| সমানভাবেই টলেমীর তত ব্যাখা। 
করা যেত না। কিন্তু টলেমীদ তত্ব পুধিবীকে 
স্থির রাখবার ফলে বহু জ্যামিতিক জটিলতার 
আমদানী করতে হয়েছিল, ব। ঘূর্ণায়মান এবং 
আবর্ভনলীগ পৃথিবীর কগ্নায় বাতিল করা দস্তব 
ইয়। এই চিদ্তার সজতা এবং জা1ষিতিক 
সরলতাঁই সম্ভবতঃ দুর্ধকেজ্িক বিশ্বতত্বে কোপা- 
শিকাসের দৃঢ় বিশ্বাস এনে দিদ্বেছিল। 

মুন তবে স্থির বিশ্বাস নিয়ে এরপন্র তা? 
নি. জঙ্কে ফোপানিবশৃস ঘয়্ধান হুলেন। 


নিকোলাদ কোপানিকান বর্তমান যুগের অগ্রাদুত ্ে 


॥ু 


ফিলোলাউন। হিকেটাস, হিরাক্লিডিস প্রমুখ” 
মনীবীদের রচনাবলীর মধ্যে তিনি তার চিত্তার 
সমর্থনে নজীর খুঁজে পেঙগেন। এরা প্রত্যেকেই 
কোন না কোনভাবে পৃথিবীর গতির অস্তিত্ব 
তবীকার কা'রেছেন। আরিষারফাপের ক্ষাজের 
মধ্যে ভিপি খুঁজে পেলেন তার সৌরকেঞ্সিক 
তত্র ছবছু প্রতিফলন! এই সব গ্রীক মনীষীর 
রচনাবলীর মধ্যে ম্বীক়্ চিআাধারাঁর সমর্থন পেক্গে 
কোপাধিকান শিশ্চমই অনেকটা সাহস ও নির্ভর! 
লাভ করেছিলেন | কিন্তু তার তত্বকে বিজ্ধ- 
মহলে গ্রহণযোগ্য করবার জন্তকে যে টবজ্ঞানিক 
যুঞ্জিজাল এবং গাণিতিক ভিত্তি রচনার প্রয়োজন 
ছিল, তা তিনি করেছেন সম্পূর্ণ নিজস্ব তঙ্গীতে 
ভার ধৈজ্ঞ/নিক প্রতিতার মৌলিকত্বে। তার 
যুক্তিজাল এত নিখুঁত, এত স্বচ্ছ যে, অবিশ্বাসীদের 
তা খগুন করবার মত সাহস ও বুদ্ধিবুত্তি একেবারেই 
ছিল না, বপিও অনেকেই তাঁকে বিধ্মা আখ্যা 
দিষ্বে অভিসম্পাত করেছেন। 

নতুন তত্র যুক্তিসিদ্ধ ব্যাথার জন্তে প্রথমেই | 
প্রশ্নো্ন পৃথিবী স্থির এই বহুলপ্রচা্সিত জান! 
মতবাদের স্থলে কঠিন আঘাত হানা । এই ত্তরাস্ত 
মতধাঁদের সমর্থনে এন প্রবক্তার] যতগুলি যুক্তি 
দাড় কগিছেছেন নিজদ্ব পাণ্ট। যুক্তির সাহাষ্ে 
তার প্রতিটি খগ্ডনের জন্তে কোপাশিকাঁপ অতঃপর 
যত্ববান হন। ধেমন--পৃথিবীর গতিহীনতা গ্রমাণ 
করবার জন্তে আরিহোটল, টলেমী প্রমুখের 
বক্তব্য ছিল এই বে, পৃথিবী বদি গতিশীপ হতো 
তাহলে থেঘ এবং বাতানে ভাসমান আঅন্তান্ত 
পদার্থলবলকে পৃথিবীর গতির বিপরীত দিকে 
চলমান দেখা মেত। আবার পৃথিবী ঘি তার 
অক্ষের উপর প্রতি 24 ঘণ্টাক্ন একবার করে 
ঘোরেঃ তাহলে সেই ঘূর্ণনের বেগ হবে এত প্রচপ্ড 
যে, এর দেছের নিতিক্ন অংশ ভেজেছুরে বিডি দিকে 
নিক্ষিপ্র হবে! . কিন্তু কার্ধতং আমরা এর বিপদীত 
ঘটনাই দেখতে পাই? অর্থাৎ পৃথিবী বন্ধং 


72 ভান ও বিজ্ঞ।ল 


বাইরের বস্তনিচককফে নিজদেছে আকধণ করে 
নেক়। অতএব এই প্রাচীন মতান্তযাস্বী, পৃথিবীর 
কোঁনকপ গতির অন্তিত্ই একটি অবাস্তব কমন! । 
এই ক্ষেত্রে কোপানিকাসের পান্টা যুক্তি এই যে, 
চলার পথে পৃথিবী তার আঁবহমণ্ডলকে সঙ্গে দিকে 
চলে; কাজেই যেঘ বা বাতাসে ভাপমান অন্তান্ত 
পদার্থসকল পৃথিবীর সঙ্গে সমগতিতে চলে। ফলত: 
এসকল পদার্থকে পৃথিবীর বিপরীত দিকে চলমান 
দেখা ঘেতে পারে না। আবার, ঘূর্ণনের ফলে 
যদি পৃথিবী খণ্ডবিখণ্ড হয়ে যার, তাহলে বেছেতু 
বিশ্বগোলকের আফ্তন পৃথিবীর তুলনায় অতি 
বিশাল, অতএব ঘূর্ণনের ফলে তার চূর্ণ-বিদুর্ণ 
হতে যাবার সম্ভাবনা অনেক বেশী। কোপাণি- 
কাসের মতে, বিশাল বিশ্ব-ব্রক্ধাণ্ডের আহক 
ঘূর্ণনের চেক ক্ষুক্র ক্ষুত্্ পৃথিবীর আহ্িক ঘূর্ণনের 
কল্পনা কর! অনেক সহজ । তাই এক্ষেত্রেও তিনি 
এই সঙ্্জতর ব্যাখ্যাকেই অধিক বাস্তবসম্মত বলে 
গ্রহণ করেছেন। এই নতুন তখ্যের ভিডিতে 
পরে তিনি গ্রহুজগতের দৃশ্টমান ঘটনাঁবলীর 
ব্যাখ্যায় মনোনিবেশ ঝরেন। তিনি যুক্তি দিকে 
দেখালেন যে, দিনরাত্রির ঘটনা বোঝাবার জন্ভে 
স্থির পৃথিবীর চারদিকে সমগ্র বিশ্বগোলকের 24 
ঘণ্টা একবার ঘোরবার মত কষ্টকর কল্পনা 
করবার দরকার নেই। পৃথিবী যদি তার নিজ 
অক্ষের উপর 24 ঘণ্টায় একবার করে ঘোরে, 
তাহলেও উক্ত ঘটন হুবছ একই রূপে অহনিত 
হবে এবং এই ঘূর্ণা্ষমান পৃথিবীর কল্পনা অলেক- 
গুণে সহজ । 

আমরা আগেই দেখেছি, গ্রহগুলির সম্মুখ 
এবং বিপরীত গতি এবং বিতিশ্র সময়ে তাদের 
গজ লোর তারতমা ইত্যাদি দৃশ্থসান ঘটনাবলীর 
গ্রহণযোগ্য ব্যাখ্যা দেখার জগ্তে টলেদীকে কি 
জটিল জ্যামিতিক ভাবনার আমদানী করতে 
হচ্ছেছিল। কোপাশিকাঁস হিসাব করে দেখালেন থে. 
পৃথিবীকে যদি ন্ন্তান্ত গ্রহগ্তপির মতই একটি গ্রহ 


[ 21তম বধঃ 2 সংখা! 


হিসাবে কল্পন। কর। যায় এবং মনে করা যাক যে, 
পৃথিবী এবং ভান গ্রহ হুর্য থেকে বিডির দূরত্ছে 
থেকে ভার চারদিকে বিভিন্ন আঁবর্তনকাল নিষ়্ে 
ঘুরছে, তাঁছলে উপরিউক্ত দৃষ্ঠমান ঘটনাবলীর ব্যাখ্যা 
আরও সহজ এবং হুছভাবে দেওয়া সন্ভব। স্ব 
থেকে বিভিন্ন দূরত্বে বিতি্র গতিবেগ নিতে পৃথিবী 
এবং অন্তান্ভ গ্রহ শুর্ষের চারদিকে বদি 
খুরতে খাঁকে, তনে আপেক্ষিক গতির স্বাভাবিক 
নিয়মাচুযাযীই ওই সব ঘটনা পরিলক্ষিত হবে। 
আবার কক্ষপথে গ্রহগুলির আপাতঃ অসম (2017- 
017169175) গতির ব্যাখ্যার জন্তে উলেমীকে প্রতিটি 
গ্রহের জন্তে একটি বা একাধিক বৃত্তান্থর কল্পনা 
করতে হত্জেছিল। ক্প্তি কোপানিকাঁসের 
তডানহাতী কক্ষপথে পৃথিবীর গতির সাহাধোই 
অনেক সহজ ও নুুভাবে গ্রহগুলির অপম গতির 


ব্যাখ্যা করা যার। একইভাবে তিনি সৌর 
ক্রান্তিবৃত্তের (:০1/005) ব্যাখ্যাও কল্পন। 
করেছেন! টলেমীয় যুক্তিতে স্থির পৃথিবীর 


চতুর্দিকে সুর্ধের বার্ধিক পরিক্রমার ফলেই এই 
বুৃতটির উৎপত্তি, হুর্ধঈ এখানে সক্রিয়। পক্ষান্তয়ে 
কোঁপাঠ্সিকাসের মতে স্থির সুর্যের চতুদিকে বছরে 
একবার পৃথিবীর আবর্ভনের ফলেও ওই একই 
বৃ বিশ্বগোলকের উপর অঙ্কিত হবে। গুধু তাই 
নয়, পৃথিবীর নুর্ধপরিক্রমার সময় বদি তার অক্ষ 
সাও বছর ধরে শোর ক্রান্তিত্বত্তের তলের সঙ্গে 
সমানভাবে হেলে থাকে, শাছলে স্বাভাবিক 
নিরমেই পরিলক্ষিত (00561%20 খাডুপরিবর্তনের 
ঘটন। অনুষ্ঠিত ছবে। আবার অরনচলনের (2/6- 
65510105 06 006 600109365) খটনাকে তিনি 
ব্যাখ্যা করেছেন পৃথিবীর অক্ষের ক্রমশঃ দিক- 
পরিবর্তনের প্রকাশ হিসাবে। এখন কমর! 
জানি যে, উপরিউজ ঘটনাবলীক় ব্যাখ্যায় 
কোৌপাদিকাসের যুক্তি ছিল নিভূলি। 
আবহ্মানকাল থেকে তৃকে্রিক খিশ্বতত্বের 
প্রবস্তীদের পৃথিবীর আবর্তনগতির কল্পনার বিপক্ষে 


ফেব্রুয়ারা, 1974 ] 


এফ জোরালো যুক্তি ছিল এই যে, এই গতির 
অস্তিত্ব বাপ্তব হলে নক্ষত্র্দের অবস্থামের লশ্বন- 
জনিত পহিবর্তন (০8:8115500 0151918 021720130) 
অবশ্টুই পরিলক্ষিত হবে। কিন্ত বহু বত ও চেষ্টা 
সত্তেও এই পর্িবর্তনেয় অস্তিত্ব কেউ কোন দিল 
খুঁজে পারনি। অতঞএর পৃথিবীর আবর্তন গতির 
অস্তিত্ব অবান্তব। কিন্তু কোপানিকাপের যুক্তি 
এই বে, পৃথিবীর কক্ষবুত্তের ব্যাস নক্ষত্রের দুরত্থের 
তুলনায় এত ক্ষুদ্র যে. উদ্ভুত লঙ্ঘনের পন্িমাশ 
করা কথনও সম্ভব হয় নি। পরবর্ত কালে 
উন্নততর যস্ত্রপাতির সাছাযো পর্দিষাপ 
প্রণালীর উন্নতি হুর! সত্তেও যখন নক্ষত্রের 
লঙ্ঘন মাপা বায় শি, তথন শুর্যকেন্দ্রিক তত্বের 
বিরোধীরা পৃথিশির্ বাধ্ধিক গতির কল্পনাকে 
আজগুবি প্রমাণের জন্তে ক্রমেই জোরালো যুক্তি 
দেখাবার চেষ্টা করেছেন। এদের মধে) টাইকো 
ব্রাহীর নাম বিশেষ উল্লেখযোগা । টাইকোর 
ষন্রপাতি ছিল তখনকার দিনে সর্বাপেক্ষা নির্খুঁৎ 
এবং গ্রহ-্নক্ষব্রাদির অবস্থানের পর্সিমাপ বিষয়ে 
তিনি ছিলেন একজন শ্রেষ্ঠ বিশেষজ্ঞ। 
কোঁপানিকালের তত্ত্বের সভ্ভাব্যতা পরীক্ষার জন্তে 
তিনি তার উদ্নত যক্সপাতি শিন্ে নক্ষত্রের লঙ্বন 
পরিমাপের বহু চেষ্টা করেন। কিন্তু ব্যর্থ হন। 
তাই তিনি বুর্ষের চারদিকে পৃথিবীর আবর্তনের 
ব্যাপারটা অবাস্তব বলে মনে করেন। ভান প্রদত্ত 
বিশ্বতত্বে আমর! গেখতে পাই [2€গ) নং চিত্র] 
যে, তিনি বুধ, শুক্র এবং ঘন্যান্ত গ্রহদের হুর্ধের 
চারদিকে আবর্তশশীল ধরেছেন, বিস্ত এই গোটা 
পরিবারপমেত শুর্ধ আবার পৃথিবী প্রদক্ষিণরত। 
এখন আমরা জানি বে, এই বিষয়ে কোপানিকাঁপের 
ধারণা ছিল অভ্রাপ্ত। 'নক্ষররদের দুরত্ব বাস্তবিকই 
অতি বিপুল আবং এই দূরদ্থের ভুলনার পৃথিবীর 
কক্ষবৃতের . খ্টান অতি নগণা। ফলে লঙ্গনের 
পিষাপ এত জু বে, আধুনিক উরত: বন্ত্রপাতি 
শরৎ পগিঘাপ-প্রপালী আবিষ্কারের আগে এই 
| 3 


[নকোলাপ ৫কোপালকাদ-্মবতমান যুগের অগ্রদুত 73 


লন মাপা সম্ভব হন নি। মাত্র 1838 পাশে 
মহাগণিতজ্ঞ বেশেল্‌ (32556) এবং হেগাঁকসন 
(75061501) ছুটি নক্ষত্বের লঙ্থন শর্বপ্রথঘ 
পরিমাপ করতে সঙ্গম হুন। তারপরে অবশ 
হাজার হাজার নক্ষজের লঙ্ছন মাপা হয়েছে, কিন্ত 
তার কোনটিরই কৌশিক পরিমাণ 0+8-এর বেলী 
নযন। এই পগ্িমাণ অতি ক্ষুদ্র, বে জগ্গে ঘুগে যুগে 
জ্যোতিধিজ্ঞানীরা বছ যত্ব সত্বেও পরিমাপ 
করতে ব্যর্থ হয়েছেন। কিন্তু বিজ্ঞানীর স্ছজ 
দৃ্টিকৌশ থেকে কফোপানিকাস এই সত্যটি প্রতি 
স্থম্পষ্টভাবে অংশগুপি নির্দেশ করেছিলেন। 
অতএব যে গ্রহ এবং নক্ষত্রঞ্গতের রূপ 
কোপারিকাঁস মব্শ্চক্ষে প্রত্যক্ষ করেছিলেন, তার 
সহজতম প্রকাশ দেখা যায় এনং চিত্রে । নুধই 
এই জগতের অধীশ্বর, এই জগতের কেবিন্ৃতে 
অবস্থিত থেকে অপর সব ্ছুকে নিষ্নন্্র 
করছে। পৃথিবীর কোন বিশেষ ভূমিকা নেই 
এই সৌবরপরিবারে। অপর যে কোন গ্রহের 
মতই নে একটি নির্দিষ্ট কক্ষপথে একটি শিধি? 
সময়ে শুর্ঘকে প্রদক্ষিণ করে চলেছে এবং একই 
সঙ্গে প্রতি 24 ঘ্টাত্ব একবার কনে নিজ অক্ষের 
উপর পাঁক খাচ্ছে। ফলে দিনস্রাত্ি, খতু 
পরিবর্তন, কক্ষপথে বিভিন্ন সময়ে গ্রহুদের সম্মুথ 
ও বিপরীত গতি, তাদের ওজ্ছরপ্যর তারতম্য 
প্রভৃতি দৃশ্বধান ঘটনাবলী লাধারণ নিকসষেই 
সংঘটত হচ্ছে। পরব কালে তিনি নিজগ্ 
পর্যবেক্ষণ এবং অগ্তান্ত উৎস থেকে সংগৃহীত 
তথ্যাদির উপর তিত্তি করে 4নং চিত্রে বর্ষিত 
অতি সরল শৌরজগতের ধারণাকে জমে কমে 
আরও উন্নত করেছেন। এই উদ্দোস্টে তিনি 
শ্রাঈীন জ্যোতিধ্দ্দদের মতই উৎ্কেন্জিক বৃত্ত 
(55০60021০) এবং বৃতাছনঙ্খ (29105 0168) 
ব্যবহার করেছেন। কিন্তু ঘেতেডু তিনি তার 
তত্তে পৃথিবীকে কোন বিশেষ, মর্যাদার গ্বান 
দেল দি. সেহেতু ভার ব্যবঙ্গত বৃতানুর সংখ্য। 


টি 
টঙ্মীর ব্াবসত সংখ]ার চেয়ে আনেক কম 
হয়েছে। এই ক্ষেঞেও কোপাপিকাসের হথ্বের 
সরলতা উচন্লেখযোগ্য। 

সদ গশিঠিক ভিত্তির উপর ভার ততবকে 
প্রতঙ&ার জন্টে কোপাপিকাসের প্রচেষ্টা লক্ষণীয়। 
তার গ্রন্থ 'ভ্ভ গ্িভোলিউসনিবুন'"এর বহুলাংশ 
বেশ জটিল খাশিতিক ঞ জ্যামিতিক িসাঁব- 


জাল ও ব্যালন 


27তম বধ, 2ম লংখ্য! 


কারণ, কোপামকাসের সমদ্ঘ উপবৃত্ত (11156) 
সম্বন্ধে কিছু জান ছিল না। গ্রছদের কক্ষপথকে 
নিখৃৎ বৃত্ত কল্পনা করেই তিনি সব কিছু 
থিপাৰ করেছেন। উপবৃত্তে শ্রঙ্থের গতিকে 
বৃতপথে গঠির ধারপার সঙ্গে মেলাবার অব্ন্তসাবী 
ফল হিসাবের জটিলতা । কাজেই কোপানিকাপকে 
যে বস্থবিধ গাপিতিক ও জ্যামিতিক জটিলতার 





এনং চিত্র ১ কোপানিকাপের হুর্ধকেন্ত্রিক বিশ্ব। 


নিকাশে পপ । এই জটিলতার আশ্রয় নিতে 
হয়েছে প্রধানতঃ ছুটি কারণে। প্রথমতঃ, 
কোপানিকাস তার কাজের জন্কে প্রাচীন ও 
মখাযুগ্ীত জ্যেতিঠ্দিংঘর সংগৃহীত অনেক তথ্য 
থাবছছার করেছেন। এই সব তথ্য বদিগও ছিল 
তুলে তর; কিন্ত কোপান্কান এগুলিকে নিতু 
খলে গ্রহণ করেছেন এবং ভাজ নিজন্ব পর্থ- 
বেক্ণের সঙ্গে এগুলিকে জেলাবার চেষ্টা করেছেন। 
ফলে বহু জটিলতায় উদ্ভব ছঙ্েছে। দ্বিতীয় 


সশ্ম্ধীন হতে হয়েছে, তা সহজেই অ্মেষ়। 
এই প্রাক্স দুঃসাধ্য কাঙ্জ কি জআপুর্য দক্ষতার 
সঙ্গে তিনি সমাধান করেছেন, জ1 ভাবতে অবাক 
লাগে। প্রদত 1নং সারণী (181২) আলোচন। 
করলেই আমরা হার অসাষার দক্ষতার পরিচগ়্ 
পাই। এই সারধীত়ে ফোপানিকাসের বিশ 
গ্রহগুলির ঢূরত্বের সঙ্গে বর্তঘানে শ্বীত্ তুরত্ধের 
একটি তুলনাধূলক চিত্র রয়েছে! সারণীতে 
আনয়া দেখছে পাই থে। ূ 


ফেব্রুয়ারী, 19741 
1নং সারণী 
(হুর্ধ থেকে পৃথিবীর দূরত্বকে একক ধরে ) 


প্রা ুর্য থেকে গড় দুরত্ব হুর্য থেকে গড় দুরত্ব 

(কোপানিকাস ) € বর্তমানে স্বীক্কত ) 
য্ধ 0376 0387 
গুক্র 0719 0%23 
পৃথ্থিবী 1000 1000 
মঙ্গল 1520 11524 
বৃহম্পতি 5219 5203 
শনি 9174 9539 


কেবলমাত্র দূরতম গ্রহ শনি ছাড় ( ইউরেনাল, 
নেপচুল ও প্রুটো তখনও আবিষ্কৃত হয় নি) 
অন্ধ সবগুলি গ্রন্থের দুরত্বই কোপাপিকাঁস ছুই 
দশমিক স্থান পর্যন্ত নিভূলি হিসাব করেছিলেন । 
যে যুগে উপবৃঝাকার পথে গতির ধর্ম কিছুই 
জানা ছিল না, গ্রহগুপির দুরত্ব সন্বন্ধীনন কেপলারের 
সুত্র ছিল অজ্ঞাত, আধুনিক কোন উর্লত 
বৈজ্ঞানিক প্রপালী ছিল বহুদূর তখিষ্যাতের অন্ধকার 
জঠরে নুপ্ত-_-এমন কি, পৃথিবীর আবর্তনের কথ! 
চিন্তা করাও ছিল শাস্তিযোগ্য অপরাধ, পে 
যুগে শুধুমাত্র জ্যামিতিক কল্পনা এবং গাশিতিক 
হিসাবের সাহাধো কোশানণিকাস ফি করে 
গ্রহদের দুরত্বের এক্সপ প্রায় নিষ্ভুল হিলাঁব 
করতে পারলেন, তা ভাবতেও অপরিলীম বিশ্ব্ন- 
বোধ হয়। এই ঘটনা কোপানিকাসের মঞ্থান 
প্রতিষ্ভার মৌলিকস্বের একটি নিদর্শন | 

উপরিউক্ত আলোচনা! থেকে দেখ! খাঁর, 
কঝোপানিকাস প্রতিভাখর টবআানিকের শ্ুচ্ছ 
দৃষ্টিতে প্রহজগত্তের বাস্তব চিত্রটি মোঁটামুটি 
নিশুলিতাঁষে দেখতে পেঙ্জেছিলেদ | তার এই 
দর্শনের মূল শ্রেকণা ছিল' দু আত্মবিশ্বাস এবং 
কফোঁন খটমাকে সহজ দুষইটকোশণ থেকে দেখবার 
ক্ষমতা | গখনফার দিনে খ্রহজগতের এমন 
কোন পর্ধবেক্গিত ঘটল ছিপ না, যা কেপীর্সিকাঁন 


নিকোলাস কোপার্মিকাস - বর্তমান যুগের অগ্রাদুত ?5 


এবং টলেমী উতর তত্বের সাহাষ্যেই সমতভাঁবে 
ব্যাধ্য| করা বেত না। কিন্তু কোপানিকাসের 
ব্যাখ্য। ছিল অনেক সহঙ্জ। কোপার্নিকাশের 
তত্বের উত্কর্ষ এখানেই । অবশ্তট একথা মনে 
রাখা দরকার যে, এই তত্র অসম্পূর্ণতাও 
কিছু কিছু ছিল। প্রথমতঃ, দৃষ্ঠমান ঘটনাবলীর 
সুষঠু ব্যাখ্যার জণ্তে কোপানিকান বদিও পৃথিবীর 
ছুটি গতির অস্তিত্ব কাজে লাগিয়েছেন, কিন্ত 
তিনি নিজে পৃথিবীর এই গতি ছুটির কোনটিরই 
অস্তিত্ব পর্যবেক্ষণের সাহাধ্যে প্রতিষ্ঠিত করতে 
পারেন নি। আঁমরা জনি, লে প্রমাণ এসেছিল 
আরও অনেক পরে ব্রাীর 0159125) 
অপেরণ (/১০৩::৪ 09215 বেসেলের লঙ্ঘন এবং 
ফোকর (চ০০০৪০1০ পৃথিবীর ঘূর্ণন আঁবিফারের 
মধ্য দিকে (বথাক্রমে 1725, 1838 এবং 1351 
সালে)। দ্বিতীয়তঃ. কোপাশিকাসের তত 
হুর্ধকে নিশ্চপ কল্পনা করা হয়েছে! আমর! 
জানি এই কল্পনা তুল! হুর্য তার নিজঙ্ব 
পরিবার নিগ্নে আমাঙ্গের নক্ষত্র জগতের (09199) 
কেস্ত্রের চতুর্পিকে প্রতি পেকেওণ্ডে প্রান 250 
কিলোশিটার বেগে ধাবমান। তৃতীরতঃ, 
কোপাপশিকাস গ্রহদের উপন্ৃতীগ্গ পে গতির 
কথ! জানতেন না। গ্রহদের কক্ষপথকে তিনি 
বৃত্তাকার কষ্টান] করেছেন, ফলে হিলাবে নানা 
তুলক্রটি অনিবার্ধতাবেই রয়ে গেছে। তার মৃতু 
প্রায় 50 বছর পরে কেপলার আধিষ্ষার করেন 
বে, প্রহদের কঙ্ষপথ্থ উপবৃতাকার। প্রা একই 
লময়ে গ্যালিপিও নিজের তৈরী ঢরবীক্ষণেক 
পাঞছাব্যে শুক্রগ্রহছের কলার হাপ-বুদ্ধি গুতা 
করেন। ফলে সর্ধপ্রথম কোন একটি গ্রহ্থের 
গুর্ধ পরিক্ষমার প্রত্যক্ষ প্রযাণ মানুষের চোথে 
ধরা পড়ে। আরও পরে নিউটন প্রমাণ করেন 
যে, উপবৃত্বাকার পথে গ্রছদের হুর্য পরিক্রমা 
দুর্ধ ও গ্রহষের মধ্যে ঘহাকষ "আকর্ষণের 
বপন শুকাঁশ। মিউটিনের কাছের মধ্য 


76  উ্ভান ও বিজ্ঞান 


দিয়ে কোঁপান্রিকাঁসের তৌত-প্রকৃতি 
প্রতিঠিত হলে! । 

উপসংহারে বল। বাঁক, কোপাপিকাঁপ তাঁর 
হুর্কেম্িক তত্র ছারা আধুনিক জ্যোতি- 
বিজ্ঞানের সৌধ গড়েছেন, তাঁর ভিত্তি আরও 
মু করেছেন কেপলার, গ্যালিণিও, শিউটন 


প্রস্ততি মহাঁবিজ্ঞানিগণ । এখন আমর] বিশ্বঙ্গগতের 


তত্র 


[27তম বর্ধ, 2 সংখ্/! 
বাণ্তৰ চিত্রকে কোপানিকাসের বিশ্ব বলে 
অভিছিত করি। ভার কারণ, বর্তমান বিশ্ব গগৎ 
সম্বন্ধে বিজ্ঞানীদের মুঠ খারপা কোপাশিকাদের 
তত্বকে মূল ভিত্তি করেই খীরে ধাঁরে গড়ে 
উঠেছে। এই হিসাবে কোঁপাসিকাশ শিশ্চ়ই 
আধুনিক ঠজ্ঞানিক চিস্তাধারাঁর সার্থক পথি- 
কৎরূপে শ্রদ্ধাঞ্জলি পাবার উপযুক্ত । 


গঠন-বিশ্লেষণে ফটোইলাষ্টিক পদ্ধতি 
ক্রীফান্তমী কর* 


1816 খষ্টান্দে ব্রিউট্টার (85৬৪06:) পিষ্ট 
(906$56) স্বচ্ছ পদার্থের প্রার-কেলাসিত 
€(0018951-0155:51116) ধর্ম প্রথম লক্ষ্য করিলেও 
উহ্থার বাস্তব ও সহজ ব্যবহার এই শতাবীর 
গ্রথষ দিকেই নুরু হুয়। ব্রিউষ্টার জাশিতেন, 
দ্বদ্ছ পদার্থের এই ধর্ম বস্তর পীড়ন (১0555) 
মাপিবার কাজে ব্যবহৃত হইতে পারে এবং 
তিনি বলিষ্ধাছিলেন যে? আলোক পদ্ধতিতে 
(0010010291 ১060)00) আচ-এর (১1০10+ 
901350016) পীড়ন অঙ্গসস্ধান কর] যাইতে 
পারে। উনবিংশ শতান্বীর আর ও বন্ধ বিজ্ঞানী ও 
কিম ছ্বিপ্রতিলরণ (4১:080121 10095916 
26679061917) পশদ্ষে অনুসন্ধান ও আবিষার 
করেন, কিন্তু প্রযুক্তিবিদ্ধায় ব্যবন্থারের র্যাপারে 
কেই বিশেষ কিছু করিতে পারেন পাই। 
পরে সেলুলয়েভের (061101919) নমুনা (2০৭41) 
ব্যবহার কনিকা ককার (0:০9৮67), ফিলন (51192) 
ও তাহাদের সহকর্মীরা! ফটোইল!&িক, বিশ্লেষণে 
এক নুতন যুগের সুচনা করেন। তাহার] নৃত্তন 
রকমের বস্ত্র ও নূতন পরীক্ষা পদ্ধতির ছার! বহু 
প্রযুক্তিবিহ্া] নিবয়ক প্রশ্বেরও অন্ুদন্জান কহেন। 
এই শতকের তৃতীস্ব-চতুর্থ দশক্ষে আমেরিকান 


বিজ্ঞানীরাঁও এই বিষয়ে আরও উন্নততর গবেষণ। 
করিয়া বহুভাবে ইহার উন্নতিসাধন করেন 
ফটোইলান্রিক বিঙ্জেঃরণ একটি বিশেষ ধরণের 
পরীক্ষা পদ্ধতি, যাক্ার সাহাষো কোন গঠনের 
কোন বিশেষ অংশে (১০০০০) হিভিক্ন প্রকা্গ 
পীড়ন (90655) সঘঞ্ধে ধারণা কর খায়। 
গঠন বিশ্লেষণ (90095505151 217919515) অর্থে 
এখানে কোন গঠব্র (50806015) পীড়ন 
বিশ্লেষণ (50555 ৪591591১) বুঝান হুইয়াছে| 
বিভিপ্ন প্রকার ফটোইলাটিক পরীক্ষা হইতে হে 
নব তথা পাওয়া বার, তাঙাদের এক করিয়া 
কি ভাবে একটি গঠন, বা গঠনাংশের বিশেষণ 
কর! বার, ব্যাপক অন্ধের ভিতল না গা তাহা 
এই প্রবন্ধে আলোচিত হইল! সাধারণতঃ 
প্রকৃত গঠন বা! গঠপাংশটির..মত ফটো ইলাটিক 
বস্তু (1210096555550 808091291)-কা চি আখবা 


পটিক-দ্বা1 শিশিত ক্ষুদ্রাকার একটি নমুবার 
(১1০৫51) উপর এই পনীক্ষ] হয় এবং এপ্রককড 


গঠনের উপর আকঙ্তমানিক চাপের... (1089) 


পর্জিমাণ নমুনা আকুতি (3০916).. আচুষধযী.. হাস 


+ ম০:001066 : 00750508101 


[১0৫ 
03881093035 45839817005 ক কি 


ফেঁজরাহী, 1974] 


কগিয়া উহার উপর প্রপ্গোগ কর! হয়।, এইভাবে 
নমুনাটিতে উৎ্পর পড়ুন অনুষায়ী প্রকক গঠন টিতে 
পীড়ন নির্ণর করা হছর়।| আরও বন ভাবে এই 
পরীক্ষা করা যার, কিন্ত উক্ত নমুনার উপর 
এই পরীক্ষা! বিশেষ প্রচলিত । 

কাঁচ, প্লাষ্টিক প্রভৃতি পদার্থ সাধারণত: 
আমইলোউপিফ (750::91০), কিন্তু পীড়ন প্রমোগ 
কপদিলে উহারা আ্যানাইসোউপিক পদার্থে 
রূপান্তরিত হুইকস! যার়। আনাইসোট্রপিক 
পদার্থ হইতেছে, যে ন্বচ্ছ পদার্থে প্রতিসরিত 
আলোক বশির বেগ (99269) রশ্মির প্রসারের 
(69188980107) দিকের উপর নিরব করে! 
সমস্ত কেলাস (05501) আযানাইসো ট্রপিক 
পদার্থ। একটি কেলাঁপ খণ্ডের মধ দিয় আলোক 
রশ্মিকে পাধারণতঃ ছুই তাগে বিতক্ত হইক্া 
ছুষ্টটি বিভিন্ন তরঙ্গ-ক্ষেত্র অহুধা্জী প্রঠিসরিত 
হইতে দেখাযায়। এই প্রক্রিহাকে দ্বি-গ্রতিসরণ 
(0০99816 17502001090) বলে। এ প্রতিসরিত 
(0619০65) রশ্মি, তথা উচ্থাদের তরঙ-ক্ষেতঅ 
(৬৪০ £0190 দুইটির একটির গতি :কেলাস 
খণ্ডটির মধ্যে অন্তটি হইতে ভিন্ন হইয়া! থাকে। 
এই দুইটি ভিন্ন তরল্প-ক্ষেত্রের একটিকে পাধারণু 
তরজ-ক্ষেত্র ও অন্চটিকে অনাধারণ তরদ-ক্ষে্ 
বলে ও তরঙসগ-ক্ষেঅঅর অঙ্যাত্নী রশ্িদ্বয়কে যথাক্ষমে 
সাধারণ ও অসাধারণ রশ্মি ও তরক্ন্বয়কে 
সাধারণ ও অসাধারণ তরঙজজ বলে। 

কেলপাস খণ্ডের মধ্য হুইতে নির্গত হইয়া 
এই তর ক্ষেঅকয় একই গতিবেগে, প্রসারিত 
হয় জর্থাৎ: উহাদের মধ্যে কেলাসখণ্ডে তই 
দুগ্ধ: বাছিয়ে আসিয়া, একই, থাকিয়া যায়। এই 
ছুরত্বকে আপেক্ষিক অন্কন দুরত্ব (15181167210. 
2ত195458108) বা আপেক্ষিক মন্ধন : (16190৮৩ 
£65:087597) বজ! হু: াপেনিক বন্দন, ট্রি 
গতিবেগ ও কেগাস-ঘতের রেধের রঃ নির্ভর 
করে। সুততরাধ  : ক. 


গঠন-বিল্লেধণে ফটোইলা্টিক পদ্ধতি 


?? 


. আপেক্ষিক মন্দন, [২-১--/০) এ 


0 ৬] ৫০" সাধারণ (91:91080) ও অসা- 


ধারণ (20807317805) তরঙ্গের প্রতিসরাক্ক, 
বাছা তরঙ্গের গতিবেগের উপর নির্ভর করে ও 
0. কেলাসথগ্ডের বেধ। 


[ দ্বি-প্রতিপরণ প্রক্রিয়ার জটিলতার ভিতর 
না গিদ়্া এই প্রবন্ধে যতটুকু প্রয়োজন তাহাই 
শুধু বল! হইল।] 


এখন এই আপেক্ষিক যনানের জন্য সাধারণ ও 
অসাধারণ তরঙ্গের ষধ্যে ব্যতিচার ([7056166151706) 
পন্তব, বদি শুধু সেই তরঙ্গ দুইাটকেই কোন একটি 
খিশেষ তলে সমবর্ভিত (০০181159) কর] যায়। 
অতএব কেলাশ-খণ্ডে আপতিত রশ্মিটিকেও 
(175106770.1585) তাহা হইলে সমবতিত করিতে 
হইবে। কারণ অপমবতঠিত রশ্মির গতি বিভিন্ন 
তলে ও বিভিন্ন দিকে, সুতরাং এক তলের 
সাধারণ রশ্মি অন্ত এক তলের অসাধারণ রশ্মির 
সহিত মিলির। যাঁর ও কোঁন একটি বিশেষ তলের 
আপতিত রশ্মি হইতে উদ্ভুত সাধারণ ও অপাধারণ 
তরজঙ্গহকে খুর্জিয়া লওয়া সম্ভব হুয়ু না এবং 
সাধারণ ও অসাধারণ রশ্মিগুচ্ছের মধো আপেক্ষিক 
মনন থাক সত্ব একের সহিত অপরের 
ব্যতিচাঁর সম্ভব নয়। অতএব সমবত্তিত রশ্মি 
পাইতে হইলে লমবর্তাঁ বন্ত্রের (১০197132016) 
প্রশ্নোজন। এই হজ্জের বিশদ আলোচনায় 
না গিয়া উক্ত প্রবন্ধে বস্রটর ব্যবহারই ধু 
আলোচন] কর! হইল। এই বসে, দুইটি 
সমবর্তন্্ছাকনী (01851048165) খাকে। 
একটি ছকনী রশ্িগুচ্ছকে কোন একটি বিশেষ 
তলে পমবিত করে, ও অন্তটি ছাকনী দয়ের মধ্যবর্তী 
কেলান-খণ্ড হইতে নির্গত সাধারণ ও অসাধারণ 
তরম, ুষ্টটিকে খন্্র একটি বিশেষ তলে দ্বিতীয়বার 
পমবদ্ধিত . করে। এই দিত সঘনর্তন তল 
সাধারণতঃ প্রথম. সমবর্তান হলের (9187৫ ০ 


98 জাম 


১9191158607) সহিত পরস্পর ল্থ হইয়া! থাকে। 
খন তরল ভুটটিকে একই তলে সমহঠিত 
কঙ্জিলে উচ্ছাদের মধ্যে সহজেই ব্যতিচার সম্ভব৷ 
এই ব্যতিচারের ফলে ছুইটি একই তলে লমবরতিত 
তরলের প্রাখর্ধ (17161)510) এ তরঙ্গ ছইটির 
আপেক্ষিক মদনের উপর নির্ভর করে] ইসা 
ছাড়াও আর একটি বিশেষ ধরণের শমবর্তা- 
বঙ্জের ব্যবহার এই সঙ্গে কটোইলাইিক বিশ্লেষণে 
হইয়া থাকে, তাহাকে বৃতীয় সমবর্তাঁ-বঙ্্ 
(075০0181 [0191:150076) বলে। এই বসত 
পাধধারণ সমবর্তা-বঙ্জেরই মত, শুধু ইহাতে আরও 
ছুইটি কেলাস পাত (075509] 701766) থাকে। 
একটি প্রথম সমবর্তক-ছাকনীর পরে ও অগ্তটি 
দ্বিতীয় সমব্র্তক-াকনী বা বিশ্লেষণের আগে। 
ইহাদের পিকি তরজ গাত (00562 ৪৬০ 
01915) বলে ইছাদের কাঞ্জ হইল যে কোন 
সমবঠিত তর্কে উহাদের দশা (1১856) 
অনবায়ট বৃক্তাকারে ঘৃর্পিত করা। ইহাতে বিডি 
তলের সাধারণ ও অসাধারণ তরঙ্গের ব্যতিচার 
একই সময় লক্ষ্য করা যায়। 

পুর্বেই বলা হইয়াছে যে, কাঁচ অখব। প্রার্িক 
জাতীন্ আইসোট্টপিক পদার্থ বখন পিষ্ট 
হয়, তখন ইহারা একটি কেলাস খণ্ডের 
(20180010080 0155691) মত ব্যবহার করে। 
এখন কেলাঁসের পন্গিবর্তে বর্দি উপরিলিখিত কোন 
একটি বস্ত ব্যবছার করা হক, তাহা! হইলে পীড়নের 
পন্জিমীণ অন্থযাত্ী সমবত্তাঁ-বন্তের পর্দা উদ্জল 
বা অন্ধকার দেখা বাইবে। [বখন আপেক্ষিক 
হন্যন দুরস্ব পুর্ণশংখ্যক তরজ-দৈর্ধ্যের সমান হয় 
অথব! যখন আপতিত রশ্মির শখবর্তন দিক 
পিই পদার্থের সষবর্ডন অক্ষের সহিত দিলিক্কা 
বাপ, তখম ব্যতিচারের ফলে যুদ্ধ কম্পনের 
বিস্তার শূত্ত হয়! অধ্ক কবিরা এই বুক্তি সহজেই 
প্রধাপ করা যাপ।] কারণ, কোন একবশাঁ সঘ- 
বশ্চিত রশ্মি ধন কোন পিষ্ট প্রাটিক জাতীয় পদাথ 


ও বিজ্ঞান 


[27তম বর্ষ, 2য় সংখা! 


কাচের মধ্যে প্রবেশ করে, তখন প্রবেশবিদ্দ্র হইতে 
এঁ রশ্থি ছুট ভাগে বিভক্ত হইয়া! ছুট মূপ পীড়নের 
(61017010811 505৭5) তলে সমবঠিত হুয়। 
হৃতরাং সাধারণ কেলাগের যত পাধারণ ও 
অসাধারণ তরলদ্বয় কাঁচ যা প্লাষ্টিকখণ্ডের মধোও 
ভিন্ন গতিবেগে প্রশারিত হত ও পিষ্ট নমুনা 
হইতে নিগ্ভি হইবার পর উঞাদের মধ্যে 
আপেক্ষিক মন্ধনজনিত দূরত্বের পরিমাণ 
সাধারণতঃ ছুই মুল পীড়নের বিয়োগ ফলের 
সমানুপাতিক হত। আবার আপেক্ষিক মনান 
প্রাঙিজখণ্ডের ব1 কাচখণ্ডের বেধের (710105655) 
সমান্ুপাতিক। 

অতএব, আপেক্ষিক মনন, 1২." 00০৮ ০৪) 

০৮ ও ০৫ ছুই মুল পড়নের পরিমাণ ও ৫, 
পরশিক্ষিত বস্তর বেধে! 0 এ্রকটি শ্রষক (0০1)5- 
(900 এবং ইহাকে আলোক পীড়ন গুশাঙ্ক 
(90585 ০0190081 ০06৫6601617) বলে। ইহার 


একক ব্রিউষ্টার (3:9৮50০) ০৮ নক, মে 10)-18 


লেখি. যখন, আপেক্ষিক মন্থনের একক-”] 
1 


৬৬ হা পপ ১৯৩ না 
ক 


ডাকল 


কেক 


আরম 4) 01. 09 এর একক লোম 


এবং ৫-এ্য় একক] মিঘি. ফুট পাউগ্ড এককে 
উপরের সকীকরণটি হইবে, 

[৮1752 0(০/-- ০2) 

০১ - ৩০ এর একক পরিবতিত হুইয়া ] পি 


34-এর একক পরিবতিত ছইয়। | ইঞ্চি হইবে। 
আমরা জানি, আপেক্ষিক খন্বন), এক বা 
একাধিক পুর্ণ সংখ্যক তরজ-টদর্ধ্যের গমান হইলে 
সাধারণ ও অপাধারণ তরগের ত্যতিচারের কনে 
বু কস্পনে বিজ্তার (41319116006) পৃ হই 
যান্ব, অর্থাৎ সমধ্-যনজের পর্দা অন্ধকার হইয়া 
হায়। লুতয়াৎ কোন একটি স্বচ্ছ স্াউিকখগ্ডকে 
যদি সমবীঁ-ঘের মধ্যে তাখিযা উদ্ধার উপর 


ফেব্রুঠারী। 1974 ] 


টান-গীড়ন (75780 50:555) বাড়াতে থাকা 
ধা এবং তাঁহার উপর পমবর্তিত একবপা রশ্মি 
নিক্ষেপ করা ছয়, তাহা! ছইলে টানের পরিমাপের 
পহিত উপরিউজজ নিয়ম অঙ্গবান্ী সমবতাঁ-বঙ্জের 
পর্দ| একবার অদ্ধকারর ও একবার আলোকিত 
হইতে থাকিবে) অর্থাৎ বখন লটিকখণটির 
উপর কোন টান নাই, বন্কট তখন আইসোই্পিক, 
অতএব সমবত্-বন্ধের পর্দ। তখন অদ্ধকার। 
এখন আস্তে আত্তে ব্দি টান বাড়াইতে থাকা 
বায়, তবে পর্দাও আলোকিত হইতে থাকে এবং 
ওঞ্ছল্াা লর্ধকপেক্ষ! বে হয় বখন আপেক্ষিক 
মন্দন এক তরজ-টর্ধ্যের সঘান হুয়। ইছার 
পরে টান বাড়াইতে থাকিলে টানের সহিত 
পর্দা আলোকের ওঞ্জল্য কমিতে খাকে ও 


আপেক্ষিক মন্দন এক তরজ-টর্ধেের সমাণ হইলে 
পর আবার ছদ্ধকার হইয়া হায়। 


উপরে আলোচিত পীড়ন অতি সাধারণ ও 
সহজেই ইহার পরিমাণ নির্ণর কর! বায়। কিন্ত 
কোন জল গঠনাংশের নখুনার অসম (০ 
11%16012) পীড়ন প্রয়োগ করিলে নমুনাটির বিভিন্ন 
স্থানে সাধারণ ও অলাধারণ রশ্মির মধ্যে 
আপেক্ষিক মন্দন বিতিগ্ন হইবে । ন্ুতরাং এই. 
রূপ পিষ্ট কোন নমুবাঁকে একবপখ রশ্থির ঘূর্ণন 
সথব্তাঁ-বন্তের সাহায্যে নিরীক্ষণ করিলে পর্ঘায় 
কতকগুলি উত্দল ও অদ্ধকার রেখার পর দৃষ্টি ছ%়। 
এই শুরীতুত রেখাগুলির এক একটির প্রত্যেক 
বিন্ুষ্ভে পীড়ন (০৮--০%) সমান এবং অন্ধকার 
রেখাগুলিয় পীড়ন মান (90655 2106) 
আপেক্ষিক মনান অন্বান্ী (আগেক্িক মনন, 


পৃর্ণপংখ্যক তরঙ-দৈ্ের সমান) পুরো সমীকরণ 
হইতে পাওয়া যাইধে। 


একটি দণ্ডের (36810) শুদ্ধ মমনের (280৩ 
১80018) নিদিত উৎপন্ন সনের একটি আস. 
মানিক €15ং চিজ) দেওয়া হইল। আমরা জানি 


উহ বিডির শুয়ে পীড়ন পান: 


1৬ নষনাঙ্ক (961511008 030106100) 
১্প্রশমতা অক্ষ হইতে সবের দূরত্ব (08- 
(81706 0£ 006 1856 (০0 1680৪] 815) 
[সনিক্ষিতাঁর ভরাষক (71075606011 6:69) 
প্রশমতা! অক্ষে গীড়ন শুত্ত অর্থাৎ এই স্তর়টি 
পর্দায় অন্ধকার বা কালো রেখার যত দুষ্ট হইবে। 
ইহার ঠিক পরের, উপরের ও নীচের অদ্ধকার 
রেখ! দুইটি, এ ছুই শুরে এক তরঙ-দৈধ্য দুর 
বিশিষ্ট আপেক্ষিক মন্বন এর ফলেই তই প্রমাশিত 
হয়। এই রেখ! ছুষ্টটিকে প্রথম স্তরক্ষম (৪175: 
0:15: 10786) বলে। এইরূপ উপরে ও নীচে 
দুই তরঙ্স-দৈর্ঘের আপেক্ষিক মন্বনবিশিষ জদ্ধকার 
রেখাদ্বয়কে দ্বিতীয় শুররেখাক্রম (99০97 0:96 


(0066) বলে ও এইভাবে তৃতীর, চতুর্থ, পঞ্চম 
প্রভৃতি হ্যররেখার নামকরণ কষ্জা হর। 


কোন নগুনান্র রেখাপ্তরে কোন্টি কোন শার়রেখা 
তাহা নিশয় করিতে হইলে শুন্ত শুররেখাট খুজি 
বাছির করিতে হইবে, অথব1 চাঁপ (099) প্রসোগ 
ধরিবার শুরু হইতে শুররেখাগুলির পরিবর্তন 
লক্ষ্য করিতে হইবে। 

নধুনার কোন বিদ্দুতে ধদি €০৮-০৭)-৫ 
হয, তবে সেই বিন্ুতে আপেশিক মনন শৃ 
হইবে এবং এই বিন্দুটি বিঙ্লেষকের মধ্য দিয় 
একটি অধ্থকাঁর বিছ্ু হিসাবে দৃই হয়। এই 
বিন্বুকে আইসোট্রণিক শ্স্ফ ([502:0740 01750) 
বহলে। কোনও বেখাপ্তরে (511)86 ঢ290665:5) 
এইকপ বিন্দু দৃষ্ট হইলে উচ্থার ছুই পাশের রেখা 
স্বনকে পহজেই প্রথষ গুররেখাক্রথ হিসাবে 
চিকিত কর! বাক্ব। আবার ০৮-০৫-০ হইলে 
সেই বিদ্দু্টগ বিশ্লেষকের মধ দিয়া অন্ধ 
ফেখায়। ইহাকে পিলার বিন্ু (5/8919 
00106) বলে। চাপের বা পীড়নের সহিত 
বিশ্চুটির কোন পরিবর্তন হচ্ছ না। 

আদর1 জানি, চয়ন কৃষ্ধন পীড়ন ()492102000 


58658856 ওতেংও) সমাম-82781 আবার 


শি. আব ০, সপ আসা 


নমুনার বিভিন্ন শাররেখার প্রতভোকটি (০৪ * ০৫)- 
এক একটি স্থির মান নির্দেশ করে। সুতরাং 
(০ --০৫)-এর মান নির্দেশক পমরেখাগুলি (001- 
€9013) নমুনার প্রতি বিন্ফৃতে চরম কৃষ্থন পীড়নও 


জ্ঞান ও বিজ্ঞান 


[ 27তম ধঙ। 2য় লংখ)। 


করে, নেই রেখাকে আইসোক্রিনিক, রেখা বলে। 
সুতরাং সাধারণ সমবর্তন্যস্ের সাছাধ্যে প্রাণ 
অন্ধকার রেখার প্রতিটি বিন্দুতে মূল পীড়ন দিক 
কোন একটি অক্ষের একই কোণে নত থাকে 





1নং চিত্র 


নিত করে। আএকবর্ণা রশ্রির পরিবর্তে 
শুভ্র আলোক রশ্মি সমবন্তিত করিয়া ব্যবহার 
করিলেও বিশ্গেষকের মধ্য দিয়া [বতিষ় গ্তররেখা 
দই হইবে, কিন্তা ইহার] হইবে বিভিজ্গ রঙের । 
এ রেখাগুলির পীড়নমান উছ্বাদের রঙের তরজ- 
দৈর্ঘ্যের উপর নির্ভর কতিবে। 

এতক্ষণ বুতীক্ষ সমবতা-যস্ত্রের সাহাধ্যে প্রাপ্ত 
রেখাপ্র হইতে কিভাবে পীড়ন সন্বক্ষে ধারণা 
কর! বায়, তাহ! আলোচনা করা হইল। এখন 
একই নমুলাকে যপ্দি একটি সাধারণ সমব্ঁ- 
বস্ত্রের সাঙ্থাযো নিরীক্ষণ কর! বায় এবং যদি 
নমুনাটির কোন একটি বিন্দুতে উবার একটি 
মুল পীড়নের দিক (7)11000077 01 19010011991 
৪0:6$$ ০৮--০৫) শধব্্ঠিত আপতিত রশ্মির 
পিকের সহিত মিপিয়1 বায়, তাছ? ছইলে পেই 
বিন্রুটি বিশ্লেষকের মধ্য দিয়া অন্ধকার দেখ। বাক্স 
এবং এই বিস্দুটির সঞ্চার পথ (1005 06 (06 
১০0) বিঙ্জেবকের মধ্য দিয়া একটি অন্ধকার 
রেখারপে দৃষ্ট হয়। এই রেখাকে আইসোক্রিনিক 
(13001871106) বলে! খাবার ইহাও জানা 
আছে বে, যেরেখার প্রতিটি বিল্ুতে যুগ পীড়ন 
দিক €কান স্থির অক্ষের সহি নমান কোণ হি 


এবং সেই কোণকে আইপোক্রিনিকের প্যারাখিটার 
(2919156161) বলে । বিভিন্ন আইসোরক্রিনিকের 
প্যারাবিটার হইতে সহজেই মূগ পীড়ন রেখ। অঞ্চন 
কর বযার। বিভিন্ন প্যারামেটারের এর আইপো- 
ক্লিনিক রেখ। পাইতে হইলে লমবতিত আপহঠিত 
তরঙ্গ তলের দিক পরিবর্তন করির়! অর্থাৎ সমবর্তী- 
বঙ্ত্রে সমবর্ভক-ছাকনীঘ্বরকে বিতিক্গ কোণে (প্রঠি 
10” অন্তর ) স্থির রাখিয়। আইপোরিনিক রেখা- 
গুণির আলোকচির অথবা লেখচিত্র লইতে হইবে 
এবং কোন একটি বিশেষ অক্ষের সহিত. প্রথম 
সমবর্তক-ছাকনী যে কোণ সৃষ্টি করে, তাহাই 
& পর্যায়ে সই আইপোক্লিনিকগুলির প্যারামিটার । 

এতক্ষণ সমবর্তক-যস্তের পাছা পরীক্ষার 
দ্র কি কি তখয কেমন করিয়া পাওয়া বাক. 
তাক ব্ণন! করা হইল। এখন পরীক্ষা হইতে 
প্রা্থ বিভিন্ন ত্যররেখা .ও অন্তান্ত রেখার আলোক 
চিত্র লইয়া এবং উছ্ছা্গিগকে বিভিন্ .তাঁবে 
বিশ্লেষণ কগগিয়া লমুনার বিভিন্ন বিন্দুতে গীড়নের 
আজনানিক গঠ্িমাণ খু পিক সন্বক্ধে নিশ্চিভ 
হইতে হইলে নিয়ো, উপান্ে অগ্রস্গ। র্ 
হইযে। . .. 
প্রথঘতঃ শাইপোরিনিক রেখা হইতে পর 


ফেব্রুয়ারী, 1974 ] 


ও চরম কৃম্তণ রেখ! অঙ্কন 
হইবে। পরে ব্ৃতীক়্ সমবতীঁ-বন্ত হুইতে প্রাপ্ত 
একবপ্ণ ও বহ্ছবরণী শ্যররেখাগুপির মান নিন 
করিতে হইবে এবৎ ইহা হুইতে সীমান্ত পীড়ন 
রেখাগুলিও অঙ্কন কবিতে হইবে! ইউন্বার পর 
তিপ্ন ভিন্ন মূল পীড়ন দুইটিকে অস্ক কহিয়া 
অথবা অন্ত কতকগুলি পরীক্ষা! দ্বারা নির্ণর 
করিতে ভ্ষ্টবে। তাঁত হইলে ভিন্ন মূল পীড়নের 
সমরেখাগুপি অন্ধন করা যাইবে এবং এই 
সকল তথ্য হইতে সঙ্কট অংশের (0710231 
82০01019) পীড়ন ব্যাপ্তি (50:253 01501006101) 
নির্ণর কর! যাইবে ও প্রাপ্ত মুল পীড়নের মান 
ও দিক হইতে অভিলম্থ পীড়ন, স্পর্শক পীড়ন 
গ রম্তন পীড়ন (0:2509501%6157 00100581 


রতে . 


ধাঠন-বিল্লেষণে ফটোইলাপ্রিক পদ্ধতি 8]. 


প্যারামিটার যথাক্রমে 719 09) 691 এখন 
91) 568 কোণে স্থির অক্ষের সহিত আনত 
রেখা ভুইটিকে এমনতাঁবে অন্কন করিতে হইবে 
যে, উহার! যেন [।; ও 18 আইপোর্রিনিকঙন্ের 
মাঝামাঝি ছেদ করে এবং 865 কোণে আনত 
রেখাটিকেও একইভাবে [9 ও 19 মাঝামাঝি 
98 কোণে আনত রেখার পহিত ছেদ কদাইক়। 
অন্থন কথ্সিতে ছইবে। এখন 90), 699 ও 63 
কোণে আনত রেখাখুলির সহিত 11, 153? ও 13 
রেখাগুলির ছেদবিন্ৃতে স্পর্শ ককাইক্সা মূল পীড়ন 
রেখা অন্ধন করা বাইবে। ভর হেখাগুলির মান 
নির্ণ্র সম্পর্কে পুর্বেই বলা হইন্াছে। এখন ভিন্ন 
মূল পীড়ন দুইটিকে আলাদ।ভাবে নির্ণর করিতে 
পারিলেই মোটামুটি কোন অংশের পীড়ন সৎদ্ধে 


স্ুলাগাডন রেখা 


হ? 





23 


২ 
সিটি 


2নং চিজ : 


80653, (81326106091 ৪6555 24 51868110708 
৪06৪3) সহজেই পাওয়া! ধাইবে। 
আইপসোক্রিনিক রেখা হইতে মুল পীড়ন 
রেখ! অঙ্কন কণিতে হইলে উপরের 2নং চিত্র 
জ্টবা। [$, 18১ [ও 
চি 


আইপসোক্রিনিকখলির 


ধারণা কর! যাইবে। ০৮ ও ০৫ নির্ণয় করিধার 
বিভিক: উপাঙ্গের মখ্যে সহজ এবং নির্ভরযোগা 
একটি পরীক্ষ! মিয়ে উদ্ধৃত ছইল। 

সমবতী-বন্ত্রে অবস্থিত নমুনাটিকে ০৮ পীড়নের 
শমাত্বরাল কোন অক্ষর সহিত ৫6 কোণে নত 


82 জবান ও বিজ্ঞান 


করিলে  নমুনার কার্ধকর বেধের পরিবর্তন হয় 


এবং ভ্াহার ফলে রেখা স্তরও পরিব্ডিত 
হইয়া যায। এখন পরিবতিত রেখাক্রম ও পুর্বে 


প্রাপ্ত রেখাকম হইতে ০ ও ০৫ নিম্নলিখিত 





পান আমা 
6৮ 


[ 27তম বর্ষ, 2য় সংখ্য। 


03৮৮007০৫৫৮ 990 94৫ ্ 
1 4 - 


লে ০ 0 ও পু শ 18 রিলে 0৮৮ 





/৫036 


নং চিত্ত 


উপায়ে নির্নর করিতে হয়] পুর্বোজ সমীকরণ 
অনুষারী আপেক্ষিক মন্বন, 

[৮৮ ০0০৮ -0৫) 

এখন কোন জ্বর রেখাক্রম 17; এবং এক 
ইঞ্চি বেধের নমুলাঁয় প্রথম তররেখা (1:80 0101 


11086) হ্ঠিকারী পীড়ন £ ছইলে? 


7)) 7209 1 এইবার ০% পীড়নের সমাস্তরাল অক্ষের 
সহিত নমুনাটিতে 0 কোণে নত করিলে কার্যকর 


বেখের পরিমাণ ০ ও আপতিত রশ্মির 
(958 


লশ্থতলে লীড়নদ্বক্পের পরিমাণ ০৮ এবং ৫৪ (০০5 
হঈবে (9নং চিত্র )। 


অতএব, এই গীড়ন ও কার্যকর বেধঅনুযায়ী শর রেখাক্রম 


০৮0৯ (05৯6 
)6 ০ ৯০১০ ্ 
+ (956 


০৮ ও ০৫-র মান উপরের সমীকরণে বসাইয পাওয়। যাঁর 


(0০ 
ক 0১৪ 


18 --719 09526 


[ ০৮০, তের রি ] 


আবার 202 08 বা 03:5112 
অতঞব 3০---0708-7895-6- 


0958-77. 


170 05058 -- 18» 10901. 05058) 


বা, 100 (0089-৮1-16 0০08৪--11 
০ |.» (.0১ ? 51786. 
11 ৮৮1১47 7900 ৪4৮2. 


ফে্রয়ারী, 1$74 ] ঠাঞ্চয়্ 83 
এখন 28৩. 09এর মান বসাইকসা। প্রতৃত সমাদর পাত করিয়াছে--বিতিষ্ন প্রশ্থের 
6. এ ও ০৫. 5 সমীকরণদ্বশ হইতে সমাধানে ইছাঁর ভ্রুততার জন্ত। ইনছা এখন 


০%৮ ও ০৫-এর মান সহজেই পাওয়া বায়। 
এর পদ্ধতিটি ডিঃ লি, ড কারের (9.0. 10:801551) 
কোৌপিক আপত্বন পদ্ধতি (01105, 117519615০9 
£0611১9) নাঘে পরিচিত। এখন প্রতি বিন্দুতে 
০% ও ০৪-এর মান অহ্যাক্গী উহাদের সমরেখা 
অঞ্কন করা যার অথবা কোন সঙ্চট অংশের 


বিভিন্ন শুর বিন্দুতে মুল পীড়ন ও চরম ফুস্তন 
পীড়ন সহজেই নির্ণয় করা বান়। 
এতক্ষণ সাধারণ ভাবে ফটোইলাইিক বিঙ্গেষণ 


বর্ণনা করা হইল। এই পরীক্ষা পঙ্ধতি বিদেশে 


অনেক জটিল প্রশ্রের সমাধান করিপ্পাছে, যাহার 
সমাধানের কোন সুত্র পুর্বে পাওয় বায় নাই। 
আমেরিকার বিশিই প্রবুক্তিবিদের1 ইউরোপের 
ঘাদশ/ত্রয়োদশ শতাব্ীতে নিমিত বুহৃৎ উচ্চ তা- 
বিশিষ্ট গীর্জার বিভিন্ন অংশের উপর এই পরীক্ষা 
চালাইক্লা বিতিপ্ন চাঁঞ্লযকর দিদ্ধান্তে উপনীত 
হইয়াছেন যন্ত্রবিদ্কায়ও ইহার অবদান অপরিখিত। 
ভবিষ্যতে এই পরীক্ষা পদ্ধতি আরও উন্নত্বত্তর 
গ্রযুক্তিবিদ্তা ও বস ্রবিগ্থাবিষ্ক গবেষণার কাজে 
ব্যবন্দত হইবে সন্দেহ নাই। 


সঞ্চয়ন 
বুধ ও শুক্রগ্রহের সন্ধানে 


রাতের আকাশে মিটু মিটু করে জগছে 
অসংখ্য নক্ষত্র। সৌরজগতের গ্রহ-উপগ্রহাদি 
সম্পর্কে নান! গবেষণার কাজে এই নক্ষত্র ও 
তারকারাজি এখন বিজ্ঞানীদের প্রভৃত সাহাধ্য 
করছে; কয়েক বছর আগে পর্ধস্তও পৃধিবীর 
বিবর্তন, পৃথিবীর সম্পদ ও সমস্যা, ভূষিকম্প, 
আবছাওয়! প্রভৃতি সম্পর্কে গবেষণার জন্তে 
সমুদ্র-বিজ্ঞানী, আবছুবিদ ও ভূতান্তিকদের সরাসরি 
পৃথিবীর উপরই নির্ভর করতে হতো । 

কিন্তু সম্প্রতি পৃথিবী সম্পর্কে গবেষণা! এক 
নতুন পর্যায়ে উপনীত হুর়েছে। এখন পৃথিবী 
সম্পর্কে গবেষণার কাজে পখিবীর উপগ্রহ টাদ 
ও মঙগলগ্রছের সঙ্গে তুগনার সাহাষা নওগা 
হচ্ছে। এমনিভাবে জন্ম নিয়েছে এক নতুন 
বিজ্ঞান। এর নাষ তুলনাঁদুলক গ্রহ-বিজান। 
বিজ্ঞানীদের গবেষণার সঙ্থার়তার জনে এদের সঙ্গে 


সক্প্রতি আরও ছুটি গ্রহ খুক্ত হচ্ছে। এই ছাট 


হলে! শুক্কগ্রহ ও বুধগ্রহ। যুক্তরাষ্ট্রের জাতী 
বিমান-বিজ্ঞান ও মহাকাশ সংস্থা 3রা নভেখর 
(1973) এই ছুটি গ্রহ গভিমুখে একটি মেরিনার 
মহাকাশষান উৎক্ষেপণ করছেন। 

এই মেখিনার-10 মহাকাশবানটি এই সর্বপ্রথম 
একটি গ্রহের অভিকর্ষ শক্তির সাহাধ্য নিক্কে 
অপর একটি গ্রহাভিযুখে চাপিত হবার পথ 
প্রস্তত করে নেবে । শ্ুক্রগ্রছের অভিকর্ধ মন্ছাকাশ- 
ঘানটির গতিবেগ হ্রাস করবে এবং এর গতিপথ 
বুখের দিকে খুরিত়ে দেবে। মেরিনাঁর-10 1974 
সালের 5ই ফেব্রুয়ারী 5,000 কিলোমিটার 
(3,000 মাইল ) উঠ দিতে শুক্রগ্রহকে অতিক্রম 
করবে এবং সবর্দিক অন্কূল থাকলে 29শে মার্চ 
বুধের 1000 কিলোমিটা (600 'ঘাইল ) দূরত্থের 
মধা দিয়ে আতিরুম করে যাবে! 

মেরিনার-1) মহঁকাঁশযানের মধ্ো থাকছে 
ছাট টেশিতিশন' কাধেরশিমেত 7টি উবজ্ঞীনিক 


84 জান ও বিজ্ঞান 


ধন্। এগুলি গ্রহ ছুটির ৪8 হাজার ব! তারও. বেশী 
আলোকচিত্র গ্রহণ করবে । টেলিতিশন ক্যামের।- 
গুলি দুরবীক্ষপ-বজজ সমদ্বিত। এর ফলে ভূত 
বিজ্ঞানীরা বুধের পৃষ্ঠদেশের বৈশিষ্ট্য দেখতে 
পারবেন। এইভাবে বুধের পৃষ্ঠদেশের মানচিত্রও 
প্রস্তুত করা সম্ভব হবে। 

অন্তান্ঠ যে সকল বঙ্জপাতি মেগ্লিনারে রন়েছে, 
তাঁর যধ্যে উল্লেখযোগ্য হলো গ্রহাদির নিকটবতর্ 
চৌত্বক ক্ষেত ও প্লাজা! ক্ষেত্র পরিমাপক বহ্তগুলি। 
একটি ইনফ্র/রেড রেডিওমিটার তাপমাত্রা পরিমাপ 
করবে এবং ছুটি আলট্রা্ডায়োলেট বস্ত্র গ্রহ 
ছুটির আবহৃমগ্ডলের থোজখবর নেবে। গ্রহ ছুটির 
ভর, অভিকর্ধ, আভ্যন্তরীণ উপাদান এবং ঘনত্ব 
নির্ধারণের জন্ভে বেতার ব্যবহার করা হবে। 

গুক্র হলো পৃথিবীর নিকটতম গ্রহ। এর 
আয়তনও পৃথিবীর প্রায় সমান। শুক্র সম্পকে 
গ্রহ-বিজ্ঞানীদের তাই বিশেষ আগ্রহ রবেছে। 

শুক্গ্রহ-স্গুক্র যেখের ঘন আবরণে ঢাকা । 
ফলে এর প্রষ্ঠদেশ অসম্পষ্টভাবে চোখে পড়ে। এই 
মেঘের স্তরগুলি শুক্রপৃষ্ঠের ০0 কিলোমিটার বা 36 
মাইল উধের্ব বিস্তৃত রয়েছে। তৃপৃর্ঠের মেধস্তর- 
গুলি কিন্তু মান্ধ 10 কিলোমিটার বা 6 মাইল 
পর্যস্তক বিস্তৃত। শুকরের মেথধের উপাদান ও 
গতিবেগ রহশ্াধৃত। মেত্রিনার-10-এর যন্ত্রণাতি- 
গুলি এই রহ্ন্য উদ্ঘাটনের চেষ্ট/ করবে। 
সপৃষ্ঠে স্থাপিত বস্ত্রপাতির সাহায্যে পর্যবেক্ষণের 
ফলে জানা গেছে যে, গুক্রের মেধের উপরের 
সতরটি সর্ধদাই এক কিলোমিটার পর্ধস্ত উপরে 
ও নীচে চলাঁচল করে। আুক্রের মেঘের পর্বে 
স্তর পৃথিবীর মেখের শর্ষোচ্চ শ্তরের যতই 
ঠান্তা। প্রান্থ শুস্ত ডিগ্রীর নীচে 35 ভিগ্রী 
ফারেনহাইট এন ভাপমাত্র।। কিন্ত শুর্ুগ্রঞ্ছে 
মেখস্তর থেকে গ্রহের পু্টদেশে তাপদাত্র 
ক্রমেই বেড়ে গেছে। শুক্রপৃষ্ঠগেশের তাপমা্! 
হবে 800 ডিগ্রী কােনহাইট। এই প্রচণ্ড 


| 2টতম বর, 2য় সংখ্যা 


তাপে অধিকাংশ খনিজ পদার্থই গলে বার। শুক্র- 
পৃষ্ঠের আবছুমগুলের চাপ পৃথিবী অপেক্ষা 
শতাধিক গুণ বেশী। 

গুক্র তার মেরুরেঘার উপর প্রতি 243 দিনে 
একবার আবতিত হপ্ন এবং প্রতি 225 দিনে এক" 
বার নুর্যকে প্রদক্ষিণ করে। কিন্ত পৃথিবী ধেদিকে 
ঘোরে--শুক্রের গঠি তার বিপরীত দিকে । তাই 
শুক্রের একটি দিন পৃথিবীর 115 দিনের সমান। 

পৃথিবীর আবহ্ৃমণ্ডলের সঙ্গে শুক্রের আবহু- 
মণ্ডলের কোন মিল নেই। শুক্রের আবহুমণ্ডল 
শতকর 90 ভাগ কার্বন ডাই-অব্সাইড দিসে 
গঠিত। এতে নাইট্রোজেন ও অক্সিজেনের ভাগ 
খুবই কম! কিন্ত এই শেষোক্ত ছাটিই পৃথিবীর 
আবহুমগডলের প্রধান উপাদান। শুক্রগ্রহে কিছু 
জলীক্ব বাপ আছে! জাঁতীক্ন বিমান-বিআান ও 
মহাকাশ সংস্থার আর. আই. রসুল হিসাব করে 
দেখেছেন যে, শুক্রের আবহমণ্ডলে যত জলীয় বাস্প 
আছে, তা একত্রিত করে জলে পরিণত করা 
হলে এবৎ সেই জল সমস্ত শুক্রপৃষ্ঠব্াপী লমান- 
ভাবে প্রসপ্ষিত হলে যে সমুদ্র সৃষ্ট হবে, তার 
গভীরতা হবে মাত্র 10 সেন্টিমিটার। কিন্ত 
পৃথিবীর সমুদ্রগুলির জল বদি পৃথিবী পৃষ্ঠব্যাপী 
সমানভাবে প্রপারিত কর! হয়, তাহলে তার 
গতীরত। হবে 3 কিলোমিটার । শুক্রে্ ঘন 
আবছুমণ্ডল উত্তাপকে ধরে রাখে । ফলে শুক্রপৃষ্ঠের 
তাপমাত্রা বেড়ে বাক্স ! 

ভূতত্ব-াবজ্ঞানীর! শুক্ষের মেঘের মধ্যে ছিত্র 
পাবেন বলে আশ করছেন, যাতে এই সকল 
ছিক্রিপথের মধ্যে দিনে তারা মেরিনার-10-এএ 
কামেরার পাহাব্যে শুক্রপৃষঠের আলোকচিত্র 
গ্রহণ করতে পারবেণ। তবে এর সম্ভাবনা যে 
থুব বেশী, তা নক্গ। ক্যালিফোপিয়া ইনপ্টিটিউট 
অব টেক্নোগপজির ডষ্টর ক্রস ঘারে বলেন- 
তুক্রপৃষ্ঠ দেখতে পাওয়া গেলে তা একটা 
অলৌকিক ব্যাপার হবে। 


ফেব্রুয়ারী, 1974 ] 


পথিবী ও শুক্র--এই ছুটি গ্রন্থের আয়তন ও 
ওজন প্রায় সমান! আদি সৌর নীহারিকা 
প্রায় কই সময়ে অঙ্ুক্প উপাদান থেকেই 
উভয়ের জন্ম। হুর্ধ থেকে হুয়েরই দৃবত্ব প্রা 
সঘান। তবু এই ছুটি কেমন করে ছুটি সম্পূর্ণ 
পৃথক গ্রে পরিশত হলো? এসম্পর্কে যে সকল 
বৈআনিক তত্ব রয়েছে, ঘেরিনার-[0 অভিবানের 
ফলে হনব সেগুলি সমধিত হবে, নতুবা সেগুলি 
মিথ্যা প্রমাণিত হবে । 

বুধগ্রহ--বুধ সম্পর্কে আমাদের আন আরও 
অল্স। আযারিজোনা বিশ্ববিদ্ালয়ের জেযাোতিবিজানী 
রবার্ট জি. ই্রম বলেন--হুর্ধ থেকে সবচেয়ে দুরবতা 
গ্রহ ঘ্ুটোর কথা বাদ দিলে পৌরমণ্ডলের গ্রহ- 
গুলির মধ্যে সবচেয়ে কম তথ্য জানা গেছে 
বুধ নম্পর্কে। মেমিনার-10 হলো প্রথম মহাকাশ 
যান, বা বুধে বাচ্ছে। আর এক কথা, ক্ষুদ্র 
আয়তন এবং হুর্ধের অতি নিকটে অবস্থানের 
জন্তে বুধ সম্পর্কে পৃথিবী থেকে পর্যালোচনা 
চালানো কঠিন? বুধ হলো সৌরজগতের 
ক্ু্রতম গ্রথ। জআযাটলান্টিক মহাসাগর যেখানে 
সবচেয়ে প্রশত্ত, সেখানে তার পৈর্ঘয যতখানি, 
বুধের ব্যান তার চেয়ে বেশী নন্ব। ঘড়িতে 
একট! বাজলে তার কাটা ছুটির ষধ্যবত্তী কোপা 
বত ডিগ্রীর হয়, বুধ ও নুর্যের মধো অরূপ 
রেখাছর কয়ানা! করে নিলে যে কোণ শৃষ্টি হবে, 
তা তাঁর চেয়েও ছোট হুবে। তীর সুর্ধালোক 
সত্বেও বিজ্ঞানীর] বুধগ্রন্কে পর্যবেক্ষণের চেষ্টা 
করেছেন, কিন্তু তার! খুব বেশী পল হন 
নি। বুধেন্ক পৃষ্ঠদেশে যোটা, কালো দাগ মাত্র 
দেখা গেছে। 


8 
তবুও বুধকে পর্যবেক্ষণ করা সব হলে 
সৌরজগতের অনেক রহপ্তের কিনারা করা বাবে 
বলে বিজ্ঞ।নীর! মনে করছেন। বুধ ম্মুছতম 
গ্রহ হলেও এর ঘনত্ব লঞ্ভবতঃ সবচেরে বেনী । 

: বুধ সম্পর্কে খুব কমই জানা আছে, মেটুকু 
জানা গেছে, তাও অতি সন্প্রতি। 1965 সাল 
পর্ষন্ত বিআনীদের ধারণা ছিল নুর্ষের কঙ্ষপথে 
বুধ বে বেগে ঘোরে--নিজের অক্ষরেধার চারদিকে 
সে সেই একই গতিবেগে ঘোরে, অর্থাৎ প্রতি 
8৪ দিনে একবার। এথেকে মনে হয় চাপের 
মুখ পৃথিবীর দিকে যেভাবে রর়েছে-বুধের একটি 
দিকও সর্বদাই হুর্ধের দিকে রক্ষেছে পেভাবেই। 
অবশেষে 1965 সালে যার্িন বিজ্ঞানীর! 
রেডারের সাহাবো এই তথ্য নির্ধারণে পক্গম 
হলেন যে, প্রকৃত ব্যাপার তা শয়। প্রকতপঞ্গে 
বুধ প্রতি 53 দিনে একবার আবতিত্ত হক্ব; 
অর্থাৎ হুর্ধকে ছু-বার প্রদক্ষিণ সম্পূর্ণ করবার মধ্যে 
বুধ নিজের অক্ষরেখায় তিনবার আবতিত হয়| 

এই ঘূর্ণাবর্তনের জন্তে বুধে দিনের তাপমাা 
প্রাক্ম 625 ডিগ্রী ফ|রেনহথাইট পর্ধপ্ত ওঠে এবং 
রাত্রে তাপমাআ নেষে আপে শুগ্ত ডিগ্রী 
নীচে 250 ডিগ্রী কারেনছাইটে। 

বুধগ্রঙ্থের আবহুমগুল বা চৌদ্বক ক্ষেত্র নেই 
এছাড়া হুর্যের লগ্িকটবতাঁ এই বিশ্মগ্কর 


গ্রহটি সম্পর্কে আর বিশেষ কিছুই জাল! নেই। 


আঁশ! করা যাচ্ছে--মেরিনার-10-এর অিবানে 
অবস্থার অনেক পরিবর্তন ঘটবে । মঙ্গল যেষন 
পৃথিবীর অনেক পরিচিত ও অ[পন হয়ে উঠেছে -- 
মেরিনার অভিধানের দৌলতে বুধও ক্অচিনেই 
সেই রকম পরিচিত হক্ে উঠবে বলে মনে হন 


প্রাচীন গ্রীসের নগর-বিহ্যাপ 
অধনীকুমায় দে 


হিপোডেমাস্‌ (31920180003) 
খুটপূর্ব পঞ্চম শতকের গোড়ার দিকে প্রাচীন 
গ্রীসের মাইলেটাস (11565) শহরে হছিপো- 
ভেমাস জন্মগ্রহণ করেন। তিনি ছিলেন একজন 
স্থপতি । এ শতকের পরবর্তঁভাগে তিনি নগর- 


বিভ্তাস শ্রপালীর নতুন রীতি প্রচলন করেন? 


£110-1101/ বা 50255700814 বা দাবার ছক 
প্রণালীতে শহরের রাস্তাধাটের বিস্তাস-রীতি তিনি 
সর্বত্রই উৎসাহের সঙ্গে কাজে লাগান। 
ঠিক নম ধে, তিনিই সর্বপ্রথম এই ধরণের নগর- 
বিস্তাপ প্রণালীর প্রচলন করেন। কারণ আরও 
প্রাচীনকালে মিশর, মেসোপোটামিঘ্া ও 1সন্ধু 
উপত্যকায় নিষিত লগরগুলি এই প্রণালীতে খিস্তত্ত 
ছিল। বিখ্যাত জ্যামিতিজ পাইথাগোরাল-এর 
স্থধোগ্য শিব্য হিপোডেমাপকে প্রকৃতপক্ষে 
নগর-পন্নিকজ্জন1 বিদ্যার জনক বলা যায়। তার 
পরিকল্পিত দগর এমনভাবে বিস্তপশ্ত ছিল, যাঁতে 
শব শ্রেণীর লোকই ভালভাবে তা ব্যবহার করতে 
পারতো । লোকজন এবং যানবাহন সব কিছুই 
ভালভাবে শহরের রাস্তাঘাট ব্যবহার করতে 
পরতো | চারপাশে রাস্তাঘেরা বাড়ীগুলি 
এমন ভাবে বিস্তপ্ত ছিল, যাতে প্রচুর আলো- 
বাতাস বাড়ীতে প্রবেশ করে। উচ্‌-নীচু পাছাড়ী 
জায়গা অবস্থিত নগরগুলি স্ুকঠোরতাবে এই 
প্রপালীতে বিস্তস্ত হওয়ায় তাঁর পরিকল্পিত নগর- 
গুলিতে অমেকগডাল খুব খাঁড়াই রান্ত! খাকতো। 
পিড়ি বেক্কে এই সব রাজ্য উঠতে হতো। তখন 
প্রায় লকলেই পায়ে হেঁটে চলাফেরা করতেন বলে 
রর জন্তে কোন রকম অসুবিধা হতো! না। নগরের 
মধ্যে থে কটি অন্পসংখ্যক ঘোড়ায় টান! শকট 


এই কথা 


প্রবেশ করতো, তাদের ব্যবহারের জনে কথ্ধেকটি 
প্রধান রাস্ত। খাকতো। | 


শহরের আয়তল 


হিপোডেমাসের মতে, নগরের লোকনংখ্যা 
দশহাঁজাগের বেশী হবে না। ছেলেনিক যুগের 
সর্বাপেক্ষা সমৃদ্ধির সমপ্ন কেবলমা তিনটি শহরের 
লোকসংখ্যা দশহাজারের বেশী ছিল। বেশীল্ন ভাগ 
শরীক শহয়ই ছিল আরতনে ছোট । এখেঘস শহর 
কিন্ত ছিল এর ব্যতিক্রম | খ্বঃপূধ পঞ্চম ও চতুর্থ 
শতকে এখেজবাঁপীর সংখ্যা ছিল চলিশ হাজার 
আর ক্রীতদাস ও বিদেশীদের নিয়ে এই শহরের 
মোট জনপংখ্য। ছিল এক লাখ থেকে দেড় লাখ। 


জনসাধারণের সমবেত হবার স্থ।ন (4০72) 


নগরের ব্যবসা-বাণিজ্যের রাজনৈতিক 
জীবনের কেন্তরস্থল ছিল আ।গোরা (2019) ব1 
বাজার। এর চারদিকে ছিল ভাপ শাল 
দোঁকান ও বাজারের অস্থাঙ্ধী দোকানের পারি | 
প্রধান চত্বরের একেবারে লাগোক়াতাবে নয়, কিন্ত 
কাছেই ছিল পমবেত হবার হুলখর, মন্ত্রণা-সতার 
হলঘর ও কঙ্ষগুলি। নগরের মোটামুটি কেন্ত্রস্থলে 
থাকতো আগোরা। উত্তর-দক্ষিণ ও পুর্ব-লম্চিযমুখী 
প্রধান রাস্তা ছইটি আ?গোরাঁর দিকে এসে এইখাবে 
শেষ হয়ে বেত! আযগোরা বর্গাকার বা আগতা- 
কার হতে।। আগোরার মধ্যস্থিত খোলা চত্বরটি 
সমগ্র শহরের আরতনের প্রায় শতকর। পাচ ভাগ 
জাযগ। নিদ্ধে থাকতো । এইখানে দোকান বাজার 

স্থাপত্য এবং নগর ও অঞ্চল-পরিকল্পন। 
বিভাগ । বেজল ইঞ্জিনীদ্বারিং কলেজ, শিবপুষ্প 


ফেব্রুয়ারী, 1974 ] 


করতে ব1 ধই সব বাড়ীতে সাধারণ অহষ্ঠানে 
যোগ দিতে যে সন্ত নাগগ্িক এখানে আসতেন, 
তাদের সকলেরই জারগ! এইখানে হয়ে যেত। 
চত্বরের ছারধারে থাকতো খাষওয়ালা বারান্দ!। 
এই বারান্দা থাকবার জন্তে চারপাশের বাড়ীগুলি 
নৌন্ত্রতাপ থেকে রক্ষা পেত। 

প্রাচান শ্রীক শহর আঘতনে ছোট হবার 
ফলে শহরব(সীর! পলী অঞ্চলের খুব কাছেই বাশ 
করতেন। সেই জন্টে সবে. খুব বেশী সংখ্যক 
সাধারণের জন্তে নিদিই খোল! জান্গগার দরকার 
হতো! না| শাধারণের ব্যবহারের জন্তে নিদি্ 
বাড়ীগুলির চারপাশের চদ্বরই ছিল সকলের 
বাবহারের জন্তে উদ্মুক্ত স্থান । শহর প্রাচীরের 
বাইরে থাকতো! অলিভ-কুঞ্জ, যেখানে ছিল দাশ- 
নিকদের বিদ্যালয় (১০805035 )। এইখানেই 
তার! ছারদের শিক্ষা দিতেন | এই রকম এক 
বিভালক থেকেই প্রধিবীর প্রথম বিশ্ববিস্তালয়-.. 
আলেকজান্ডার 21056৮00 গড়ে উঠেছিল। 

মাইলেটাস, অলিস্থাস,ঃ সেলিনাস, এখেজস 
পুভূত্ধি ছিল প্রাচীন গ্রীসের ছেলেনিক যুগের 
কছেকটি প্রথান ন্গর। 


মাইলেটাস (24116055) 


ছেলেনিক যুগের নগর মাঁইলেটাস ছিল আইও- 
নীয় জাতি-সংঘের সর্বপ্রথান শহুর। খবইপুর্ব দশম 
ও ষঞ্ঈ শতকের মধ্যে এর সমকক্ষ আন কোন 
শহর ছিল না। 
খআচ়ন্বর ও জেউস্ের শিখলে উঠেছিল। র্যবসা- 
বাণিজ্য, ছাজনীতি, রুই. লবকিছুতেই সকলের 
অগ্রনী ছিল ই 'শহরটি। খুটপুর্ব বট. শতকের 
শেেহ, দিকে .আইওনীর! পারশ্রের ..ঞ্ষমতাধীন 


হলো। মাইলেটাল প্রা, সম্পুর্ণ ধংস হয়ে গেল) 


খৃগূর্ব : পঞ্চম শক্তকে শর্রটিকে আবার তৈরী কর! 
হছলে।। 


এই শহ্টি যোধহ্ঘ সর্দগরথম শত যেখানে, তার 


ুষটপূর্ব সপ্তম শতকে শহরটি. 


চ3042987595-এর- : রীতিকে, বিস্বপ্ত,: ছোট দোকানঘর় . থাকতো!। 


প্রাচীন গ্রীসের নগর-বিষ্তাস নি? 


দাবার ফের অনুযায়ী বিদ্তত্ত রাত্তাঘাট দেখ! হায়। 

প্রাচীরের তিতর শহরটি আয়তন ছিল 220 
একর (4১০:০)। আযাগোরা অঞ্চল শহরের দুইটি 
প্রধান অংশকে ভাগ করে রেখেছিল। আআগোরার 
কাছাকাছি ছিল ঠ্োত্া (56০2), থিক্ছেটার, 
স্টেডিম্নাম ইত্যাদি। এই অঞ্চলের কাছেই ও 
উত্তর-পুর্বদিকে ছিল বন্দর | 


অঙিম্থাস (0151,01783) 

প্রাচীন গ্রীসের থেস অঞ্চলে খুষ্টপূর্ব পঞ্চম 
শতফের শেষের দিকেরও চতুর্থ শতকের গোড়ার 
দিকের নগক-বিস্তাসের নিদর্শন হলো অলিম্থাস 
শহর । প্রত্বতাত্বিক খননকার্য থেকে এখানে 
ছুইটি নগরের নিদর্শন পাওয়া গেছে। পুরাতন 
নগরের কিছু অংশ খুঁড়ে বের ঝরে দেখা গেছে 
যে, নগরের রাঁত্তাখাট আঅনিয়মিতভাবে বিস্তপ 
ছিল। এখানে ছিল আগোর! ও সাধারণের 
সমবেত হ্বার স্থান। পুরাতন বাসগৃহগুলি ছিল 
আকারে ছোট ও অনিক্মিভভাবে বিভ্তপ্ত | শব 
গুর্ব পঞ্চম শতকের শেষ চতুর্থাংশে শরীক ০০113 
হিসাবে শহরটি বথেই প্রাধান্ত লাভ করে। খুব 
সম্ভব পরবর্তীকালে হিপোঁডেমীন্স রীতিতে নতুন 
করে নগর-বিস্তাস করা হয়। নতুন আগোর! 
তৈরী হয়। উত্তর-দক্ষিণমুখী প্রধান প্রধান 
রাস্তাগুপ্িকে 300 ফুট ব্যবধানে বিস্তপ্ত কর! হগ্ন। 
এই প্রধান রাস্তাগুলির আলম ও পরস্পর সমস্ত 
রালতাবে বিস্তম্ত জআপেক্ষাকত সরু রাস্তাগুলি 
ছিল পুব-পশ্চিমমুখ্খী এবং 129 ফুট অন্তর ত্মস্তর, 


অবস্থিত। 348 খুষ্ট-পুর্বাবে ম্যাসিডনের ফিলিল 


শহরটিকে সম্পূর্ণ ধ্বংস করেন এরপর শহরটি 


আর প্রাধান্ত লাড় কক্সে নি। 


পৃহরৈর প্রধান দোকান বাজার ছিল জ্যাগে।-. 
রাতে! কোন -কোন বাড়ীতে রাস্তার ধারে 
হয়তো এগুপি 
ছিল ছোট ছোট: নিত্য প্রগোজনীছ জিনিবের 


&৪ জাম ও বিশাল 


দোকান কারিগরদের কাজ করবার 
জারগ!। 

প্রধাঁন প্রধান চারটি রাস্তা থেয়া এক একটি 
অংশে থাকতে! দশটি কবে বাড়ী। পুর্য-পশ্চিম- 
মুখী প্রায় ষোল ফুট চওড়া ছুটি রাস্তার ধারে 
থাকতো পর পর অবস্থিত পাঁচটি কমে একটির 
পিছনে আর একটি করে অবস্থিত দশটি বাড়ী। 
এই ছোট রাগ্াগুলি পুর্থ ও পশ্চিমদিকে গিয়ে 
পড়েছিল উত্তর-দর্ষিণমুর্খী অপেক্ষাকৃত চওড়। 
ছুটি প্রধান রাস্তার । এই ছুই সারি বাড়ীর 
যধ্যেও পিছনদিক বরাবর ছিল সরু, ময়ল।- 
শিষ্ষকাশনের জন্তে গলি। শহরের র্াস্তাথাট ও 
বাড়ীগুলি এই একই রকম তাবে বিদ্ম্ত ছিল। 
শহরের বাঁড়ীগুলিও প্রান্থ একই রকমভাবে পরি- 
কল্পিত ছিল। বাট ফুট ১ ষাট ফুট আয়তনের 
বাড়ীগুলি ছিল দোতলা । কোন কোন বাড়ীতে 
অনখর ছিল। বাড়ীর দেয়াল ইটের ও ছাদ 
ট।লীর তৈরী ছিল। থাম ও অস্তান্ত ঠেকান কাঁঠ 
দিকে তৈগী হতো। 


এর বধ 


সেজিনাস (36111,005) 
প্রিসিলি ঘীপের দক্ষিণ-পশ্চিম অংশে ও সমুদ্র- 


তীরে অবস্থিত এবং খৃষ্টপূর্ব সধ্ঠম শতকের প্রায় 


গোড়ার দিকে নিঘিত পেলিনাস ছিল একটি গ্রীক 
ওপমিবেশিক শহর | খৃ্পর্ব পঞ্চম শতকের শেষের 
দিকে কার্থেজের নিকট শহরটি বিন হন । এই 
শতকেরই শহরটি আবার ঠতরী করা হুয়। খৃষ্টপূর্ 
তৃতীয়' শতকের মাঝাধাঝি কার্েঞ্জ কর্তৃক শহরটি 
আবার বিনষ্ট হয় ও সম্পূর্ণ ধ্বংসপ্রাপ্ত হয়। এই 
শহরের প্রাচীন অংশটি ছিল সমুজ্রের ধারেই। 


পয়ে ষপরাসের জভে এই প্রাচীন জংশেয় উত্তয়-. 


দিকে শহছ্গ্টিকে 'সং্প্রপািত্ঘ কর ছ্গ্ন। 
দিকের 


(6:9090115)1 প্রায় 29 ফুট চঙ্ড়া ও শহরে 


সমুক্ের 


কেতাস্থলে অবস্থিত রাস্তা! এবং তা জাড়া খাড়ি-. 


অংশটির নাদ ছিল আ্যআক্োপোলিপ 


[ 27তম বর্ষ, 2ম সংখা 


ভাবে বিভ্তপ্ত ছুটি প্রধান ব্বাস্তার সংযোগন্থলে ' 


ছিল আযাগোর। ও মন্বির।: এই শহরের 
রাস্তাঘাট দাবার-ছক আকৃতিতে বিশ্ুপ্ত ছিল 
ন। বরং ছিল খছুরৈখিক। শহরের লোকসংখ্যা 
ছিল কুড়ি ছাজার এবং নগর-বিভাস ও গৃছাির 
স্থাপত্য ছিল খুব উত্নন্ত মানের | 


এথেক্া 


গোড়ার দিকে এখেজ শহরের রাণ্ডাঘাট ছিল 
গরু ও আকা-বাক1। রাপ্তাঘাঁট বাধানে ছিল 
ন। এবং বাবে রাস্তার আলো দেবার বন্দোবস্ত 
ছিল না| শহুরে জলসরবরাঁ€ছ ও ময়ূগ। নিকফষাশন 
ব্যবস্থার উপর বিশেষ নজর দেওয়া! হতো না। 
বাড়ীর ময়লা আবর্জনা দ্বাপ্তার উপর ফেলে বাখা 
হইতো!। পরে পেরিক্রিপ-এর ম্বর্ণযুগে অতি 
দৃন্বর জ্যাক্রোপোলিশ,। আটাগোরা, মন্দির, 
জিমনাপিক্ষাম ইত্যার্গি তৈরী করা হম়। কিন্তু 
সাধারণ বাপশৃঙ নির্সাণের কোন উ্নতি ইয় ন|। 

আযাক্রোপোলিশ পাহাড়ের দৈর্ঘ্য ছিল পূর্ব-পশ্চিম 
বর!বর। পাছাঁড়ের দক্ষিণদিকে নীচে ছিল পবিজ্ঞ 
শ্থানগুলি। খামওয়াল! লম্বা বাদান্থার শেষে 
পূর্বদিকে ছিল 95001১05-এর থিচ্ছেটার এবং 
পশ্চিমদিকে ছিল 0৫601 বা কনসার্ট হুল। 
উত্তর দিকে ছিল আযাগোস্থা, বাজার ও পৌর সৌঘ- 
গুপি। আগোরার চারদিকে ছিল জনসাধারণের 
ব্যবহারের সৌধগুলি। পশ্চি্ন দিকে ছিল পৌঁত্- 
মশা পরিষঙগের গৃহগুলি, একটি মন্দির ও ৪৩৩ 
এর স্টোকা, বেখানে সঙ্ষেটিপ ৬ তার শিষ্য ও 


অগ্চয়বর্গ ' প্রান্থই মিলিত হুতেন। পূর্ব আর 
ঘক্ষিণ দিকে ছিল খামওয়াল! দীর্ঘ ল্টোক়া। 
এটাই ছিল আগপল বাজার! এই স্থানটি খেক 


বিচ্ছিষ্ন তাবে ছিল 816৪-এর মশ্দির। শাঞ্ছাড়ের 

উপর ছিল বিখ্যাত পাধিনন--447 থেকে 494 

খৃষ্ট-পুর্ধাবে নিদিত দেবী এখেনার মন্দিয়। 
বেঈঃকা্গি প্রাচীন জীক শহর কানে "ছোট 


ফেরারী) 19741. 


হলেও এখেলস ছিল এর ব্যতিক্রম । এক সমগ্র 
এখেন্ের লোকপসংখট নাকি তিন লক্ষতে 
পৌচেছিল। 

ডিলস 


ডিলস (36109) শহরটি সরল জ্যামিতিক 
আকারে বিশ্তস্ত ছিল। এই দ্বীপটর আযগোরা- 
গুলির কিছু অংশ থুষ্ট-পূর্ব ষষ্ঠ শতকে এবং কিছু 
অংশ 417 থেকে 314 খু্ট-পুর্বাকধে তৈরী 
হযেছিল। অবশিষ্ট অংশ আরও পরবর্তা 
কালের তৈরী | উপসাগরের মুখে অবস্থিত 
শহরের কেন্দ্রন্থলে ছিল আ গোর] ও মন্দিরগুলি। 
মন্দির ও অন্যান্ত ইমারতগুলি ছিল সমুদ্রের দিকে 
প্রবং সেগুলির নিজ নিজ সংলগ্ন ও উদ্দুক্ত চত্বরগুলি 
ছিল ভিতরের দিকে । এই অঞ্চল থেকে একটি 
প্রধান রাগ্তা সাধারণের বসতি অঞ্চল ছাঁড়ি়ে 
শহরের কেন্রুস্থল খেকে দূরে অবন্থিত পাহাড়ের 
গায়ে নিথিত খিক্েটার পর্স্ত চলে গিক্লেছিল। 
এখান থেকে রাস্তাটি আরও অগ্রসর হয়ে উ£তে 
উঠে সবচেয়ে উচু পাহাড়ের উপর অবস্থিত মন্দিরে 
গিয়ে শেষ হয়েছিল। দ্বীপের অপর দ্দিকে ছিলি 
স্টেডিয়াম এবং যথারীতি জ্যামিতিক আকারে 
বিস্তন্ত খেলাধূলা করবার জান্বগ!। 


হেলেনিস্টিক শহর 

650 থেকে 323 খুই-পুর্বান্ম পর্যস্ত হেলেনিক 
যুগ ধরা হজ আর 3১3 থেকে 30 খুই্-পুর্বাক পর্বস্ত 
হলো হেলেনিস্টিক যুগ। এই পরবতরখ সময়কে 
ম্যাপিভোনীর় যুগ বলা! হয়। এরই সময়ের 
নিহিত শহর হলো! শ্রিরেন ও আলেকজা্রিয়া। 

খু্ট-পৃখ চতুর্থ শতকে প্রীলবাঁসীরা শাসনকার্ধ 
পরিচালনার দাতিত্ব বিষে ক্রঘশঃই বেশী উদাপীন 
হতে উঠতে থাকে । তাঁরা মনে করতে লাগলো 
ষে,. নিজেদের খুলীঘত কাজ তারা! করতৈ 
পারে) ধনীর অধিকাংশ সময তাদের পঞ্গীগৃছে 


প্রাচীন গ্রীসের নখর-বিচ্যাস 89 


কাটতে লাগলেন সাধারণ লোককে জীবি- 
কার্জন করতে খুবই কট করতে হতো । সমাঞ্জে 
মধ্যবিত্ত শ্রেণী প্রান লোপ পেধ়ে যেতে লাগলো 
ধনী ও গর্দীৰ লোকের মধ্যে ব্াবধান ক্রমশই 
বাড়তে থাকে। 

[১210100115551017 যুদ্ধের ফলে এখেন্সেও 
অনৈতিক অবস্থ। খুবই দুর্বল হরে পড়লে।। সহজেউ 
আক্রমণকারীর কাছে পরাস্ত কলো এখেন্স। 
আলেকজান্দা দি গ্রেউ-এর যাপিডোনার 2সন্ত দল 
জয় করলো এথেল। কিন্তু পরাজিত হওয়া সত্ডেগ 
তার। নিজেপের কৃষ্টি বজায় রেখে চললে। | বিজেতা- 
দেব তুলনায় তাদের নিজখ্ব কৃষ্টি বং বেশী প্রভাব 
বিস্তার করেছিল। ভূমধ্যসাগরের সমণ্ত ওাঁএবতী 
অঞ্চলে গ্রীক প্রভাব খিপ্তার করলো । ছেলেনিঃট ক 
যুগে নতুন ধরণের নগর-বিষ্তাল রীতিমত প্রচপিত 
হলো। 

পান্গামন, আলেকজাপ্ডিকা লাইরাকিউস, 
কান্দাহার প্রভৃতি শহয়গুলি আদ্লতনে আরও 
বড় ও বেশী জনবহুল হয়ে উঠলে! | শহ্রপ্তপি 
বিলাসের ক্ষেত্র হয়ে উঠলো । 03619 কোষাগার, 
লাইব্রেরী, ককেদখানা ও অগ্তান্ত জাকজঘকপুর্ণ 
জনসাধারণের পৌধগুলি আগোরর সঙ্গে যুক্ত 
হলো। আমোদ-গ্রমোদ ও উত্ন্বাদির জন্যে 
আানাগার, স্টেডিয়াম, ইত্যাদি 
তরী হলো। প্রাচ্য দেশগুলির অন্থকরণে বাগান 
ও পার্ক তৈরী করা হলে! । বাজার! সুন্দর সুন্দর 
সৌধ তৈরী করলেন। রাজা ও ধনীরা তাদের 
উপহার ও দান হিসাবে শহরে অনেক মুন্ধঃ 
সুন্বর বাড়ী তৈরী করে দিলেন! কমে ক্ষ 
বর্ণবিভাগ গড়ে উঠলো। ক্রমে খৃষ্ট-পূর্ব তৃতীর ও 
দ্বিতী্ন শতকে বিশুদ্ধ হেলেিস্টিক প্রথা শহর" 
বিন্তাগ রীতির ক্রষশঃ অধোগতি হলো।। 


চ১91065080 


প্রিয়েন 
ধৃই-পুর্ব ষ্ধ শতকে প্রথম তরী এই শ্রিরেন 


9) 


(61676) শহত্য আইযোনিন্ার সমুদ্রোপকৃলে 
পাহাড়ের উপর অবস্থিত ছিল। ধরষ্ট-পৃর্ব চতুর্থ ও 
ভূক্তীৰ শতকের সন্ভিকালে শহুরটিকে লম্পূর্ণ তাবে 
পুনদির্মাণ কর হখেছিল। ছূর্গলদেত সার! শহটির 
চারদিকে মঞ্জবুত ভাবে তরী প্রাচীরঘেরা ছিল। 
প্রাচীরের মধ্যে ছিল তিনটি প্রধান প্রবেশদ্বার । 
প্রাচীরের মধ্যে মাঝে মাঝে ছিল বুরুজ। 

ছেলেনিক যুগের শেষের দিকে হিপোঁডেমীর় 
রীতি অঙ্ছসারে শহর-বিষ্ঠাস কর! হঙ্গেছিল। 
শহরের রাস্তাঘাট আম্মতাঁকারভাবে বিশ্রুন্ত ছিল। 
রাস্তাগুপি 11 ফুট থেকে 22 ফুট পর্বস্ত চওড়া 
ছিল। রাস্তায় মাঝে মাঝে দেয়ালে গাঁথ। 
জলের ফোয়ারা ছিল। পাহাড়ের গায়ে বিডি 
উচ্চতায় ধাপে ধাপে শহুর গড়া হয়েছিল। এর 
ফলে কিছু রাশ্ত; ছিল খ্বখাঁড়াই। এই রাস্তা" 
গুলির অনেক স্থানেই গিড়ি ছিল, তা না হলে 
এত খাড়াই বাসার ওঠানামা] করা কইকর হতো। 
শহরের প্রধান রাষ্ডাগুলি শহরের প্রধান প্রবেশদ্ার- 
গুলিকে আগোরার সঙ্গে যুগ্ত করেছিল? এই 
রাস্বাগুলি বেশী খাঁড়াই ছিল না বরং এমন ঢালে 
বিন্ত্ত ছিলি, যাতে ভারবাহী পশ্ড ও শক্টাদি 
সহজ্জেই চলাচল করতে পারতো] । 

শহরের সবচেয়ে উচি জারগা ও ভৌগোলিক 
কেন্দ্রে ছিল আযগোরা। আগোরার চত্বন ছিল 
টর্েয 230 ফুট ও প্রন্থে 120 ফুট। সুসমঞ্জপভাবে 
বিদ্তুপ্ত আযাগোরার চাঁরধারে ছিল জনসাধারণের 
জন্তে বাড়ীগুলি, মন্দির, দোকান ও বাজার । 
জিমনাসিত্াম, স্টেডিক্কীম, থিষেটার, পৌর মঙ্ত্রণা 
পরিষদের সভাকক্ষ, পরিষদ সমস্তদের নিজ 
ক্গগুলি, ছাদবিধীন সাধারণের জমায়েত হবার 
ছলঘর ইত্যাি জনলাধারণের ব্যবহাদের বাড়ী- 
গুলি আগেকার চারদিকে প্রচলিত নিঘদ।নুষাঞ্গী 
বিস্তপ ছিল। আ্যাগোরা! থেকে সহজেই এই 
বাড়ীগুলিতে প্রবেশ করা যেত। এগুলি কিপ্ত 
বাজান একবারে গায়ে লাগানো ছিল না। 


গান ও বিভযান 


| 27তম হর্ধ, 2য় সংখা 


বাজারে কেবলমাত্র পথচারীয়াই চলাফের! করতে 
পাঁরতেন। বাজারের বাইরের দিকে চারপাশে 
আলাদ1 রাস্তা ছিল | এই প্রান্ত থেকে পোঁকানে 
মালপত্র আন'নেওয় কর! হতো! । 

প্রিয়েন শহরের লোকসংখা। ছিল প্রান চা 
হাজার । পাহাড় থেকে পানীত্র জল শহুরে বঙ্গে 
নিয়ে আসবার শ্রবন্দোবণ্ত ছিল। শহরের ময়ল। 
জল নিষ্ষাশন ব্যবস্থাও বেশ ভাল ছিল। বাড়ী- 
গুলি সাধারণত: ছিল দোলা । 

শছবের দক্ষিণদিকে পমুঞ্জর ধারে অপেক্ষাকৃত 
বড় আর একটি ব্যাতামাগাঁর ও -স্টডিক্লাম ছিল। 
শহর থেকে কিছু দুরে আরও উঠতে পাহাড়ের 
গায়ে অবস্থিত ছিল আযক্রোপোলিশ। উচুতে 
অবস্থিত হওয়ায় এটি হজেই দৃষ্টি আকর্ষণ করহো! 
এবং এখান থেকে চারদিক বেশ ভালতাবে দেখতে 
পাওয়া যেত। 


আলেকজাতিদয়। 

নীলনদের ব-দ্বীপের কাছে নিজের নামাঙ্- 
সারে আলেকজান্দার এই শহরের পত্তন করেন । 
এই শহরটি ছিল সমুক্রণথে ব্যবসা-বাণিজোর 
একটি বড় কেন্ত্র! ডিনোক্রেটিশ নাথে একজন 
স্থপতি ও নগর-বিন্কালকার এই শহরের পগিকলপন। 
কষেন এবং এর পি্ন/প কাঁজের তত্বাবধাঁনের জঙ্তে 
নিষুক্ত হন । 

প্রাচীরথের! শহরটি দাবার কের আকৃতিতে 
সদূম্জদভাবে বিস্তপ্ত ছিল। নদীর ধারে ছিল 
ফোরাম, বেখানে ছিল রাজপ্রানাদ প্রত্ভৃতি 
রাজকীয় সৌধ, মন্দির, সাঁট্যশালা, ব্যাযাষাগার, 
পাঠাগার ইত্যাদি। শহরের কেন্রান্থল গিয়ে চলে 
গিছেছিল পুর্ব-পশ্চিমমুখী প্রধান রাস্তা । শহর 
প্রাচীরের বাইরে ছিল স্টেভি্াম। শহরের 
দক্ষিণ-পশ্চিম দিকেও নদীর বাকের কাছে ছিল 
বিরাট পাঠাগার! সেই সময়ে এই পাঠাগার 
ছিল পাঞুলিপির সর্বশ্রেঠ লংগ্রহশীপা। নদীর : 


ফেব্রুয়াকী, 1974 ] 


ধারে ছিল একটি মাঁজ পাঁখর থেকে খোঁদাই করা 
সরু খামের মত 092115-মাম 'ক্রিগুপাটার 
হুচ' (ব৩516)। হ্বীপেক পুর্ব প্রান্তে ছিল 400 ফুট 
উঠ বুকঙজাকৃতি ফ্যারাগুযের লাইউহাউপ। শহরটিন 
আয়তন ছিল প্রাপ্প 2200 একর এবং লে।'কসংখ্য! 
ছিল তিন লক্ষ বা তারও বেশী। 

আনেকজান্ত্রয়। ছিল একটি বিধাত শিক্ষাকে। 
খষ্টাব্দের চতুর্থ ও পঞ্চম শতকে শহরটর প্রাধান্ত 
কমে বায় এবং খুঠাবেহ সপ শতকে কারে 
শহর প্রধান হয়ে উঠে এর স্থান অধিকার করে। 

আঁলেকজাগ্ারের শক্তিশালী রাঁজতঙ্জের অধীনে 


 স্কৃবি-সংবাদ 


9] 


হেলেনিস্টিক যুগের শহরগুলি খুবই এীশ্বর্ধশালী ও 
জাঁকজমকপূর্ণ হতে উঠেছিল! আঙ্ত্রাস্ত ও ধনী 
বাঞজ্িরা শহরের উন্নতির জনে বথেষ্ট অর্থ দাদ 
করতেন। এই রাজত্বের ফলে সাধারণের 
নিজেদের থেকে কাঞঙ্জ করবার ক্ষমত প্রায় 
নিঃশেষ হয়ে এসেছিল এবং সমাজের শক্তিও ক্ষীণ 
হয়ে গিয়েছিল। ফলে আলেকজাগারের ম্বতার 
পর তার রাঁজর শেন হবার পল সঙ্গে সমাজে 
ভাঙন ধরলো। 323 খৃষ্টপুর্বাকে ব্যাবিলনে 
আলেকজ।গাবের মৃত হক এবং এর পর তাত 
সাআ্রাজ্য ভার শেনাপরতিদের মধ্যে ভাগ হগ্গেবার। 


কষি-নংবাদ 


পুঠিকর খান সন্নাবীন 

ভাঁরতীর় কুঘি অন্পন্ধান পরিষদের শঙ্কর শরণ 
সাকসেনা ও গুরুপ্রপাদ শ্রীবাস্তব এই বিষঙ্গে 
পিখেছেন-সক্সাবীনের চাষ চীন, জাপান ও 
আমেগিকাপ্র ব্যাপকভাবে প্রচপিত। আমেরিকাতে 
এটি উতদ্ভিজ্জ প্রোটিন ও ম্রেহজাতীর় পদার্থের প্রধান 
উৎ্স। ভারতবর্ষে এতদিন কাঁশ্সীর ও নাগা 
ল্যাণ্ডের উত্তর ভাগের পাহাড়ী অঞ্চলে সর়াবীনের 
চাঘ করা হুতো। পুষ্টিগুপণের জন্তে গত কয়েক 
বছর ধরে বিস্তৃত সমতল ভূমিতে সক্গাবীনের 
চাষ করবার চেষ্টা হচ্ছে | 1958 সালের একটি 
ছিসাব খেকে দেখা গেছে, ভারতে প্রাঙ্ক 43,000 
একর জমিতে এই ফসলের চাষ হয় এবং তাথেকে 
প্রায় 6,000 টন ফসল পাওয়। বায়! 

ভারতের "অধিকাংশ কোকই দরিদ্র ও 
নিরামিষাণী এবং খাঁন্তে প্রোটিনের জন্তে তার! 
প্রধানতঃ ডালের উপর নির্ভর করেন। অড়র, 
ছোলা, মুগ, কলাই এবং মনুর-প্রধানতঃ এই 
কদেকটি ডাল খান্কে বহার কর! হয়! সঙ্গাবীনও 


এগুলির মত একটি ডাঁল--কিত্ত এগুলির তুলনা 
আরও বেশী পুষ্টিক্র। বিতিগ্ল ডালের পুষ্টিগুণ 
2নং তালকার দেওয়া হলো। 

এই তালিকা থেঞে পরিকার বোঝা যাচ্ছে বে, 
সয়াবীনে প্রোটিনের মাত্রা অন্ঠান্ত ডালের 
তুশনাক প্রান দ্বিগুপ বেশী। তাছাড়া এতে প্রায় 
শতকরা 20 ভাগের যত গেছজাতীয় উপাদাৰ 
আছে, বা অন্তান্ত ডাঁলে প্রাক নেই বললেই চলে। 
সয়াবীনই একমাত্র ডাল, যাতে প্রোটিন ও প্রেহ- 
জাতীর উপাদান ছটি পর্যাপ্ত পরিিষাঁণে আছে! 
কলন হিসাবে প্রতি হেকউরে গ্রাস 15 কুইণ্টালের 
মত সয়াবীন পাওয়া যার আর তাঁথেকে প্রান 545 
কিলোগ্রাম প্রোটিন ও 285 কিলোগ্রাম সরে জাতীয় 
পদার্থ পাওয়া বায়। খনিজ লবণ ও খাণ্ঘ প্রাণের 
পর্িমাপও এতে অন্ত ডালগুলির তুললান্ বেশী। 
অস্সান্ত ডালের ক্যালোগি মা যেখানে 350, 
সন্কাবীনের ক্যালোন্ধি মাতা সেখানে প্রায় 
£50 1 কাজেই পব দিক দিয়ে মক়্াবদীনকে অত 
সব ডালের মধো শ্রেষ্ঠ বলা যেতে পারে। 


92 আন ও বিজ্ঞান 


কিন্ত ছুঃখের বিষয় এখনও পর্ধস্ত আমাদের 
দৈনশ্বিন খানে এটি স্থান পার নি। তার 
প্রথম কারণ এর পুষ্টিগুশের কথা অনেকেই 
জানেন শা। দ্বিতীয়তঃ এটির চাঁষ খুব বেগী 
পরিমাণে কর] হয় না এবং তৃতীক্ক কারণটি হলো 
সঙ্কাবীনের দানার অপ্রীতিকর গন্ধ। এখন অবশ্ঠ 
পুটিগুপের জন্তে এর চাষের পরিমাঁণ ক্রমে 
বাড়াবার চেষ্ট1 করা হচ্ছে। রাবার বিভিন্ন কৌশলে 
সন্গাবীনের দানার বুনে! গন্ধও দুর কর! 
খেতে পারে। 

সয়াবীনের পুষ্টিকর দানা থেকে বিভিন্ন 
উপাদেম থাছ তৈরী করা যেতে পারে। রানার 
প্রক্রিয়ার এর জপ্রির গ্ধও আর থাকে না। 
সয়াবীন থেকে ডাল ও খুগননি ছাড়া পকোড়া, 
ইখড়া, কচুরী এবং দুধ, দই, ছানা, মিষ্টি সবই 
তৈরী করা যেতে পাঁরে1 সক্জাবীন থেকে বিশেষ 
কৌশলে আটা ও দুধ তৈরী কর! হত । তারপর 
সেই অ|টা ও দুধ থেকে সাধারণ আটা ও দুধের 
মতই নানা ধরশের খাবার কর! যায়। 

সযাবীনের আটা-আটা তৈরী করতে হলে 
প্রথমে সন্ধাবীনের দানা 25 ঘণ্ট। পর্বস্ত জলে 
ভিজতে রাখতে হন্স। তারপর ফুলে ওঠা 
পাঁনাওলি খেকে রগড়ে খোঁল। তুলে ফেলতে হয়। 
একপর দানাঁগুলি কিছুক্ষণ জলে ফুটিয়ে রোদে 
শুকিয়ে নিতে হত্স। এই শুকুলো দানা গমের 
মতই পিষে আটা তরী করা হয়। 

সয়াখীনের ছুধ-দুধ তৈরীর জণ্তেও লয়াবীনের 
দানা প্রথমে 56 ঘন্টা জলে ভিজিয়ে রাখতে 
ইয়। তারপর দানা! থেকে খোসা আলাদা করে 
মহ কে পিষে নেওয়া হয়। এরপর সেই 
পেবা সন্থাবীনে কিছুউ! ফুটস্ত জল মিশিয়ে ছেকে 
নেখুয়া ইর এবং তাতে আঁধার পঠিমাপমত জল 


| 27তম বধ, 2য় সংখ)! 


দিকে ফোটাঁনে। হয়। ফোটাবার সময়, সামান্ত 
এলাচগু'ড়া দেওয়া হ়। এই শক্মাবীনের দুধ 
খুবই পু্িকর। গরুর হুখের পুষ্টিগুণের সঙ্গে 
এর অল্পই তারতম্য আছে।| সরাবীনের ছুধ 
ও গকুর দুধের রাসাযনণিক গঠন ] নং তালিকার 
দেওয়। হলো 


নং তাজিক। 
সন্জাবীন ও গরম ছুধের রাসায়নিক 
গঠঃণ প্রতি 100 শ্র্যামে 


সয়াবীনের ছধ গরম দুধ 
প্রোটিন (শ্র)াম) 2.8 3.2 
সেহজাঁতীর পদার্থ (গ্রাম ) 2.5 4.0 
কাবোহাইড্রেট (গ্রাম) 3.2 4.6 
চুন (গ্রাম ) 0.08 (0.1 
ফস্ফরাল (গ্র্যাম ) 0104 0.07 
লোহ! (মিলিগ্রাম ) 1.2 02 
থায়ামিন ( শিলিগ্র্য।ম ) 0.042 0.015 
রিবোঁফ্রেবিন (মিলিগ্রাম ) 0.01 0.17 
নিকোটিনিক আযশিড 0.024 0.1 


হুতরাং দেখা বাচ্ছে, সঙ্বাবীনের ছুধও পরার 
গরুর ছুধের মতই পুঠিকর। আমাদের দেশে 
চাছিদার তুলনায় ছুধের উৎপাদন খুবই কম। 
ফলে দেশের লোকেরা, বিশেষ করে শিশুয়। 
পর্যা& পরিমাণে ছুধ পা 'না। সয়াবীনের ছুধ 
গক্ষুর দুধের বিকল্প হিসাবে অনায়াসেই 
খাওয়ানো! চলতে পারে। কাঁজেই এই পুষ্টিকর 
ফপলটির চাষ আরও অনেক বিস্তৃত ভাবে 
কর ও দেশের জনসাধারণের মধো বাপকভাঁবে 
এখ প্রচলন করা শব পিক থেকেই বিশেষ 
লাভজনক । 


১১3 


রর 


কৃষিনসংবাপ 


ফেব্রুয়ারী, 1974 ] 


56৮ 6.0 
£6 রি 
875 বি 
19 129 
£2চ 71০0 
0০6 ০০509 
096 92.0 
986 2০.0 


00 €)৮) ৯1558) 
[৬ চ)15)11৯ ১১১১৪ 


€/.0 


০.0 
0০0 
0.0 
950 
০৮.0 
(8142 


00 ৪০ (1 00] 


(8105 (805 00 052৯) 2)০ ই 
০.8, 81৯) ডঃ 


১1151 


[1185] 5৫5 5১০, ৯0৯ 85505 ৮৫৬ ১০৯ 508৮5) 


016 


621 
09 
9 


891 


৯1151 


€,]7 690 ৮০9 


8.6 
৪.5 
৪.9 
রি 


8.৪ 


1815) 


7০0 67.9 
095.0 £0.0 
6.0 02. 
320 ৮709 
92.0 চ7,0 


১) 


6.0 £. 
9:69 
০9 
£.59 
€.09 
/.09 টি 


6.09 ও 


ৃ 


4) 
তা 


000 বে 
শেড গে 


0128 12৯৮ 1৯ ৫5) ০ 


148২ ৮ 


-£1218)1৬ 1৮ 218৬ 


(15 158215 55)1512 ৮৯&]০ 5415 ৪21১ 


181০ ২৬ 2 


9% 567 2:67 ৪৮ 


৮ 07025 ১৮ 
সস ঢা 8.8 ৪৫৪ 
22 6.০ 1 হাহ) 
2.€ /.0 9.2 1৮152 
ড.€ 0 ই15% 
9.6. €ঢ 0৮৮ নি 
96. /য £2 ৪৪৯ 

(815 55119 
১145 ৮1818 


৯৮৮ 7181 ৪১) ৮০ আহঃ 


নাগপুরে বিজ্ঞান কংগ্রেসের 61তম অধিবেশন 


রবীন বন্দোপাধ্যায় 


প্রতি বছরের মত এই বছর (194) জানয়ারীর 
প্রথম সপ্বান্থে ভারতীয় বিজ্ঞান কংগ্রেসের 6]. তম 
অধিবেশন অনুষ্ঠি5চ হলো নাগপুরে। এর আগে 
1955 সালে নাগপুরে আর একবার বিজ্ঞান 
কংগ্রেসের অধিবেশন হন্েছিল। সেদিন নাগপুর 
ছিল মধ্যপ্রদেশের রাজধানী, আর এখন নাগপুর 
মহারাষ্ট্রের অস্তভূক্তি। 

এবার বিজ্ঞান কংগ্রেসের আঁপর বসেছিল 
নাগপুরের লক্গগীনারাহণ নগরে। ওরা জাহয়ারী 
পকাঁলে নাঁগপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাণে সুসজ্জিত 
মণ্ডপে প্রধান মন্ত্রী শ্রীমতী ইন্দিরা গাক্ষী বিজ্ঞান 
কংগ্রেসের উদ্বোধন করেন। উদ্বোধনী ভাষণে 
(তিনি দেশের বিজ্ঞানী ও প্রযুক্তিবিদ্দের পরস্পর 
সহযোগী হয়ে জাতীয় উদ্ভোগসমুহের সকল 
ক্ষেত্রে প্রগতিমূলক কাজকর্মে অংশগ্রহণ করতে 
আহ্বান জানান। তিনি বলেন, বিজ্ঞান গু 
প্রযুক্তিবিছ্/! কোন আলাদ! আলাদ। ক্ষেত্র হতে 
পারে না। উভয়ের সহযোগিতাই প্রগতির 
উপকরপদ্বজপ। শ্ববগ্তরতার জন্কে ষে সব মৌলিক 
বিষ্ধকে নিয়ে আমাদের কাঞজ্জ করতে হবে, তা 
হলো কৃষি, ভাবী শিল্প, বিছ্াৎ ইত্যাদি । এই 
সব কাজ্জের দ্বারা আমাদের জনসাধারণের খাছ, 
জ্, বাঁলসুথান, শ্বাস্থা ও শিক্ষার ব্যবস্থা কর 
সন্ভব হবে। আমাদের দেশের শতকরা ৪8০ ভাগ 
মানুষ গ্রামে বাস করে। জাতীয় আয়ের শতকরা 
70 ভাগ আঁ্জত হক্স কি থেকে। অথচ নতুন 
পরযুক্তিবিদ্ঞার ছাপা কৃষির কিছু অংশ ছাড়া সমগ্র 
ক্ষেত্রটি লাভবান হতে পারে শি। এখন লর্মন্রে 
এই কাজটি সুক্ক করতে হবে 


তিনি বলেন, গ্রামাঞ্চলের মানুষ শহরের চেস্সে 


সরল জীবনধাঞজা নির্বাহ করছে বলে গ্রামে বিজ্ঞান 
ও প্রযুক্কিবিস্তার কাজ নীচু পর্যায়ে কথাই বথেষ্ট-- 
এই কথ! ঠিক নয় গ্রামেও বিজ্ঞান ও প্রযুক্তিবিস্তাঁর 
কাজ সমানভাবে করতে হবে। 

এবারের অধিবেশনে মূল সভাপতি ছিলেন 
বারাণলী বিশ্ববিদ্যালয়ের গণিত বিভাগের প্রধান 
অধ্যাপক রতনশঙ্কর মিশ্র । তিনি তায় তাষণে 
বিশ্লেষণ ও যুক্তির সাহাঁষোে গপিতশান্তের 
বহুমুখী ও সথদূরপ্রসাগী ভূমিকার কথা আলোচনা 
করেন। তিনি বলেন, অনেকেই বলে থাকেন 
বিশুদ্ধ গণিত পড়ে কি হবে? কিন্তু একটু 
চিন্তা করপেই দেখা বায় বিশুদ্ধ ও ফপিত 
গপিতের মধ্যে সত্যই কোন ব্যবধান নেই। 
পাশ্চাত্য যে কোন দেশের গণিতের পাঠক্রদের 
সঙ্গে আমাদের গপিতের পাঠক্রমের পার্থকা 
তেমন একটা কিছু নেই। যেটা দরকার--লেটা 
হলো সুষ্ঠু পঠন ব্যবস্থা । এই ব্যাপায়ে আমরা 
ক্রমশঃ পিছিয়ে পড়ছি! সমাজ-বিজ্ঞান থেকে 
সৃূক করে পরিবেশ দুষিতকরণ সংক্রান্ত গব্ষেণা, 
সর্বঅই গপিতের নাহাঁধ্য আমাদের চাই। এর 
জন্যে সামগ্রিক পঠন ব্যবস্থার প্রয়োজন | 

ট্রেন ও আন্তদেখীর বিমান চগাঁচল ব্)বশ্থার 
বিপর্যয়ের দরুন এবার প্রতিনিধিদের সংখা! ছিল 
বেশ কম, প্রার এক ছাজার। বিদেশ থেকেও 
বিশিষ্ট বিজ্ঞানীর! অনান্য বারের তুপনার কম 
এসেছিলেন! ইরাক, ইরান, জাপান, বাংলাদেশ, 
হাঁঙ্গেরী, পুর্ব জার্মেনী, বৃক্তরাজা, যুগোক্গাতিয়। ও 
সোভিঙ্েট রাশিয়া থেকে সতেরো আঠারো জন 


«দি ক্যালকাটা কেঘিক্যাল কো” 
, কলিকাতা-29 


ফেপান্ারী) 1974 


বিজ্ঞানী এবারের অধিবেশনে যোগদীন করে 
ছিলেন। 

বিজন কংগ্রেসের তেরটি শাখার সভাঁপতি- 
রূপে গণিত শাখায় অধ্যাপক আর. এস. কুশওহ! 
'নক্ষমের বিবর্ভন+, বারন শাখার অধ্যাপক বরুণ" 
চ হালদার 'তেজর্কি সংল্লেষণ ও ভার প্রক্ষোগ” 
পদার্ববিস্কা শাখার অধ্যাপক এল. এস. কোঠারা 
«কঠিন পদার্থের সঙ্গে ম্বহুগতি নিউট্টনের ক্ষির়া” 
পরিসংখ্যান শাখার অধ্যাপক টি. ভি. আবদানী 
“স্টৃচাস্টিক প্রক্রি্”। উত্ভিদখিস্ত। শাখার অধ্যাপক 
আর, এস. পিং 'আলজির জীবনধারা” প্রাণীবিস্ত! 
ও কীটতত্বু শাখার ডক্টর এইচ. এম. চৌধুরী 'কীট 
ও অন্তান্ত প্রাণীর নিবখুজন ও জন্মনিয়ন্ত্রণ, ভূতত 
ও ভূগোল শাখার শ্রিমুক্তিনাঁথ 'ফলফরাইট', নবৃতত 
ও প্রত্রততু শাখার অধ্যাপক এস. আর. কে, চোপর! 
'শিবালিক সম্পর্কে সাম্প্রতিক অনুসন্ধান, ভেষজ 
ও পশুটিকিৎসা শাখার ডাঁঃ বি. আর. সেনগুপ্ত 
বহুমূত্র রোগে গ্লুকোজ বিপাক”, কষি-বিজ্ঞাঁন 
শাখ।র ডক্টর বি. চৌধুরী “ভারতে শাকশজি স্ংক্রাস্ত 
সমস্যা" মনন ও শিক্ষা-বিজ্ঞান শাখার এইচ, এম. 
আন্ধাল] “ঘটনাবলী পরম্পরা পদ্থার স্বপক্ষে”, যন্ত্র 
বিজ্ঞান ও ধাতুবিদ্য! শাখার ভ্রীজীবন দত্ত 'জাতীয় 
উন্ন্নে যন্ত্রব্দ্দের ভূমিকা এবং শারীরবিদ্ধা 
শাখায় ডক্টর অজিতকুমার মাইতি 'মগীরোগ সংক্রান্ত 
আধুনিক গবেষণ।' বিষয়ে আলোচনা করেন। 

প্রচলিত ব্বীতি অন্থষাযী এবারের অধিবেশনেও 
বিভিন্ন শাখায় বিশেষ বত, আলোচনা-চক্র এবং 
লোকরঞ্রক বস্তার আয়োজন করা হয়। 
বিজ্ঞানাঁচার্য সত্যে্জনাথ বসুর অশীতিতম জন্মবার্ষিকী 
ও বোস সংখ্যাঞ্নের পঞ্চাশ বছর পুতি উপলক্ষে 
পদার্থবিজ্ঞান শাখায় “সংখ্যাকদিক পদার্থবিদ্তায় 
সাধ্মতিক প্রগতি” সম্পর্ষে ষে আলোচনা-চক্র 
হর, সেটি বিশেষ উপভোগ্য হয়েছিল। এই 
আলোচনাক সভাপতিত্ব করেন বাংলাদেশের 
রিজ্ঞানীদলের নেতা অধ্যাপক আন্দুদ মোত্ন 


নাশীপুরে বিজ্ঞান কংগ্রেজের 61 তম ভধিবেশন 05 


চৌধুরী এবং অংশ গ্র্থণ করেন অধ্যাপক ভি. এস. 
কোঠারী, অধাঁপক এফ. পি. আউলাক, ডক্টর এ. 
সি. বিশ্বাপ, ডর ননী ও ডক্টর পন্িগ্না। এছাড়া 
ঘগ্যান্ত বিশেষ উল্লেখযোগ্য আলোচনা ও বক্তৃতা 
হয়েছিল অধ্যাপক টি. এস সঙ্জাঁশিবমের “উত্তিদের 
অস্মাহিত রোগলমন্ত।”, ডক্টর এম. এস. শ্বামী- 
নাঁথধনের এযুগলন্ধিকণে ভাগ্তীয় কৃষি-বিজ্ঞীন', 
অধ্যাপক ভেঙ্কোকা র।ও-এব "স্বপ্ন ও শিড্রা” ডর 
শ্রীমতী পাবতীদেবীর 'মাছষের বিপাকীর বন্ত্রলমূুহ'। 
ডক্টর নীঙ্গরতন ধর পরিচালিত 'সবুজবিনি? 
সম্পকিত আলোচনা এবং কলিকাতা বিশ্ববিস্তা- 
লক্ষের সঙ্থ-উপাচাধ অধ্যাপক পুর্শেন্দুকুমার বন্থুপ 
£শিক্ষা € ভাবতে কর্মনংস্থান? এবং ডক্টর এ. আর, 
ভর্মার 'কেল।স গঠন? বিষয়ে আলোচনা ও বক্তৃতা । 

বিজ্ঞান কংগ্রেসের অধিবেশন ও নাগপুর 
বিশ্ববিগ্তালয়ের সুবর্ণজয়স্তী উপলক্ষে একটি বিজ্ঞান 
প্রদর্শনীর আদ্বোজন কর! হয়েছিল । টবজ্ঞানিক যকতর 
পাতি, রাসায়নিক দ্রব্য ইত্যাদি এবং বিজ্ঞান বিষয়ের 
পুস্ত কাদি প্রদর্শনীতে স্থান পেঙেছিল। পাঞাব কৃষি 
বিশ্ববিদ্বালছের শ্রদর্শনী) ও ভীরতীয় করলা গবেষণা- 
কেন্ত্রের প্রদর্শনী বিশেষ আকর্ষণীর হয়েছিল। 
প্রদর্শনীতে দুটি বিশেষ মণ্ডপ সকলের দৃষ্টি আকর্ষণ 
করেছিল । রামন মগুুপ নাগপুধ বিশ্ববিদ্যালয়ের 
অন্তত বিভিন্ন কলেজের ছাররছাত্রীদের তরী 
বৈজ্ঞানিক মডেল, বস্রপাতি, চাট ইত্যাি প্রদশিত 
হহেছিল। আন রবীন্্রনাথের নামে টেগোর মণ্ডপে 
ছাঁতছাত্রীদের আক! ছবি, হস্তশিক্ষা, নক্সা ইতা।দি 
স্থান পেছ্েছিল। এই হুট মগুপে প্রতি দিন বন্ত 
শত দর্শকের সমাগম হতো। 

প্রতিনিধিদের জন্বো স্থানীয় অভ্যর্থনা সমিতি 


নগপুরের আশপাশের দর্শনীহ স্থানগুলি, াঁমটেক, 
ওয়ার্ধার গান্ধীজার আশ্রম এবং অজন্তা-ইলোরা 
দর্শনের ব্যবস্থা করেছিলেন। নানা কারণে 
নাঁগপুরের এবার বিজ্ঞান কংগ্রেসের অধিবেশন 
প্রতিনিধিদের মন্দ ভেমন লাড় ও আশা জাগাতে 
পারে নি, বরং হতাশাই সঞ্চার করেছিগ 


বিজ্ঞান প্রদর্শনী 


জয়ন্ত বনু 


বর্তমান বুগকে যথার্থই বিজানের যুগ বল! 
যায়। বিজ্ঞান আজ আর কেবল গবেষণাগারে 
আবদ্ধ নর,সাঁধারণ মানুষের জীবনও লানাঙাঁবে 
বিআন দ্বার] প্রভাবান্থিত হচ্ছে। আমাদের 
চারধারে যে উত্তি ও প্রাণী-জগৎ, আমাদের 
নিজেদের দেহ এবং মন---এষ্ট পবই এখন বিজ্ঞানের 
আওতায়। একদিকে বিজ্ঞান যেমন আমাদের 
বুদ্ধির প্রসার ঘটিয়েছে, অন্তর্দিকে তেমনি কল!- 
কৌশলের অভাবনীয় উ্তির ফলে মহাঁকাঁশ 
অভিযান পরিচালিত হচ্ছে, পৃথিবীর বাইরে বিরাট 
বিশ্বের দুর-দুরান্তের খবরও বিজ্ঞানীর সংগ্রহ 
করছেন! বিজ্ঞানের নাঁনান টুকিটাকি জিনিষ 
নিষ্পে সাধারণ মাঁচ্ষও আঁজকাঁল হামেশাই নাড়া- 
চাড়া করছেন। বিজ্ঞানাচার্য সত্যে্জনাথ বসুর 
অশীতিতম জদ্মবাঁধিকী ও বঙীয় বিজ্ঞান পরি- 
যদের রজত জয়ন্তী উপলক্ষে সম্প্রতি কলকাতায় 
ইয়দিন ব্যাপী যে বিজ্ঞান প্রদর্শনী আঙোঁজিত 
হয়েছিল, তার উদ্দেশ ছিল পর্বপাধারণের কাছে 
আধুনিক বিজ্ঞানের সামগ্রিক রূপের একটা 
মোটামুটি পঞ্জিচয় দেওয়া । 

সমস্ত গ্রদর্শনীটি পরিচালিত হত্ছেছিল আধাদের 
মাতৃভাষা বাংলার | জনসাধারণের মধ্যে বিজ্ঞান- 
শিক্ষ।র প্রচার ও প্রসার ঘটাতে হলে কেবলমাত্র 
মাতৃভাষার মাধ্যমেই তা করা সম্ভব । 

এই প্রদর্শনীতে নিগ্নলিখিত আটটি বিভাগ 
ছিল :--. 

(1) জনজীবনে বিজন ; প্রাত্যহিক জীখন- 
বাতার সঙ্গে ওতো ততাঁবে জড়িঙ থে বিজ্ঞান, 
সো বিজানের কয়েকটি আন্তমিহিত তত্ব, 
তথ্য ও ন্যাপকতত প্রক্বোগকে অনুসন্ধিৎসু যমের 


সামলে সহজবোধ্যভাবে তুলে ধরাই ছিল এই 
বিভাঁগের উদ্দেশ্ত। এখানে দেখানো! হয়েছিল 
থাছান্বব্য ও ওষুধের ভেজাল পরীক্ষা, অঙ্গরাগ ও 
তার প্রস্ততির ক্রিতাকৌশল, গাহছগাঁছড়া খেকে 
ওষুধ তৈরী ইত্যাদি । 

(2) জীবজগৎ: এই বিভাগে প্রাণের 
উৎপত্তি ও ক্রম-বিবর্তন, জীবজগতের পারস্পরিক 
সাম্য ও নির্ভরতা, আমাদের উপকান্ী ও অপকারী 
কীট-পশুজ। জীবাণুবিদ্যা, সবুঙ্গ বিপ্লবের জন্তে কৃষি 
গবেষণার ফলাঁকল ইত্যাদি প্রদশিত হরেছে। 
আচার্ধ জগদীশচজা বসুর উত্ভিদবিষয়ক ছুটি পরীক্ষ 
ভার উদ্ভাবিত মুল বসতেই এখানে দেখানে। 
হয়েছিল! 

(3) মাহুষের দেহ ঃ মাঁনবদেছ্ের গগনে 
বিদ্ম়কর তথ্য ও বিতির ক্রিশার প্রাথমিক তত্র 
করেকটি এই বিভাগে প্রদণিত হয়েছে। মাঁছষ 
ও জড় পদার্থের মধ্যে পার্থক)গুলির কিছু কিছু 
পরীক্ষার মাধ্যমে বর্ণনা! করা হয়েছে। পগ্গিমেশ 
থেকে মানুষের বিভিন্ন অন্নূতির চৃররি ও প্রকাশ, 
বিভিন্ন তংঞ্জর কার্যকলাপ, টৈনন্দিন জীবনে মানুষের 
কার্ধকষমতা পরিমাপের ব্যবস্থা এবং উন্নয়নের উপাস 
ইত্যাদিও এখানে দেখানো হঞজেছিল। 

(4) মাহ্যের মন £ খিচিএ মানব অনেক 
করেকটি খবর এখানে জানানে! হয়েছে। সহজ 
সাধারণ কাজেও আমাদের কিছুটা দেরী হয়, 
বলামাত্র কাজ আর করা বাগ না; আসলে থে 
বন্ত অচল, ভাকে মন গ্জিশীল করে দেখে? বুদ্ধির 


পরিমাশ কর! যাক) নিবি মলোযধোগ আপলে 


কয়েক ুহর্তের বেলী একটানা স্থান হয না; 
বনের ব্যাথিত বপ সন্ন্ধে পরশ্থোতর গণনা সম্ভব "৮ 


ফেব্রুয়ারী, 1974 ] 


এই সব মনোবিজ্ঞান শাস্ত্রের অন্ুণীপনের বিষ 
এখানে প্রদশিত হয়েছিল। প্রত্যেকটি বিষগ্ত 
দর্শকের পরীক্ষা করবার স্থযোগ ছিলি। ৮ 


বিজ্ঞান প্রদর্শনী 07 


(7) বিজ্ঞনের টুকিটাকি £ ইলেকটশিক্স- 
এর নানান বঙ্ত্রপাতি, কালো-ফর্পার যান বিচার, 
প্রতিবেদনশক্তি পরীক্ষা, মাছের গতিবিধির উপর 





বিজ্ঞান প্রদর্শনীর উদ্বোধন-অনুষ্ঠানে মুখ) মন্ত্রী শ্রীসিদ্ধার্থশঙ্কর বাক্স ভাষণ দিচ্ছেন 


(5) বুদ্ধির খেলা £ মানুষের বুদ্ধির সর্মোৎকষ্ট 
প্রকাশ বে অঙ্কশাসত্রে, তাঁর কছেকটি আকর্ষনীয় 
নিদর্শন এই বিভাগে রাখ! হযেছিল। এখানে 
ছিল অন্কে্ ফাকি বা অপপিদ্ধাজ, অঙ্কের সব্চরণ, 
ত্রিষত্রিক জ্যামিতীক় আঞ্তির বথাবথ বিস্তাল, 
ভক্কের খেলা, টপোলজীয় আকৃতির টৈচিত্র- 
ইত্যাদি। এই সব ছাড়(ও এই বিভাগে ছিঃ 
একটি ছোট হন্ত্রধন্তিঘ্ধ নর্থ1ৎ “মিশি কম্পিউটাবু' | 

(6). প্রথিবী ছাড়িবে 2 এই বিতাগে শৌখ- 
জগৎ ও নক্ষত্রজগত্ সন্ঘন্ধে কিছু ক্ছু পরিচয় 
দেওয়া ছিল। বেতার দুংবাগ্ষণের একটি মডেল এই 
বিভাগের অন্কতষ আকর্ষণ । মহাকাশ আঅতিযালে 
শিজ্ঞনীরা চাদ এবং ,ছন্াগ্ত গ্রহ সম্বন্ধে যে লব 
ছিথ্য সংগ্রহ করেছেন আলেকচিত্রের মাধামে, 
সেগুলি কিছু এখানে দেখানো হয়েছিল। 

€ 


শব্দের প্রাভাঁব, বেতার-পাঁখ।, ইলেকট্রনিক ভার্ষো- 
নিয়া, যানবাহন নিয়ন্ত্রণ ব্যবস্থা ইতাদি এখানে 
দেখানো হয়েছিল। এলব ছাড়াও ছিল কাচকাট। 
যন্ত্র, নিউটনের তৃতঠাত্স শুত্রের আকরণীর প্রমাণ, 
তড়িৎশক্তি উৎপাদন নীঠি, ভৌভ্তিক নাচ এবং 
আহও অনেক কিছু। 

(8) বাংলার বিজ্ঞান £ আচার্য সতোঙ্রনাথ 
বন্ধু প্রমুখ করেকজন খ্যাতনাম! বিজ্ঞানীর অবদানের 
বিষয় এখানে উল্লেধ কর! করেছিল। তা ছাড়া 
বাংলা ভাষায় বিজ্ঞ(ন-চর্চার সুচনা চিত্রের 
সাহায্যে দেখানে হয়েছিল। সাম্প্রতিক 
কালে ভারতে ও বাংল! দেশে প্রকাশিত বাংলা 
ভাষায় বিজ্ঞান-বিষয়ক পুস্তকারদি ও পামগ্জিক 
পত্িকার বেশ কিছু নমুনা এখানে 
প্রদশিত হয় 


09 জান ও বিজ্ঞান 


প্রদর্শনী উপলক্ষে একটি ন্মারক পত্রও প্রকাশ 
কর! হয়েছিল। 

22শে 'জানুয়ারী'74 তারিখে সন্ধা ছয়টা 
92, আচার্য প্রফুলচন্্র রোডস্ব বিজ্ঞান কলেজের 
ফলিত রসাপ্ষন ভবনে বিজ্ঞান প্রদর্শনীটির উদ্বোধন 
করেন পশ্চিমবঙ্গের মৃখ্যমন্্রী শরীসিদ্ধার্থশঙ্কর রায়! 


[ 27তম বর্ষ 2য় সংখা! 


জন্যান্ত বিশি্ই অঙিথিবর্গ প্রদর্শনীটি পরিদর্শন 


করেন। 
আতঃপর 23শৈ থেকে 27শে জান্য়ারী পধস্ত 


প্রতিদিন বেলা 2টা থেকে সন্ধ্যা €টা পর্যন্ত 
প্রদর্শনীট সর্বপাধারণের জন্ত খোলা ছিল। 
প্রদর্শনীতে প্রচুর জনসমাগম হুয়েছিল। যার। 





মুখ্যমন্ত্রী গ্রারায় সাগ্রহ্থে একটি মডেল দেখছেন । 


উদ্জোধন-অনুঠানে সভাপতিত্ব করেন উত্তর বঙ্গ 
বিশ্ববিগ্াালয়ের উপাচার্য শ্রীপুর্ণচন্্র মুখোপাধ্যাপ। 
আচার্য সতোশ্রনাখ বু শ্বঘ্ং সভা উপস্থিত 
থেকে একটি যনোজ্ষ ভামণ প্রদান করেন। 
বলীগ্ন বিজ্ঞান পরিষদের পক্ষ থেকে বর্তমান লেখক 
কর্তৃক শ্রদর্শনীটিত রূপরেখা ও এর বিভিন্ন বিভাগ 
সম্পর্কে পরিচিতি প্রদান করা হপ্স। আচার্য 
সত্যেঞ্জনাঁথ বন্গুর অশীতিতম জন্মবাধিকী উদ্যাপন 
শমিতির স্থানীয় শাখার পক্ষ থেকে অতিথিবৃন্দকে 
স্বাগত জানান ডট্টল় মহাদেব দত্ত এবং ধন্ঠবাদ 
জাপন করেন ডক্টর যণীজ্রমোহন চক্রবত্তণী। 
প্রদর্শনধ উদ্বোধনের পয় মুখ্যমন্ত্রী মহোদয় এবং 


বিষয়বস্ত্গুলি যন্ত্র মডেল ও চার্টের সাহাযো 
দর্শকদের কাঁছে সহজ ও সাবলীঞজভাবে ব্যাথা 
করেছিল, তার! অধিকাংশই বিদ্যালয়ের ছারছাত্রী 
স্সংখ্যায় প্রায় এক-শ/--ব্রাঙ্ষ বালিক শিক্ষালগ়, 
বেখুন কলেজীয়েট স্কুল ও স্কটশ চা কলেজীয়েট 
দুলা থেকে এরা এসেছিল। বঙ্গীয় বিজ্ঞান 
পরিষদের হাতে-কদষে' বিভাগের কিশোর 
বিআঞানীরাও এদের সঙ্গে যোগ দিতেছিল। এদের 
পবাইকে সাঁছায্য করছিলেন কঙ্লিকাত। বিশ্ব- 
বিদ্ভালক় ও সাহা ইনস্টিটিউট অব নিউজিছার 
ফিঞিক্স-এর কয়েকজন শিক্ষক এবং বধ গঙ্ষেক 
ক ভাও। রঃ 


চি 


ফেব্রুয়ারী, 1940 1 বিজ্ঞান-প্রদর্শনী 99 


বঙ্গীক্জ বিজ্ঞান পরিষদ কর্তৃক প্রদর্শনীটি পরি- সঙ্গতি (স্থানীর শাখা), পশ্চিমধ্জ সরকার, 
চালিত হয়। অঞ্জন যহ সংস্থা! নানাভাবে কলিক(তা বিশ্ববিগ্ঠ/লয়ের ফলিত রপান্ন বিভাগ, 
সছযোগিতা1 করে পরিষদের ধনাবাদতাজন শারীরতত বিভাগ ও মনোধিজান বিভাগ, বহথ 





“বাংলায় বিজান' বিভাগে মুখ্যমন্ত্রী শ্রাসদ্ধাথশগকর রায় ও উত্তর বঙ্গ বিশ্ববিগ্তালয্কের 
উপাচাধ শ্রীপুর্ণচন্্র মুখোপাধ্যায় । 


হয়েছেন। এদের মধো বিশেষভাবে উল্লেখ্য বিজন মন্দির, বিড়লা মিউজিম্ম, ব্রা্ধ বালিকা 
আচার্য সত্যেম্রনাথ, বন্থর অশীতিতম জন্মবানিকী শিক্ষালয়, বেথুন কলেজীছগেট স্কুল ও. স্কটিশ চা 
ও বোস সংখ্যাঞ্গনের পঞ্চাশ বর্ষপুরতিত উদ্যাপন কলেজীয়েট সুল। 


বিজ্ঞান-সংবাদ 


কাম্পউটারে আলোচন। 

মৃক্রিত ইংরেজী লেখাকে ম্থবিন্তত্ত ইংরেজী 
বক্ুতায় পঙ্জিশত করবার জন্যে একরকম 
কম্পিউটার আবিষ্কার করেছেন বেল লেবোরে- 
টগ্রীর (যুক্তরাষ্ট্র) ছু-জন কমীাঁ। কম্পিউটারে 
শিক্ষাদান পদ্ধতি, সহজে ব্যবপার সংক্রান্ত তখ্য 
জাঁপন এবং অস্কপ্দের জন্তে পুস্তক পাঠবস্ত্র উদ্ভাবনের 
সম্ভাবনা থাকবে এই কম্পিউটার আবিষ্ষারের 
কলে। আব এসব এখনও গবেষণার পর্ধায়ে 
রয়েছে । এর জন্তে কোন অনুবাদ বা রেকডকর! 
কঠস্বরের প্রয়োজন হবে না। 

একটি ছাপা ইংরেজী কাগজ .টলিটাইপ 
রাইটার থেকে কম্পিউটারের মধ্যে প্রবেশ করিয়ে 
নিলে কম্পিউটারটি বাঁক্যগুলি খিশ্লেবণ করে তাতে 
পম ও জোর চিত্রিত করে প্রতিটি শব্দের 
উচ্চারপগত বৈশিষ্ট্য তার স্থৃতিভাগ্ডারে জম করে 
যাখে। একটি বিষ্কানকারক যন্ত্র কৃত্রিম স্বর 
স্যরি করে! কম্পিউটারটি স্বরোৎ্পাদন, বক্ৃভার 
ধরণ এবং লিখিত ও কথ্য তাষার মধ্যে সম্পর্কের 
ভিত্তিতে বিস্তালকারক বন্ত্রটকে দির্ধেশ দেয়। 


জেসার রশ্মির সাহায্যে চোখের চিকিৎসা 


ুক্তরাষ্ট্রের স্তাশন্তাল ইনস্টিটিউট জব হেলথ- 
এর অনুদানের সাহাঁধো গবেষণা চালিরে লেদার 
রশ্মির সাহায্যে নিরাপদে চোখের চিকিৎসার একটি 
বস্ত্র স্ট্যানফোর্ড বিশ্ববিদ্তালয়ের (ক্যালিফোনিষ্কা ) 
গবেষকের! আবিফার করেছেন। এই প্রণালীটিকে 
বলা হয় 'লেসার ফটে[কোক্াগুলেশন'। চোখের 
রেটিনা বিছ্যুতির চিকিৎসা, টিউমার নিরাময়, 
ফোগ ছড়ানো বধ কর! ও অন্টান্ত কাজেও এটি 
বাঝহার কর বান়। 


চোখের একটি অংশ বিশেষ পরীঙ্গার ছার 
বেছে নিক যগ্্রটি সেই জাগায় লেদারের তীব্র 
শক্তি প্রয়োগ করে। কারণ চোখের টিহ ফটো” 
কোদ়্াগুলেশনে ধ্বংপ হন্গ) দুরবীক্ষণ বক্র মত 
একটি পর্যবেক্ষণ যন্ত্র বা একটি সিট ল্যাম্প বস্ত্রটিতে 
খাকে' সেই আলোর সাহাধ্যে রশ্মিটি ঠিক জাগ্সগার 
পড়ে এবং জারগাটার আয়তনও নিয়ন্ত্রণ করে। 

ক্যালিফোনকার প্যালে! আক্টোর কোহেরেণ্ট 
রেডিজ্জেশন জেবোরেটরীজ বস্ত্রটি নিমাশ করছে এবং 
ইতিমধ্যে এই বকম 150টি যঙ্্র বিক্রিত হয়েছে। 


তড়িৎ-শাক্তর জন্যে তরল গ্যাস 

ভাল্কান সিন্পিনাটি, ইনকঞপোরেটেড 
(মাঞ্ন যুকর।ষ্)-এর খবরে শ্রকাশ বে, বিদ্যুৎ 
শক্তি উৎপাদনের কারখানায় পরীক্ষার জানা 
গেছে 'মেখিল ফুহেল' নামে এই সব কারখানার 
উৎপন্ন তরল প্রাপ্চতিক জালানী গ্যাস তড়িৎ 
উৎ্পাঁদনের কাজে লাগতে পারে। এই সংস্থাটি 
জানিয়েছে যে, উদ্তর আফ্রিকা বা অন্ত যেসব 
অঞ্চলে উদ্বৃত্ত প্রাকৃতিক গ্যান আছে, সেই পব 
জায়গায় মেখিল ফুয়ল তৈরী করা যেতে পারে। 
উত্পাদনের পরে এই জাঁলাশী গ্যাস গা(লন 
প্রতি ছয় সের্টেরও কম খরচে আমেরিকার পুর্ব 
উপকূল অঞ্চলসম্হ প1ঠাঁলে। যাবে । 

এই. জালানী গযাস চলতি ধরণের তৈলবাহ্থী 
জাছাঞ্জেই নিয়ে যাওয়া চলবে। কারণ, এই 
জালানীতে চাপ দেবার বা লীতলীকরণের 
গুদ্বোেজন হয় না। 

মেখানল কারখানার বস্ত্রপাতি ঠতগীর কাজে 
বহু দিনের অভিজ্ঞতার এই সংস্থ। এই আলানী 
গ)াল তৈরীর প্রয়োগ-কৌশল উপ্নত করেছে] 


কিশোর বিজ্ঞানীর দপ্তর 





_ জাতীয় পশু--বাঁঘ 


দিংহের পরিবর্তে বাঘ এখন ভারতের জাতীয় পশু । 1972-এর নভেম্বরে 
ভারতীয় বন্প্রানী সংরক্ষণ পর্ধদ বাঁঘকে জাতীয় পশুরূপে নিধাচিত করেছেন। সংখায় 
অধিক এবং ভারতের বহু অঞ্চলে পাওয়া যায় বলে বাঘ এই মর্যাদা পেয়েছে। 
এককালে বাঘের সংখা। ছিল প্রায় 40,000, কিন্তু বর্তমানে বিভিন্ন কারণে তা হাস 
পেয়ে দাড়িয়েছে 2,000-এরও কম। মানুষের বসতি, কৃষিবিস্তার, অরণ্য অঞ্চলের 
হাসপ্রান্তি, নিছক সখ ব! চামড়ার লোভে অনিয়ন্ত্রিত বাঘ শিকীর প্রভৃতি বাঘের 
সংখ্যা হাসের কারণ বলে অন্ুমান। অনেক সময় অরণ্য অঞ্চলের বিশাশ 
ও সেখানে তাদের খাগ্তের অভাবের জন্যে কাছাকাছি লোকালয় থেকে গবাদিপশু 
হত্য। করায় বাঘকে প্রাণ দিতে হয় মানুষের হাতে । বিষ প্রয়োগ বা আরও নান। 
উপায়ে এই হত্যালীলা সম্পন্ন হয়ে থাকে বলে অনেকের ধারণ! । 

অনুমান করা হয় যে, বাঁঘ শেষ তুষার যুগের পর উত্তর এশিয়া থেকে চীন 
সীমান্ত অতিক্রম করে ভারতের উত্তর-পূর্ব সীমা দিয়ে এদেশে পৌচেছিল। পরে 
ক্রমে ক্রমে সমগ্র ভারতে তার! ছড়িয়ে পড়েছিল-_তবে হিমালয়ের খুব উচু অঞ্চল 
ও উত্তর-পশ্চিম উর ভূমি বাদে। আরও অনুমান করা হয় যে, বাঘ-এমন এক সম: 
'ভাক্তে এসেছিল--যার আগেই লিংহল ও ভারতবর্ষের সংযোগস্থল সমুদ্রে লীন 
হয়ে যায়। তাই সিংহলে বাঘ প্রবেশ করতে পারে নি। অনেকে অবশ্য এই মত সমর্থন 
কয়েন না। যাই ছোঁক, ভারতের বহু অঞ্চলেই বর্তমানে বাঘের দেখ! মেপে। 
“ভারতের বু অঞ্চলে বাধ ছড়িয়ে থাকলেও ঠিক একই জায়গায় এদের অসংখ্য 


102 ধান ও বিজ্ঞান [ 27তম বধ, টগ্ন সংখ? 


সমাবেশ বড় একটা দেখা যায় না। ভারতের যে যে জান্গগায় বাধ আছে, সেখানে 
তাঁদের সংখ্যার যে হিসাব পাওয়া গেছে, তাতে দেখা যায়--আসাঁমে-147, অরুণাচল- 
69, নাগাল্যাণ্ড-৪0, মেঘালয়-32, পশ্চিম বঙ্গ-73, বিহার-85, উড়িষ্যা-142, অন্ধ্র প্রদেশ” 
35, তামিলনাড্রু-323, কেরালা-60, মহীশুর-102, মহারাট্র-160, মধাপ্রদেশ-457, উত্তর- 
প্রদেশ-262, গুজরাট-৪, রাজস্থান-74., মিনি কয়5৪। 

যদিও অনেক প্রাণীকেই বাঘ বলা হয়, ঘেমন--চিতাবাঘ, নেকড়ে বাঘ ইত্যাদি, 
কিন্ত আমাদের বর্তমান জাতীয় পশু বাঘ বলতে বোঝায় রয়েল বেঙ্গল টাইগার, 
ধার বৈজ্ঞানিক নাম প্যান্থেরা টাইগ্রিস (5215615218. 6121015) ! শুধু স্বন্দরবনের বাঘ 
নয়, ভারতের সব অঞ্চলের বাঘই এক, আর তা রয়েল বেঙ্গল টাইগার। এশিয়। 
মহাদেশে তথা ভারতীয় উপমহাদেশেই এই বাঘ সীমাবদ্ধ-__-এর শতকরা 90 ভাগই 
ভারতে । বাঘের নিবাস হচ্ছে গভীর অরণ্য অঞ্চল--সিংহের মত খোলামেলা অরণ্য 
অঞ্চল নয় এবং আরও এরা চায় আড়াল। মনুষ্তবলতির কাছাকাছি থাকতেও 
এরা অভান্ত নয়। বাঘ প্রয়োজন ব্যতিরেকে নিঃসঙ্গ বা একাই থাকে । সিংহের 
মত দলবল নিয়ে থাকে না। প্রজননের সময় ছাড়া স্ত্রীপুরুষ এক সঙ্গে বাস করে 
না। মাত্র পূর্বরাগের সময় 7-10 দিন এদের একত্রে ববাস। মিলনের পরেই তাদের 
ছাড়াছাড়ি হয়ে যায়। বাঘের সঠিক বা প্রকৃত প্রজনন ধাতু নেই, তবে সাধারণতঃ 
বাংলায় বর্ধার শেষে এদের মিলন ঘটে এবং প্রায় ফেব্রুয়ারী থেকে মে মালের মধ্যেই 
প্রসবকাল। বাঘিনীপ্ন গর্ভধারণের সময় প্রায় 15 সপ্তাহ। শাবক ভূমিষ্ঠ হবার পর 
মা তাদের যত নেয়। কারণ এই সমক্ন তারা থাকে অসহায় । তাই তাদের 
একটু বড় না হওয়া] পর্যস্ত মায়ের কাছেই থাকতে হয়। আর তারই জন্যে প্রয়োজন 
হয় নিরাপদ স্থানের । অনেক সময় এই নিরাপদ আশ্রয়ের অভাব বাধের সংখ্যা হাসের 
আরও একটি কারণ বলা যেতে পারে। জঙ্গলে এমনি আশ্রয়স্থলের অভাব ঘটে। 
জঙ্গলে গাছকাটা তাঁদের বিরক্তি উদ্দরেক করার অনেক সময় মায়ের শাবকদের ফেলে 
চলে বায়। ফলে অনাহারে শাবকদের মৃত্যু ঘটে। সাধারণভাবে এই গাছকাটার 
সময়টা বাঘের প্রজননের সময় বুগপৎ ঘটে থাকে । 

এখানে উল্লেখ কর যেতে পারে যে, সময়ে সময়ে বাঘকে সিংহের সঙ্গে মিলিত হতে 
দেখ! যায়। পুরুষ বাথ ও শ্রী-সিংহের মিলনে যে সঙ্কর শাবক উৎপন্ন হয়, তাকে টাইগন 
(7150) বা ব্যাংহ বলা হয়। আবার এর বিপরীত ক্ষেত্রে, তার নাম হয় লাইগ্রার 
(0788) বা সিংত্র। সম্প্রতি আলিপুর চিড়িয়াখানায় যে টাইগনের জন্ম হয়েছে_-তা 
নাকি সর্বাপেক্ষা বেশী দিন বেঁচে থাকবার রেকর্ড করেছে বলে জানা যায়। বাঘের 
ন্যাতাবিক পুর্ণতাপ্রাপ্তির সময় প্রার পাঁচ বছর। তবে তার। তার পূর্বেই অনেক ক্ষেতে 
সন্তান উৎপাদনের ক্গমত। প্রাপ্ত হয়। 


ফেরারী, 1974 ] জাতীয় পশু-বাঁঘ " 103 


বাঘ সাধারণতঃ লম্বায় 9-10 ফুট, এমন কি, ].2 ফুটও হয় অনেক সময় । বাঘিনী 
তুলনায় কিছুট! কম। বাঘের লেজ প্রান তিন ফুট; স্থন্ধশীর্ষের উচ্চতাও প্রায় পার্ডে 
তিন ফুট। উজ্জ্বল পিঙ্গলাভ বর্ণের উপর কালো ডোরা-কাটা এদের বৈশিষ্ট্য ; 
দেহের তলদেশ হয় সাদা। লেজে দেখা যায় প্রায় চক্রাকার কালে। দাগ। যাই হোক, 
এই হলে! বাঘের মোটামুটি বর্ণ বৈচিত্রা। সাদ! বাঘ, ঘা! খ্যাতির উচ্চশিখরে, তার! কিন্ত 
ভিন্ন প্রজাতির নয়। এই বাঘকে ভারতীয় বাঘের আলবিনোটিক ভেরিয়েদন 
(41915060০ ৬21018600) বা পরিবতিত শ্বেতীবিশিষ্ট রূপ বলা যায়। এদের দেহে 
সাদাটে বা খুব হাঙ্কা পিঙ্গল, ঘ। সাদ! প্রতীকমান হয়। আর ডোরাগুলি ঠিক 
কালো! নয়--প্রায় ঘন বাদামী বা কাল্চে বাদামী । মধ্যগ্রদেশ, তথা রেওয়ার সাদ! 
বাঘ প্রলিদ্ধ। এই বাঘকে এখন চিড়িয়াখানায় বংশবিস্তার করতে দেখ! গেছে। 
আলাম, বাংল!, বিহারে ও হান্ধ! রঙের সাদ। বাঘের দ্ৃষ্টাস্ত পাওয়া গেছে। 

বাঘের খাগ্যভালিকার বন্যবরাহ, হণ প্রসূতি অন্তভূক্তি। গৃহপালিত পশু€ 
এরা হত্যা করে খেয়ে থাকে । এছাড়া বাঘ যেখানে থাকে, সেখানকার ছোট-বড় 
প্রাণীও সুযোগ-সুবিধা অনুধায়ী উদরাসা করতে দ্বিধাবোধ করে না। তবে প্রধানতঃ 
নিজের শিকার কর! প্রানী ছাড়া, কোন মৃত প্রাণী বড় এক্ষটা খায় না। মৃত গবাদি- 
পশু বা অপরের হত্যা কর! প্রাণী এর! কদাচিত খাগ্চ হিসাবে গ্রহণ করে। পচা 
মাংস খেতে এদের খুব একটা আপত্তি নেই। 

বাঘ স্বভাবে বেশ ধূর্ত। বাঘের শ্রাণশক্তি নিয়ে মতবিরোধ আছে। জান! বাম 
এদের আ্রঁণশক্তি বেশ ভালই, তবে সব সময় এর! ত! ব্যবহার করে ন।। এদের দৃষ্টিশক্তি ও 
শ্রাবণশক্তি বেশ প্রখর বলে ভ্রাণশক্তি ব্যবহার করবার প্রয়োজন বড় একটা হয় না। 
শিকার সন্ধান করতে বাঘ খুব কমই নির্ভর করে তাদের ভ্রাশশক্তির উপর বা একেবারে 
করে না। এই ভ্রাণশক্তি তার৷ ব্যবহার করে নিজেদের মধ্যে সংযোগ রঙ্গ করতে । 
একটি বাঘ গন্ধ ছড়িয়ে জানিয়ে দেয় অপর বাঘকে- কোথায় সে আছে। তাদের 
দৃষ্টিশক্িও প্রখর । অনাধারণ তাদের রাত্রে দেখবার ক্ষমতা । অল্প নড়চড়াও তাদের 
দৃষ্টি এড়িয়ে যাবার উপায় নেই। আতারেও বাঁধ বেশ পটু । শোনা যায় রাজ নদীবক্ষে 
নৌকায় ধিশ্রামরত মতস্য-শিকারীদের সাতার কেটে সে আক্রমণ করেছে । 

বাঘ সাধারণত: দিনের বেলায় আড়ালে কোন নিরাপদ স্থানি বা গুহ! গুভৃতিতে 
শুয়ে বিশ্রাম নের। জন্ধ্যাকালে তার বেরিয়ে পড়ে শিকারের সন্ধানে । অবশ্য এমন 
কোন নিয়ম নেই যে, দিনে তারা শিকান্র করবে না। খুব গরম না থাকলে এবং 
রোদের প্রাখর্য না থাকলে বা কোন বিপদ ব1 'বিরক্তিকর ব্যাপারের, সম্ভাবন। 
না. থাকলে দিবাডাগেও শিকার করে। সাধারণতঃ বাধ একাই শিকার করে। কিন্ত 
কখনে! কখনে। একটি পরিবার-দল নিয়েও এর] শিকার করে খাকে। বাথ বেশ 


104 জ্ঞান ও বিজ্ঞান [27তম বর্ষ, 2য় সংখ) 


দক্ষ ও নিপুণ শিকারী, নিজের ওজনের চেয়েও বড় প্রাণী শিকার কন্পতে এর! 
সক্ষম । শিকার পদ্ধতি পরিবেশ এবং সংশ্রন্ই অবস্থাভিত্তিক হয়। অনেক সময় 
তার! আত্মগোপন করে অনুশ্থত বা অভিপ্রেত বস্ত্র অলক্ষ্যে সদর্পে তার নিকটবর্তী 
হয়ে তাকে আক্রমণ করে বা সেই শিকার নিকটবততা হলে তখন তাকে আক্রমণ 
করে। আবার দল নিয়ে শিকারের সময়-_দলের একটি পশু আতআগোপন করে থাকে, 
আয় অন্তেরা শিকারকে তার কাছে তাড়িয়ে নিয়ে যায়। যাই হোক, বাঘ প্রথমে 
শিকারের ঘাঁড়ে বা গলায় গভীর দংশনে মৃতপ্রায় করে দুরে নিক্ষেপ করে, যাতে মৃত্যু- 
যস্বণাঁয় কাতর শিকারের অঙ্গ প্রতাঙের নড়াচড়া বাঘের নিজের কোন ক্ষতি করতে না পারে । 
যাই হোক, এমনিভাবে নিশ্চিন্ত হয়ে শিকার ঘাড়ের কশেরুকাগুলি ভেঙ্গে গিয়ে তাদের 
মৃত্যু ঘটে। বাঘ শুকর মাংস বেশী পছন্দ করে বলে কখিত। তাই খুব বেশী অস্ুবিধ! 
না হলে শূকর শিকারের করে সে বড় একট! দেই শিক্কারের কাছ থেকে দুরে সবে 
থাকতে চাপ না। শিকারের পর বাধ প্রচুর পরিমাণে খাগ্যবস্ত উদরসাত্ করে। 
যদি অবশিষ্টাংশ থাকে, তবে তা লতাপাতা ইত্যাদিতে ঢাকা দিয়ে রাখে । ভোজনের 
পর প্রচুর পরিমাণে জলপান করে কাছাকাছি কোন নিরাপদন্থানে গিয়ে বিশ্রাম ও 
নিদ্রার ব্যবস্থা করে। শিকারের কাছ থেকে তারা খুব একটা দূরে যেতে চার 
না, কারণ ওই অবশিষ্টাংশ প্রয়োজনমত তাদের সঘ্বাবহার করতে হবে। নিরাপদে 
শিকার ভক্ষণ করবার জন্যে বাঘ অনেক সময় তা মুববিধাজনক স্থানে টেনে 
নিয়ে যায় | 

বাঘের জন্বন্ধে একটা ধারণা আছে যে, এর] হিংত্র, ধদমেজালী, মনুষ্যমাংসললোভী । 
কিস্ত সব সময় তা ঠিক নয ।জিম করবেট বলেছেন, বাঘ “ভদ্রলোক'- কিন্তু উত্যক্ত 
বা আহত হলে তারা ভয়ন্ছর মূতি ধারণ করে। মাহনু-খেকে! বাঘ 
খুবই বিরল। আর বাধ ইচ্ছা করে কদাচিৎ মানুষ মারে। আহত, অক্ষম বা বুদ্ধ 
হয়ে বাব মানুধখেকে। হয়। মনুষ্যমাংলের স্বাদ পেলেও সেই বাঘ নরখাদক হস্তে 
দাড়ায় । বৃদ্ধ বয়সে যখন তাদের অন্ত প্রাণী হত করা সম্ভব হয় না, তখন তার! মানুষকে 
আক্রমণ করে। এই কাজট! হয় তাদের পক্ষে অনেক লোজ।। শাবকেরাও মানুষের 
মাংদ খেতে খেতে তাতেই অভ্যস্ত হয়ে পরে নরখাদকে পরিণত হয়। শাবক সঙ্গ 
থাকলে অর্থাৎ বাচ্চাওয়াল! বাঘধিনীরা মহ। বিপজ্জনক! এদের লামনে পড়লে--তাদের 
বিরক্ত না করলেও আক্রমণ করতে দ্বিধা করে না। আহত ব৷ ঘুমন্ত বাঁধের সামনে 
পড়লেও বিপর্দের সম্ভাবনা । এপব ছাড় বাধ বড় একট মানুষের ক্ষতি করে না। 
মানুষ দেখলে ব1 যে প্রাণী তারা! কখনে। দেখে নি, তা দেখলে এরা ভয় পেয়ে পালিয়ে যায়। 

বাঘের লক্ষগ্রদান দেখলে বোঝ! যায় যে, এরা যেন কিছুট! দূরে হাওয়ায় ভেলে গিচ্ে 
শিকারের ঘাড়ে লাফিয়ে পড়ে । এতে পায়ে আমাত বা ঝাঁকুনি লাগে না। একট! কথ! 


ফেবুারী, 1974 ] জাতীয় পশু-- বাঘ 105 


এখানে মনে রাখা দরকার যে, শাবকদের রক্ষার ব্যাপারে, উত্তেজিত বা বিরক্ত হলে 
তারা যে কোন অবন্থার সম্মুখীন হতে দ্বিধা করে না। 

বাধিনীর! সাধারণতঃ একপতিপরায়ণ (00009070905) । তবে একটি বাঘ 
নিহত হলে--আর একটি বাঘ সেই স্থান দখল করে নেয়। বাঘিনী পুর্পতির মৃতু 
পর অভিপসত্বর নতুন সঙ্গী জোগাড় করে নেয়। জানা যায় ষেঃ একটি বাধিনীর পতিত্ব 
দখলের জন্যে কয়েকটি বাঘের মধ্যে লড়াই বেঁধে যায়। যে ব্সেতে সেই পতিত্বের 
গৌরব লাভ করে । 

বাঘেরা নিজেদের বিচরণের একটা এলাক। ঠিক করেনেয়। আর সেই এলাক। 
ছেড়ে বড় একটা ধায় না। দেটা কোন একট। বাঁধা-ধরা জায়গ। না হয়ে হয়তো বেশ 
কয়েকট। কাছাকাছি অঞ্চলের সমষ্টি হতে পারে । একটা থেকে আর একট। এমনি 
জায়গায় তারা শিকার খুঁজে বেড়ায় । এই সব নিরধাচিত এলাকায় অপর কোন 
বাঘ প্রবেশ করলে সংঘর্ষ তার সঙ্গে অবধারিত । স্বাভাবিক বন্যজীবনে বাঘ প্রায় 
কুড়ি বছর বাঁচে বলে অন্থমান। তবে এব কম-বেশী হওয়া বিচিত্র নয়। আর এঝটা 
বিষয় হচ্ছে যে, বাঘেদের এক নজরে স্ত্রী-পুরুষ ভেদ কর! যায় না। বাঘ-বাঘিনী 
প্রায় একই রকম দেখতে । 

বাঘ আজ মবলুপ্তির প্রান্তে এসে দাড়িয়েছে, অস্ততঃ সংখ্যায় তাঁর। সঙ্কুচিত । সেই 
কারণে এই বিখ্যাত পশুটিকে টিকিয়ে রাখবার জন্তে এক প্রচেষ্টা সুরু হয়েছে। ব্যান প্রকল্প 
(070150৮3861) হয়েছে । এই প্রকল্পে কয়েকটি অঞ্চল বেছে নেওয়া হয়েছে, ষেখানে 
থাঁকবে এদের সংবঙ্গণের ব্যবস্থা । এই প্রচেষ্টা যে বাঞ্ছনীয়, সে ব্ষিয়ে কোন সন্দেহ নেই । 
ব্যান সংরক্ষণ পারকল্পনায় যে কয়টি অঞ্চল অভ্য়ারণ্যের জন্তে নির্বাচিত হয়েছে, সেগুলি 
হলো--আপামে মানস, বিহানে পালামৌ, উড়িষ্যায় নিমলাপাল, উত্তর প্রদেশে করবেট, 
রাজস্থানে রন্থমভোর, মধ্যপ্রদেশে কনিহা, মহারাষ্ট্রে মেলঘাট, মহীশুরে বান্দীপুর এবং 
পশ্চিমবঙ্গে অুন্দরবন। সংরক্ষণের বিধিব্যবস্থাও উল্লিখিত হয়েছে এই প্রকলে। সংরক্ষণের 
নববাবস্থ! ও আন্তরিক চেষ্ট! বাঁঘকে অবলুন্তিব গ্রাদ থেকে নিশ্চয় রক্ষা করবে বলে আশা! 


কর! যায়। 
ভ্ীবিশ্বনাথ অিত্র« 





7 প্রাণিবিস্ঞাবিগ্তাগ, বিশ্বতাপতী শান্তিনিকেতন । 


পারদশিতার পরীক্ষা 


নীচে সাধারণ বিজ্ঞান সম্পর্কিত কয়েকটি প্রশ্থ দেওয়। হলো। প্রত্যেক প্রশ্ের 
সঙ্গে তিনটি উত্তর দেওয়া! আছে--উত্তরগুলির মধ্যে একটিই সঠিক। তুমি কতগুলি 
সঠিক উত্তর দিতে পারলে, তাই থেকে সাধারণ বিজ্ঞানে তোমার পারদশিত! সম্পর্কে 
একট। ধারণা করতে পারবে । 
1, ফটোগ্রাফ তৈরীর কাজে ব্যবন্ধত ব্রোমাইড পেপারে কি থাকে ? 
(ক) পটাসিয়াম ব্রোমাইড 701: 
(খ) সিলভার ত্রোমাইড £৯£1: 
(গ) সোডিয়াম ব্রোমাইড 931 
2. ম্যাগ নেটাইট নামক খনিজ পদার্থের প্রধান উপাদান কি? 
(ক) ক্যালপিয়াম অক্সাইড 090 
(খ) আয়রন (ফেরেসো-ফেরিক ) অক্সাইড ঢ€304 
€গ) ম্যাগনেপিয়াম কাৰনেট 18005 
3. হাসপাতালে রোগবীজাণুনাশক পদার্থ হিসাবে আয়োডকফর্ম-এর রালায়নিক 
সক্গেত কি? 
(ক) 0120] 
€(খ) ০7773 
(গ) 0০172101, 
4. প্লান্কাগে। (615800972০) ব। কালে সীসাঁতে (91801: 159) কি থাঁকে ? 
(ক) সীস৷ এ 
(খ) লোহ। 
(গ) গ্র্যাফাইট 
5. থায়ামিন কোন্‌ ভিটামিনের রাসায়নিক নাম ? 


(ক) ভিটামিন £ 
(খ) ভিটামিন 4 


€গ) ভিটামিন ৪: 
6. চিকিশুসাশাজ্জে আনোজিয়। (50219) কাকে বলে? 
(ক) ক্ষুধার উদ্রেক না হওয়া 
€খ) শ্রাণশক্তির লোপ পাওস। 
(গ) শরীরের টিন্ুতে অক্িজেনের ঘাটতি হওয়া 


ফেব্রুয়ারী, 1974 ] পারদাশতার পরাক্ষ। 10 


7. আন্তর্জাতিক মানের এক কাট কত গ্রামের সমান ? 
(ক) 0200 গ্র্যাম 
(খ) 0300 গ্রাম 
(গ) 0400 গ্র্যাম 
৪. এক আত্তর্জতিক নটিক্যাপ মাইল (280:58] 2311) কত মিটারের সমান ? 
(ক) 2852 মিটার 
(খ) 2582 মিটার 
(গ) 1152 মিটার 
9, অতান্ত দ্রুতগতিদম্পন্ন জেট বিমানের গতি যে মাখ, সংখ্যা (79017 1)0000- 
061) দ্বার! নির্দেশ কর! হয়, তা কি? 
(ক) বিমানের বেগ ও বাতাসে শব্দের বেগের অনুপাত 
(খ) বাতাসে শব্দের বেগ ও বিমানের বেগের অনুপাত 
(গ) বিমানের গতিবেগ ও শৃন্তস্থানে আলোকের বেগের অনুপাত 
10. এক্‌স্‌ রশ্মির (27:85) তরলদৈর্ঘ্য কোন্‌ শীমার মধ্যে অবস্থিত ? 
(ক) 10-:£ সে. মি. হইতে 10-8 জে, মি. 
(খ) 10-৪ সে, মি. হইতে 10-৭ সে. মি. 
(গণ) ]0- সে. মি. হইতে 10-* সে. মি. 
1]. সৌরজগতের বৃহত্তম গ্রহ বৃহস্পতির ব্যান কত কিলোমিটার ? 
(ক) 139760 কি. মি. 
(খ) 239670 কি, মি. 
(গ) 2697230 কি. মি. 
12, পৃথিবীর ভর 1 ধরলে চন্দ্রের ভয় কত? 
(ক) ০.2 
(খ) 0012 
(গ) 00012 
(উত্তরের জন্যে 109নং পৃষ্ঠ! দেখ ) 


ব্রক্মানন্দ দাশগুগ্ড ও জয়ন্ত বনু 


১ ১১১ ১ নয হা শা রানা র়হতকস 


* লাভ ইনছিটিউট আব নিউরক্রিয়ীর ফিজিক্স, কলিকাতা-ও 


সদিগমি 

গ্রীষ্মকালে প্রতি বছরই মে-্জুন মাসে আমাদের দেশে সর্দিগমিতে বু লোক 
প্রাণ হারার । বেশীর ভাগ লোকই এই রোগের কবলে পড়ে--যার। বাইরে কান্ধ করতে 
বেরোয়। প্রচণ্ড রোদে এক রকম গরম হাওয়া বইতে থাকে । একে লু বলে। 

শারারের ম্বাভাবিক তাপনিয়ন্ত্রণ ক্ষমতাটি ভেঙে পড়লে হঠাৎ সর্দিগগি লাগে। 
কথাটি পরিফার করে বলি। সাধারণতঃ যখন বাইরের তাপমাত্রা বাড়ে, তখন 
আমাদের শরীরের ত্বক থেকে ঘাম অথব! ফুসফুস থেকে জলীয় বাম্প বেরিয়ে গিয়ে, 
দেহকে ঠাণ্ডা করে। কিস্তু বাইরের তাপমাত্রা অস্বাভাবিক ভাবে বেড়ে গেলে এই 
রকম প্রাকৃতিক নিয়ম দেহকে ঠাণ্ডা করতে পারে না। এর ফলে শরীরের তাপমাত্র। 
ধীরে ধীরে বাড়তে থাকে । এমন কি 180 ফারেনহাইট বা তার চেয়ে বেশী জ্বর 
হতে পারে। এই অবস্থায় ঠোট শুকিয়ে আসে, নাড়ীর গতি বাড়তে থাকে । সর্দি- 
গমির প্রধান লক্ষণ হলো ঘাম বন্ধ হওয়া। দ্রুত চিকিৎসার ব্যবস্থা না করলে 
সেপ্টশল নার্ভাস পিস্টেম ও শরীরের আরও অনেক যন্ত্র ক্ষতিগ্রস্ত হয়। কোন 
কোন ক্ষেত্রে রোগী জ্ঞান হারিয়ে ফেলে ও অবশেষে মারা যায়। সর্দিগমির 
চিকিত্সায় রোগীর দেহকে খুব তাড়াতাড়ি ঠাণ্ডা করা প্রয়োজন। সম্ভব হলে ঠাণ্ডা 
জলের মধো তাকে নামানোও যেতে পারে। শরীরে অল্প মাসাজ করলেও ভাল 
হয়। খুব তাড়াতাড়ি চিকিৎসার সুব্যবস্থা করলেও রোগীর সুস্থ হতে বেশ কয়েক 
সপ্তাহ লাগে। অনেক ক্ষেত্রে রোগীকে কয়েক দিন অজ্ঞান হয়ে পরধস্ত থাকতে 
দেখ! গেছে। 

সর্দিগগি যে কোন লোকের লাগতে পারে। তবে দেখা গেছে হাই ব্লাড 
প্রেসার আছে, কিডবীর অস্থুখে ভুগছে অথবা অত্যধিক মগ্তপান করে যাঁরা, তারাই 
এই রোগের শিকার হয় বেশী। অবশ্ত প্রচণ্ড রোদে ঘরের বাইবে না! বেরোলে 
সর্দিগমি লাগবার কোনও আশঙ্কা নেই। কিন্ত মাঠে অথবা পথেঘাটে যে সব 
শ্রমিক কাজ করেন, তাদের বাইরে না বেরিয়ে উপায় নেই। তারা ঘন ঘন জল 
খেয়ে দেহকে ঠাণ্ডা! রাখতে পারেন। এই সময় একজন শ্রমিকের এক লিটার করে 
জল খাঁওয়। দরকার-_তেষ্টা না পেলেও। ঠিকমত পোষাক পরে দেহকে বাইরের 
তাপ থেকে ঢেকে রাখাও বিশেষ প্রয়োজন। 


পার্থসারখি চক্রবতা 


উত্তর 
(পারদশিতার পরীক্ষা ) 
(খ) 
(খ) 
€খ) 
(গ) 
(গ) 
€গ) 
(ক) 
(গ) 
(ক) 
(খ) 
(ক) 
(খ) 


টি 


২০ ০০ ১ 9 তি ৯ ০১ 0 


৮৮ ৮৮১ টি 
৩ ৮ ০ 


প্রশ্ন ও উত্তর 


গ্রশ্থ 1 ₹ অনশনের ফলে মানবদেহে কি প্রতিক্রিয়। হয়? 

বিনয়ভূষণ কোলে, জঙ্গপাইগুড়ি। 
প্রশ্ন 2: কেমিলুমিনেসেন্স কি? 
কাকলি সেনগুপ্ত, শ্বা্থতী গুহ, মেদিনীপুর । 


উত্তর 1. অনশনের সময় দেহের স্পেহজীতীয় পদার্থ দেহের মধ্যেকার বিভিন্ন 
কারধপ্রণালীতে বাধিত হয় । এর ফলে মানুষের ওজন অনেক কমে যায়। দীর্ঘ দিন 
অনশনের ফলে দেহের ভিতরকার সমস্ত যন্্রপাতিই কমবেশী পরিমাণে ক্ষতিগ্রস্ত হয়ে 
পড়ে। খাসন্াভাবে শরীরের রক্ত উৎপাদন শক্তি কমে যায়, ফলে শরীনে রক্তের পরিমাণও 
কিছু কমে। রক্তে হিমোগ্লোবিনের পরিমাণ অল্প মাত্রায় হাস পায় এবং অপরিণত 
লোহিত কণিকা" শ্বেত্কণিকার মাত। বৃদ্ধি পায় । এছাড়া, রক্তে অয্নের ভাগ অনেকাংশে 
বেড়ে যায়। 


110) গাম ও বিজা।প | 27তম বধ, 2য় সংখ] 


অনশনের ফলে মানুষের গুন কমে যায় এবং দীতেরও ক্ষয় হয়। হাড়ে 
কাালপিয়ামের পরিমাণ বাড়ে এবং ফস্করাদের ভাগ কমে। প্রয়োজনীয় খাছের অভাবে 


চুল তাড়াতাড়ি পেকে ওঠে এবং শরীরে নানারকম চর্মরে।গ দেখ! দেয়। এই সময়, 


হৃৎপিণ্ডের কাজ স্তিমিত হয়ে আসে ও রক্তলঞ্চালনের সময় দার্ধতর হয়। শরীরের 
আভ্যান্তন্লীণ বিভিন্ন গ্রস্থির কার্ধক্ষমতাও অনশনের ফলে বিদ্ধিত হয়। 

ক্রিয়েটিন নামক একরকম পদার্থ পেশী সধ্ধালনে অংশগ্রহণ করে। অনশনের 
ফলে এই ক্রিয়েটিন হাস পার । পেশী আয়তনে সম্কৃচিত হয়ে পড়ে। অনশনক্রিষ্ 
বাক্তির অনুভূতিশক্তি কমে যায় এবং দৃষ্টিশক্তিরও ক্ষীণত1 দেখ! দেয় । এমন কি, এই সময় 
স্মৃতিশক্তি হাপ পায় । 

উত্তর 2. রাসায়নিক শক্তি আংশিক ব1 সম্পূর্ণরূপে রূপান্তরিত হয়ে যখন আলোর 
স্থপ্টি করে, তখন এ প্রক্রিয়াকে কেমিলুমিনেসেন্স বলা হয়। এই আলোর কোন 
ইন্ড্িয়গ্রাহা উঞ্ণতা নেই। 

কোন রাসায়নিক বিক্রিয়ায় যে অণুগ্চলি অংশগ্রহণ করে, সেগুলিকে বলা হয় 
সক্রিয়্। প্রাধমিক অবস্থান যখন উপাদানগ্লিকে একত্র করে, বিক্রিয়। ঘটাঁবার 
উপযুক্ত অবস্থা সৃষ্টি করা হয়, তখন এই সক্রিয় অণু স্টির জন্তে কিছু পরিমাণ শক্তির 
প্রয়োজন হয়। অনেক ক্ষেত্রেই দেখ। যাঁয় তাপ প্রয়োগের ফলে বিক্রিয়। সুঠুভাবে 
ও দ্রুতগতিতে সম্পন্ন হয়। সক্রিয় অণুগচলি নিজেদের মধ্যে ক্রিয়া করে যখন 
বিক্রিয়ার শেব স্তরে উপস্থিত হয়, তখন তারের অতিরিক্ত শক্তি ধরে রাখতে না 
পেরে ছেড়ে দেয়। যে ক্ষেত্রে এই পরিত্যক্ত শক্তি-বিকিরণের তরঙ্গ-দৈর্ধ্য দৃশ্যমান 
আলোর তরঙগ-দৈধ্যের সমান হয়--তখনই আমর! রাসায়নিক বিক্রিয়া থেকে দৃশ্বামান 
আলে! দেখতে পাই এবং বিক্রিয়াটাকে বলি ফেমিলুমিনেসেন্ট । 

জোনাকীর আলোর সঙ্গে আমর সবাই পরিচিত। এই আলো কেমিলুমিনেসেন্সের 
প্রকৃষ্ট উদ্দাহরণ। জোনাকীর দেহস্থিত প্রোটিনে লুদিফেরিন নামক এক ধরণের বিশেষ 
পদার্থ থাকে। বায়ুস্থিত অক্সিজেনের সঙ্গে জোনাকীর লুসিফেরিনের জারণের ফলেই 
ক্ষীণ আলে! দেখা যাঁয়। জোনাকী যখন শ্বাসগ্রহণ করে, তখন সংগৃহীত অক্সিজেনের 
লঙ্গে এই জারণক্রিয়া ঘটে । শুধুমাত্র শ্বানগ্রহণের সময়েই এই জারণ-ক্রিয়া ঘটে 
বলে জোনাকীর আলো! একটান!। জলে ন1। 


খ্যামনুল্দর দেঃ 


শপ সি অনি 


* ইনস্রিটিউট অব রেডিও ফিজিক্স যাও ইলে করনি, বিজন কলে” কলিকাতা-9 হাশ 


বিবিধ 


অংখ্যায়নিক পদার্থ-বিজ্ঞানসম্পকিত 
আন্তর্জাতিক আলোচনা -চক্র 


বিজ্ঞানাচার্ধ সত্যেম্নাথ বসুর অনীঙ্গিতষ 
জগ্মবাধিকী ও বোঁস-সংখ্যাযনের পরশশ বছর 
পুতি উপলক্ষে কলিকাতা বিশ্ববিভ্ভালর, বাংল! 
দেশের ঢাঁক] বিশ্ববিদ্যালয়, যাদবপুর বিশ্ববিচ্যা লয়, 
উত্তর বঙ্গ বিশ্ববিদ্তালঙ্গ, খড্গপুর আই আই টি, বস্থ 
বিজ্ঞান মন্দির এবং আরও ভয়টি বিজ্ঞান সংশ্বার 
যৌথ উদ্যোগে গত 8-11 জায়ারী বিজ্ঞান কলেজ 
ও বস্থু বিজ্ঞান মলারে সংখ্যায়নিক পদার্থবিজ্ঞান 
সম্পর্কে একটি আশ্র্জতিক গবেষণ। অঠলোঁচনা-চ 
বিশেষ সাফল্যের সঙ্গে অহঠিত হয়। 8ই জা 
কারী বন্ধ বিজ্ঞান মন্দিরে আচার্ধ বনু উপস্থিতিতে 
এরই আন্তর্জাতিক আলোচনা-চক্রের উদ্বোধন 
করেন কফেআ্ীয় সরকারের বিজ্ঞান ও প্রযুক্রিবিদ্যাপ্ 
মন্ত্রী জু পি মুত্রঙ্গপ্াম এবং পৌঁরোহিত্য করেন 
অধ্যাপক দেবেজ্্রমযোহন বনু। 

এই আন্তর্জাতিক আলে।চনা-চক্রের সংগঠন 
সমিতির সভাপতি কলিক।তা বিশ্ববিস্তালয়ের 
উপাচার্য ডক্টর সতোষ্রুনাধ সেন সমবেত লিদেশী ও 
ভারতের বিভিন্ন রাজ্যের প্রতিনিধিদের শ্বাগ 5 
সম্ভাষণ পন করেন। মাকিন যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্জা, 
ক্যানাডাঁ, পশ্চিম জার্মেনী, পুর্ব জার্সেনী জাপান ও 
বাংলা দেশ থেকে কয়েকজন বিশিষ্ট বিজ্ঞানী এবং 
ভারতের নানা রাজ্য থেকে বেশ কিছু সংখ্যক 
বিজ্ঞানী ও তরুণ গবেষক আলোচনায় অ'শ গ্র€ণ 
করেন। বিদেশের বিশিষ্ বিজ্ঞানীরা পচট বিশেষ 
ব্তৃত! প্রদান করেন এবং পাঁচটি আমন্ত্রিত বক্তৃতা 
গ তিরিশটি গব্ণা-পত্র পঠিত হয়| এই সব 
বড়ত। ও গবেষণার সম্পকিত আলোচনা বিজ্ঞানের 


ছাঁর-ছাত্রী ও তরুণ গব্ষেকদের মনে গভীর আগ্রহ 
ও উৎসাছের সঞ্চার কবেছিল। ]1ই জানুয়ারী 
সমাপ্তি অনষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন উপাচার্য ডক্টর 
সতন্যঙ্্রনাথ শেন এবং প্রধান অতিথির আসন 
গ্রন্থণ করেন জাপানের অধ্যাপক আর. কুবে। 
পশ্চিম বঙ্গের রাজ্যপাল শ্রী এ. এল. ডানক্াল, 
পশ্চিম বঙ্গ পরুকাঁরের শিক্ষামন্ত্রী অধ্যাপক মৃত্যুজনর 
বন্দ্যোপাধাত্ এবং বৃটিশ কাউন্সিল আঁলোচনা- 
চক্রে অংশ গ্রহণকারী বিশিষ্ট বিজ্ঞানী ও 
গবেষকদের প্রীতি সম্মেলনে আপান্সিত করেন। 
কলকাতা রাঁজভবনে রাজ্যপাল আয়োজিত 
লীতি-সদ্মেলনে আচার বনু উপস্থিত ছিলেন । 


ভারভীয় পদার্থবিষ্ঠ। সমিতির কলিকাতা 


শাখ।র মৃতন কার্ষধকন্দী সমিতি 
ভারতীয় পদার্থবিদ্কা সমিতির (1131217 
[1755103 485001010101) কর্লিকাত। শাখার 
(09100002 €717979660) কার্করী সমিতির 


সাম্ীতিক নির্বাচনে শিষ্ধলিখিত সদস্যগণ 1974-76 
সাঁলের জন্ঠে নিরাচিত হইক়াছিলেন | 
সভ।পতি--ডক্টর জয়ন্ত বনু (সাহা! ইনগিটিউট 
জব নিউক্লিয়ার ফিজিক্স), সহ-সভাপতি--ডক্উর 
নকুলচঙ্জা দাঁস (বাঁদবপুর বিশ্ববিগ্তালহ ), সম্পাদক 
--ডইউর স্প্রকাশ চক্র রায় (বনু বিজ্ঞান মন্দির), 
কো যাধ্যক্ষ--ডক্টর স্ুবিমল সেন (সাহা! ইনস্িটিউট 
অব নিউক্রিয়ার কফিজিঝ), সভ্য -- ডক্টর রাজকুমার 
খৈত্র (সাহু ইনধ্রিটিউট অব নিউর্রিয়!র ফিজিজস ), 
অধ্যাপক বিশ্বরঞ্জন নাগ ( কলিক1তা বিশ্ববিগ্ঠালয় ), 
ডক্টর রমেন কর € কলিকাতা বিশ্ববিগ্ত!লগ্ন )+ ডর 
হখেন্নৃবিকাঁশ বঙদ্যোপাধায় (ইঞজিয়ান গ্যাসো 


112 


পিয়েশন ফর কার্টিভেসন অব সাফ্েস ) ও ডক্টর 
প্রশান্ত কদ্ব ( কল্যাণী (বশ্ববিস্তালয় )। 


শ্রীরামপুর চাতরায় বিজ্ঞান প্রদর্শ নী 


কল্পতরু ছোটদের আদর আক্বোজিত মঠ 
প্রদর্শনী অনুষ্ঠিত হয় চাতরা 
দত্তপাড়! লেনে গত 30শে ডিসেশ্বর "73 থেকে !ল৷ 
জাচুক্ারী :74 পর্যস্ত। 


অধ্যাপক শ্রুপরিমলকান্তি যোষ। 


বাষিক বিজ্ঞ।ন 


প্রদর্শশীর উদ্বোধন করেন 


প্রদর্শনীতে এই বছরের বিশের আকর্ষণ ছিল 
বিশ্বের 
একটি ঘটনা বা মুহুর্ভ পুতুল প্রদর্শনীর মাধ্যমে 
দেখানে!। উল্লেখ করা বার একটি দৃশ্থের-_ 
বিজ্ঞানী নিউটন চিস্তাঁমগন অবস্থাত় বাগানে বসে 


খ্যাতনামা! বিজ্ঞানীদের জীবনের এক 


রয়েছেন, হঠাৎ গছ থেকে একটা আপেল 
পড়লো | এইরকম ভাবে আফিমিডিস, জেমস 


ওছাট, পি. তি. রামধনঃ নিকোলাস কোপাপ্রিকাণ 


এন ও বিআন 


[ 27তম বর্ষ, 2য় সংখা 


প্রমুখ বিজ্ঞানীদের জীবনের এক একটি বিশেষ 
দৃশ্তুও প্রদশিত হয়েছিল। 

আলেবকবিন্ুর মাধ্যমে ধুমকেতু 
কহৃত্েকে'র গতিপথের নক্সা ও ধুমকেতু এবং 
অন্তান্ত তখ)সন্থপিত জ্যোতিবিগ্য। বিষয়ক বিভাগটি 


রঙীন 


খুব জনপ্রিয় হয়েছিল । 
চাথ তাল রাখুন” এই পর্যাকে প্রাকৃতিক 
চিক্ৎপার দ্বার! অতি সহজে কি ভাবে চোখ ভাল 
রাখা বায়, সে সন্বদ্ধে বেশ কিছু তথ্য প্রপশিত হুয়। 
এছাড়া প্রতি বছরের মত বিজ্ঞানের অন্যান্ত 
বিভাগগ্ুপিতেও নতুন মতুন বৈজ্ঞানিক মডেল 
প্রদশিত হয়। 


ইঞ্রিনীয়।রিং সম্মেলন 


আগামী 22, 23, 24শে ফেব্রুয়ারী (1924), 
রবীন্দ্র সদনে আসোসিগ্রেশন অব ইঞজিনীগারপ, 
ইত্ডিকার উদ্চোগে ইঞজিনীঘারিং দ্রব্য ও হহ্রাপি 
সন্বদ্ধী তিনদিবস ব্যাপী সম্মেলন অনুষ্ঠিত হইবে। 


পি উস ১৯0০ আ তে আজ মেড দে এ 





প্রধান সম্পাদক __ভ্রীগোপালচজ্জ ভট্টাচার্য 
বঙ্গীয় বিজ্ঞান পঠ্যিদের পক্ষে উমিহিরকৃষার ছটাচাধ কক পি-23, খাজা কাজ$ ক ছ্বীট, কলিকাতা-6 হইতে প্রকাশিত এবং 
গুখাণডেশ 9717 হেনিয়াটোল! লেন, কলিকাতা হইতে প্রাপক কর্তৃক মৃত্থিত। 


জ্ঞান ও বিজান--মার্চ, 1974 1 


_ বঙ্গীয় বিজ্ঞান পরিষদ 





পরিচালিত মাসিক পত্রিকা 
“জ্ঞান ও বিজ্ঞান' 
উপদে1 মণ্ডলী £ সম্পাদক মণ্ডলী £ 
জ্রীপ্রিয়গারঞ্জন রার স্লিগোপালচন্ত্র ভট্টাচার্য 
ৃ | (প্রধান সম্পাদক ) 
হীজ্ঞানেশ্জলাল ভাহুড়ী প্রীপরিমলকাত্তি ঘোষ 
জ্রীবলাইঠাদ কু ১৮১৬৮ দাশগুপ্ত 
নুষেন্বুবিকাশ কর 
ল্ীকছেজ্রকুমার পাল পউ 
শ্রীরবীন বন্দ্যোপাধ্যায় 


সম্পাদনা-সহায়কবন্দ 2--জ্ীমহাদেব দত্ত, শ্রীষ্বত্াপ্জয়প্রসাদ গুহ, শ্রীস্বনীল 
মিংত, শ্রীতড়ি চট্োপাধ্যায়, শ্রীব্রক্ষানন্দ দাশগ্তপ্ত, শ্রীমাধবেন্্রনাথ 
পল, শ্ীরাধাকাৰ্ক মণ্ডল ও শ্রীশ্যামনুন্বর দে । 


কেনে রগ পাতার 
_রসেওগন্ধে 


নিরমযা শাফি রর 
প্রোডাক্টস (প্রা লিমিটেড 


কলি? ক. ১. মারা 





2 জান ও বিজ্ঞান-্প্ষার্চ, 1974 





8€1410/1. 01611081. & /1818118605011081, ৬/08105 £10, 


8৯00188৩710 9121056560৩ ০01 1887088651815518 & 00062556515 


8181101201011018 ০01: 


21725177180606108]7 ৫৮110170109%15 ৫ 


021161196 210 105 32105, 10001515০10, 8, 2. 1000115810010৩, 
93. 0.১, 00969581012) (০1018668216 ৯০91010016৩ 
3. 6.1. 0.১ 60085810010) 4060866 3. 95 255 59605551005 10016 
3, 6, 1.0. 9০৭1810 04106 9,72১ 1.0 মিভাত। 5 00000 
07962 3. 00১ 1, 0, আও ৮2110050006 710211020606108] 
(01761010819. 


11597 & 3859176 5808116) 71775 0০13517115815 ৪ 


70067, 1111)0151 0108, 41000, &10100 ১0110917866 (1101 ম৩৪), 
7670 21010, 80156159120 281৩ 5০01000০106 &০ 
[068351010 0161866 20২ 80880681180 50119178166 ৯, 5০৫10) 
9011017916 41215501005 415 00968551210 19106 4৯. [দ ১০৫৫০৪ 
01)10110৩ 4, 0.১ 2100 5010096 &৭ 2০৫৩, 


[১1685৩16657 3০ 51008875519: 855 20৭৩ 205 ৪0৫ 98185? 51860880818 
10 8105 185৩ €৩ :-*৮ 


চালা 07251757021 
6, (381)681) 0130771061 ৯৬612116) 
089100668-15, 1018, 


স্পা রি 


জান ও বিজান-.ম15, 1974 





মাটি, সিমেণ্ট, কংক্রীট, শিলা, আকরিক, খনিজ, ধাত, 
(পট্রোলিয়াম, বিটুমিনাস প্রভৃতি পরীক্ষার সহায়কপমূহ 
এবং সরঞগামাদিন জস্য-_ 


যোগাযোগ করণ 2 


জিওলজিই সিঠিকিট প্রাইাতট লিমিট 
১৩৭, বিপ্লবী রাসবিহারী বনু রোড, 
কলিকাতা-১ 


গ্রাম ;: জিওসিন (0105৭) ফোন £ ২২-৩৫৭১ 





4 জান ও (বজ্ঞান-_ মাচ, 1974 

28586 [২7৭]7191ং 
[7৬] তে ৬2৩ 22072) 0েতি ৭ 
7৬ ৮) হা] কো তে 0017 4217771% 
11২ ৯৬101) 7২55157001২ ক 
171] 21) 00019107075 00)% তে 


£& ৬৮11) উট তেছ। 0৮ 285 
হ9, 


(0180017100115 71100 01 50610101500 1713৬ 
12951077155 0051058] এ 10150001010 101016015 














250 লি 
২0404787746 £ 23 
”ঠ5 এ ৮427172৫512 








00100017011 0106 0017705, উঃ 7১৮4-৮2 
4১10 52810778000 দ1)]িওে : হোরকরভিলিরর এ০০224/878 
9 লা ৯1) হারা চারাকপাাটিসৈঠো, 06 77৮৮ 76%51754744 


১1১02471047 টার ১০7] 4191 চটে) 
17077102178 £1-507 50880 
£৯৮০710০20েতর, 

1০7 হানা নাছ &::2601817 
৪৬105, 


17717716101 10209215 00 : £42/446 ৫442 


8/ 2পঠধশ82% 





| ম711700]9 800. ৮ 
19, 07071 01581: 56, 7160665-13. স্্ 
9, 0 ২০, 8956 টির (৮2৮67 
770017৬ : 24-5873 ভ্রোজতে £ 18৬ 2০০ রড ৫৩ ১ল ৮ 
4£৯1৬0/11৭19/3 














লী ন2352£6779 8972 896৩2 
সপ্ত প্রকাশিত-_ 07 70078 78061787579 18 
1. আালবার্ট আইনস্টাইন-দ্বিঞে শত 
রায়, সুল্য--ছয় টাক1! 
2. মহাকাশ পরিচয় (দ্বিতীয় সংস্করণ ) 
স্জিতেজকুষার গুহ, মুল্য-- আট টাকা। 


3, বোস সংখ্যায়ন--মহাদেব দত, মূল্য-_ 
ছুই টাকা | " 8১99০81"11 11088160610115 


প্রকাশক-_বঙ্গী় বিজ্ঞান পরিষদ. (| 8880018 ঘা) ৪018মগুণালা0 
একমাত্র পরিবেশক : 60898 8পণ0া 


ওরিয়েন্ট লঙ ম্যান জআ্যাণ্ড কোং লিঃ 2392 8, 0৮৮ 02007. 800 
ফোন £--23-1601 


£11 80218 91 
1,৯৮1 71,0৬৮ ৭ 1,49৩ ৯০০৯2587779 


101 8 6119015+ 59115765 & 





০4140700121 8...৮4 
17, চিত্তরঞ্জন আযাভিনিউ, | 
কলিকাতা-13 বদন 
| 89০৮০: ৫ 85-1556 ::082728-28 9008৮ 
865115569 $ 52-2001 





জান গু [বিজ্ঞান-্্মাঁচ, 1974 ৫ 


বিষয়-সুচী 





বিষয় লেখক পৃষ্ঠ 
আচার্য সত্যেজনাথ স্মরণে "** ূ 113 
সত্যেক্জ-স্থৃতি '** গ্রীজ্ঞানেশ্রনাথ মুখোপাধ্যাঙ্গা 114 
কাছের মাছষ সতে]আনাথ '"* ভরাদিলীপকুমার রান 116 
জাতীর অধ্যাপক আচার্য সত্যেঞ্জনাথ বন্ুর 
মছাপ্রনাণে শ্রদ্কার্য ""' কুদ্রেশ্রকুমার পাল 122 
মরপোতরে আচার্য সত্োম্রনাথ অমর হোন রি মহাদেব দত্ত 126 
অবারিত দ্বায়--শিথ! অনির্বাণ -* গগনবিহারী বন্দেটাপাধ্টার 129 
মাষ্টার মশাঁয়কে যেমনটি দেখেছি '*- নন্গহুলাল সেনগুধ 131 


| 2858 15816 8101 
ূ 01455 ভা/7 





এপ ৃ আমর! পাইরেকস কাচের-টিউব হইতে 

রি রা সকল গুকার বৈজ্ঞানিক গবেষণাগারের 
] জন্ত যাবতীয় যন্ত্রপাতি প্রস্তত ও সরবরাত 
ৃ করিয়। খাকি। 


রর 
এ ১১১১ ২২২১২ ২১২ 
৮০০১১১১১১১১ মনি 


8. রব 
নী ঘা ৮, মাপা 
রর চি. 
০ মূ 1 
চি 
/্ রি 
- এফ 


0 |100917, 788589101) র নিয় ঠিকানা অন্থসঙ্ধান করুন ; 
ঢ0008001781 (151710163 ৃ 
& 608, 60178010 ৪, 8, 91585 ৫৫ ০, 


01৬8০. 61401145658130 0087684% 137, 8৩৮৪ মজা 98. 

(85৪ 86৭1, ক ৩৮৮ রা ডাহএ 050 1 91৩3 73017070689) €58158885..12 
£880%182. পাতা । ৪- ধারা ণ 

ট্রির়া। ৩৩ বটের তে ০৯ ৪১প, ১8884 
ঢিডি 70, উঠ । ৪9 ৮1598518858 




















02878 : 5021016, চ01000706 : 95-9915 


আন ও বিজ্ঞ ন--মাঠি 1974 


বিষয়-সূচী 


বিষর লেখক পৃষ্ঠা 
সত্যেন্্রনাথ ও বোৌস-সংখ্যায়ন *** গিরিজাপতি তট্টাচাধ 134 
আচার্য সতো্্রনাথ বন্দু স্মরণে *** অসীম! চট্টোপাধ্যায় 144 
অধ্যাপক সত্যে্গনাথ বনু '** শ্রীনির্মলকুমানী মহুলানবিশ 146 
আচার্য বোলের শেষ অহ *** পরিমলকাস্তি ঘোষ 154 
আচার্য সত্যেনত্রনাথকে ধেমন দেখেছি ৮৮ জয়গ্ত বন 155 
আচার্য সত্যোন্ত্রনাথ বনু +** ব্ুবীন বন্দোপাধ্যায় 157 
আচার্য সত্যেন্্রনাথ "** বলাইটাদ কু 161 
শোক-বার্তা | 163 
165 


শোক ও ম্ম:৭-সও| 








বিজ্ঞানাচার্য মত্যেন্রনাথ বর মণ্ড জিত জন্মদিবগ উগলকে 
প্রকাশিত পুন্তকালা 
1. 985615015 ৪৮) 8056 700 017000985 0012010610019010 ৬ 01006 
02910] 01106 5, 1900 


2, 98150107017 86 8395০ 7061) 01107095% (5010706100156002 ৬০106 
(09:11) 10005 52509 


3, 98061] 80] 30562 706 011600985 (5070010510018001 ৬ ০010126 
(21৮--117) 51106 25, 600 


ূ রাতস্থান ঃ 
নবম ন্বিভভান্ম ্পল্ত্িজ্ম 


পি-23 রাজ। রাজকুষ্ণ গ্রীট, 
কলিকাতা -6 


ফোন ১ 550660 





আন ও বিজ্ঞান-- মাচ, 1974 





৩০) 0৮175 ৪4১1০ 28091000০75 
114১0504008) 5% 0১ 


5০০০7, চলার ৯০1, হাতত, 00৮ঞাাতি উিহিা015 
917,410 40110, 972042৮59, 07070 8 00)5 2০ দাটতা, 
1৬101২0-১1 24২4৮, 

4159 লু 2540০095071 ছ070া ০ 
1110০/১1:9 &143014701% িঞেজোও 





172 


০৯-০৩ 1715 01716010588. 00. শা 0, 
০/১1০2077% 29 








আঞ্রীভ্য ব্তান্তাছচত্খেড বাচতে হলে, বাড়াতে হবে শশা পভ্ন ক ত্ভ। 
ভার জন্যে দরকার স্পিঝাহ ও ন্বিভজ্ঞান্ৰ শিক্ষার বছল গ্রাসান্বণ 
চাই বছ ন্িভগ্তাক্ধী ও স্পশিওজী খার 


হ্বা তন ক্াঞ্ লমেত গবেধণাগার ও বিজ্ঞান প্রতিষ্ঠান 





বাবস্ীয় লরগামের একজ লনাবেশ ও প্রাপ্তিস্থান ২." 


নূদীয়। কেমিক্যাল উয়ার্কয (২০) লিঃ 


ফোন ? ০৪---০১৭৬ ) কি ৪-৮৪খ০ ঃতকল ও টি মত, কল্গিকাতা--১২ 


চিরাচরিত 
বিকার 


এতে 





্ আন ও বিজ্ঞালস্মার্চ, 1974 


[96691 05108069071 219165 71911556100 
1, 3710515. 201010102 ডেজোঃ006 08000555 01743- 1867) (বাংলা অভিধান 
গ্রন্থের পরিচয় )(১৭৪৩-১৮৬৭ খৃঁঃ ) (110 86785110911 7 501701717101552 


315810050705158. [0551 8 ৬০, 19, 936. 4950. 11106 1২5. 12,090 
21301090906 00085 3055%8101 ( বৃন্ধাবনের ছয় গোস্বামী ) (27936158511), ১5 
[01 015910017018012, 7808, 1, 16 080. 79, 336. 1920. 170101021২5, 15.00 


3১001160050 10059100 &05:2715 7০06073 & 1,660, 05 911 7৮1 91212001)81, 
ঠ11055, 70860 05 9101. 1001০ 70985. হি0৪1 8 ৮০, 0০. 920. 
19005 [82500 


1970. 
4, চ৪1]7 110955011001550085 09105, 501650 5 10:07 ৯৪ 10205 
16 1770, 11, 18441 2150. 1971. [01105 1, 12.00 
5, ভি110050121069] 06121000150 (21707016101), 05 100 5. 05 01750650166, 
[2005 05. 5,00 


[06100% 16 100. 01. 220. 1970. 
7, 70716185675 07 £১10016186 [10019 80121110180 98153226111) 4৯৮ ০ 


[1061800106, 20160 ১5৮ 1), 0. 9110811010৮ 16 000. 01), 20019 
10191655. 1970, 00105 ৪. 12,00 
?. 0০51007 ৬1)95 (গোবিন্ব বিজয় ) (1) 9208511), ০0100 ৮% 
[01. 61105051061 1091)9059 08, 101106105 16 100. 09, 584 1969. 00102 13. 2500 
8, 001 07781701586, 65107, 751570902 11001021062, 1706200% 
16100, 701), 122. 1970. 11705 1২৪, 10,00 
9, 111015101% 8150 109 00116501005, 05 017 18011000055 50105060166, 
1২০৭] 8 ৬০. 01১. 234. 1969. 11155 1২8. 20.00 
10. 15091180152156 € 85] 99105) (মহাতারত--কবি সঞ্জপ্ন বিরচিত ), 7 
11. 11010118015 100081 31055, [২০05৪] 8 ০. 019, 1070. 1669, 0002 1২5. 40.00 
10৮ 787৮189৮ 0918115, 1019255 97208179 
1১610110201012 1062108167770170 81111615115 01 38100069 
পট, 1719219২040, 0০2817001125-9. 


পি পা রা ৯ হই ৯ পর 








লেঝসিন 


সর্পদংশনের শ্ুবিখ্যাত মহৌষধ, 
সবপ্রক্কান্ন পর্পবিষ নফ করে । 


কলেরায় নির্ভরযোগা ওঁবধ, প্রতিষেধক 
হিসাবেও নিশ্চিত ফলগ্রুদ | 


(লেক্সিন সকল সন্বান্ত দোকানে পাওয়া যায়। 
পি.ব্যানাকি মিভিজাম, বিভার 


কলিকাতা অফিস £ ১*৯ ডি, স্তামাপ্রসাদ মুখার্জী রোড 
কলিকাতী-২৬ . 

















আচাখ সত্যেজ্জনাথ বস্ত্র 
লব ]ল। জ্ঞাভতারী গভীদত ছণ 


( 1)74 সা 


এ 


সমর ৌজন্তে ] 


| বক-াদান 
“আমাদের দশে আকাশ জলপপ্ারণের মধো বাদি আামর বিজ্ঞানের মুল 
তত্বগুলি প্র১ার করতে চাই, ভালে €স প্রচার দেশীর ভালাতিই করতে হব" 
বিদেশ! ভামায নয়, ত! €ন নিদেশী ভাষা যত সমুঙ্গভ ভোক নাতকন।? 
ক সঃ 8 
লিজ্নচচ। সম্ভব নয়-- ভারা হয় বালা! জানেন না, 


*হারা ললেশ লাহলাভমষানু 
নয় লিজ্ঞান পোঝেন ন।।” 


আচার্খ সতেঃজ্রনাথ 


জাচার্য সতোন্দ্রনাথ বনুর পরলোকগমনে বঙ্গীয় বিজ্ঞান পরিধদের 
লাধারণ সভায় গৃহীত শোক-প্রস্তাব 


বঙ্গীয় বিজ্ঞান পরিষদের প্রতিঙ্গাতা-সভাপতি, বিশ্ববরেণ্য বিজ্ঞানী আচাধ সতোম্নাথ 
বন্থু মহাশয়ের আকন্পিক তিরোধানে এই সভা গভীর মমবেদনা ও শোক প্রন্গাশ করিতেছে। | 
তাহার মহাপ্রয়াণে ভারতের তথা বিশ্বের বিজ্ঞানের ক্ষেত্রে ঘে শৃন্ত তার শ্ষ্টী হইল, তাহ! | 
কোন দিন পুরণ হু্টবার নহে। বিজ্ঞানে তাহার অলোকপামাগ্ত মশীষাব স্মৃতি মানের | 
মানদপটে চিরকাল অক্নান ও ভাস্বর রহিবে । | 

কেবলমাত্র বিদ্ঞানের ক্ষেত্রেই নাহ-সাহিতা, ইতিহাস, দর্শন, সঙ্গীচশাস্ত্র | 
প্রভৃতি সন্বন্ধেও আচাধ বসুর ছিল অবাধ ও স্বচ্ছন্দ গতিবিধি । তিনি ছিলেন ছাত্রবসল 
আদর্শ শিক্ষষ্চ। ঢাকা, কলিকাতা এবং বিশ্বভারতী বিশ্ববিগ্ঠঠলায়র ছাত্র-ছাত্রী এবং 
অধ্যাপক্বৃন্দ তার সম্গেহ লানিধ্যে ধন্ত হইয়!ছিলেন। সাহা ইনগ্রিটিউট অন নিউক্লিয়ার | 
ফিজিকা, আআসোসিয়েসন ফর দি কালটিভেলন অব সাধেন্স ইপ্ডিযান স্ট্যাটিস্িক্যাল ইনষ্রিটি উট, 
ম্যাশানাল কিজ্জিকাল ল্যাবরেটরী প্রভৃতি বিশিষ্ট গবেষণা-প্রতিষ্ঠানে খুরুৎপূর্ণ পদে 
থাকিয়া তিনি অসংখ্য গবেষণা-কম্মীকে উৎসাহ ও অন্ুপ্রেরণ। দিয়াছেন। | 

মাতৃভাষা বলার প্রতি মাঁচাধ খন্থুর ছিঙগ অলীম মমহইবোধ। এই ভাষার মাধমে | 
জনসাধারণের মধো বিদ্জান প্রচারের সুমহান সংকল্প লইয়া তিনি প্রতিষ্ঠা করিধাছিলেন 
বঙ্গীয় বিজ্ঞান পরিষ? এবং প্রবর্তন করিযাছিলেন ইহাবই মুখপত্রকপে বাংলা ভাষায় বচিত 
বিজ্ঞান পত্রিকা “জ্ঞান ও বিজ্ঞান? । বিচ্ঞান শিক্ষার ক্ষেতে সবস্তরে বাং ভাব। ব্যন্নহারের 
জন্য ঠিনি এক্ধ শগ্ডিশালী আান্দোলনের সুচনা করিয়া! গিয়াছেশ । আচার্ষদেবের পণিত্র স্মৃতির 
গ্রতি থার্থ সম্মান প্রদর্শনের জন্য এই আন্দে লনকে বাঁচাইয়। রাখিয়া পরিপূর্ণ সাফগোর 
ভূমিতে পৌছাইয়া দিধার স্ুুদূঢ স্থল মাজ এহ সঙ পুশধায় ঈচ্চারণ কবিতেছি। | 

বঙ্গীয় বিজ্ঞান পরিষদের সবাআ্মক উন্নতি জন্য আচার্য লত্যে্মনাথ গঞঠ ছাব্বিশ বশুদয় | 
ধরিয়। ঘে অক্লান্ত প্রচেষ্টা করিম গিযাছেন, তাহ1ধ সার্ধ৯ বপায়ণর জন্য আমনা_-পরিষদের 
সভ্য ও ক্্ীবৃন্দ__গ্রতিজ্ঞাবদ্ধ থাকিতেছি। 

পরিষদের জনক ও পথ-প্রদর্মক আচার্দেবের সহিত পরিষদের যে নিবিভ আঁত্মী ঘা | 
সম্পর্ক ছিল, সে সম্প কর ম্মৃতি কোনদিনই মলিন হইবে না। তাহার শোকসভপ্ত পরিবারবর্গকে 
আমাদের আন্তরিক সমবেদনা জ্ঞাপন করিতেছি । এই সভ। ঠাহার আত্মার চিরশাস্তি 


কামনা! করিতেছে ।* 


শপ পর পা তত দক জার রং 


* 1] ই ফেব্রুয়াবী, 1974 তারিখে বঙ্গীয় বিজ্ঞান পরিষদ? ভবনে অনুষ্ঠিত সাধারণ সভায় এঠ "শাক পক্তাব গৃহীত হয়। 





আচার্য সত্যেআনাথ বন্থর পরলো কগমনে বঙ্গীয় বিজ্ঞান পরিষদের 
কার্ষকরী সমিতির শোক-প্রস্তাব 
আচার্য সতোব্দ্রনাথ বন্থ আজ আমাদের মধো নাই। বিশ্ববিশ্ঞত বিজ্ঞানী মহামানব 
আচার্ধদেব বৃহদারণ্য বনস্পতির মত জাতীয় বিজ্ঞান ক্ষেত্রে সুপ্রতিষ্ঠিত ছিলেন; তাহার 
আকণ্রিক তিরোধানে যে শূন্যতার স্থ্টি হইল, তাহা! পুর্ণ হইবার নহে। বঙ্গীয় বিজ্ঞান 
পরিষদের জনক আচার্য বনু :প্রতিষ্ঠাতা-সভাপতিরপে বিগত ছাধিবশ বগুসর ধরিয়া এই 
পরিবদকে পুত্রধিক স্নেহে লালন করিয়াছিলেন, তাহার মৃত্যুতে পরিষদ পিতৃবিয়োগের বাথ! 
অনুভব করিতেছে । 
কয়েক সপ্তাহ পুর্বে আমরা যে স্থানে বিজ্ঞানাচার্ষের অশ্ীতিবর্ধ পুতি উপলক্ষে তাহাকে 
সন্বধন। জানাইফ়া গৌরববোধ করিয়াছিলাম, আজ স্বপ্লকালের "ব্যবধানে সেখানে তাহার 
শোকসভায় সমবেত হওয়ার মর্মান্তিক বেদণ। আমরা অনুভব করিতেছি । 
মাতৃভাষায় বিজ্ঞানচর্চার পুরোধ। দেশপ্রেমিক এই বিজ্ঞানীর অভাবে বাংলার তথা 
ভারতের যে ক্ষতি হইল, তাহ। কোনদিন পর্ণ হইবে ন1। 
আচার্ধ সত্যে্্রনাথ মার মধ্য দিয়। অমরত্ব লাভ করিয়াছেন, কিন্তু তাহার সান্লিধা 
হইতে বঞ্চিত হইয়া? দেশবাসীর সহিত আমর! গভীর রাখ! অন্ুতব.করিতেছি। 
আমরা-ব্ঙীয় বিজ্ঞান পরিষদের কার্ধকরী সমিতির সদশ্যবৃন্দ-_ শ্রদ্ধীবনতচিতে 
পরিষদের জনক পরলোকগত আচার্যদেবের স্মৃতি-তর্পণ করিতেছি ও তাহার মহান আত্মার 


শাস্তি কামনা কঠিতেছি | 










রঞ্জন সত উস জপ সর আজঃ পল ইল এ শস্পড 


*.১ই ফেব্রুয়ারী, 1974 তারিখে বঙ্গীয় বিজ্ঞান পরিষদের কার্ধকরী মমিতির সভায় এই পোক-প্রপ্তাব গৃহীত হয়। 





নিন ও 


আচার্য মত্যেন্জনাথ স্বরণ মংখ্য। 


বিজ্ঞ 








অপ্তবিংশতি বর্ 


পি ওপর রহ ৭ র্্।  র-নি া ০০৯-০- ...স-8স স.__ ্মসা স্(. ্১ -১৪৯৬০৮১৮৯, সস পপ আপ ৮০ পবা ্প প ক াপশ 


মার্চ 1974 


এ সপপাত। পপ পপি শীষ গাজা পি 1 ৯ ৯ ৮:১০ উজ আর. চপ উপ নে ক ২৮৯ স এ দস 





 ভৃভীয় মখখ্যা 


1, 1.৮ পারার সক রা লস __-০-৭ সা +৪০ পল ০ম পপ 88৪ 


আচার্য সত্যেন্দ্রনাথ স্মরণে 


বঙ্গীয় বিজ্ঞান পরিষর্দের প্রতিষ্ঠাতা ও 
সভাপতি জাতীর অধ্যাপক পতোম্্রশাথ বনু 
আজ আর আমাদের মধ্যে নাই। তাহার 
তিরোধানে সমগ্র জাতি আজ শোকাভিভূত। 
বাহার] তাহার ঘনিষ্ঠ পানিধ্যে আলিরাছিলেন, 
তাহার স্লেহধত হইরাছিলেন, তাহাদের পক্ষে 
তাঁহার দেছাবসান ছঃসহ বেদনাদাক্নক। 

মৃতু বতই শোকাবহ হুউক, প্রকতির নিয়মে 
ইহা অলঙ্য্য। কিন্ত মৃত্যুতেই সব শেষ হুইপ 
বাপ না; কীতি বাচিয়া খাকে। আচার্য 
সত্োজনাখের অপামান্ত প্রতিভার ফল তাহাকে 
কালজন়ী করিয়াছে । শুধু তারতবালীই নঙ্থে, 
বিজ্ঞানাজুরাগী মাবেই তাহাকে চিরদিন পরম 
শ্রদ্ধার সহিত প্মরণ করবে । 

বন্ু-সংখ্যায়নের মৌলিক প্রবক্তা আচার্য 
সত্যে্রনাথ কেবল মাত্র একজন প্রথম সাগির 
বৈজ্ঞানিকই ছিলেন ন1--সাহিত্য, দর্শন, ইতিহাস, 
পক্ষীত প্রত্ৃতি বিতিন্ন বিষত্েও ছিল তাহার 
প্রবল অন্ধরাগ। আমাদের দেশের লর্বাত্মক 
উন্নতির জন আমাদের মাতৃভাষার মাধামে 
বিআন শিক্ষার প্রসারে তিনি উতধদধ হইয়াছিলেন। 
ডাহারই, অনুপ্রেরণা 1943 সালে বঙ্গীক্স বিজান 
পরিষ্ষ প্রতিদ্বিত হয় এবং এ বধ্সরেই পরিষদের 


মুখপত্র জান ও বিজ্ঞানের' আত্মপ্রকাশ ঘটে। 
তদবধি এই পত্রিকা নিরলস প্রচেষ্টায় আচার্ষ 
বস্থর শ্বপ্রকে বাঁণ্তবারিত করিবার সাধনা নিমগ্ন 
রহিক্াছে। 

আচার্ধ বসুর শ্বপ্র ভাঁববিলাসীর ক্পনাক্গেত্র 
নহে। প্রারস্থে ধার! ইহার বাণ্তবতায শন্দিহান 
ছিলেন, ফ্রেমেই তাহাদের সংশর়জাল হিক্ 
হইয়াছে। আজ সকলেই অনুভব করিতেছেন 
ষে, মাতৃভাষা বাংলার যাঁধ্যমে শিক্ষার সর্বস্তরে 
বিজ্ঞান প্রচার কনা সম্পূর্ণ সম্ভব, কেবল শিক্ষিত 
জনগণই নহে, অর্ধশিক্ষিত অথব!1 সামান্য শিক্ষিত 
সকল শুারের জনসাধারণের মধ্যে বিজান 
প্রচারের একমাঁ কার্ষকক্নী মাধ্যম বাংলা ভাষ। 
তখ। মাতৃভাষা । বিজ্ঞানচঠার ক্ষেতে বাংলা 
তাবাকে বথোপযুক্ত স্থানে প্রতিষ্টা কর! আচার্য 
বস্থর একটি অবিনশ্বর কীত। 

আচার্ধঘেবের পবিত্র স্বতির উদ্দেশে সর্ব 
শ্রদ্ধাঞ্জলি অপিত হইতেছে । আমরাও তাহার 
স্থৃতির উদ্দেশ্ডে প্রস্ধার্ধ্য নিবেদন করিতেছি। 
আজ এই শোকমপিন মুহূর্তে আমাদের প্রার্থনা. 
আমর বেন ভাহার প্রতিষ্তিত বিজান পরিষদ 
এবং “জ্ঞান ও বিজ্ঞান পন্ধিকার গৌরব অস্ু্ 
রাখিতে পাস্গি। 


সতোন্দ্র-স্মৃতি 
শ্ীজ্ঞানেক্দ্রনাথ মুখোপাধ্যায় 


বশ্ববিশ্রুঠ বিজ্ঞানী সত্ো্রনাঁথ বন্থুর জীবনী 
সম্বপ্থে জাঁন-বিজ্ঞানে তাহাপ্র শ্বৃতি সংখায 
আমাকে তাহার সন্বদ্ধে শিখিবার অনুরোধ করায় 
আমি বাধিত বোধ করিতেছি। তাঁহার বৈজ্ঞানিক 
অবদান সঙ্থঙ্ধে আমার অপেক্ষা অনেক বিজ্ঞানী 
বিশেষভাবে অবগত আছেন। এই বিষয়ে 
তাহাদের প্রবন্ধ নিশ্চয়ই এই সংখ্যায় শ্থান 
পাইবে। তাহার ব্যক্তিগত জীবন সঙ্ন্ধে আমি 
লিখিতেছি। তাহার সহিত আমার 1909 
সাপে প্রেপিডেদ্ি কলেজে ইন্টারমিডিয়েট 
সায়েলের প্রথম শ্রেণীতে সহপাঙী বিধায় পরিচয় 
হয়। আমরা 1909 সালে শেষ এণ্টাজ্স পণীক্ষা 
দিই। পরীক্ষার ফলে তিনি উচ্স্থান অধিকার 
করিয়াঞিলেন। সেই জন্ত তাহার নাম বিদিত 
ছিল। প্রথম হইতেই তাহার এবং অপর কয়েকজন 
সহপাঠীর, বখামরেন্রনাখ মুখোপাধ্যায় (পরে 
রামকঞ্চ মিশনের ম্বামী নিবেদানন্দ নামে পরিচিত), 
আনচত্্র ঘোষ, পুপিনবিহাগী সরকার, অমরেশচন্ত্র 
চক্রবাঁ, নিখিলঃঞ্রন সেন, প্রাণকষ্। পারিজা, 
শৈলেশ্রনাথ ঘোষঃ মাপিকল[ল দ্ে প্রমুখ কয়েক- 
জন ও আমার মধ্যে গ্রীতি ও বন্ধুত্বের সম্বন্ধ 
গড়িয়া গঠে। 191] সালে তৃতীয় শ্রেণীতে 
বিশ্ববিশ্রত বিজ্ঞানী মেঘনাদ সাহা আনাদের 
সহপাঠী হন। 1911 সালে ইন্টারমিডিগ্সেট 
পরীক্ষান্থ সতোআনাথ বন্থ প্রথম স্থান, মাশিকলাল 
দে দ্বিতীয় স্থান, মেঘনাঁধ সাহা! তৃতীয় স্থান, 
জানচন্র খোব চতুর স্থান ও প্রাপক পারিজ1 
পঞ্চম স্থান অধিকার করেন। শিখিলরঞ্জন সেন, 
অমরেশ চক্বতী,। টশলেঞ্রণাথ খোষ ইভা 
আক্বও করেকজনও পাশের তাপিকার উচ্ষস্বা 


পাইরাহিলেন। প্রশাসন মহুলানবিশও 
আমাদের সমপামধিক ছিলেন। প্রফুলচ্জ ঘোষও 
(যিনি পরে মুখ্যমন্ত্রী হইহাছিলেন ) আমাদের 
সহিত একই বৎসরে পাশ করেন। তিনি ঢাকা 
কলেজে এম, এ. পর্ধন্ত পড়েন। 1915 সালের 
ফলিত অঙ্থশান্ত্রে বি. এস-পি অনার্স পরীক্ষা 
ও এবিষয়ে এম. এস-সি পরীক্ষা সত্যেত্রনাথ 
প্রথম ও মেঘনাদ সাঁছা দ্বিতীয় স্থান অপিকার 
করেন। ছুই গ্রনই খুব উচ্চ মানের নগ্থর পাইতা- 
ছিলেন যতদূর ন্মরণ করিতে পারি সত্যেন্্রনাঁথ 
শতকরা! 92 কি 93 নম্বর পাইয়াছিলেন। 
পরখক্ষকদের মধ্যে সিনিয়র র্যাংলার পরাজপেও 
ছিলেন। ইহার পুর্বে এত নম্বর আর কেছ পান 
নাই(। এম. এস-শি পাশ করিবার পরেই 
সত্যোন্রনাথ ও মেধনাদ মিন্ঞ্কাউক্ির বিখ।ত 
রিলেটিভিটির পুস্তক অনুবাদ করেন। ছু-জনেই 
বখাবখ খিওরোটিক্যাল ফিজিসস ও আযাষ্্রো 
ফিজিক্সের জন্ত বিশ্ববিখ্যাত হন। মেখনাঁদ 
বলিতেন, সত্যেনাথ বদি আরও কিছু সমন 
গবেষণান়্ দিতেন তবে আরও অনেক আশ্চর্যজমক 
অবদান রাখিয়া যাইতে পারিতেন। কিন্ত 
সতোজ্জনাথ অন্ত অনেক বিষয়ে আক ছিলেন। 
বাংলা সাহিত্য, ফরাপী সাহিত্য ও সঙ্গীতে 
ভাঙার বিশেষ জ্ঞান ছিল। তিশি সবুজপব্ের 
সম্পাদক বিখ্যাত সাহিত্যিক বীরবল নামে 
পরিচিত প্রঘখ চৌধুরীর অন্রক্ঞ ছিলেন ও তাঁহার 
শিকট যাইতেন। পদাখথবিস্ত। ছাড় জব রসাধনে 
( অরগ্যানিক কেমিস্ত্রিতে ) বিশেষ জান ও গবে- 
যণার ক্ষমতার জন্ত অনেক অরগ্যানিক 'কেমিদ্রিতে 
লিখ অধ্যাপক এবং ছাজে তাহার সহিত আলোচন। 


মার্চ, 1974 ] 


করিয়া আমার আতশারে উপকৃত হুইয়াছে।, 
তাছার শ্বভাব মধুর ও মেঙ্গাজ ঠাণ্ডা! ছিল। কিন্তু 
কোন রকম অদংলগ্ন আলোচনা কর্দিলে লা সাধারণ, 
বিষক্কে বেক্াড়া মন্তরবা করিলে অল্প কধাশ' ষে 
আন্ত বাঁফাব্যয় হইতেছে -তহা বপিতে কুটিত 
হইতেন না| তাহার সাধারণ বুদ্ধিও আপামান্ত 
ছিল। তাঁহার অমাগ্িক ও মধুর স্বভাবের জন্য 
তাহাকে অনেকে শিব বপিত। আমাদের 
কয়েক জনের মধো যেঘনাদ সাহা, জ্ঞানচঙ্ক ঘোষ 
ও নিখিলরঞ্জন পেল, প্রশান্ত তত্র, পুশিনবিহারী 
ও মীনিকলাল পুর্বে পরলোকগমন করিয়াছেন। 
এখন সভ্যোন্দ্রণাথও মহ্বাপ্রয়াণপ করিলেন। 
আমাদের পরস্পরের বন্দু ও 'ভাঁলবালা বরাঁবর 
অক্ষুঞ্জ ছিল আমার অল্গাবাঁধে তিনি হনেক্জনাথ 
কলেজের ট্রি চইতে রাঁজী হন! আমরা অনেক 
বিষয়ে নিরিবাঁদে ভাঙার সহযোগিতা পাইধাছি | 
ইহাদের অবর্তমানে একলা বোধ কহিতেছি। 
আমরা যখন প্রেশিডেন্সি কলেজে ভর্তি হই, 
তখন পরম্পকের যধযোে কোন আলোচনা না 
করিয়াই সকলে বিজ্ঞানের দেবা কিব-_এক্ট লিজ্ান্ত 
করি; কাতণ রামমোহন রায়ের ভাঁবতবাঁসীর 
বিজ্ঞান চর্চার বিশ্ষে আবশ্টুকণচা সগক্ষে লর্ড 
মেকলেক্ে লেখা চিঠি আমতা জানিতাঁম। শ্রেণী 
বন্নকট ও বঙ্গভঙ্গ রদ করিংাঁর আন্দো্নের মধ্যে 
আমরা মাক্ষষ হই। স্বদেশপ্রেম আমাদের মধ্যে 
নিগৃঢ়ভাবে নিবি খাকে। জাতীয় কংগ্রেস 
আন্দোলন ও 1900 সালের প্রথম ভাগের বিদ্রৌহ্থী 
আন্দোলন সন্বঙ্ধে আমর] ওয়াকিবহাল ছিলাম ও 
আমাদের মখ্যো আরনকে প্র্থাক্ষ বা পরোকিজাবে 
বিক্োরী আন্দোনে যোগদান করিযাছিলাম। 
আমরা কেক সরকারের কর্মগরী পরীক্ষা দিচ্ছে 
বা আইন শিক্ষা করিতে নারাক্গ ছিপাম। আমতা 
বিজআঞান অধ্যাপনা ও গবেষণা করিব স্থির করিয়া- 
ছিলাম ও কাজেও তাঁছা করিগাছি। আমাদের 
মথ্যে পাঁচ জনস্পত্যে্ানাথ বন, মেঘনাদ শা, 


সত্যেজ্দ-স্মৃ্ঠি 


115 


জআানচক্জ ঘোষ, প্রাণকষ্। পরিজ! প্রশান্ত চত্ ও 
অমি ভারতশশ বিজ্ঞান কংগ্রেশের সাধারণ 
সভাপতি (-জনাবেপ প্রেপিডেন্ট ) হইয়াি। 
ভারতে ডেযোক্তাটিজক শামন ও সৌোশ্াঃঙ্গিজমের 
প্রতিষ্ঠাত। এবং ভারতের পঞ্চবাহ্ধিক উন্ন়ন- 
গ্রাকষ্পার অই জণ্ডহবলাঁন নেহেরু প্রদ্ধান মন্ত্রী 
হুইপ] তাহার বিজ্ঞানের প্রতি অঙ্থরাঁগের নিদর্শন 
স্ব্ূপ প্রর্তি বৎসর বিজ্ঞান কংগ্রেসের উদ্বোধন 
করিতেন । প্রাণকৃঞ পারিজ্জাঁর জেনারেল প্রেপি- 
ডেন্ট হইবার পুর্ধে আমাদের চাঁর জনের একই 
কলেজের সহপাঠীর জেনারেল প্রেলিডেন্ট হওয়। 
নেহেরুজী অনৃন্পূর্ব বপিয়াছিলেন। প্রশাস্তচন্ 
মহলাঁনবিশও জেনারেল প্রেসিডেন্ট হইধাছিলেন। 
আমার মমে হয় আমরা সকলেই বিজ্ঞান চর্দ 
করিব এই পিদ্ধাস্কে মনেপ্রাণে উদ্ব্ধ হইয়াছিলাম| 
সতোন্রনাথ অনেককে ভীভার বিষষে শিক্ষাদান 
করার এখন দেশে তীঙ্ছার গরেদণার ধারা প্রচপিত 
থাকিবে । একটি বিষয়ে আমি ষ্টাতার বিশেষ 
সহযোগিতা পাই! সেটি বিশ্ষে উল্ধঙোঙগা। 
খনঞ্জ কার্ঘ সঙ্দ্ধে আমি আমার সহকারী এবং 
আমার সছিহ সংঞ্গিই কঙ্গেকঙ্গন বিজ্ঞানী গবেষণা 
করিযাছি। এই খানজ পদার্থ (ক্লে মিনারেল) 
বিবিধ উদ্ধেশ্ে বাবহৃত ভূমিৰ বিশেষ উপাদান 
এক্স-রে ও জপর একটি পদীক্ষার প্রয়োজন হয়| 
আমি আমার একজন কুহী যুবা খৈআীমিককে 
(সুবাধকুমার বাঁকে ) তাহার ম্ত্বাব্ধানে ঢাকার 
এক্স-রে পরীক্ষা করিতে পাঠাই । অধ্যাপক 
কেদাবেশ্বর বন্দোপাঁধাঁয়ও ইহাতে আহায়ত! 
করেন। সত্যেতনাখ বিশ্যে উৎসাহের সহিত 
সম্পূর্ন দায়িত্ব লইন্বা এই গবেধপা পত্রিচালম] 
করেন । কিন্ত 'সমস্ত কিছুর উতধব্ঙঠাহার গলে 
ও ভালবাসাই আমার জীবনকে পযদ্ধ করিয়ছে। 

ভিন আমার করেক মাপের বয্েকনি্ 
ছিলেন । আমার আশা ঠিল তিনি আরও অনেক 
বৎসর জীবিত থাকিয়া! দেশের ও আমাদের মল 


116 


করিষেন। তাঁহার বন্স হুইপাঁছিল সত্য, কিন্তু 
ডাহার তিরোধান খআকশ্যিক বলিয়া ক্ষোভ হয়। 
তাঁহার পরিবারবর্গ তাহাদের অসীম শোকে 
ভাঙার ক্কতিত্ব ও ম্বতাবষধূরতাপ্রহ্ুত অপর 
অনেকেই শোকের অংশ গ্রহণ করিতেছেন ইহ! 
আনিয়| কিছু সাস্বনা লাত করিতে পারেন । 

বলীদ বিজ্ঞান পরিষদ ও “জ্ঞান ও বিজ্ঞান 
পত্রিকার প্রতিষ্ঠ! করিয়া! সত্যেন্জনাথ বগভাঁষার 
সমৃদ্ধি বর্ধন করিবার একটি গ্রশস্ত পথ দেখাইক়্া- 
ছেন। জনসাধারণের মধ্যে বিশেষতঃ প্রাপ্ত 
বনছ্ছদের মধ্যে কার্ধকরী বিজ্ঞানের তথ্য তাহাদের 
দরজান পৌছাইযর়! দেওয়া একটি মহান 
জাতীর কর্তব্য । এই গুরুত্বপূর্ণ বিষক্গে শিক্ষিত 
সমাজ ও নেতাদের মধ্যে এখনও জাগরণ দেখা! 


$ 


জান ও বিজ্ঞান 


[27তম বর্ধ, 3য় সংখ্য। 


যাইতেছে না। জান ও ধিজ্ঞান পত্রিকার মাধ্যমে 
সরল এবং সহজবোধ্য ভাষায় কতকগুলি লেখায় 
তাহাদের ঠদননিন জীবনযাপনের উপকার হক" 
এই প্রকারের তথ্য তাহাদের দরজার পৌঁছাইয। 
দিবার চেষ্টা কর! দরকার। এইরূপ লেখার 
বছল প্রচলন করিলে এবং নেতা ও সরকারের 
সংঙ্গিষ্ট ব্যক্তিবর্গের গোচরে আনিলে ভাহাদের 
সাড়া ও অর্থ সাহাধ্য পাওয়া যাইবে আশ! 
করি। প্রতিষ্ঠান যাহাতে 
সর্বালন্রন্দর হয় ও প্রসার লাত করে, তাহার 
জন্য সংঙ্গিই ব্যক্তিগণ বিশেষভাবে সচেই হুইগে 
পাওয়। 


মত্োঙ্রনাথের এই 


নেতাদের ও শরকারের পহুযষোগিতা 
যাইবে বলিষ! বিশ্বাশ করি। 


কাছের মানুষ সত্যেন্দ্রনাথ 
[স্থতিচারণ (সত্যেন্দ্রনাথ বস্ত্র) 1894-1974) 
ভ্রীদিলীপকুমার রায় 


ভীনন্মগোপাল সেনগুপ্ত 
প্রিক্ববরেষু, 


আপনার অনবন্ধ “কাছের মানুষ রবীন্দ্রনাথ” 


স্বৃতিচারণটি বে আমাকে অবিষিশ্র আনন্দ দিয়েছিল, 
একথখ! আপনাকে কয়েক বৎসর আগে লিখে- 
ছিলাঁম। আঁজ আমাদের এক প্রিদ্ন বন্ধুর স্থতি- 
তর্পণে আপনার মনের উপাখিটি ধার করছি, 
কারণ "কাছের মানুষ' এ-তখমাটি ছিল ললাটপলাম 
এ-সর্বপ্রিয় সর্বশ্রচ্ধেষ দেশিকোত্মেরও | 

আমার “স্থাতচারণে, তার সন্বপ্ধে অনেক কিছুই 
ফলিয়ে লিখেছি । তার কাছে কত কিপেহেছি 
দিনে দিনে আগে! লেখা উচিত ছিল, কিন্ত নান! 


কর্মের দাগপাশে বন্ধ মান্য কি জীবনের তীর্থপঞ্ে 


তাঁর ইচ্ছামত চলতে পায়ে? 


সত্যেনের সঙ্গে আমার শুভদৃ্টি হয় প্রখ্যাত 
বীরবল-এর রঙিন রপচক্রে--ষখন আমি সবে 
যৌৰনে পা দিক্কেছি-বোধ হয় 1915 সালে অর্থাৎ 
প্রার ষাট বত্দর আগে। কিন্তু সে-অবিশ্মহনীয় 
প্রথম পরিচছ্ছের দীপদীপ্তি আমার স্বতিমশিরে 
আজো তেমনি ঝলমল করছে। 

বীরবলের রলচক্ষে 
রকমারি রসোঁৎস্ুরের খতুযুদর হতো প্রতি, 
শনিবারে। আসত কিশোর, যুবক, প্রৌঢ়, বৃদ্ধ । 
গত্যেনের বরস তখন 21122, আমার 18/191 
সে গত সহজে আমাকে কাছে টেনে দিস্মেছিল-- 
ছ-দিনেই ভুইতোকারির তালে যে, তাঁকে, 
সত্যেন! বলতেও তূলৈ গিগ্গেছিলাম। 

যতদুর, মনে পড়ে, ক্সামি একটি মাঁলকোষ 


(00917613281 0205) 


মার্চ, 1974 ] 


গেয়েছিলাম--'বন খন মুরলিগ! বাজে বাঁজে রী!” 
গান শেষ হতেই সত্যেন আমাকে ছাতছানি দিয়ে 
ডাকে £ “আসুন তাঁৰ করি। তাঁর লৌমা মূখে 
কি একট মানা মাঁধানো ছিল--দেখলে ভোলা 
যায না। বর্ণ --ঘনস্টাঁদ)। সুপুকষ বলতে বা 
বোঁঝাক়, তা-গও নয়--অথচ বপবানদের কান্তি 
ফৃঠিও তার জিগ্ধ শাস্ত প্রতিভাদীপ্ ব্যক্তিরূপের 
গঙ্গে প্রতিযোগিতা করতে পারতো না । মামাকে 
সে কাছে টাঁনতো তেমনি সন্থজজে যেমন সভজে 
চুঙ্বক টানে আঁলপিনকে। পথ চলতে কাঁধে 
হাঁত দিয়ে চলা, হাঁপির হুর্রাঁয় পূর্ণ উৎ্সান্ছে 
গোয়ার দেওয়া, গানের ছআপরে প্রবুদ্ধ আগ্রহে 
সাড়া দেওয়া, গল্পালাঁপে কথার কথায় আলে 
ছড়াঁনো, কেউ কিছু বললে একমনে শোনা, যেমন 
সদৃখর শোনে শিষোর আঁতাকথা, ছুংখ পেয়ে 
তার কাছে গিয়ে বললে কি এক বাঁদুতে মুহুর্তে 
মনের ভার লাঘব করে দেওয়া, কোথাও যেতে 
চাইলে “বহুৎআচ্ছা' বলে সহযাতী হওয়া, কোন 
আদরে সভাপতি হতে বললে তৎক্ষণাৎ রাঙ্ী 
হওয়া, কেউ কোন বৈজ্ঞানিক বা গাশিতিক 
পষশ্যা নিষ্ে হাজির হলে সব কাজ ছেড়ে সেট- 
পেক্সিল নিয়ে প্রতিপাস্তকে প্রমাণ করবার রাজপথ 
দেখিয়ে দেওয়া! আর কত বলবে! ? তাঁর কৃতিষ্ব যে 
ছিল সর্বতোুখ, প্রতিভা বিশ্মঘকর _আথচ কি 
সহজিয়া! তাঁর সঙ্গে কখাঁলাপ করে কারুরই 
টের পাবার উপায় ছিল না বে'জ্ঞানের কত 


অচিষ্যা তাগডারের খবর সে রাখে, শিল্পের এত গহন 


রসের রপিক, বছ্পাঠিতায় কত রকম চিন্তায় সমৃদ্ধ! 

মনে পড়ে, যৌবনে একদা তাঁকে দ্বিজাস! 
করেছিলাম-জীবন সন্বগ্খে তাঁর 'কি মনে হয়, 
আমাদের নিরস্ত/। আমাদের কোন্‌ মুখে নিয়ে 
চলেছেন? উত্তরে সে হেপে বলেছিল £ “ভাই, 
নিষস্কার .খবর ব্মানি রাখি ন1--তবে এটুকু 
ধেখতে পাই স্পই যে, কোন শক্তি প্রতি মাঁছযের 
মধ্যে দিকেই গড়ে ভুলতে চাইছেন এক একটি 


৯ কাছের মানব সত্যেন্রনাধ 


117 


বিশি্ বক্তিরপের ছ্ীচ।" বন্ধ বখসর পরে মহ।" 
মনীষী গেটের একটি কবিতায় পাই অবিকল এই 
বাণীটিই £ 

৬০1 00 00006 200606৬1100 01 

516 £5611) হত 154০ 2610! 

17050175155 03106010৫61 72146170115 051 

5০1 1712: ৫16 1061505111101)1611 

যুগে যুগে করে স্বীকার ধরায় জনে জনে-- 

_ বে যেখ।নে আছে, ছোট বড় যহাঁজন- 
পৌতাগ্যের শ্রে্ বিক।শ এ-জীবনে 
ব্যক্তিরূপের মধুর মুরণ। 

“মধুর' বিশেষণটি আমি আরোপ করেছি 
বিশেষ করে সতোনের কথ! ভেবে, সার বাক্তিছের 
বিকাশে আমি মাধর্ষের শ্বাদ পেকে এসেছি 
দিনের পর দিন। আীশ্রবিষ্ম আমাকে একটি 
চিঠিতে পিখেছিলেন--মাতুষ ফি বলে কি করে মে- 
নিরিখে তাঁর শ্রেঞ্ঠ বিচার হতে পারে না, দেখতে 
হবে সেকি হয়ে উঠেছে। সতোন হয়ে উঠেছিল 
ঞএকাট বিচি আবির্ভাব_-কীতিমান ঠবআ(লিক 
হয়েও শিল্পার, বনজ, বিশ্বের মানচিত্রের পুদূব তম 
প্রদেশেরও সাংবাদিক? তাই উচ্চাশী বেকনের 
সরে শ্র মিলিয়ে বলতে পারতো বৈকি £ চু 28৮৪ 
(ভাত 2111201548৬ 00 06 [ছা [00০ 
$1০০--যা কিছু জ্ঞাতব্য আছে জানতে না 
পারলে আমি স্বস্তি পাইনা ।' 

এ হলো জধু তাঁর জানের দিক | সততোন চাক্টতো। 
সর্যবিধ তন্লি বইতে--সমাঁজের, মেলামেশার, 
হাদয়ের নানা স্প্রে, প্রাণের নানা রংমন্ছলের। 
কত্ত রকম রঙেই বেসে তায় সর্ধগ্রাহী অস্তরকে 
রঙ্ডিয়ে তুলেছিল দেখে আমরা . সবাই অবাঁক 
হুতাঁম। একদিন গেখি সে চৈনিক বই পড়বার জনকে 
উঠে-পড়ে জেগেছে চীনদেশের জটিল আক্ষরিক 
সধেত আক করতে । ছিক্রু, করাপী, জর্মন, সংস্কৃত 
স্বোধহ্ক় ইতালিপ্ান তাষারঙ সে কিছু চা 
করেছিল। সে বলতো প্রাছই--বিশেষজ তার নান! 


118 


গুণ জেনেও আমি চাই না গুধু একটি বিষয়েরই 
একতারা বাজাতে, আমার হৃগষের নানা তারকে 
বাধতে চেষ্ট। করি নানা সবে) এই উচ্চাশা তার 
কাছে কথার কথা ছিল না| তাই সঙ্গীতের 
রনেনিকের অন্রকে রশিযে তুলতে সে এম্াঞ্জে 
নানা রাগের আলাপ করবার তামিগ নিষবেছিল। 
কেবল এইখানেই তাকে আমি কিছু দিতে 
পারতাম--আার সবখানেই সে ছিল দাতা আমি 
গ্রহীতা! । বিশেষ করতে বিদেশী তাষায় পারঙ্ষম 
হতে চেয়োছলাঁম আমি সর্বপ্রধথ তাঁর উৎ্পাঁহে, 
'পরে শহীদ শুরাঁবদির প্রেরপায়-যে আমাদের 
উতয়েরই কাছে পরে রুূশদেশের সংস্কৃতির নাঁনা 
চমকপ্রদ তথ্য ৪ তত্ত্বের পরিবেশক হয়ে এসেছিল। 
তাঁকে সত্যেন কত প্রশ্নই বে করতে।_-মহাকথক 
শহীদ ও শ্রোতা পেয়ে অনর্গল বলে 
চলতো | আমার মনে আছে-_-রোল?াকে যখন 
আমি প্রথম ম্ইজারল্যাণ্ডে গিয়ে গান শুনিয়ে 
পটিরে আপি তখন সত্যেন আমাকে বিখেছিল 
এক উচ্ছৃসিত পত্র ষে, এ একটা কাজের মত কাঁজ- 
কর! হলো বটে। তারপর ন্পেশ থেকে ফিরে 
যখন লালা বিদেশী ও বিদেশিলী বন্ধুখাবীর কথা 
বলতাম সন্যেন ও তাঁর পরম শেহাম্প্দ বন্ধু 
নীরেন রায়ের কাছে, তখন সতোন পড়তো সে 
কি আগ্রহে তাদের আমাকে লেখা ফরাসী 
স্েছপিপি! অমি বলতাম সকতজ্ঞে : “তাই 
আমি ফরাসী ও জর্মন ভাষা শিখতে উঠে-পড়ে 
জেগেছিলাম এ-ছুই ভাষায় তোমার রপ পাওয়ার 
এজাহারে । আমি রোলার বিখাত 62 


এমন 


ঘকান ও বিভটান 


[27তম বর্ম, ওল সংখা! 


00115601278 পড় সূরা করিও সুখ্াতঃ 
গত্যেনেরই উদ্দীপনায় । 

কিন্ত এ হলে! তাঁর ব্ক্তিক্পের একটি দিক 
মাঁর। তাঁর আরে কত দিক ছিল, ধা শুধু 
আমার নয়-তাঁর বন অন্থরাগীর মনেও আলো 
জাঁলিয়েছিল উদ্বোধনের £ শেখো শেধো শেখো! 
মন দিয়ে, জানো জাঁনো জালো প্রাণ দিয়ে, দেখ 
দেখ দেখ চোখ চেত়েঃ শোন শোন শোন কাঁন 
পেতে, কেবল আলে! আনো আলে! ছড়াও-. 
সর্বোপরি ভালবাঁপ ভালবাসাঙ । 

আর একট আঁশ্চর্ধ ভালবাপার ক্ষমতাই আমি 
মনে কতি তার ব্যক্তিরপের শ্রেঠ সম্পদ । তাই 
এইট সম্বন্ধ আর কিছুবলে ইতি করবো- যদিও তাঁর 
প্রোৌ্শ্বর্ষের সঙ্গন্দম আমি আমার প্রাজিচারণেঃ 
অনেক তিছুই লিখেগি- কাপনি ভয়ন্ো পড়ে 
থাকবেন | য-ট। পারি পুন্কক্ি বাচিছেউ লিখবো 
তব পর্ব প্রমাকর প্রতমর কথা «উ দ্বেসকি'পামত্ত 
যুগে একাধিকবার বঙ্গলেও তাগবভ অঞ্জন্ধ হবে না। 

খুটদের বলতেন £ ভগবানের নাম বখন তখন 
নিও না মামুবি: ঢঙে। সঙ্োন বোঁধর 
এই পাবধাঁনবাকো সাড়া দিত মনেপ্রাণে! তাই 
সে ্ালাপ বা পত্রে কদাচ ত্গবানের উল্লেখ 
করতো। | অনেকে এজন্ে তাঁকে নাস্তিক বলেন। 
কিন্ত আনি জানতাঁম তাঁর মন আস্তিক ছিল-.. 
যদিও ভাগবতের টবফব বা উপনিষদদের শ্রঠা 
বলতে যা বোঝান, তা সে ছিল না। তাই আমি 
তার সপ্ততিতম জন্মোৎলব উপলক্ষ্যে একটি সুদীর্ঘ 
কবিতার লিখেছিলাম ্‌ 


নাভ্তিবাদী নহ ভুমি জানি আমি--কিন্ত থাক আঁজ। - 
তহ শুভ জন্মদিনে এ-বৃথ। বিতর্কে কিবা কাজ? 

আজ শুধু চাই বন্ধু, তোমার দ|নের অঙগীকারে 
তোমাকে অভিনন্দিবে শ্বতির মঞ্জুল উপচাঁরে | 


জাহির 


মধুমূরলী 12)-121 পৃষ্ঠা 





সি 





সপ ০ পরা 


মার্চ, 19714] 


কাছেন মানুব সত্যেজ্জনাথ 


119 


মনে পড়ে--যুছুভাষে শ্রি্ধ হাঁসি ঝরাঁয়ে তোমার 

করেছ আমার তাপ উপশাস্ত তুমি কতবার | 

কতবার হ্দয়ের ছুঃখবাথা তোমাকে জানাজে 

পেয়েছি নবীন আঁশ! ভরসা তোমার স্ষেহচ্ছাক্সে ] 

কত না দ্বিধার সংশয়ে প্রতি করেছ মোঁচন, 

দিপনেছ সাত্বন! তব দরদী প্রবোধে ক্ষণে ক্ষণ. 

সে সংবাদ জানো না তো ভুমি-স্দাঁতা দিয়ে তুলে বাক্স; 
কতভ্ঞ গ্রহীতা শুধু তোলে না কী পেয়েছে কোথায়". 
পথ আমাদের ভিন্ন, তবু লক্ষ্য একই, অদ্বিতী্ন : 

সতোর সাধনা গণি উভয়েই চিরব্রণীয়। 

এ-বিশ্বের নছিতার্থ বাহ আহি জেনেছি জীবনে, 
প্রতিভাত হ'যরি অন্তরূপে তোমার নয়নে 

কী বাআসেযায়? মুল প্রত্যক্সে যখন আছে মিল, 
জানি--হবে আস্তরিকতার লক্ষাযসিদ্ধি--অনাবিল 
সর্ধতাপহর! চিরভ্তনী সধাকক্পান্গ তার 

ষার জগন্ধাত্রী $প। অন্তিম স্থল সবাকার । 


একদ! আমার একটি চিঠির উত্তরে পিখেছিল 
একটি দীর্ঘ পত্রে ষে, ভগবানে সে সত্যই বিশ্বাস 
করেঃ বধার্থ সাধুদের শ্রদ্ধা করে, কেধল অখতার” 
বাদে বিশ্বাণ করে না। লিখেছিল__-এজগণ্ 
চলেছে এক ছুর্লংঘ্য নিক্পমে, যে শিমের চাকা 
কোনো অবতারই ঘুরিয়ে দিতে পারেন না। 
দুঃখের বিষয় এ চিঠিট আমি হারিরে ফেলেছি, 
তবে লীরেন আমাকে ভিধেছিল--এর একটি 
কপি করিয়েছিল--সেটি আশ! করি খে করলে 
পাওয] বাধে । পাওয়। গেলে দেখ। বাবে যে, 
সত্যেন মনেপ্রাণে আন্তিকই ছিল, কেবল মামুলি 
আন্তিক নয়। আবতারবাদে সে বিশ্বাস করতো 
না--তাকস একথা আঁমি মনে একটুও ঘা পাই শি-- 
বদি আঁমি নিজে অবতান্সবাদে বিশ্বাস কগ্ি' বিশ্বাস 
করি---জীকফ ছিলেন পুর্ণ অবতার । কিন্তু পরমহুংস- 
দেব বলতেন যে, সানেক খবিহাও অবতারবাদে 
বিশ্বাস করতেন না যদিও সঙ্গে সঙ্গে একথাও 
বলতেদ £ “তগবাঁন কি বসত তা নিয়ে মাথ। 
ঘামানোর কোনই প্রয়োজন নেই। তার সঙ্গে 


দেখা করো--তাঁরপর তাকে জিজ্ঞান। করলে 
তিনি জানিয়ে দেবেশ তার শ্ববধপণ কি 
€ শ্রীরামকৃষ্ণ কথা ম্ব) 
কেবল একটি কখা জোর করেই বলা যাঁয--_ 
যে, প্রেম একটি পরম ভাগবত বিঞ্ুঠি। যোগী 
কবি জর্জ রাসেল যেন লিখেছেন উদাত্ত ঝঙ্কাঁবে 
৬৬1) 016 51১1110 915205 
[6 11] 10010901655 
[12158 016 ৬1016 04 1116 
01115 €61800118255. 
অস্তরতম যখন জাগে 
রন নাতে আর স্বষ্পমুখী ; 
গাঢ় কোমলত।--আকিঞ্চনে 
হয় যে সে লারা বিশ্বমুখী | 
ত্বামী ধিবেকানন্বও পেয়েছেন গভীর প্রাপময়ত। 
মন্ত্রেঃ বিহুক্ধপে লন্মুধে তোমার, ছাড়ি কোখ। 
খুঁজিছ উর্বর? জীবে প্রেম করে যেই জন-- 
সেই জন সেবিছে ঈশ্য়)' 
এ-পর। প্রীতি জেগে উঠে বিশ্বতোমুখ হতে 


129.) 


পারে না ভগবানের প্রভাঙ্গ কপাস্পর্শ না পেলে। 
কিন্তু একখ! বলা চলে অকুতোভয়েই বে, যে” 
প্রেমিকের প্রেম বত ছড়িয়ে পড়ে লে বিশ্বাস্ত- 
মীর বিশ্বগ্রেমের ততই কাছে আনে, কারণ 
এ-প্রেমের একটি অবদান দিবাদৃষ্টি, যার বরে 
জীবের মধ্যে শিবকে চাক্ষুষ করা বার়। কাজেই 
যে শিবকে ভাঁলোবেপেছে শে জীবের মধ্যে ডাকে 
দেখে বিশ্ববাসীকে ভাল না বেসে পারে? 

সত্যেন বিশ্বপ্রেমিক হতে চেক্জেছিল সত্যই 
যদিও এ-প্রেমের সাধনায় কতটা আঞ্টকাম 
হঞ্জেছিল আমি জানি না। কারণ তাঁর শেষ 
কর্েক বৎসরেন্ন আস্তর ইতিহাসের আমি খবর 
রাখি না। কি এটুকু জানি ষে, বন্ধুবাৎ্সল্যে 
তার মতন উদার লিক্বি এ-ধ্ংসাঙ্েষমিখ্যাচারের 
কুটিল জগতে লাখে ন1 মিলায় এক! আমাকে 


তোমার স্বৃতি ক্ষণে ক্ষণে 


উঠান ও বিজ্ঞান 


[27তম বর্ধ, 24 সংখ্যা 


সে একাধিকবাক্গ বলেছিল ₹ “কলেজে এসে তাই 
আমার জীবনের পবচেয়ে বড় লাভ---সতীর্থদের 
ভালোবাসতে পারা । বিজ্ঞানের গোখাগুন্তির 
জানও বরেণা; কিন্তু এ-তালবাসা তার চেন্েও 
ধড়।” আমার এ-উদ্ধাতিকে তার আস্তরজ বন্ধুরা 
নিশ্চয়ই সায় দেবেন, বলবেনই বলবেন যে, 
এমন ভুদক়বান মহাপ্রেমিক এ-ন্বা্ধান্য জগতে 
হুহুর্পভ | আমি বারবারই নানালুত্জে উপলব্ধি 
করেছি তে, এই প্রেমের শক্তিই ছিল তার মহিমম় 


চরিজ্রের মুকুটমশি। তাই আমি তার অশীতিতম 
জন্মদিনে লিখে তাঁকে পাঠিক্েছিলাম--( তাঁর 
শেষ পত্রের উত্তরে £ “তুমি কবে আবার কল- 
কাতাঘ় আঁপবে দিলীপ? তুমি এলে চাদ ছাতে 
আসবে ।” ) 

উড়ে আসে আমার মনে, 


বলি আমি £ বন্ধু, তুমি আঞঙ্জো 


ঝরিক্কে তোমার মেছের আলো 


ঘুচাতে দীন মনের কালো 


এ-ভুষ্ার্ভ যেস্ুর বিশ্বে আছ। 


সর্থলাথী হয়ে তোমার 


ব্যকজিরূপের স্পর্শে অপার 


আশার স্রই জাগিয়ে লিগ্ধ সুরে 


পরকে আপন করে নিয়ে 


নির্বলকে শক্তি দিয়ে 


টেনে আনো প্রেমের অস্থংপুরে। 


লোকোত্র শ্রতিতা তোমার 


শুনেছি তো] তাই কতবার 


গৌরবে বার হক্ষেছি গৌরবী, 


সবার ছোঁয়াতে কতদিনই 


গেয়েছি যে, আমিও চিনি 


আদর্শবাদ, তাই তে! আমি কবি! 


নিজে কবি ন1 হয়েও 


কবির গুণীর বুকে গেছ” 


ক্গপর্শে দিতে সুরের উদ্দীপনা, 


এ সত্য কি আমি আমার 


জানি নি অস্বরে-- তোমার 


পাড়ায় পেয়ে পঙজীতের প্রেরপ। ? 


মিশা গেছে উষ্ার আভায 


কাঁনে বেছেই খেমে গেছে গাণে, 


উঠেছে বারবারই নেচে 


নাক্তিকদের সব উপ্থা 


কাট] গোলাপরাগে সেজে 


' ভোমায় সত্ভ্য-আবাহলের গানে । 


মা) 1940 ] কাছের মানুষ সত্যেজ্রনাথ 


121 


বন্ধু এ নয় কথার কধ।, থে দরদী জানে ব্যথা, 


তাই জানোই যে, আঁমি অনুরাগী 


তোমার পুজাঁদীপ্ত মনের-- যে পান আভাষ চিরস্তনের 


জ্ঞানের অটল আবাঁধনায় জাগি। 


মনে পড়ে-্কোন্‌ সদরে তোমাগি বাসৃস্তী সুরে 


করমলয়ের নামত পুলক প্রাণে £ 


বদিও তুমি জানতে ন। তা, আমার মনে থাকত গাঁখ। 


তোমার বাণী আমার নানা গানে। 


স্ষ্টির নয় একটি ধারা, দাঁত যষে-'সে আপনহ'র! 


ছলে করে কতই নাহ্জন ! 


তার আলোকের জাছুবলে উর জাগরণেও ঝলে 


কত অচিন শ্বপ্েদ নন্দন ! 


তাইত জ্ঞানীর ধ্যানীর এত দাম জীবনে, কজন পেত 


তার দেখা-ধষে লুটে যাবে নিতি 


হুঃখদারুণ মেঘের কালোয়? আমরা তবু চাই যে আলোন্স 


কার আঙাসে? যেতারগগনগীতি 


শুমেছে তাঁর মনগহনে, তাই সে বিলাম় অতয় খণে 


তার ভরসাস্্রযু ষে মনের পারে, 


যার চরণের ধবনি শুনি গাঁন গেসে ধার আুরধুনী 


নৃত্যে আবাছন করি দাতারে। 


দিন্য় পর দিন দিয়েছ কত কীদান! ছড়িয়ে গেছ 


কত চিন্তামনি শ্ছুরৎ্প্রভ!, 


ভাবের কণ! রসে উইল, . শীতির আদর, শীতি শ্যামল, 


কত না মুনা মনোলোভা ! 


বিদেশী ভাঁষার বে মঙ্ধ দিতে তুমি তাই অতঙ্জঃ * 


পাশ কাটিয়ে তাঁর বরে ছুনিবার 


অন্ধ মোহ জাতীর়তার পেতাঁম ঝলক বিশ্বরমার 


দীক্ষা পেষে বিনজ জিআাসান । 


তোমার গতীর মর্ধতলে হ্প্ন/তীত ম্বপ্নু জলে, 


সে-ছাতি বে দেখে নি-্পে তোমার 


জানে নি শ্বরপ অতুলন, অমি যে দেখেছি, বরণ 


তাই করেছি তোমার পিদ্ধু উদার 


সত্য-ন্েহ-সাধন-উজল বিকাঁশকে--বে শুধু অমল 


জ্ঞানের প্রেমের করেছে অনা £ 


ছোট সুখের ধনের মানের নয় যে কাঙাল--বিশ্ববণের 


নাচছুয়ারের করে যে বন্দন11 


১১১১১১১১ 


কঃ 1021) 10035 301 80 016 76100682102, আছ 958 (0309 1521712112015101752) ও 


1097 210 175056 069100,555,,55500395055) 


বাচ্য বিদেশে গেলে তবেই বখার দাম দিতে শেখে স্বদেশের সম্পদের ! 


জাতীয় অধ্যাপক আচার্য অত্যেন্দ্রনাথ বন্থুর মহা প্রয়াণে 
শ্রদ্ধা্ধ্য 


কুদ্রেন্দকুমার পাল 


ইংরেজী 1939 লালের ভারতীয় বিজ্ঞান 
কংগ্রেসের অধিবেশন হয়েছিল লাহোরে, 
সভাপতি ছিলেন ঢাক] বিশ্ববিদ্ঞালয়ের অধ্যাপক 
ডক্টর (পরে সার )জ্ঞানচল্্র ঘোষ! অধিবেশনের 
'জমা্ডির পর শ্রতিন্ধিদের তারতের স্থপ্রাচীন 
লগরী ভক্ষশিকায় নিয়ে বাবার ব্যবস্থা হয়েছিল 
একটি স্পেশাল ট্রেনে করে। তারই একটি 
প্রশস্ত দীর্ঘ সেকেগু ক্লাস কামরায় বার্থগুলিতে 
স্থান হয়েছিল কংগ্রেপের সম্ভাপতি ও অন্তাণ্ত 
কন্বপ্রতিষ্ঠ হিজ্বানী, আচার্ধ পত্যেন বোস, 
শিশির মিত্র, গ্লেহমর় দত প্রমুখ অন্তান্ত কয়েক- 
জন এবং আমার মত অধ্যাত ও নগণ্য প্রতিনিধির | 
জা্গয়াহীর দ্বিচীয় সপ্ডাঞে উত্তর পাঞ্জাবের দারুণ 
শীতের রাতিতে শয্যায় কম্বল মুড় দিয়ে শারিত 
প্রার সকক্ই? গুধু একজনই ভাগী ওভার কোট 
গায়ে আসন-শিড়ী হয়ে বিছানায় বসে একটির 
পর একটি সিগান্ছেট ধ্বংস করে চলেছেন। 
তিনিই আচাধ সত্যেম্রনাথ বস্থ|। এ সময়ে 
সিন্ধু ও উত্তর পশ্চিম সীমান্তে উপজাতীর 
লুধেরারা তারত সরকারের ইংরেজ ও দেশী 
কম্চারী কয়জনকে ধরে পিয়ে গিয়ে আটক করে 
তাদের জন্তে মুক্তিপণ আদায় করবার চেষ্টার কথ! 
প্রাত দিনই খবরের কাগজে বের হচ্ছিল এবং 
কেউ একজন হঠাৎ প্রশ্ন করে বসলেন যে, যদি 
সে রাঠিতে ট্রনের উপর এ রকম কোন 
হামল] হয়, ভা হলে কি হবে? মুখ থেকে 
অলস পিগাঞ্টেটি নামিয়ে অধ্যাপক বনু ছুটি 
আগুলের মধ্যবত ধূমাক্িত লিগােটটিকে অধ)াপক 
ঘোষেক দিকে প্রসাদিত করে -শ্মিতহাম্তে বললেন 


“আমরা আমাদের পালের গোঁদাবে দেখিয়ে 
বলবে!, ওকে শিকলে গিয়ে এক লাখ, দু-লাখ বা 
হয় দাবী করো, ঠিক পেয়ে বাবে । তারপরে 
পধায়ক্রমে আমাদের কারে মূল্য এক ছাজার, 
কারো পঁচিশ, কারো এক-শ' দাবী করতে পার! 
কিন্ত তাগড পাঁবে বলে মনে হয় না। সুতরাং 
প্রাণে যদি না মারে তো বছরের পর বছর 
ধরে বসে, বসে খাওয়াতে হুবে।? অধ্যাপক 
ঘোষ বালিশ থেকে মাথাকে একটু ভুলে বললেন 
“বটে ।” আর অন্যাজ সকলে হে! হে! করে 
লশবে হেসে উঠলেন | 

এমনি সরস কথাবার্তা চলছে যখন, তখন 
কোন এক জানালার ফাক দিয়ে তীক্ষ তীরের মত 
এক ঝপক কন্কনে ঠাণ্ডা হাওয়া ঢুকলো কামরার 
মধ্যে আর সঙ্গে সঙ্গে “হ্যাচ্চো হ্যাচ্চো” শবে 
তিন-চার জনের নাঁক ও মুখ দিয়ে পরপর জোরে 
দীর্ঘনিঃশ্বান বেরোতে লাগলো । আমি একটি 
বার্থের উপর কঙ্ছলে আপাদমস্তক মুড়ি দিয়ে 
গশুরে প্রধ্যাত বিজ্ঞানীদের রসালাপ উপতোগ 
করছিলাম। এমন সময়ে অধ্যাপক দত একসজে 
কয়েকবার সশবে হ্থেঁচে আমাকে লক্ষা করে 
বললেন--ডাক্তার পাল এই হাচির মড়ক থেকে 
উদ্ধার করবার মত কোন ওষুধ সঙ্গে আছে কি? 
কিছুদিন আগে কোন বিদেশী ওষুধ কোম্পানীর 
কাছ থেকে 79701873 নামে সির ওষুধের 
চারটি 3500115 শিশি পেঙ্গেছিলাম, তাই ছুটকেসের 
মধ্যে সঙ্জে ছিল। বিছানা! থেকে উঠে ভাই 
বের করে তায নাকের মধ্যে কেক ফোটা 
দিতেই ভার হাচি থামলো । ততক্ষণে বোখ 


মা, 1974 ] 


হয় অধ্যাপক বসুর নাকের মধ্যে হাচির সুড়ম্ুড়ি 
আরম্ত হত়েছিল। তাই রুমালে একটু নাঁক ঘষে 
সাহনাপসিক স্বরে বললেন 'ডাজার, থাকে তে। 
আমাকে একটু দাও ওষুধ। তথন ভার দিকে 
এগিয়ে গিয়ে ভার নাঁকের হট ফুটোর ডুপার 
দিয়ে কল্েক ফোটা ওষুধ দেবার পর চিনি 
কয়েক মিনিট একটু চুপ করে খেকে বললেন, 
“আঃ ডাক্তার বাঁচালে) বলা বাল্য এ 
সর্দির ওষুধের মাধ্যমেই বিশ্ববরেপ্য জাতীর 
আধাপক আচার্য পঙতেঃন বোশের সঙ্গে আমার 
প্রথম পরিচয়। আঞ্চও ছরিশ বন আগেকার 
সে ঘটনা অ।মা্ শ্বতিপটে অয়ান হজে আছে। 

তারপর নয় বছর পরের ঘটন1। ম্মধ্যাপক 
বনু 1945-এ ঢাক ছেড়ে কলিকাঁত। বিশ্ববিদ্যালয়ে 
খনন অধাপক্রপে ধোগ দিকে 1347 সালে 
বাংলা ভাষায় শিজঞান প্রচা? ও প্রদারের কণ্তে 
কয়েকজন উৎসাহী পহৃকমা ও ছাবদের নিজে 
“বললীয় বিজ্ঞান পরিষদ? গঠনের সিদ্ধান্ত ' করেন 
এবং খবরের কাগঙ্জ থেকে 1948-এর 21শে 
ফেব্রু।রীতে পরিষঙ্গের প্রথম অধিবেশন হবে 
জেনে তাতে উৎসাহের সঙ্গে যোগ দিলাম। কারণ 
তাঁর আগেও প্রান 20 বছর ধরে ভারতবর্ষ, 
ক্বাঙ্াদমাচা্ প্রভৃতি পত্রিকান্ এবং দান! লভা- 
সমিতিতে বাংলা ভাষায় টিকিৎপাসন্বপ্ীর় কিছু 
বক্তব্য লেখা ও বলবার চেষ্টা আমার ছিল লেহাঁৎ 
বাক্তিগতভাবে। আমাকে সভা দেখে আচার্য 
বহু খুণী হত্পে বললেন__ডাক্তার এসেছো, বেশ, 
বেশ, এবার কাজে লেগে বাও। সেই আন্তরিক 
আঅংহ্বানেই আবার আরম্ত হলে! ঘনিষ্ঠ যোগ।বেোগ, 
কখনো! পরিষঙগের কার্ধকরী সমিতির সভা, কখনে। 
সঞ্ঃপতাণতি আবার কখনে। বা! “জ্ঞান ও বিজ্ঞান' 
পত্রিকার অন্ভতঘ উপদেষ্টা পে । 

পর্গিষদের একটি স্থাত্ধী ভবন নির্মাণের জন্তে 
তিনি প্রথম থেকেই চেষ্টা করছিলেন এবং কখনে! 
ধা ফেজীত্স সরকার, কখনো! ব1 প্রা্গেশিক সরকার 


জাতীয় অধ্যাপক আচার্য সত্যেজ্জনাথ বনু 


123 


আবার কখনো বা বিশিষ্ট ধনীদের এবং সকল 
সময়েই জনসাধারণের কাঁছে গুহনির্মাণ কল্পে 
সাহাধোর আবেদন জানাচ্ছিলেন অক্রানম্তভ্াবে। 
তাছাড়া তিনি উৎসাহী পহকমাঁদের বলগেন কার্ধ- 
কী সমিতির লতোরা অন্যান অ।ড়াই-শ' টাকা 
করে না দিপে অগ্কের কাছে এই বাদে সাহাষা 
চাও! যুক্তিযুক্ত হবে না। কথাটি আষর। সকলেই 
পশ্রন্চচিতে মেনে মিলাম। কয়েক মাঁপ পরে 
কার্ধকরী সমিতির সভাক্ধ অনেঞ্চেই কেন প্রতিশ্রুতি 
পালন করে নি জানতে চাইপে আমি যখন বললাম 
জমির বন্দোবস্ত হলেই মামরা নিশ্চপ্রষ্ট প্রতিশ্রতি 
পালন করবো, তখনই চিনি রাগততাবে 
আমার দিকে চেঙে বললেন ষাদিতে হবে, তা 
দিতেই হবে, কোন শর্তলাপেক্ষ নয়। আমি 
ধমক থেকে গতিক হৃবিধার নয় দেখেচুপকরে 
গেলাম সকলের মুখেই একটি অস্বস্তি ও 
আতঙ্কের ভাব, কারণ এন্প রাগতন্তাব মাকি 
কেউ কখনো তার বেলার আগে দেখে নি। 
ন্ুতরাৎ ছুঙঠাগা আমারই । 

পরদিন পক্কাপ বেলা একটা আন্বস্ত্িকর রাত্রি 
বাপমের পর ছুটে গেলাম আচার্ধ বস্তুর বাড়ীতে | 
তখন তিনি বিছ্বানাঁযর আধশোযা অবস্থা কি 
একখানি ম্যাগাজিনে পাতা উন্টেপান্টে দেখছেন! 
আমি প্রণাম করে চুপ কতে দাড়িয়ে আছি 
দেখে বগলেন--কিগে। ডাকাত কদ্র। এত ভোরে 
কি মনে করে? তিনি আমাকে খেগালখুসীমত 
ভাঁক্তার পাল, ডাক্তার কুদ্র, কজেম্্রবাবু শ্রতৃত 
নানা নামে ডাঁকতেন। আমি মাখা নীচু 
করে বলশাম'-আন্তায় কাজের এন্তে কমা! চাইতে 
পএনেছি। বিল্রপ বিশ্ফাহিত নেত্রে আমার দিকে 
চেয়ে বললেন 'কি অন্যায় করেছ যে, ক্ষমা চাইতে 
এসেছ ?' 

“কালকের মিটিং-এ আমি বেস ঘা 
বলেছিলাম, তার অতে। আমার কখ! গুদে তিনি 
হো ছে করে ফেসে বললেশ-আরে পাগল, 


124 


মিটিং-এ কিছু বলেছিলি হয়তো! বা, তার জন্তে 
আমিও ধমকে দিয়েছি--সে অধিকার তো 
তোরাই আমাক পিগ্েছিস ; মিটিং-এর সঙ্গে সঙ্গেই 
ত1 চুকে বুকে গেছে, তার জন্তে মন খারাপ করিস 
নে। আঁক কাছে বোপ” বলে বিছ্বানাঁর উপরই 
উর কাছে টেনে শিলেন। আমি আবার তার 
পায়ের ধূগ! নিয়ে কাছে বসলাম, ভিনি মাথার 
হাত দিয়ে আবর্বাদ করলেন। সে দিন তার 
মুখের সে অপুর্ব হালি দেখে আমার মনের সকল 
গ্ররনি তৎক্ষণাৎ বিশ্ৃত হয়ে গেলাম । 

তার সাঙ্গিধ্যে যখনই গেছি তখনই পেক্চেছি 
ভালবাস। ও আমার প্রতি অথগ্ুবিশ্বাপের পরিচয় । 
বিজ্ঞান পরিষদের গৃছনির্মাপের জন্তে জমি কেন! 
হলো রাজা রাজক্ স্রাটে, আর বাড়ী হতে 
চলেছে খন, তখন ভারই প্রস্তাবে আমি ট্রার্টিদের 
একজন মনোনীত হুলাম। তারই নির্দেশমত 
দলিল রেজেছ্রি করতে এবং কর্পোরেশনের সঙ্গে 
ফয়সাল! করতে ছুটতে হলো । 

1951. আমি বাংল! তাধা লেখ] “শারীর- 
বিস্তা” নামক পুস্তকের জন্তে দিল্লী বিশ্ববিষ্তালয় 
থেকে নরলিংছ দাল পুরস্কার পেলে তিনি অভি- 
নন্দন জাশিয়ে আমাকে আশীর্বাদ করলেন। উপরস্ত 
পরিষদের বাঁজশেখর বনু স্থৃতি বক্ততামালার জন্তে 
প্রথম তিন বছর যথাক্রমে ৬চারুচত ভট্টাচার্য, 
৮নিখিলরঞ্জন সেন ও অধ্যাপক প্রিতপারঞন রামের 
মত বিজ্ঞানের দ্িকপালদের পরেই চতুর্থ ব্তৃতার 
জন্তে তিনি আমাকেই মনোনীত করলেন থান ও 
পুষ্টি সম্বদ্ধে বক্তৃতার জন্তে। এ বক্তৃতা পরে 
যখন বঙ্গীয় বিজ্ঞান পরিষদ কর্তৃক পুক্তিকাকারে 
প্রকাশিত ছন্নঃ তখন আমি অঙরোধ করামাত্র 
তিনি তান্ধ জন্তে একটি ভূমিকাও লিখেছিলেন, 
ঘা তিনি ত্বাগে কখনও করেন নি অন্ত কোন 
পুপগ্তকের জে । খামার প্রতি অগাধ ভালবাসার 
নিদর্শনকধপে তা চিরদিন আমার স্মৃতিপটে জাগরূক 
থাকবে। ] 


শান ও বিজ্ঞান 


[27তম বর, 3 সংখ্যা 


তিনি খরে বসেই আড্ড! দিতে ভাঁলবাপতেন 
এবং পছ্নন্দলই বড় বড় সভাপমিতিতে সময়ে 
ল্ময়ে যোগ দিলে কখনো কোন ক্লাষের ছে 
হুল্লোড়ের মধ্যে ধেতে চাইতেন না। দর্ষিণ 
কলকাতার লেকের কাছে 'চক্তবৈঠক” একটি 
সাংস্কৃতিক ও সাঘাপ্জিক ক্রাব। আমি তখন 
তার প্রেশিডেন্ট। সভোরা আমাকে অনুরোধ 
জানালেন, একদিন জাতীয় অধাঁপক সত্যেন 
বোলকে ক্লাবে নিয়ে আপবার জন্তে। আমি তার 
বাড়ীতে গিয়ে যখন অনুরোধ করলাম, তখন তিনি 
তা প্রত্যাখ্যান করে বললেন “অতদুরে লেকের 
পাড়ে বাবে কিরে? নানা আমি এ সব ক্লাবে- 
টাবে বাই না।' “আমি আবার বললাম 'আঁপনি 
তো! বৈঠঞ্ক ভালবাসেন আপনাকে ঘেতেই হবে, 
কারণ আমি ওদের কথা পিয়েছি।' গুনে একটু 
হেলে বললেন “তবে তো বেতে্ট হবে দেখছি। 
দেখেই আপি তাহলে তোমাদের চক্রতৈঠকে 
কিরকম চক্রাঞ্ত হয় (” সম্মতি আদারের পর 
খুপীঘনে আমি বললাম তালে এ দিন সওয়া 
চারটার সমগ্নে গাড়ী নিষ্ে আমি দ্মাসবে।। 

আরে নানা, আমার গাঁড়ীতেই যাবো, 
তুমি কেন আবার ছু-ছুবার দক্ষিণ থেকে উত্তর 
কলকাতার ছুটোছুট করবে |' 

কিন্ত আপনি কি যথাস্থানে চিনে যেতে 
পারবেন ?" ূ 

“তাইতো তবে তোর বাড়ীতেই আমি আগে 
বাবে, কারণ বালীগঞ্জ প্রেদ আমার জানা আছে, 
কারণ নীরেনদের বাড়ী ওখানেই। তোর নম্র 
কত না?” 

55/4, একেবারে বঞ্চেল রোডের জংশনের 
কাঁছেই ব! দিকের লাল বাড়ী” বলে আবার প্রপা 
করে বিদায় নিলাম । যথাদিনে যথালম্ে 
তিনি আঁচার্ধানীকে নিয়ে আমার বাড়ীতে উপস্থিত, 
তারপর পথে তাকে তার কোন আত্মীয়ের বাড়ীতে 
স্বেখে আমরণ গিয়ে পৌছুলাম চক্র বৈঠক জাবে! 


মার্চ, 1974 ] 


সেদিন কিন্ত আর ঘরে বৈঠক বসলো! না, বসলো 
চাঙ্গের আলোর, লেকের জলের ধারে চক্রবৈঠকের 
নিজন্ব বাগানে । এত বড় বিজ্ঞানী কিন্তু কিরকম 
ধ্বঠকী মাছুষ তিনি, তাঁর পরিচয় দিলেন দাচার্ধ 
বোস সে রারিতে তার হাশ্তপরিহাসমুখর জম- 
জমাট আড্ডায় দীর্ঘ ভুঘন্টা ধরে। সেটা শুধূ 
চক্রবৈঠকের পক্ষে ই নক, আমাঁয়ও পক্ষে একটি চির- 
প্মণীর ঘটন। 

1974 এষ প্রথম দিনটি আচার্ধ বসুর অশীতিতম 
জন্মদিন | তাই বঙ্গীর বিজান পরিষদের কমার! 
মিশিত হয়েছিলাম নিউক্রিয়ার ফিঞ্ছিঝ ইন্ট্রিটিউটের 
জয়ন্ত বসুর কক্ষে । স্থির হলো বিআান পরিষদের 
একটি বিশেষ অধিবেশনে এ দিন তাঁকে একটি 
ন্ূপার ফলকের উপর খোঁদিত একটি অভিননানল- 
পত্র এবং এ পঙ্গে উত্তরীয় পরিষদের পক্ষ 
থেকে শ্রদ্ধার্থয দেওয়া হবে। কিন্তু আমি তে! 
30শে ডিসেম্বর গ্তাঁশস্ভল আআযাকাতভেমি অব 
সায়েলের কার্ধকরী সমিতির মিটং-এর যোগদানের 
জন্তে নাগপুরে রুনা হুয়ে যাব। সে জন্তেই 
এ ছিন ভোর বেলারই গেপাঁম আচার্য বস্থুকে 
প্রণাম করে তায় এ বিশেষ জল্মদিনটিতে উপস্থিত 
থাকতে না পারবার জঙ্তো ক্ষমা ভিক্ষা করতে, আর 
হাতে নিয়ে গেলাম আমার সম্ভপ্রকাশিত বই 
31০01094506 961525061০9 খাঁন তার হাতে 
শদ্ধার্ধয নিবেদন করতে । তখন তার ঘরে 
বসেছিলো পবিত্রদ] (সুলাহিত্যিক পবিত্র গাসুলী), 
আগরতলার একজন অধ্যাপক এবং অভ 
কয়েকজন তন্তরলোক ও মহিলা । আমি গ্রপাষ 
করে জন্মদিনে উপস্থিতির অপারগতার জঙ্তে 
ক্ষমা! প্রার্থনা করে বইখানি ভার হাতে তুলে 
দিয়ে বললাম “এখানে ইংরেজীতে লিখেছি বলে 
হয়তো! আমাকে বকবেন।' বাঁধা দিয়ে হেসে তিনি 
বললেন, “ফেন বাংলাতে লিখলে কি আর 
ইংয়েজীতে লিখতে নেই? আবাক হলাম, বাংলা 


জাতীয় অধ্য।পক আচার্য সত্যেজনাথ বস্থু 


125 


কথ শুনে। তিনি বইখান1 উল্টেপাপ্টে দেখে 
শিল্কে বললেন বাংল ভাষার চর্চা করতে গিক্সে 
ইংরেজীটা এখনো ভূলিশ নি দেখছি, পড়ে 
দেখবো এথন' । 


আঁগরতলার অধ্যাপকটি প্রশ্ন করছিলেন, আর 
আনাড়ন্বর সরস ভাষায় আচার্ব তাত বক্তব্য বলে 
যাচ্ছিলেন অক্রান্থভাবে ঘণ্টার পর ঘন্টা । মাঝে 
যাঝে একটি শেষ হলে আর একটি শিগাঁরেটে 
আগুন খরাতে করেক সেকেতের জগ্ভকে ক্ষান্ত 
হচ্ছিলেন মাত্র। আনেক সযঙেই ডাকে দেখেছি 
অক্রাস্তত'বে সরস ও সাবলীল তাঁষাঁয় বহক্ষণ খরে 
শুধু সাঁধারণ কথাই নয়, এমন কি দুব্ুহ বিজ্ঞানের 
বিষয়গ বলে যেতে, কিন্তু সে ঠিনি কাগজের 
উপর কলম চালাতে চাষ্টতেন না, কেবল আক 
কষার সময় ছাঁড়া। সেক্জঞ্ছে কি বিশ্ববিদ্কালতের 
সমাবর্তন ভাষণে, কি শিিসভারত বঙগসাঞ্িত্য 
সঙ্সেশনের মূল সভাপতি হিসাবে তাকে লিখিত 
ভাষণ পাঠ করতে দেখি নি। ঘণ্টার পর ঘণ্টা 
ভার নিজন্ব ভঙ্গীতে তাঁর বক্তবাফে প্রাঞল 
বাংলা ভাষার লোকের কাছে বজতে দেখেছি 
অক্ষান্তভাবে। সেদিনও দ্িনি তেমমি তাঁবেই 
নানা প্রশ্নের জবাব দিবে মাচ্ছিলেন, তার নিজের 
জীবনের নানা বিষয়ে । প্রশ্নগালর যধো ছিল 
ভার ছেলেবেলাকাঁর ও ছাজন্গীবনের কথা, 
কেন তিনি বিলিতঠি ডিতী নিতে আগে যাননি, 
তাঁর সঙ্গে আইনষ্টাইন, রবীজ্ুনাথ ম্প্রভৃতিক 
যোগাযোগের কথা ইত্যাদি । এরই মধ্যে 
একবার প্রন হলো শ্বগাঁয় অধ্যাপক মেঘনাদ 
সাহা সম্পর্কে। উত্তরে একটু হেসে তিনি বলবেন 
'মেধনাদ সব সমতেই আমাকে ছাত্রজীবনে, এমন 
কি পরেও তার প্রবল প্রতিচ্ধন্্ী ভাঁবতে| বটে, 


হকিন্ত আমার ঘনে তেমন কোন ভাব কখনই ছি 


না) ছিলনা যে, তাক প্রমাণ আমর! পেয়েছি, 
যখন অআধাপক সাহা এক প্রবল প্রতিহ্বন্্ীর 


ভাষাপ বিজ্ঞান চর্চার একনি প্রবনতা মুখে ঈ! বিকচ্ছে ধীড়িক্সেছিলেন পার্ণঘেন্টের সদশ্তপদ 


126 


প্রার্থী হয়ে উত্তর কলকাতার এক নির্বাচনকেজ 
থেকে, তখন তাঁর সমর্থনে যে সকল আনী-গুণী 
লোকের স্বাক্ষরিত সমর্থন-পত্র প্রচারিত হয়েছিল, 
তাঁর সকলের উপরে যে নামটি জাজল্যমান 
দেখতে পাওয়া গিরেছিল, তা আচার্য সত্যেন 
বোপের । 

সেঙ্গিন শেষবারের যত অধ্যাপক বসুর জীবনের 
বহু জানা ও অজানা কথা আবার তায় নিজের 
মুখে শোনবার সৌভ।গ্য আমার হয়েছিল। এই 
ক্ষুদ্র প্রবন্ধে সেগুলি বলে শেষ করা সম্ষ 


জাল ও বিজন 


(27তম বর্ষ, 2 লংখ্যা 


নন্ব, কিন্তু লেগুণি চিরকাঁলই লেখ! খাকবে জীবস্ত- 
ভাঁবে তার অলাধারণ জীবনের বিচি আলেখ্য- 
রূপে । আর তারপরই চিরনিদ্রার শাস্তিমক়্ 
ক্রোড়ে তাকে শান্গিত দেখলাম বিগত 4ঠ1 ফেব্রুগারী 
ভোরব্লায়। মনে হলো জীবনের চেয়েও 
যহীয়ান 'মৃত্যুহীন, এই অনস্ত শর়ন। ছাত্র ও 
আমার মত প্রিয়জনের সঙ্গে সঙ্গে আমিও 
নিবেদন করি তাঁর অমর আত্মার উদ্দেশ্তে আমার 


মরণোভরে আচার্ধ মত্যন্ত্রনাথ অমর হোন 
মহাদেব দত্ত 


যে পুতাগ়ির নিষ্ষম্প উজ্জল শিখ! বিজ্ঞান, 
সাহিত্য, সঙ্গীত প্রভৃতি মাঁনব-সংস্কৃতির বিভিন্ন 
পাধনার ক্ষেত্র আলোকিত করছে, মানব" 
সংস্কৃতির উন্নতি সাধনে, দেশ ও শযাজ উন্নয়নে, 
মানব্গ্রীতি, ভালবাসা স্থাপনে শত শত দীপ 
প্রজ্ছলিত করেছে, সেই পুতাগ্বি 42 ফেব্রুয়ারী 
নির্বাপিত। ওই শিখাট অনির্বাণ হোক । 

আচার্য সত্যেন্্রপাথ জগতে একজন মহান 
বিজ্ঞানী হিসাবে পরিচিত | “বোস ষ্ট্যাটিটিকৃস্‌ তার 
একটি বিশেষ গুরুত্বপুর্ণ অবদান। এজন্রে তিশি 
চিরশ্মরধীর । একক-ক্েত্র তন্থে আচার্ষধের অব্দান 
তার প্রতিভার উজ্জল শ্বক্ষর। বিজ্ঞানের, এই 
শাখা ধিনিই চর্চা করবেন, তিনি আচার্ধের গণিতে 
অসাধারণ দখল ও পদার্থবিস্ঞা গভীর জনের 
পরিচয় পাবেস। ছাত্রদের পঙ্গে তাপ-জ্যোতি 
বিঙ্সেষণে তিনি যে বস্ত্র প্রস্তত করেছিলেন 
বিদশেও তাঁর স্বীকৃতি আছে। বিজ্ঞানের খুব 
আপ শাখা! আসছে, ঝা ভার প্রত্যক্ষ ব পরোক্ষ 
'আবদানে 'লমৃদ্ধ ন। বিজানের ইতিহাসের 


অন্তরের শ্রদ্ধার্থা ও প্রার্থনা করি ভগবানের 
চরণে তার জন্বে অক্ষয় ও অনস্ত শাস্তি । 
পাতা খ্াচার্ধের নাম চিরমুদ্ত্রিত থাকবে। 


কিন্ত বিজ্ঞানে তাঁর সাধনাপ্রধাছ নিরবিচ্ছিন্ন 
রাখতে হবে যষোগ্য বিআানসাধকের একনিষ্ঠ 
সাধনার মধ্য দিয়ে। তিনি যামুরু করেছিলেন, 
তা স্ুপম্পর করতে স্ববে! তার আশা-আকাজ্ক। 
ও শ্বপ্নকে রূপ দিতে হবে। এজত্ে আচার 
সত্যোশ্বানাথকে, তার জীবনপাধনাকে ভালভাবে 
হৃদযজম করতে হবে। 

প্রত্যেক আচার্ষের সাধনার তিনটি উল্লেখধোগ্য 
দিক খকে--জ্ঞানার্জন, জ্ঞান ভাগারেয় নতুন 
নুন সংযোজন, আর্ত ও নবলন্ধ জ্ঞানকে 
শিশ্বপ্রশিষাদের মধ্যে সঞ্চার | 

আচার্ধ সত্যেদ্রনাথের সাধনায় এই তিন দ্দিক 
কি রূপ নিয়েছিল, কিবা তাদের বৈশিষ্ক্য ছিল, 
তা পসমাক আলোচনা করা প্রয়োজন। 

আচার্য লত্যেতনাথ আজীবন জ্ঞানার্জনে 
ব্রতী ছিলেন। তবে তার পদ্ধতি ছিল অভিনব, 


কপিত গপিতেক্স উচ্চতর গবেষণা কেন, 
কলিকাত। বিশ্ববিদ্তালগ্ন। কলিকাত1-9 





মার, 1974 ] 


বহু সাধনাসাধ্য । বখনই তিনি কোন কিছু শিখতে 
বা জানতে আগ্রহী ছুতেন, তখন সেই তত্র 
য্লগ ধারণা কি ও ভাতে কি কি প্রধানতঃ 
পায় গেছে? তা জেনে নিয়ে মূল ধারণ! 
খেকে বিচার-বিঙ্জেষণ করে সমস্ত গ্রতিপা্যি বিষয় 
নিজেই প্রমাণ করে নিতেন ও থে সব উদ্ভোখযোগ্য 
ফল ওই তথ্বে পাওয়া সম্ভব, তা প্রায় সবই 
পস্তোষজনকতাবে নিজেই গেতেন। যতদিন ন! 
তিনি নিজে সন্দেহাতীতভাবে ওই সব ফল 
পেতেন, ততর্দিন চলতে! তার নিরলস প্রয়াস । 
এজন্তে তিনি যা জানতেন, তা সম্পূর্ণন্চাবে তার 
শিজের আয়তে থাকতো । বইবাছাপানে। প্রবন্ধে 
যা আছে, লেটাঠিক হোক বা ভুল হোক তা 
থেনে নেবার বেক অনেক ছাত্র ও গবেষকদের 
মধ্যে দেখ! বান্। এটা ভ্রান্ত, দুষণীয় ও 
জানরজনের পথে বিশেষ বাধা। আচার্য 
সত্যেআ্রনাথ নিজে না দেখে কখনো কোন বিষম 
মেনে নিতেন না। এমন কি, বইতে বেভাবে আছে 
ঠিক সেভাবে ছিসাবনিক্াশ করে. তিনি সন্ত 
খাকতেন নাঁ। বইয়ের প্রতিপাস্ত বিষন্কটি মূল 
গ্রতিপাস্ত বিয়ন্ন থেকে কত ভাবে পাওয়া বায়, 
ত1 নিজ্জে দেখেনিঙেন। এই কারণে তার ওই 
সব তদ্দে বিশেষ দখল জদ্মেছিল ও নিজের স্থজনী 
শক্তির পুর্ণ বিকাশ হয়েছিল। আচার্য বে ভাবে 
নিঙ্গে শিখতেন তা এই শতাবীর গোড়ার প্রশিঙ্ক 
গণিতাচার্য ছিলবার্ট (7119610 সম্বন্ধে শোনা বার । 
'নোটন অন কোক্বান্টাম মেকানিক নামক বইগ্নের 
মুখবন্ধে ফেনির' এই অভ্যাপের কথা লেখ! আছে। 
স্কাচার্য সত্যেন্্নাথের ক্ষেত্রে সব পমন্ব এট! 
প্রত্যক্ষ করা যেত। এইতাৰে জ্ঞানার্জনের 
অনুশীলন তকুণ ছাত্র-গবেরকদের মধ্যে সঞ্চারিত 
করতে ছবে। বদি কর! যায়, তবেই সত্যেজনাথের 


এই দিকটি অয়ান হন্নে খাকবে। 
সআাচার্ষের 'আ্বআনতাগারে নতুন নতুন 
সংযোজনের কথা আগেই বলা হযেছে জনি 


মরণোত্বরে আচার্য সত্যেজ্জরনাথ অমর হোন 


আলোকগাত হতে। এই পমগ্ায়। 


12 


সংক্ষেপে । তিনি কিতাবে ভার ছাত্রদের শিক্ষা 
ছিতেন, সে বিষয়ে অভি সংক্ষেপে উল্লেখ কর! 
হুচ্ছে। 

আাতকোত্তর শ্রেণীতে বখন তিনি ছাত্রদের 
নিয়ে ক্লাস করতেন, তখন খণ্টান্র পর ঘন্টা চলে 
বেত, অলোচনার শেব হতে] না এবং এভাবেই 
দিনের পর দিন বা! কথন কয়েক সপ্তাহ ধরে 
চলতো । তাঁর আলোচনা চগতে! প্রধানতঃ মাতৃ- 
ভাষায় যেহেতু বা তিনি শিক্ষা দিতেন তা 
তিনি সম্পূর্ণ নিজন্ব কষে নিতেন, তাই নিজের 
মাতৃভাষায় প্রকাশ করতে তার কোঁন অনুবিধা 
হতো না। আর তিনি চাইতেন যে, ছাদের 
মনোযোগ ভাষাতেই সীণ।বন্ধ না থাকে, 
তাদের প্রকতভাবে বিষক়বস্তর সঙ্ে পরিচন্র 
ছোক। এজভ্েই [নি বিদেশী ভাষ। আলোচনার 
জন্কে ব্যবহার করতেন না। আলোচনার বিষন্ব” 
বন্ত ভার নিজের গবেষণার বিষয় হোক ব] 
নাছোক, তাতে ভার কোন অন্থখিধা হতো! না। 
ষে কোন গবেষক কোন সমস্য! নিক্ে এসেছেন 
এবং তিনি বুঝেছেন এই সমন্তা বিজ্ঞানের দিক 
দিয়ে তাৎপর্যপূর্ণ, তখনি তিনি মে বিষন্কে নিজে 
তাবতে, হিসাবশিকাশ করতে স্থরু করে দিতেন। 
এবং ষযতদিন না পিজের কাছে ওই লমন্ঠার 
সমাধান হতো, ততাদন তিনি এই বিষে ক্ষান্ত 
হতেন না। তার এই আলোচন! থেকে বে 
গব্ষেক এই সমস্যাটি আলোচনা করতে এপে- 
ছিলেন, তিনি তার এই লমক্তার শুধুমাত্র পুর্ণ 
বিশ্গেষণ পেতেন তা নয়, নান।পিক থেকে নভুন 
সাধারণভাবে 
আচার্ধের কাছে গিনে আলাপ-আলোচনা কনা 
পহজ ছিল--যে জনে তার সম্পরকে "অবারিত স্বার' 
কথাটি চালু হয়ে গেছে। কিন্তু তিনি বন নিজের 
বা অন্ত কোন গবেষকের সমস্ত নিয়ে ভাবছেন, 
তখন তার কাছে গেলে শুনতে হতো -"তাই এখন 
একটু এসে উন্ধ থাকতো, আমি এখন বাক্। 


128 


এই সব দিক থেকে দেখপে শাঁচার্য বনুর মধ্যে 
“সচার্ষের পুর্ণ আদর্শ রূপ পেক্েছিল। তিনি 
প্রকাত আচার্ধের কজন জলম্বদৃ্াস্ত। 'াঁচার্দকে 
আমাদের মধ্যে অমর রাখতে গেলে প্রশ্নোজন 
একট শিক্ষা! গবেষণা কেন, যেখানে আচার্ষের 
আদর্শে অনুপ্রাণিত ছাত্র গবেষকেনা নিরললভাবে 
আচার্ষের প্রদশিহ পথে আচার্ষের আঁশা-আকাজ্। 
অনুসারে নিরলস বিজ্ঞান সাধনা! করে বাবে। 
কিন্ত আচার্য লত্যেকনাথ সদন্ধে কেবল এইটুকু 
বললে তাঁর পরিচক্ম সম্পূর্ণ হবে না। তাকে 
সম্পূর্ণভাবে জাঁনতে গেলে, হিনি অনেক সভার 
বে কথা স্থুম্পষ্টরূপে বলেছেন, তা ম্মরণ করতে 
হবে। ভার বিজ্ঞানলাপনার সুপ প্রেরণা এসেছিল 
দেশপ্রেম থেকে । তরুণ বরলে তার স্বপ্ন ছিল 
এমন কিছু করতে হবে, বাতে দেশের গোঁরব 
বৃদ্ধি হয়, জগৎসভার ভারত বিশিষ্ট স্থান 
লাভ করে। যখন আচার সত্োঙ্গনাথের 
ছ!এাবস্থা,। তখন বাংলার সমানে চলেছে বঙ্গ 
তর্ের বিপক্ষে জাতীনন আলোড়ন। তখন গ্েেশ 
প্রেমী চিন্তাশীলেরা ভাবছেন কিতাবে দেশকে 
ত্বধীন করতে, কিভাবে দেশকে ন্বন্বংসম্পূর্ণ করতে; 
দেশকে বিজ্ঞান ও কারিগরি শিক্ষার্প উন্নত করে 
নানা শিল্প গড়ে তুলে ভারতকে সমৃদ্ধশালী করতে 
হবে। 

আচার্য সত্যেজনাথের সমত্ত চিস্তাতাবন। 
এই আদর্শ দিহে অন্প্রাপিত ছিল। নিজের 
বিজনের অবদান দিয়ে তিনি ভারতকে জগত 


সতাযর় গোৌরবোজ্জল করেছেন। কিন্তু ভাতে 


তিনি সন্ত খাঁকতে পারেন নি, স্বাধীনতার সঙ্গে 
সঙ্গে তিনি চাইলেন বিজ্ঞানকে জাতির হারে ছারে 
পৌছে দিতে হবে। জাতিন্ন প্রত্যেক নাগরিককে 
বিজঞান-টিস্তার সঙ্গে পরিচয় করাতে হবে| বিজ্ঞানের 
প্রশন্নোগে কিভ'বে দেশকে উগ্র, সমৃদ্ধশালী করা 
যাক়। লে বিষরে জাতিকে সচেতন করে ভুলতে 
হবে । তীর ম্বরদী মন চেয়েছিল। . বিজ্ঞানের 


জান ও বিজ্ঞান 


[27তম বর্ষ, 3 সংখ্যা 


সাধনার তিনি খে আনন্দাছভূতি পেয়েছেন, তা 
সার্বঙনীন হোক। এজগ্ভে তিনি বাংলা ভাষায় 
বিজ্ঞান৮। যাতে হ্ৃক্ন, সে জণ্তে নিজে লর্বতো তাবে 
সচেষ্ট হলেন ও বর্গীক় বিজ্ঞান পরিষদ স্থাপন 
করলেন। এই বিষদ্বে একনিঠ কমীরঁদের সংঘবদ্ধ 
করতে চেষ্টা করপেন। বিজ্ঞান পরিষদের মুখপত্র 
আন ও বিজন' প্রকাশ করে সাধারণের কাছে 
বিজ/নের কথ! পৌছে দেবার বাবস্থা হলো। 

পঁচিশ বছরের উপর ধরে চলেছে বিজ্ঞান 
পণ্ষদের কর্মপ্রচেষ্টা আচার্য সত্যেক্রনাথের 
নেতৃত্বে। ভিনি গেয়েছিলেন বিআন পরিষদ থেকে 
একটি বৃঙ্ছদাকারের বিজ্ঞানকোষ প্রকাশ করতে। 
তিনি চে়েছিপেন বিজ্ঞনা পরিষদে এমন 
ব্যবস্থা থাক বে, তরুণেরা নিজেদের চেষ্টায় 
হাতেনাতে বিজ্ঞানের নানা বনজ ঠতরী করবার 
স্থযোগ পাবে। এজনে বিজন পরিঘদে স্থাপিত 
হয়েছে তরুণদের জন্তে বিজ্ঞানের হাতে 
কলমে” বিভাগ, তিনি চেয়েছিলেন পরিষদে একটি 
বিজ্ঞান সংগ্রহশালা থাকবে, যেখানে নানা 
রকম বিজ্ঞানের পহজ্জ মডেল খাঁকবে, হা ছাত্রেরা, 
তরুণেরা হাতেন।তে ঠতরী করবে ও ঘা দেখে 
তার! হাতেনাতে কাজ করতে শিখবে 1. এজজ্ে 
তিনি আরে! চেত্রেছিলেন একটি গ্রন্থাগার, যাতে 
ছাত্রের, তরুণের! তাদের আগ্রহের বই, পৰ্িক! 
পাবে । তার খাসন! ছিল এভাবে বিজ্ঞান পরিষদ 
গড়ে উঠলে নানা স্থানে এই পরিষদের শাখ। 
প্রতঠিঠিত হবে এবং সমস্ত জাতি বিজ্ঞানমুখ্ধী ছকে 
সত্যই সমৃদ্ধশালী হুবে। 

অর্থাভাবে এবং সরকার ও জনগাধারণের 
আনুকূল্যের অভাবে তার এই আশা-আকাওণ 
সম্পূপ রূপ পাক নি। বন্ধি এই বিজ্ঞান পরিষদে, 
তার পত্রিকাকে, তার হাতে-কলমে বিভাগকে, 
গ্রন্থাগারকে ভার 'আশা-আঁকাজগ অন্থবাঙ্গী 
কূপ দেওয়া যায়। তবেই তিনি অমর হগ্নে 
খাবেন: ্‌ 


অবারিত দ্বার_-শিখা অনির্বাণ 
গীগনবিহারী বন্দ্যোপাধ্যায়* 


আীবনে ধার হার অবারিত ছিল ভার শেষ 
ধাত্রা্স সকলেই ছুটে আসবেন এতে অপ্রত্যাশিত 
কিছু নেই। কিত্তু বছ কিশোর ও ঠকশোরোতীর্ণকে 
তার মধ্যে দেখে আচার্য সত্যেশ্রনাথ বনুর 
প্রতি শ্রদ্ধার মাথা! আরও নত হয়ে গেছে। 
রাজ্যপাল ও প্রাক্তন মুখ্মন্ত্রীরা এসেছিলেন-- 
তারা তে! অনেক বিখ্যাত লোকের মৃত্যুতেই 
গিপ্সে খাঁকেন। বিজ্ঞান কলেজের ছাত্রবৃন্ম, 
জ্ট্যাটিউিক্যাল ইনপ্টিটিউটাদির কর্মীরা তে! 
'াসবেনই। বাংলাদেশ থেকে বন্ধুরা ছুটে 
এসেছিপেন দেখে ছুঃখের মধ্যে মনে শাস্তি 
পেলেও আশ্চর্য হুই নি--ঢাঁকা তো অধ্যাপক 
বসুর অন্ততম স্থান--এখালেই বস্থ-সংখ্যায়নের 
জন্ম। কিন্তু এই কিশোয়েরা এলেছিলেন কেন? 
বোধ হয় লোকমুখে শোনা তার প্রতিতার প্রতি 
অপার বিস্রয়ে। ভার শ্েছ ও সহাহ্তৃতিও 
হয়তো এদের কেউ কেউ পেয়েছে। অধ্যাপকের 
জীবিতকাঁলে দেখেছি তিনি ঘরে শুয়ে শুয়ে 
অঙ্ক কষছেন-স্আঁর কয়েকটি বালক হাতে বই 
খাতা নিষ্ষে ক্কুলেবাগুয়ার পথে ভার জানালাম 
উকি মেনে দেখছে। কিশোরদের এগিয়ে আপা 
ভার ছাত্র ও ছাত্রস্থাশীরদের কাছে বড়ই মুলাবান। 
এই কিশোরেরা তাকে অনির্বাণ শিখা বলে 
প্রণাম জালিয়েছে। প্রবন্ধের শিরোনামার “শিখা 
অনির্বাণ, কথাটি তাদেরই কথা। শোনলাঘ এই 
কিশোরের দল বলেছিল পদব্রঞ্জে সমস্ত পথ 
তার! বাধে। সেটা সপ্তব ছিল না--কিন্ত 
আচার্ধ প্রহথপ্নচন্জ রোভন্থ বিজ্ঞান কলেজ থেকে 
বিশ্বধিভালয়ের দ্বারভাঙ্গ। বিন্ডিংস অবধি পদত্রজে 


ভাঙা বাজার সর্খী ছিলপ। আবরা সকলে এই 
নু 


কিশোর ও যুবকদের সবাইকে চিনি না--কিস্ত 
আমাদের পরম শ্রদ্ধে্ন অধ্যাপকের প্রতি তাদের 
প্রীতি ও শ্রদ্ধা! দেথে এই যুবক ও কিশোরদের 
মল কামন! করি। 
কিন্ত এই সমভ্ত কথার চেয়েও অনেক বড় 
কথ! এ শিখ! অনির্বাগ' কথাটির মধ্যে তাদের 
কাছে পেয়েছি! অধ্যাপক যে দীগটি জেলে 
দিয়ে গেছেন, তার শিখা চিরদিন প্রজ্লিত 
খাকবে। তাই এই মহাপুক্ুষেহ তিরোধানে 
শোক প্রকাশ অন্চিত। তথু যা উচিত তা 
কি সব পসমম্ন করা খা? 22নং ঈশ্বর মিল 
লেনের বাড়ীতে গেলে লেই সদাহাস্যমন্ প্রশাত 
মুখটি আর দেখতে পাব না, এই ছুঃখ কে সংবরণ 
করতে পারেন? কখনগ বা প্রি কোন 
ছাত্রতুল্যকে দেখে খাটের উপর শিশুর ভঙ্গীতে 
ছাত ছুটি ঠকে বলেছেন “এই বে-**" "বাবু এসে 
গেছে?। তার পর ছাত ছুটি উপরে তুলে 
ডাকার তঙ্গীতে তার নাম করে বলেছেন “আর 
আয় আদ'। এই স্বতংশ্কর্ত আনন্দ ও সারল্ের 
আর দেখ। পাব না। ঠারকাছে আসবার জতে 
জানী-গুনী হবার প্রঙ্নোজন ছিল না। অতি 
সাধারণ লোকও তার সঙ্গে সাধারণ কথাবার্তা 
বলতে পারতো । বিজ্ঞান কলেজে পঞ্চাশ দশকের 
স্থৃতি ভোলবার নয়। অধ্যাপক চেগ্ারে বলে 
মাখাট ছেলিয়ে কার সঙ্গে কথা বলছেন। একটি 
ছাত্র এপে' ঞকট। বিজ্ঞানের প্রশ্ন করলে!--সঙগে 
সঙ্গে মাখাট অভ্িকে হেপালেন-স্লন্বা! লঙ্ব! 
চুলগুলি এদিক থেকে গুদিকে গেল--উত্তরটাঞ 
*্ইঙজিযান। ইনস্টিটিউট অব গাছ 
খযদধুর । 


130 


সঙ্গে সঙ্গে। প্রশ্নের উত্তরে কথনও বা বললেন 
ওয়ে বাব।”--তারপর একটু পরে বাতার পরের 
পিন উত্তরট। এসে গেল। বহ্তরপাতি নিয়ে কখনও 
ব| টেবিলের উপর উঠে বসেছেন। সেই 
ঘরটিতে ইদানীং তাঁকে বিশেষ দেখ। বেত না। 
কিন্ত ঘরটিতে তাঁর নৈকট্য অঙ্গভব করা যেত। 
আজ সে ঘরে টুকলেকিমনেছ্বে? 

কিন্তু শুধু এই স্মতিগুলি দিয়েই তাকে মনের 
মধ্যে বাচিপ়ে রাখলে চলবে না। তাকে মনের 
মধ্যে বাঁচিক্নে রাখতে হবে তাঁর আদর্শ মনে 
রেখে । তবেই তার প্রতি প্রকৃত শ্রদ্ধা দেখালে! 
হবে--তবেই শিখা অনির্যাণ থাকবে । বার 
পক্ষে বতটা সম্ভব আদর্শ বুঝতে হবে ও নিজ 
নিজ সাধ্যমত করতে হবে! তার মাতৃতাহায় 
বিজ্ঞান শিক্ষাদানের আদর্শ সুবিদিত। বিজ্ঞানে 
তার আত্মপ্রত্যর ও বৃথ। প্রবন্ধের সংখ্যা বুদ্ধি 
না করে মুলে প্রবেশ করবার চেষ্টার আদর্শ 
তার নিকটঙ ছাঅবৃন্দের অখিদিত নয়, অন্যান 
আদশের উল্লেখ না-ই করলাম। এগুলি দিয়েই 
শিখা অনির্বাণ রাখতে ছবে। তাঁর বরন্ধ বন্ধু- 
বান্ধব ও তার চেয়ে বন্নলে বড় তার শিক্ষক 
ও অন্তান্তঙের সহানুহতি ও সাহাব্য এই বিষন্কে 
অবশ্তই পাওয়া যাবে। 

দেখতে পাঁই অনির্বাণ শিখার কিছু যেন 
ইতিমধ্যেই প্রজলিত হয়েছে! তার ব্যক্তিছ্থের 
খণ্ড খণ্ড সংক্রমণ ঘটেছে তার নিকটস্থ মান। 
জনের মধ্যে। বছর ছুই আগের একটি ছোট 
ঘটনা বলি। ছুটির দিন আচার্য প্রয়মচজ 
রোডের বিজ্ঞান কলেজে গ্রেছি। দেখা গেল 
জল নেই। জল ছাড়! বু গবেষণার কাক 
চলে না। একজন বিখ্যাত গবেষক বেরিয়ে 
এসে স্বারোয়ানধের জিজ্ঞাস! করায় তার! বললো 


জাঁন ও বিজ্ঞান 


[27তম বধ, 3 সংখ্যা 


বে, ছুটর দিন জল দিতে কর্তৃপক্ষ বারণ করেছেন । 
উক্ত গব্যেকটি বললেন কাগজকলদ নিয়ে এস, 
আমি লিখে দিচ্ছি, আপাতঃ আমার হকুমেই 
জল মাও, পরে আমি ব্যাপারটা কর্তৃপক্ষের 
সঙ্গে বুঝে নেব। এইভঙ্গীতে কথা বলা, গবে- 
ষণাঁকে এই দৃষ্টিতঙ্গীতে দেখা--ঞএ তো আচার্ধেরই 
গ্েখানো পথ। শুনেছি কাউকে তিনি বলেছেন-- 
গুণী, আঁনী, ধনী বহু মেলে, কিন্ত একটা 
'পাছপী ভাপ” লোক পাঞ্য়া যার না। ভার 
ছাত্রবৃন্দের মধ্যে ছু-একটি সপাহপী লোক দেখেছি 
টবকি | গবেষণ। ও পাঠে ঠার আদর্শ অনেককেই 
মেনে চলতে দেখেছি--বিশেষতঃ পঞ্চ দশকে 
দারিদ্র্য বরণ করে বারা গবেষণা করেছিলেন । 
তার মত লঙ্গীত গু মাহিত্যে রসবোধসহ গণিতে 
পুগ্ দুরি--ছযতো! তাও আছে। 

তাই আজ অধ্যাপকের অন্ুপঙ্িতিতে এই 
খণ্ডে খণ্ডে ছড়ানো ক্ষমতা ও আদর্শে উপর 
নির্ভর করেই যুবকদের এবং আমাদেরও চলতে 
হবে। হতে] এই পথ অনুসরণ করলে আঞ্কের 
কৈশোরোত্ীর্ণ ও বুবকদের কারে! কারে! মধ্যে 
আমাদের পরম শ্রদ্ধেন অধ্যাপকের পূর্ণ গুণরাঞ্জি 
বুগপোযোগী ব্ধপে দেখতে পাঁব। তার ছার 
অবাগিত ছিল বলেই তার ব্যক্তিত্ব বহু জনের কাছে 
প্রতিভাত--তাই একটি শিখা ছোট-বড় ব্ছ 
দীপ জালিপ্নেছে। তাই "শিখা অনির্াণ--ভাই 
“অবাগিত ভ্বাক্সের কথ! হয়তে! এখানেই শেষ 
হবে ন!। 

অধ্যাপককে আমরা বিজেদের মধ্যে 
পেয়েছিলাম--এটা যে কত বড় সৌতাগা, বধ 
বয়ন বেড়েছে ততই ত! ভাল করে বুঝষেছি। 
তাকে ছারিরে বেন অন্ত কপে তাকে পেতে 
পার--ভাই প্রার্থন! যেন 'শিখা অনির্বাধ' খাকে। 


মাষ্টার মশায়কে যেমনটি দেখেছি 
(স্থতিচারণ ) 
নম্দ্তুলাল সেনগুপ্ত 


'আক পেলেই কষৰি, 

1945 লালের গ্রীক্মকাপীন এক টবকাঁলে 
মাষ্টার মশাঙ্গের বিজ্ঞান কলেজের ঘয়ে তাঁর 
টেবিলের পাশে খাঁতা-পেজিল নিয়ে, ভার সঙ্গে 
একটা বিষর হাতে ছাতে কষে দেখছি।' তিনিও 
থাতা-ফলম নিয়ে গভীর মগ্র। হঠাৎ বললেন- 
'এই ভাঁখ কত সহজ হলো” । আমি দেখে বললাম 
'সার এই 01516150521 €0020101 এবং তাক 
সমাধান ও সেটা নিয়ে আলোচনা তো জান! 
আছে'। এই বলেই বইয়ের খোজে যাবার জন্তে 
উঠছি, কিন্তু উাঁন চুল ধরে ফেলেছেন--“বলিস 
কিরে--এই সহজ অঙ্কটার জন্তে বই দেখবি !-- 
অন্কটা পরিক্ষার, কষে গ্ভাথ। তোরা যে কবে 
শিখবি ? আঁক পেলেই কষবি।, 

অভ্যাসটা রপ্ত করতে অনেক সময় ও 
অনুশীলনের প্রত্জোজন হত্েছে, কিন্তু পরবর্ত 
জীকনে অনেকতাবে উপকৃত হয়েছি--এই উপদেশ 
পালন করবার জন্তে। 


'ছাত-সাফাই? 

সসক্কট 1947 সাল, একেবারে গোড়ার দিকে। 
গণিঞ্ডের একটা জটিল সমশ্তা নিষ্ষে মাষ্টার মশা 
আটকে পড়েছেদ। আমাদের ছু-একজনকে ডেকে 
ভাবতে বলেছেন । তার অর্থ এই নয়, উনি নিজে 
ভাবা ছেড়ে দিয়েছেন--বরং উদ্টোটাই সত, 
উনি অহ্োয়াঁআ' ওটা নিয়েই চিজ্ঞাতাবন। 
করছেন! আমি ছু-ধিন এড়িয়ে চলেছি-কারণ 
আমি কিছুই করতে পারি নি। পরের দিন 
দুপুর, বেলা আঁধার খোজ পড়লো আমি ঘরে 
ঢুকতেই. উনি পোল্পাসে যললেল--“এই স্বাখ কেমন 


শহ্জ উত্তর . গিলেন-”--4০05111ও 


জবর একট। 'হাত-স।ফাই। করেছি?। ভার 
হাতে তখন সিগারেট, সুতরাং ব্যাপারটা ভাল 
করে বুঝতে পারছি না। কাছে গিয়ে বসতেই 
খাতা-পেছ্সিল নিয়ে দেখিয়ে দিলেন,--খুব একটা 
গ্থানোপযোশী (50010601906) 08178601008 01018 
করে এ জটিল গণিতের সমস্যাটা একেবারে সহজ 
করে ফেলেছেন। আমিও এই চমৎকার সুযোগ 
ছাড়লাষ না, প্রশ্ন করলাম--'এটা হঠাৎ কেন 
করে আপনার মনে এলো? তখন উনি ধারে 
ধীরে গত ছু-দিন ধরে কত রকম চেষ্টা করে 
স্থবিধা। করে উঠতে পারেন নি (গর ভাষায় 
ছাত-ফসকে' গেছে) তারপর কেমন করে 
এ 'ছাতসলাকাই' (1:210569:0080107)-এর প্রশথ 
অ(সতে পারে বুঝিরে দিয়ে বললেন--“ঘেটা 
(গণিতের সমগ্ডাটা) ষত বেশী গোলমেলে, 
সেটার জন্তে তত বেদী শক্ত ছাত"সাফাষ্ট' 
দরকার--বুঝলি | এগুলি কষতে কষতে হাত 
আসে? শধু শুধু শক্ক বলে বসে খাকলে হবে না। 


সহজ উত্তর । 
প্রান বিশ বছর আগে বোশ্বাইপের কোলাৰ! 
অঞ্চলে তর এক প্রাক্তন ছাত্রের বাড়ীতে 
উঠেছেন। সেবার বোষাই বিশ্ববিস্বালয়ের 
আ/তকোত্বর ক্লাশে আমাকে 56950156591 
115010917165 পড়াতে হচ্ছে। সেই সুত্রে এ 


'বিষন্বের গোড়ার কথা একটু ভাবতে চেষ্টা করছি। 


গকে পেয়েই প্রথথ করলাম--'পার 969050551 
21501390109 206০0877108 কতটুকু? 
উপপান্ত 
(0959:628)1 নিজের সন্বেছটা দু হয়ে গেল। 


132 
স্বতংদ্কুর্ত অবন্থাত্তর 


(519০7515176055 85155881015) 

1959 মুসৌরীতে 45020026 5০001 হচ্ছে-. 
তৎকালীন চালিভিলী হোটেলের আজিনার বসে 
আছি আমর।। মাষ্টাহ মশীয় নিজের থেকেই 
ললেন--“ছাঁধ খন প্রথম জার্সেনীতে ছিলাম, 
তখন আইনটাইন আমাকে একট! সহ প্রশ্ন করে 
ঠকিয়ে দিতেন: আইনইাইন প্রশ্ন করতেন--াখো 
বোস, একটা কথা (5:01) বা একটা যৌগিক 
বন্ত (955610) যদি কোন উচ্চতর শক্তির অধিকারী 
(71816191561 565665) হন্ন এবং সমস্ত জগতে 
আঁর কিছুই না থাকে--তুমি কি যনে কর না সেটা 
স্বতঃস্যৃর্ত হয়ে ন্ষ্গামী ( শকির মাপে) (০৫ 
€7021:85 51866) হবে? তখন আমার কোন 
উত্তর ছিল ন1।--এখন সাঞ্থেবকে পেলে বলতাম--- 
“দেখ সাহেব, তোমার প্রশের উত্তর দেবার আগে 
তোমাকে জানাতে চাই--“কি হবে দেখবার জন্তে 
সান্ছেব ভুমিও নেই আমিও নেই?। 

[ বিষযবস্ধটা গোড়ার কথার (00017080102) 
দিক থেকে ভাবলে অত্যস্ত গভীর--অন্তত্র এই 
বিষয় নিয়ে বিশদ আলোচন। করার ইচ্ছ! রইলো। 


কর্তারা (11551৩75) কি বলেন ? 

কোন বিষয়ে জানবার বা পড়বার ছরকার 
হলে বলতেন--কর্তাদের (অর্থাৎ 10893613), 
যাদের ত্বকীর দানে শাশ্ গড়ে উঠেছে, তাদের 
বই বা মূল গবেষণা -পত্র পড়? । 

আমর! ছু-একবার বলতে চেষ্টা করেছি-_ 
গুদের লেখ! বেশীর ভাগ সময়েই ব্রীতিমত শক্ত 
আর অনেক সমদ্ধেই পুরাতন, পড়তেও 
আনেক সময় লাঁগে। উনি বলতেন--«কাঁন 
গ্লোলমেলে ব্যাঁপারের সত্যিকারের রাহা বদি 
চাঞ্। খুঁজে বের কর--কর্তারা কি বলেন। 
আর হদি তাতেও সন্তরি দা আসে, তবে নিজে 
কোমর বেধে 'লেগে বাগ । | 


জ্ঞান ও বিজানম 


[21 ব্য, 9য় সংখ্য। 


[এই প্রসঙ্গে একটা কথ! মনে পড়ে গেল 
আইনস্টইনকে উনি প্রায়ই 'বড়কর্তা' বলতেন। ] 


বিশ্বাসে বিশ্বাস ? 


বছর দেড়েক আঁগে 1972 সালের এপ্রিলের 
মাঝামাঝি | শ্বতন্ফের্ভ অবস্থাস্তরের (500730810৩- 
0993 6812316192) ব্যাপারে নিজের অন্থপপত্তি 
মেটাবার জন্তে মাষ্টার মশায়ের সঙ্গে আলোঁচন! 
করতে উর বাড়ীতে গিক্সেছিলাম। আমার 
বক্তব্য শুনে উনি গর অভিজ্ঞতা জানিয়ে 
বললেন---.দ্য।খ ছুনিয়ায় বেশীর ভাগ লোকই 
“বিশ্বাসে বিশ্বাশ' করে চলে। তুমি ধরি বল 
তোমাদের বিশ্বাসে আধার বিশ্বাস নেই-- 
তোথধাকে পাগল বলে এক পাশ করে রাখবে, 
ব্যাস-মিটে গেল কের্ডন। আগপল কথ! কি 
জানিস--গুধু বিশ্বাপট! নড়বড়ে বললেই বা 
স্টংখালেই চলবে না, সেখানে নুত্তন শক্ত ভিত 
গড়বার চেষ্টা করতে হবে । 

[ একথা বলা অশ্রাপঙ্গিক হবে লা বে, 
প্রশ্নটা গুর ভাপ-রশ্মিবিকিরণ ছত্রের (01551025917 
[২৪18007) 7075) উপর দ্বিতীয় গবেষণা 
পত্রের বিষয়বন্তর সঙ্গে আঙ্গিকভাবে জড়িত 
ছিল। ] 


৫ ১] 
চা স৮৮006-8000605 502086210 


দ্বিতীয় দশকের শেষ থেকে তীয় পদাথ- 





১০8 
বিদেরা! ভেবে এসেছেন ৫০ যেটা 


সংখ্যা যা (0)10021)5101)-1698)স্কোন অহজ 
এবং সাধারণ পুত্র থেকে আসবে। অনেকে 
এই বিবছে চেষ্টাও করেছেন। . এই প্রসঙ্গে উনি 
আমাকে প্রাহই আলোচনার মাধামে বলতেন 
(1946-47),--*কো়্ান্টাম বিভাগ (02815000 
12603817109) বিছ্াচ্চম্বক কজেত্র (16০৫০. 
10987600 5610) কোয়ান্টাকরশের (355565) 
পর ক্ষেত্রীক্ন অংশের পরিচালকের (028:5:58) 


একট! 


মা6, 1974] 


টি 


ছয়ে আসে। উনি 


এ লিয়ে অনেক চি করেছেন মনে 
হতে! । আমি একদিন একট! প্রশ্ন তুলেছিল ম--- 
গার! আপনি এই চলতি পদ্ধতির অর্থাৎ 


75108116077121-ঞয় মধ্যেই 2. খুজছেন, 


কিন্ত মূল চুত্রগুলি (92510 61:601:163) বদি 
ছয়ংসম্পুর্ণ (010560) না হয়--তবে ওর মধ্য 
থেকে এটাকে পাওয়া যাবে কি?' উত্তরে 
বলেছিলেন-“তোর কখার ঠিক প্রতিবাদ করতে 
পারছি না। আমারও মাঝে মাঝে সন্দেহ জাগে, 
কি মনে হয় জানিস--বদি সত্যিই ওর মধ্যে 
থাকতে! তবে বের হয়ে ষেত। 


গুণক পরিক্ষার তাবে 





দু আস্থ। উনি খমাঁকে 
৮ 
আমাদের প্রাককতিক 


এবিষয়ে গু 


বার বার বলেছেন--- চে 
এবং জ্যামিতিক লংযোজন। (00171650615) 
থেকে আসবে। যেমন ভ্াথ ল প্রথম পেলে 
ভুমি বুদ্ধের ব্যাস পরিধি ও সেত্রফল থেকে-- 
কিন্তু গর প্রকৃত তাৎপর্য বোঝা গেল- 
ঠ905060060651 সংখ্যা হিসাবে এবং ওর মান 


বের করা হলে! আপাতদৃষ্টিতে তিক পদ্ধতিতে ।” 





তুরীয় অবস্থা? ৃ 


কোন বিষ বই থেকে ৰা মুল গবেষণা- 
পত্র খেকে পড়ে লেখকের বক্তবা পরিক্ষার বোঝা! 
যাচ্ছে না বা গুর নিজের মনোমত হচ্ছে ন। 
বুঝলেই বলতেন--'আরে ও তুদীক্স অবস্থা ন 
হলে বোঝা বাবে না। এর ্ুধোগ আম 
একবার বিশেষ উদ্দেগ্ত প্রণোদিত হয়ে নিয়েছিলাদ। 


স্থান--বোশ্বাইয়ের কোলাবাত ওঁর ঢাকার প্রাক্তন 
ছাত্রের বাড়ী। সকাল বেলায় এস্রাজ নিয়ে 
বসেছেন, ঢুকতেই বললেন--শুনবি । আমি এ 
প্রথথ খর বাজনা গুনি। পরে কথ! প্রসঙ্গে 
চাকা বিশ্বহিস্তালয়ের কথা ওঠে-জামি আসে 


মাষ্টার মশায়কে যেমনটি দেখেছি 


133 


আত্তে ভাপ-বিকিরণ হজের ন01611051 28315 
008 10750915) কথা তুলতে চেষ্টা করি-বাতে 
গর প্রযাঙ্ষ শৃত্রের (61500]28 18) উপর গর 
গবেষণাপত্রধানার পথ্দ্ধে স্যোগ বুঝে প্রশ্ন 


করা যায়। ওর ভাল মেজাজ দেখে-সকখান্ 
সী 
কথায় বললাম---সার টচএগ কে লোকে 


আগে বেশ বুঝতো ছবি একে-ইথারে স্থিতিলীল 
কম্পন (50961010915 ৮৪৮০) মাত্রা ইত্যাদি 
ভেবে--জার্মানর! গালভর। নাম দিয়েছিল--6 
ঢ:511581520506 063 10662 (ইখাযে স্বাধীন 
সঞ্চালন মাত্রা )--আপনি তো! ওকে তুনীশ্ন অবস্থার 
তুলে দিয়েছেন--'011459 সেলের সংখ্যা । সঙ্গে 
সঙ্গে উনি উত্তর দিলেন--আরে আরে বলিস 
কফি! ওটাই তো মোক্ষম ব্যাপার--ওটার 


(৬৮৮৮) এ নূতন অর্থ বের করবার পর 


ব্যাপারট! আমার কাছে পরিফষার হয়ে গেল 
যে--01)855 সেলগুলিই হচ্ছে সুল কথা--এখন 
বণ্টন (10151100810) ওদের (01)95০ সেলের ) 


উপরই ভাঁবন্তে হছবে। (৮ না, রে -এর 


ব্যাখ্যা গুর মূল গব্যষপাপঞ্জের নি অন্চ্ছেদের 
শেষ অংশ মাত্র-লেখকের মন্তব্য)। ন্ুৃতরাং 
পরের অংশটা €এঁ গব্ষপা-পত্রের ) শুধু 'আক 
কষ!, বার এখনকার নাষ সমবাক-সংক্রাস্ত সমস্যা 
(00100117910119] 019610109)1 

বোশ-সংখ্যারনের সম্পূর্ণ নৃতন ধারাতে উনি 
কেষন করে ধাপে ধাপে অগ্রসর হুঙেছিলেন”- 
সে কথ! ওর মুখ থেকে শোনবার ইচ্ছা! ছিল। 
অনেক দিন চেষ্টা করে পারি দি--পেদিন গর 
কথ! গুর মুখেই শোঁনলাম। 

এই প্রপঙ্গে একদিন কলকাতান্ব (1946) 
বোপ-লংখ্যায়নপ-যাকে উনি আমাদের কাছে 
সব লদরই (মাত্র একবার বাদ) 35750550010 
98561500$ বলতেন-সসম্পর্কে কথ! উঠতে উনি 


নৃতন 


154 


বলেছিলেন-+156% 318050103ট1 কিঃ তা জানিস 
সপ"৫4৯ 56980156108 0৫] 58065 1, 


“বাস চলে গেছে: 

1947 সালের প্রথমের দিকে, বিজ্ঞান কলেজে 
গর খরে আমর! অন্দেকে বসে আছি। ছআ।লোচন। 
হচ্ছিল কোন্ান্টামবাদ (309800900 ]০০1)91108) 
ও আপেক্ষিকতা বাদ (1২61201%16 7106019) 
পিগ্নে। আমাদের মধ্যে একজন মন্তব্য 
করেছিল-্পার 501)1934117651 601396101-এর 


উপযোগিতা হদূর প্রসারিত, কিন্ত ই থাকবার 


জন্তে এটাকে সাধারণভাবে আপেক্ষিক অপরি- 
বর্ডনলীল (২6198611305 10528119170 ভাবা 
যাচ্ছে না । কিছুক্ষণ ভেবে উনি উত্তর দিয়েছিলেন 
£সেটা বোধহয় অপন্তব হবে না! তোর অস্থবিধ! 


ধ্যাজ ও বিজান 


[27তথ বর্ষ, ওর শংখযা 


লাগলে তুই সময়ের (11756) পরিবর্তে লমক্- 
অচন্ধপ ভর (11006-116 573110906) ভেবে এগ্ডতে 


পারিস ।+ 
আবাদের মধ্যে তখন কারও জান খ 


চিন্তাধারা ততটা গভীর ছিলন। যে, ওর এই 
উক্তির গভীর তাৎপর্য বুঝে নিয়ে সেই হু ধরে 
অগ্রপর হুবে!। 

এখানে বলা অপ্রাপঙ্ষিক হবে নাষে, পরবর্তী 
কাপে দেখেছি, ঠিক এই কাজটা এবং একত্র 
ধরেই জাপান্তের তত্র পদার্থবিদ 5. 107200888 
করেছেন, এ শময়ের সামান্য কিছুদিন আগে এবং 
এই কাজের জণ্তে নোবেল পুরস্কারের অংশীদার 
হয়েছেন। কিন্তু জাপানী ভাষায় (1943) ওর 
(7০700158£8) গবেষণা-পত্র বা তার ইংরেজী 
অন্বাদ (1916), ছুটই তখন আমাদের সকলেরই 
অগোচরে ছিল। - 


সত্যেন্দ্রনাথ ও বোস-সংখ্যায়ন 
শিরিজাপতি ভট্টাচার্য 


জান ও বিজ্ঞানে'র সম্পাদক শ্রদ্ধেক্ন শ্ীগোপাঁণ” 
চা ভট্টাচার্খ সত্যেন্্রনাথ সম্বদ্ধে কিছু লিখতে 
বলেছেন। আজ তার লঙ্বদ্ধে লেখা আমার পক্ষে কি 
পীড়াদায়ক, ত সমূহ ব্যক্ত করা অসম্ভব । 67 বছর 
আগে, প্রা বাল্য ক্কীর সঙ্গে আমার বদুত্ব 
স্থাপিত হু ও ত! এক অতুল অস্তরঙগতারর পূর্ণতা 
লাভ করে। বাল্যপ্রণক্বের কি যছিমা, কি 
মাধুর্ব, সে প্রপয় কখনও ক্ষীণ দিশ্রভ হয় না। 
আমি হয়েছিলাম সেই ছুর্পভ রদ্ষের এক অধধিকারী। 


এই বন্ধুত্ব সুরু হয় খন আমরা উভয়েই ছিলাম, 


হিন্দু ক্কুলের ছাত্র । সত্যেন্্র ছিলেন আমার চেস্বে 


এক প্লাপ উপরের হার! কিন্তু উপর ক্লাসের, 


ছা হলে নীচের ক্লাপের হাতের প্রতি যে এক 


অবজার পাধারণতং সঞ্চার হর, সত্যোনের তব] 
ছিল না। যেপিন বন্ধুত্ব স্থাপিত হয়,সেই দিমই 
তিনি আমার সঙ্গে চলে আসেন আমাদের 
বাড়ীতে, বাগবাজারে। সেই দিন থেকেই 
আমার মা হয়ে গেলেন তারও মা) আর জানি 
তার সঙ্গে তাঁদের 22নৎ ঈশ্বর মিল লেনে গিকে 
ভার. মাকে আমার মাতৃণদে বরখ করে এলাষ। 

আমার মত অন্তরঙ "তার বন্ধু-লংখ্যা! ছিল 
পাশের উধ্বে” শতাঁবধি হতে পারে! ভার 
জীবনের একট। উজ্জল দিকই ছিল বন্ধুগ্রীতি। 
প্রপান্তচঙ্র মছলানবিশ, ধূর্জটি্রপাদ, সুধীজনাথ, 
নীরেজনাথ, গিলীপকুষার রায়, অতুলচজ গুগ, 


ডাকার পপ্জপতি ভট্টাচার্ধ, বামিনী রা, বিষু। থে 


নাচ, 1974 ] 


জীবনভার] ছাঁলদর, রাধারমণ মিত্র, তক্তিপ্রসা্ 
মঙ্মিক, ডউর বিষুঃ মুখ।জীঁ, ডক্টর জআনেশ্রলাল 
ভাছড়ী-্কত লোকের নাম করবো।--ার অস্তরজ 
বন্ধুর গন্তর্গত। সতীর্ঘদের মধ্যে হলেন ড্র 
মেঘনাধ সাহ।, সার জানচন্দ্র খে!ষ, ডকউউর জনেঙ্- 
নাথ "মুখার্জী, ডাক্কার সুনীল বোঁপ (নেতাজীর 
আত ), মাশিকলাল দে, গৌনীপতি চ্যাটার্জী, 
ইত্যাদি। ন্থীন্ বন্ধু হোঁক, সতীর্থ হোঁক পরিচিত- 
জন হলেই ভিনি স্ভাকে একেবারে আপন করে 
নিতেন। একবার তাঁর সঙ্গে পরিচয় হলে তার 
ব্যবহারে ও মর্মম্পশিতার মুগ্ধ না হয়ে পারতেন ন!। 
অতি দীর্ঘকাল তার লক্ষে আমার বন্ধত্ব-নালাঁপ- 
আলোচনায় কত প্মরর অতিবাহিত হক্েছে। 
কখনও আমি তর মুখে কারুর সম্বন্ধে কোন 
ঝচ মন্তব্য বা নিন্বাবাক্য বলতে শুনিনি । তিনি 
ছিলেন প্রক্কত অজাতশক্র ) বালকের মত শ্বতাঁব, 
লাজগোজ-পরিচ্ছদ সব্ঘদ্ধে উদাপীন, ধনসম্পত্তি ও 
সন্ম/নল/ভ সম্বন্ধে নিশ্পৃহ। তার ঈশ্বর মিল লেনের 
বাড়ীতে প্রতি শনিবর বিকেলে একটি ঘরোর! 
টবঠক হতো-_শাঁমি সুরু করেছিলাম চৌল বছর 
আগে। কতজ্ানীগুণী লোকের সমাবেশ হতো 
পদ্ধার্থবিদৃ, রাপাকমিক, ভূতত্ববিদ্‌, প্রাণীতত্ববিদ্‌, 
ভাষাতত্ববিদ্‌, প্রপ্গত্ততৃবিদ্‌, ডাক্তার, শিক্ষাবিদ, 
এতিহাপিক, সাহিত্যিক, কবি, লঙ্গীতবিদ। 
সকলেরই ইচ্ছ। ভার সঙ্গে ত্ব স্ব বিষয়ে কিছু 
আলোচনা করেন, কিছু শমন্যাক্কগুন করে নেন। 
গভীর মনোগযোগ দিগ্নে তিনি শুনতেন সকলের 
কথা ও তাঁদের বার বা প্রিজশ্ত তার সমাধান 
করে দিতেন। বন্ততঃ তিনি শুধু পগার্থবিদূ 
ছিলেন না, তিনি ছিলেন প্রা সর্ববিষ্নবিদ। 
এর উপর তিনি ছিলেন সুরপিক, সুলেখক, যরমী 
ও মানবদরদী। দানও ছিল তার সংখ্যাতীত--- 
যা খাকতো অপ্রকাশ। এ ছাড়। ডিনি ছিগেন 
কাব্য, গু. সাহিত্যরপিক, ' সঙ্গীতপ্রি। তার 
শিক্ষকত। ছিল আদর্শ ও অবিদ্দরণীর। তীর 


সত্যেজ্জনাথ ও বোস-নংখ্যায়ন 


' -্ভাঁই বোন মাবাবা সকলের সঙ্গে । 


198 


ইংরেজী € নাঁংলা রিচনা রসশৈল্যে, স্েহডণে ও 
প্রাঞ্জল্যে প্রোজ্জল। ভিনি যেদন জীবনের সুবৃহৎ 
অংশ পদার্থবিস্কা ও গণিষ্ত শিক্ষকতা গ গবেষণাক়্ 
এবং গবেষপাঁর প্রেরণাঁদাঁনে নিক্গোজিত ছিলেন, 
তেমনি গবেষণার জন্তে বৈজ্ঞানিক বছাদি 
উদ্তাবনাতও ভিনি ছিলেন পারদশ | 

কিন্তু জীবনে তার মহস্বণ কত মাতৃভাবা? 
মাধামে সর্বস্তরে শিক্ষাদান গ বিজ্ঞান প্রচারের 
প্রচেইা-ৰলা বেতে পারে অতিবান। "আন ও 
বিজান' পত্রিক। প্রকাশ ও বঙ্গীক্ধ বিজ্ঞান পরিষদ 
গঠন আর বঙ্গীয় বিজ্ঞান পরিষদ ভবন নির্মাণ তর 
স্বোন্তধৰ কীর্তি॥ নিদর্শন । জীবনের 25-26 ৰা 
27 বছর ভার এজগ্ে চলেছিল একনি অক্ান্ত 
উদ্ভম। 

তর স্কুল ও কলেজ জীবনের কিছু কথ! এখানে 
আমি বলবো--কেন না, ষে সকল গুপাবলীর কখ। 
উল্লেখ করলাম তার অধিকাংশেরই উন্মেষ হয়েছিল 
সেই কালে। 

বন্ধুর সঙ্গে দেখা কণা ও নভভুন বনুত্ব স্থাপনের 
উদ্দেশে কলকাতার এক প্রান্ত খেকে পাড়ি দিতেন 
আপরপ্রাস্তে পাবে হেটে! বালিগ্জ পর্ধস্থ ইাম- 
লাইন পন্প্রপারিত হয় নি, বাস চালুহুন্ন নি। 
একজন বন্ধুকে সঙ্গে এনে পর এক বন্ধুর পঙজে 
আলাপ করিয়ে দিতেন। ধর বাড়ী গিয়ে বসতেন 
তার বাড়ীর সকলের সঙ্গ ভার ছিল আত্মীগ্নতা 
আমাদের 
বাড়ীতে--1হনখ হরলালমিক্র স্ীটে এলে আডও। 
বলতে 4-5 ঘণ্ট1, কখনও কখনও দিনভ্ভব. সন্ধ্যা 
উত্তীর্ঘ হয়ে যেতো] | মা খাবার ও চ1 তৈত্ী কঙ্গে 
এনে সকলকে খাওয়াতেন। আমাদের বাড়ীতে 
এলে সঙ্চোন সঙ্গে নিবে আপতেন হারিৎকফ দেব, 
বূর্জটপ্রসাণ সুখুযো, হুরিশচজ দিংহ প্রভৃতিকে। 
আ'ঘার "দাদার বন্ধুরা -যামিলী রায় হরিপদ 
মাইতি, ছব্প্রনাদ লান্তাল ও আমাদের আাক্ীর 
তূপতিভূষখ ভষ্টাচার্ধ, যোগ দিদ্ধেল।. হিজল, দর্শন। 


136 


ধর্মতত্ব সঙ্গত, বঙ্বিচ্ছেদ, ইংদেজ শাসন উচ্ছেগ, 
শ্ীরবিশ্ব, বারীন, বোন।র মামল। ইত্যাদি এমন 
কোন বিষন্ন ছিলনা, ব। না আলোচিত হতে || কিন্ত 
এর মধ্োঞগ্জ সত্যেন অথার পণাথবিগ্ঠ।,। রলায়ন, 
অন্ত প্রভৃতির বই নিবে বসে পড়া ধরতেন ও 
বুঝিক়ে দিতেন, ন। পারলে কষে দিতেন। হুরিশ, 
নারেন। ধূর্জটপ্রণাদ, দিলীপ সকলকেই ভিনি 
পড়াতে ভালব।লভেন। সেই সময়ে মাণিকতলা 
মেন রোডে কেশব আযকাভেমিতে কয়েকজন 
দেশপ্রেমিকের চেষ্টার যার! দিনমন্ুরী করে খার, 
তাদের জন্তে শ্রধজীবী নৈশ বিষ্কালয় খোল! 
হন্দেছিপ। তাদের সঙ্গে সত্োঙ্রের যোগস্থাপন 
হয়েছিল। সত্যেন, হরিণ, নীরেন ও আমাকে 
ভূটয়ে নিয়ে গেপেন রাজে শ্রদঙ্গীবীদের পড়াতে। 
শিক্ষার দ্বার। জনলাধারণের-এমন কি, মুটে- 
মজুরের উন্নতির চেষ্টা! সত্যেনের সেই কিশোরকল 
থেকেই মজ্জগত। 

সঙ্গীতের প্রতি আকর্ষশণও দেখেছি আমাদের 
বাড়ীতে বখন আসতেন তখন থেকে। আমার 
পাদ পঞ্জপভি ডাক্তার গান করতেন, রবীন্দ্র লঙ্ীত 
গাইতেন)--"ওছে সুন্বর মম গেহে আজি”, নয়ন 
তোমার পান না দেখিতে”, “কমল বনের মধূপ 
রাঙ্গি', “দড়িতে আছ তুমি আমার", “অনেক 
কখ। করেছিলাম”, “তুমি কেমন করে গান কর 
বেগুনী”) “পে কেন বণের হরিণ ছিল" 
ইত্যাদ। তার ছিল অভি সুমধুর গলা আর 
গান গাওয়া শিখতেন ম্বং কবিগুরু ও দীহ 
ঠাকুরের কাছে। দাদ। একট! কটেঞ্ পির়ানে! 
সংগ্রহ করেছিলেন! কখনও তাই বাঁকে, 
কখনও হারমোনিয়াম বাঁজিগ্ে গ।ইতেন। হিন্কৃঙ্থান 
মিউজিক্যাল তার ছু'খানি রবীন্্র সঙ্গীত রেকর্ড 
করে বাজারে ছেড়েছিল। হাহিথ্কফ গান 
করতেন. ড়াও আমার আবি আগে”, 
“তোথার আলীমে মম প্রাণ লগে” “দিবস রক্গনী 
আমি যেন কার আঁশাহ আশার বাকি”, "বারী 


জান ও বিজ্ঞান 


[27তম বর্ষ, ওয়সংখ্যা 


বাজাতে চাহি বাশগী বাছিল কই”-ইত্যাদি | 
রবীজনাথের প্রথম যুগের রচিত ও গীতাঞপির 
গান। . একদিন সত্যেন এক এম্রাজ সংগ্রহ কে 
অনলেন--খনগ্ত চক্করতাঁ নাষে তার এক বাল্য" 
বন্ধু বোগাড় করে দিয়েছিপেন। তাতেই-কিছু 
অনভ্ভবাবুর শিক্ষকতাক্ব, কিছু এশ্রাজজ বাজানোর 
বই কিনে ও তাই দেখে রাগরাপিনী ছুরত্ত করে 
ফেললেন। তার পর তার মাথার এলে। নতুন 
কিছু রাগিণী টত্তরী করতে হুবে, ব| বিশ্তধান রাগ- 
রাগিণী ভেঙে হবে না--শব্-শান্রলন্মত জুর়ের 
পর্দার সংযোঞ্জন করে রচিত হবে। এই ভাবে 
তৈরী করলেন এফ রাগিণী--কফিছুট। ভীমপলশ্রী 
ঢংএর। আমর দাদ সেই নুরে বলামো একটি 
গন রচন! করে দিলেন। পেই গানও বিলুপ্ত, 
রাগিনীটও বিস্বভ। যা হোক সেই পুরনো 
এন্।জটি এতাবকাঁল বরাবরই সবঙ্গে নুরক্ষিত 
ছিল, পত্যেম্র আজীবন বাজিয়ে গিপ্সেছেন। এ 
সকল সবিস্তারে বলবার আমার উদ্দেষ্টঠ, কিশোর 
জীবনে সত্যেশ্রের যেসব টৈশিষ্টের উন্মেষ হয়ে 
ছিপ, পরিণত বন্ধণে তা! পুর্ণগা লাত করে। 
সত্যেঙ্গের অনগ্লাধারথ মেধার কথা ম্পরি- 
জ/ত।| ক্কুপ-কলেছ্েে পাঠকালে তিনি যে বহদের 
বাড়ী গিপ্ে এত লবঙ্গ অভিবাহ্ত করতেন, 
ঘণ্টার পর ঘণ্ট| ধরে, 'ক্যারাম', খেলতেন--দাবা” 
বেড়ে খেলতে ৪ খুব নেশা ছিল; তা পুরণ করতেন 
গভীর রাজি পর্যন্ত পড়াগুনা করে। বিজলী-বাতি 
ছিল না! তখন। অনেক গৃহগ্থের বাড়ীতে ওখন 
আলা হতে] কেরোপিনের। কৃাধিকেদ লুঠন। 
সত্যেন পড়তেন রেড়ির তেলের প্রদীপের 
অ(লোক্ষে। প্রদীপের আলোতে পড়েই তিনি 
এট্টণলে পঞ্চ ও তাঁর পর এম. এল-পি পর্যন্ত 
বরান্বর প্রথম স্থান ক্গখিকান কণেন। হিন্দু কুলে 
পড়বার লয় গশিভ-শিক্ষক উপেন বকী মশাই 
নাদের রাশে একদিন আমদের বললেন বে, 
উপধ্ের ক্লাশে একঙন বড় প্রতিভাবান ছা 


মার্চ, 1974 ] 


আছে, নাম সত্যেন বোপ। তাঁকে তিনি অঙ্কের 
উত্তরের খাতান্ন 100-র ভিতর 110 দিয়েছেন?) 
পে কয়েকটি অঙ্ক একাধিক পদ্ধতিতে কষেছে 
বলে। আর পেই সঙ্গে তবিষ্য্বাণী করলেন, 
সত্যেন কালে একজন [:31702+ 08130105 তুল্য 
গশিতব্দ্ হবে। প্রেপিডেন্সী কলেজে ভঠি হয়ে 
প্রথম শ্রেণীর ক্লাসে লেকৃগাত্রেত্ সমন আচার্ষ 
প্রফু্নচন্দ্র তকে দ্বীয় টেবিলের পাশে একটা টুলে 
বসতে দিতেন; গ্যাপাদিতে থাকলে তিনি 
নানা [বধ কুটিল প্রশ্থ্ে অধ্যাপককে বিব্রঠ করবেন 


এই আশঙ্কার । এখানকার শান্ত নর শ্নেংশীল 
আচার্ধ সত্যেন্রনাথের সে সমগ্ষে নানাগকম 
ছুষ্টামী ছিল। আচার্ধ প্রফুল্লচন্র ছাড়া আরও 


দু-জন কলেঞ্জ অধ্যাপকের দৃষ্টি আকর্ষণ করেছিলেন 
সতোঙ্র তর অলামান্ত মেধা জন্কে। একজন হলেন 
ইংরেজী ভাষার অধ্যাপক প্যানিভ্যাল, অপর 
একজন হলেন পদার্থাবছার অধ্যাপক সুরেন্্রনাথ 
মৈত্র। 

বে সময়ের কথা আমি বলছি, সে সময়ে 
পড়াশোনায় যেমন ডিশি ছিলেন অগ্রলর, তেমনি 
ছিল তার বিস্তার। সব ক্লাসেই তিনি সে ক্লাসের 
পড়! সম্পূর্ণ করে আগের ক্লাপের পড়াও রণ 
করে রাখতেন! এমন কি, আগের ক্লাসের ছাত্র- 
বন্ধুকে পড়িয়ে তৈরী করে দিতেন! বখন িশি 
সবে বি. এপ-পি ভূতীন্ শ্রেণীতে উঠে.ছন। তখন 
ঢ০০0-এর 09161216305 0905155 ও 1২141 
[95228127105 শেষ করা হয়েছে । মেগুলিফ রচিত 
রসায়নের ছু-ভ্যলুবঃ বিনি পরম।ণুধ পর্বাক্-সারণী 
রচন। করেছিলেন--পড়ে শেষ করেছিলেন। আমা- 
বের বাড়ী যখন আসতেন তখন একদিন বললেন 
ঘ মাকে, একট টেলিক্ষোপ বানানে! যাক, এসেো1। 
আমি খুঁজে দুটি কুজপৃষ্ঠ মাগনিফায়ার লেস কিনে 
আনলাম ও এক টিন-খিদ্রীকে দিকে চোঁডা বানিয়ে 
টেলিক্কোপ খাড়া, করলাম। তারা বিবর্ধন 5-6 
গুণ হয়েছিল, (কিন্ত লেজ জপরিশোধিত হওয়াতে 

রী 


সত্যেজ্জনাথ ও ০বাস-অংখ্যায়ন 


19? 


বি অন্পই দেখাতে] আর একদিন একটা 
পকেট ইলেকটিক বাতি এনে বললেন, ওর 
ব্যাটাবীট! বিনষ্ট হয়ে গেছে. একটা ব্যাটাগী তৈরী 
করে বাঁতিট! জাঁপাতে হবে। মশলা জোগাড়- 
পাতি করে এনে মাটির খোল বানিয়ে ব্যাটারী তৈরী 
কর! গেল, আলো ও জগলো, কিন্তু নিশ্রাভ ও আল্ল- 
স্বারী হলো। আর একদিন তাই প্রস্তাবে পাথুরে 
কন্পল! একটা বড় ভাড়ে নিযে খুবি ঢেকে কাদ। 
দিয়ে লেপে ও তাতে ফুটো করে একট! কাচের 
নল লাগিকে ভড়টার নীচে আগুনের জল দিয়ে 
কোল গ্যাস শিক্ষাশন করা গেল। তার মুখে 
দেশপাই জেলে ধরলে গ্যাস জললো।। সত্তরের 
কিশোর কালের যাঙ্জরিক প্রচেষ্টা--পনে তিনি বখন 
ঢাকার ও কলকাতা সাফ়েল কলেজে অধ্যাপণ! 
করতেন, ৬খন তার স্থীক্ন ও সহকারীদের গবেষণার 
প্রশ্নোজনে উদ্ভাবিত ও নিমিত বস্ত্পাতির সুচন] 
করে। বিশেষ করে ছুটি বস্ত্র নির্মাণে কথ 
আমার- জান আছে। প্রথমটি হলো ৬/15961)- 
৮১৪7 ধাচের একস-রশ্মি ক]ামেরা। এই ক্যামে- 
রার একটা আংশ তরী করে দেবার ভার 
অমায় দিয়েছিলেন, আমার আপিসের কার” 
খানাতে বাশিয়ে তাকে দ্ি। আর একটি বঙ্ 
হলো! ন1)6101)0-118001765051805 508০081 
21590256625 যেটি বিদেশে বিজ্ঞ।নী-মহলে খুব 
প্রশংসা অর্জন করেছে ও সেন্দুপ বস্ত্র তৈন্দী ও 
ব্যবহৃত হুচ্ছে। 

বখন আমি মিশ্র গশিত বিডাগে এম. এস-সি 
পড়ি, তখন গণিত বিভাগের একটি বিশেষ 
মডেল রচনার প্রচেষ্টায় আমার একটু খি্ব 
উপস্থিত ক্ওয়ার় তিনি তান একটা উপাক় 
বাৎলে দ্ধেন £ মডেলটি হলো 0511150:019-এর 
তল। এই তলের মডেল রচনা করে প্রান্ত 
ছুট জুড়তে গিয়ে একটু অসুবিধা হচ্ছিল। সেই 
অন্থবিধ। দুর করবার উপায় দেখিয়ে দেল সত্যোশ্রা। 
মডেলটি তৈরী করে আমার কেনের অধ্যাপক 


138 
0, 8 001115-এর ভাতে দিলে তিনি 
আনন অধীর হয়ে সেট হাতে নিয়ে লেকৃচার 
কামরায় কয়েকবার পাঁ্চারি কার নিজের 
চেয়ারে স্থির হয়ে বসেন ও কি করে আমি 
মভেল্টি রন] কমি জিজ্ঞাসাবাদ করেন । মডেঞ্টি 
প্রেপিডেলী কলেজের 01563৮০6015 ঘরের 
আলমারীতে রক্ষিত ছিল ও প্রত্যেক বছর 
ক্লাসের ছাত্রদের দেখানো হতো । এখন পেটি 
আছে কিনেইজানিনা। 

সতের দ্কুল-কলেজ দিনের কথার (ফিরে 
আঁসছি। সেই সময় খেকেই তাঁর কাব্য ও 
সাহিত্যে প্রবল অঙ্থরাঁগ আল্মায়। রবীস্তরনাখের 
“যেতে নাহি দিব" কবিত। সম্পূর্ণ আবৃতি 
করতেন স্মৃতি থেকে । টেপিসনের "0 10610011008 
কবিত। ও সমস্ত মেঘদুত” মুখন্ব আবৃতি 
করতেন। রবীশ্রনাথের “চঙ্গনিক থেকে পড়ে 
আবৃত্তি করে শোনাঁতেন--বধু, পুত্াতন ত্ৃত্য, 
হৃদয় বমুনা, বর্ষেশষ, সোনার তরী, শ্প্র- প্রভৃতি 
নানা কবিতা। গর একটি বড় প্রি কবিতা 
ছিল 'মরণ-মিলন' ; এখন কানে বাজে সে কবিতার 
আবুতি-বঙ্ক।র_-“তুমি, কারে করিও না দৃক্পাত 
আমি নিজে লব তব শরণ, ষ্দি গোরবে মোরে 
লয়ে বাও,--ওগো!, মরণ হে মোর মরণ” | 

আমার দাদা পশুপতি রবীশ্রনাথের গল্প 
“মেঘ ও রৌদ্র” নিক্ে একটি নিবন্ধ রচন। 
করেছিলেন। সত্যেনকে দিয়েছিগপেন পড়তে । 
তাঁর ছু-চার দিন পরেই আমাদের বাগবাঁজারের 
বাড়ীতে সত্যেন ও বদ্ধুরা জড় হলে সত্যেন 
প্রস্তাব করলেন--এস হাতে লেখা একট] মালিক 
পনর বের কন 'যাক। নামকরণ করলেন 
'মনীৰ1”। সত্যেকরকে আমরা পবাই সম্পাদক 
নির্বাচন করলাম। “মনীষা, চার পাঁচ মাপ বের 
ইয়ে বঙ্ধহয়েগেল। পরেলত্যেত বাংল! ভাষা 
যে “বিজ্ঞান পরিচদ্ধ* পত্রিক1 প্রতিষ্ঠা অংখ- 
গ্রহণ করেছিলেন ও ঢাকা থেকে কলকাত। 


জাম ও বিজন 


[ 29তম বধ, 3য় সংখ) 


এসে 1918 পালে "জ্ঞান ও বিজ্ঞান” পত্রিকা 
আর বহীয় বিজ্ঞান পরিষদ গ্রতিঠ। করলেন, 
তার প্রেরণার উন্মেষ হয়েছিল সেই কিশোর 
কালেই। 

অনেকে মনে করেন যে, 'জ্ঞান ও বিজ্ঞান 
পত্রিকা প্রকাশ ও বঙ্গীয় বিজ্ঞান পরিষদ 
প্রতিষ্ঠা তার মহত্তম কীতি। আমিও তাই মনে 
করি! তিনি গত 26:27 বছর থরে নিরলস 
সাধনায় এই ছুটিকে সঞ্লীবিত রেখে ক্রমপরিণন্তিতে 
অগ্রসর করে দিয়েছেন। জগতে তিনি তার 
উদ্তাবিত 'বোঁপণ-লংখ্যারনের জন্তে কীতিত হচ্গে 
থাকবেন। সপত্যেশ্র কিন্ত তার কীতি ও 
সম্মানের উপরে শ্বাপিত করেন তার দেশের 
মঙ্গলকে। শিক্ষা বিশাবেই রয়েছে সেই যঙ্গল 
সাধনার পথ, ভেদ জান, ছিংসা, দালিজ্্য ও 
টৈন্ক দূর কববার পথ, উন্নতির পথ। শিক্ষা ও 
বিজ্ঞান আপামক় সাধারণের মধ্যে বিস্তার করার 
তার ছিল অচল আস্থা। আর সে বিস্তার 
সাধিত করতে হলে চাই মাতৃভাষার সর্বত্তরে 
শিক্ষা ও মাতৃভাষার বিজ্ঞান রচনা । 

"জ্ঞান ও বিজ্ঞানের প্রাপপ্রতি্ঠ। সময়ের 
আঁর আর একটি ঘটনার বিবরণ এখানে আমি 
দিচ্ছি। ঘটনাটি পরিচয় পত্রিকা প্রকাশের 
লঙ্গে সংলিষ্ট। 

193] সাল, বোধ হন্ন মা্-এগ্রিল মাস 
হবে। তখন সত্যেম্্র ঢাকা বিশ্ব বিদ্যালয়ের 
পদ্দার্থবিস্কা বিভাগের অধ্যক্ষ । কি এক কাজে 
এসেছিলেন কলকাতায়। একদিন ডালছোসি 
স্কোক়ারে আমার আপিসের কামরায় এক অতি 
প্রিকদর্শন যুবককে নিয়ে হাজির । আমার সঙ্গে 
প্রিচক্ন করিয়ে দিকে বললেন, ইনি হলেন সুখীন, 
দত্ত, কবি। তুমি যেমন একপিন কবিগুরুর 
সঙ্গে সমুক্রধাত্রা করেছিলে, ইনিও তেমনি 
সম্প্রতি কবিগুরুর সঙজে লমুক্রাত্রা শেষ করে 
দেশে ফিছ্েছেন।: ছু-জনেই তোমগ! পাহিত্য 


মার্চ, 1974 ] 


রপিক। তোমাদের ছ-জনের মিল জমবে ভাল । 
তোমার আপিসের পাশের কামরাতেই এরও 
আপিস। ন্তুধীন একটা বাংলা ত্রৈমাসিক বা 
মাসিক পত্রিকা বের করতে চায় । তুমি সাহাব্য 
করতে পারবে ৰলে তোমার কাছে এনেছি 
গুঁকে। সত্যেন্্র চলে গেলেন। সেদিন থেকে নুরু 
হলো আমার গাড়ীতে আপিসের শেষে একত্রে 
বাড়ী ফেরা। নুধীন্রদের কর্ণওয়ালিস ট্রাটের 
বাড়ীতে সাঁক্ষাবাপন করে আমি বাঁড়ী ফিরতাঁম। 
সুধী ভার রচিত কবিত1 পাঠ করে শোনাঁতেন | 
কিছু দিন পরে তিনি পাকাপাকি প্রস্তাব করলেন 
পত্রিক! বের করবার, আমার পরিচিত লেখকদের 
ডেকে আনতে বললেন এই জন্কে। প্রথমে আমি 
ডেকে আনলাম নীরেম্রনাথকে। স্থির হলে! 
মাসিক নর, প্রথমে ত্রেমাসিক বের কর! হবে ও 
চলতি পত্রিকাদি থেকে তাঁকে একটা বিজ্তিক্ন 
বিশেষ কূপ দেওয়া! হষে। প্রবন্ধ, কবিতা, গল্প 
ছাড়া গজ করে সমালোঁচন। বের করা হবে- 
শুধু বাংলা সাহিত্যের নন্ন, তাঁৎকাঁলিক শিশ্ব 
পাহিত্যের | আমার উপর তার চাঁপালেন 
সমালোচনা জেখবার একট প্রধান অংশ নেবার । 
নীরেশ্রানাথ পত্রিকার নামকরণ করলেন পরিচয়? | 
তারই সম্পাদকীধ, সভোন্জের লেখা 
£বিজ্ঞামের শঙ্কট', অুধীশ্রের পিতা টৈদাস্থিক 
হীরেজনাথ, সুশোঞ্জন সরকার, বিষুও দেও বুক্ধদের 
রন, ধুর্জটিপ্রসাদ, অরদাশহ্ধর রার, বাীরবল 
প্রভৃতির রচনা, প্রবন্ধ, কবিতাঁদি সম্থলিত হককে 
আমার আক প্রচ্ছদপটে শোভিত হয়ে পিরিচয়' 
আত্মপকাশ করগো বঙ্গান্ 1338-ঞ₹ শ্রাবণ 
মাসে। নুরু হলো পরিচয়ের জয়বাত্তা। পরিচগ্নে 
সত্যে আর একটি প্রবন্ধ লিখে দিক্েছিলেন, 
এআাইনস্টাইন+ নামে 1342 বঙ্গাবে। 

সত্যেত্তের কিশোর জীবনের কথা ও সে 
সমক্নকার আমার বাক্তিগত জীবনের অভিজ্ঞতার 
প্রসঙ্গে ছেদ টানবার আগে আর একট] ঘটনার 


ল্খেো 


সত্যেজনাথ ও বোস-পংখ্যায়ন 


139 


কথ! উল্লেখ করবো, যাতে ভার নিরহ্ক্ার ও 
ওবানিন্ের আলেখা ঠিত্িত হক্স। 

সত্যেম্রনাথের সংখাঁয়নের গবেষণাটি রচিত ও 
প্রকাশিত হুর 1924 সাঁলে। অবধিদিত নেই, 
রচনাটি ক্রিনি পাঠিষেছিলেন আইনস্টাইনের 
কাছে ও তিনি রচশাটির জগ খোঁষশ! করে 
2৪1 ভা 15১510-4 অজবাদ করে ছাপিয়ে 
দেন! এই সুবে!গে সত্যেক্ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় 
থেকে ছু'-বছুরের জন্যে ছুটি নিতে চলে আপেন 
ইওরোপের জ্াানীমহলণে আলাপ-আলোচনা 
জমাতে । প্রথমে আপেল প্যাঙ্জিসে। এদিকে 
আমি আগেই প্যারিশে এসে উপস্থিত হয়েছি 
কদেক সঞ্াহ আগে। অভাঁবনীর সৌভ।গ্যক্রমে 
আমি কবিগুরু রবীআনাথের লহবাত্রী হতে 
কজ্গো থেকে 'হাকুন। মার জাহাজে সমুদ্রধান্রা 
করি। সতোষঙ্র প্যারিশে আমার উপস্থিতির 
কথা জানন্েন না। আমিও তাঁর আ'পবার 
কথা শুনি নি। 17 কুছ্ু সমনার্দে এক মেসে 
তাঁ্তীক় ছাত্রদের এক বাঁসকেক্র ছিল। ডক্টর 
প্রবোধ বাগচী ছিলেন সেখানকার মুরুব্রি। 
তিনি আমাদের উভগ্নেরই জন্তে সেখানে খাকবার 
ব্যবস্থা করেছিলেন। পুরাতন বন্ধুকে নিকটে 
পেয়ে স্ত্যেম্র ও আমার--উভয়েরই মন আনন্দে 
আগুত হয়। অবসর হলেই আমি সত্যের 
কামরার ও তিনি আমার কামরায় চলে আসতেন। 
শত্যেন মাদাম কুরীপ লেবরেটরিতে কাজ 
করতে মুর করলেন। কিছুকাল তিনি লুই ছু 
ব্রগলীর আপন গবেষপাগারেও কাজ করেঞিলেন। 
যে'দনের ঘটনার কথা আম উ্পধ করেছি, 
সে দিন আগের রাত্রি থেকে তীব্র ঠাণ্ডা হাওয়া! 
দিয়ে তুষারপাত আরভ্ত হয়। সকালে উঠে 
বিছানা ত্যাগ করে জাঁনাল। দিয়ে দেখি রাস 
গাছপালা, বাড়ীর ছাদ ইত্যাদি সব বরফে 
ছেয়ে গেছে। শিলাবকির মৃত ঢেলা বরফ নম, 
গেজ ভুলোর মত ধীরে ধীরে উপর থেকে 


140 


নেমে আপে ঘেন হাওয়া ভাঁসছে। আমি 
আপন কামর! ছেড়ে সতোনের কামরার হছরজায় 
এসে বেল বাজালাষ। “চলে এসো ভিতরে”) 
দ00765$ ৬০9৪, বলে তিনি সাড়! দিলেন। 
ভিতরে গেলে বক্গকে--(8100%কে ডেকে ছু" 
পেয়ালা কোকো ও রোল আনতে আদেশ 
দিলেন। বল্লেন বোস, তোমার একটা জিনিষ 
দেব। দেখি না দান্ছের 1015170 0091021030018 
পড়ছেন। চেয়ার ছেড়ে উঠে জার্মান ভাষার 
ছাপানো 4-5 পৃষ্ঠার আষইনস্টাঈন অনুদিত তার 
গবেষণার কপি--20710৮ একটি আমার 
দিলেন জ্ঞার্যান জানতাম না ভাল; বলতে 
সত্যেন সন্দর্ডীট পড়ে ইংরেজী করে দিলেন। 
বিষ্টি সন্ধে আমার জ্ঞান ছিল ভাপাভাস]। 
তবু বোঝপাম সতোোনের উদ্ভাবিত পদ্ধতি একটা 
সম্পূর্ণ নতুন, অতিনব স্ষ্টি। ছাঁপাঁনে গবেষণাটি 
শেষে আইনস্টাইনকৃত মন্তব্য পড়ে শোনালেন, 
আইনস্টাইন বলছেন,-আমি মনে করি বোশ- 
কৃত লমাধাঁন্টি আমাদের উপস্থিত জ্ঞানরাজ্য 
ছাড়িয়ে একটা নতুন পথ উম্মোচন করে দিল। 
আমি অন্ত দেখাবে বে, বোস-প্রদশিত পদ্ধতি 
কয়েকটি গ্যাসের ক্ষেত্রেও জ্রাযোজা। 

পত্যেম্্ আবার দাস্তে পড়ায় মনোনিবেশ 
করলেন । আমি বিল্ম্ছে অবাক হযে ভাবতে 
লাগলাম, মহামতি আইনস্টাইন বলেছেন যে, 
বিজ্ঞানে উপস্থিত জ্ঞানের বাইরে এক অভিনধ 
পদক্ষেপ,-- আর তার রচত্িতা এক নিহিত 
গৌরব বিষয়ে একান্ত অনাসক্ত, উদাসীন ! 
দাত্তে পাঠ শেষ হলে আমি সত্যেন্রকে সঙ্গে 
নিয়ে গেলাম প্যারিসের এক অভিজাত শ্ণৌর 
রেস্তরায়, মধা।হ ভোজনের জন্টে। 

কবিগুরুর সহধাত্রী হয়ে পারিসে এসে 
বিদেশে আমার পুরাতন বন্ধুলীড হক্ষেছিজ, 
তেমনি কবিগুরু তার পুস্তিকা এবিশ্ব-পনিচয়? 
পিখে তা সত্যে জকৈ উৎ্সগর্খুকত করলে বইটি 


জান ও বিজ্ঞান 


নামের। 


[27তম বধ, এর গংখ্য 


আমাকে পাঠিত দেন তার সযালোঁচমার জয়ে । 
এই সম্মানের অধিকারী আমি নই জানলেও তার 
আদেশ লঙ্ঘৰ করা আমার ছিল সাধ্যাতণত | 
'পরিচ্ষেত 1344 বজাবের পৌষ সংখ্যায় আমার 
কত সমালোচনাটি বের হুসু। 

পদার্থ-বিজ্ঞানে ঘে অবদানের জত্তে সক্োঙ্ছের 
জগছ্বাপী খাতি--সেটি হলো বোস-প্টাটিস্টিক্স | 
বাংলার এটি বোপস-সংখ্যায়ন নামে পরিচিত। গত 
1লা জাচয়াদীতে সন্যোন্দ্রের অশীতিতম জন্মদিবস 
ও সেই সঙ্গে বোস-সংখ্যারনের পঞ্চাশ বছর পুতি 
উপলক্ষে কলকাতায় বোস ইনপ্টিটিউটে চাঁঞদিন- 
ব্যাপী একটি সার্জাতিক সম্মেনে অচটিত 
হহ়েছিল। কোঁন একটি ধর্ষের অনুশাসন, দর্শন- 
সুত্র বা বৈজ্ঞানিক সন্কলন উপলক্ষে এই রকম 
সার্জাতিক সক্ষমেলন আমাদের দেশে তো বিরল, 
অন দেশেও ঘটেছে কচিৎ কখনো । বুদ্ধ- 
প্রয়াপের ছু-শ” বছর পরে »আাট অশোক প্রাচা 
দেশের বৌদ্ধ শ্রথপদের আহ্বান করে এই রকম 
সম্মেলন অন্ুষিত করেছিলেন। তণ্টা, কেপলার 
গ]ালিলিও, আইনস্টাইন প্রভৃতির সম্মানার্থে 
এইট রকম সম্পেগন অন্ঠিত হয়েছে কোন 
ক্ষেত্রে 45 শ' বছর, কোন ক্ষেত্রে শতাধিক বছর 
পবে। 

অনেকে প্রশ্ন করেন, সত্ো্রকে কেন নোবিল 
পুরস্কার দেওয়া হুয় নি] ভাকেজ্জ্ঞাসা করলে 
বলতে শুনেছি-আমার ব। পাওনা) ত1 আমি 
পেখেছি। কি অর্থে এ কথা বলতেন ঠিক 
জানি ন। কিন্ত এই কথা অবধারিত যে, নোবেল 
পুরস্কার পেলে ঘে প্রতিষ্ট। লাত হয়, তার চেয়ে 
অনেক বিপু প্রতিষ্ঠা লাত হরেছে তার 
মে নাম কীণ্ঠিত হবে দযাংচচন্জ্র 
দ্িবাকর'। মুত্র দিন তাই আনি আকাশ- 
বাণীতে বলেছি--সতোঙ্রের তিরোখধানে যে 
শৃন্কতা ও ক্ষতি হলো তা অপুর্ণীহ। ' কিন্ত 
তিনি সারা জগতের সম্মান, শ্রদ্ধা ও ভাল- 


মার্চ, 1974] 


বাসার শীর্ষে পদার্পণ করে চলে 
শ্ৃঙুযা নয, মাপ্ররাণ, এ অমরত্ব লাভ। 

বোপ-সংখ]ায়নের সহজ কথাম্গ কি তাৎপর্য, 
তা বোঝাবার প্রবাসে আমি ছুটি প্রবন্ধ আগেই 
লিখেছি। প্রথমটি বের হয় পরিচয় পত্রিকার 
দ্বিতীয় বর্ষের (1339 বাক) দ্বিীত সংখ্যায়, 
দ্বিতীয়টি বের হক্স বিশ্বভারতী পত্রিকার 1364 
বজাব্বের তৃতীর সংখ্যা । বোস-সংখ্যান ধারা 
তাল করে পড়তে, বুঝতে ও অন্ুপাবন করতে 
চান, ভাদের আমি 9০16708 ৮912১১ ]170111315, 
1574 সংখ্যা ও ডক্টর মহাদেব দত্ত কচিত 
“বোশ-সংখাাধন', এই ছুটি পড়ে দেখতে বলি। 
গুথমটিতে ডক্টর বীরেন্দ্র সিং ও ভর্টএ সুদর্শনের 
লেখ! দুটি অতি উৎকৃষ্ট প্রবন্ধ আছে, বাতে 
প্রাঞ্জল করে বোস-সংখ্যায়নের তথা পরিবেশিত 
হয়েছে। 

বোস-সংখায়নের এখানে একটি অঙ্কের শাসন- 
মুক্ত সহজ ব্যাখা! দেবাব চেষ্টা করলাম । 

বিশ্ব-জগৎ আমাদের কাছে বাট্টি ও সমষ্টি 
এই ঙ্রূপে প্রকট | ব্যষ্ট ও সম্টি এই ছুতের ধর্ম, 
আচরণ এক নযর়-ভির তির। বাড়ীর ছেলে 
ও এক ক্লাস ছেলের আচরণ এক প্রকার নয়| 
এক বিশু জল ও কোটি কোট জলবিন্দুতে 
তৈরী মেঘ বা সমুদ্রের আচরণ এক নয়। ছু- 
একজন বা দশ-বিশ জন ফ্োকের পার ব্হ 
লোকের জনতা বা! ভিড়ের আচরণ এক নয়। 
যেখানে ছু-্পাচ জন একত্র হন, পেখানে উদ্দিত 
হয় মিল ও সধ্যত1। কিন্তু ভিড়ে গোঁক হয় 
বিচ্ছিল্ন। বিক্ষিপ্ত, পদদলিতঁ-এমন কিঃ মৃত্যু 
এসে গেখা দেয়। ভিড়ের ধর্ম চাপ হি। 
বস্তুতঃ যেখানেই একের-বাঙির বদলে বহৃর 
সমগ্টির সমাবেশ, সেখানেই বাট্টিধর্মের বদলে 
সম্িধর্মের প্রাধান্ত। টার্গেট শুটিংয়ে, তাঁপ- 
খেলার, বিশেষতঃ [71591 খেলার, বয়স অনুপাতে 
মৃত্যুহার গিশদে সামষ্টিক হিসাবের সার্থকত1| 


গেলেন--এ 


জত্যেজনাথ ও বোস-সংখ্যায়িন 


141 


টার্গেট শুটিং-এ চাদমারির বৃত্গুলির কোন 
বৃত্তে শতকর] কয়টি বুল্টে গিপ্ে লাগলো, ফ্লাশ 
ও পাশ! খেলার দানের গড়পড়তা কি রকম, 
বর্ধন অন্ুপার্ঠে শতকরা মৃত্যু কত--এই সবষ্ট 
হলো অস্থি! সম্্টগত হিসেবের করযেকটির 
উদ্াছরণ দিলাম । বোস-সংখাকনও এক সামরিক 
স্কলন ; অবশ্ট পদাথশিস্তায়। 

বাষ্টিধমী বস্ত্রপিণ্ডের গতিবিধি নিরূপণ সুত্র 
রচনা করেছিলেন গালিলিও ও নিউটন। এই 
সুত্র কপ ও নিউটন উদ্ভাবিত ক্যাল্কুপাঁস 
গণিত প্রয়োগ করে শিভুলভাঁবে নিরূপণ করা 
ঘাক্গ রাইফেল থেকে ছোড়া বুলেট পৃথিবীর 
আ।কর্ধণে টিপের বিন্দু থেকে বিচ্যুত হয়ে কোথায় 
গিয়ে লাগবে! এই রকম-এও নিভূ্িভাতে 
নিরূপণ করা বায় গ্রহগুলি এনট। নির্দিষ্ট কাঁল 
পরে আকাশে কে কোথায় অবস্থান করবে। 
জোর়ার-ভাটা ও ধুথকেতুদের পুনঃ প্রতাবর্তনের 
সময়দিও নিঘুভাবে কষে বেত কা বায়। 
চাদে ও খিভির গ্রহে বে পঞ্ল মহাকাশযান 
পাঠানো হঙ্জেছে, তাদের যাত্রাপথের ও স্মঙ্ছের 
হিসাব-নিক!শ করা হয়েছে নিউটন হুত্াদি 
অবলম্বনে । কিন্তু পদাথবিদদের কাছে সমশ্যা 
দেখ! ধিল গ্যাস নিয়ে । গ্যাস হলে! কোটি 
কোটি অণু সমাবেশ | গাসের আচরণ কি 
অণুগুলির আচরণ দিদ্পণ করে তদের যোগ 
বিচ্কোগ করে বের করা হবে? ক্সসম্ভব। গ্যাসের 
চাপ ও তাপ হলে! অণুসদষ্টির গতি-ভরঘটিত 
ও চঞ্১ৎ-শৃক্তিঘটিত সামষ্টিক অন্ক। স্মগ্তি 
হওয়ায় এই ছুটি প্রকট, নয়তো একক অনুত্র চাপ 
বা তাপ অর্থহীন। গ্যাসের আর একটি অন্থিষ্ 
হলো কোন আধারস্থ গ্যাপ অগুজধের গতাঞের 
অন্ুপাত--10190160000 1 এই গত্যঙ্কাচপাত 
নিরূপণ ব্যাজ গুয়েল পত্তন করলেন ভার লুবিখ্যাত্ধ 
সামহিক হুর? নিউটনের যেমন ব্যষ্টিক হু, 
ম্যান্গুয়েলের তেমনি পামষ্টিক শু। পূর্বেই 


142 


আমি বলেছি পদার্থ জগৎ ব্যহি ও সমক্টি--এই 
স্ৈতরূপে প্রকট। এখন পদার্থে গতিবিধির 
আচরণ নির্ণয়ে পাওয়। গেল গতিশাহের ব্য 
গণিত ও সমহি গণিত। 

কিন্তু এতেও সমস্যার সমাপ্তি হলো না। 
উনিশ শতকের শেষে, বিশ শতকের গোড়ার 
পদার্থবিদ বাল্য হলেন বিকিরণের (1২৪012007)) 
তরজ-টৈর্ঘা অনুপাতে শক্তি বা দীপ্তির বণ্টন 
হাঁর বের করতে । 30102252108 1385৮ 
[61517 7598 প্রভৃতি ধুরদ্ধরের! নিযুক্ত হলেন 
এই কাজে । নানা শুৃত্র প্রস্তাবিত করলেন 
তারা; কিন্ত ব্যবস্থাীরের ক্ষেত্রে গরমিল দেখা 
দিল। 1900 সালে প্র্যাঙ্ক একটি সুত্র প্রণয়ন 
করলেন, যা কার্ধক্ষেত্রে ঠিক মিলে গেল। এটি 
প্রশ্নে প্রযাঙ্ছ একটি প্রকল্প স্থাপন করলেন যে, 
বিকিরণ নিরবচ্ছিন্ন তরঙ্গ নয় বিকিরণ একরকম 
কপিকা-পমন্টি ; পদার্থ-কনিকা নয়--শক্কি-কপিকা, 
নাম দিলেন 0051091 কোরান্টাম প্রকল্পের 
সাছাধা লিচ্কে তিনি যে পদ্ধতিতে ভার শুত্রটি 
খাঁড়া করলেন, তা ছিল তাত্িক আঁচারপু্, 
গৃতরাং আপত্তিকর পদার্থবিদেরা ও স্বয়ং 
আউনস্টাইন চেষ্ট! করলেন প্রাহ্ধ-সুত্রকে আচাঁও নিষ্ঠ 
ফরে ফাড় করাতে । কিন্তু তা ঠিক যত হলো 
না। অবশেষে 121 সালে প্রাযান্ক শুর প্রতিষ্ঠার 
সতোশ্র ষে অঙ্কপাত করলেন, আইনস্টাইন ও 
পদ্দার্থবিদের সর্বহু্টতাঁছীন তাকে শ্বীকৃতি ছিলেন, 
একবাকো তার জয় ঘোষণা করলেন । সতোন্দ্ের 
অবস্থা প্রাথমিক ও প্রধান উদ্দেখ ছিল প্র্যাঙ্ক 
হত্র প্রতিষ্ঠা । কেননা, এট্‌ সুক্বটি কার্ধক্ষে ত্রে হব 
মেলে; আর কোগ্সান্টাম প্রকল্পের প্রবক্ষ প্রমাণিত 
কদেছিলেন আইনস্টাইন 1905 পালে, ০1:০৫০- 
516০01০৫25০ খেকে কলেপ্রাাক্ক সুত্র তো! 
স্প্রতিঠিত হলোই, সঙ্গে সজে এক নতুন 
সংখামনেকর উত্পত্তি হলো। 


ভান ও বিজ্ঞান 


সযা্ক ও অন্যান, 
পদার্থাবাদের মত কষ্টকজ্পন! ও বিপথ অন্ুশতণ না. 


[27তম বর, 2 সংথা। 


করে প্রাথমিক বিবেচনা ও পিদ্ধান্ত অন্হাী 
আলেো(ক-কশিকা--116)6 08769-র জন্তে একটি 
নতুন সংখ্যাক্ষন উদ্ভাবন করলেন। সেই সংখ্যা্ন 
প্রত্নোগে নিষ্কাশিত হলো প্রযাঙ্ক নুত্র। এই নুক্তন 
দ্বপ্রতিঠিত সংখ]াধিনই পদার্খজগতে বোশ-সংখ্যায়ন 
(09০৪৪-368015013) নামে বিখ্যাত। আইনস্টাইন 
সত্যেঙ্ত্রের গব্ষেশাটি পড়ে, বললেন যে, নতুন 
পদ্ধতিটি শুধু কোহান্ট! নয়, অন্তান্থ কশিকা-" 
সমট্রিতেও লাগাঁনে। যাঁর়--ষে হিপিকাম গ্যাসেও, 
তা তিনি অন্তর দেখাবেন! পদার্থবিদ্তায় 
একট! নতুন পথ উন্ুক হলো, নতুন বাঁছ্যে প্রবেশ 
করবাঁর। অনেক নব নব কশিকার দল পদ্দার্খ- 
বিদদের দ্বারে এসে আঘাত হানছিল। ইলেকট্ুন, 
প্রোটন, নিউন্্রন, ডক্টেরন প্রভৃতি, তাছাড়া 
নৈসশিক কণিকারা--মেলন, গ-মেসন প্রভৃতি । 
পদর্থবিদেরা দেখগেন সকল কণিকাই একমাত্র 
বোঁদ-সংখ্যাক়্ন অন্থবর্তন করে না। বোস-"সংখায়ন 
প্রণক্নন্ন করবার সময় সতোঙ্জর লক্ষা করলেন ষে, 
আলোক কোরান্টারা অভিন্ন, একটিকে অপর 
থেকে পৃথক করবার উপানবা চিহ্ন মেই। ভিন্ন 
ভিন কোরাণ্টার চিহ্ন থাকলে তাদের ভিন্ন প্রকোষ্ে 
গ্বান দিয়ে চিহ্যত কর] যার। আলোঁক-কোয়ান্টার 
ক্ষেত্রে সেশ্ুযোগ অবর্তমান। পরে পদার্থবিদেরা 
দেখলেন বে, অগ্ঠান্ত কণিকার বেলার--বেঘন 
ইলেকট্রন, প্রোটন প্রভেদ চিহ্ন আছে। সে 
হলো, 9) বা ঘৃণ | সকল কণিকদেরই গতি 
ও আবর্তন ছাড় ঘৃণা আঁছে। তা আবার ছু- 
রকমের, জোড় সংখ্যার ও বিজোড় সংখ্যার। 
এই তত্ব আগ্ঙফারের পর ডিরাক গু ফেনি 
করণিকাদের জন্তে আর একটি সংখায়ন প্রণক়ন 
করলেন,-নাম হুলো। ফেধি-ডিরাঁক জ্ট্যাটিঠিক। 
ফলে দাড়ালো 'আলোক-কোরান্টা-্যার কোন 
স্পিন নেই বা শুগ্কন্পিন ও জোড়ম্পিন সঘম্থিত 
কপিকার1 বোস-সংখ্যারন মেলে চগে। বাদের 
বিজ্োড় শ্পিন তারা মেনে চলে ফেব্সিভিরাঁক 


মার্চ, 1974 ] 


লংখ্যারন। বছ সংখ্যক খিম কণিক। পদার্থ- 
বিদেরা আবিষ্ধার করেছেন, তাঁদের একত্র করে 
এক বিরাট পদার্থ-আগতের উত্তব হয়েছে আজ। 
বোপ-লংখ্যায়ন ও ফেনি-ডিরাক সংখায়ন 
তাঁদের জগ্তে প্রকট বিধি-বিধান শুত্র উপহার 
দিয়েছে। 

এই কথা আজ নিঃশংসত্ে বলা যায় বে, 
গ্যালিলিও, নিউটন, ম্যাক ওছেল, নীলস বোর, স্- 
ব্রগলী প্রভৃতি সমপর্ধ[ন্কে কীতিত হবে সত্যেশ্রের 
নাম | ও 


পরিশিষ্ট 


যারা আইনইট!ইন অনৃর্দিত বোসের মুল 
গবেষণা ছুট ও হ্বদেশী ও বিদেশী বিখাতি 


পা পর্ব পর ্রকা্তাদ। লপস্প রা পেস শন ৯ জপ 


ক একট] কথ! উঠেছে বে, ডক মেঘনাদ 
সাহা বোপ-সংখ্যান প্রণশননে ইঙ্গিত বা প্রেবুণ। 
দিয়েছিলেন । নন্ধুবর সত্যেনেধ মুখে আমি বা 
শুনেছি জানাচ্ছি! ঢাকাহ সঙ্যে্জ থাকাকালীন 
মাঝে মাঝে ছাত্রদের পরিক্ষা উপলক্ষে সত্যেন্ত্রের 
গঙ্গে মেঘলাদের সাক্ষাৎ হতে] । হলে তাৎকাঁপিক 
পদ্দার্থবিদ্তা সংকাস্ত সমস্যাদির আলোচনা হতো । 
পাউলি উত্ত।বিত নতুন তথ্য 12013 8550610 
নিয়ে আলোচনাঁকালে একদিন মেখনাদ সতো্ুকে 
বলেছিলেন--প্রযাঙ্ক সপ্রকে পাক থেকে উদ্ধার করে 
খ্বপ্রিঠিত একটি উপায়ে কেন দাঁড় করানো বাবে 
না, ত্বনির্ভউর কোন পংখ্যাপনের ভিত্তিতে । এই 
চ্যালেঞ্জ সত্যে গ্রহণ করেন ও তার সংধ্যায়ন 
উদ্ভাবন করেন। শ্ব়ং মেধনাদ পাহাঁর মুখে ঠিক 
একই কথ! আমি গুনেছি। জ্যোতাঁদ হেলি 
নিউটনকে বলেছিলেন--কেপ.লার প্রদশিত গ্রহদের 
বে উপবৃত্ত পথে গতি--তাঁর মূলে সুর্যের আকর্ষণের 
কি হুত্র আপনি বলতে পারেন? নিউটন বলে 
দিলেন। মেখনাদের সত্যেক্্রকে চ্যাজেঞজ ঠিক 
সেই রকৃম। 


সত্যেজনাথ ও বোগ-সংখ্যায়ন 


143 


পদার্থবিদ করুক রচিত গাশিতসত্ঘপিত সংকলন 
বা ভাষ্য পাঠ করতে ইচ্ছা করেন, তাদের 
স্থবিধার্থে নীচে করেকটি গ্রন্থের নাম দেওয়া 
গেল £--- 

1.১. 3055 206) 3010)055 
0020100617)01561917 ড 01770010016, 1. 

(1) “41910170155 


0170126618 199190010050 


06352 874 1101) 


01) ৬৬ ০009616101)66 1016 107 90- 


18117851510 1361 2১175 6256010616 ডভ92 1১0816- 


116, 


2. 48755030901 06768: 35 
1. টব, 591810. 9০05 ঢা ২,958100 3. বৈ. 
৮. 50০7 41121098054 গোয়ো 


91:152.562,50) 
ড2315---1931 

73952 ১6561361553 ০06 10100910179 17 £ 
1318010005 01091209561 01520 10] 

3. ৬৮০৮০ 1$15017911105 ৪170 (0217 
00010116012 35 £1002 78857 012, 
[), 1106 08 19010551055 ৬1০10109 0016191, 

[716 038800010 51810156155 06 13956 7 
015810001৮1 

4.1006 
176 039917001011076015 2 35 17100800801, 
1. 23200. 0100] 5 ভি 05 55 092 0£ 
08010 
051৬2151059 01916200012 81555 ১1932 


[01)551081 9101219681105 ৪৫ 


20610002065] 01711950121) 


[6 771056621-00326 96801568058) 01521) 
(6: ৬1 


আচার্য সত্যেক্রনাথ বন্সু স্মরণে 
অসীম! চট্টোপাধ্যায় 


পয়লা! জানুয়ারী বিজ্ঞানাচার্য সতোঙ্জনাথ 
বন্গুর অগীতিঙতম জন্মজয়স্তী উপলক্ষে সারা বাংলা- 
দেশে--সারা ভারতবর্ষে কিআনন্দের প্লাবন বয়ে 
গেল। শ্রদ্ধা ও শুভেচ্ছা জানাবার জন্ভে শতসহশ্র 
দেশবাপী--আবালবৃদ্ধবনিতা হুর্ষোদয়ের আগেই 
তার ৰাসস্বানে উপস্থিত হয়েছিল! অশীতিবর্ষের 
বিশ্ববিখ্যাত মানবদরদী জাতীয় অধ্যাপককে তারা 
অসংখ্য ফুলের মালা আর ফুলের তোড়। দিয়ে 
পরমশ্রদ্ধ1/! জানিয়ে গেল। গায়ে সাদ শাল, 
পরনে সাদ] পারজামা। তিনি ছিলেন খাটের 
উপরে বসে আর সকলকে জানাচ্ছিলেন সম্ভ।ষণ। 
মুখে তার সরল হাসি। সমবরস্কদের জানাচ্ছিলেন 
প্রীতি ও শুভেচ্ছ!, ছাত্র-ছাত্রী-কিশোর-কিশোরা- 
দে করছিলেন আদর আর বুকভরা আশীর্বাদ, 
যেমন তশোবনের মহন্বি। আটই জানুষাকী পদার্থ- 
বিজ্ঞানে ভার বিশ্ববিখ্যাত অব্দান 'ৰোস- 
সংখ্যায়ন'- পর 50 বর্ষ পুতি উপলক্ষে আন্তর্জাতিক 
সম্মেলন অনুষ্ঠিত হলো । সেই সম্মেলনের উদ্বোধন 
অনষ্টটনে তিনি এলেন এবং বললেন--*বিশ্ব- 
বিজ্ঞানীদের কাছ থেকে আমি আজ এত সমাদর 
পেলাম। আমার মনেহয় আমার বাচবার আর 
প্রয়োজন নেই ।' তিনি সত্যই বুঝেছিলেন বে, 
ভার মহাপ্রক্কাণের দিন সমাগত | দিন কুড়ি পরেই 
তিনি অসুস্থ হয়ে পড়েন। সেই অবস্থার 3]1শে 
জানুয়ারী তার সঙ্গে দেখা করতে গেলাম। 
খিনি কত আশীর্বাদ করলেন--মাথায় হাত 
বুলালেন। তখন কিন্ত সত্যই বুঝি দি তিনি চার- 
দিন পরেই আমাদের কাঁছ থেকে চিরবিদায় 
নেষেন। 

£ঠ1 ফেব্রুয়ারী তাঁর তিরোধানের সংবাদে 


সমগ্র দেশ শোকে অভিভূত হুপ্সে পড়লো। 
চারদিকে এক গভীর শোকের ছাক়া নেমে এলো। 
দেশের জগ্তে, দেশবাসীর জন্যে নিজেকে আছতি 
দিয়ে তিনি অস্তথিত হলেন, বিনিমনে তিনি 
দেশবাসীর কাছ থেকে কিছু পিলেন না।, 

এই মহামানবের সঙ্গে নিবিড়ভাবে যোগহত্রে 
আবার আমার সৌভাগা হবেছিল 1939 সাল 
থেকে । তিনি তখন ঢাঁকা বিশ্ববিগ্ভালয়ের পদার্থ 
বিজ্ঞানের অধ্যাপক । আমি রসাকনশান্ত্রে এম, 
এস.-পি পাশ করে বিজ্ঞান কলেজে গবেষণা করি। 
অধ্যাপক বন্থু তখন মাঝে মাঝে পরীক্ষার ব্যাপারে 
ও নানাকাজে বিজ্ঞান কলেজে আসতেন। রসায়ন 
শার্তের উদর তার প্রগাড় অনুরাগ ছিল শুধু 
অন্থরাগই নয়-তার যথখেই আবদানও আছে এই 
বিজ্ঞানশান্ত্রে। এছাড়া সাঠিতো, সঙ্গীতে ও 
অন্তান্য কলাবিগ্যা় ভার গভীর আন ও অনুরাগ 
ছিল। এম্রাজ বাজাতেন অপরপ। তার এশ্াজ 
শোনবার সৌভাগ্য হয়েছিল অনেকবার । আমি যে 
ঘরে কাজ করতাম সেখানে এপে তিনি ঘণ্টার 
প্র ঘন্টা! থাকতেন। আমণার কাজের সম্বন্ধে 
আলোচনা করতেন এবং নানাভাবে আমার 
কাজের সাহায্য করতেন। একদিনের একটা 
ঘটনার কথ! আমার যনে গড়ে । একট! পদাখের 
রাপাধনিক লংঙ্টেষপের জন্ভে আমার “টিপ.টোফ্যান' 
মরকার হয়। অথচ সংশ্লেষণটি না করতে পারলে 
আমার ডি. এস-লির থিলিস হযে না। এমত 
অবস্থায় আমি জধ্যাপক বন্থুকে বললাম ;-- 
“টিপটোফান না হলে কাজ আর হবে না। 


* বিশুদ্ধ রসায়ন বিভাগ, নিজ বিজন 
কলেজ, ফলিকাত।-9 


মার্চ, :974 ] 


তিনি বললেন, বোধ হয় আমার ঢাকার গবে- 
বপাগরে টিপটোফান আছে। থাশ্ডলে আঘি 
তাড়াতাড় পাঠিয়ে দেব। দিন করেকের মধ্যে 
তিশি ঢাকা ফিবে গেলেন এবং তার ফেবরবার 
সাতদিনের মধ্যেই আমি এ রাপায়নিক পদার্থটি 
রেজিট্টার্ড পোষ্টে পেলাম । দিন করেকের মধ্যে 
আমার খিলিসের কাজ সমাপ্ত হলো। আমার 
কাজের এই সাফল্যে তিনি এত আনন্দ পেকে" 
ছিলেন বে, তা বলবার নয় | পরে তিনি বখন রাজা- 
গুরুপ্রপাদ পিং খয়রা-অধ্যাপকের পদে নিযুক্ত 
হয়ে ঢাক1 থেকে কলকতার বিজ্ঞান কলেজে এলেন 
1945 সালে, তখন ঠার সঙ্গে যোগহ্যত্র আরগ 
ঘনিষ্ঠ হয়ে উঠলো। তার ঘরের আর আমা 
ঘরের মধো ব্যবধান ছিল মাত্র একট! দালান। 
আমার কাজে তিনি যে কত অন্প্রেরণ দিয়েছেন, 
তা বলবার নয় । এরপর অনেক দিন কেটে গেল। 

1927 সালে মাঞ্িন দেশে বাত্রার প্রাক্কালে 
আমি তাপ কাছে আমার ঘর ও যাবতীয় 
জিনিষ জমা দিয়ে নিশ্চিন্ত হলাম। তিনি তখন 
সাহ়েস ফ্যাকালটির প্রেপসিডেন্ট। দেশে কিরে 
দেখলাম তিনি আমার সমস্ত [্গনিষ সবত্বে 
রেখে দিয়েছেন। আমার অন্গপস্থিতিতে অনেকেই 
আমার যরটি দাবী করেছিলেন। কিন্ত তিনি 
সকলকেই বলেছিলেন, “দেখে! বাবা, মেয়েট! 
বিশ্বাপশ করে ঘরটি জম! দিয়ে গেছে। আশি 
কেমন করে ঘরটা হস্তান্তর করি।' ঘরটি ন। 
থাকলে বিজ্ঞান কলেজে আর আমার গবেষণা 
করা কর! সম্ভব হতো না। 1951 পালে একটি 
শিল্প প্রতিষ্ঠান থেকে এমেটিন বিলমাথ আইক্ো- 
ডাইড তৈরী করবার জন্তে অনুরোধ আসে । তখন 
এই রাপারনিকটির দাম ছিপ প্রতি পাউও্ড এক 
হাজার টাকা । সবচেয়ে আশ্চর্ষের বিষয় এই ঝে, 
সান বিভাগের কর্মকর্তারা এই ব্যাপারে কোন 
আগ্রহই দেখালেন লা এবং একটু জারগাও 
দিলেন না। অধ্যাপক বনু তখন বললেন--ঠিক 

5 ? 


আচার্য সত্যেজনাথ বন্ম স্মরণে 


145 


আছে, মাঠে একটা লে টতরী করে দিচ্ছি, 
সেখানে অশীমা কাজ করবে। তত্র এই কথ। 
শুনে এক অধাপক তান একটি থালি ঘর 
কিছু দিনের জন্তে ছেড়ে দিলেন এবং তার ফলে 
50 পাউগ্ড এমেটিন ট*প্গী করা সম্ভব হলো। 

বিজ্ঞষন কলেছ্ে থাকাকালীন বহু ঝড়ের সন্মুপ্ষীন 
আমি হতেছি। কিন্তু অধ্যাপক বনু সক 
সমরেই তীর পক্ষপৃটে আমাকে আশ্রথ পিপ্েছেন। 
1967 সালে অগাই মাপে আমি পিতৃহীনা 
হলাম, আর তার ঠিছ চার মান পবে আমার 
স্বামী চিরদিনের জন্যে খি্দায় নিলেন। এই 
মর্মান্তিক দুঃখের দিনে তিনি পিতার স্থান 
অধিকার করেছিলেন। তিনি তার অপার পিতৃ- 
প্মেছে আমার মানসিক শান্তি দিয়েছেন। 

ভার কাছ থেকে প্রগাঢ় স্রেহ পেয়েছি, 
পেয়েছে আমার মেশ্নে। আমার স্বামীও সেই 
সশৌভাগা থেকে বঞ্চিত হুননি। তার সঙ্গে 
সকলের এক অদ্ভুত আত্মিক যোগ ছিল। তাই 
সকলকে তিনি আপন করে শিতে পারতেন। 


তিনি সকল ছাত্র-ছাত্রীদের পুর-কন্যার মত 
তালবাসতেন। সামান্ত পিল্পনঃ বেয়ারাদের জন্যে 
তিশ্লি কত চঠিন্ত করতেন তাদের ছুঃখকে 


অন্থভব করে তাদের অন্ন সংস্থানের জরে তিনি 
কত ব্যস্ত হগ্বে পড়তেন ষেন তার আপন 
প্রিহ্জন। সিজ্ঞান কলেজের প্রঠিটি ধৃপিকণা 
আজ তাঁর অভাব অনুভব করছে--এ আমার দু 
বিশ্বাস। 

সর্বোপধি মাতৃভাষা প্রতি তার ছিল প্রগা় 
অন্থরাগ। তিনি উপপন্ধি করেছিলেন জনপাধারণকে 
বিজ্ঞান শিক্ষা দিতে ন! পারলে, কারিগরী 
শিক্ষা ও প্রতৃক্কিবিষ্তা তাদের শিক্ষিত করতে 
না পারলে তারা তাদের অন্ন ফোটাতে সঙ্গ 
হবে না এবং তার কলে দেশের ছুঃখ-হূর্দশ! দুর 
করা সম্ভব হয়ে উঠবে না| তাই আব!ল- 
বুকষবনিতাকে বিজ্ঞান ও তার বাবহাগিক প্রয়োগ 


146 


সহক্দগ ও সরলদাঁবে বোঝে হবে এলং বিজ্ঞানকে 
বাংলাদেশে জনপ্রব করবার একমাত্র উপায় 
বাংলা ভাষার মাঁধামে বিজ্ঞানকে প্রচার করাঃ 
বিজ্ঞানের মুল মন্তগ্রপে মুষ্পটভারে জলদাধারণের 
কাডে তুলে ধ1। এব জো ঠিশিবিগত তিটিশ 
ব্সর ধরে ক:ঠাঁর পরিশ্র্থ করেছেন এবং ভার 
পে পরিশ্রন সার্ক হয়েছে। ব্গীধ বিচ্কান 
পরিষদ গঠনের কারপইট হচ্ছে, এই সংস্থার 
মাধামে জ্ঞান ও বিজ্ঞান পিক প্রকাশিন এবং 
বাংলা ভাষা বিজ্ঞানকে প্রচার করা। বাংলা 
ভাঙা বিআন শিক্ষা ও প্রচার ফলবতী ভত্রেছে। 
তবুগ্ড তিনি ছিশোর-কিশোরীদের বিজ্ঞন শিক্ষার 


হরান ও বিজ্ঞান 


[27তম বর্ষ, 3 সংখ্যা 


জন্তে, কাঁরিগঞ্গী শিক্ষার জন্ত আমাদের মি্ছশ 
দিযে গেছেন। সেই নির্ধেশ অন্ুযামী আমাদের 
কাঁজ করে যেতেছবে। 

মাঁনবসেবী, ছত্রবওদী বিশ্ববরেপ্য বিজ্ঞ।ন চার্ধ 
বন্ধ তার নশ্বর দেছ আক ভাগ করেছেন, 
কিন্ত তার বিদ্তোে আতা! আঘারদের মো 
চিরকাল অন্নপ্রেরণ ভুগিয়ে আশবে। ভার 


কাছে এই জশীর্বাদ প্রার্থনা করি। আমর যেন 


ভার পদক অন্ুলরণ করতে পারি। শশ্বরের 
কাছে প্রার্থনা করি ভার অমর আত্মার শান্তি । 


সবশেষে ভার আত্মা প্রতি আমার আঁঞ্চরিক 


অঙ্গাগ্রপি নিবেদন করি। 


অধ্যাপক সত্যেক্জনাথ বসু 


(শেষ কট! দিনের স্মৃতি) 
জীনির্মলকুমারী মহলানবিশ 


অধ্যাপক সতোজ্দরনাথ বোসের সঙ্গে আমার 
খনি পরিচন্ন 1923 লালে আমার বিগ্বের পরে, 
যদিও আগেও গুতক চিনতাম? আমার স্বামী 
প্রশাস্তচন্র ও সঠোশ্রনাথ অন্থরঙ্র বছু। কাজেই 
খুব সঞ্জেই আঘও দলে ভিড়ে গিবেছিলাম। 

বিষে পরে আলিপুর হাগুয়। আপিসের 
উপরতলাক্ব আমাদের প্রথম বাসা। দক্ষিণের 
লম্বা বারান্দায় আমর ভিনজ্জনে ঘন্টার পর 
ঘণ্টা আরামকেদারাধ় বসে আনন্দে আড্ড। 
জমিয়েছি। অনেক সমন্ব বন্ধু গিপরিক্ষাপতি 
ভট্টাচার্যও সঙ্গে এসেক্ষেন। দিলীপ রাতের 
তো আমি ম'সী, আর শে সতোঙ্নাখের 
বিশেষ খ্চুরাগী ভক্ত, কাজেই সেও প্রারই 
সঙ্গে আপতো। সঙহোজ্নাথের মত এমন 
লব অকম পরিবেশে--বাকে বলে পভালে ফোনে 


অন্থ:ল”--শি্চেকে সহজে খাপ খাইয়ে নিতে 
শুধু নর, সবাইকে নিগ্নে জমাট মক্দলিশ টতরী 
করতে আমি আর কাউকে দেবিনি|। কেউই 
ভার কাছে সামান্ত ছিল না, সকলেই ছিল 
জীবন্ত মনুষ। দেড় বছদের কথ1--একদিন গুন 
সঙ্গে দেখ! করতে গিক্কে দেখি খাটের কাছে 
মাটিতে একজন িন্দুঙ্চান্টী একটা কাঠের বাক্স 
শিয়ে বসে একট! শিশি ধের করে কি সব 
শোকাচ্ছে আর দেখাচ্ছে। আমি প্রশ্নভর! চোখে 
চাইতেই এসে বজেন “আতরওয়াল। গাজীপুর 
থেকে আমল আর নিষে আমার কাছে আসে 
মাঝে মাঝে । আমি ও আমা ভাজ ঢু-জনে 
গিখেছিলাম। বলেন প্দাওড তে! এদের দুজনকে 


দ্-শিশি চামেপীর ছতর”। সে তাড়াতাড়ি 
আমার ঠিকাপা জরিনা করছে। যাতে আদার 


মাঠ, 1974] 


বাড়ী এপেও কিছু বিক্রী করতে পাঁরে। ধমক 
দিয়ে বল্লেন ওর ঠিগগনা নিয়ে কি করবে? 
এখানেই তো পেয়েছে |” আনি ওকে দাঁম 
জিজ্ঞাদা করা বললেন প্দামের কথা জাঁনবাত্রি 
দরকার নেই; আমিই তো কিনে দিলুম, আর 
কিনে কি হবে?” চুপ করে গেলাম-মগ ৫1 
মন্দ নয়। হঠাৎ সকাঁলবেল। ছুই শিশি আতর 
পাওয়া গেলো। 

সেই গাজীপুরীর সঙ্গে খুব অন্তরঙ্জচাঁবে 
কথাবার্তা বলা হলো, ঘরের খবর নেও! 
হলো। তে খুশী হনে চপে গেল। ভেসে 
বল্লেন এলোকটা ভাল। সতাই আসপ ছিনিষ 
নিয়ে আপে, তাই মাঝে মাঝে ৪ কাছ থেক 
খোসবোই" কিছু কিছু কিনে রাখি 1৮ বুঝতে 
পারলাম তাহলে হঠাৎ দরকার হলে হাতের 
কাঁছে থাকলে, একে-ওকে দেওয়া চলে। 
ঘরখানা যেন শ্টামবাজাঁরের পাঁদমাথ।। ষে 
কোন লোকের সঙ্ষেই সেখানে গ্বাখা হাত 
পাঁরে।| রাক্ত। থেকে উঠেই বিনাদ্িপায় চেনা- 
অচেনা] কত লোকই যে ঘরে আসে, তার 
ঠিক-ঠিকানা নেই | মাপ আডাই আগ এক দিন 
সকালে গুর ঘরে বসে আছি, হঠাৎ একটি যুবক 
ত্রিশ পর্নছ্িশ বছর বস্প হবে, ঘরে টুণ্ই খাটের 
কাছে গিয়ে বল্লো “আপনিই শি সেই বিখ্যাত 
সত্যেন বোপ ? সত্যোনধাবুর মুখে মহ হালি 
ফুটে উঠলো, বল্লেন “সেই রকমষ্ট (চা মনে হয়।” 
আমাকে দেখিয়ে “আর ইনি কি”মামি 
ভাঁড়াতাড়ি মুখের কথ্থা কেড়ে নিরে বললাম 
“আমার শ্বাথীর নাম ছিল প্রশান্তন্ত্র মহলানবিশ | 
*ও» হ্যা, তিনি তো এই কিছুদিন আগে গত 
হয়েছেন, রেভিতোতে শুন্ছ্ধি। কাগজে পড়েছি 
ইতানি। সতোনবাবু কোঁতকর দৃষ্টিতে চেত্গে 
রদ্ষেছেম দেখে-সে তাড়াতাড়ি সাধনে এগিয়ে 
গিপ্ে সত্েনবাবুর কাধে ছাত দিপ্ষে গায়ে হাত 
বুলিযে ছোট ছেলের, মত বলতে লাগলে 


অধ্যাপক জতভোজানাথ বন্দু 


খাবার ইচ্ছে হলে থেতে পাই না। 


147 


“এ হন্িন পর্বে আমার সততান বোসকে দেখা 
হলো। বহুদিন থেকে ইচ্ছে বিখাত প্রোফেসর 
সর্ঠোন বোসকে 'দধবো। আজ দেই বিবেক" 
নন্দ রোড থেকে এই জন্ভে দুটিতে ছুঈন্তে এসেছি? 
বড় মেষে নীলিনাও দড়ি আমতা সকলেই 
ভদ্রঞ্টেকের রকম দেখে মুভ কে মুচকে হাসছি। 
সঞ্ষ্েনবানু প্রশ্ন করলেন “কি কর! হয়? “নামি 
বাংঙ্গা সরকারের তুধ সরব্রাঁছ কতবার ডিপোর 
চার্জে অ।ছি। এখনি কমার দুধের গাড়ী পৌছে 
দপ্ে ছুই এলেছি আদ সঙেতন বোমধকে দথংই। 
আমি ব্য 'পএক্ারেন তো ছুধই নেই, কাজেই 
সরবতাত করছেন কি? দুধ থাক আপগনাথাঞ্ত 
চাঁকপীটা আপনাদের ঠি৬ই আছে।' সত্োন- 
থাবু এ*ং অহ্থের! সঞ্তলেই আমান কথায় সার 
দিয়ে হাপতে লাগলেন। তারপর এলেন “এখন 
ঠিক্চ বলতো কেন আমার কাছে এনেছে।?' 
'শঠ্য বলঞ্কি আপনাকে দেখ ছ'ড়। আমার আগ 
কোন উদ্বেগ্ক নেই? তুমি ছুধের চার্জে আছে, 
কিন্ত হপিপঘাট্ার ভান ঘি কেন আমযএ একটু 
করে পাট না? এখানে খাটি ঘি নেই, লুণ্ি 
এবারে 
একজন চনা লোককে দিছে ঝাড়গ্রাষ থেকে 
ঘি আনিযেছি। বাংলাদেশ থেকে সব উড়ে 
গোডে ।2 খাক্ছা সার, এবারে আমি আপনাকে 
এক শিশি গপিণধাটার ঘি এনে দেবো । কিন্তু 
আপনি ডিহেক্টাত অব এগ্রিকাল্চাঞ্কে বলেন না 
কেন? তাঃলেই তো সব পেতে পারেন। 
হেসে বঙ্লেন নারে বাপু, কারোকে বলেটলে আর 
কিছু নিঠে চাই না। আখ কাগজে তে দেখলুম 
তার বিক্ষ-ধ কি যেন একট! চার্জ এনেছে। এ 
ছেলেটাকে আমি খুব চিনতুন। খুব ডেয়ান 
ডেভিল ছেপে ছিল) ঢাকাতে বারটের সময 
তিন ঠিনবানর আমার প্রাণ বাচিয়েছে। গে 
একটা ব্যির হালি ফুটে উঠলো। বুঝলাম পে 
অগ্ঠায ঘদি করে খাকে ভাব লাজ হবে-এটাতে 


148 


গর অমত নেই, কিন্ত তাঁর কাছে ওর মন রত 
আছে প্রাণ বচির্েছিল বলে এবং সেই জন্তে 
গুর মনে এখন করুণাও হচ্ছে তার অসন্মানে। 
এই হলো সতে)ঃন বোসের হৃদয়ের গভীরতা । 
এইরকম তাবে কথাবার্তা একটুক্ষণ হুবার পর 
ছেল্টে বেশ গুছিয়ে সত্যোনবাবুর চেয়ারখানার 
উপর পাঁ তুলে আসনপি'ড়ি হয়ে ববলো। বুঝলাম 
সহজে উঠবার মতলব নেই। অগত্যা সত্যেন 
বাবুকে বললাম বেলা হয়ে গেলো, আজ আর 
আপনার সঙ্গে গল্প করা হুলে! না, এবারে বাড়ী 
যাই। উনিও বুঝেঞিলেন সহজে ঘর খালি হবে 
না, কাঁজেই থাকতে বলে লাভ নেই। "'জাস্ঘ। 
এলে! পিদি।' এইসব টুকরো! টুকরো ছবিতে বারে 
বারেই গুর আসল রূপটি ফুটে উঠতে দেখেছি। 
বলতে পারতেন তো! “তুমি কে হ্কে, সক!লবেল! 
আ।জাকে বিরক্ত করতে এসেছো? কিন্তু তাতে! 
গুর পক্ষে অসম্ভব তাই বলছিলাম গর ঘরখান! 
মেন স্মবাজাযেছহ পাচ মাথখা। 

এমন কি জানোয়ারও ওর কাছে ফ্যালন! 
ছিল ন1। ফুল ও গাছের প্রি মমতা তার 
ঢাকার বাগান যে দেখেছে সেই জালে। 

শ্রীযুত্ত দিলীপ রায়ের দাদামশাই প্রক্ষিতযশ। 
প্রতাপচঙ্জ মছ্ুমদানের বাড়ীতে সার! ভারতের 
বিখ্যাত সব ওস্ভাদদের নিয়ে প্রাঞ্জই জলসা হতে 
মন্টূর (দিলীপ) কুপায়। সব সমক্কেই দেখেছি 
সত্যেঙ্রনাথ হাজির আছেন--ঘপ্টার পর ঘণ্টা 
জলল। চলছে আগ এই ম্বনামধন্ত টবজ্ঞানিক মশগুল 
ইয়ে বসে আছেন। তখন গুকে দেখলেকেনা 
বলবে যে, সঙ্গাত পাধনাছাড়! আর গুর অন্ত 
কৌন পেশা আছে। সেষ্ট সব আনন্দের দিন 
যনের মপিকোঠাক চিরদিন সঞ্চিত হককে রইলে!। 
এই দীর্থ বন্ধুঙ্থের স্কৃতিতে সব ভরে রহেছে। কোন্‌ 
কথ! বলবে! আর কোন কথ! ফেলবে ভেবে 
পাচ্ছে না। 

আধার কাছে অছতেোধ এলে! প্রোকেশর 


জান ও বিজ্ঞাজ 


(27তম বর্ধ, 3 সংখা। 


বোসের জন্তে "জ্ঞান ও বিজ্ঞানের যে বিশেষ সংখ্যা 
বেরোবে, তাতে আমার কিছু লেখা দেওয়া চাই। 
আমার তে! অন্ত কোন লেখা দেবার ক্ষমত! 
নেই এক গল্প বল! ছাড়া। তাই যখন বসে বসে 
গুর কথ। ভাবছি এক একট ছবি চোখে ছেপে 
উঠছে। 

সেদিন আমার শ্বামীর মৃত্যুর আগে অন্গুখের 
সমন্ন কি উদ্ছেগ-উৎ্কঠা। ওর মুখে দেখেছি। 
প্রশান্তচন্ত্রের মনকে হাক্ক! করবার জন্তে স্ট্যাটিস্‌- 
টিকাল ইনঠিউটের অনেক বোঝ| নিজে ঘাড়ে 
করে নিলেন--“প্রশাস্ত, তুমি তেব না, আমি 
আছি। তুমি মন নিশ্চিন্ত করে অসুখটাকে সারিয়ে 
নাও।' তিনি মারা বাবার পরে সত্যেনবাবুন 
প্রথম ভাবণারাণীর কিহবে? ওকে এখন কে 
দেখবে? ওর তে! অনুষ্থ শরীর, আর তো! কেউ 
ওকে তোরক়াজ করে রাখবে না। একপিন হেসে 
আমাকে বলেছিলেন--“বেশী অত্যাচার না করে 
নিজের শরীরটাকে তাল রেখে! । এখন তে। 
বেশী অন্ধ করলে আর কেউ তোমার জন্তে নার্স 
নিয়ে আসবে না দিদি। আমি বললাম “আপনি 
আমার জন্তে এত ভাবেন কফ্েন? আমি ছাড়! 
আর কে তোমার জন্তে ভাববে শুশি? মনে 
হলো কথাটা সত্যি; অমন দরদ আগর কার 
আছে? আমার শ্বামী আমাকে একলা ফেলে 
পিক্কেছেন এই বেদনা এত তীত্র ও গতীরভাবে 
সত্যেনবাবু ছাড়া আর কে আন্তব করেছে? 
এখন বন্ধুবংসল তো চোখে পড়ে না। লোকে 
পরের দুঃখে সহানুভূতি জানার॥ পাশেও এসে 
দাড়ার, কিন্ত খাড় পেতে বোঝা ভুলে নিতে তে। 
কেউ এগোয় না। 

196 সালে প্রথমবার বধন আমার স্বামী 
ইউনাইটেড নেশানের আ্টাটিস্টিক্যাপ কমিশনের 
আমঞ্রণে নিউইয়র্ক যাঁন, তার আগে বন্ধুকে বললেন 
তোল, তুমি যদি ইনভ্িউউটের ভার না নাও, 
তাপে আর আমান আমেতিক। ঘ।ওদ| হয় না।' 


মাচ 1914]. 


সত্যেন্ছমাথ তখন ঢাক! দেকে চলে এসেছেন ও 
কলকাতায় নিজের বাড়ীতে রয়েছেন -বাড়ীতে 
অনেক লোক। 'আচ্ছ! ভার নেবো বর্দি আমার 
বরানগরে একটা থাকবার ব্যবস্থ। করে দাও। 
'এতো। খুবই সোজা; সারা আস্রশালিই তো? 
তোমার থাকবে । আমরা তো ছু-জনেই বাচ্ছি, 
কাজেই ঘরের তাবনা! কি? আমর] নিশ্চিন্তষনে 
চলে গেলাম। অধ্যাপকের মন হাক্ষা--সত্তে)ন 
আই, এস, আই-র কর্মশীর হয়ে রইলেন বলে। 
কয়েক মাপ পরে ভিনি একবার ভু-মাঁসেং জন্তে 
দেশে ফিরে এসেছিলেন কেছ্বিজে আম।কে একা 
রেখে, কারণ আবার অক্টোবরে পপুলেশন কন- 
ফারেছে বোগ দিতে যেতে হবে| তখন 
জানতেন না যে, আমার বাড়ী ছেড়ে বাবার সময় 
কি রকম বিপদ ঘটবে! যেদিন সকালের প্রেনে 
রওমা হবেন, তাঁর আগের দিন দুপুর বেলা আমার 
শ্বুংমশাই প্রবোধচঞ্্র মহুলাঁনবিশ মরা] গেলেন। 
তিনি প্রায় দশ বছর বিছানার শোয়া) তার 
চিরকাল তয় ছিল যে ছেলেকে সর্বদা] এখানে- 
ওখানে কাজে যেতে হুয়। এরই ফাকে তিশি 
একদিন চলে যাবেন, তখন ছেলে কাছে খাঁকবে 
না| আমার স্বামী যেন বাবার মৃতুুর সমন কাছে 
থাকবেন বলেই দেশে ফিরেছিলেন--নিকতির 
এমন খেলা । আমাকে “তার করে জানালেন--- 
বাবা! চলে গেলেন। ] সপ্তাহ পরে যাবো।' 
তখন কলকাতা ভীষণ দালা-হাঁজাম।- রাস্তায় 
চলাচল বিপজ্জনক। যাই হোক কোনমতে শ্রান্ধ- 
শাস্তি করে বিকেলে সর থেকে আ্রশালি ফিরে 
এসে বপসেছেন। ওদের কলকাতায় কর্ণওয়।লিস 
গ্বটের বাড়ীতে বাবা মারা গেলেন। ছুটি 
অবিবাছিত1 ছোট বোন, ধারা বাবার কাছে 
থাকতে, তারা সেই খানেই আছে। ছোটতাই 
বুধ! তার সী ও মেয়ে ্রলাকে নিয়ে সেই বাড়ীতেই 
খাকে। বাবা চলে গেলেন, ছাদ ছোটদের 
ফেজে চলে বাবে? তাতে মন্টা বিদর্থ ও উগ্র 


অধ্যাপক সত্যেজ্মনাথ বন্থু 


149 


হয়ে রত্দেছে। সতোনবাবু সেট। বুঝতে পেরে 
কাছে এসে বসে বলেন প্রশান্ত তোমার বোন্ছের 
জন্যে কিছু ভেবো না। আমি আছি, আমিই 
তাদের ভার নেবো দেখাশোন! করবার। তুমি 
খুব নিশ্চিন্ত মনে নিজের কাজে চলে যাও।' 
আমার স্বামী ফিরে শি্গ্বে বলেছিলেন “সত্যেন 
আমাকে এমন করে আশ্বাস পিল আপশবার সময় 
যে, আমার মনের বোঝা নেবে গেলো। সত্যিই 
তো, ও যখন আছে তখন আত ভাবনা! কি? 
এই হচ্ছে সত্যেশ্্রনাথ বোসের আসল চেহারা। 
শুধু উপর উপর বন্ধুত্ব নঙ্, বন্ধুত্বের সমস্ত দার 
ঘড়ে নিতেই সর্বদাই প্রস্তত। বার! বিদ্বান, 
জ্ঞানী লোক, তারা সত্োনবাবুব্ধ মনীষার কথা 
আলোচন। করবেন। কিন্তু যাস আমার মত 
সমান্ত লোক, বাদের জ্ঞানের গঞ্গীমা নেই, 
বৈজ্ঞানিক লাধনার কথা আলোচনা করবার 
ক্ষমতা নেই, তারা সতোশ্রনাথের জেহ্পুর্ণ হৃবয় 
ও ষ্থার্থতাবে তার প্রকাশের কথাই স্মণ করবে। 

শেষের কটাধিনের স্বতিতে সর্বদ1! মন ভরে 
রয়েছে। হঠাৎ বেন একটা আনন্দের জোদার 
এসেছিল আর মুহুর্তের মধ্যে সেই জোন্নারে ভাট! 
পড়ে গেলো। 

3]শে ডিসেম্বর ইত্ডিমান ই)টিডি গ্যাল ইন- 
হ্রিটউটের সমাবর্তন উৎসবে সন্তেআনাথ সভা- 
পতি। তিনি তো! আই, এস, আই-র প্রেদিতেক, 
কাজেই ভাই তো অন্ুঠান। প্রশাত্তচন্্র বাবার 
পর এই প্রথমবার সমাবর্তন উত্সব। তাই 
আমার শরীর সেদিন বিশেষ অনুস্থ থা সত্বেও 
কষ্ট করেই সভায় গিকেছিলাম | এই প্রথম সভায় 
বেদীর উপরে সত্যেন্ত্রনাথের পাশে প্রশান্তচন্ত্র 
উপস্থিত নেই সমাবর্তনের দিন। মনটা আম।রও 
যেমন সত্যেনবাবুরও তেমনি প্রথমে একটু বিমর্য 
হব়েছিল, কিন্ত সে অল্লগগণ। সেদিন সভাপতি 
ছাপিতে কৌতুকে সকপেরই মন প্রফুল্জ করে 
দিলেন। অধর্তায সেনের বন্কৃতার পর সতোনবাবু 


150 


তায় ভাষশে জবাঁব দিলেন সঞ্লকে খুব হাসিগে। 
সেদিন সমধ একটু বেশীই লেগেছিল? কারণ তিন 
বছর সমাবর্তন উৎসব হয়নি, কাজেই এতদিন 
ধরে অনেক আাতক জমা হয়ে গিদ্বেছিলঃ যাদের 
নাম পড়তে দীর্ঘ সবর লাললপো। আমার তন্ন 
হচ্ছিল যে, এতক্ষণ খসে থাকবাএ ক্লান্তি পাছে 
সভাপতির পক্ষে বেশী হয়ে পড়ে। দেখলাম 
ক্লান্তির কে।ন চিক মই, দিবি খোসপ মেজাগ্ছে 
বললেন অনেকক্ষণ হলো কিন্তু সেটা খারাপ 
লাগলো না এখন মনে হচ্ছে ভাগ্যি সেদিন 
বিছানায় শুপ্ে না থেকে নীচে নেবে গিদেছিশাম। 
ডাঃ সি, আর, রাও সতোক্রনাখের ঠধজ্ঞা'নিক 
আবিষ্কারের পঞ্চ)শ বছর পুতি উপলক্ষে আই, এস, 
আই-র তরফ থেকে একটা রুপার থালা উপহার 
দিলেন। সঙ্গলেরই মন তৃপ্ত হলো এট শ্বীক্তিতে। 
পরদিন সত্যেন্ত্রনাথের জন্মদিন--]লা জাহমারী 
1974 লালে আশী বছর পুর্ণ হলো। গেলাম 
সকাঞ্বেল! ঈীশ্বরমিল লেনে । গিক্ে দেখি ঘরভর! 
লোক, অনেক বন্ধুবান্ধব, ভক্ত, অঙ্গগত সকলেরই 
পেদিন আনন্দ করবার দিন। কেছ ফুল, কেউ 
মিষ্টিঃ কেউবা! আবার নিজের রচিত 'ছড়াকাটা” 
বই উপহার এনেছে। সত্যেনবাধুর খাটের উপর 
বসে শ্মিতমুখে সবাইকে এসো, এসো, বলে 
অভ্যর্থন করছেনল। আনন হালিতে উজ্জল শুখ। 
বড় মেপ্বে নীলিমাকে ডেকে বলছেন “ওরে, এদের 
সন্দেশ দে' ইত্যাদি । নিঙ্গে তো অস্থখের জন্তে 
মিষ্টি খেতে পারতেন না, কিন্তু অন্ত সকলকেই 
খাওয়াবার জনে বাস্ত। অত্যন্ত ভালবাসতেন 
লোকজন খাওয়াতে | সেদিন বাড়ীর কনার কি 
আনন্বময়্ী মৃতি। চওড়া! লালপাড় শাঁড়? পরা, 
মাথা এতখানি মে।টা করে সিছুর--একগাল 
হাপি নিয়ে ঘরে এপে ঈাড়াতেই "দাও, দাও, 
এগ্গের সবাইকে সঙ্দেশ খাগুয়ীও | নিজে মিষ্টি 
খেতে পারবেন না, কিন্ত আগত সকলকে মিষ্টি না 
খাওকালে তৃত্তি দেই । চিরপিলের বস্ধু গিথিজ্জা- 


ভান ও বিজ্ঞান 


[27তম বর্ধ, 37 সংখ্যা 


পতি তষ্টাচার্ধ, ভক্ত শুন্বৎ সিংহ, সহপাঠী জীবন- 
তার। হালদার ষ্টার “ছড়াকাটা” বইথানি হাতে 
নিষ্বে এবৎ আরে। কত লোক এনেছেন। 
ইর্থহমিল পেনে সেদিন আনন্দের জোবার। আমি 
বাড়ী আপবার সমর একট! বাক্সভরে সন্মেশ 
বেধে দিলেন তখন অসময়ে ক্ছু খাবোন। বলে। 
চলে যধন আনছি বলে দিলেন পর পিন 10টার 
সমদ্ষে বেন গাড়ী পাঠাই 'নামশ।পিতে আসবার 
জন্বে। কারণ ইন্ঠিটউটে বিদেশী ভিজিটিহ 
প্রোফেসর ধার! এসেছেন, তাদের সঙ্গে ভালকরে 
আল|প করতে চান। আগের দিন সম্ভার ভিড়ের 
মধ্যে তাদের সঙ্গে আলাপ করে কথা বলতে 
পারেন লি তাই। 

2রা জাঙধারী সকাল 108: এসে পৌছলেন। 
সেদিন বিদেশী পোষাক--গরম মুউ পরে এসেছেন 
আর মাধার সেই ফরাপী “বেরে'। ঘল্ট। ছুই 
গল্প করা, দক্ষিণের বারান্বার বসে কক্ষি খাওয়া, 
বাইরে রোদে দাড়িয়ে ছবি তোলা সবই হুলো।। 
একজন জার্জান,। একজন হালেরীর়ান, একজন 
জ[পানী ইত্যাদি নানা দেশের লোক। সকলের 
সঙ্গেই আলাদা করে তাদের দেশের সমস্থ শিকবে 
প্রশ্ন আলোচন। সব চজললে।। তারপরে হাতধরে 
শিড়ি দিযে নাবিয়ে গাড়ীতে বপিয়ে দিলাম । 
খুথী মনে হাত নেড়ে সকলকে বিদান্গ অভিনন্মন 
জানিয়ে চলে গেলেন। একবারও সেদিন ভাবি নি 
এই ও! শেষ আম্শালিতে আপা। এখানে 
আসতে বরাবরই অগ্যন্ত ভালবাল্তেন, কারণ 
বাগানের ধে বেজার নেশা । শীতকাণে এলেই 
আগে কত বড় ডালিয়া আর কত ভাল চর 
মদ্রিক। ফুটেছে তাই দেখতেন। কোঁন ফুণটা 
বেশী পছন্দ ছলে বাড়ী যাবার সমন আমি টবহ্থন্ধ 
ভুলে দিতাম গাঁড়ীতে--তাতে খুব খুষী। 

কথক দিন পরে বোধ হয় 1১ই বা 19শে জা" 
কারী হবে, সকালবেলা ওধ সেই খালাট। আর ছবির 
ধাল্ধাম দিয়ে আপবো বলে ফোন কৰলান যেঃ 


মাচ, 1974 ] 


উনি খাড়ী থাকবেন কিনা। টেলিফোন ধরেই 
প্রথম কথা বলবেন “থামার থাল। কি হলো?” 
বললাম লেটাই নিয়ে যাবে! বলেই তো জিআসা 
করছি বাড়ী থাকবেন কিনা । বল্লেন “কি আনবে 
থালার?' বল্লাম 'জাশেনই তো! আমার খালা 
শূ্ত হয়ে গিয়েছে । আমি আর ক্টইিবা আনতে 
পারি এখন? বোধ হয় একটু অপ্রস্তত হলেন। 
তাড়াতাড়ি বঙ্গলেন “এসে! দিদি এসো । আমি 
বাড়ীতেই আছি।' ছু-খানা ইনহিটিউটে তোলা 
অনেক ইবি দিয়ে তরানো আল্বাম আর রূপার 
থাঙ্গাট। নিয়ে গেলাম। থালার উপরে আপিসের 
সাততলা! বাড়ীর ও আম্পাপির ছবি নল্পা করা, 
তাঁর মাঝে আই, এস্‌, আই-র বটগাছ-র প্রতীক 
ও সতোম্্রনাথের নাম থোঁদাই করা হয়েছে। 
হাতে নিয়ে খুব খুনী হয়ে বললেন “বাঃ; বাঁঃ, বেশ 
চমৎকার করেছে তে! কারীগর। কিন্তু এটা 
তোঁষাদ্েের ইনটিটিউটের মিউপিয়ামে রেখে দিলেই 
তাল হতো ।' বললাম “মিউ্চিধাম কোথায়?” 
*ওর] করে দি প্রশাস্তের জন্তে মিউজিয়াম ?' বঙজ্লাম 
না, করলে তো আঘমিবেচে যেতায, সব বোঝা 
হাক! কবে দিতাষ। আচ্ছা দাও তো! ছবিগুপি 
দেখি। এ গুলিতেই আমার বেশী লোত।” খুব 
মন দিতে ছু-খান। বই উল্টেপান্টে ছবিগুপি 
দেখলেন। সতোনবাবুধই ছবি আমাদের সঙ্গে 
বিভিন্ন দিনে দিভিন্ন ঘটনায় তোলা। ছবিগুলি 
দেখতে দেখতে মুখট। গভীর হয়ে গেল। হঠাৎ 
আমার দিকে চেরে বললেন 'অপারেশনটা ন! 
করলেই হতে, না দিদি? ঠিক মত করে নি, 
বুঝলাম বন্ধুর বির&ট! নতুন করে মনের মধ্যে 
উদ্বেল হয়ে উঠেছে | অবিশ্তা অল্পক্ষপণের মধ্োই 
আবার সেই স্বাভাবিক হালি-ঠ1ট্। ও নিজমুি। 
একটু পরেই একজন ভদ্রলোক--কে তা জানি 
না্দরজার কাছে দী'ড়রে ধল্গেন আদতে 
পারি? 'এসে?, কেতুমি? আমি নেতাজার 
জন্মোৎসব কদিটিয় সেকেটাতী।' . 'আমান কাছে 


অধ্যাপক সত্যিজ্নাথ বনু 


151 


কি দরকার? আপনি সেদিন সকাঁলে যদি 
হ'মবাজারের পাচমাধাগ্র নেচাজীর মৃতির গাছে 
গিয়ে তিন-চার শিশিউ একটু কিছু বলেন? 
কথার মাঝধাশেই খানিয়ে পিরে খললেন তাতে 
বাপু, আমাকে নিত্বে ভোমর! আর টানাটানি 
কবে না। আমার আশী বছর বয়স হছে গেছে, 
এখন আমি আপি; এখন আর যাই না বলে 
হাসতে লাগশেন। তবু ভদ্রলোক ছাড়েন না, 
তখন বললেন “কাছেই ০1 তুষারকান্তি থাকেন, 
জাকে নিযে যাও না।' “না, আমর! চাচ্ছিলাম 
একটু” বলতেই বললেন “তোমর| চাচ্ছে! কোন 
শির্দলীর লোককে ডাকতে, তাই তো? হা? 
আপনার মত কাউকে আমাদের নিতে ইচ্ছে।' 
হেসে বললেন 'আজকাল পিাঁপীন্ন কাউকে তে। 
পাবে না, ছুটি তিনটি ছাড়া। এক আমি আছি, 
আর বড়জোর ছু-তিনজন। নেতাজীর নিছের 
দল ফরওয়ার্ড ব্লকের কাউকে ডাকো না। জার 
এখানেই বা কিছু করবার দরকার কি? যাও 
না মহাঞ্জাতি সদনে বক্তৃতা শুনতে। সেখানে 
ফুঞ্জিওয়ার! টুজিগুয়ারা আরো অনেক লোক 
এসেছে, তারা সবাই বু ঠা করবে, তাই 
শোন শিষে। তবু যখন ভদ্রলোক আবার 
বললেন “তিন-চাব মিনিটের জণ্তে আমর আপনাকে 
পেতে চাই”, তখন খুব জোর [দদ্বে বলেন, 
প্রাথো বাপু আরম এইট আশী বছর বদ্সে 
শ্বমবাজারে গিদ্ে তোমার নেতাজীর লঙ্গে 
ঘোড়ান্ন চড়তে পারবে না। তিনিযেদিন ওথালে 
এসেছিলেন, সেদিন গিক্ছে অনেক কথ! বলেছিলুম, 
আর পারবো না। বাঁও, আমাকে আর বিএক্ 
করে! না। কিছু বাশীটানী দিতে বলো তো 
রাগী আছ? ফাল সকালে কাগজ পেলিল নিয়ে 
এপে লিখে শিত্ে বেও। আম ভাল চোখে 
দেখছি না, কাগেই শিখতে পারবো ন। 
মহাজাতি সনের ওরা আমার কাছ থেকে লিখে 
নিয়ে গেছে। খ্াার ছানি কিছু করতে পাবো 


152 


না। এরা এসেছেন, একটু গল্পটল্ল করছি, এবারে 
তুমি বাও'। অগত্যা ভক্রলোক চলে গেলেন। 
আমি বলাম 'পত্যেন বাবু, আপনি এই রকম 
করে সন্কলের ডাকে সাড়। দিয়ে নিজেকে এত 
থরচ করবেন না। আপনি আমাদের সবেধন 
নীলমণি একটিমাত্র কুমীর ছানা রখেছেন, কাজেই 
আপনাকে সাবধান হয়ে থাকতেই হবে।' হেলে 
বললেন প্ঞতদিন তে! ভাই ছিলুম গীপশিটি আর 
টিকটিকি হবে, আজকাগ দেখছি হঠ।ৎ কুষীরছান! 
হয়ে উঠো বণেই উচ্ছৃলিত হাসি। আজ 
কেবল সেই প্রাণখোলা হাপির কথাই মনে 
পড়ছে। ৃ 

সত্যেনবাঁবু 26শৈে জাঙ্ছক্াতী আমাদের 
ইনস্টিটিউটের একজন কম্ণুকে দিয়ে সকালে খবর 
পাঠালেন যে তিনি অন্ুস্থ, নিশ্বাসের কষ্ট হুচ্ছে। 
গুনেই ছুটে গেলাম ছুপুরবেলা / তখন খাটের 
উপর বসে আছেন, তখনি স্নান করবেন বলে 
আযম্বোজন হুচ্ছে। ঘরে বড় মেনে দাড়িয়ে, 
বললাম “আমি এই ভযর়ই করছিলাম, প্রতি দিন 
যখন খবরের কাগজে দেখাছ যে. গ্তাশানাল 
প্রোফেসর সত্যে্রনাথ বোস অমুক জায়গার তাষণ 
দিচ্ছেন, অমুক জাহ্গায় অর্থ) নিচ্ছেন, কখনও 
বা কোথায় নেমস্তনল খেতে বাচ্ছেন, দেখে দেখে 
আত্হ হযরেছে আর ভেবেছি লোকে বলে 
কুডাক ডাকতে নেই” তাই কিছু না ভাবাই 
তাল। কেন আপনি এ রকম করলেন?" 
ইাপিক্সে হাপিনে বন “তুই জানিশ না, আমাকে 
যে কেউ ছাড়ে না তাই।” মেয়ে বললেন "্ছাড়েনা 
না, বাব! এ সব ভালবাসেন। মানুষজনের 
সঙ্গে দেখ। হয়, কত বিদেশীদের সঙ্গে দেখ! হচ্ছে, 
আরে কহকি। আমলে শরীরটা একটু তাল 
ছিল, তাই যে ডাকছ্ছে সেখানেই বাচ্ছেন। 
এখন আর বলে কি ছবে ?' বললেন আজ আমার 
সই নিতে অলেছিল নাদৃকারণী, ভাই তাকে 
দিকে তোমাকে খবর দিলুম। অস্ি কষ্টে লই 


জান ও বেজাজ 


কনর খরে কাডকে যেতে দিতে। 


[27তম বর্ষ, 3 সংখ্যা 


দিছি, আজম চোখে আরো কম দেখছি।' 
বেশ কষ্টে হপিকে হ্াপিয়ে কথাটুকু হললেন। 
আমি বললাম 'গতকাল মাঘোষ্পব থেকে ফিএবার 
পথে আপনার সঙ্গে দেখা করে যাবার ইচ্ছে 
ছিল ]]ই মাথের উপাপন1, একটু দেরীতেই 
মন্দির ভাঙলে! | অত দেরীতে আর আপনাকে 
বিরক্ত কঞ্ছবে। না বলে বাড়ী চলে গেলান আজকে 
আপবেো। বলে, কিন্ত আঞ্জ তে! আপনিই খবর. 
পাঠিয়েছেন। থুবভাল করেছে! দির্দি কাল 
না এসে? কাল বড্ড কষ্ট গেছে। কাল এলে 
আমি একট! কথাও বল্তে পারতুষ না এমন 
অবস্থা হয়েছিল! আজ তার চেপে একটু ভাল 
আছি।” গুকে কখা বলতে না দিয়ে আমি আর 
নীলিমা বাইরে বেরিয়ে এলাম। মেক্কে বললেন 
“বাবা তো কখনও নিজের শরীরের কষ্টের কথ! 
বলেন নাঃ কিন্তু কাল ক্রমাগত বলেছেন গুনে 
তোর খগশীর বড় ডাক্তার ডাক আরম আর 
সহ করতে পারছি না নিঃম্বাপের ক্। বা 
কিছু খাওয়ানো হচ্ছে বমি করে ফেলছিলেন 
আর আমার উপর রাগ যে কেন খাওয়াতে 
চেষ্টা করছি। আজ তে। অনেক ভাপ।' মন 
থরাপ করে বাড়া চলে এনাম! খ্গে একপিন 
কথ! হয়েছিল মাচে শিলা বাবার। বলেছিলেন 
তখন দিলীতে শীত কমে বাবে, আমি আর 
তুমি দু-জনেই একলক্ষে বাবো, সেকথা দেশমুখকে 
লিখে দিও । বাড়ী আসতে আসতে ভাবছিল/ম 
মার্চের তো এখনও অনেক দেপী, ততদিনে হুপ্নতো 
আবার কাটিত্নে উঠতে পারবেন, প্রত্যেক বারই 
যেমন উঠছেন। একবারও ভাবি নি যে, এই 
শেষ অন্ুখ। সেই 26শে জাহ্পারীর পরে আর 
আমার সঙ্গে দেখ! হন শি। ওখানে শিল্ে 
গাড়ীতে বলে থেকে খবর নিষ়ে এপেছি, খরে 
গেপে কথা বলবেন বলে। ভাজা রের বারণ 
যোঞ্জই 
খবর নিতে শিত্তে একদিন খবর পেলাম একটু 


মার্চ, 1974] 


ভাল, ডাক্তার যোগেশ ব্যানার্জি বলে গেছেন 
এই রকম ভাঁবে সাবধানে খাঁকলে আশা কর! 
যায় সপ্তাহধানেক পরেই আবার স্বাতাবিকভাবে 
লোকজনের সঙ্গে দেখ! করতে দিতে পার! 
ঘাবে। কথাটাতে মন একেবারে হাক্কা হলো 
ন1, ভাবলাম প্রদীপ নিতে যাবার আগে উজ্জ্বল 
হতে উঠবার মত নয়তো? আমার স্বামীরও 
এই রকম হয়েছিল! লেদিন 2রা ফেব্রুয়ারী, 
ওরা আর খবর নিই নি। 4ঠ ভোরবেলা তশ্লীপতি 
ফোনে খবর দিলেন “প্রোফেলর বোস এই 6টায় 
চলে গেলেন। নিভলো সকলের আশার শ্রদাপ। 

6ই ফেব্রুর়াবী দিল্লী চলে গিত্ষে [এই ফিরে 
এসেছি ঈখবরমিল লেনে আবার বাব সত্যেন 
বাবুরই কাজে বলে। সে বাওয়া আব ]ল। 
জাচুয়ারীতে যাওয়ার মধ্যে কত তফাৎ! 

দিল্লীতে 10ই ফেব্রুারী ভ্াশানাল আকা- 
ডেমী অব সায়েলে সতোম্দ্রনাথের জন্তে শোক- 
স্ভ1 হলো। ডাঃ বি, এন. গাঙ্গুলী সত্যেন 
বাবুর সঙ্গে ঢাকার থাকবার কথ! বললেন। ডাঃ 
কোঠান্ী বললেন বোন-স্ট্যাটিসটিজ-এর কথা, 
ডাঃ পি” আর, রাও আই, এস, আই-র ততব্রফ 
থেকে বললেনঃ আরো অনেকে অনেক রকম 
ভাবে শ্রদ্ধা জানালেন। শ্রীযুক্ত শরদিন্দু বসু, 
যান হাওয়া আফিসের বড়কর্তা ছিলেন আগে, 
বললেন “আমি গওুগ ছাত্রও না, কিছুই ন1, তবে 
আমি পারিবারিক বন্ধু ছিসাবে গর যে রুপ 
দেখেছি, তা না বলে খাঁকতে পারছি না। একটি 
কম বন্পলী চাকর গুর দুধ থেকে চুরি করেখেয়ে 
জল মিশিক্নে গকে খাওযাতো। একদিন ধরা 
পড়ে বাবার গর বাড়ীর লোকের! যখন তাকে 
তাড়িয়ে দেবার পিষ্ধাস্ত নিয়ে ওর কাছে নালিশ 
করলেন, তখন তিনি খললেন--না, ওকে ছাড়াবো 
না। ওকে আমার পমান ছুধের বরাদ্দ করে 
দিতে হবে, তাহলে আর ও ছুধ খাবে না চুরি 
কমে | জাকছাটিকে প্রশ্থ করা হলো! "কিযে 1 আঁ 

$ 


অধ্যাপক সত্যেজ্নাথ বনু 


153 


চুরি করে খাবি না তো?" এইরকম গভীর করণা 
ছেগেটার প্রতি। বেচারার এই তো ছুখ খাবার 
ব়স। খেতে লোভ হয়েছে তাই চুরি করে 
খেয়েছে, খেতে দিলে আর চুরি করবে না। 

একথ! শে।নবার পরে আমিও কপেকটা কথ! 
নাবলগে থাকতে পারলাম লা। বললাম এওনসণ 
সকলে মানুষের শ্রতি ভালবাসার কথাই 
বললেন। কিন্তু জানোয়ারের প্রতি তালোবাপার 
কথ! কেউই উচ্লেখ করলেন না। আমি সম্প্রতি 
একটি ঘটন1 বা দেখেছি, সেট! বলতে চাঁই। 
এই কেক দিন আগে বখন অত্যন্ত ঠা! পড়ে 
ছিল, দেই সমন একদিন সত্যেনবাবুর বাড়ী 
গিয়ে দেখি গৃহকর্তার চমণ্কাঁর দামী লেপ, 
তার নতুন ওয়াড়ন্ুদ্ধ, মাটিতে খাটের কাছে 
পড়ে আছে। “একি এত ভাল শলেপটা মাটিতে 
কেন? বড় মেয়ে নীলমা হেসে বললেন “ওটাতে 
বাবার আদরে বেড়ালটা কাল রাত্রে বাচ্চা 
দিয়েছে, তাই বাচ্চান্হ্ধ, তাঁকে মাটিতে নাবিষ়ে 
দেওয়া হয়েছে । রানে ব্যথার কষ্ট হচ্ছিল, 
লাফ দিয়ে বাবার বিছানায় উঠে গড়ে & 
লেপের উপরে বাচ্চা দ্বিলো। জানে এ খাটের 
উপর্টাই সবচেক্কে নিরাপদ জাগা । আমি 
বললাম 'পত্যেনবাবুব একি রকমের আদর 
বেড়াগকে ? অত তাল লেপটা ওর জনে 
নষ্ট করলেন? “আহা বেচারা বেশ আরামে 
ওর মধ্যে আছে, ওকে আর বিরক্ত করবার 
দরকার কি? ওখানেই থাককু না, কিন্ত এই 


প্রচণ্ড শীতে আপান কি গাকে দেবেন? 
বেড়াঁপকে তো লেপটা দেওয়া হুলো। আরে 
আমার একট! ব্যবস্থা হয়েই বাবে । ওরা দেবে 
আমাকে একট! কথলটন্র* কিছু। আশ্র্ষ! 


অনেকেই ঘরে গিকে দেখেছে একট! বেড়াল 
কোলে, একট পাশে আর একটা খাটের এক 
কোণে আরামে বসে ম্াছে। এই ছুমুল্য 
বাজান্ছে বখন লোকে মাছ থেছে পাচ্ছে লা, 


154 


একদিন গিয়ে দেখি তিনটে বেড়াল মাটিতে 
খাটের ধারে বসে তাদের জন্তে মস্ত মস্ত টুকরো 
পাকা রুইমাছ এলো, অন্ততঃ আধসের হবে। 
'পত্যেনবাবু একি, আমরা যে দাখের জন্টে 
এতবড় মাছ আজকাল খেতে পারি না। “শাহ 


হিংসে করো কেন? ওরাও খার আমিও 
থাই। শুধুই কি ওরা খা? বড় মেঙে 
বলবেন 'আনদপে বাবা নিজের নাম করে 


আনিষ়ে বেশীর ভাগটাই ব্ড়োলকে খাওয়াঁন__ 
কাজেই কিছুই আর বলবার উপাত্ব লেই।' 
আমার স্বামীরও ঠিক এই্টরকম ছিল--এ বিষয়ে 
ছুই বন্ধু একেবারে সমান। 

পেদিন শ্রান্ধ বাঁসরে যখন গিয়েছিলাম মেয়েরা 
বঙ্গাছল বাবা ধখন ছিলেন, ঠিক ছুপুর হলেই 
তিনটে বেড়ালই কি চীৎকার নুরু করতো 
খাবারের জন্তে। আজকাঁশ বাড়ী একেবারে 
চুপ, একজনেরও গলা শোনা বায় না। খেতে 
না দিলেও চেচামেচি করে না। আমি বললাম-_- 


জাল ও বিজন 


( 27৩ম ব্য, 2 সংখ্যা 


আমারও ঠিক এই -অতিজ্ঞতা। আঁমাঁর স্থামী 
মার] বাবার পর ওর সবচেষে প্রিক্ন বেড়ালটা 
বে সর্ধদাই গুয় কোলে বসে থাকতে! যখন 
আপন মনে কাজ করে যেতেন, সে একেবারে 
থাওঝ়া ছেড়ে দিল। মুখে একটি শব নেই, 
সমন্তক্ষণ ওর পড়বার ঘরের বন্ধ দরজার সামনে 
শুনে পড়ে থাকতো | হালপাালে নিয়ে গিয়ে, 
ডাক্তার দেখিপ্পে, ওষুধ খাইয়ে কিছুতেই কিছু 
হলে! না। একদিন সকালে দেখি মরে পড়ে 
রয়েছে । জানোতাররা আশ্চর্য বুঝতে পারে। 
সত্যেনবাবুর বে গভীর দরদী মন, তা বেড়াল 
তিনটে বোধ হয় মান্থষের চেত্েও বেশী 
বুঝতে পারতো । একটি পগ্ুর্ণ মাঁছষকে 
আহরা হারিয়েছি। কেবল মনে হয় ওর 
প্রতিভার চেরেও বড় ছিল গর ব!ক্তিত্ব, সহজ 


অঙ্গরাগে ভর! হৃদয়। গুর শম্বষ্ধে সত)ই 
বলা চলে তোমার কীর্তির চেয়ে তুমি 
যে মহৎ | 


আচার্য বোসের শেষ অঙ্ক 
পদিমলকান্তি ঘোষ* 


আচার্ধ বোস জীবন-সাধ়াছে যে ফেব্খ! 
(ছ12)96) সংখ্যাগুলি ক্রিম অর্থাৎ মৌলিক নয়, 
সেগুণির গুণনীয়ক নির্ণয়ে ব্যাপূত ছিলেন। 
অপরের কষা অন্ধ তার তাল লাগতো না--সেটা 
আবার নিজের মত করে নিজে না কষলে তার 
পরিতৃপ্থি হতে! ন1। তাই তিনি এই বিষরটির আদি 
থেকে পুন্রাহশীলন করছিলেন। তার মৃতু হয় 421 
ফেব্রুয়ারী 1974 সোমবার প্রভাষে--তার আগের 
শপিবাছ (2 ফেরী ) তিনি একটু নুম্থ বোধ 
করছিলেন বেশ কয়েক দিনের কষ্টের পর এবং 
সেদিন খাঁভা-কলম নিত্ষে এই সধন্তান্ধ আহা 


পরম্পরার (520186706) পদ। 


হাত দিয়েছিলেন। হূর্বলতাঁর জগ্তকে ভার হাত 
চলছিল ন1--একটি দৌহিত্রকে দিকে নিজের কব্জিটি 
ধরিয়ে ধা লিখেছিলেন, তাঁর ফটো! বিভিন্ন পত্র- 
পত্রিকায় ছাপ হয়েছে। 

এখন এই ফের্যা সংখ্যার প্রপঙ্গে আগা ঘাক । 
সর্ককাঁলের সৌখিন গণিতজ্ঞর্দের প্রধান ফেব্ম। 
(1601---65 ) লক্ষ্য করেন যে? 3, দ৯ 17, 257, 
65537 এই সংখ্যাগুপি মৌলিক--এগুলি একটি 

এই পরস্পরার 


* ফলিত গণিত বিভাগ, বিজান কলেজ 
কলিকাত[-7000095%, 


মার্চ, 1974 | 


(74+1)-তম পদ ম০৮2৭ 4115 0১০05152501 
7৩, মও, দত, 7॥ কে মৌলিক দেখে এবং পরবত্তখ 
সংখ্যাগুলি মৌলিক কিনা ঠিক করা সমর ও 
পরিশ্রীমসাপেক্ষ বুঝে ফের্্। বলেন যে, এউ পর- 
ম্পরাঁর পরবর্তখ সংখ্যাগুলি৪ মোঁদিক হবে। তাঁর 
এই আনান প্রষাণ করতে পেকেছিলেন বলে ভিনি 
দাবী করেন নি। পরবতাকালে প্রম।পণিত হন্স ভাপ 
অভুমাঁন সঠ্রিক নপ্প--এমন কি ঠিক পররতা দুটি 
পঙ্দ [১ ঢুতই যৌগিক নয্ব। ওবে এদের 
গুণপীন্ক বের করতে ফের্মার পর বহু সময় 
অতিক্রান্ত হয়েছিল। ছ'ঃ যে ছুটি নিভিক্ন মৌগ্সিক 
সংখ্যার গুণকল, তা বিখ্যাত গণিতজ্ষ আ.লাঁর 
(50121) আবিক্ষার করেন 1792 সালে। £6- 
এর শ্রথম মৌপিক গুণনীরক বের করেন জ্যাণ্ডি 
(1,525) 1880 সালে। এটা প্রমাণ ক্র! 
যায় বে, চুঃও ঢুঃ-এর মত ছুটি মৌলিক সংখ্যার 


আচার্য সত্যেজ্জনাথকে যেমন দেখেছি 


155 


গুণফল। 1905 সালে মোরছেড (410761680) 
প্রমাণ করেন যে ঘি? কৃত্রিম সংখ্যা এবং 1903 
সালে মোরছেড ও ওয়েস্টার্ন (ড/5506117) প্রমাণ 
করেন ৪৩ মৌটিক। চর-এর অঙ্ক সংখ] 39 ও 
হি এর অস্ক সংখা। 781 

66 বছর পরে 1971 সালে বড় কম্পিউটারের 
সাহাব্যে 71-.এর গুণনীরক বের করা স্ম্তব হয়েছে। 

চ৪ও-এ গুধনীকক এইভাবে বের করার চে! 
এখনও হয় ণি। আরগু অনেক ফের্দা সংখ্যা 
যে কজ্িম, তা প্রমাণিত হয়েছে। বিখ্যাত 
জার্স(ণ গপিতজ্ঞ গাউস (38033 1777-- 1555) 
প্রমাণ করেন বে চু”? যদি মৌত্রিক হয়, তবে 
রুলার ও কম্পাস-এর সাহ।যো ঢ* বাহবশিষ্ট সুষম 
ব্ৃভুজ একটি বৃত্তে অন্তপিখিত কর! বায়। 
আচার্য বোঁপ এক সমন এই বছুভূজের আন 
শিয়ে চর্চা করেছিজেন। 


আচার্ধ সত্যেন্দ্রনাথকে যেমন দেখেছি 


জয় বন্দ 


গত দশ-বারে। বছর ধরে বিশ্ববিশ্রুত বিজ্ঞানী 
আচার্ষ সত্যেজনাথ বন্ুর ঘনিষ্ঠ সাতিধ্যে আলবার 
পরম সৌতাগা আমার হয়েছিল। যদিও মূলতঃ 
বঙীয় বিজ্ঞান পরিষদ্দের নানান কাজকর্ম 
উপলক্ষ্যে পরিষদের প্রতিষ্ঠাতা-সভাপতি আচার্ধ 
সতোজ্নাথের সংস্পর্শে আসবার আমার এই 
যোগ ঘটেছিল, তাহলেও তার মত অমাগিক 
ও উদায়চেতা মাহুষের সঙ্গে পরিচত্জ স্বাভাবিক 
ভাবেই কোন নিদিষ্ট গণ্ডীর মধ্যে সীমাবদ্ধ 
ছিল না। তার ব্যক্তি-মানসে যেমন বিজ্ঞানের 
একটি শক্তিশালী ধারা প্রবাহিত ছিল, €তখনি 
আবার ছিল সাহিত্যের ধাবা, সঙ্গীতের ধারা 
এবং সিবচেছে বোধ হৃঙ্গ বা উল্লেখবোগা-্্ষান- 


বিকতার ধারা । এই সব ধারার মিলনে তার 
ব)ক্িদ্বকে আমার মনে হতো! এক মহাসাগরের মত 
--কী ব্যাপক তার প্রপার, ক অগাধ তার 
গভীরতা ! 

আচার্য লতোম্দ্রণাথের জীবনের শেষ দিন 
পর্যস্ত জ্ঞানের প্রতি ছিল অপস্সীষ ওৎসুকা, 
বহিজানের প্রতি সুগভীর নিষ্ঠা । আমার মত সাধাদখ 
বিআঁনীদের সঙ্গে আলোচনা সমদে তিনি 
জানতে চাইতেন আ।মাদের গবেষণার বিশেষে 
বিশেষ কেত্রে কফি কি কাপ হচ্ছে, কি গুরুত্ব 
সেই লব কাকের, আমর! নিজের কে কিকাজ 
করছি। আর তার ন্ঠার কথা! দ্দানি বাকি 
গত আভতিজত।য় দেখেছি, বিজ্ঞানের কোল 


156 


সমস্তার কথ তাকে বললে বৃদ্ধ বহসেগ তিনি 
কি রকম মনোষোগ দিযে তা শুনতেন গ্রবং 
কত বত্ব সহকারে তার সমাধান করে দিতেন। 

আ]চার্ধ সতোঙ্্রনাথ একদিকে যেমন কাজে 
একাগ্রচিত ছিলেন, অন্তদিকে ছিলেন আবার 
তেমনি দিলখোলা, মঞ্জপিসী মানুষ। কেউ কেউ 
বলে থাকেন, তিনি যদি গল্প-আলোচনায় 
সময় নষ্ট না| করে গবেষপাতেই সারাক্ষণ নিযুক্ত 
থাকতেন, তাহলে তিনি আরও উলেখযোগ্য 
অবদান রেখে ঘেতে পারতেন। তারা, তুলে 
যান, যে গাঁছে যেমন ফুল হন, সেই গাছের 
নিজন্ব চাছিদা অন্যযাক্সী তাঁর আলো হাওয়ারও 
তেমনি প্রঙ্নোজন। সত্্জনাথের প্রতিভাকে 
বাচিয়ে রাখবার জন্তে মজলিপের খোলা হাওয়ার 
হয়তো আঁবশক ছিল, গবেষণার মধ্যে তাঁকে 
সব সমন্গ আবদ্ধ রাখলে হতো সেউ প্রতিভার 
অপমৃতুা ঘটতে || 

আচার্য সত্যেত্রনাথের যে গুধটি আমাকে 
অত্যন্ত আকৃষ্ট করতো, তা হলো তার আঁড়খবর- 
হীনতা, তার নিরহক্কার আচরণ। 0816101 
09161655299+-এঞর মত এটা কোন পে।ষাকী 
আড়ম্থরহীনতা ছিল না-এট! ছিল তাঁর হচ্ছ 
সরল অন্তরের অমূলা সম্পদ। অথচ আড়ম্র 
করবার মত, গর্ব করার মত, বুক ফুলিয়ে বলবার 
মত কত কিছুই তো তার ছিল--বার অংশ 
মাত্র থাকলেও আজকালকার বেশীর ভাগ মাঞ্জষ 
ফুলে ফেপে ঢোল হয়েষায়। 

কয়েক বছর আগে বলীয় বিজ্ঞ/ন পরিষদের 
একটি অনুষ্ঠান সম্পর্কে কোন এক বিষয়ে তার 
সঙ্গে আমার সামান্ত মতভেদ হুছ্ছেছিল। খন 
আমি পরিষদের কর্মসচিব হলে আচার্যদেৰ 
কেবল পরিষন্দের প্রতিষ্ঠাতা-সঙ্তাপতিই ছিলেন 
না, দেশের বিজ্ঞানক্ষেত্রে তিনি ছিলেন এক 
'নুছপারপ্য বনম্পতি'। পরিষদের কার্ধকরী 
সমিতির সভাঙ্গ আমার মতকে তিনি অনায়াসেই 


আন ও বিজ্ঞান 


[27তম বর্ধ, 3 সংখ্যা 


নহ্যাৎ করে দিতে পারতেন, কিন্তু তিনি ত! 
করেন নি; আমার যত পামান্ত মানুষের বক্তব্যের 
যৌক্িকতাও ডিনি স্বীকার করে নিশ্মেছিজেন। 
আমি ভেবেছিলাম, এরপর তিনি ছয়তো আমার 
উপর ক্ষুব্ধ হতে খাকবেন। কিন্তু ক্ষুদ্ধ হও] 
তো দূরের কথা, এর পর থেকে আমার উপ 
তার বিশ্বাস ধেন বহুগুণ বেড়ে গেল। তিনি 
সত্যিকারের মহৎ ছিলেন বলেই তার কোন 
আত্মতিম।ন ছিল না! 

আচার্য সত্যেত্নাথ ছিলেন অত্যন্ত নির্ভীক 
ও ম্পট্ট বক্তা । যে পথ তিনি সঠিক বলে মনে 
করতেন, হাজার প্রীতিকূলতা সত্তেও তিমি তা 
থেকে বিচ্যুত হতেন. না। কোন রকম কপটত 
তিনি পছন্দ করতেন না। বারা বাংলা ভাষায় 
বিজ্ঞান প্রচারের গুরুত্বের কথা বলে থাকেল, 
অথচ এই উদ্দেশ্রে স্থাপিত সবচেন্কে উল্লেখযোগ্য 
প্রতিষ্ঠান বঙ্গীর় বিজ্ঞান পরিষদের সঙ্গে কারতঃ 
কোন রকষ সহযোগিতা করেন না, ভাদের 
সম্পর্কে আচার্ধের মন্তব্য ছিল অত্যন্ত কঠোর। 

আচার্য সত্যেত্রনাথের চরিত্রের যে দিকটির 
কথা আমাদের সকলেরই জানা উচিত, ৩1 হলে! 
ভার শ্বদেশের প্রতি আন্তরিক ভালবাসা, মানুষের 
প্রতি অক্ত্রিম শ্রীতি। তাকে একবার জিজ্ঞাসা 
করেছিলাম, তার বিজানচর্চ(র, তার এতিছালিক 
গবেষণার অনুপ্রেরণ। কি ছিল? তিনি খুব 
সহজভাবে বলেছিলেন, যে বিজ্ঞানের জোরে 
সাহেবদের এত উন্নতি, এত প্রতিপত্তি, আমাদের 
দেশের মাধ যে সেই বিজ্ঞানে সাহেবদের 
গমান হতে পারে, সাহ্বেদের চেয়ে তার! যে 
কোন অংশেই ছোট নক্ব--এটাই প্রমাণ করবার 
অদম্য ইচ্ছা ছিল ভার ও তায় সমসামগ্নিক 
আনেক বিজ্ঞানীর মনে। মাতৃভাষার মাধ্যমে 
বিজ্ঞানশিক্ষার প্রপারের জন্তে সঙ্যেজনাথের যে 
নিরলস প্রচেষ্টা, তা ভার শ্বদেশপ্রেমেরই এক 
উজ্জল নিগর্শন। তিনি বুঝেছিলেন, আমাদের 


মার্চ, 1974 ] 


দেশকে জগৎ-সভায় প্রতিষ্ঠিত করতে হলে 
দেশকে সর্বতোঁতাবে বিজ্ঞানমুখী করতে হবে 
এবং এটা একমাত্র করা পম্ডব মাতৃভাহার 
মাধমে বিজ্ঞান শিক্ষার ব্যবস্থা করে। এ জন্তে 
তাঁর অনুপ্রেরণা ও উৎ্সাঁছে আমাদের শ্বাধীনত। 
লাভের অব্যবহিত পরে 1948 সালে বঙ্গীয় 
বিজ্ঞান পরিষদ প্রতিঠিত হয়। বিজ্ঞান পরিষদের 
উদ্দেশ্ত প্রদজে তিনি বহুবার বলেছেন, বদি 
কোন দেশ বলতে দেশের উপরতলার লৌকদেরই 
ফেবল না বুঝা, বর্দি দেশের অসংখ্য লাঁধারণ 


আচার্য দত্যোজানাথ বন্দু 


157 


যাঁছষকেও বুঝা, তাছলে সেই সব সাধারণ 
মাছষ উন্নত হলে তবেই তো! দেশকে উন্নত 
বলা বাবে; আজকের দিনে সাধারণ মাচষের 
উন্নতি করতে হলে মাতৃভাবাক্ন ব্যাপকভাবে বিজ্ঞা- 
নের প্রচার ছাড়! নাঃ গস্থা। বঙ্গীন বিজন 
পরিষদের শ্রীবৃদ্ধি ছিল আচার্য সত্ন্্রনাথের 
বহু দিনের স্বপ্ন ও সাধনা । তাঁর অন্তরের 
আত্মীর এই যে প্রতিষ্ঠান, এর উত্তরোত্তর উন্নতির 
জন্তে যদি আমরা বখালাধ্য সচেষ্ট হই, তৰে তাই 
হবে আচার্ধদেবের প্রতি আমাদের বখার্থ শ্রদ্ধার্ঘ্য 


আচার্ধ সত্যেন্দ্রনাথ বন্তু 


জীবনকথ। 


উনবিংশ শতকে বাংলা তথা ভারতের জাতীয় 
জীবনের নান ক্ষেত্রে যখন নবঞ্জাগরপের তর! 
জোকার প্রবহমান, সেই গৌরবোজ্ছল হ্বর্ণযুগের 
শেষতাঁগে 1894 সালের পর়গা জান্থগারী উত্তর 
কলকাভায় পৈতৃক বাড়ীতে সত্যেরনাথ বনু 
জন্ম! তার পিতা শুরেজনাথ বনু ছিলেন 
রেলওয়ের হিসাবরক্ষক এবং তার মাত! 
আমোদিনীদেবী ছিলেন আলিগুরের লব্প্রতি্ঠ 
আইনজীবী মতিল/ল রাকচৌধুরীর কন্ত]। 

স্থরেশ্রনাথ ছিলেন খুব উদ্োগী পুরুষ। 
চাকুরিতে লিগ থাকলে তিনি সতীশ ব্রঙ্ধ 
মশান্নের সহযোগিতায় অবিভক্ত বাংলার সর্বপ্রথম 
রাসাঞনিক প্রতিষ্ঠাণ স্বাপন করেন । তিনি ছিলেন 
যেমন উদারচেতা ও বিবিধ মানবীক্গ গুণসম্পর, 
তেমনি আমোদিনীদেবীও ছিলেন নান! গুণ 
সম্পয়া। শতে)শ্রাণাথ তার পিতামাগার প্রথম 
ও একমান্ত্র পুত্রসস্থান এবং সকার তরী ছয় জন। 
1939 সালে আমোদিনী দেখী এবং 1964 সালে 
হয়েজনাথ পরলোক্গধন কফেন। 


সত্যেঞ্জনাথ বাল্যকাঁলে কিছু দিন নর্মাল স্কুলে 
(রবীজলাথ একদা! এই স্কুলের ছাত্র ছিলেন) পড়েন 
এবং তারপর বাড়র কাছে নিউ ইত্ডিজান হ্কুলে 
ভি হন। এটা স ক্লাশে ওঠবার পর ঠিনি হিন্ঠু 
স্কুলে যোগদান করেন এবং এই হ্কুল থেকেই 1909 
সালে এ্টাঁল পরীক্ষায় পঞ্চম স্থান অধিকার 
করেন! এরপর ভিনি প্রেসিডেন্সী কলেজে আই. 
এলসি পড়! স্বরে করেন। স্ুল ও কলেজে 
প্রবেশের সঙ্গে সঙ্গে ভার তীক্ষ মেধা ও অলাধানণ 
প্রতিভা শিক্ষক ও সহপাঠী সকলের দৃষ্টি আকর্ষণ 
করে। 191] সালে আই. এস-সি পরীক্ষায় 
সত্যে্জনাথ শীর্ষস্থান অধিকার করেন এবং এরপর 
বিশ্বহিষ্ঠালছের সর্ষোচ্চ পরীক্ষা পর্বস্ত ভার এই 
স্থান অঙ্গুগণ ছিল। 

প্রেপিডেন্সী কলেজে মাধ মিক শ্রেণীতে সতীর্ঘ- 
ক্ষপে তিনি পেছেছিলেন জ্ঞানচত্দ্র ঘোষ আনেত- 
নাঁথ মুখোপাধ্যায়, পুলিনবিহারী সরকারকে এবং 
বি. এস-পি শ্রেনীর প্রথম বর্ষে সতীর্ঘুরধপে বোগ- 
দান বর়েন মেখনাদ সাহা! ও নিখিলরঞ্জন সেন | 


158 


প্রেসিডেন্সী কলেজ তথ! কলিকাতা বিশ্ববিভ্ভালঙ্কের 
ইতিছাপে এতগুলি কৃতী বিজ্ঞান-ছ।ত্রের সমাবেশ 
আর কথনঞ্ দেখা বাছ নি। শিক্ষকরপেও তারা 
পেয়েছিলেন আচার্য জগর্দীশচঙ্ত্র, আচার্য প্রফুজ- 
চচ্ছ, অধ্যাপক ডি. এন. মল্লিক, অধ্যাপক কাঁলিস 
(091115) প্রমুখ বশদ্বী শিক্ষাব্রতীদের। 1913 
সালে বি. এপ-পি পঞ্ণক্ষ।ক় গপিত অনার এবং 
1915 সালে এম. এস-সি পরীক্ষায় মিশ্র গপিতে 
সত্যেক্নাথ প্রথম স্থান অধিকার কষেন। এম.এল 
“সি পড়বার সমন 1914 সালে ভাং ধোগেজনাথ 
ঘোষের কন! শ্ীঘতী উষ।বাঁলাদেবীর সঙ্গে তর 
বিবাহ হয়। 

এম এস-পি পরীক্ষায় সসন্মানে উত্তীর্ণ হবার অল্প 
কিছু কাল পরে 1916 সাঁলে সার আগুতোধ নৰ- 
গঠিত বিশ্বণ্স্ত(লয় বিজ্ঞান কলেজে দিশ্র গণিত 
ও পদার্থবিদ্য। উভয় বিভাগে অধ্যাপনার জঙন্তে 
সত্যেম্রনাথ, মেঘমাদকে আহ্ব।ন জান।ন। 190) 
সাল পর্ধন্ত সত্যেম্রনাথ এইখানেই উচ্চতর পদার্থ- 
বিদ্যা পঠন-পাঠন ও গবেষণায় আত্মমিক্জোগ 
করেন। 1931 সালে নব-প্রতিঠিত ঢাকা বিশ্ব" 
বিস্তালষে পদ্দার্থবিস্ভার নীডারপদ গ্রহণের অন্তে ভার 
কাছে আহব।ন আনে এবং তিলি সেপদে যোগদান 
করেন। এইধানেই অধাপনাকাঁলে 1924 সালে 
সঙোন্রনাথ তার এবোল-সংখ্যায়ন? (895০- 
96051156109) সম্পকিত জুবিখযাত গবেষণা-পত্রটি 
অধ্যাপক মাঁইনষ্াকঈনের কাছে তার অভিমত 
জানবার জগ্ভে পাঠান। বোপের কাজের 
অন্ডিনবত্ধে আকৃষ্ট হয়ে আইনই্রাইন নিজে এই 
পজ্জটি জার্মান ভাবাক অঙ্গবাদ করে স্থপ্র্িহ্ধ 
ল।ইটশিকট ফুযুর ফিক পত্রিকার প্রকাশ 
করেন। সঙ্গে সঙ্গে বিজ্ঞান-জগতে একটা আলোড়ন 
দেখা দেয়। 

এক কিছুকাল পরে চাকা বিশ্ববিস্তািয়ের 
অর্থপাহাধা লাত করছে তিনি ছুণ্বছরের আস্তে 
ইইগোশ বাজ করেন। এই স্মক়্ জার্মেনীতে 


জাল ও রিয়াজ 


[ 87তম বর্ষ, ও লংখা। 


গিয়ে তিনি আইনই্াইবের সঙ্গে ঘনিষ্ভাবে 
মেলামেশা ও আলোচনার এবং ফাল মাদাম 
কুরীর গবেষণাগারে কাজ করবার স্থযোগ পান। 

ইউরোপ থেকে ফিরে আপবার পর 1927 
সালে সত্যেকত্রনাথ ঢাকা বিশ্ববিস্ঞাঁলয়ে পদার্থ" 
বিদ্ভার জআধ্যাপকপদে যোগদ।ম করেন এবং 
কিছু কাল পরে বিজ্ঞান বিভাগে ভীন নির্বাচিত 
হন! ঢাঁকান অধ্যাপনাকালে 1929 সালে 
তান ভারতীয় বিজ্ঞান কংগ্রেশের পদার্থবিজ্ঞান 
শাখায় এবৎ 194 সালে দিল্লীতে অনষ্ঠিত 
বিজ্ঞান কংগখ্রেপের 31তম অধিবেশনে মুল 
সভাপতির পদে বৃত হন । 

1945 সালে সন্যোনাথ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় 
থেকে চলে এসে কলিকাত! বিশ্ববিস্তালরে পদার্থ- 
বিজ্ঞানের খয়রা অধাঁপকক্ষপে যোগদান করেন। 
1956 লাল পর্যন্ত ছিনি উক্ত পদে আসীন 
ছিলেন এবং আ্রাতকোত্তর বিজ্ঞান বিভাগের 
সভাঁপতিও ছিলেন কয়েক বছর। পদার্থবিআন 
বিতাগ থেকে অবপর শ্রছণ করবার পর বিশ্ব 
বিদ্ভালয় তাকে এমারিটাল অআধ্যাপকপদে 
নির্যাচিত করেন। ইতিমধো বিশ্বভারতী বিশ্ব- 
বিছ্বালয়ের উপাঁচার্ধপদ গ্রহণের জনে ভার 
কাছে আমন্ত্রণ আসে। শ্রান় তিন বছত্ব কাল 
উক্ত পদে তিনি খহিষিত ছিলেন! 1959 
সালে ভারত সরকার ভাকে পদার্থ-বিজ্ঞানের 
জাতীর অধ্যাঁপকপদে নিধুক্ত করেন। জীবনের 
শেষ দিন পর্যগ তিনি এ পদেই নিজের গব্ষেপার 
ব্যাপুত ছিলেন। 1953 সালে কপিকাতা 
বিশ্ববিদস্বালয়ে অধ্যাপনাকালে সত্যেজজনাখের আর 
একটি অতি গুরুত্বপূর্ণ তত্র গবেষণা বিজ্ঞান-জগতে 
হিশেষ আলোড়ন সৃষ্ট করে। সেটিহুচ্ছে একক 
কেএঅতত় সম্পর্কে ভার গবেষণ।। 

সতোজ্নাখের ছাঁজ ও কর্মজীবন ঘেখম মালা 
কছিম্কে. পমুজল, তেখনি গেশ-বিদেশের নানা 
সম্মাননায় তিনি সমাদৃত হয়েছিলেন। 1957 


মার্চ, 1974 ] 


সালে কলিকাতা বিশ্ববিদ্যালয় শতবার্বিকী উপলক্ষে 
কে সম্মানসূচক ডকউটয়েট উপাধি প্রদান করেন। 
1961 সাপে রবীশ্রনাথের জন্ম-শতবাবধিকীতে 
বিশ্বতারতী বিশ্ববিষ্ঠালর তাঁকে “দেশিকো তথ 
উপাধিতে ভূষিত ঞরেন। এ ছাড়া যাদবপুর, 
এলাহাবাঁদ, দিল্লী ও রবীআভাঁরতী বিশ্ববিদ্যালগ্ন 
এবং ভারতীয় পরিসংখ্যান মন্দিরও ( ইতিয়ান 
স্ট্যাটিতিকাল ইনগিটউট ) ভাকে সম্মানশ্চক 
ডক্টরেট ভিগ্রী প্রদান করেছেন। 1954 সালে 
তারত পরকার তাঁকে 'পন্দবিভূষণ* পম্ম(নে ভূষিত 
করেন এবং 1958 সালে তিনি লগ্ডনের রয়েল 
সোসাইটির ফেলো মনোনীত ছন। 1974 সালে 
এশিকাঁটিক সোসাইটি ঠাকে সম্মানী সদশ্ত পদ 
প্রদান করেন । 1952-59 লালে তিনি রাষ্ট্রপতি 
মনোনীত রাঁজ্যসতার সদশ্ত ছিলেন। বিদেশ 
বৈজ্ঞানিক সংস্থার আমস্্রক্রমে এবং ভারতের 
প্রতিনিধি হিসাবে তিনি বহুবার আত্তর্জাতিক 
সম্মেলনে যোগদান করেছিলেন। ভারতের 
একাধিক বিশ্ববিস্ঞালয়ের সমাবর্তন উৎসবে ভাষণ 
প্রদুনের জণ্তে তিনি আমঞ্রিত হয়েছিলেন। 
তার মধ্যে সবচেয়ে উল্লেখযোগ্য হচ্ছে 1973 
লালে কলিফাতা খিশ্ববিচ্তালগ্ের সমাখর্তন উৎ্পবে 
প্রধত্ত তার বাংল! ভাষণ। রবীশ্রনাথ কলিকাতা 
বিশ্ববিস্াালরের লম।বর্তন উৎসবে স্প্রথম বাংলার 
ভাষণ দেবার দীর্ঘ 36 বছর পরে সত্যেত্রনাথই 
আবার বাংলা সমাবর্তন ভান্বণ দিয়েছিলেন। 
সত্যেজনাথ বিজ্ঞানী হুলাবে আন্তর্জ।তিক 
খ্যাতি ও সম্মানের অধিকারী হয়েও তার 
বিজ্ঞানলাধন। দেশের এরখর্খ বুদ্ধিতে ও দেশের 
জনসাধারণের ছুংখদারিস্র্য মোচনের জন্তে 
নিয়েজিত করতে সমুৎসক ছিলেন। আর এই 
কারণেই তিনি চেক্চেছিলেন দেশের জনমাঁনসে 
বিজ্ঞানচেতনার প্রকৃত উন্মেষেক় জন্তে মাতৃভাধার 
মাধ্যমে সর্বস্তরে বিজ্ঞানচর্চা হোক। এই উদ্দেশে 
চাকা থাকাকালে সহ্ৃকম' বিজ্ঞানীদের সহ্- 


আচার্য সভ্যেআনাথ বনু 


159 


বোগিতাক়্ তিনি বাংলা ভাষাক্স “বিজ্ঞান পরি? 
নামে একটি টমাসিক পত্রিক]! প্রকাশ কৰরেন। 
দেশের স্বাধীনতা লাভের পর ঠিনি তার অস্তরা- 
কাজ্ষাকে বাস্তবে রূপার়িত করবার অন্কে 1949 
সালে বিশিষ্ট বিজ্ঞানীদের সহযোশিতার বয় 
বিআঞান পরিষদ প্রতিষ্ঠা এবং তার মুখপত্র 'আান 
ও বিজ্ঞান পত্রিক] প্রকাশ করেন? শেষ জীবনে 
এই বিজ্ঞান পরিষদই ছিল তার ধ্যান জানশশ্বপ্প। 
এই প্রতিঠানেহ মাধমে তিনি জীবনের শেষ দিন 
পধস্ত দেশের সাধারণ মাচছুষের কাছে বিজান্রর 
কথ! প্রচার ও প্রসারের জর্ডে নিরন্তর প্রলাপ করে 
গেছেন । 

1964 লালে সঙ্োম্রনাথের সপ্ততিতম জন্ম 
দিনে মহাজা।ত দদনে পশ্চিম বঙ্গের তৎকালীন 
মুখ্যমন্ত্রী জীপ্রকুল্লচশ্র সেনের সম্তাপতিত্ে এক 
মহতী সভা দেশবাশীর পক্ষ থেকে তাঁকে 
সম্বর্ধনা জানানো হয়। এই উপলক্ষে তিন খণ্ডে 
বিশেষ শ্থাঁএক গ্রন্থ প্রকাশ কর! হয়। গ্রথম থও 
আচার্ধ বন্ুর বোপ-সংখ্যায়ন সম্পফকিত ছুটি 
বিখ্যাত গব্ষেণা-পত্রপমেত অন্াঞ্ গুরুত্বপুর্ণ 
গবেষণা-পন্রগুপির সংকলন, দ্বিতীকন থণ্ডে বিশ্বের 
বিশিঃ বিজ!নাদের গবেষণা সপত্র এবং ভূতীর খণ্ডে 
এই উপলক্ষে আফজকোজিত আলোচনা-চক্ষের 
গবেষণাসপত্রপমূহ প্রকাশিত হত্প। 

আচার্ষ বস্তু মূপতঃ ওতীক়্ পদার্থ-বিজ্ঞানী হলেও 
পরীক্ষামূলক পদার্থবগ্ত। ও জৈব রসায়নেও ভার 
অবদান বড় কম ছিল না। এছাড়া নৃপ্ততব, 
জীববিগ্য!, প্রন্থতত্ব, ইতিহাস ইত্যাদি বিষয়েও 
ঠা আগ্রহ ছিল স্ুগভীর। বিজ্ঞানের ক্ষেত্র 
ছাড়িয়ে সাহিত্যে, সঙ্গীত এবং শিল্পকলার ক্ষেত্রেও 
ছিল তার স্বচ্ছন্দ বিচরপ। প্রমথ চৌধুরীর “সবুক্জ- 
পত্র আসর এবং সুধীআঅনাথ দত্তেছ 'পরিচক্স? 
গোঠীর সঙ্গে তিনি ঘনিষ্ঠভাবে যুক্ত ছিলেন। 
রবীজনাথ এবং শরত্চঞ্জের সঙ্গেও তার যোগা- 
ধোগছিল।! বধীশ্রনাথ কার অভুলনীত বিজাদ- 


160 


গ্রন্থ এশ্বপরিচন্জঃ সত্যেনাখের নামেই উৎসর্গ 
করেন। সত্যেন্রনাথের সাহিত্যকর্মেণ শ্বীকতিতে 
বিজ্ঞানের সংকট ও অন্তান্ত প্রবন্ধ” গ্রন্থের জন্তে 
1965 সালে কলিকাতা বিশ্ববিস্ঞালক্ন তাকে 
জগত্ভাঙিণী পক প্রনান করেন। শান্রী সঙ্গীতে 
ভার জ্ঞান ও অনুরাগ ছিল যেমন গভীর, 
তেমনি তিনি নিজে ভাল এল্াজ বাজাতে 
পারতেন। 

এই বছর (1974) আচার্য বস্থুর অশীতিতম 
জন্মবাধিক্শী উপলক্ষে নানা অগ্ঠানের আয়োজন 
কর! হক্সেছিল। পল! জানুযানী ভাঁর জদ্মিনে 
বিজ্ঞান পরিষদ ভবনে জন্মোত্লব কমিটি (স্থানীয় 
শাখা )ও বশীর বিজ্ঞান পরিষদের যৌধ উদ্যোগে 
ভাকে সন্বধ্না জানানে| হয়। বোঁপ-সংখ্যার়নের 
80 বছর পাত উপলক্ষে 4:11 জানুয়ারী বন্ছু 
বিজ্ঞান মন্দির ও বিশ্ববিস্তালজ বিজ্ঞান কলেজে একটি 
আন্তর্জাতিক আলোচনা-চক্র অনুষ্ঠিত হুত্ব এবং 
তাতে বিশ্বের বিঙি দেশের বিশি্ট বিজ্ঞানীরা 
অংশ গ্রহণ করেন। আলোচনা-চক্রের উদ্বোধন 
অনুঠানে ও অগ্সান্ত দিনে আচার্য বস্থু উপস্থিত 
ছিলেন। 1973 সালের 29 ও 91শে ডিসেখর 
কলিকাতা গণিত সমিতির উদ্ভোগে এই উপলক্ষে 
আচার্ধ বসকে সম্ধ্ধন! জানানে! হয় এবং বিশিষ্ট 
বিজ্ঞানীরা দু-দিনব্যাপী সেমিনারে যোগদান 
করেন । 

বঙঈগশপ্প বিজাঁন পরিষদের রজত জন্নস্তী ও 
আচার্ বনুর 60তম জন্মবাধিকী উপলক্ষে বিজ্ঞান 


জান ও বিজ্ঞান 


[27তম বর্ষ, ওর শংখ্যা 


কলেজে যে বিজ্ঞান প্রদর্শনীর আরোজন কর] হয়, 
22শে জাহয়ারী সন্ধ্যায় মুখ্যমন্ত্রী শ্রীলিদ্ধার্থশক্কর 
রার যখন প্রদর্শনীর উদ্বোধন করবেন, সেই অনথষ্ঠানে 
আচার্ধ বনু শেষ বারের মত বিজ্ঞান কলেজে 
এসেছিলেন। এর পর 24শে জানয়ারী থেকে 
তিনি অহুন্থ হয়ে পড়েন এবং 4ঠ1 ফেব্রুগারী 
সোমবার ভোরে তিনি শেধনিঃশ্বাশ ত্যাগ 
করেন। 

বিজ্ঞানী হিসাবে সত্যেশ্রনাথ ছিলেন বিশ্ব- 
বিশ্রুভ। কিন্তু মানুধ হিলাবে তার যে পরিচয়, তা 
ডাকে আএ4৪ মহীপনান ও গরীরান করেছে। 
সাজ-পোশাক, চালচলন, কথ|বার্ভার তিনি ছিলেন 
সরল, অমান্সিক ও আতখাউদাসীন। বোঁপ- 
সংখ্যাপননের মত তিনি নিজেও ছিলেন “অবারিত 
দবার'--পর্গিচিত-অপরিচিত, ছোট'বড় যে কেউ 
তার সঙ্গে যেকোন উপলক্ষে অবাধে দেখা করতে 
পারতেন এবং বিনি একবার ভার সাধ্য 
এসেছেন, তিনিই আচার্য বসুর শ্বেছশীল দরদী- 
মনের স্পর্শ পেয়ে মুগ্ধ হয়েছেন। 

আচার্য সত্যেকরনাথ আজ চলে গেছেন। 
কিন্ত বিজন জগতে অনন্তণাধারণ অবদানের দ্বার! 
তিনি যে নবর্দিগন্তের উন্মেষ করে গেছেন এবং 
বজীয় বিজ্ঞান পরিষদ প্রতিষ্ঠার মধ্য দিয়ে খদেশ- 
বাপীর বে অশেষ কল্যাণ লাধন করে গেছেন, তাই 
ভার অক্ষপ্ন কীঁতম্বরূণ “কাপের কপোলতগে' 


সমৃজ্দল হয়ে খাকবে চিরদিন। 
রবীন বন্দ্যোপাধ্যায় 


আচার্ষ সত্যেন্দ্রনাথ 
বলাইটাদ কু 


আমাদের ছাত্রাবস্থাতে আচারধদেবের সঙ্গে 
পরিচিত হুবার সৌভাগ্য হন্ননি। আমরা! সেই 
ঘর চারজন খুব কৃতী বিজ্ঞানীর নাম শুনতাম-_ 
আচার্য লত্যেঙ্রনাথ বন, অধ্যাপক মেঘনাদ সাহা, 
অধ্যাপক জানচজ্ ঘোষ ও অধ্যাপক জ্ঞানেম্ত্নাধ 
মুধোপাধ্যা্। এদের সঙ্গে পরিচিত হবাঁষ জন্টে 
বিশেষ ব্যাকুল ছিলাম। অবশ্ট পরে এদের 
প্রত্োকের সঙ্গে বিশেষ পরিচন্ন হয়েছিল ও 
ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক গড়ে উঠেছিল । 

1939 পালে আমি প্রেসিডেলী কলেজের 
উত্তিদবিদ্ঞার অধ্যাপকরূপে যোগদান করি। এর 
আগে ছুই বছর লীডম্‌ বিশ্ববিদ্তালয়ে পাট ও 
অন্যাগ্ত তণ্ত নিয়ে কিছু গবেষণা করি। সেই 
সব গবেষণার ফল [কছু কিছু প্রকাশিত হলে 
সেগুলি অধ্যাপক সাহার দৃষ্টি আকর্ষণ করে। 
তিনি একখানি চিঠি দিয়ে আমাকে ডেকে 
পাঠান ও সেই লব গবেষপ। সম্বন্ধে, বিশেষতঃ 
তন্তকোঁষের কোঁষাবরণের গঠন-প্রণালী সব্থদ্ধে 
আলোচনা করেন। এজতে আমি নিজেকে খন্য 
মনে করেছিলাম। সেই সমক্প দ্বিতীয় মহা যুদ্ধ 
চলছিল। বিদেশী বস্ত্রণাতি পাওয। কঠিন ছিল, 
গবেষণার জন্ত আমার একট পোলারাইনিং 
মাইক্ুদ্কেপের বিশেষ আবস্তক ছিল। প্রেসিডেন্সী 
কলেজে, তা ছিলন।। অধ্যাপক সাহা আমাকে 
একটি অতি মুল্যবান [612 পোলারাইসিং 
মাইক্রস্বোপ দিকে বললেন--তুমি নিম্থে বাও, 
কাছ শেব হলে ফেরৎ দিও। তার এই মহাগ্র- 
তবতাক আমি অভিভ্ৃত হয়েছিলাম এবং ভার 
এই সহৃদগ্জতাঁর কথা কোন দিনই ভূলতে পারব না। 

1945 সালের 2র1 জাহুন্নারী ঢাকাতে অবস্থিত 

? 


কেজ্ীর পট কুষি গবেষণাগারের অধ্যক্ষরূণে 
যোগদান কণি। কলকাতা থেকে খবর নিষ্নে 
এসেছিলাম বে, শীত্রই আচার্ধ বস্থ কলিক।তা 
বিশ্ববিভ্াালযে যোগদান করবেন। ঢাঁকাঁতে 
গিন্ে খবর নিগ্গে জানলাম যে, তখনও 
অধ্যপক বনু ঢাকাতে আছেন। একদিন দেখ! 
করতে গেলাম তার ল্য/বোঁরেটারিতে। অত্যন্ত 
পহাদয়তার সঙ্গে তিনি আমার সঙ্গে অনেকক্ষণ 
কথাবার্তা বলপেন। ৰবললেন--'আমি শুনেছি 
তুমি এখানে এসেছে! । এতে আমি খুব খুশী 
হয়েছি । আসবার সময় তাকে বলেছিলাম, 
আশীর্ষাদ করুন, যেন কিছু তাল কাজ করতে 
পারি। তিনি সঙ্থান্ত সুখে মাথায় হাত দিয়ে 
আশীর্বাদ করেছিলেন। 

আমাদের পাট গব্ষণাগারের কতকগুলি 
গবেষণামূলক সমস্। কিভাবে সমাধান কর! যায়, 
এই নিয়ে আমদের মধ্যে কয়েক দিন আলো5ন। 
হঙ্ছেছিল, কিন্তু সঠিক সমাধানের পখ আমর! 
পাই নি। ব্যাপারটি কষি-রসাঙ্গন সম্পন্ন । 
আচার্ধ বসুর রসারন সব্দ্ধে গতীর জ্ঞানের 
কথা আমাদের শোনা ছিল। তাই ভাবলাধ, 
এই ব্যাপারে ভার সঙ্গে পরামর্শ করলে কেমন 
হজ! তার সঙ্গে দেখা করে সমস্যাটির কথা 
বললাম । তিনি মনোযোগ দিনে গুনে বললেন-- 
“পরণ্ড এসো, কিছু ভেবে বলবো । মখাপময়ে 
তার কাছে গিয়ে তার অমূল্য উপদেশ পেয়ে 
আমরা খুবই উপরুত হয়েছিল(ম। 

ভারত বিভাগের পর কলকাতার কাছে 
নতুন করে পাট কৃষি গবেষণাগার স্থাপিত হলো 
গব্ষেণ ব্যতীত সারা ভারতে পাটের উন্নয়ন 


162 


ব্যাপারে আমাদের কার্ষের ব্যাপকতা খুব বেড়ে 
গেল। এই সন কারণে আমকে প্রাঃই দিলা 
ধেতে হতো। সেই সমন দিল্লীতে আমার 
সহপাঠী বন্ধু বারীন পাল কেন্দ্রীয় ০19193165 
বিভাগের প্রধান ছিল। আমি প্রা্ছই হাঁপানিতে 
ভূগতাম। তাই বারীন আমাকে বললো--তুই 
ত্যচ্ছন্দে আবার বাসাতে উঠতে পারিস। 
[50601 1,016-এ বারীনের প্রশস্ত বাংলো 
বাড়ী। বহুদিন ধাবত বারহীনের ওখানেই উঠতাম। 
অধ)]পক জ্ঞানচর্জ ঘোঁষ শ্রীমতী পালের ভগনী- 
পতি, অধ্যাপক বসুর সঙ্গেও ভার নিকট 
সম্পর্ক ছিল। সেই সমন বারীনের বাড়ীতে 
এই দুই বিখ্যাত বিজ্ঞানীর সঙ্গে প্রারই দেখা 
হতে ও নানা বিষন্ছে আলোচনা হতো । 

অধ্যাপক বন্থ কিছু দিন রাজাসভার সদশ্য 
ছিলেন, এজন্তে দিল্লীতে ৬০5৫০ 0০:৮৩ 
তাঁর একটি ফ্ল্যাট ছিল। কিন্তু শ্রীমতী পালের 
আগ্রহে অনেক সময় তার বাড়ীতে উঠতেন। 
একবার আঁমি একটা জরুরী কাজে হঠাৎ দিল্লী 
গেলাম ; ঠিক ছিল, বারীনের ওখানেই উঠব-__- 
অবশ্ত একট। টেিগ্রাম পাঠিয়েছিলাম। বারীনের 
ওখানে গিয়ে দেখি অধ্যাপক বন্থ আছেন। 
আমাকে দেখে হেসে বললেন ; “নারে এসো, 
এসো, তবে তোমার ঘর আমি অধিকার করে 
আছি।' আমি তাকে প্রণাম করে বললাম? 
'ভাবনার কিছু নেই। জানি শ্রীমতী পাপ 
আমার জনে অন্ত ঘরের ব্যবস্থা করে রাখবেন। 
সাত দিন লেবার দিলীতে থাকতে হয়েছিল। 
কি আনন্দে কেটেছিল সেই কটা দিন অধ্যাপক 
বস্গ ও বারীনদের সকলের সঙ্গে। সে কথা 
কোন দিনই ভুলব না। 

1960 সালে জুন মাসে আমি লক্ষৌতে 
কেন্দ্রীক ভেষক্ক গবেষণাগারে সহকারী অধ্যক্ষ 
ধিলাবে যোগদান করি! তৎকাঁলে আছেন ডাঃ 


জ্ঞান ও বিজান 


[27তম বর্ধ, 32 সংখ্যা 


বিষুূপদ মুখোপাধ্যাপ (আমাদের সকলের 
বিষুদ1 ) ওখাঁনকাঁর অধ্যক ছিলেন। বিধুঃদাও 
আচার্য দেবের একাস্ত অচ্রাগী ছিলেন। আমাকে 
প্রা্পই কলকাতাঁতে আসতে হতো। প্রত্যেক 
বারই আচার্য বস্থুর সঙ্গে কিছুক্ষণ কাটিয়ে 
যাবার সযোগ হতো! । উনি আমাকে লক্ষৌ-এর 
বাঙালী বিজ্ঞানীদের নিকট পান ও বিজ্ঞান? 
প্রচার করবার জন্তে বলতেন। এজ আমরা 
ষখেষ্ট চেষ্টা করতাম | 

1995 সালে বনু বিজ্ঞান মন্দিরে কাজ করবার 
জন্তে আহত ছয়ে জুঙ্গাই মাসে এখানে বোগদান 
কার। এখানে আসবার পর আচার্য বনুর সঙ্গে 
আরে! ঘনিষ্ঠ হবার কুযাগ হয়েছিল। তিনি 
আমাকে “জান ও বিজ্ঞানে" কৃষিবিষন্নক প্রবন্ধ 
লিখতে বলতেন। তাকে শ্বগন রাজেশ্বর দাশগুধ 
মহাশয়ের বাংলার কবিবিযরনক পুস্তকের কথ! 
বলেছিলাম। উনি বলেছিলেন যে, ভিনি রাজেশ্বর- 
বাবুর লেখা বই দেখেছেন। এখন দেশে 
কষি-বিজ্ঞানের অনেক উন্নতি হয়েছে। আমরা 
সেই সব কথা বাংলায় লিখে “জান ও বিজ্ঞানে? 
প্রকাশ করিনাকেন? 

বনু বিজ্ঞান মন্দিরে কাজ করবার ময় 
করেকবার বিদেশে নিমন্ত্রিত হয়ে বাই। বিদেশে 
যাবার আগে তর আশীর্বাদ নিষ্নে ধেতাম। 
1966 সালে দক্ষিণ ও মধা আমেরিকার বিভিন্ন 
দেশ অ্রমণ ওরে এসে তাকে সেখানকার অভিজ্ঞতার 
কথ| বলেছিলাম । তিনি পেরু, ব্রেজিল, গুগ্কাটেমালা 
প্রতৃতি দেশের কাহিনী শুনে আঁমাকে বলেছিলেন £ 
তুই এই সব কাহিনী বাংলাতে লেখ না কেন? 
পরে দেখ! হলেও তিনি এঁ সব কাহিনী লেখবার 
জন্তে উত্সাহ দিতেন। হছুর্ভাগ্যবশতঃ আমার ত। 
হয়ে ওঠে নি। কিন্তু আজ ভাবি, আর কেউ 
আমাকে বাংলা ভাবতে প্রবন্ধ লিখতে আধন 
করে বলবেন না! 


শোক-বাতা 


[ আচার্ধ লতোঙ্রুনাথ বসুর মহাপ্রাণে দেশ” 
বিদেশের বহু বিশিষ্ট বাক্তি, বিজ্ঞানী, বিজ্ঞান সংস্থা, 
শিক্ষাতন সাংস্কতিক প্রতিষ্ঠান ও অহরাগুঁদের 
কাছ থেকে অনেক শোক-বার্ত। এসেছে। স্থানাভাবে 
সব শোকবার্ত। প্রকাশ কর] সম্ভব না হওয়ায় 
কয়েকটি মাত্র এখানে সংকলন করা হয়েছে ।] 


অধ্যাপক বসু বিজ্ঞানের ক্ষেত্রে যে কৃতিত্ব 
রেখে গিছ্রেছেন, তা অবিস্মরণীয় । তারই কাজের 
জগ্থে সারা বিশ্বেবিজ্ঞানের ক্ষেত্রে ভারতের নাম 
উজ্জ্বল হয়ে আছে। 


উ ভি. ভি. গিরি 


ভারতের রাষ্টুপতি 
এ 


দেশ মার কয়েক দিন আগে অধ্যাপক বন্থুর 
জন্মেৎ্পব উদ্যাপন করেছিল। আঙ্গ তার 
মৃত্যুপংবাঁদ পেয়ে আমি গভীরভাবে ছুংধিত। 

তার মুছাতে দেশ একক্ুন শ্রুতক্কীত্তি পণ্ডিত 
এবং প্রথিঙষশ] নাগরিককে হারালো । অধ্যাপক 
বস্থ ছিলেন একক্জন মান বিজ্ঞানী ও মনম্বী। 
তিনি মনে করতেন গবেষণাগার ও পাঠকক্ষের 
গণ্ডীর মধ্যে নিজেকে শীমাবদ্ধ রাখা বিজ্ঞানীর 
একমাত্র কর্তব্য নস্ব। সমাজের প্রতি বিজ্ঞানীদের 
বে কর্তবা রয়েছে, দে কথ। তিনি কখনও ভূলে যান 
নি। তীর জ্ঞানবুদ্ধি তিনি অক্কপণভাবে বিতরণ 
করেছেন নানা শিক্ষা! ও সাংস্কৃতিক পংস্থার। 

সর্যোপরি তার মধ্যে বে আন্তরিকতা ও 
সারল্য দেখেছি, তাতে আদি মুগ্ধ ছর়েছি। তার 
নিকটতম আত্মীয়দের উদ্দেশ্টে আমার আস্তরিক 


সমবেদন! আপন করি। 
শ্রীমতী ইন্দিরা গান্ধী 
ভারতের প্রধানমনতী 


অধাপক পতোম্দ্রনাথ বন্ুর পরলোকফগমলে 
তার পবিত্র স্বৃতির প্রতি শ্রদ্ধা জানাবার উদ্দে্তে 
বঙ্গীয় বিজ্ঞান পরিষদ 11ই কফেক্রুপারী, 1974 
তারিখে যে শোক-সভার আয়োজন করছেন, 
তাতে যোগ দেওয়ার জনকে পরিষদের কমলচিৰ 
ডক্টর জয়ন্ত বন্থু আমার অন্গরোধ করেছেন? এই 
সভায় উপস্থিত থাকবার আমার একান্ত ইচ্ছ! ছিল, 
কিন্তু আমাক বর্তমান শারীত্রিক অবস্থান আমার 
পক্ষে তা সম্ভব হচ্ছেন! বলে মামি অতান্ত গুঃখিত। 

প্রায় 60 বছর ধরে অধাপক বন্র স্ঙে 
আমার ঘশিষ্ঠ পরিচর ছিল। বিজ্ঞ/নের বিভিন্ন 
বিষ এবং বঙ্গীয় বিজ্ঞান পরিনদ গম্পর্কেও তার 
সঙ্গে আমার আলোচনা করবার স্ুঘোগ হয়েছিল। 
তার অপামান্ত প্রঠিভা ও বিজ্ঞান শিকার প্রসারে 
তার এগাস্তিক আগ্রহ আমাকে বহুবার মুগ্ধ 
করেছে। 

অধ্যাপক বস্তুর মৃত্যুতে বঙ্গীয় বিজ্ঞান পরিষদের 
সঙ্গে একর হচ্ছে তার পবিত্র স্বৃতির প্রতি আমি 
অদ্ধা শিবেদন করছি এবং ভার পরিবারবর্গকে 
জ্বাপন করছি আমর আন্তরিক লকাঙগুভূতি * 

দেবেজ্মোহন বন্থু 
(বনু বিজ্ঞান মন্দির ) 

[ * 11-2-74 তারিখে বঙ্গীয় বিদ্বান পরিষদের 

উতদ্বাগে অন্ঠিত শোক-সভার পঠিত ] 
এ 


বিশ্ববরেপা বিজ্ঞানী এবং বাংলার মহান সন্তান 
ইউর অতোন বোঁসের প্রক্নাণে আমি গভীর 
মর্সাহত হুয়েছি। 'বিপ্রান ও মাঁনবত।র ক্ষেত্ডে 
তার মহান অবদান ট্রিস্বখণীর হয়ে খাকবে। 


শেখ মুজিবুর রহমান 
প্রধান মন্ত্রী, বাংলাদেশ 


164 


ঢাক। বিশ্ববিস্ঞ।লয়ের পদার্থবিস্তা বিভাগের 
ছাত্র ও শিক্ষকবৃন্দের উদ্ধোগে 6ই ফেব্রুগ়ারা 
1974-এ অনুষ্ঠিত শোঁকসভাব় এই বিভাগের প্রাক্তন 
অধ্যগগ বিজ্ঞ।নাচার্ সতোঙ্রনাথ বোসের 
আকন্িক তিখোধানে বিভাগীয় ছাত্র ও শিক্ষকবৃন্দ 
শ্রন্ধাবনভচিতে শে।ক প্রকাশ করছে! কোন্াণ্ট।ম- 
সংখ্যাযনের জনক--বোন-সংখ্যাক়নের প্রবক্তা 
অধা।পক বোঁপের বিজ্ঞ(ন-জগতে অমর অবদানের 
কথা এবং এই বিতাঁগের সঙ্গে তার আস্তিক 
সম্পর্কের কথা গভীর শ্রদ্ধার সঙ্গে এই সতা৷ স্মরণ 
করছে। 
এই সভ। প্রস্তাব করছে: (ক) অধ্যাপক 
বোঁপের স্বতি রক্ষার্থে ও তাকে সন্মান প্রদর্শনের 
ক্ষুদ্র প্রতীকম্বরূপ তার নাধাহছসারে একটি বিভাগীর 
বোস চেপ্লার? প্রতিষ্ঠা করা হোক । এবং (থ) 
তর নামাঙ্গলারে বিজ্ঞান পাঠাগারের নাম 'বোল 
গ্রন্থাগার+ রাখা হোক । 
আ'. খ. ম সিঙ্গদিক 
[বভাগীর় অধ্যক্ষ, পদার্থবিদ্যা বিভাগ, 
ঢাকা বিশ্ববিগ্যালস্্ 
সঃ 


[76 905 ৪8 £:910 5011)0150 2150 ৪. 
[010110210 066106 01 00201191160 9.00 8110051: 
112150217061)691 00019 06201115 50191)01- 
870 17000016101) 595 51101) 1020 102 25০1 
11106 


171151611) 2190 005 ৫621 16, 70117712170 


91১81120 (105 1201190০068 £6€18155 
1 616০ 00910005265 00 ড/1011655 56%919] 
17066111065 01 07556 8:22. 1701005, 

56 0110 1085 
50$61)0150 213৩ 2 5282. 06 30132111010218 


1050 21) 21271170101 


জান ও বিজান 


[ 27তম ব্য, ওর সংখ্যা 


7:01001619258, ভ/6০ 215 10001171001 2 
0621: 2150 000601260651016 £012150 
3০০ 71655 9০০ 220 615০ 5০০ ৮6 
9121)661) 60 0110৬ 1815 229121916- 
৬০1 811:001:615 9001:8, 


11187) [1511 
র 
076 


[16 5010301265 £6176721 ০01 


0791২ 17 0910866 
0617 5%101801) 01) 00100161306 0 006 


6%0651)05 €0 508 
06025101) 01 19253111828 06 ০]: 
1060615 701010110606 501526156 50012791 
[00659801950 01501217900 0096, 

119 


01705601015 001700190610170 00 0021)0010 


9০120 90০16100135 1007 1513 
56810156109 21) 0561915 21151 1115 00107156. 
00105081066 030176151 


0). 5. 5. হত. (095150665) 


গী 
911110961 130996ঃ 
14185 [ 02061: 00 2100 50101 0800115 
10 51110616 2100 10689166616 59100981005 
12 0017 61626 89110১ 0101685091 8052 
ড/05 21 01156200117 061802811 চ]1)0 
[1790 072 1018091 0০ 120660  58৬০1:9] 
(120656, 1101776101091 1015 1156]5 117665193 
17 1095 09016151013 0955108 2৮7৪ 
9111 196 01770011) 
[10019 2150 00০ 19016 5016150150 ৮৮০1]. 
108, 2, 5 15006562 
00098] 932106121 


102 0606191 1২60৮911001 9361:0081)% 


62015 170010107060 


শোক ও ম্মরণ-সভা 


[ আচার্য সত্যেজজনাথ বনহুর মহাপ্রয়াণে 
পশ্চিম বঙ্গ ও ভারতের নানা স্থানে এবং বাংলা- 
দেশে বন শোঁক ওন্মরণ-সভ! অনুঠিত হয়েছে। 


তাঁর মধ্যে কয়েকটি সতার বিবরণ এখানে সংক্ষেপে 


উল্লেখ করা হলে1।] 


বজীয় বিজ্ঞান পরিষদ 


পরিষদের প্রতিষ্ঠাতাসভাপতি আচার্য 
সত্যেত্রনাধ বসুর ছিরোঁধানে 9ই ফেব্রুয়ারী 
বিজ্ঞান পরিষদের কার্ধকরী সমিতির এবং 118 
ফেব্রুয়ারী সদস্তদের ছুটি শৌঁক-সতা! অনুষ্ঠিত হয়। 
শেষোক্ত সভায় পৌরোছি্ত্য করেন আচার্য 
বসুর সহপাঠী বিশিষ্ট বিজ্ঞানী ডক্টর জ্ঞানেম্রনাথ 
মুখোপাধ]ায়। তিনি সতোন্ত্রনাথের সঙ্গে তাঁর 
কুদীর্ঘকালের সৌহার্দ ও অস্তরক্গতাঁর স্বৃতিচারণ 
করে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। এ ছাড়া এই সাক 
আচার্য বসুর প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করেন 
গিরিজাপতি ভট্টাচার্য, জয়ন্ত বনু, রবীন্্রনাথ রান, 
শ্রীমদনমোহন পিংহানিয়া, স্বপন চ)াটাজর, সুধীর 
বনু, দিবাকর মুখোপাধ্য।য় প্রমুখ 1 উভব্ধ সভাতেই 
এক মিনিটকাঁল নীরবতা পালন করে ছুটি শোক- 
প্রস্জাব গৃহীত হয়। (শোঁক-প্রস্তাব ছুটি বর্তমান 
সংখ্যার প্রারস্তে লিপিবদ্ধ আছে )। 


কলিকাত। বিশ্ববিভালয় 


6ই ফেব্রুয়াপী কলিকাতা বিশ্ববিস্তালয়ের 
উপাচার্য ডক্টর সত্যেন্্রনাথ সেনের সভাপতিত্বে 
এক শোঁক-সভায় আচার্য সত্যেত্নাখের স্মৃতির 
প্রতি গতীর শ্রদ্ধা! জানানো হয়। 


শোঁক প্রস্তাব উত্থাপন করে উপাচার্য ডক্টয় 


সেন বলেন, আচার্ধ বনু ছিলেন বিশ্ববরেণ্য 
বিজানী। তিনি এই বিশ্ববিভালয়েরই ছাত্র 


ছিলেন, এটি এই বিশ্ববিগ্ঠ।লয়ের গৌরব । কেবল 
বিজ্ঞানেই নয়, জ্ঞান-বিজ্ঞানের খাতন্প দিকেও 
তাঁর প্রতিভার উজ্জ্রন স্বক্ষর। তিনি রেখে 
গিয়েছেন। বাংল! ভাঁষাঁকে উচ্চ শিক্ষারও মাধাম 
করবার জন্তে তিনি আজীবন চেষ্টা করে গিগেছেন। 
তীর প্রয়াণে জাতির এই ক্ষতি অপুরণীয়। 
বিশ্ববিগ্কালগের সকল বিভাগের অধ্যাপক, 
ছাত্র ও কমার নত মস্রকে নীরবে ঈীড়িকে 
আচার্য বসুর মৃত্যুতে শোক-প্রস্তাব গ্রহণ করেন। 


ইন্ডিয়ান স্ট্যাটিষ্টিক্যাল ইনস্টিউট 

গত 6ই ফেব্রুয়ারী ভারতীয় পরিশংখ্যাঁন 
মন্দিরের (ইগ্ডয়ান স্ট্যাটিস্টিক্যাল ইনস্টিটিউট ) 
অধ্যাপক, গবেষক ও কমর্দের এক সভার 
আঁচার্ধ বস্থুর তিরোঁধালে গভীর শোক প্রকাশ 
করা হয় এবং এই গব্ষেণ! কেজের উন্ন়নে 
ও পরিচালনে তাঁর বিশেষ অবদানের কথ! 
উল্লেখ করে শ্রদ্ধা নিবেদন করা হয়। 


বলীয় সাহিত্য পরিঘন্দ 


17ই ফেকুছায়ী পরিষদের রমেশ ভবনে জাতীর 
অধ্যাপক ডক্টর সুনীতিকুমার চট্টোপাধ্যান্সের 
পৌরোহিত্যে একটি শোক-সতা অহ্ঠিত হয়। 
সভাক্স অধ্যাপক পরিমলকাস্তি ঘোষ, ড্র মহাদেৰ 
দত, ডর জ্ঞানেন্রলাল তাছুড়ী, ডক্টর মুণাঁলকুমার 
দাশগুপু,। ডক্টর জয়ন্ত বসু, ডক্টর সমরেন্দ্রনাথ 
খোষাঁলঃ অধ্যাপক মদনমোহন কুমার, ভ্রীরমেশ 
ঘোষ প্রমুখ আচার্য বন্ছর শ্বতিঢারণ করেন। 
বোৌস-সংখ্যায়ন-এর 50 বর্ষ 
উদ্‌্ঘাঁপন কমিটি (স্থানীয় শাখা) 


আচার্য সত্যে নাথের প্রয়াণে ভার অমর স্মৃতির 
প্রতি শ্রদ্ধা নিষেদণকল্পে কমিটি বঙগীন্ন বিজ্ঞান 


166 


পরিষদের ভবনে 158 ফেব্রু়ারী--17ই ফেক্ুগারা 
তিন দিনব্যাপী শ্মরণ-সভভার আঙ্রোজন করেন। 
15 ফেব্রুারী আচার্ধের আত্তশ্রান্ধের দিন 
সকালে ম্মরণ-সভায় পৌরোহিত্য করেন কপিকাতা 
বিশ্বব্দ্ভাল্ক্ের সহ-উপাচার্য অধ্যাপক পুরেন্দু- 
কুমার বহু ।  এইদিন ছবিতে আচার্য 
সত্যেজ্্রন!থ' শরীর্ষক্ক একটি প্রদর্শনীর হুচনা হয়। 
অন্ুঠানে আচার্ধ বসুর প্রতঠিকতিতে পুষ্পার্ঘ্য 
অর্পণ করেন বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান ও ব্যক্তি । সভাপতি 
অধ্যাপক বন ও অধ্যাপিক1 অসীমা চট্টাপাধ্যান্ 
আচাধ সতোম্ত্রনাথের প্রতি শদ্ধা নিবেদন করেন ; 
টৈতাঁনিক শিল্পী গোঠী আচারের প্রিক কয়েকটি 
রবীজ্জ সঙ্গীত পরিবেশন করেন এবং এই অনুষ্ঠানে 
আচারের ভাষণের টেপ-রেকর্ড বাজিরে শোনানো 
ইয়। 178 ফেক্রুয়াপী শুশৈলমাচজন মজুমদারের 
পরিচালনাক্স তার ছাত্রছাত্রীরা আচার্ধ বসুর 
প্রিয় রবীন্দ্র সঙ্গীতগুপি পরিবেশন করেন। 
প্রান্ঘ দেড় ঘন্টাব্যাপী এই মনোজ্ঞ আঅন্টানটি 
শ্রোতাদের সঞ্লকে মুগ্ধ করেছিল। 


কলিকাতা গণিত সমিতি 
অ।৮1ব প্রফুলচম্র রোডস্ছ বিজ্ঞান কলেজে 
সমিতির হলে গণ 13ই ফেব্রুজারী কার্যকরী সমিতি 
ও সাধারণ সদম্যদের সভান্ব ছুটি শোক-প্রস্তাব 
গ্রহণ করে আচার্ষয বসুন প্রতি শ্রদ্ধা ন্বেদন 


কছেন। 


কলিকাতার নাগরিকদের ল্মরণ-মভা 

কপিকাতার শেরিফ শ্রীকশী গিমির আহ্বানে 
গত 2রা মার্চ রবীন্দ্র সদনে নাগরিকদের এক স্মরণ- 
সতায় মুখ্য মঞ্জী শ্রীসিদ্ধার্থশহর রায়, প্রধাঁন 
বিচারপতি শ্রুশক্ষরপ্রসাদ মিত্র, শ্রুমতী রেণুকা 
রায় এবং কলিকাতা বিশ্ববিদ্তালয়ের উপাচার্য ডর 
সত্ো্রনাথ সেদ আচার্য বন্থুর স্বতির শুতি 
শ্রদ্ধা নিষ্দেন করেন। আহুঠানে বিডি চেখার 


আন ও বিজ্ঞান 


[ 27তম বর্ধ, 3 সংখ্যা 


অফ কমার্স-এর পক্ষ থেকে আচারের প্রতিকৃতিতে 
পুষ্প।র্) অর্পণ কর! হুয় এবং বিভির ধর্মীর গ্রন্থ 
থেকে পাঠ ও ভক্তিমূলক সঙ্গীত পরিবেশিত হয় । 
সভাত মুগ্য মন্ত্রী ঘোষণা করেন, আচার্ষ বন্ুর একটি 
প্রামাণ্য জীবনগ্রস্থ রচনার জন্তে সরকারের পক্ষ 
থেকে সবতো ভাবে সাহাধ্য করা হবে। 


শৌবীবাড়ী তরুণ পাঠাগার 


অধ্যাপক পরিমলকাস্তি ঘোষেদ সতাপতিত্বে গত 
17৯ ফেব্রুয়ারী উপ্টাডাল। ইউনাইটেড ছাই স্কুলের 
ভবনে একটি শোক-সভ। অনুঠিত হুয়। ডক্টর 
আনেজ্লাল ভাছুড়ী, ডক্টর মহাদেব দত, ডক্টর জয়ন্ত 
বন, ডক্টর মৃপাঁলকুমার দাশগুপ্ত, রখীন বন্দেযা- 
পাধ্য।র, ডাঃ নুনীলকুমার প!ল, প্রীন্ধীরচ্্ 
তষ্ট।চার্য প্রভৃতি আচার্য বসুর প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন 
কগেন। সভাক্ন গৃহীত একট প্রস্তাবে বি. টি. 
রোঁডের নাঁম পরিবর্তন করে "আচার্য সত্যেন বোস 
সরণি' বাধবার প্রস্তাব হুয়। 


বত সাহিত্য সম্মিলন 

গত 19শে ফেব্রুয়ারী রামমোহন লাইব্রেখী 
হলে জ্ীগিরিজাপতি ভট্ট চার্ষের সভাপতিত্বে একটি 
শোক-সভা অনুষ্ঠিত হয় । সভান্প ডাঃ কালিকিহ্কর 
সেনগুধ, শ্রীজীবনতারা হাপ্দার, অধাপিক! 
অসীমা চ/ট্রাপাঁধ্যার়, ডক্টর অজিত ঘোষ প্রভৃতি 
আচার্য বসুর ন্বৃতির প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন 
করেন। ' 


কিশোর কল্যাণ পরিষদ 

গত 23শে ফেব্রুয়ারী গিরিশ পার্কে ফেগুস 
ইউনাইটেড ক্লাবের হলে পর্ষদের উদ্যোগে একটি 
ম্মঃণ-সভ। অনুঠিঠ হয়। অধ্যাপক পরিমলকাস্তি 
ঘোধ সভার পৌরোহিত্য করেন এবং গ্ীীবন- 
তার] হালদার, শ্রামম্মথনাথ ঘোষ, গ্রারাধারমণ 
মিত্র; ডক্টর ভক্তিপ্রপাদ মল্লিক এবং ডক্টর 
মহাদেব দত্ত আচার্য বন্থুর স্বৃতিচারণ করেন। 


মাঠ, 1974 ] 


আচার্ধের প্রিয় রবীন ও তক্তিমূলক সঙ্গীত 
পরিবেশন করেন শ্রীপ্রসাদকুমার সেন) শ্রীমতী 
বাণী দাশগুডা, বিচিত্রি 1 ও পরিষদের শিল্পীরা | 


বিজ্ঞান-জভ্ঞাসা 


গত 10ই ফেব্রুয়ারী বহরমপুরের (মুশিদাবদ ) 
'যোগেন্র-নারায়ণ মিলনী' হলে বিজ্ঞানাচার্ধ 
সত্যেক্্রনাথ বসুর স্মরণে এক মনোজ অনুষ্ঠানের 
আয়োজন করেছিলেন মাপিক বিজ্ঞান পত্রিকা 
বিজ্ঞান-জিজআনাঁর উদ্যোক্তারা । অনষ্ঠানে সভা- 
গতিত্ব করেন কলোল যুগের প্রপ্যাত কবি ও 
লাহিত্যিক শ্রীৎপীশ ঘটক (যুখনাশ্ব)। ঢাকান 
থাকাকালীন বিজ্ঞানাচার্ধের সঙ্গে ভার ঘনিষ্ঠ 
ধোগাষেগ,  বিজ্ঞানাচার্ধের সাহিতা-ভাবনা 
ইত্যাদি বিষয়গুলি তিনি তর সম্রদ্ধ স্থৃতিচাঁরণে 
উল্লেধ করেন। 

উক্ত অনুঠানে প্রধান অতিখিকপে উপস্থিত 
খিলেন মুক্তাগাছার (মন্কমনপিংহ ) রাজপরিবারের 
সন্তান বিজ্ঞানাচার্ধের অন্ততম হ্হদ- প্রঞ্জীবেশ্ 
কিশোর আচার্যচৌধুরী | উক্ত সভার সত্যেন্ত্র- 
নাথেক বৈজ্ঞানিক অবদান এবং বাংলা ভাষায় 
বিজ্ঞ/নচর্চটর জন্যে তার নিরলস প্রচেষ্টার বিষয় 
শ্রদ্ধার সঙ্ষেপ্মরণ করেন শ্ীরবীন্্রনাথ ঘোষ ও 


অমুল্যচরণ গ্রহ এবং “বিজ্ঞান-জিজ্ঞাসাঁর' 
সম্পা্দকদ্বয়--গী অলোক সেন ও শ্রীবিষল বন | 
নর্থ ক্যালকাট। ইয়ুখ লীগ 


নর্থ কালকাটা ইয়ুখ লীগের উদ্যোগে গভ 





শোক ও শ্মরণ-সভা। 


167 


24শৈ ফেব্রুয়ারী রানী ভবাশী স্কুলে বিজ্ঞানাচার্য 
পতোআ্নাথ বসুর পরলোকগমনে এক স্মৃতি-সতার 
আয়োজন করা হয়| উক্ত সতার় সভ।পতিস্ব 
করেন ডাঃ ধোগেম্নাখ টমত্র। ডকউর জয়স্ বসু, 
শ্রুরাজভ সেনগুধ, ডাঃ অসিত সাহা, গ্রু্থপন 
বন্দ্যোপাধ্যায় প্রমুখ বিজ্ঞানাচার্য বসুর স্মৃতির 
উদ্দেশে শর্ধাঞ্রলি নিবেদন করেন এবং একটি 
শোক-প্রস্তাব সভায় গৃহীত হয়! 


পদ্দার্থবিদ্তা বিভাগ, ঢাক বিশ্ববিষ্ঠালগ় 


গত 6ই ফেব্রুয়ারী ঢাকা বিশ্বিগ্ালগ্জের পদার্থ- 
বিস্তা বিভাগের ছাত্র-ছাত্রী ও শিক্ষকবৃন্দ এক 
শোক-সাভার মিলিত হয়ে আচাধ বন্গুর সৃতি 
রক্ষার্থে ও তাঁকে সন্মান প্রদশনের শ্রন্র প্রতীক- 
স্বরূপ একটি বিভাগীয় অধ্যাপদের পদ (“বোস 
চেয়ার? ) প্রতিষ্ট! এবং তার দামামলীরে বিন 
পাঠাগারের লাম “বোস গ্রন্থাগার" রাখবার প্রস্তাব 
গ্রহণ করেন। 


পদার্থ বিজ্ঞান বিভাগ, রাজশাহী 
'বিশ্ববি্ভা।লয় 


রাজশাছী বিশ্ববিষ্ঠালয়ের পদার্থবিজ্ঞান 
সমিতির উচ্ভোগে গত ]]1ই ফেব্রুয়ারী অধ্যাপক 
আহমণ হোসেনের সভাপতিত্বে এক শোক"সভাক় 
আচার্য বসুর অমুল্য অবদান এবং ভার উর্ত 
চরিত্র ও বিরাট বাক্তিত্বের কথা উল্লেখ করে 
শ্রন্ধা নিবেদন করা হয়। 


বাপ ররর স্্সম্জ স্া অ্--জ +& 


প্রধান সম্পাদক--্রীগোপালচজ্জ ভট্টাচার্য 
বঙ্গীয় বিজ্ঞান পরিষদের পক্ষে আমিহিরকুমার ভট্টাচার্য কতৃক পি-23, রাজা রাজকৃষণ সীট, কলিকাতা-6 হতে প্রকাশিত এবং 
গণ্তঞ্েশ 37/7 বেনিযাটোলা লেন, কলিকাতা হইতে প্রকাঁপক কর্তৃক দুগ্রিত। 





ন্বিভন্তক্ভ্ি 


1956 সালের সংবাদপত্র রেজিষ্ট্রেণন ( কেন্দ্রীয় ) রুলের ৪নং ফ:ম 
অনুযায়ী বিবৃতি £-- 


1. যে স্থান হইতে প্রকাশিত হয়, তাহার ঠিকানা :--বলীয় বিজ্ঞান পরিষদ, পি-23, 
রাজ! রাজকৃষ্ণ স্ীট, কলিকাতা-6 
2. প্রকাশনের কাঁল--মাপিক 
3, যুদ্রাকরের নাম, জাতি ও ঠিকানা-শ্ীমিহিরকুমার ভটাচার্ধ, ভারতীয়, পি-23, 
রাজা রাজকৃষণ দ্রীট, কলিকাতা-6 
4. প্রকাশকের নাম, জাতি ও ঠিকান1-_-শ্রীমিহিরকুমাঁর ভট্টাচার্য, ভারতীয় পি-23, 
রাজা রাজকৃষ্ণ দ্ীট, কলিকাতা-6 
5. সম্প।দকের নাম জাতি ও ঠিকাঁন! 
প্রীগোপালচন্দ্র ভট্টাচাধ (প্রধান সম্পাদক) ভারতীয়, পি-23, রাজ রাককৃ্ণ দ্বীট, কলিঃ-6 
শ্রীপরিমলকান্তি ঘোষ ভারতীয়, পি-23, রাজ। রাজকৃ্ণ গ্বীট, কলিঃ6 
প্রীমুনালকুমার দাশ গুপ্ত ভারতীয়, পি-23, রাজ রাজকৃষণ স্রীট, কলি১€ 
প্রীনুর্ষেন্দুবিকাশ কর ভারতীয়, পি-23, রাজা রাজকষ্ঝ দ্রীট, কলিঃ”6 
শ্রীজয়স্ত বন্মু ভারতীয়, পি-23, রাজ রাজকষ্ণ দ্বীট, কলিঃ:-6 
প্রীরবীন বন্দোপাধ্যায় ভারতীয়, পি-23, রাজা রাজকৃষ দ্রীট, কলি:€ 


6. স্ববীধিকারীর নাম ও ঠিকানা-বঙ্গীয় বিজ্ঞান পরিষদ, (বাংল! ভাষায় বিজ্ঞান 


বিষয়ক সাংস্কৃতিক প্রতিষ্ঠান ), পি-23, রাজ রাজকৃষ্ণ স্রীট, কলিকাতা-6 


আমি, শ্রীমিহিরকুমার ভট্রাচার্ধ, ঘোষনা করিতেছি যে, উপরিউক্ত বিবরণসমূহ আমার 


জ্ঞান ও বিশ্বাসমতে সতা। 


্বাক্ষর-_-জ্রীমিহিরকুমার ভট্রাচার্য 


বঙীক্ বিজ্ঞান পরিষদের পক্ষে 


তাং 7-3-74 প্রকাশক. -প্ঞান ও ।বত্তান মাপিক পত্রিক। 





জাম ও বিজান-্এপ্রিল, 1974  . ূ 


. বঙ্গীয় বিজ্ঞান পরিষদ 


পরিচালিত মাসিক পত্রিক। 





| “জ্ঞান ও বিজ্ঞান' 
উপদে্া মণ্ডলী £ | সম্পাদক মণ্ডলী £ 
শ্রীঅসীম! চট্োপাধ্যায় জীগোপালচন্্র ভট্টাচার্য 
ৃ (প্রধান সম্পাদক ) 
নীশ্রিরদারজন ৪ ভ্রীপরিমলকান্তি ঘোষ 
শ্রীজানেজ্রলাল ভাছড়ী প্ীস্বপালকুমার দাশগপ্র 
জ্রীজয়স্ত বসু 
জীরুজেশ্রকুমার পাল প্রীরবীন বন্দ্যোপাধ্যায় 


সম্পাদনা-সহায়করন্দ ঃ- শ্রীমহাদেব দণ্ড, শরীয়ত প্রসাদ গুহ, জ্রীম্বনীল 
সিংহ, শ্রীতড়িৎ চট্টোপাধ্যায়, প্রীবক্ষানন্দ দাশগুধ, শ্রীমাধবেন্্রনাথ 
পাল, শ্রীরাধাকাস্ত মণ্ডল ও গ্রীশ্যাম সুন্দর দে। 


তোতা 











৪০৪ 






বসেও গন্ধে 
৩ 


কেশতৈল মুর 





৪ নু রী র সন ২ এর রর 
২.” িধাাস পারফিউম 5. 
রি 4 রি রর রর স্র রথ না . এ র্‌ ॥ রি ঠ 
২ এ তগ্নাক্ীদ টি লীমটেড 


এ (তত ও 


2 আন ও বিজ্ঞানস্ঞপ্রিল। 1974 





8518987. 0116111081. & 21158150501108 90985 ৮০, 


স1০0৩52 [50110 চি 08865080752 ০1 105510856001516 ৫ (010৩7555815, 


1121101180101918 01; 


91781181809 8861081 (৮817) 10585 $ 


0216611)6 2100 10 58109, ২1006011510 4৯010. 3. [০.১ 15061159001936. 
9. 0. 02065931017) 01009865379 2, 0০ 9০৫1000 (০102566 
[8.1]. 1১, 50085510100 4৯066786673. 0.১], 0,5096058555000 703106 
93, 10, 270, 500101008 [০105 8.৮ 172. চভা। 2৮ £১00100012 
(01080 9. ৯17, হান ৮2110080016] 91991100802116102] 
€0০17610015915. 


(198৬) & ব5825176 58888816) চি1৩ (01017175515 ৪ 


01561, 11615120195, &10100, 10100 910117866 (102 ভা), 
ঢ620 410010 80170091606 581৩ 3০127 0160856 &ত তি 
20695510100 (০101866520০ 19817251121 92119179106 4৯. 90991010 
910115966 21217501005 40 56009981012 100106 2, 2১, 90010101 
010]107196 ৯. হি 21150 90100189866 2, 2 2৮০, 


15585 751৩7 ০57 97050887৩5 1০1 118৩ 0০5৩ 115105 জো 0818৩8 চি জিত 
1 81৩ 1879৩ ৪৩ ২০৮ 


চ9214021- 011227510-1 
6, 39651) (01011705 শি তাতেও, 
081086৪-13, [খৈ1974. 


আন ও বিজান--_এপ্রিল, 1974 | ১ 


মাটি সিমেণট, কংক্রীট, শিলা, আকনিক, খনিজ, ধাত, 
পেট্রোলিয়াম, বিটুমিনাস প্রভৃতি পরীক্ষার সহায়কসমূহ 
এবং সলজামাদি্ন জন্য-- 


যোগাযোগ করন 2 
ভজিওলজিষ সির্িকেট প্রাইভেট লিয়াটড 


১৩৭, বিপ্রবী রাসবিহারী বসু রোড, 
কলিকাত।-$ 


প্রা; জিগুপিন (0009১) ফোন ঃ ২২-৩৫৭১ 


স-ব-চেঘ়ে প্রিঘ 8. এ 


ভিস্বান্দী প্লিসান্সিন সাম্বাল। 





জান ও বজ্ঞান--- এপ্রিল, 1974 








4৯ ঠা 0 
[15117%1571 


17৮৬ তে ৮৬৭ ৮261110607৭ 
1৮৮0 01101: 1(5 0১111 
৮11২ ৬৬১) 2২৮10) & 
4171 8৮10 0701১100005 000৬ 10, 
4১ ৯৮1105৮1৭50 ১1285 4 
7555 7712৩ 78586184176 


€201017810735 1১6116১0৮৮1 56117771506) 12100118 
[0910 11৬৬ 10051 থে চা] 006১174৮ 1 70156 





7১/৮-৮৮ 
২0৬ ৫ 4০27 ৫ 0 
7224 ৮4711412169 








হাজরা রেস 



























11970515001 136 ০047)0১, রা 7৮৮4 ৮? 
1৭৭ সুহাস পা 
১801৮78 [1171 ১017421 £86১1 206 ঠা ঠাপে 
1 07171316515 [1 00০21) 10 
4521710৮10৭ 
চ7107 ২].187]711% & 101৮ _ (হি 
951২৬10৮, $ 
12771610971) 0211? 00 8467146৫442 
1..281781)1710 &80.. 
759, 017870771 012৬1 56. 5100605-13, ৮5০৮ 
259৯ ০ 9৭৮6 / রী /526%8% 
চ20176 2475875 তছনছ 0১ 10000 792 12447 লঠ 
£১5%1/৯7 1); 
লী 25828077815 80898 
গা প্রকাশিত-_ £07 70807251752 0612721812779 18 
1, জ্যালবার্টা আইনস্টাইন--ছিজে শচন্জ 
411 80265 ০01 
৪৮৭৬ 1, 8,0৬৭ 01.4855 ৯৮৮৯5 
2. মহাকাশ পরিচয় (দ্বিতীয় সংক্করণ ) 098 80-8৯৮ ৮5 
সজিতেজকুমার গুছ, মুগ্য-- আট টাকা | 107. 50150015, €01162৩5 & 
3, বোস সংখ্যায়ন-মহাদেব দত, মুলা _- 
দুই টাকা। [659951012 1107116111010125 


প্রকাশক-_নঙগীয় বিজ্ঞান পরিষদ (18880018পুণ্া) ৪01 মগুণচা০ 
একমাত্র পরিবেশক £ 00680887108 


ওরিয়েষ্ট চিজ ই রি লিঃ 232 8, [07৮0 010707-81 8040 
০41.0078.--4 
17, চিত্তরঞ্জন আযাভিনিউ, নিন 
কলিকাতা-]3 20556 £ 


8৪০৮০ 1 55-1588 36828--489৫14 ০০৮ 
16513800% : 55-2002 





জান ও বিজ্ঞান---এপ্রিল, 1974 চি 


বিষয়-সুচী 


বিষয় লেখক পৃষ্ঠা 
আচার্য সতেঃঙ্রনাথ ব। চেগ্জেছিলেন ৯ রবীন বন্থ্যোপাধ্যা় 169 
নক্ষত্রে তেজের সৃষ্টি ' শ্রীজিত্জকুমার গু 121 
ধানের জমির আগাছার কথা **. রতিকান্ত মাইতি 190 
আযালুমিনিয়ামের উপর ফটোগ্রাফি '**  পার্থসারখি চক্রবতা 188 
সঞ্চঘূন রি 191 
বেধন।“ন।শক ***  প্রীতিসাধন বন্ধু 194 
অধ্যাপক বেস '** রঙনলাল ব্রহ্মচারী 197 
বিটা-ক্ষয় ও ডান দিক, বা দিক "৮ শ্ীতাপসকুমার চক্রবর্তী 199 
মানুষের গায়ের রঙের তফাৎ কেন? "সব্যসাচী লোধ 204 
মহকাঁশযানে অণু( এইচ আল্ফ.ভেন) ৮ ভাবাস্থবাদ--পিতাংগুবিমল করঞজাই ও 
চুর্ধকুমার ব্মন 208 
বিজান-সংবাদ টি 212 


৪ 
স্্্প্্ম | 186) [18816 91091 


লও ৮) ) 
| 


আমর! পাইরেক্স কাচের-টিউব হইতে 
সকল প্রকার বৈজ্ঞানিক গবেধণাগারের 
জন্ত হাবতীয় বন্ত্রপাতি প্রত্ধত ও সরবরাহ 
কবিয়। থাকি । 


1977 11191 
(০০০৮7 14777 র্ 


ভিত, 


ট্ঢা 000051, ৮০০ নিম্ন ঠিকানাব অন্থসন্ধান করুন : 
€000800181 11800109$ || 
& 601, 60108010$ ৪, 1, 9155/85 €৫ ৫০, 


157, 9০৬৮585: ৪. 
ঘট পরিসর 80০1৩ 918035) 05851০185-12 








ট৪. 2৮1. উঠা । 8৫ ৮৪2 3180 ; 8০য1১16 10206: 35-9915 


6 জান ও বিজ্ঞান--এপ্রিল, 1974 


বিষয়-সুচী 





ব্ষির লেখক পৃষ্ঠ! 
কিশোর বিজ্ঞানীর দপ্তর 

মার্কোনী--শতবর্ধ স্মরণে ঞা প্রীনিকুঞ্জীবিহারী ঘোড়াই 213 
পারদপিতাঁর পরীক্ষা '** ব্রহ্মানন্দ দাশগুপ্ত ও জয়ন্ত ব্ছা 216 
সামুদ্রিক শ্বাওলা ১১ অলোককুমার সেন 217 
উত্তর (পারদশিতার পরীক্ষা ) 219 
বিশ্বয়কর বৈদ্যুতিক বাতি ৪৭ পূর্ণেন্দু সরকার 219 
উৎকণ্ঠায় কট পাই কেন? .** : প্রুচিত্প্রিয় সরকার 22] 
প্রশ্ন ও উত্তর “৭ ্যামনুন্নর দে 222 
বিবিধ *** 224 













দেশবাসীর জন্যে উত্র্ ওষুধ তৈরি কর ॥ 
»৮৩৭ বছর ধরে এই আমাদের লক্ষ্য 


্‌ দেশের সামাজিক লক্ষ পূরণে এই আমাদের প্রাথমিক কাজ ১ 
॥& আঙাদেদ জনম ছে শুধু ভারতে, তাই নয়, মল-প্রাধেও 
ছানি আমরা খোল আনা ডারভীয় । 

1 ভাগুখ-বিসুখ তেফিয়ে দেশবাসী যাতে নিরোগ জীবনযাপন করতে 
দি পারেন, সেজনে। আমরা বানিয়ে চলেছি নানা ধরনের ওষুধ 1 । 
আব নিতানতুন গবেষখার মাধামে সমানে করে চলেছি 
রোগ লিরাহগ়ের কাজ । 
আজ আমরা অনেক রকমের ওষুধ, ইঞজেকসন আর রাসায়নিক 
দ্নাদিল গ্রা্থুরলনদক । শামাদের প্রচেগ্চা থে বিফজে যায়নি, 
০ | গত সায়ারশ বছরে আমাদের শ্রীরদ্ধির খতিয়ান দেখলেই 
এ তা বোঝা মাবে । মিটি জপ্লাসীল জনো কিছু করতে পারা, 
্‌ 1 ইস্ট ইতিসকা এর চেষ্নে আনশোর আর কী হতে পায়ে । 


৮ ফামীদিউটিকাসে ওয়াস 


| 2] জাজ করে ভালছে রাকা 
6160/গা.-$ 561৭ আনায় মনো । ইন্ট. ইডিয়া ফামাসিউটিকঢাল ওয়াক লিমিটেড, কলিকাতা-১৬ 


আগ তচেল 





জ্ঞান ও বিজ্ঞন--এপ্রিল, 1974 পা 


90] টে শালা 84970 702২0700079 
| 1/১107 40777070757) 3৮ 05 


34007 4]াাব, গলচার ০0, হালা, 0 ঞএাছে, িছাবাল0ো, 
ওমাদ41২10 0110, 914৮9, 07510 400, ডো7০ছঘ হা, 
1020-975:42ঞেনাছ, 

&790 ঢালু চন44500502ঞ1 2800লাব্য0া, 0লুছ 
1041.5 & 1480727101২ 2০:40 


1771 দোংন 
শর 88010151145 148৮101101২ দিবা 


০1০৬৪ 01716871081. ০১০, ৮০, 


০৮/১০/7129 





শে াররাান+০সপাাপপ*প র+এাতাামগা াারাতাররাররহারাররাংরাজাারারারাতাররইগাজাজাা 
আঞ্গীভ্ব থকান্ত্রতত্খেচ বাচতে হলে, বাড়াতে হবে শা কভ্ৰ জমব্জ? 
তার জন্তে দরকার স্মপিজাম ও ন্বিজজাভ্ৰ শিক্ষার বছল প্রলারণ 
চাই বছ ন্িত্ভাজ্ধী ও স্পিকার আর 


স্বাথ্ক ০শম্লক্াজ্ম সমেত গবেধণাগার ও বিজ্ঞান প্রতিষান 


হাবস্ভীয় লরঞজাছের একজ লমাবেশ ও প্রাপ্তিস্থান ২. 


নদীয়া কেমিক্যাল ওয়ার্ক ২৯১ লিও 


ফোন ; ৩৪--৩১৭৬। চিপ 2858৩ আচ৫০শ বাক ১18 গ্বাসধইট, কলিকাতা --১২ 











৪ | জান ও বিজ্ঞান-সএপ্রিল, 1974 


[80590510066 (70215613165 20011596100 
1. 9392818 80010122 20700060 28001075%5 017 43-1867) (বাংলা অতিধান 
গ্রন্থের পরিচয় )€ ১৭৪৩-১৮৬৭ খঃ ) (17 36112711155 901 12610 0108 101)212 








89080650005, [০5751 8 ৬০. 0, 335. 1970, [00105 4, 12.00 
2, 31011039107075: 01010085309 817)1 ( বুন্ধাবনের ছয় টা ) (10 82178911), 09 
[)7:. 91631)01077019 1779. 1), 19 1780. 00১ 336. 1970. 70152 1২৪, 15.00 


23০ 001150050 00105 & 28101] 706105 8 [,9062175। 05৮ 911 70901000179 
07086, দ016631 05 92,1506108, 15058. 05218 ০, 170. 220, 
1970, [90105 [২৫ 25,00 
4, ডো [00192 [11016217008 00155, ০৫106650 05 10, 0. 51081, 10210 
16100. 09, 18411 01965, 1971. [71165 135, 12.00 
2, ঢ01802171017691 06 [20170001510 (200 05010101595 ৮9 190 9. 05 002600016, 
[0210৬ 16 00০. 7. 220, 1920, 0০০ 1২5, 5.00 
6. 80161611215 06 £701506 110018 ৪০181550001 8 981598%2.01 2400 & 
[7106126016, 601060 0% 10. 0. 91051102005 16 17009, 00, 200+9 
012068. 1970, 0১1০০ 1২5, 12,690 
30118. ৬135 (গোবিন্দ বিজন) 11) 9206911), 231660 0% 
[01 21105190101 ১1710210908, 10110610516 000, [9019 584. 1969. 00106 25, 25.00 
0001 0199100158 9658, 05 101, [01809428 1101517011656,. 10500 | 
16 200, 101১. 172, 1970. চ11065 10২3. 10.00 
11103101) 8150 155 00115000208, 5 017 1861159010081 10010767165, 
চ0551 8 ০. 0. 934. 1909, 20565 25. 20.00 
10. 18199178156 €(৮৫5৮] ১৪71০05) (মহ্াতারত-্কবি সঞ্রন্ন বিরিচিত ), ৮১% 
101, ৯1001100-100000 ড0056. 1২0581 8 ৬0. 7০. 1070 1669, 061০5 [5 40.00 


10৮ 01815 07912115, 1019255 971001%5 £ 
1960119110261012 1060211017060171, 80171৬৩7516 01 081010162ৈ 
418, 1122794 ২602১10, 08৯1700171৯-19,. 


লেক্সিন 


সর্পদংশনের শ্ুবিখ্যাত মহোধধ, 


২০ 9০ ও 

















সর্থপ্রকালস গর্পবিষ নক করে। 
কলেরায় নির্ভরযোগা ওবধ, প্রতিষেধক 
হিসাবেও নিশ্চিত কলগ্রদ । 


লেক্সিন সকল সন্্ান্ত দোকানে পাওয়া যায়। 








পি.ব্যানাকি মিঠিজাম, বিভার 
কলিকাতা অফিস £ ১*৯ ডি, শ্টামাপ্রসাদ মুখার্জী রোড 
কলিকাতা-২৬ 











জাম ৫ 


বিনা 


সিসি যার জর 





বিংভি ব্য 


৩৪ ০ ৯ লা 0051100৮০৯০ কাট ও শপ এত উড 


এপ্রিল, 1974 


পলা শপ স্পা পপ কাদা সপ পা পা পাকি ৪ পি ৭ শপ হল ৮ ২০এটটরদ আনার ».ঞোহারার ॥ শা, উর 084৮:৫৪৯০৮ - দা 14:৪৭০৮,4,০০৯০১০১০৪০৭৪:8৫৭০০৬৮-৯০১ স্ব এ্্ানাি/+/নও 5 ৮ পপর হা সর 


 চু্ঘ সংখ্যা 


আচার্য সত্যেন্দ্রনাথ ঘা চেয়েছিলেন 


আচার্য সত্যেন্রনাথ আজ আমার মধ্যে 
নেই। কিন্তু লা জীবনব্যাপী যে সাধন] তিনি 
করে গেছেন এবং বে ম্বপ্রকে রূপান্িত করবার 
জন্তে শেষ পিন পরধন্ত ..প্র়াপ করেছেদ, ত| 
আমাদের, সাধনে রপ্ধেছে। আচার্য বসুর বিজ্ঞান 
লাধনার মুলে ছিল একটি বিশেষ প্রেরণার 
দেশপ্রেম। ছোটবেলা থেকেই স্বদেশী যুগের 
আবহাগুয়ার় তিনি লালিতপালিত ও বর্ধিত 
হুয়েছেন।, 
সমাজ বঙ্গভঙ্গ আন্দোলনে আলোঁড়িত। তার 
নিজের কথা বলতে গেলে-_ছুলের পড়া 
তখনক্%. শেষ হয় নি। এলে! দেশে ম্বদেশীয়ানার 
জোক্ার | কিশোর বয়সে বাস্তান্ খুরে বেড়িয়েছি-- 
রাঁধীবন্ধনের গান গেথে অঙ্থভব করতে চেয়েছি 


তাই ভাই আমন সকলে, জাতিধর্মনিহিশেষে 


লকলেই ভারতমাঁতার সম্ভন। দীন তারতমাতার 


তার যখন ছারাবস্থা, তখন বাংলার 


দুঃখ দুর করতে হবে, পরাধীনতার শৃঙ্থণ ভাঙতে 
ভবে--বিদেশীর নিষ্চকণ শাসন ও শোষণনীতি 
থেকে বাঁচিগ্রে তুলতে হবে পুরাতন এতিহ্নৃষ্পরর 
একটা মহাঞাতিকে |, | 

| এই ্বদেশীঘান্ার আদর্শেই উদজ্ধ হয়ে 
সতোআনাধ,, মেঘনাদ প্রমুখের বিজ্ঞান-চর্চাক 
প্রত হয়েছিপেন। বে যুগে রতবিগ্ত প্রান 
সকল ছাত্রই আইন শিক্ষা ও আইনবিষ্কাকে 
জীবনে প্রতিষ্ঠা লাতের শ্রেঠ পন্থা! বলে মনে 


করতেন, সে যুগে কেন ভারা দুঃসাহসিক পথে 


অগ্রসর হন্েছিলেন, এই প্রসঙ্গে ..সত্েজলাথ 
একাধিকবার বলেছেন_-'জাদরা ভেবেছিলাম 
গতাঙ্ছগতিকের পথে পা না! বাড়িয়ে বিজঞান- 
চর্চার মধ্য দিতেই আমরা দেশসেবা এবং 
দেশমাতৃকার মুখ উজ্জল করতে পারবো 1” 

' লত্যেজনাথ তার অনন্ত বৈজানিক অবদানের 


170 


দ্বারা দেশমাতৃকাঁর মুখ সত্যই উজ্জল করে- 
ছিলেন এবং বিশ্বের বিজ্ঞান মানচিত্রে ভারতের 
নাম স্ুপ্রতিঠিত করেছিলেন। কিন্ত শুধুমাত্র 
নিজের টবজ্ঞানিক গবেষণায় তিনি আত্মঘগ্ধ 
থাকেন নি। তিনি উপলদ্ধি করেছিলেন, 
বিজ্ঞানের যে সুফল, তা দেশবাসীর ঘরে ঘরে 
পৌছে দিতে হবে এবং জনসাধারণের মনে 
বিজ্ঞান-চেতল! জাগিয়ে তুলতে হবে, নইলে 
দেশের সামগ্রিক কল্যাণ ও প্রগতি কখনও 
সম্ভব ছথে না| মাতৃভাষার মাধ্যমে বিজ্ঞান 
শিক্ষা) ও প্রচারের দ্বারাই এই উদ্দোশ্ সাধিত 
হতে পারে-এই ছিপ তাঁর দৃঢ়বিশ্বাল। তাই 
ভার অন্তরাঁকাঁ্।কে বাস্তবে রূপারিত করবার 
জনে শ্বাধীনত! প্রান্তির অব্যবহিত পরে 1948 
সালে তিনি বলীক় বিজ্ঞান পরিষদ প্রতিষ্| এবং 
জন ও বিজান' প্রকাশ করেন। 

আজ 27 বছর ধরে বীর বিজন পরিষদ 
তার নানা কর্মপ্রগ্গামের মধ্য দিয়ে দেশের জন- 
সাধারণের মনে বিজ্ঞান-চেঙনা জাগিহে তোলবার 
জন্তে চেষ্টা করে আসছে। কিন্ত আচার্য সত্যেন্দ্রনাথ 
যা! চেগ্সেছিলেন, তা আমরা এখনও পুর্ণ করতে 
পাতি নি। বিজ্ঞন পরিষদের বর্ডমাঁল ঘা কিছু 
কর্মপ্রশ্াস, তা প্রধানত: শহরাঁঞ্চলের মধ্যে সীমিত । 
কিন্ত সত্যে নাথ চেয়েছিলেন গ্রামাঞ্চলের সাধারণ 
মাছছধের কাছে বিজ্ঞানের কথা প্রচার করতে 
ছবে এবং বিজ্ঞানের সুফল পৌছে দিতে হুবে। 
কিন্ত এই বিষন্ধে আমর! আজ পর্ধস্ত কতটুকু 
করতে পেনেছি? “জান ও বিজ্ঞান' পত্রিকান্গ 
যে ধরণের নিবন্ধ প্রকাশিত ছু, সে বিষয়ে 
তিনি বহুধার আমাদের প্রশ্ন করেছেন--তোমরা 
কাদের জন্তে লিখেছে? 


উকান ও বিন 


[27তম বধ, ধুর্খ সংখ্যা 


বিজ্ঞানের ততৃকথ! ও জটিল বিষ আলোচন। 
করবার অপেক্ষা! তিনি চাইতেন সাধারণ মাহুষের 
যে সব ব্ষগন জানলে উপকার হয়, যেমন 
চাষাবাদ, ছোঁটখাটে। শিল্প ইত্যাদিতে বিজ্ঞানের 
প্রশ্নোগ, সে সন্থদ্ধে আলোঁচন। “জ্ঞান ও বিজ্ঞান'-এ 
বিশেষভাবে প্রকাশ কর! উচিত। এ জন্কে 
তিনি প্রায়ই আমাদের বলতেন--দেশের বিভিন্ন 
অঞ্চলে যে সব শিল্লোঞ্জোগ গড়ে উঠেছে, তার 
কথ! লেখা । চাখাবাদে বারা ব্যাপূত আছেন, 
তারা যে পৰ সমহ্যার সম্মুধীন হন, সে বিষহেও 
তিনি লিখন্তে বলতেন; অর্থাৎ তিনি চাইতেন-- 
বিজ্ঞন-শিক্ষা শিক্ষিত বা বিশেষজদের কথা 
না ভেবে দেশের সাধারণ মানুষের (বার! 
বিজ্ঞানের পাঠ গ্রুপের নুধোগ পাপ নি) কথ। 
মনে রেখেই আমাদের লেখা উচিত। তার 
এই অস্তরাকাজ্ষাকে আমর। যে এখনও পুর্ণ করতে 
পারি নি--একথ! অনস্বীকার্য । 

রান ও বিজ্ঞান'-এ প্রবদ্ধ প্রকাশকালে 
এই দিকটির প্রতি আমাদের যেমন বিশেষ গুরুত্ব 
দিতে হবে, অপর দিকে” তেছনি গ্রামাঞ্চলের 
সাধারপ মানুষের কাছে বিজনের কথ। প্রচারের 
জন্তে আমাদের বিশেষতাঁবে চেষ্ট! করতে হুবে। 
শুধু শহরের বুকে বিজ্ঞান প্রদর্শনীর আত্দোছন 
না করে, মাঝে মাঝে বাতে গ্রামাঞ্চলেও 
এই ধরণের প্রদর্শনীর আখোঞন করা ধা, 
তার চেষ্টাও আমাদের করতে হবে। এর জতে 
প্রশ্নোজন সরকার ও জনসাধাক্ষণের অর্থপাহ্থাধয 
ও পহধোগিতা। আমর আশ! করবো, বজীক 
বিজন পরিষদ এই বিষয়ে সরকার ও ঘেশবাপীর 
বথোচিত লাহাধ্য ও সহযেগিত! পাবে। 

রবীন বন্দ্যোপাধ্যায় 


নক্ষত্ত্রে তেজের স্তৃষি 
ভরীজিতেজ্জকুমার গুহ 


বিজানীদের ছিশাব অচ্লারে ভুর্ষের আহ- 
মানিক পরমাঁধু 1500 কোটি বছরের মধ্যে 500 
কোটি বছর ক্মতিক্রাস্ত হক্জেছে। কিন্ত বিগত এই 
দীর্ঘ কাঁলে তার তেজ বিফিরণের মাত! কোন দিনই 
হাঁস পেল না| ছুর্ধ এক সেফেগড সময়ে যে স্তেজ 
বিকিরণ করে, মানবেতিহাসেয় সম্পূর্ণ কালের 
মধ্যেও ততটুক মাত্র তেজ মাঁন্ষ ব্যবহার করে 
উঠতে পারে নি। হুর্ষের এই অমিত তেজের 
উৎস কি? এই অফুরস্ত ভাগার তার কোথ! 
থেকে আসে? এই প্রশ্নের উত্তর বিজ্ঞানীরা 
অনেক কাল ধয়ে খুঁজছেন। কখনও কখনও 
নানাবিধ ততৃও প্রচারিত হয়েছে, কিন্তু গ্রহণ- 
যোগ্য সঙাধানের ইঙ্গিত পেতে বিংশ শতাব্দীর 
তিনটি দশক কেটে. গেছে। চতুর্থ দশকের 
প্রারস্তে বিআনী রাদারকোর্ড পরমাণুর . গঠন- 
তন্ত্রের যে ব্যাখ্যা প্রদান করেন, পরবতা 
বিআ/নীর। তার লাহাধ্যেই হুর্ষের অভ্যস্তরে 
পারমাণবিক বিক্রিয়া (০168: 16900101)) 
ঘারা তেজ হরির সঞ্ডাব্যতা নির্ণহ করেন। শুধু 
হুর্ধের নয়ঃ অন্তান্ত নক্ষত্র যে তেজ বিকিরণ 
করে চলেছে, তাও তাদের অভ্যন্তরে পারমাণবিক 
কিক্রিয়ার হারা! প্রহৃত। এই তথ্য আবিষ্কৃত 
হলো 1938 সালে ছুটি পৃথক পৃথক পারমাণবিক 
বিক্রিয়া! শৃন্ধল উত্তাধনের ফলে। 

বিক্রিগ্াদদ্বের একটির নাঁদ প্রোটন শৃঙ্খল 
(99692. 01:819), অপরটির নাম কার্বন-নাইট্ে।- 
জেন চক্র (091601৮116086 ০5০1) বন! 
সংক্ষেপে শুধু কার্ধন চক্ষে (09:৮০) ০5০1৪) 

প্রোটন শৃঙ্খল খণ্ড খণ্ড দ্বাবে ভ্থান্দ্‌ বেখে 


(2. 188056), পি, কিচকিব্ড (0. 0:2:538214) 


ও পি, লঙ্গিটসেন 00. [5 8116561) নাঁষক 
তিন বিজানীর অবদান! কার্বন চক্রের উত্তাবক 
হান্স্‌ বেখে এবং কার্ণ ফন তাইপপেকাঁর (০৪৫ 
৬০০ ড/61539056£)। এই ছুই বিজ্ঞানী ভিন্ন 
তিক স্থানে এবং ম্বতস্্র্াবে গবেষণ| চালিয়ে এ 
একই কার্বন চক্র উদ্ভাবন করেন। 


পরমাণু 


সর্বাগ্ে পরমাণুর গঠন-বিহান ও তার 
প্রকৃতিগত টবশিষ্টয সম্পর্কে কিছু আলোচন! 
আবশ্তক। পদার্থ কতকগুলি অণুর সমষ্টি। অণু 
গঠিত হয় এক বা একাধিক পরমাণুর সমবায়ে। 
পক্ষান্তরে পরমাণু আবার কতকগুপি কণার দ্বারা 
স্থই| পরমাণুর প্রধান তিনটি কপার নাধ প্রোটন, 
ইলেক্উন ও নিউট্রন (0:09690১ 216০6:০7 & 
00:০০) | ধে সকল পদার্থের অণু একজাতীয় 
একটি বা! একাধিক পরমাণুর দ্বারা গঠিত, তাদের 
বলে মৌলিক পদার্থ বা মৌল (21619015) এবং 
যে সকল পদার্থের অণু ছুই বা ততোধিক 
জাতী পরমাণুর দ্বারা গঠিত তাঁদের বলে যোঁগিক 
পদার্থ (0918009500)। 

রাপারফোর্ড (0.001561601) বলেন, পরমাণু 
বলতে বুঝায়-ঘন সন্গিবিষ্ট প্রোটন ও নিউটন 
কণার একটি কেন জীনের (4০153) চতুদিকে' 
প্রদক্ষিপরত নিদিষ্ট সংখ্যক ইলেকট্রন কপ! । 
এক্ষেত্রে হাইড্বে।গেন শুধু ব্যতিক্ম| হাই" 
ড্রোজেনের ফেশীনে কোন নিউউন নেই, আছে 
কেবলমাত্র একটি প্রোটন ও তার চতুর্দিকে 
ঘূর্ণা়ঘান একটি মাজ ইলেকউন। অক্ন সকল 
পরাণুহ কেজ্রীনে কয়েকটি প্রোটন ও কথেকট 


172 


নিউট্রন ঘন সন্বিবিষ্টউভ।বে অবস্থান করে এবং 
তার চারদিকে বিতিক্জ কক্ষে কফেন্সীনন্থ প্রেটনের 
সমসংখ্যক ইলেকট্রন প্রদক্ষিণ করে, ঠিক যেষন 
হুর্ধের চতুদিকে গ্রহগণ আপন আপন কক্ষে 
প্রদক্ষিণ করে। 

ইলেকট্রন খণাক বিদ্যুৎ কণা, প্রোটন ধনাত্মক 
বিছাৎ্কণ।, নিউট্রনের কোন বিছ্বাৎআধান 
(00886) নেই । একটি প্রোটন কণার বভটুকু 
বিছ্যুৎ-শক্তি, একটি ইলেকট্রন কশান়ও ঠিক তাই, 
কিন্তু তারা! বিপরীত-ধম; অর্থাৎ একটি প্রোটন কণার 
বিছ্যৎ-আ ধান হি হন্নগ 11 একটি ইলেকট্রনের 
বিছ্যৎ-আধাঁন হবে 1, এত্রা দুক্ে একম্িত 
হলে উভদ্বেরই বিছুৎ-শক্তি লুপ্ত হবে একটি বিছ্যুৎ- 
নিরপেক্ষ নিউট্রন কপার স্টি হত্র। পরমাণুর 
কেন্্রীনের প্রোেটনের সংখ্যার সঙ্গে তার বহির্িক্ষের 
ইলেকট্রনের সংখ্যা সমান বলে পরমাথুটিরও কোন 
বিছ্যৎ-শক্তি নেই। কিন্তু বহিরক্ষের ইলেকট্রন 
সহজেই স্থানচাত হনে বেতে পারে। এভাবে 
এক বা একাধিক ইলেকট্রন বহির্কিক্ষ থেকে 
বিতাড়িত হলে পরমাথুটিকে আক্গনিত, (001771569) 
হওয়া বলে। এরূপ হলে পরমাণুট অবশ্ঠই 
ধনাত্বক বিহ্যৎ-আ।ধানলম্পরন হনে পড়বে। অতএব 
খণাত্মক বিদ্যুতের প্রতি তার একট। আকর্ষণ উৎপক্ন 
হবে। আরনিত হওয়ার পরিমাণ শির্র করে 
পরমাণু থেকে কতগুপি ইলেকট্ুন বেরিপ্বে গেল-- 
তার উপর। আয়নিত পরমাণু আবার নিকটস্থ 
উৎস থেকে ইলেকট্রন কণা আকর্ষণ করে নিষ্বে 
পলাতক কণা কক্সটির স্থান পুরণ করে মের এবং 
স।ম্যাবস্থা্ কফিনে আসে। ঘর্ষণ, আলোকরশ্মির 
আঘাত প্রভৃতি লামান্ত কারণেই পরমাণু আগ্নিত 
হতে পারে । ছুই খণ্ড রেশম ব] ছুই খণ্ড নাইলনের 
পরস্পর ঘর্ষণে তাঁদের পরমাণু আরমনিত অর্থাৎ 
বিছ্যতাগ্লিত হনব বলে একটা খর্‌ খবু আওয়াজ 


ওঠে | উক্‌নো চুল জাঁচড়াবার সময়ে ফোন, 


কোন চিরুমীর পরমাণ আক্বনিত্ত হুগ্ে আআপে- 


ঘন ও বিজ্ঞা 


[27৩ বধ, ধর্থ সংখা 


পাঁশেহ চুলের ইলেকট্রন আকর্ষণ করে । আলোক- 
রশ্মির আঘাতেও পরমাণু আগরনিত --ভাধাস্তরে 
পরমাণু থেকে ইলেকট্রন বহিষ্কৃত হয়। আলোক 
সম্পাতে পরমাণুর ইলেকট্রনের নিষ্রাদণকে ফটো- 
ইলেকটি ক (01১০০-516০0:1০) প্রক্রিয়া বলে। 
প্রকিত্জাটি নক্ষত্রে যেমন প্রবল, তেমন আর কোথাও 
নয়। নক্ষত্রের অভ্যন্তরে পরমাধুলমূহ প্রায় 
সামগ্রিঞতাঁবষে ইলেকট্রন বঞ্চিত অবস্থায় আছে। 
উপরে বলা হনেছে পরমাণুর কেন্জীনে আছে 
ঘনসন্নিবিষ্ট কয়েকটি প্রোটন ও নিউট্রন কণ।। 
আমাদের জানা আছে বিপনীত-ধর্মী বিছ্যৎ" 
কণ। পরম্পরকে আকর্ষণ করে এবং সমধর্মী বিছ্যুৎ 
কণা পরম্পর থেকে দূরে সরে যাঁয়। তাহলে 
ধন।ত্মক বিছ্যুৎ্-যুস্ত একাধিক প্রোটন কণ। কিতাবে 
পরমাণুর কেজীনে সহাবস্থান রে? উত্তরে বলা 
যায, কেন্ীন শক্তির (0৫181 £০:০৪) প্রভাবে 
প্রোটনগুপি একে অন্তের থেকে বিচ্ছিন্ন ছতে পারে 
না, সংলগ্ন থেকে ধাছ। কেক্্ীনে প্রোটনের সংখ্যা 
যদি ক্রমশঃ বাঁড়তে খ।কে, তাহলে তাদের সম্মিলিত 
বিদ্যুৎ-শক্তিও তদজগপাতে বাড়বে। সেক্ষেত্রে 
ক্রমে এমন অবন্থ। আঁস্বে যে, সেই সম্মিলিত 
বিছ্াৎ-শক্তি উল্লিখিত কেন্রীন শক্তিকে অতিক্রম 
করে বাবে। এরূপ হলে কেঞ্জীন খেকে অতিরিজ্ঞ 
প্রোটন কণ| পালিয়ে গিয়ে পরমাণুটিকে সাম্যাবস্থাঁয় 
আনতে চেষ্ট। করবে । এজভেই নৈসগিক জগতে 
ইউরেনিয়ামের চেয়ে ভারী পরমাণুর অঞ্িত্ব 
নেই! ইউরেনিয়ামে আছে 92টি ধোন কণা, 
এর চেয়ে তার্রী পরমাণু অর্থাৎ 92 অপেক্ষা 
বেশী প্রোটনযুক্ত পরযাণু যদি কোন দিন 
থেকেও থাকে, এখন আর তার কোন অস্তিত্ব 
নেই। এমন কি, ভারী পরমাণুগুলিও অস্থাক্নী-- 
সেগুপি ক্রমে ভেঙ্গে তেঙ্গে হাক! স্থায়ী পরমাণুতে 
রূপান্তরিত হয়ে যাচ্ছে? ঘ্বেষদ, ইউন্রেনিঙ্গাম 
শ্বতঃই ভেঙে ধীরে ধীরে সীসায পরিণত হচ্ছে 
বিঞ্্ৎ্-কদাধানহীন, পরখাখুতে যে কক্সটি 


এপ্রিল, 1974 ] 


ইলেকটন প্রদক্ষিণরত খাঁকফে, তাঁকে বলে সংশ্লিষ্ট 
মৌলের পাঁরঘাপবিক সংখ্যা (4607015 0005021)। 
বস্াতঃ আয়নিত নয় এখন পরমাঁণুতে যে কমি 
ইলেকট্রন ঘূর্ণায়মান, ঠিষ্ন লেই কটি প্রোটনই 
পরমাঁগুর কেশ্রীনে অবস্থিত। নুতরাঁং কেন্দীনের 
প্রোটনের সংখ্যাই সংগ্রিষ্ট মৌলের পারমাণবিক 
সংখ্যা। কেন্দ্রীনের প্রোটন ও নিউট্রন একধোগে 
বে লংখা।, তাঁকে বলে সংশ্রিই মৌলের-পাঁরমাঁণবিক 
ভর (00103500085) 1 একটি প্রোটন কণার 
ষে ভর, একটি নিউটন কপারও প্রা সেই ভব। 
কিন্তু একটি ইলেকট্রন কপার তর এত সামান্ত 
ষে, তা ধর্তব্যের মধ্যে নয়। একটি ইলেকট্রন 
কণার ভর 9+1091১10-93 গ্র)ঁম॥ একটি 
প্রোটন কণার ভর একটি ইলেকট্রনের ভবের 
183612 গুণ এবং একটি নিউট্রন কপাঁর তর 
একটি ইলেকট্রনের ভরের 1835165 গুণ । এজন্তে 
ইলেকট্রনকে বাদ দিরে কেবলমাত্র প্রোটন এবং 
নিউট্রনের সংখ্যা যোগ করে সংঙ্গিতই মৌলের 
পারমাণবিক ভর নিশাত হুয়। 

অক্সিজেনের পরমাণু-কেশ্ীনে ৪টি প্রোটন, 
৪টি 1নউদ্রন আছে বলে তাঁর সাংকেতিক ভা) 
৪0:৪8 বা 20 বা শুধু 0৫1 তেষলি লৌহের 
পরমাণু কেন্্রীনে 26টি প্রোটন ও 30টি নিউট্রন থাঁকাগ্র 
তার সংকেত ৪6565 বা $% মঢ৪ বা 655৪1 
অর্থাৎ সাংকেতিক ভাম্য হচ্ছে 

পাংঃ ভর 


যষৌল বা 
পাঃ সংখ্যা 


পাঃ সংখ্যা 
আইসোটোপ (1$০8০১৪) 

মৌল পদার্থের রাসাহনিক ধর্ম।বলী নির্ভর 
করে তার পরমাগুকেঞীনে অবস্থিত প্রোটন- 
সংখ্যার উপর। ছুটি গরমাণুতকেকীনের একটিতে 
বর্দি থাকে 8টি প্রোটন ও ৪টি নিউটন এবং 
অপরটিতে থাকে. 8টি প্রোটন ও 9টি নিউট্রন, 
তাঁহণে তাদের উতন্বের সংকেত, বখাকমে 


লক্ষজে ভেজের স্থ 


173 


06 এবং 011 $ কিন্তু এর। উভয়েই রাসাকসনিক 
ধার্য অকিজেন ; কারণ ওদের প্রোটন-ন'খ্য 
সমান। এইরূপ কেন্্ীনে প্রোটন-সংখ্য। সমান 
খাকলেও নিউট্রন-সংখ্যা বদলে যেতে পাকে। 
রাসায়নিক ধর্ষে পার্থক্য নেই অথচ ভর বিভির হলে 
সেই সেই পদার্থগুলিকে পরম্পরের আইপোটোপ 
বা সমস্থানিক মৌল বলে । যেমন, 260, 0, 
170 অক্সিজেনের আইপোটোপ ; আবার ০ 
এবং 00 ইউরেনিয়ামেহ আইপোটোপ। 

আইলোটেপ গঠনে পরমাণুর কেশ্রীনে 
প্রোটন কণার সংখা] ও নিউট্রন কণার সংখ্য।র 
মধ্যে ব্যবধান খুব বেশী হতে পারে না| ব্যবধানটি 
সীমিত। প্রোটনের তুলনার নিউব্রনের সংখ] 
সেই সীমার উপরে বা নীচে গেপে কেন্ত্রীনটির 
গঠনতঙ্ত্র বদলে গিয়ে নূতন একটি মৌলের পরমাথু 
সৃষ্টি হয়| 06 বা অক্সিজেনের আইসোটোপ 
017 ও 05 নিসর্গ প্রকৃতিতে সামান্ত পরিমাণে 
থাকলেও 20 অর্থাৎ 0:০-এর অস্থিত্ব নেই! 
গবেষণাগার 0১০ প্রস্তত কতা যেতে পাঁরে, কিন্ত 
তা স্থায়ী হয় না প্রস্তুতের সঙ্গে সঙ্গেই 
কেন্ত্রীনটি বদলে বা ভেঙ্গে যাঁয়। এর একটি 
নিউট্রন পরিবন্তিত হয়ে যায় প্রোটনে। এভাবে 
কেক্্রীনে প্রোটনের সংখ্যা বেড়ে বাওয়ার় একটি 
নৃঙন মৌলের স্থষ্টি হলো। যৌলটির নাম ফ্লোগিন, 
যাঁর সংকেত 40 চু] বা চ1:০1 আবার অব্সি- 
জেনের অন্ত একটি আইসোটে।প 2850 ৰা 015ও 
স্বাহী নঙ্গ। গবেষণাগারে প্রস্ততের সঙ্গে 
সঙ্গে এর একটি প্রোটন পরিবতঠিত হতে যায় 
নিউট্রনে, ফলে নৃষ্ম কেন্দ্রীনে থাকে 7টি প্রোটন ও 
৪টি নিউটন! এই নূন মৌপটির লাম নাইট্রে- 
জেন, বার সংকেত চটে বাবা । 

কেজীনে প্রোটন ও নিউটনের পারস্পরিক 
তুলনাসূলক সংখ্যায় অতিন্িস্ক আসামা ঘটলে, 
কিংবা কেলীবে শ্রচও গআখাঁত দিলে অথবা 
কেন্্রীনে অত)ধিক উত্তাপ প্রশ্নোগ করলে, কেন্্রীন 


174 


এন্ূপ নূতন পর্মাঁণুতে পরিবতিত হুর, ফলে 
একটি নৃতন মৌলের হি হয়| একে পারমাঁপবিক 
বিক্কিয়া বলে। 

যোঁগিক পদার্থ গঠনে কিন্ত কেন্দ্রীনের কোন 
ভূমিক] নেই; অর্থাৎ এক্ষেত্রে প্রোটন এবং নিউ- 
টনের বিস্তান অপরিবাঁতত থাকে । যৌগিক পদার্থের 
সৃষ্টরতে দুই বা ততোধিক পরীম1ণ-কেন্দ্রীনের 
চতুর্দিকে প্রদক্ষিণরভ ইলেকট্রনসমূছের নবতর 
বিস্তাসের ছার! শংযোজন ঘটে এবং এই স'ধোজ- 
নের ফলে সংঙ্গিঃই পদার্থগুলি দিজেরাই উত্তপ্ত হতে 
ভাঁপ পরিত্যাগ করে কিংবা তাদের সংযোক্জনেন্ 
' জন্তে উত্তাপ প্রয়োগের প্রয়োজন হত্স। ইলেকট্রনের 
নৃতন বিন্তাসে নৃতন পদার্থ গঠিত হলে তাকে 
বাসারনণিক বিক্রিয়া (01061210271 158001012) 
বলে। 

অত্ধএব দেখা যাচ্ছে, পারমাণবিক বিক্রিয়ার 
ক্ষেত্র হচ্ছে বেজ্জীন, এবং বাপাক্সনিক বিক্রিসার 
ক্ষেত্র হচ্ছে কেন্ত্রীনসমূহ্রে চভুিকন্থ অ্রধণরত 
ইলেকউরন পুঞ্জ। 


পর্যায় আরণী (১৩৫8০৭1০ ৭5] ৬) 


নৈস্গিক পরমাঁণুগুলির মধ্যে হাইড্রেজেন 
সবচেয়ে হাক্কা, যার চতুপিকের কক্ষে ভ্রাষ্যমান 
মাত্র একটি ইলেকট্রন এবং সবচেগ্কে তাপ্ী পরমানু 
ইউরেনিয়াম, বার কক্ষে আছে 92টি ভ্রাম্যমান 
ইলেকট্রন। সর্বাপেক্ষা হান থেকে সর্বাপেক্ষা 
ভাত্ী পর্স্ত পরমাণুগুলিকে তাদের সঙ্গী 
ইলেকট্রপগুলির ক্রমব্ধনান সংখ্যানুযাতী একটি 
একটি করে সাঞজির়ে মেতডেলিফ ()/5046166৮) 
1869 সালে বে তালিক! প্রস্তত করেন তার 
নাম দেও] হপ্জেছে পর্ধার-সারণী। শে সমগ্ে 
পুরা 92টি পরমাণু জানা ছিল না, কাজেই 
এক থেকে 92 পর্যস্ব লবগুপি ঘর পূর্ণ হলো 
না, এখানে ওথানে কতেকটি খর ফাকা 
খেকে গেল। কিন্ত 


জান ও [বিজ্ঞান 


শর্ত স্থানের সম্ভাবা 


[27তম বর, ধর্ব সংখ্যা 


পরমাণুর রাসাননিক ধর্ম অগ্জমন করা সম্ভব 
হক্জেছিল। পরবতাকালে নৃতন নৃতন জীবিফারের 
বার] পে লকল ফাকা স্থান পুর্ব হয়ে গিয়েছে। 
এখানে প্রশ্ন উঠতে পারে-& 92টি ছাড় অন্ত 
পরমাণু কি নেই? এর উত্তর হচ্ছে, প্রবতিক্কে 
ওদেরই কিছু আইপে।টোপ আছে এবং গবেষণা- 
গরে কৃত্রিম পরমাণু গঠিত হতে পারে ও বন্ধ 
সংখা হয়েছেঞ। গবেষণাগারে প্রস্তত কৃত্বিষ 
পরমাণুগুলির অধিকাংশই নৈপগিক হাক! পরমাণুর 
আইসোটোপ। অন্তগুলি ইউরেনিম়্ামের চেয়ে 
ভাঙ্ী এবং পেগুলির অগ্ডিত্ব প্রকৃতিতে নেই। 
বর্তমানে ইউরেনিয়ামের চেয়ে ভারী কৃত্রিম 
পরমাণুর সংখ্যা দশ-বারোটি, সেগুলির নাম 
নেপচুনিয়াম, প্ুটোনিয়াম, আমেরিপিয়াম, ক্যালি- 
ফোপিয়াষ, ফেব্সিয়াম ইত্যাদি । এগুপির মধ্যে 
91 সংখ্যক প্রুটোনিয়াম পরমাণুটি তো শিল্পগ্গগতে 
বিশেষ মুল্যবান বলে সমাদৃত। 

পর্যায়-সারণীর প্রথমার্ধের অর্থাৎ কোৌপ্যের 
(দয 28) পুর্ব পর্বস্ত পরমাণুগলিকে হাল্কা পরমাণু 
বলা বেতে পারে। এগুলির যে কোন ছুটির 
পারমাণবিক সংখ্য। যদি একযোগে রোৌপোর 
পারষাপবিক লংখ্যা অপেক্ষা কম হয়, তাহলে 
সে ছটিকে উত্তাশারি প্রক্রিছার দ্বার সংযুক্ত কর! 
যেতে পারে এবং তার ফলে নংগ্লিই পরমাণু ছুটি 
থেকে পৃথক অপর একটি পরমাপুর আইলোটোপ 
কৃষ্টি হয়। এরপ পারমাণবিক বিক্রিগ্াকে 
সংযোজন (৪31০৮) বলে; যেমন--ছুটি হাই- 
ড্রোজেন পরম1পুর সংবোঁজনে একটি ভারী ছাই- 
ড্রোঞ্জেন পরমাণু হু হু; অথব! কার্বনের সঙ্গে 
ছাইড্রোজেনের সংযোজনে  নাইট্রোজেনের 
আইসোটোপ গঠিত্ত হন়্। 

পর্ধায-সামণীর দ্বিতীয়াধের পরমাণুগুলিকে ভারী 
পরমা, বলে। ভারী পরমাণুগুপির. ছুটির হধো 
সংযোজন সম্ভব নয়। কিন্তু সেগুলির কোনটিকে 
প্রঃ  আঘত প্রভৃতি যে কোন উপবুক্ক 


এপ্রিল, 1974 ] 


প্রত্রিরার় ভেঙ্গে ফেলা বান, যার ফলে স্বিতীক 
অপর একটি ব! ছুটি পরমাণুর উদ্ভব হতে পারে। 
একপ পারমাণবিক বিক্রিয়্াকে বিভাজন (ছ15501)) 
বলে। |] 
. ইউরেনিয়াম গুভৃতি করেকটি ভারী পরমণুব 
কেজীন থেকে নিজে নিজেই অবিরাম তেজ 
বিচ্ছুরিত হয়ে বাচ্ছে। তেজ দ্বতঃই উৎলারিত 
হয়ে যাগ বলে এগুলিকে তেজক্কিয় পদার্থ (3৪৫$০- 
৪00৮5) বলে। 

একটি কেন্ত্রীনেত চতুপিকে প্রদক্ষিপরত এক 
বাঁক ইলেক্ট্রন দিকে প্রতিটি পরমাণু গঠিত । 
পরমাণুর গঠন-বিষ্ঠাসের এই বিবরণ গুলে মনে 
হয় পরমাণু আক্তনে যেন কতই বৃহৎ। প্রকৃত- 
পক্ষে পরমাণু এত বল্পনাতীত ক্ষুদ্র ধে, একটি 
প্লেরেকের ছুচাঁলো ডগান্বও অনেক কোটি লৌহ- 
পরমাণু হ্বচ্ছন্দে অবস্থান করছে। একটি পরমাণু 
বাশ $0-৭ সেপ্টিমিটার, একটি কেম্্রীনের ব্যাল 
10-8 সেন্টিমিটার, একটি ইলেকট্রমের ব্যাস 
10-£5 সে্টিখিটার। 


তেজোরশ্মি ও তেজক্কণ। 


পদার্থ পেকে তেজোরশ্সি বা] তেজদ্বণার 
বিচ্ছণকে তেজের বিকিরণ বলে। উপরে 
তেজা্রি্র পদার্থের কথা বল! হযেছে! এগুলি 
থেকে দ্বতঃই পারমাণবিক বিক্ষিন্বা় অবিরাম 
তেজের বিকিরণ কয়ে চলেছে। কৃত্রিম প্রণালী তেও 
পদার্থে পাগমাপবিক বিক্রিগ্লা ঘটনে। বায় এবং 
তাতেও পরমাণুর সংঘোঞঙ্জন বা বিভাজনকালে 
তেঙ্জের ধিকিরণ হ্য়। ত্বাতাবিক হোক কিংবা 
কজিঘ ছোঁক, পরমাণু থেকে বিকিরিত তেজঃকণ! 
ও তেজোরশ্ি পর্ধরই একই প্রেকার। 

এগুলির নাম--01) আলফা রশি (41909 
18258) বা আলফা কপ! (1076 63700168), 

62). বটি বি (8৬8 285৪) বা রি কণা 
(8৪৪. 08776158) ১ 


নক্ষজে তেজের ক্বপ্ঠি 


175 


' (9) গ্রামা রশ্মি (09000081853) 

(1) হিলিয়াম মৌলের পরমাণু-কেন্্রীনকে 
বজা হয় আঁলফ! কণা বা আলফা] রশ্বি। 
ছিলিক্াম-কেশ্রীন গঠিত হুর ছটি প্রোটন ও 
ছুটি নিউটনের সমবায়ে অর্থাৎ প্রান] সুতরাং 
এতে ছুটি ধনাত্বক বিছ্যুতের আধান 
বর্তমান! বদি কোন মৌল পরমাণু থেকে আলফা 
কণ! বিকিরিত হয়ে থাক, তবে সেই মৌলের 
পারমাণবিক লংখ) ছুই কম হয়ে পড়ে, কিন্তু 
পারমাণবিক ভর কমে চার। আলফ1 কখার 
বিকিরণে প্রতৃত তেজ উৎপন্ন হনন ও তার গতিবেগ 
আলোর গতিবেগের 5 থেকে 7 শতাংশ । 

(2) কোন মৌলের আইপসোটোপণের কেন্্রীনে 
প্রোটন ও নিউদ্টনের সংখ্যার সীমিত ব্যবধানে 
ব্যতিক্রম উপস্থিত হলে; অর্থাৎ এ ব্যবধানের 
বৃদ্ধি বাঁ হাস ঘটলে কেশ্ত্রীনটি অস্থায়ী হয়ে 
পড়ে। নিউট্রন বা প্রোটন-্যেটির আধিফ) 
ঘটে, সেটি থেকে কেন্ত্রীন শক্তির প্রদ্ধাবে 
একটি বিটা কণা বহিরিত হয়ে যার এবং একটি 
নূতন মৌল-পরমাঁণুর কৃষ্টি হয়। বিটা বিকিরণে 
একটি খণাত্মক বিভ্যুৎ-কণ! বা একটি ধনাত্মক 
বিছযাুৎ্-কণা উৎসারিক্ষ ছক্কে প্রচুর তেজ উৎপন্ন 
হগ়্। বিট] কণার গতিবেগ আলোকের গতিবেগের 
প্রায় 98 শতাংশ । নিমোক্ত (ক) বং (খ) 
বিট! কণার পরিচায়ক । 

(ক) বিটা কণামানে অতি দ্রুত গতিগণীল 
একটি খপাত্মক বিছ্যৎ-কণ! অর্থাৎ ইলেকউন (৪-)। 
এটি বিচ্ছুরিত হর পরমাঁপুকেক্জীনের নিউট্রন 
থেকে। ফলে নিউট্রনটি একটি প্রো্টনে পরিশত 
ছয়ে যার, কিন্ত কেল্ীনের মধ্যেই "বদ্ধ থাকে 
সেই প্রোটনটি। এভাবে পরমাঁপুটতে প্রোটনের 
সংখ্যা! “এফ বৃদ্ধি পেয়ে কেজীনেই যুক্ত থাকলো 
হলে তার পারমাণবিক সংখ্যা 'এক' ন্ুদ্ধির 
ফলে একটি নৃঙন, পরমাণুর হি হলো, কিন্ত 


সকার পূর্েকায় নিউটদের' "সংখ্যা “এক' হাস 


176 


পেল। অতএব কেন্ত্রীনটির পুর্বেকাঁর ভর সমানই 
রইলো, কারণ বহির্গত ইলেকউ্রনটির ভর এত 
সামান্ত যে, তা ধর্তব্যের মধ্যে নক্ব। যেমন, 
অভ্সিজেনের আইসোটোপ £80 বিটা বিকিরণের 
পর পর্রিবতিত হয় ফ্লোরিনে ঘি] 

খে) অথ্ববা হিটা কণা বলতে বুঝায় এব্প 
ক্রহগতিসম্পন্ন একটি ধনাত্মক বিছ্যুৎযুক্ত ইলেকট্রন 
কণ। (৬+), যার নাম দেওয়া হয়েছে পজিউন 
এটি বিচ্ছুরিত হন্জ পরমাণু 
বেন্দ্রীনের প্রোটন থেকে । ফলে প্রেটনটি একটি 
নিউট্রনে ক্বপাস্তরিত হয়ে যার এবং সেটি এ 
কেশ্রীনেই যুক্ত থাকে। এক্ষেত্রে মৌগটির 
পারমাণবিক সংখ্যা 1” হাস পেয়ে একটি নৃতন 
পরমাণুর উত্তব হুম, কিন্তু তার, পারমাণবিক ভরে 
কোঁন পদ্গিবর্তন হলো নাঃ কারণ পজিউ্রনের 
ভর এত সামান্ত যে, তা ধতব্যের মধ্যে নয়। 
বেষন, অক্সিজেনের অপর এক আইসোটোপ 
1850 বিটা খিকিরণের পর্ন প্রিপত হল 
নাইট্রোজেনে ছে । 

(3) গাম! রশ্মি কোন কণ নক্ব। এব্স-রশ্ি 
মতই গাম রশ্মি বিছ্যুচুখক তরঙ্গ । গামা রশ্লিখ 
তরঙ্গ-টদধঘ্য একস-রশ্ি ভরজ-টর্থা অপেক্ষা! অনেক 
ক্ষু্তর, যাঁর ফলে বিক্রিত তেজও অতি প্রচণ্ড। 
পরমাণু-কেআজন থেকে আলফা কণা বাবিটা কণ। 
ধেরিরে গেলে এ বেজ্রীন নবতর বিস্তাসে 
সাম্যাবস্থায় আসবার শমন্ে গামা রশ্মি 
বিকিরিত হ্য়। 

আলফা রশ্মি, বিট রশ্মি ও গামা শি 
প্রতিটি বিকিরণেই কেন্ত্রীন থেকে প্রচুর পরিমাণে 
তেজ উৎপন্ন হুত্ধে বহিবিশে ছড়িক্নে পড়ে। 


€170536015 | 


নিউটিনে! (900) 
ফোন তেজক্রিয় মৌল থেকে যে সকল 
আলফা কণা নির্গত হয়, সেগুণি প্রত্যেকেই শম- 
গফিমধণ তেজের আধার কিন্তু বিটা কণার 


জান ও বিজ্ঞান 


. (27তম বর্ষ, বুথ সংখ্য 


ক্ষেত্রে এই সমতা নেই। তাঁদের তেজ কার 
কম, কারও ব্শী। এই অসাম্জন্য লক্ষ্য করে 
বিজ্ঞানীরা অনুধান করেন বিটা বিকিরণ 
ইলেকট্রনের সঙ্গে অপর কোন কপার কম ব৷ 
বেশী কিছু তেজ নিয়ে পলাক্নই হয়তো এ 
বিশৃঙ্খলার জন্তে দাক্ষী। 

এই অনুমানের স্বপক্ষে দিন দিন বহু পরোক্ষ 
নিদর্শন জম! হনে উঠলো, কিন্তু প্রত্যক্ষ কোন 
প্রমাণ পাওয়া গেল না। অবশেষে 1955 পালে 
একটি বিশেষ প্রপালীতে এই কণার অন্তিত্ব 
ধরা পড়ল। কণাটর ভর তুচ্ছাতিতুচ্ছ, কিন্ত 
নিদারুণ গতিবেগলম্পর। কোন বাধাই এর 
গত্তিঝোধ করতে পারে না, অনায়াসে ভেদ করে 
চলে যাযর়। এজন্তেই এই কণা] এডদিন রহস্তের 
অন্তরালে ছিল! কপাটিগ কোন বিছ্যৎ-আধাণ 
নেই বলে এর নাম দেওয়া হয়েছে নিউটনো। 
মান্ধষের শরীর ভেদ করে এর শ্বচ্ছন্দ গতি, 
কিন্ত মানুষ তা টেরও পার ন1 কিংবা তাতে 
তার কোন ক্ষতির আশঙ্ক(ও নেই। 


লক্ষত্রের ০তিজ 


আকাশের প্রতিটি নক্ষত্রই এক একটি গ্যাস" 
পি। নক্ষত্রের বছির্ভাগ অপেক্ষা অত্যতস্তরের 
চাপ ও তাপ কেনে পর্যপ্ত ক্রমান্বয়ে বেশী। 
নক্ষতদের পৃরষ্ঠটদেশের তাপ সকলের সমান নয়, 
কারও পৃষ্ঠঘেশের তাপ হয়তো মাত তিন-চার 
হাজার ডিগ্রী সেন্টিগ্রেড, আবার অন্ত কারও 
পৃঠটদেশের তাপ শনেরো-কুড়ি হাদ্বার ভিগ্রী 
সেন্টিগ্রেডেরও বেখী। কিন্ত তাঁদের প্রত্যেকেরই 
বেশ্রস্থলের তাপমাত্রা! প্রায় দ্ছই কোটি .ভিগ্রী 
সেপ্টিগ্রেড। তাদের কেঞ্সের ঘনত্বও তেমনি 
বিরাট । টি 2০8 এ 

পারধধিব মৌলের পরমাণু ও নাক্ষর গ্যাসের 
পরমাণু বস্িয। পার্দির মৌল পদার্থুলি কঠিন, 


তরল; ও গ্যাসীয় অবস্থা থাকতে পারে। কিন 


এপ্রিল, 1974] 


নক্ষত্রের পৃষ্টদেশের ও অভ্যন্তরের প্রচণ্ড তাপমাত্রা 
তার! প্রক্টেকেই গ্যাশীয় অবস্থা প্রাণ হয়। 

হুর্ধের পৃষ্ঠদেশের তাঁপ ছয় হাজার ডিগ্রী 
সেন্টিখ্রেড এবং হুর্ধের কেন্দ্রীক তাপ ইদানীংকালে 
নির্ধাপ্িত হন্েছে এক কোটি ত্রিশ লক্ষ ডিগ্রী সেন্টি. 
গ্রেড। স্বগীণগন বিজ্ঞানী ডষ্টর মেঘনাদ সাহা? হুর্যা- 
লোকের বর্ণালী বিঙ্গেষণ করে প্রমাপ করেছেন যে, 
আম্বতন ছিলাবে হুর্ধের গঠন-উপাদানের 8176 
তাগ হাইড্রোজেন, 1817 ভাগ ছিলিয়াম বং 
অবশিষ্ট মাত্র 007 ভাগ হচ্ছে কার্বন, নাইট্রোজেন, 
অক্সিজেন, সোডিগ্নাঁম, ক্যাঁলসিয়াষ, লৌহ, নিকেল, 
তাম।, দত্যা ইত্যাদি যাবতীব মৌপিক পদার্থের 
গযাল। অগ্ত সকল নক্ষত্রের৪ এই সব মৌলই 
গ্যাপীয় অবস্থায় আছে, কিন্ত তাদের পারম্পরিক 
পরিমাণের মাজা ঠিক নুর্যের মত ছওয়! শন্তব 
নন । কারণ নক্ষত্রের নিজেদের মধ্যেই নানান 
রকম বৈষম্য বঙ্মাণ। তার। আকারে কেউ 
বৃহৎ, কেউ কু, বয়সে কেউ প্রাচীন কেউ তরণ, 
দীপ্তিতে কেউ অভুযুঙ্জল, কেউ শল্পোজ্জল। তবে 
নিঃসংশক়্ে বলা বার বে, জন্মের আদিতে সকল 
নক্ষত্রেই হাইড্রোজেনের পরিমাণ. ছিল সর্বাধিক 
এবং হিলিক়্ামের স্থান দ্বিতীয় । 

নক্ষত্রদ্দের কেশ্তরেে এ প্রচণ্ড তাপমাব্রান 
পরমাধুগুলি তাঁদের গঠনতন্ত্র ঠিক রাখতে পারে 
. নাঃ পারমাপখিক বিক্রিদ্পা চলতে থাকে। শ্রতে 
নানাবিধ বিবর্তনের ধারায় হাইডোছেন শেষ 
পর্যস্ত হিলিক়ামে পরিণত হযে বাক্ব। এই 
রূপাস্তরণ প্রক্রিগ্নারই আলফ1, বিট। ও গামা রশ্মির 
হুষটি ছপ্ব এবং সেজন্তেই নক্ষত্রে অমিত তেজ্ের 
উৎপত্তি হন, ব| বহির্ধিশ্বে্বিকিরিত হক্নে বায়। 
অতএব পারমাণবিক বিক্রিগ়্াই নক্ষত্রের তেজের 
উৎ্স। এর বিক্রির পর হিলিয্লামের আঁর কোঁন 
পরিণতি মেই, হৃতরাৎ হিলিয়ামই হাইড্রোজেন 
জালাণীয় ছাই। 

পারমাণবিক বিক্রিয়ার প্রভাবে নক্ষত্র থেকে 

£ 


নক্ষজে তেজের কৃষি 


17? 


উতৎকীর্প বিছবাৎ্-কপার প্রবাহ এবং বিছ্যুচ্চ্ঘক 
তরঙ্গই নাক্ষত্র তেজের প্রত্তীক। ম্বাভাবিক ব1 
রুত্রিম থে কোন উপারেই হোক, এক প্রকার 
তেজ অন্ত প্রকার তেজে রূপান্তরিত হতে 
পারে। তৃপৃষে মানুষ নাক্ষত্র তেজ ইঞ্জিয়ের দ্বারা 
উপলদ্ধি করে মাত্র আলোক ও তাপ-রশ্ির 
মাধ্যমে । 

গর্বের কেন্ত্রছলে প্রতি সেকেণ্ডে 56 কোটি 
টনেরও বেশী হাইড্রোজেন হিলিয়ামে প্রপাস্তরি ত্ত 
হয়ে বাঁচ্ছে। তার ফলে শুর্ষের কেন্ত্রীর় অঞ্চলে 
বে বিরাট পরিমাণ তেজ উত্পর হর, স্ই তেজ 
ক্রমান্থপ়ে পরিবহুণার্দি শুতে সুর্যর উপর তলে 
চলে আপে ও সেখান থেকে বছিবিশ্বে বিকিরিত 
হয়ে বার। বিগত 500 কোট বছর অথবা 
ডারও বেশী কাল ধরে হুর্য ঞই স্থারে তেজ 
বিকিরণ করে আসছে, আরে! 5)0 কোটি বছর 
ৰা ততোধিক সময হুর্য শ্বচ্ছন্দে এই হারে তেজ 
বিকিরণ করতে পাঞ্নবে, কিন্ত পরে তার হাইড্রোজেন 
তাগার বত শিঃশেহিত হবে, ততই তার জরা ও 
বার্ধক্য আপতে থাকফবে। তার অমিত তেজ 
কমে আসবে, তার দেছ্রগড নানা পরিবর্তন 
ঘটবে। সুর্যের মত অন্ত সফল লক্ষত্রেরৎ 
স্বাভাবিক জীবনেতিছাস ও পরিশতি এ একই 
প্রকার অন্গামত হুপ্ন। কিন্ত কখনও কখনও 
এর ব্যতিক্রমও দেখা যান! কোন কোন নক্ষত্র 
অকল্মাৎ নোঠা বা অতিনোতাক় পরিণত হতে 
বাকক। 


নক্ষত্রের কেক্দীয় অঞ্চলে পারমাণবিক 
বিক্রিয়। 
প্রোটন-শৃঙ্খল--হান্স্‌ বেথে (চু. 86৮১৩), পি, 
ক্রিচকিল্ড (0. 02100135614) এবং পি, লগ্িটসেন 
(০১ 79081165510) নামক ভিন বিজ্ঞানীর 
প্রত্যেকের আংশিক অআব্দাঁনে একটি পারমাণবিক 
বিক্রিয়ার ধারা উদ্ভাবিত হথেছে। তিনটি 


178 


ধাপসমস্থিত ধাঁয়াঁটির নাম প্রোটন:শৃঙ্খল (2:০০ 
0109119)। 

বর্তধানের বিজ্ঞানী সমাঞ্জ বলেন, যে সকল 
নঙ্গত্রের দশপ্তি হুর্ধের ওজ্জল্যের দশ গুশের 
বেণী নর, সেই সব নক্ষত্রের গতীর অত্যন্তরে 
প্রধানতঃ প্রোটন-শৃঙ্খল কিক্রিপ্নার ছার! প্রচুর 
তেজের বিকিরপসহ ছিলির়াম উৎপর হুয়। 

নক্ষত্রের হাইড্ে(জেন ভাগার হিলিয়াম সৃষ্টির 
ফলে বিশেষ একটি নিমনপীমায় ন! বাওয়! পর্যস্ত 
বিক্রিকাধারার শেষ নেই। 

বিক্রিয়ার নিয়োজ ধাঁপগুপিতে, গাম! রশি 
খিকিবপকে 2; বিটা কণার বিকিরণকে 13 এবং 
হাইড্রোজেন কেন্দ্রীন বা প্রোটন কণাকে [9 
অগ্গরের ছার] চিহ্িত করা হলে! । 

প্রথম ধাপ” (099) £ু 

একটি হাইড্রোজেন পরমাণুত সঙ্গে একটি 
প্রোটন কণার বিক্রিগ্াজনিত সংষোজনে একটি 
ভারী হাইড্রোজেন অর্থাৎ ডয়টেরিয়াম (78 বা 
[0%) উৎপর হ্র। উৎপাদনকালে একটি প্রে।টন 
একটি নিউট্রনে পরিণত হয় এবং বিটা রশ্মি 
(৩+) বিকিরিত হয়; অর্থাৎ 17:7-17- 
[79167 

দ্বিতীয় ধাপ--$7 (7, 2) 47০ 

প্রথম ধাপের এ ভারী হাইড্রোজেনের সঙ্গে 
একটি প্রোটন কণার সংযোজনে সৃষ্ট ছয় একটি 
হিপিগ্সাম আইসোটোপ (75৪) এবং গামা রশ্মি 
বিকিরিত হয়; অর্থাৎ [1917173/-7554-% 

ততীর ধাপ--8720176, 285) 4নেত 

দ্বিতীর ধাপের এরূপ ছুটি হিলিক়্ামের 
সংঘযোজনে একটি স্বাভাবিক হিলিয়াম ও ছুটি 


হাইড্রোজেন পরমাণুর উতৎপতি হয়) অর্থাৎ 
7168417755৮ 542 
কার্বন-লাইট্রোজেন চক্রে ব1 কার্বন চক্র 


ছান্দ বেধে (7. 8৫0১) এবং কার্প কন 


ভান ও বিজ্ঞান 


, [22তম বর্ষ, বথ গংখ্য! 


ভাইৎসেকাঁর (08171 ০1) 761259০1061) এই 
ছুই বিজ্ঞানী পৃথক পৃথক স্থানে শ্বতঞ্ভাবে একই 
পারমাণবিক বিক্রিপ্ন। ব্ত্র উদ্ভাবন করেন। ছুছটি 
ধাপনমন্ধিত এই কিক্রিগ্না ধারাঁটির লাম কার্ধন 
নাইট্রোজেন চক্র (008219017-1059£620 ০০16) 
অথবা] শুধু কার্বন চক্কর (097:5070) ৫5০16)। 
এতে প্রথম পাঁচটির প্রতি ধাপে প্রচুর তেজ 
বিকিরণ হয় এবং ষষ্ট ধাঁপে উত্পর হয় ছিলিয়াম 
পরষাণু। বিআনী সমাজ বলেন, যে লব নক্ষত্রের 
দ্াপ্তি পূর্ষের ওজ্জল্যের দশ গুণ অপেক্ষা বেশী, 
সেই সব নক্ষত্রের গতীও অভ্যন্তরে গ্রধানতঃ এই 
বিক্রিয়ার ধার! সংঘটিত হুয়। শেষ ধাপে খিপিয়াঁম 
উত্পাদনের পর আবাদ ধারাটির পুনরাবর্তন 
হ্রু হয় প্রথম ধাপ থেকে। ছচ্গটি ধাপের 
পৌনংপুনিক আবর্তনেই নক্ষত্রের তেজ ও 
দী্ির মাত্র! অক্ষ থেকে যার বত দিন না 
তার হা্টড্রোজেন তাণ্ডার ছিপিকাম ছট্রির ছারা 
একট] দিশ্নশীমাঁয় পৌছার়। 

এই বিক্রিয়ার নিয়োক্ত ছয়ট ধাপে, গামা 
রশ্ম বিকিরণকে %, বিটা প্রক্রিয়াকে 9, ছাই- 
ড্রোজেন কেন্দ্রীন বা প্রোটনকে 2 অক্ষপ্ন দ্বারা 
চিহ্নিত করা হলো। 

প্রথম ধাপ [7580 (0,2) কহ টি অথবা ০1 
(2, %) বৈঃঃ 

6টি প্রোটন ও 6ট নিউট্রনযুক্ত একটি কার্ধন 
পরমাণুর সঙ্গে একটি প্রোটন সংযোঁঞজনে একটি 
নাইউ্রোজেনের (2টি প্রোটন ও 6টি নিউট্রন) 
উদ্ভব হুপ্ন এবং এই ধক্রিপ্নার গাম! রশ্মি বিকিরিত 
হয়ে যাছ। 

দ্বিতীয় ধাপ। &£]ব (9) 4380 অথবা বঃঃ 
(8) 0০:£ 

প্রথম ধাপের এ নাইউ্রেজেন বিট। প্রক্রিয়ায় 
কার্বনে (6টি প্রোটন ও 7টি নিউট্রন ) স্বপান্তরিত 
হয় এবং বিটা বশ্মি (৬+) বিচ্দুঙ্জিত হয়। 


এপ্রিল. 1974] 


তৃতীর ধাপ। 4850 (2, ?) এ বৈ অথবা 
05 (2,%) বৈমঃ 

দ্বিতীক ধাপে শ্ৃই কার্বনটি প্রোটনের সঙ্গে 
সংযোজনে নাইট্রোজেনে (7ট প্রোটন ও 2টি 
নিউট্রন ) পরিণত হন্ন এবং গাম রশি বিকিরিত হয়। 

চতুর্থ ধাপ। 4৮] (5, ৮) 0 অথবা 
14 (১ ?) 025 

তৃতীয় ধাপের নাইট্রোজেলের সঙ্গে একটি 
প্রোটন সংযষে!জনে একটি অক্সিজেন (৪ট প্রোটন 
ও 7ট নিউট্রন) সই হয় এবং গামা রশ্মি 
বিকিরণ ঘটে। 

পঞ্চ ধাপ। 
(৪9) :, 

চতুর্থ ধাপের অক্সিজেনটি বিটা বিক্রি 
নাইট্রোজেনের (2টি প্রোটন ও ৪ট নিউট্রন) 
পরিণত হুর এবং বিটা রশ্বি (6+) বিকিন্িত 
হয়| 

ষ্ঠ ধাপ। টে (0, 475) 20 অধব! 
5 (9১, [76%) 02 

পঞ্চম ধাপের নাইট্রোঞজেনের সঙ্গে একটি 
প্রোটনের সংযোজনে একটি কার্বন (6টি প্রোটন 
ও 6টি নিউট্রন) উৎপন্ন হুয় এবং একটি হিপিযাঁষ 


০ (9) ছে অথবা 028 


নক্ষত্রেতেজের হি 


179 


পরমাণু (2ট প্রেটন ও 2 নিউট্রন) বিচ্ছুরিত 
হয় অর্থাৎ আঁলফ। কপ! নির্গত হয়। 

এখানে দেখ! যাচ্ছে পারমাপবিক বিরিয়ার 
ধারায় প্রথম ধাপে যাত্রী! সুরু হয়েছিল একটি 
কার্ধন পরমাণুর রূপান্তরণ নিক্বের। আবার ষষ্ঠ 
ধাপের সনাপ্তিও হলো একটি কার্বন পরমাণুর 
গঠন দিকে! সুতরাং কিক্রিম্াত্ন কার্বন অংশ- 
গ্রথণ করেছে শুগু একটি অন্থঘটক (02051536) 
হিসাবে । অর্ধাৎ বিক্রিষ্ান্ কেবলমাত্র নক্ষত্রের 
হাইড্রেজেন ভাগ্ারই ক্ষত পাচ্ছে ছিলিয়াম 
স্থইিতে, কার্বন ভাগারের কোন ক্ষত্ব-ক্ষতি নেই। 
নক্ষত্রের হাইড্রেক্জেনের পরিমাণের তুলনায় 
কার্নের পরিমাণ নিতান্তই শ্বল্প। এই কারণে 
বিক্রিমাকস বদি কার্নের ক্ষ হতো) তা হলে 
কোন নক্ষত্রই এভাবে জুরদীর্ঘ কাল ধরে তেন 
বিকিরণ করতে পারতো! ন1। 


নক্ষত্রের অত্ন্তরে প্রাপ্ম ছই কোটি ডিশ্রী 
সে্টিখ্রেড তাপমাত্রা হিলিক়ামই হাইড্রোজেন 
আলানীর ছাই, কিন্ত কোল নক্ষ্ ষর্দ নোভ! 
বা অতিনোভায় পরিণত হয়ে যাঁর, তালে বে 
কল্পনাতীত উচ্চ তাপমাত্রার উত্তব হুম, তাতে 
থিপিয়ামও লৌহ প্রভৃতি তাী পরমাথুতে 
বূলাস্তর গ্রহণ করে। 


ধানের জমির আগাছার কথা 


রতিকাস্ত মাইতি* 


আগাছা! ফপলের পরম শক্র। এখন প্রশ্থ 
আগাছা কাকে বলবো? কোন ফললের জমিতে 
যদি কোন অবাঞ্চিত উদ্ভিদ জন্মার, তাকে 
আগাছা! বল! হয়। ধানের জমিতে বদি গম 
বা ভূট্টা হন, তখন গম বা! ভূট্াকে আমরা 
আগাঁছাঁই বলবো । মোঁটের উপর একটা জমিতে 
বদি আমর! পাট চাষ করি, তবে এঁ জিতে পাট 
ছাড়! অন্ত কোন উত্তিদ, তা উপকারী বা 
আঅপকারী--বাই হোক কেন, তা আগাছারই 
সামিল। কষি-বিজ্ঞানীরা আজকাল মিশ্রণ বা সঙ্কর 
পদ্ধতিতে একই জমিতে ছুটি ফসল জন্মান, 
যেমন ধানের সঙ্গে ছোলা, মুগ, সরষের সঙ্গে 
খেসারী প্রভৃতির চাঁষ করেন। এখন আমরা 
এগুলির কাউকে আগাছা বলবো না। উদ্দেশ্ডের 
অতিরিক্ত কোন উদ্ভিদ কোন জমিতে জন্মালে 
তাকে আমর আগাছা শ্রেণীতৃত্ত করবে! । 

আদিম যুগে বখন গুহামানব চাষ করতে 
শিখলো, তখনও আগাছা সম্বন্ধে তাঁদের সম্যক 
জান ছিল। ফসলের জমিতে বাতে আগাছা 
না] হয়, সেদিকে তাদের বিশেষ লক্ষ্য খাকতো।। 
তাই আগাছা হলেই তা জখি থেকে তুলে 
ফেলতো। চ্াতরাৎ সর্বকালের মানুষের আগাছ। 
সম্থদ্ধে একট] তীতি আছে। তারা সবাই জানে, 
আগাছা জল, বামু, আলো ও থাগ্ের জন্তে 
সমানভাবে ফললের সঙ্গে প্রতিযোগিতা করে। 
প্রথমাবস্থায় ছোট চারাগাছগুলি ধখন আঙ্ডে আল্তে 
বড় হতে থাকে, দেখা যাক নানাপ্রকার আগাছ। 
এ সময় জমিতে জন্মে তাড়াতাড়ি বেড়ে গঠে 
ও জদিকে ছেয়ে ফেলে। এন কি অনেক সময 
ফসলের চাকার থেকে আথাঙার উচ্চত। অনেক 


বেশী হন্ছ। তাঁছাঁড়! ফপলের খেকে আগাছা'র 
শ্রিকড় ও ডালপালা অনেক দূর বিস্তারলাভ 
করান অতি সহজেই আগাছা মাটি থেকে কসলের 
জন্তকে ঘোগান দেওয়া খাগ্য শোষণ করে নেম়্। 
তার ফলে চারাগাছগুপি ক্রমশঃ দুর্বল হয়ে 
যার। তাই চাষীভাইদের সব সময় লক্ষ্য 
রাথতে হবে যেন ফসলের জমি আগাঁছামুক্ত হয়। 
নানা উপায়ে আগাছা শহ্যের শ্বভাবিক বৃদ্ধির 
পথে বাধ! হয়ে গড়ার, যেমন-_- 

1. শিকড়ের প্রাচুর্ধ ও শাধা-প্রশাথ! অনেক 
গভীরে ও মাটির উপরের পুরে চার দিকে 
বিস্তৃত হওয়ার আগাছা মাটি থেকে ফসলের 
চেয়ে অনেক ক্রতগতিতে খাস্তবন্ত শোষণ করতে 
পাঙ্ে। আনেক সমর দেখাবার, আগাছা তার 
শিকড় ফসলের শিকড়ের ফাকে চালিয়ে দেয়। 

2, আগাছা অনেক সমক্স প্রচুর শাখা- 
প্রশাখাসনহ্বিত হওয়ায় ডালপাল। দিয়ে ফপলকে 
ঢেকে ফেলে, ফলে আলোর অভাবে ফললের 
ডালপালা ক্রমশ: সরু হয়ে যায়। 

3. সব সময় দেখা যায় ফললের বুদ্ধি 
আগাছার বৃদ্ধির গতি থেকে অনেক কম। 

4, অনেক আগাছা শন্তের কাগ্ডকে জড়িয়ে 
উপরে উঠতে থাকে, তার ফলে ওদের ভারে 
ফসল সয়ে পড়ে, আর বাড়তে দেয়না; 

5. অনেক আগাঞা আবার ফসলের শক্র 
ছত্রাক, জীবাণু গ তাইরাসের আবাপস্থল' হত, 
বার থেকে অতি সহজে প্রোগ ফপলের মধ্যে 
ছড়িয়ে পড়ে। 


হজ শাট কুষি গবেষণাগার, 
24 পরগণা | 


ব্যারাক পুর, 


এপ্রিল, 1974 ] 


আসানা, লুখ॥ পানিকাক প্রত্ৃতি আগাছা- 
যিশেষজ্ঞের ফষলের উপর ছগাছাঁর প্রভাব 


স্বত্ব অনেক গবেষশ! করেছেন। মুক্গেনচার 
বলেছেন, অনেক আগাছা রয়েছে, বা খেকে 
গবাদিপণুর মৃত্যু খটে। 


সুতরাং চাৰীভাইকে আগাছা সমন্ধে সতর্ক দৃি 
রাখতে ছুবে। বিশেষ করে তাদের দেখতে 
হবে, বাতে প্রথমাবস্থাত় ফপলের চারা আগাছার 
ছাত থেকে মুক্ত থাকে। অনেক সময় চাষের 
প্রথমাবস্থা় আঘর! এ দিকে লক্ষ্য না হাথায় 
গাছগুলি ছুর্বল হলে যায়। পরে অনেক চেষ্টা 
করেও গাছের শ্বাতাবিক বৃদ্ধি আনা যার না। 

বিভিন্ন উপায়ে আগাছার বিনাস খটানে। 
বায়, তার যধো কয়েকটি উপাঙ্গ আলোচনা 
কর] বাক. যাকে আমর। তিন ভাগে ভাগ করতে 
পারি) (1) যান্রিক উপায়; (2) £৫জবনিক 
উপার, (3) রাসাকনিক উপার। 

(1) বাস্ত্রিক উপায়--হছাত দিয়ে তুলে ফেলা, 
ছস্তকর্ষণ যন্ত্র (৬196611১096), বিদ্যা বা নিড়ানির 
ব্যবহার, ক্রমানপ্নে কর্ষণ, কর্ষণের পর ছাকুনিবা 
জচড়ার সাহাধ্যে মাটি থেকে আগাছা বেছে 
ফেলে দেওয়া, শক্ত কাঠ দিয়ে আগাছাগুলিকে 
পিটিয়ে মাটির সঙ্গে মিশিয়ে দেওয়া! গ তারপর 
লাজল দিপ্পসে চাঁষ করা, পুড়িয়ে ফেল! ইত্যাদি 
এই প্রক্রিয়ায় মধ্যে পড়ে। 

সাধারণ চাষীরা নিড়ানি দিয়ে শিকড়গুল্ধ 
আঁগাছ। জমি থেকে তুলে ফেলেন। এই সময় 
উাদের বিশেষ করে লক্ষ্য রাখতে হবে, ভুলক্রমে 
শিকড় মন! ভুলে শুধু মাটির উপর থেকে আগাছা 
কেটে না! ফেলেন তা হলে এঁ কাটা গোড়া 
থেকে আধার নৃতন আপগাছ! বেরোয়। বিশেষ 
করে মুখ (০599195 £0997025) গাছের ক্ষেত্রে 
দেখতে ছবে যাতে মাটির গভীরে যে কন্দাকার 
খুটি থাকে, তা তুলে ফেগা হয়। সাধারণতঃ 
কলল বখন সারিতে লাগানে! হয়, খন আঁষর। 


ধানের জমির আগাছার কথা 


181 


ঘূর্ণন-যস্ত্রেরে লাহাষ্যে ছুই সারির মধ্যবর্তী 
অংশের মাটি চষে ফেলবো। তাতে আগাছ। 
কিছুটা উপড়ে বায় ও তাদের শ্বাতাবিক গতি 
বাধাপ্রাপ্ত হয়। জমি তরী করবার সময় বার 
বার লাঙ্গল দিয়ে চাষ করা হয়, ফলে আগাছা- 
গুলি উপড়ে যায়, পরে বিদ বা আকড়ার 
সাছায্যে মাটি থেকে আগাছাগুলি বেছে দুরে 
ফেলে দেওয়া হয়। একটা ফসল জদ্মাবার পর 
পোঁড়ো জমিতে যখন আগাছাগুলি বেণী পরিমাশে 
জন্মান্গ। তার ফলে একদিকে যেমন খ্াগাসার 
বিনাস খটে, অন্যদিকে আগাছার ছাইতে জধিতে 
সার হুয়। 

(2) ঠজবনিক উপার়--একই জমিতে একই ফলল 
বছরের পর বছর জন্মালে আগাঁছাব আক্রমণ বেলী 
হয়, কিন্ত দেখা গেছে একই জমতে একটা ফসলের 
পর অন্ত ফসলের চাষ করলে (যেমন ধানের পর 
পাট বা আলু) শ্বভাবতঃই আগাছার প্রাছর্ভাব 
কম হনব! কারণ ধানের জমিতে যে সব আগাছা 
পরম শত্র, গমের জমিতে তা না হওয়ায় পরের 
বছর ত1 জন্মাহ না বা কম জন্মায়। ফলে 
তৃতীয় বছর আবার যখন ধান লাগানো ক্য়, 
তখন এ সব আগাছ। কমই জন্ময়। তাই 
আবর্তন প্রথায় (7২০690107)) চাষ করলে আগাছা 
আক্রমণ কম হুওর। স্বাভাবিক । 

(3) রাসায়নিক উপায়-আগাছা বিশেষজ্ঞের! 
বিভিন্ন আগাছ1 ধবংসকান্বী ওষুধ (ড/6৫01০3188) 
আবিফার করেছেন, বা নিি্ পরিষাণে ফসলের 
জমিতে ছিটিকে দিলে আগাছ। নই হয়, কিন্ত ফসলের 
কোন ক্ষতি করে না। অনেক ওষুধ আছে, যেগুলি শুধু 
বড় পন্রযুক্ত দ্বিবীজপর্রী আগাছাকে ধ্বংস করে, 
আবার অনেক ওষুধ আছে, বা সক্ষ পত্রযুক্ত খাস 
জাতীয় উদ্ধিকে ধ্বংস করে ফেলে ৷ বিশেষভাবে 
প্রশিক্ষণ না পেলে চাষীভাইদের পক্ষে এরই 
তৃতীয় উপায় অবলম্বন কর! উচিৎ নয। কারণ 
দাদ পর্রিমাশের, লামা বেশী পরিষাণ হলেই 


182 


এ ওষুধ আগাছা ধ্বংপের সঙ্গে সঙ্গে আমাদের 
ফসলেরও ক্ষতি করবে। তবে কিছু কিছু ওষুধ 
আছে, যা সাধারণ চাঁষীতাইর! অতি সহজে 
জমিতে ব্যবহার করতে পারেন, ঘেমন ধানের 
জমিতে রানা (01588) ধ্বংস করতে চাবীভাইদের 
ভুতে (0০99761 5011019916) ব্যবছাঁর করতে 
দেখা বায়। অঞ্চল উল্লগনন আধিকারিকের 
(31008 [02521077061 0087০61) সঙ্গে ষোগা" 
যোগ রাখলে আগাছ! ধ্বংসকারী বিভিন্ন ওষুধ 
ব্াবহাঁধ পদ্ধতি বিষে বিশেষ উপদেশ লাভ 
করবেন। 

উপরিউক্ত সংক্ষিপ্ঠ আলোচনা থেকে আমরা 
এই জ্ঞান লাঁত করলাম, ফসলের পরম শত্রু 
আগাছার বিনাশ সাধন করে ফসলের জমিকে 
আমাদের আগাছাণুক্ত রাখতে হবে। তানা হলে 
জমিতে দেওয়া! ফললের সার আগাছা! .খকে 
ফেলবে । ফলে ফসণের ভাগে জুটবে অনেক 
কম। তাছাড়। জমিযদি আগাছার দ্বার ঢাকা 
থাকে, জমিতে সার দেওয়ার পক্ষে ও অন্বিধা। 

বর্তমাঁন পর্যায়ে আমরা ধানের জমির আগাছা 
সন্থত্ধে আলোচনা করবো । পশ্চিম বলের বিতর 
জেলায় ধানের জমির আগাছা মোঁটামুটি একই 
রকম। খ্াামাদের বর্তধান আলোচনা! অনেকট! 
মেদিনীপুর ও কিছুটা 24 পরগণা জেলার আগাছা 
সম্বন্ধে বিশেষভাবে সীমাবদ্ধ খাকবে। পশ্চিম 
বজের বিভিন্ন জেলার ধানের জমির আগ!।ছা 
সন্বদ্ধে বিভিন্ন লেখক পর্যবেক্ষণ করেছেন। প্রেন 
(1905) হুগলী জেলা 33টি, চক্রবতাঁ (1938-40) 
টু'চুড়া, বাকুড়া ও পিউরি সরকারী কবিক্ষেত্রে 87টি, 
পাল ও ভট্টাচার্য চুচুড়ার কষিক্ষে তরে 57টি, দত্ত 
ও মাইতি (1962) মেদিনীপুর জেলার আমন প্র 
বোছো ধানের জমি থেকে 104 জাতীয় আগাছার 
প্রজাতির উল্লেখ করেছেন। 

মেদিনীপুর জেলার আগাছার উপর কাজ 
করে দত্ত ও মাঁইতি ঘলেছেন--এঁ জেলার বিভিন্ন 


জান ও বিজ্ঞান 


[ 27তম বর্ষ, এ সংখ)! 


মহকুমায় মাটির প্রকারভেদ অনুযায়ী আগাছার 
পরিমাণ ও প্রকারভেদ হয়, ঘেষন--মেদিনীপুগ্ন 
লদর মহকুমার লাঁলমাটিতে যে লব আগাছা! জন্মায়, 
জেলার দক্ষিণ-পূর্ব অংশের &েৌরাশ মাটিতে, কাখি 
ও তমলুকের দৌয়াশ মাটিতে এ সব আগাছার 
প্রাছুর্ভাবের তারতম্য খ্টে। বিভিন্ন প্রকার 
মাটিতে দ্বিবীন্পত্রী ও একবীজপত্রী আগাছার 
সংখ্যার অন্থপাতের পরিমাণ কম-্বেশী হয়। 
জল, বায়ু বেমন -. উষ্ণতা, বাধুর আর্দ্রতা ও বৃষ্টি- 
পাতের পরিমাপের উপরও আগাছার তারতম্য 
ঘটে। 

পশ্চিম বঙ্গের বিভিন্ন জেলায় আমন, বোয়ো 
ও আউসের চাষ হয়, তার মধ্যে বরধনান, 
মেদিনীপুর ও 24 পরগপায় আঘন ধানের চাঁষ 
বেশ হয়। আউপ, আমন ও বোরে! ধানের 
জমিতে বিভিন্ন প্রকার আগ।ছা ও তাদের 
প্রকারভেদ ঘটে। তাঁর মধ্যে আমন ধানের 
জমিতে আগাছ! সবচেয়ে বেশী হ্য়। কারণ 
পাধারপণতঃ বর্ধাকালে আমন ধান হওয়ায় আগাছার 
প্রাছর্ভাব খুব বেশী হয়। 

ধান রোপশের পর বছরের বিভিন্ন সময় 
আগাছার আগমন ও প্রাছর্ভাব বিন হয়। 
বিতিক্ন সময় বিতিন্ন আগাছার ফুল ধরে ও 
ফল পেকে বাঁজের বিস্তার ঘট্ে। আমন ধানের 
জমিকে তিন ভাগে ভাগ করা হায়, যেমন --উচু 
জমি, মাঝারি জমি ও নীচু জমি, যাকে আগাছার 
প্রকারভেদ বিতিন্ন হর়। 

অনুদদ্ধান করে দেখ গেছে ধানের চারা 
জমিতে রোপণের পন্ধ থেকে বিতিন্ন আগার 
ফ্লুল ধরে বিভিন্ন সময় এবং ফুল থেকে ফল ও বীজের 
বিস্তারলাত ঘটে বিতিক্ন সমন্ন| 1.4 দিন পর 
পর সপুষ্পক আগাছ! তুলে দেখা গেছে, অগা 
মালের পর খেকে সধু্পক আআ গাছার সংদ্া 
ক্রমশঃ বাঁড়তে থাকে, সেপ্টেথরের 15 তারিখ 
থেকে অক্টোবরের মাঁঝাষাধি, তাদের সংখ্য। 


এপ্রিল, 1974 ] 


সবচেয়ে বেশী ছয়, তারপর সপুস্পক আগাছার 
পংখ্যা ক্রমে কষতে কমতে শীতের দিকে 
ডিপেহ্বর-জাননারী মালে একেবারে কমে বাঁয়। 
দেখ! গেছে ক্রমবর্ধণান উঞ্ণত! ও আর্দ্র ঠা বখন 
কমতে আরম্ত করে, তখন সপুল্পক উত্ভিদের 
সংখা! বাড়তে খাঁকে, পরে শীতের আগমনে 
আরও আরুতা ও উঞ্ণতা কমে যেতে থাকে 
€ সগুষ্পক উদ্ভিদের পংখ্যা1 আরও কমে যার়। 

দেখ! গেছে, দিন ও রাত্রির পগিধাণ খন 
প্রায় সঘান সমান, তখনই বেশীর ভাগ আগাছার 
ফুল ধরে, পরে শীতের দিকে রাত্রি বড় হতে 
থাকে ও আগাছাম ফুলও কম ধরে। 

বৈশাধ-টজাষ্ঠ মাসে যখন ধানের তল! ফেলা 
হয়, সেই সময় ঘাসঞজাতীন্ন উদ্ভিদ, যেমন--দুর্বা, 
শ্যামা ও মুধ। গোঠীর আগাছার প্রাহুর্ভাব খুব 
বেশী হুয়। এ সমপ্ন বিশেষ করে মাটির নীচে 
মুখার যে কন্দ বা কুগুলী থাকে, তা থেকে মুখ। 
তাড়াতাড়ি ধানের তলায় বাড়তে থাকে। এ 
ছাঁড়া মুখাজাতীয় গাছ যেমন বিভিন্ন জাতের 
9০1705 মৌসুমী বাদুব প্রথম বৃষ্টিপাতের সঙ্গে 
সঙ্গে তাড়াতাড়ি মাথা গঞ্জিষ়ে দাড়ায়, ফলে 
তল ঠতরী করবার সমক্ন তাদের সহজে নিমুলি 
কর! বান না! বার বার লাঙ্গল দিয়ে কর্ষণের 
ফলে মাটির নীচে এ নব আগাছার শিকড়গুলি 
উপড়ে যায় ও তারপর কাদা-কর! জি থেকে 
হাতের আনুল দিয়ে আগাছার শিকড়গুলি ছেঁকে 
ফেলে দেওয়া! হয়। 

ধানের তল! থেকে আগাছ। মাঝে মাঝে তুলে 
ফেলতে হবে, তা না ছলে চারাগুপণপি সরু ও 
ক্ষীণ হয়ে বাবে । জধিতে ধানের চার! রোপণের 
পর চারাগাছে নৃতন শিকড় গজাদ ও নতৃন পাতা 
গজিয়ে গাছ আন্তে আন্তে সবুজ হতে থাকে। 
এই সময় মাঝে মাঝে লক্ষ্য রাখতে হুবে--জমিতে 
আগাছা! জন্মে ছোট চারাগাছের যেন ক্ষতি 
মা করে। তারপর দেখা বায়, ধানের চার বড় 


ধানের জমির আগ।ছার কথা 


183 


হগুয়ার নঙ্গে সঙ্গে জমিতে নান! জাতের আগাছার 
আগমন হন্ন, তার ধানগাছের সঙ্গে প্রতি- 
যোগিতার নামে খাস, পানীর ও বাযুর জন্তে। 
তাই অন্ততঃ 15 দিন অন্তর ধানের জমি থেকে 
আ।গাঁছ! তুলে ফেলে দিতে হবে। এই সমত্ব 


বিশেষ করে মুখাজাতীয়, চৌচড়াজাতীর 
(90170051081 00003; ৪. 5119109১, 9,. 
21700818605), হেসাতীজাতীন্ (0506205 


1)247080, 05159123 ৪০) প্রভৃতি আগাছার 
উপদ্রব বেশী করে হ্র। এশলব আগাছা তাদের 
শিকড় ধানের শিকড়ের মধ্যে চালপিরে দেয়, 
কাজেই এ আগাছা জমি থেকে না তুলে ফেললে 
ধাঁনগাছ দুর্বল হতে পড়বে। চারাগাছের 
প্রধমাবস্থার় গাছ বদি আগাছার সঙ্গে প্রতি- 
যোগিতা করে হূর্বল হয়ে যায়, তবে পরে অনেক 
চেষ্টা করলেও গাছের বৃদ্ধি ভাল কর! যায় না। 
তাই দক্ষ চাষী এই বিষয়ে বিশেষ লক্ষা রাখবেন । 
সেপ্টেম্বর মাসের তুতীর সপ্তাহে আগাছা 
সংখ্যাও বুদ্ধি সবচেয়ে বেশী হয়] এই সমন 
ধানগাছ তাদের শাখা-প্রশাখা বিস্তার করে 
সবল হয়ে উঠে। খধানগাছ ও আগাছা উভয়ের 
বৃদ্ধির গতি শীর্ষস্থানে গিক্কে পৌছর। এই সময় 
ঘ।ওয়! ঘাস (চ:01)19001)1098  5910138)) ছেঁচি 
ঘাস (21606081006 55551118), [5110001150- 
115 0011198068১ 77086105018 ৪0১ ক্ষেত, 
প1পড়1] (0106101917015 ০09:5109909398), কেটল 
(05502), গুণদে। (05199155 17550818 হেসাতি),, 
[31819 0975161015 প্রভৃতি প্রচুর পরিমাণে 
প্রতাব বিস্তার করে। অক্টোবরের মাঝামাঝি 
সপুষ্পক আগাছার সংখ্যা সবচেয়ে বেশী হয়। 
এই সময় শালুক (51200955), বাঘুষা ব1 
বাকৃজাম! (03051300615 €010018)১ 001. 
50019118, 15110019511 010) হ101068101018, 
রাক্স। প্রভৃতি আগাছার আগমন ঘটে। হ্বিবীঞ্জ- 
পরী উদ্ভিদের আগাছা পক বধের শেষ থেকে 


164 


জমি থেকে আত্তে আঁত্তে লোপ পাঁর। তার 
কারণ হলো-এই সমঙ্ন প্রায় সব কয়টি আগাছার 
ফুল থেকে ফল হুর ও ফল পেকে বীদ মাটিতে 
গড়ে খায়। 

ধানগাছের উপর আগাছার প্রভাব অচ্যাযী 
কয়েকটি আগাছাকে ক্রমান্থয়ে সাঞ্জানো যেতে 
পারে; 050203 90. 9০110955819, [7100013- 
£5113 50. 4১106152065 3625511159 15110080- 
101 ৪.5 £৯100022019 3.১ 91900901035 01910. 
061, 9:0203019 519,5 01061018219 ০01520- 
0০959, 02815100100, 010813১ [4750%1819970701- 


010119119):1050101১15511000) :110010001)114) 
(81799061615. 
নীচে কয়েকটি আগাছা স্বদ্ধে সংক্ষিপ্ত 


আলোচনার আপ! যাক। 

রাঁজ/--এটি হ্যা ওলাজাতীক়্ নিয়শ্রেণীর উত্তিদ। 
রাকা ধানগাছের পরম শক্র। এরা দেখতে 
প্রান পাতাঝাঝির মত। কোন জমিতে একবার 
রাম্স। দেখা দিলে অল্প পিনের মধ্যে জমিকে 
ছেয়ে ফেলে এবং দুর থেকে দেখলে মনেহ্বে 
বেন সবুজ রঙের হুতা কুগুরী পাকিয়ে ধান 
জমি ছেয়ে ফেলেছে। সাধারণতঃ অক্টোবর 
মাসে ধানের জমিতে এদের আগমন হপ্প ও 
নভেম্বরের শেষাশেহি জল শুকাবার সঙ্গে সঙ্গে 
গাছগুলি শুকিয়ে মারা বান়। এদের গাথেকে 
এক প্রকার ঝাঝালে। ও দুর্গন্ধযুক্ত গ্যাস বেরোি, 
য। ধানগাছগুলিকে ক্ষীণ থেকে ক্ষীণতর করে 
ফেলে। তাই দেখ! বায়, যে জদিতে একবার 
রাবার আক্রমণ হয়, তা বাদ বিনাশ না করা 
হম, তবে ধানের ফলন 5 আংশেরও কম হুয়। 

শুশনিশাক---এর প্রাছুর্ভাব খুব বেশী হয় না। 
শাধারণতঃ এদের গোড়া আলে থাকে আর সরু 
শাখা-প্রশাখাগুপি জলের উপর ভেসে বেশ কিছু দুর 
পর্বস্ত বিভৃত হয়। 4£১2০0115 ও 991%10765 এক 
প্রকার পানা, বা কোন কোন জাক্গগাক় ধালেক 


জান ও বিজ্ঞান 


(27তম বর্ষ, ধর্থ সংখ্যা 


জমিতে জলের উপর ভেসে কিছুদূর বিভৃত হ়। 
06115 ৪1130391453) যাকে আঞ্চলিক ভাবার 
বল! হয় রাঘকলা। ধানের জমিতে অল্প জলে 
ও গভীর জলে এরা জন্মান্ঘ। ঢাঁর৷ অবস্থান উপড়ে 
দিলে সহজেই নই হয়ে যায। 

188510951915017) 19500181011 ও [75001115 
৮::01০111908, যাঁদের বল! হয় পাতাঝণাঝি- 
সাধারণতঃ কাছাকাছি পুকুর থেকে জলের 
সাহায্যে ধানের জঘিতে প্রবেশ করে । 

ঘাসজাতীগ আগাছ!, যা 3:57010686 ও 
05156156986 গোঠীহৃক্ত, ধানেয় জমিতে পব- 
চেয়ে বেণী প্রভাব বিস্তার করে। 07200107686-র 
মধ্যে ছুর্বা (05190097 09005107)), 10200510- 
৪2£501000, আ্টাম। (10221000 
5061)8), খাওয়া ঘাস (:01))09010102 
0010109), ও [0:96109905$ ৪০. সবচেয়ে বেশী 
পন্রিমাণে ধানের জমিতে প্রভাব বিস্তার করে। 
গোঠীত্ করেকটি সন্ধে কিছু 
'আলোচন] কর বাক। 

[51086000108 1050৩8৫0-ঞত গাছ দেখতে 
প্রার ধানগাছের মত। তাই ফুল ফোটবার 
আগে আগাছা! পরিষার করবর সময় তারা 
ধরা! পড়ে না। ফুল ফুটলেই তার মঞ্জরী দণ্ডে 
চ্যাপ্ট। কাছাকাছি সন্বিবিষ্ট শুকনো! ফুল দেখে 
সহজেই ধাঁনগাছ থেকে পৃথক করা যায়। 

5609179. £195০৪-র গাছ ছোট অবস্থায় 
ধানের চারা থেকে পৃথক করা বাসনা! কারণ 
তারাও দেখতে ধানের চারার মত। 

সুতরাং [51596102800 10808130 ও 99102108 
£150০৪ থেকে আমরা এটুকু জানতে পারি যে, 
আগাছা তার আকৃতি ফপসণের লঙ্গে খাপ 
খাইয়ে (1100105) আত্মগোপন করবার চেষ্টা 
করে। এদের ফুল ও ফল ধরে ঠিক্ষ ধানের 
সঙ্গে খাপ খাইয়ে, ফলে খান ঝাড়বার সমন 
তার! ধাঁচনর সঙ্গে দিশে বায় ও পরের বছর 


0০0০1510108 


03190011)98.6 


এপ্রিল; 1974 ] 


বীজ ধালের সঙ্গে আবার ধানের জমিতে 
চলে আসে। কাজেই প্রকৃতি সব সময় চেষ্টা 
করে আগাছাকে রক্ষা করতে আর আমর! 
চেষ্টা কি আগাঞছার ছাত থেকে ফপলকে রক্ষা 
করতে । তাই প্রকৃতি ও মা্ছষের মধ্যে চলে 
প্রতিযোগিতা । কার্ধতঃ প্রকৃতির কাছে আমরা 
অনেক সময় হার স্বীকার করি। 

5:0101710010102. ০010152 €( খায় ঘাস), 
1080091006061710172 ও ১০০:০০০1৪৩ ৫19177021 
ধানচারার সঙ্গে এমন ওতপ্রোতভাবে মিশে 
ঘা যে, ব্াগাছা পরিষফ্ণার করবার সময় কখন 
কখন ধামের চারাঙ উপড়ে ফেলা হয়। 
018171769 গোঠীর অধিকাংশ আগাছা ধানের 
ফুলের সঙ্গে সঙ্গে তাদ্দের ফুল ধরে ও বাজ 
পরিপক হয়। 

01)10115 10098-কে তার তুলার মত 
মঞ্জধী দণ্ড নিয়ে আলেনর উপর দীড়িয়ে থাকতে 
পেখা বায় 758£10990-এর গোড়া এক দিকে 
থাকে, কিন্তু অসংখ্য সরু কাণ্ড ধানগাছের 
ভিতর দিয়ে কিছু দুর অগ্রপর হয়। এদের 
চ্যাপ্টা মঞ্জনী পাতলা শক্কপত্ত দিয়ে ঢাকা, 
দেখতে প্রায় চিরুণীর থাজকাটার মত, মঞ্জরী- 
দণ্ডের উভয় পার্থষে শাখা-প্রশাধার শ্নারভাবে 
সজ্জিত থাকে । এদের সাধারণতঃ উচু ও মাঝারী 
জমিতে দেখা যাক্স। বিশেষ করে উচু জমিতে 
বেশী দেখা বার়। এছাড়া হোগলাজাতীগ্ন গাছ 
50155 গভীর জমিতে দেখা বায় 

05০০:8০69০-র আগাছা ধানের জমিতে 
একটা ভীতির সঞ্চার করে। এদের 0০67: বা 
5৫86 ধল! হয়| এই গোঠীর মধ্যে মুখা (052৫- 
£09 10000818)) ছেসাতি বা গুণদে] (05005 
785281), &েোজড়াজাতীয় 56৫4 (যেষন 
9০17098 810০015008, 006255 7007001135, 
9০88008 20821160008) স্ 11000215115 
[01158088, মা, 16510861768) চা, 8013061301088. 

| | 


ধানের জমির আগাছার কা) 


185 
উল্লেধধে।গ! | ধানজঘিতে এদের প্রাচূর্ঘ অন্ধাধী 
সাজানো হনেছে। মুখা। 81700605015 1] 
৪০৪৪১ 0%1১610115 1795$05 0 ও আগা 1021003- 
চ115-4র প্রঙ্গাতি ধানেন তলার খুব বেশী দেখ 
বায, বা! নিমূলি করা বেশ ব্যন্পাধ্য ব্যাপার 
হয়ে ওঠে। 

0৮১০008 1893080 একবার কোন অনিতে 
দেখ! দিলে তা বিশ্বাস কর অসঞ্ভব ব্যাপার হয়ে 
গুঠে। একর শিকড় ধানের শিকড়ের মধ্যে এমন- 
ভাবে জড়ির়ে খাকে বে, এ আগাছাকে ধাশগাছ 
থেকে পৃথক করা বাক্স না। প্রারই দেখা বার আরা 
ধান কাটবার সঙ্গে সঙ্গে ধানগাছের সঙ্গে মিশে 
খামারে চলে বা ও পরে ধান ঘাড়াবার সময় 
এল ছোট বীঞ্জধানের সঙ্গে বিশে বায় এরা 
0506095 1১8101105-কে তার গোলাকার মঞ্জনী 
নিক্কে সাধারণতঃ উচু জমিতে দেখ! বায়! এদের 
শিকড়গ ধানের শিকড়ের সঙ্গে জড়িয়ে খাকে। 
9০101555 21:0350015 005 ( চোঁচড়। ) গভীর জমিতে 
দেখা যায়। এদের মঞ্জরীদণ্ড শোলার মত 
পা, বাযুপু্ কৃঠরীযুক্ত গ নলাকার । এই নঙ্গাকার 
মঞ্জনীদগ্ডের গাঁটের চারদিকে বা এক পার্থেএক 
থোকা শুকনে। হাক্ক! মঞ্জরী থাকে! মাটির নীচে 
এর কাণ্ড কন্দাকার, যার থেকে গোছ! গোছা 
গুচ্ছ মুল বেরোর। যেখানে এর। জন্মায়, প্রায় 
মাঠ ছেয়ে ফেলে। 9০12005 208:16177705 
আপেক্ষাকত কম গভীর জমিতে 9০80055 
8100815085-এর মত জমি ছেয়ে ফেলে। এদের 
মঞ্জরীণণ্ড তিন চার কোঁশযৃ্ত ও শীর্ষে ছোট 
শৃার হত ফুল ধাপ করে। এরা উচু গ যাঝারী 
জঙ্িতে বেশী হুয়। 7710001150510 101115068-কে 
ধানের জমিতে প্রচুর দেখা-বার়। .এক গুচ্ছ মঞ্জনী- 
দণ্ড মাটির গুচ্ছ মুল থেকে বেরিগে শীর্ষে আকুলের 
ৰ। ছাতার মত শাখ। বিস্তার করে খ প্রতি শাখার 
ঈর্ধে গুকুনো! শব্কপঞ্ধে ঢাঁকা গোলাকার ও ছোট, 


 মধারী পরশ করে। চঠ182315155 £57258705-কে 


186 


সাধারণ কৃষকেরা 'ধানলী' বলেন, কারণ এর! 
খানগাছেরই মত দেখতে ও ধানের সঙ্গে সঙ্গে ফুল 
ফোটে, ফলে ধানের সঙ্গে সঙ্গে মিশে ধাতর। ঘেচু 
(58816651015 58.21091115) শুধু অল্প জলের মধ্যে 
হয়। জল শ্রকিত্সে গেলে আপনা থেকে মরে যাঁয়। 
এর পাতাগুলি বর্শার ফলার মত. গাত্র মস্থণ ও 
চামড়ার মত» রড় ডাটাযুজ্ পাতা জলের 
উপর ভেসে থাকে । শিকড় প্রচুর, মাটির মধ্যে 
চারদিকে ছড়িয়ে পড়ে। 

টকোপান| (51305) ধানের জমিতে প্রচুর 
পরিমাণে জন্মান। সাধারণতঃ পাশাপাশি পুকুর 
থেকে এর ধানের জমিতে চলে আপসে। যেখানে 
একবার হয়, অল্প দিনের মধ্যে সেখানকার জলের 
উপরিভাগ এমনভাবে ছেয়ে ফেলে যে, একটা মাঝারি 
খরণের পাথরের নৃড়ি ছুড়ে দিলেও তা ভেদ করে 
জলের মধ্যে যেতে পারবে না। এরফলে তার! 
ধানগাছের শ্বাতাবিক গতিকে বাধ। দেয়। 
[2013 ও ড৬/০1759 এক ধরণের ছোট পানা, 
ব ধানের জমিতে প্রচুর পরিমাণে দেখা বার। 

11009151091) এক প্রকার মজার আগাছা, যা 
পাধারপতঃ অক্টবর মাপে মাঝারী ও গভীর 
জলে দেখ| বার়। এদের উৎপত্তি খুব মজাঁর। 
জমিতে এদের আগমনের প্রথমাবস্থার জলের 
নীচে মাটির দিকে তাকালে দেখা ধায় যেন এক- 
গুচ্ছ সবুজ হুচ গোলাকার গজ তৈরী করে 
আছে। মনে হুক যেন সবুজ তার! জলের নীচে 
মাটির উপর এখানে-ওখানে জড়িয়ে আছে, পরে 
এ নলকাঁর মঞ্জরীগুচ্ছ বড় হতে থাঁকে; ইতিমধ্যে 
ধানের জমিতে জল কমতে থাকে, পরে ধান 
কাটলার সমন্ন এরা ফুপধারণ করে। এমনকি 
ধাঁন কাটবার সমর শুকনো জমিতে মঞ্জরীদত্ডের 
অগ্রভাগে গোলাকার শুভ্র মঞ্জনী ধারণ করে, 


পরে জানুয়ারী-ফেব্রুয়ানী মাসে বীজ পেকে 


মাটিতে পড়ে যায়। 
(00221061108 7১9178551578815, যাকে বল! 


* জাম ও- বিজ্ঞান 


[27তম বর্ধ, ধর সংখ্য। 


হয় কচুরীপাঁন!, ধানের জঘিত্তে ভীতির সঞ্চার 
করে। যেখানে জন্মঃ সেখানে এত প্রচুর হয় বে, 
জলের উপরিভাগ ঢেকে ফেলে ও পরম্পর কাছা- 
কাছি এসে ধানগ[ছগুলিকে চেপে দেয়। 

চিকনি শাক (6০015800810 0156)5100), 
যার শাখা-প্রশাখ। প্রচুর ও মাটির উপর একটা 
চাকের মত ছড়িয়ে পড়ে, ধান কাটরার পর পোড়ে! 
জমিতে প্রচুর জন্মায়। 

£১1097917095656  গোঠীর আগাছার মধ্যে 
ছেঁচি থাপ বা ছাচি (166510817001556551115) 
ধনের জমিতে প্রচুর দেখা বাঁছ। এপ শিকড় 
জলের নীচে মাটিতে থাকে, আর শাখা-প্রশাখ। 
জলের উপরে এসে চারদিকে ছড়িয়ে পড়ে। 
সাধারণতঃ উচু জমিতে প্রচুর পরিমাণে ও মাঝারা 
জমিতৈ কম দেখা বার়। মালঞ্চ ( £১1109301718 
0910009. ) খুব বেশী ধানের জমিতে হুয়। 
গোঠীর গিমে শাক 
(০019০911501 19601176256) সাধারণতঃ ধান 
কাটবার পর পোড়ে! জমিতে বেশী জন্মানঃ অনশ্ 
ধানজমিতেঞ্চ দেখা যায় । 

শলুক (13500791598) ফুল সাদ।, নীল, 
লাল, বিভিন্ন রঙের হয়, সাধারণতঃ গতীর জমিতে 
দেখা বায় । প্রার পানের পাতার মত ম্বেশ বড় 
এব পাঙাগুলি জলের ঠিক উপরে তেলে খাকে। 
এর কাণ্ড কন্দাকর, প্রচুর রসালো শিকড়যুক্ত ও 
কাদার মধ্যে খাকে। একর সাধারণতঃ: অক্টোবর 
মাসের প্রধমে ধানের জমিতে জন্মায়, ফুল থেকে 
ফল ছয় ডিসেঘর মাসে। 

[66100017,0596 


0515010105113069€ 


গোহীর ঢইঞচাজাতায় 
(99289581718 20815919))  /১68০135750206156 
10109 গভীর জমিতে কম প্িমাণে জন্মায়। 

ঢ০91১0১28059 গোভীর 58102101502 
(বড় খেডুই ) সাধারণতঃ উচু জমিতে প্রচুর দেখ। 
বাঞ।: [9030215 001090185115 কম পরিমাণে 
শুকনো, জমিতে দেখ! বায়। 


গ্রপ্রিল, 1974 ] 


2180093656-র 351217 ০8.)217.815 সাধা” 
রণঙঃ ষাঝারী গতীর জলে দেখ! যার, এর কাজ 
সোজ1, নীচের দিকে শোলার মত বাঁযৃপুর্ণ, 
গোড়া থেকে গোছাযর় গোছান্স জন্মায়। 


বাগমারি (2১101081215 28001663), চব্বিশ 


পরণায আঞ্চলিক ভাষাত যাঁকে বল! হয় বৈনাড়ী, 
উচু ও মাঝান্রী জমিতে প্রচুর দেখা বার। এছাড়া 
এঠাটাতএগাগাঘতশর প্রজাতিও ধানের জমিতে 
জন্মা। অক্টোবর-নতেবন্ধ মাপে এদের ফুল হয়, 
ডিসেম্বর মাসে ফল থেকে বীজ পেকে নীচে 
পড়ে যার। 

06170015618 56965 গোঠীর [.00%/1518 
[91৮10019 প্রচুর ডাঁলপালাসম্ম্বিত ও লহঙ্গের 
মত ফুল ও ফলধারণ করে। এরা সাধারণতঃ 
মাঝারী ও উচু জমিতে প্রচুর পরিমাণে জন্মায়। 
ভাসমান কাণ্ডের উপর 
শোলা ও কচুরিপাঁনর মত বাযুপুণ ফোলা 
বোট! ও পাটলবর্পের ফুল নিয়ে জ্ষর উপর ভেসে 
থাকে ও গভীর জনিত দেখা যায়। 

[79107119989 0299 গোঠীর 11110191351] 
170100% মাঝারী গভীর জমিতে দেখা যায়। 
জলের নীচে এদেক্স কাণ্ড ফোলা ও বাফুপুর্ণ 
থাকে আর ঝাউপাতার মত খাজকাটা পাতা 
ধারণ করে| জলেন্ন উপরিভগে পাতা সম্পৃণ, 
খাজকাটা নয়। কাণ্ডের শীর্ষে পাঁটল বর্ণের ফুল 
ধরে। 

থানকুনি (0:6766119 ৪51909) লাধারশত্£ 
উচু জমিতে দেখা বার । - 

কল্ষীশাঁক (1001009605৪ 009008) ধানের 
জমিতে প্রচুর দেখা বার়। এদের শিকড় এক 
জান্সগান্ব থাকে আর কাগুগুলি জলের উপরে তেলে 
ভেপে ধানের জমির মধ্যে অনেক দুর পর্যন্ত 
এগিয়ে খাপ . 

চ59700195119695-এয় 753:9169 2৪57 
1800৮ (ঈশলাহুলয ) ও ৬6:১6০9০6৪০-র 


]35816173 121)6175 


ধানের জমির আগাছার কথ! 


187 


68515 2911015 সাধারণতঃ চু জমিতে দেখা 
বায়। 

55:0131013017৩8০-র [07005 15 
10101276083 15 106165191025115, হাদের চব্বিশ 
পরগণা জেলা “জলবোন” বলে, ধানের জঘিতে 
প্রায় দেখা যায়। 

ব্রাহ্মী (820005. 00010101611) সাধারণতঃ 
উচু জমিতে অল জলে বা শুকনো! জমিতে জগ । 
[0100106015118-কে 
মাঝারী জমিতে জলের উপর ঘনভাবে ভাসতে 
দেখা যায়। | 

বাঘুহ্বা বা বাকৃজামা, ফাধলা! (09102170629 
0108) মাঁঝাক্দী গভীর জমিতে যেখানে জল 
দাড়িয়ে খাকে, সেখানে প্রচুর পরিমাণে জন্মার। 
জলের নীচে এর পাতা বাঁউগাছের পাতার মত 
খাঞ্কাট! ও জল্দের উপরের পাতা সম্পূর্ণ, কিন্ত 
কিনার! দাতের মত এ(জকাট! ও খসখসে, কাঁগ 
ঈসালো-- -বথানে লল্ায় জঙ্গল হয়েযাযর়। ফুলে 
খাড়া (25051702710150 10780109118) মাঝারী 
গভীর জলে কম দেখা যাক । সাধারণতঃ আঁলের 
কাছে এরা প্রচুর জন্মার। এদের ফুলের রং 
পাটল বর্ণের ও কাণ্ডে প্রচুর কাট। থাকে । 0819 
সাধারণতঃ উচু জমিতে গুদ্হাকান্ে জদ্মান্গ, 
তবে কম দেখা যায়। 

ক্ষেতপাপড়া (01067719707 601520৮0585) 
(২৮৪০০৪০) সাধারণতঃ মাঝারী গভীর জলে 
ও উঁচু জমিতে হয়, এদের কাগুগুপি সরু ও পাতা 
বিপরীতমুখী, সাধারণতঃ জলের উপরিষ্তাগে 
ফাওগুলি ভেসে থাকে । 

0481000130182606-ঞর 31821001628 2৩৮- 
[৪0108 মাঝারী: গভীর জণে ডালপালা বিস্তার 
করে ও প্রধ/ন কাণ্ডের শীর্ষে মগ্রনীধারণ ।করে। 
গোড়ার দিকে কাণ্ড শোলাছ মত বাযুপুর ও ফোলা! 
খাকে।. . ০ 

কেডুতে (0০55 25250) ধান" 


72170169121019062-র 


188 


জমিতে প্রায় দেখ। বায়। মারসুরিক়। (991১967- 
8070505 1201008) সাধারণতঃ ধান কাঁটবার পত্থ 
পোড়ে! জমিতে চক্ষাঁকারে জম্ম।তে দেখ! বান্ধ। 

আমর! ধানের জমিতে কয়েকটি গুরুত্বপুর্ণ 
আগাছা পন্বদ্ধে আলোচনা করলাম। ধানের 
জমির আগাছাকফে আমর! শ্মিলিখিত ভাগে ভাগ 
করতে পান্রি। 

1. তাসমধান---15619১ [59100108) ১20119, 
]15516985 ইত্যাদি । 


ভন ও বিজ্ঞান 


(27তম বর্ধ, 4 সংখা 

2. ভাসমান কিন্তু শিকড় মাটিতে-- 

£১100081505608) [090509685 00106181218019 
ইঠ্যাদি। 


3, কাণ্ড কন্দাকার, মাটির নীচে খাঁকে-”" 
ব55019568, ?0০1000190118 ইতভ্যার্দি। 

4. কাণ্ড প্রচুর শাখাবুক্ক--1,3 1818, 
40010511719) 90136100158 ইত্যাদি । 

5, মাটির উপর লতানো--চ01৬0108, 
067066113) 9200904, 6015081001) ইত্যাদি । 


আযলুমিনিয়ামের উপর ফটোগ্রাফি 
পার্থসারথি চক্রবর্তী 


জ্যালুমিসিক়াম ধাতুর উপর ফটোগ্রাফি 
তোঁলবার ব্যাপারটা খুবই আধুনিক। এজভে 
আবন্ত বিশুদ্ধ 'আযলুমিনিয়ামে কাজ হয় না-- 
আযানোডিক আফ্সিভেসন বা ধনাত্মক তড়িম্থারে 
জারণ-প্রক্িয়ার শাহাযো আলুমিনিগ্ামের উপর 
পাতল। আযালুমিনিয়াম অক্জাইডের একটা পর্দা 
তৈরী করে নিতে ভ্য়। এই পর্দ। কতট পুরু 
ও ঝাঁঝরা হবে, তা নির্ভর করে তড়িৎ্-বিশ্গেষণের 
পমন্্। তাপমাজ্জ, বিছ্যুতৎ্-ঘনত্ব এবং তড়িৎ" 
বিঙ্লেম্তের উপর। পর্দার প্রক্কাতি এবং রং কি 
হবে, সেটাও নির্ভর করে আযালুমিনিক্বাম অথবা 
তার সঙ্রের সংযুতির উপর। 

সাধারণতঃ বিশুদ্ধ আ্যালুমিনিয়াম বাতাসের 
সংস্পর্শে আসলে তাঁর গায়ে অক্সাইভের একট! 
পর্ধ! পড়ে। এটার ঘনত্ব হচ্ছে 40--50 ৯০ 
(1.257510-5 সে. মি.) এই পর্থ। পড়ে বলে 
আযালুহিনিক্ষাম কিছুটা নিজ্তিন খাডুতে পরিণত 
হয় কিন্তু এই জন্তরণটা এত পাতলা হয় যে, 
এট! ধাডুকে খবক্ষক্ের ছাঁত থেকে বাচান্ষে 
গায়ে পা. শুধু ভাই লগ, বিশুদ্ধ আযলুমিনিরাষ 


ধাতুর উপর রং ও বানিশ খুব ভাল করে 
লাগানোও সু্ধিল। 

তাই আজকাল আযলুমিনির়াঘের উপর কৃত্রিম 
উপায়ে একটা অক্পাইডের পর্দ| তৈরী কর! হয়. 
যাতে সেটা ধাতুর ক্ষরোধ করতে পারে এবং 
পেই সঙ্গে তার যাস্ছিক, টৈছু[তিক এবং 
আভ্যন্তরীণ রাসায়নিক ধর্মকে আরঙ উর়ত 
করতে পারে। আযালুমিনিয়ান ও সীসাকে বথাক্রষে 
ধনাস্মক এবং খশাতাক তড়িন্ব'র ছিসাবে ব্যবহার 
কন! হয়| তড়িৎ-বিশ্লেত্ হচ্ছে সালপফ্িউরিক 
'আযাপিড! এই তড়িৎ-বিষ্লেষণের কালে থে অক্সিজেন 
বেযরোয়। তা আযালুমিনিক্ামের সঙ্গে বিক্রি 
করে জ্যালুমিনিয়াম অস্সাইডের একটা পা! 
তৈক্সী করে। এই অক্সাইডের পর্দা তিনটি 
স্তর খাকে। প্রথম শুর, যেটা! খাডুযক্স খুব 
কাছাকাছি থাকে, লেটা বেশ শক্ত হয়? এটার 
সাম বেররিয়ার (331101610) ভর।/। মাঝের ভর 
কিছুটা বীাঝর! এবং তৃতীগ অহ-যেট! সবচেকে 
উপরে থাকে, তাঁকে বলে বুম :(919070)। এই 
শরটা 'অধস্ত একটু হবেই তুলে ফেল! ঘাস্। 


আশ্রিল। 1974 ] 


তড়িৎ-বিষ্জেষশের সময় উপযুক্ত বাবস্থা! গ্রহণ করলে 
এই তৃতীয় স্তর অর্থাৎ বুম তৈরী হতে পারে ন1। 
অন্পাইডের এই বাঁঝরা পর্দাত্ষ রখ এবং 
অন্তান্ত অনেক টজব রাপায়মিক বস্ত অতি 
হুন্বরভাবে শোবিত হন্ন। আযালুিনিক্নাম অক্সাইড 
কতটা রং শোঁষণ করবে, ত1 নির্ভর করে ঝাঁঝরার 
আকৃতি এবং রঙের প্রাকৃতিক বৈশিষ্ট্যের উপর 
অক্সাইড পর্দ(কে আলোক-অন্তৃতিশীল বসত 
দিয়ে অঙ্ধিস্ত করতে হলে সেই পর্দাকে অবশ্যই 
বর্ণছীন পুরু ও সচ্ছিদ্র হতে হবে। খুব তাল 
আলুমিনিয়াঁম অক্সাইড পর্ঘ। তৈরী করতে 994 
থেকে 599 শতাংশ বিশুদ্ধ আলুমিনিয়াম দরকার! 
ধনাত্মক তড়িদ্ব(র ছিসাবে (6১9 সে. মি.) 
05--0%7 মিপিমিটার পুঞ্ক একট! শক্ত আযালু- 
মিনিয়ামের পাত নেওয়া হয়। এই 995 শতাংশ 
বিশুদ্ধ আযলুমিলিক়াম পাত পাশাপাশি বঙগানে। 
ছুটি পীসার পাঁতের তৈরী খশাত্ক অড়িন্বারের 
ঠিক মাঝখানে বসানো হক়্। অটানোঁডিক 
অক্সিডেশন বা ধনাত্মক -ভড়িদ্বারে জারণ- 
প্রক্রিয়ার কাজটা সার! হয় কাচের £তরী 5 
লিটারের একট] তড়িৎ-কোষে | তড়িৎ-কোঁষের 
উষ্ণতা এই সমস 27" সেন্টিগ্রেডের কাছাকাছি 
রাখা হয়। আযলুমিনিহ/মের পাঁতটিও খুব 
পরিক্ধার থাকা বাঞছনীর়। এর জগ্ঘে আগে থেকে 
পালিশ করে ছিক়ে এটাকে 46 ঞ্্যাম ভাঁই- 
সোডিয়াম ফস্ফেট, ৪ গ্রাযাম সোডিয়াম হাই- 
ভ্োকাইড এবং 26 প্র্যাম সোডিগ্রাম লিলিকেট 
ষিশ্রণের এক লিটার জলীর ভ্রবণে ডুবানো 
হয়। এর পর পাতটা 5% নাইটিক আযাসিড 
জ্রবণের মধ্যে মিবিটখানেক রেখে ঠাণ্ডা জলে 
ধুদ্বে নিক্কে ধনাত্বক তড়িদ্বারে জাগ্গিত কর! 
হুয়। আ্যালুমিনিয়াম ও জ্যলুমিনিয়াম-সক্বরের 
জন্তে খুব ভাল তড়িৎ-বিশ্লেত্য হচ্ছে সালফিউরিক 
অযাসিড, অক্জালিক আযাঁসিড ও ক্রোমিক আযলিড। 
এগুলির মধ্যে সাঁফিউরিক জ্যাঁলিজের অচলন 


জ্যানুমিনিয়ামের উপর ফটোগ্রাফি 


189 


পবচেন্গে বেশী। জারখ-প্রক্রিয়া সাধারণ উষ্ণতা 
15 থেকে 20% সাঁলফিউরিক আযাশিড ভ্রবণে 
2 খেকে 35 বিছ্যৎ্ঘনত্বে কর! হপ।| এর জঙ্কে 
সমন লাগে ত্রিশ থেকে পঞ্চাশ মিনিট। 
আযালুমিনিয়ামের জাবরণ-কার্ধ সন্পূর্ণ হলে 
সেটাকে আলোক -দ্মজভূতিশ্ীল কর! হন্থ। আলোঁক- 
অন্ুভূতিশীল করবার জন্তে অবন্ঠ নেক রকম 
পদ্ধতি আছে। বেমন--(1) পিপভাঁর হ্থালাইড 
(2) বু. প্রিষ্টিং, 3) জী ম্যান ও লেতিটাঁন, 
(4) জিলেটিন ইমালসাঁন, (5) ডায়জো পদ্ধতি। 
সিলতার ব্রোমাইভত পহ্ধতিতে জারিত 
আলুমিনিক্ামের পাতকে 10% 191 জ্রবণে 
অন্ুষিক্ত করে জলে ধুছ্ছে নিয়ে পুনরার 10% 
4১805 ভ্রবণে অনিক করতে হন্। 15 
থেকে 20 বার এটার পুনরাবৃত্তি করলে আযালু- 
মিনিয়ামষের গায়ে বেশ ্ুদ্দরভাঁবে 4১68: 
শোষিত হযে খাকে। এই ভাবে আলুষিনিক্ামের 
পাত আঁলোক-জঅনুভূতিশীল হয়ে বাবার পর 
50 গ্র্যাম/লিটার [57৪00 এবং 50 
গ্র্যাম/লিটার 7:91 দ্রেবণে বিরঞ্রিত করা দয়কার। 
এবার পাতটিকে একটি নেগেটিভে ধাঁধ্যষে 
আলোকিত করে ডেভেলপ করা হয়. ডেতেলপ 
করবার জনে প্রয়োজন---আযমিডল--5 গ্র্যাম; 
সোডিক্বাম সালফাইট---50৩ গ্র্যাথ, পটাপিয়াষ 
ক্রোমাইড--10 থেকে 15 গ্রাম, জল এক 
লিটার। এর সঙ্গে 3 থেকে 5 সি. শি. 40% 
ল্যাকটিক আশিডও কখন কখন যোগ করা 
হঙ্। আর 25076 কর! হয় হাইপো ভ্ররণের 
সাহাষ্যে। 
পিলভার ক্লোরাইড পর্ধতিতে আলুমিনিয়াষের 
পাতকে খপ|ত্বক তড়িদ্বারে জারিত করবার পর 
সেটাকে ঠা জলে ধু শুকিগ়ে নেওয়া ছর। 
তাপ এটাকে 2--3% 501 এবং 2% 
টাকটারিক জ্যালিভের দ্রবণে চুবিয়ে নিককে পরে 
আবার শুকানো! প্রয়োন। সব শেষে পাত 


190 


2%. 4৪05 এবং 0:003% নাইটিক আযাঁলিডে 
 ডুখানো হয়! সমস্ত কাজটা পার! হয় অন্ধকার 
ঘরে! এইভাবে পাড়ের অস্মাইড পর্ণ [য় আন্রবণীয় 
0] ধিতিযে পড়ে। এবার ষখারীতি একটা 
নেগেটিত্ের মাধ্যমে প্রেটকে আলোকিত করে 
ডেভেলপ কর হয়|: 22128 করা হয় অন্ধকার 
ঘরে ও তারপর 5691 করা হুক়। পিলভার 
ক্লোরাইড পদ্ধতির অহ্থবিধাও আছে। সিলভার 
ক্লোরাইডের অধংক্ষেপ ফেলবার জন্তে এই অধংক্ষেপ 
বিক্রিয়াটি থ্ছবাঁক করবার প্রয়োজন। আর 
অতিরিক্ত সতর্কতা অআঅবকম্বন না করলে ছবি 
প্রা্ইই ঝাঁপ, সা হয়ে বাছ। 


বু-প্রিন্টিং পদ্ধঠিতে জ্যলুমিনিয়ামের পাতে 
ছবি ওঠে চমত্কাযর। এই জন্যে প্লেটটি আলোক্ষ- 
আনুভূতিগ্নীল ফেরিক লবণের দ্রবণে অমুযিক্ত 
করা হয়। এই লবণের দ্রবণে থাকে, 
ফেরিক আমোনিঙ্গাম সাইট্রেট--125 গ্র্য।ম, 
পটাসিয়াম ফেবরিসাক়।নাইড--100 গ্রাম, জল-- 
এক লিটার। 


অঙ্ুবিক্ত রুরতে সময় লাগে 30-40 মিনিট। 
এর পর প্লেটটি জলে ধুঙ্কে। শুকিয়ে একটি নেগে- 
টিষ্তের মাধামে আলোকিত করাহয়। আলোর 
সংস্পর্শে এসে কিছুটা ক্ষেরিক লবণ ফেরাসে 
রূপান্তরিত হয়। পরনে এই ফেবাপ লবণ 
[55৪(013)৪-এর সঙ্গে বিক্রিপ্নাকরে প্রুশিয়ান 
বু-ক্ষেরিক ফেরোসায়ানাইড উৎপন্ন করে। 
এর পর ডেতেলপের কাজ সার! হয় 1% নাইটিক 
আ'লিড অথবা 5% হাঁইড়োক্লোরিক আ্যসিডে 
পাতটিকে ডুবিয়ে! এবার ওটাকে জলে ধুয়ে, 
কিযে নিতে হবে। শেষ অবস্থার নীল রং 
থারবার জন্তে এটাকে আর হাইপে! ফিক্সিং করা 
ছয় না। এই নীল রংকে বস্তু পুনরায় বিভিন্ন 


জান ও বিজ্ঞান 


[ 27তম বর্ষ, এর্খ লংখ্)। 


রাসাইনিক বস্তর সঙ্গে ক্রিয়া করিয়ে "সবুজ, 
কালে! অথনা ধুলর বর্ধের করা বায়। 

ঢ1561780-1,5518012 প্রণালীতে আঁদোঁডিক 
অক্িডেসনের বরা প্রস্তুত আযালুমিনিয়াম-পাতকে 
খুব শক্তিশালী জারণ পদার্থ যেমন ক্রোমিক 
আযঁলিডের দ্বারা জারিত করা হয়। তার পর 
পাঁতটা সিলভার নাইট্রেট, জিলেটিন ও পট!- 
শিয়া ডাইজোমেটন্এর একট জলীয় জবশে 
ডুবিষ্কে,। পরে শুকিয়ে নিযে আবার [087 ও 
চ:90750-এর ভ্রবণে ডুবানে! হয়। এই তাবে 
আলোক-অন্ুভৃতিশীল পিলডার হালাইড পাতের 
উপর জমা পড়ে । এর পরের কাজগুলি 2821 
প্ছতির মতন--নতুন বিশেষ কিছু করবার 
দরকার হয়. না] ব্যবস!প্রিক ভিত্তিতে ফ্রিম্যান- 
লেভিটোম পদ্ধতিতেই আজকাল জারিত জ্যালু- 
মিনিক্াম-পাঁত্তের উপর ফটোগ্রাফি তোলা হুয়। 

আযলুয়নিয়ামকে ধনাত্মক ড়িদ্বারে জারি 
করে ধাতুকে অবক্ষয়ের হাত থেকে বেশ ভাল 
করে রক্ষা করা বায়। এট তখন ফটোগ্রাফি 
পুনমুদ্রশের কাঠামো এবং ছাপাঁখানার প্রেট 
উত্পাদনের জনে ব্যবহৃত হুয়। শুধু তাই নয়, 
এই জারিত ঘআ্যালুমিনিয়াঘের তাপ রোধ করবার 
শক্তিও জন্ম খুব 7েশী। আইড-কুল, নেম প্রেট, 
সাইনবোর্ড, কালেগাঁর কার্ড এবং আরও অনেক 
নুদৃষ্তঠ সৌধীন সামগ্রী সাঁজাবার কাজে এই 
জাতীয় আযলুমিনিক্সামের পাত খুবই উপষোগী। 
ছবি আক প্লেট নিউক্লিনার বিকিরণের সংস্পর্শে 
আঁসলে অথবা 600" সেট্িগ্রেড উত্তাপ পেলেও 
এর কিছুমাত্র ক্ষতি হয় না। সম্প্রতি ছঅতি- 
মাত্রাম সাবধানত1 অবলম্বন করে খ্যযালুমিনিক্লাম- 
অক়াইডের উপরকার ছবি অবিকৃত রেখে ্যালু- 
মিনিষ্াম ধাতুকে আস্তে গলিক্গে সেখান থেকে 
সরিয়ে আনাও সন্ভব.হগ্েছে। 


অঞ্চয়ন 
প্াষ্টিকের যুগ 


মাফিন যুক্তরাষ্ট্রে যে সব শিল্প খুব দ্রুত গতিতে 
গড়ে উঠেছে, তাঁর মধ্যে প্রার্টিক-শিল্প অগ্যতম। 
ঘর-সংসারের কাজে, অফিসের কাজে, খেলার 
মাঠে আমেরিকার লোকের! য। কিছু করে, তাতেই 
প্লীপ্টিক ব্যবহার করে বছর বছর প্লাস্টিকের 
ব্যবস্থার কেবল বেড়েই চলছে। 

অপরিশোধিত তেল থেকে উৎপন্ন প্লাঞ্িক 
আমেরিকার বাপকভাষে ব্যবহৃত হয়। পায়ে 
হাটবার রাস্ত', নর্দখাঁর নালার মুখ, বিমানের পাখা 
সবই প্লাঠিকের ঠতরী। শুধু কি তা, ফুটবল 
খেলার মাঠ তাও প্রাষ্টিকের। প্লাষ্টিকের তৈরী 
বাড়ী পর্যন্ত দেখতে পাওয়া বার আমেকিকায়। 
মাকিন মহ্াকাঁশচারীরা পৃথিবী ও চাঁদের কক্ষ 
পরিক্রমার কালে প্লাহিকের শক্তি ও নমনীয়তাঁর 
উপরই নির্ভর করেন। কাঁজেই প্রকারাস্তরে 
প্লাঙিকই তার্দের জীবন রক্ষ। করে। প্রাঙ্িকের 
বৎপিও, প্রঙিকের অস্থি ও রুক্তনালী ব্যবহার 
করে হছাঁজার হাজার লোক প্রাণে বেচে আছে। 

ঘোড়ার পানে এখন দেখ! বান প্লার্টিকের খুব। 
জঞ্জিয়ার গোঁশালার গরুর পাল রাত-দিন 
প্লাস্টিকের কার্পেট বিছানো! মেঝের উপর ঘুরে 
বেড়াচ্ছে। 

জলে নিমজ্জিত জাছাজকে জল থেকে তুলতে 
হলে প্লািকের সাহায্য তাড়াতাড়ি তোল! সম্ভব 
হবে। রাসায়নিক ইউরিখেন ফেনাকে অতি উচ্চ- 
চাপে ডুবন্ত জাহাজের ধোলের মধ্যে ফেলতে 
হবে| প্রার্টিকের ফেনা সন্প্রনারিত হক্গে খুব 
জোরদার এক সবতার হৃষ্টি করবে, ফলে ভোব। 
জাহাজটি জলের উপরে ভেলে উঠবে। 

বিগত দ্বুই দশক বাবৎ মাক্চিন যুক্তরাষ্ট্রে 


প্রাষ্টিকের উৎপাদন বেড়ে গেছে। 1950 সাঙগে 
210 কোটি পাউগ (প্রা 95 কোটি কিলোগ্র্যাষ ) 
প্রাঠিক উতৎ্পর হয়েছে। 1967 পালে এষ 
উৎপাদন সাতগুণ বেড়ে গিয়ে 1450 কোটি পাঁউও, 
অর্থাৎ প্রা 650 কোটি কিলোগ্যাঁথ হস্গ। 

আমেরিকায় বর্তমানে প্রা 5 হাজারট 
প্রতিষ্ঠান আছে, বেখানে প্রার্টিক-শিলের শুভবা। 
হয়। হাতির দত দিয়ে আগে বিলিষ্বার্ড খেলবার 
বল তৈরী করা হতো। 1869 সালে জন ওয়েসলি 
হাঁর়াট এ বল তৈরীর জন্তে সেলুলরেড আবিফার 
করেন। তুলা, কপূর আর নাইটিক আযঁপিডের 
সংমিশ্রণে এই সেলুলম্বেড তৈরী হয়েছিল! এ. থেকে 
খুব সুন্দর বিলিয্কার্ড বল তৈরী হলো। তাছাড়া, 
পেলুলজেড থেকে প্রস্তত হতো ভাল ভাল নান! 
প্রয়োজনীয় সামগ্রী। যেমন, জামার কলার, 
কৃত্রিম দাত আর চলচ্চিত্রের কিন্সু। গোড়ার দিকে 
এ দিয়ে মোটরগাঁড়ীর জানালার পর্দ/ও তন্বী 
হতো । 1909 সালে ডক্টর লিও. এইচ বীকল্যাণড 
ফেনল ও কর্মালডিহাইডের লঙ্গে একট] নিয়ঞজিত 
প্রতিক্ষিহ্ ঘটিয়ে প্রথম ফেনলিক প্রা্টিক তৈরী 
করেন। এটা] একটা কঠিন। অনমনীয় আর 
মজবুত পদার্থ। তিনি এর নাম দেন বেকলাইট। 
টেলিফোন, দেয়ালঘড়ি, বৈদ্যুতিক ইন্ত্রির হাতল 
আর রেস্তোরার টেবিগের উপরে এর ব্যাপক 
ব্যবহার হতে থাকে। 

আধুনিক গ্াঠিক-শিল্পের কাজ আসলে সু 
হয় 1930 পাল খেকে । বিজ্ঞানীর! দেখলেন, 
অপরিশোধিত তেল ও প্রান্তিক গ্যাসে বে 
ছাজারে। বড়দের ছাইজোকার্বনের মিজপ প্রভৃতি 
রয়েছে, নেঞ্চলি গিয়ে অনেক নতুন, নতুন পদার্থ 


193 


তৈরী করা ধার। এইগ্তাবে পেঙৌোকেমিক্যাল 
শিল্পের জন্ম হছলো। বর্তমানে প্রতি এক-শ' লিপ! 
তেল থেকে প্রা চার পিপ। পেট্রোকেমিক্যাঁল 
উৎপন্ন হপ্ন। আর 30 শতাংশ পেট্রেকেমিক্যাল 
প্রছিকে বপান্তরিত' হয়। আজকাল অবশ্ঠ কিছু 
কিছু প্রাঙহিক সেলুলোজ থেকে অখবা করলাঘটিত 
রাপায়নিক জ্রব্য থেকেও উৎপয্ন হয়, তবে 89 
শভাংশ প্রার্িকই পাওয়া বাক্স পেপ্রোকে মিক্যাঁল 
থেকে। | 
হাল ওয়েস আগ রিফাইনারি কোম্পানীর 
পেত্োলিক়ামঙাত পদার্থগুলি প্রাঙিক হ্বারই 
কথ! ছিল, কিন্তু আযন্জে কেমিক্যাল কোম্পানী 
প্রভৃতি নাঁদ কোম্পানীর দৌলতে সেগুলি 
পর্যবসিত হয়ে বাক্স পেট্রেকেমিকালে। আযান্জে 
কোম্পানীর তরী প্রার্টকের বাজার বিরাট ও 
ব্যাপক । ওদের উৎপর জিনিসের মধ্যে পলি- 
বিলিনও বঞ্জেছে। আমেরিকার তৈরী প্রারিকের 
মধ্যে পলিথিলিন হচ্ছে সবচেয়ে সেরা । ভিনিল 
হচ্ছে দ্বিতীয়, আর পণ্ত্রোপাইরিন হচ্ছে নস্ভুন- 
তর প্লাষ্টিক, যার অগ্রগতি সবচেকে ক্রুত এগিয়ে 
চলেছে। 

আজকাল প্ার্টিকের সবচেয়ে চমকপ্রদ বাবছার 
হচ্ছে চিকিৎসার ক্ষেত্র। পলিপ্রোপাইলিনের 
তৈরী হৃৎপিণ্ডের ভাঁল্ব- বছরে চার কোটি বার 
প্পন্মিত হচ্ছে] অথচ অবক্ষয়ের কোঁন নাঁধগঞ্ধই 
চোখে পড়ে না। বে যন্ত্রের সাহাব) তিন্ন হৃতৎপিও 
বসানে। সম্ভব লয় প্রাছটিকের তৈরী টিউব তার একটি 
গুরুত্বপুর্ণ অংশ । পলিপ্রোপাইলিনের সেলাইয়ের 
জোড় দিয়ে ক্ষতপ্থান জুড়বার পরীক্ষা-নিরীক্ষা 
চলছে। কুকুরের ভাঁঙ। হাটু সারাবার জন্তে 
পলা ইিকের সন্ধি-বন্বনী পরীক্ষামূুলকতাবে শীক্রই 
বসাদো হচ্ছে। মানুষের বিকল হাঁটু পারাবার 
জনে এই ধরণের কথিম পদ্দি-বন্বনীর ব্যাপক 
প্রশ্নোগ হবে বলে মিশিগান রাজ্য বিশ্ববিষ্ঞালঙগের 
পণ্ড শল্য চিকিৎসফের। আশা পোষণ করেন । 


উ্কান ও বিজন 


( 27 তব বর্ষ, এর্থ শংখ্যা 


মানুষের দৃষ্টিশক্তির ক্দনুল্য সম্পদ কণিকা 
আজকাল প্রাহিকের তরী হচ্ছে। কৃত্রিম করিক্কার 
এই ব্যবছার চিকিৎস।-বিজ্ঞান মেনে. নিয়েছে। 
একজন প্রখ্যাত চক্ষুরোগ বিশেষঞ্ঞ বলেছেন, এই 
ব্যবস্থার ব্যাপক প্রচলন হলে বিশ্বের অন্ধত্ব 15 
শতাংশ বিদুরিত হুবে। 

প্রাষ্টিকের এই চমকপ্রদ প্রয়োগ কেধলমাত্র 
চিকিৎসার ক্ষেত্রেই সীমাব্ধ নয়। মহাকাশ 
অভিবালের ক্ষেভ&্জেও এর অবদান আপরিসীঘ। 
চঙ্রলোকে এতিহাসিক বিজয়বধাতরার পর আযাপোলো 
-৪-এর মহাঁকাঁশচাতরীরা পৃথিবীর আবহুমণ্ডলে 
বখন প্রত্যাবর্তন করলেন, ভাদের মহাকাশষানটি 
20 হাজার ভিগ্রী ফারেনহাইট (1] হাজার ডিগ্রী 
সেপ্টিগ্রেড ) তাপমাত্রা থেফে রক্ষা পেল একটি 
ভাপরোধকারী বর্ষের সাহাষ্যে। এই বর্মটি 
ফেনোলিকপূর্ণ যৌঢাক-আকতির একটি বস্তর দ্বার! 
আব্বত। 

অন্তস্থীন গতীর সাগরেও প্রার্টিকের বাজস্ব। 
গতীর সমুক্রে জলমগ্র জাহাজের উদ্ধারকারী জল- 
যানের বহিরাগের কাঠাষেো তৈরী হচ্ছে এক 
বিশেব ধন্বণের প্লাহিকের সাহায্যে। 

স্থলে প্রচলিত হয়েছে প্লার্িকের তরী গাড়ীর 
কাঠামো । 1969 সালে ওল্ডলমোবিল টরোতো 
গাড়ী বেরোক্ন। এর প্রথম ক্রোমপ্রেটড গ্রিল 
পলিপ্রোপাইপিন দিয়ে তৈরী । 1959 সালের 
অন্ত আর একটি গাড়ী হচ্ছে পনটিয়াক ফাবার্ড। 
এর সম্মুখ তাগ আর কেনের বাম্পার প্রঙিকের। 
'অর্ভার্প প্রাঞ্টিক' নামক সাময়িক পত্রে বলা হয়েছে 
যে, এবারে গাড়ীর ছাদ আর দরজ! হবে প্লার্টিকের। 

বিমানের খোল তৈরীর জন্তেও এখন প্রারটিক 
বাবার করা হুচ্ছে। এত্বে বিমান যেমন মজবুত 
হয়ঃ গওজনেও তেমনি হয় হাক্কা। উদ্দাহরণন্থরপ 
বল1 ধায়। বোইং-737 গেট বিশ্বানের অগ্রভাগ, 
আড়াআড়ি ডানাঁগুলি, পিছনের দিক প্রভৃতি 
নানা অংশ. এখন গ্লািকের তৈরী হচ্ছে।  আধুর 


এপ্রিল, 1974 ] 


ভবিষ্যতে পুরাপুরি প্রার্টিকের বিমাঁন দেখতে পাও! 
বাষে। 

ঘির্মাণের কাজে প্লাট্টিকের উপযোগিতা ক্রষ- 
বিকাশের পথে চলেছে। তাছাড়া অবংখ্য 
ব্যাপারে একে কাজে লাগানো হার়। এতে মনে 
হয়। আগামী কন্ষেক বছরের মধ্যেই আমাদের 
জীবনধাত্রা ও কাজকর্মের ধারায় প্রাক এক 
যুগান্তর নিয়ে আসবে। মাকিন যুক্তরাষ্ট্রের সমগ্র 
প্রীঙ্টিকের এক-চতুর্থাংশ এর মধেঃই নির্মাণের 
কাজে ব্যবহৃত হচ্ছে। প্লাষ্টিক শিল্পসমিতির 
কার্ধকৰী সহ-সভাপতি আর. এল, হাডিং বলেন, 
আগামী 10 থেকে 15 বছরের মধ্যে নির্মাণের 
কাজে প্রাষ্টিকের ব্যবহার চারগুণ বেড়ে বাবে। এই 
সম্ভাঁবন! এখনই বে বাস্তব বূপ নিজেছে তা দেখতে 
পাওয়া যাচ্ছে। মেক্সিকো উপসাগরের উকাটাঁন 
পেনিননুলার উপকূলবতাঁ ইনস্লামুজাসে” 1968 
সালের অগাস্ট মাসে সবপ্রথম 3-শঃ প্রষ্টিকের 
কুটার নিমিত হয়েছে। 

আনের ঘরে প্রাটিকের প্রবেশ সুরু হয় করেক 
বছর আগেই! আর এখন পুর! বাঁসগৃ€ই প্রাষ্টিক 
দখল করে বসেছে। প্লার্িকের তৈরী এমন সব 
বাড়ী পাওয়া বাচ্ছে, বেগুলির দেয়াল, মেঝে আর 
ছাদ একট মাত্র চাদরে তৈরী । কোথাও কোন 
জোড় লাগানো! নেই। গৃহ-সঘস্তার সমাধান আর 
স্থানাস্তরযোগ্য বাড়ীর জন্তে এই সব ব্যবস্থা । 
একটি প্রার্টিক কোম্পানী একই চাদরে গড়। জান- 
ঘরের মেঝে আর প্রসাধন ঘরের আশ্বাস দিয়েছে। 


সঞ্চয়ন 193 


রাক্সাধরের প্রাটিকের তরী সব সাঁজসরঞজাঁম 
পীতবই দেখা যাবে। রেফ্রিজারেটরে অন্তরক 
হিসাবে প্রার্টিকের ব্যবহার ইতিপুর্বেই স্থুরু হয়ে 
গেছে। কঝ্েেফিজারেটরে ভিতরের দেখাল ও 
দরজা প্রতিক দিয়ে তৈরী হচ্ছে। আসবাব-পত্র 
1নর্মাবেও প্রাতিক ব্যবহৃত হুচ্ছে। এর মধ্যে কোচের 
আংশ বিশেষ, চেয়ারের পাঁয়ার ওজন 12 পাউগু 
65 কিলো 40 গ্রাম হবে। আর এগুলি 
আড়াই টন তার বহন করতে পাঁরবে। 
কাঠের মতই প্রার্টিকেরও সুন্বর অ।সবাবপত্ত 
তৈপ্ী হচ্ছে। 

শেষ পর্যন্ত আমর] কত কাজে যে প্রার্টিক 
বাবহার করবে! তার কোন লেখাজোখথা নেই। 
দিন দিনই নান। নতুন নতুন ধারণা নানা! জনের 
মাঁথ! থেকে বেকচ্ছে। 1968-69 পালে নিউইয়র্ক 
শহরে যেপ্রাহ্িকের গ্রদর্শনী হয়েছে, তাতে এসব 
অনেক কিছু দেখানো হয়েছিল। বাতাঁশ দিকে 
ফোলাঁনে। বাক্স এরকম চেক়্ার-টেবিল, পরীক্ষামূলক 
ফোমের বাড়ী পোষাক-পহিচ্ছদ প্রভৃতি নান! 
জিনিষ এ প্রদশনীতে দেখানো হয়েছিল। 

প্রাষিকের ভব্বব্২ ও বর্তমান সম্বস্ধে 
অনেক আশাব্ঞ্রক কথ! বল! হয়েছে। এই 
শিল্পের মুখপাত্রেরা বলেছেন মানব-সত্যত! প্লাক 
যুগের ছারপ্রাস্তে এসে উপনীত হয়েছে। আগামী 
দিনের পুর্বাতাঁসে বিশেষজের! বলেছেন-- প্রস্তর, 
ব্রোঞ্জ ও লৌহযুগের মত প্লাষ্টিক যুগঞ্জ ইতিহাসের 
পাতার শ্বর্ধাক্ষরে লিখিত থাকবে । 


বেদনা-নাশক 
প্রীতিসাধন বনু 


বহুকাল পুর্বেই মান্য আফিমের বিডির 
গুণের কথা জানতো।। মিশর এবং ব্যাবিলনের 
তত্কালীন রচনার বহু জারগার আফিমের 
বেদন| নাশ করবার গুণের কথার উল্লেখ আছে। 
ছিপোক্রেটিপ,  ডাক্গোকোরিডিল, গ্যালেন 
প্রমুখ প্রথম যুগের চিকিৎসকগণ আফিমের 
গুণের কথা বলতে গিয়ে একে অলৌকিক বলে 
উল্লেখ করেছেন। বলেছেন, জিনিষটি সমস্ত রকম 
'রোগ, ছুঃখ এবং বেদন। দুর করতে পারে। সধদশ 
শতাবীর বিখ্যাত ইংরেজ চিকিৎপাবিদূ টমাস 
সীডেনহাম লিখেছেন, সব 'রকম রোগ দুর করতে 
আঁফিমের মত এমন কার্ধকর. এবং ব্যাপক ওষুধ 
আর নেই। বর্তমান ধুগে অবন্ত একে পর্ব 
রোগের শাস্তি' বলে মনে করা হয় না, কিন্ত 
আফিমের কার্ধকাঁরিতা বার জন্তে, সেই মরফিন 
এখন ডাক্গার়েরা সাধারণতঃ অশহ্‌ ব্যখা-বেধণা 
দুর করতে প্রক্নোগ করে থাকেন। 

অবশ্ত আফিমের কুফলগুলির কথাও বহু দিন 
থেকেই জান! ছিল। অভ্যত্ত হয়ে পড়া (1০- 
01019) হচ্ছে এর মধ্যে সর্বপ্রথম। বেশ কিছু দিন 
ধয়ে আফিং খাঁওয় চাঁলিক্বে গেলে শারীরিক 
এবং মানসিক দিক থেকে এর উপর একট! 
নির্ভরত। জন্মায়, ফলে আফিং খাওয় বদ্ধ করে 
দিলে অত্যন্ত বিরক্তিকর, এমন কি অত্যন্ত 
বিপঙ্জনক সব লক্ষণ (351091010) দেখা ঘেয়। 
এছাড়া আফিং শ্বাসকার্ধকে দমিয়ে দেক্স। তাই 
এমন একট! ওধুধ সব লময়েই খোজ। হয়েছে, 
যা মরফিনের মত বেদনা দুর করতে পারে 
জখচ তার এ ধরণের কোন কৃফল নেই। 


চ৪9587906585 পরিবারের গাছ 1908%6£ 


30000169£000-এর কাচা ফথণগুলিকে উপর 
থেকে একটু চেঁচে দিলে তাথেকে যে রস 
বের হুর, সেটাকে শুকিয়ে নেওর। হয়। এরপর 
সেই গুকৃনে! স্লকে চাপ দিয়ে ডেল! পাঁকালেই 
হলে! জফিং। বাঞজারের আফিমের মধ্যে কম 
করে কুড়ি রকমের উপক্ষার (41191019) থাকে । 
আফিমের মধ্যে শতকরা দশ ভাগ হচ্ছে মরকিন 
(একটি উপক্ষার )। 

আফিম খাওয়া শাদীরিক প্রতিক্রিয়ার জঙ্ত 
মরফিনই দাহী। 1305 সালে জার্মেনীর 
এক ওষুধপ্রস্ততকাঁরীর সহকারী [£190:101, 
92180961 সর্বপ্রথম আফিম থেকে মরফিন 
পৃখক করেন। এখেকেই বর্তমান উপক্ষার় 
রসাকনবিস্ঞার জ্ুরু-যার ফলে বহু উপক্ষার 
ওষুধের আবিফার হয়েছে। যেমন, উপক্ষার 
রিসাপিন উত্তেজনা! ও রক্তের চাপ কমাবার 
এমনি একটি গুধুধ, ব| 2:0%/0128 82109786118 
(ভারতীয় সর্পগন্ধ। ) গাছ থেকে পাঁওর। যায়। 

ম্যাঞ্চেইার বিশ্ববি্াাল থেকে জন, এম, 
গাল্যাণ্ড এবং রবার্ট রবিনসন 1925 লালে সর্বপ্রথম 
মরফিনের রাঁসাছনিক গঠনের সঠিক ধারণ! দেল। 
পরে রাগায়ানক গঠনে মরফিনের সঙ্গে মিল 
আছে, এমন অনেকগুলি পদার্থ পায়! বায়। 
এদের মধ্যে কোডিন (আফিমে পাওয়। বাগ, 
হেরোনিন, ডাইলুডিভ এবং 81,068 ০০০৫- 
09311 শগীরের উপর মরফিনের মত প্রতিক্রিয়া 
হুষ্টি করে! নীচু স্তরের জীবজন্তর উপর পথ্ীগণ 
করে দেখা গেছে 990612575 ০000১947৫ 
মরফিনের থেকে দশ হাজার গুণ বেশী কাধূকর। 

* বন্ধ বিজন মলির, কলিকাত1-91 - 


এপ্রিল, 1974 ] 


এদিক দিয়ে খুবই আঁশাপরদ হলেও এট! 
ঘরফিনের মত শ্বাকার্ধ কমিয়ে দেয় এবং এতেও 
অত্যন্ত “অভ্যাপ-দোঁষ, দেখা বাঁর। বিভিন্ন 
রফষের বেদনা-নাঁশক ওষুধের রাপায়নিক গঠন 
পরীক্ষা]! করে একটা থাঁরপ! করা গেছে যে, কোঁন 
পদার্থের বেদনা-নাশক গুণ থাকতে হলে তাঁর 
গঠনে কি খাঁকা দরকাঁর। তাঁর ফলে অনেক 
নতুন নতুন বেদনা-নাঁশক পদার্থের সংঙ্গেষণ 
করা সম্ভব হয়েছে । এর মধ্যে উল্লেখযোগা হচ্ছে 
পেখিভিন! জার্মেনীর অটো ইন্‌লেব (913166) 
1939 মালে পেখিডিন সংঙ্গেষণ করেন। মরফিনের 
থেকে কম কাঁর্করী হলেও এখন পেখিডিন 
শল্যটিকিৎস! এবং ধাত্রীবিগ্যন্্ বহুল ব্যবহৃত হন্নে 
খাকে। কিন্তু এতেও যথেষ্ট 'অভ্যাশনদোষ' 
দেখ। দেয়। পরে পেখিডিনের সঙ্গে থিল আছে 
এমন কম-বেশী বেদনা-নাঁশক অনেকগুলি ওধুধের 
লংক্জেষণ কর! হলেও গেখিডিনই বেশী ব্যবহার 
কর! হয়ে খাকে। 

রাসায়নিক গঠনে মরফিনের সঙ্গে কম মিল 
আছে, গমন আর কয়েকটি সংঙ্জেষিত বেদনা-নাঁশক 
দ্রবোর মধ্যে পড়ে মেখাভোন, বেঞোমরষান এবং 
ফেনাজোলিন। এর মধ্যে ফেনাজোলিন বেদন! 
নাশ করবার দিকে মরফিনের চেয়ে সাত থেকে 
দশগুণ বেশী কার্ধকরী হলে মরফিনের মঙই 
'জআসকি-দোবে ছুষ্ট। 

বেদনা নাঁশ করবার ক্ষমতার সঙ্গে তার রাসা- 
নিক গঠনের সন্বদ্ধ কত বেশী, তা খুব ভালভাবে 
বোঝ] যায় লিভোফান থেকে। এর গঠন প্রায় 
মরফিনের মত, কিন্তু মরনফিনের চেয়ে বেশী কার্ধকরা 
এবং এতে বেখী 'গাসক্ি' দেখা দেন কিন্ত 
লিতোফরনের রাঁলাক্কনিক গঠনকে আক্মনার মধ্যে 
দিয়ে ঘ্বেখলে যেমন উপ্টো দেখ! বাক, সেই রকষ 
রাসায়নিক গ$ঠনবিশিই 01960:0:00860:0 বা 


21800১90560 £0:03) পদার্থের কোন বেদনা”, 


নাশক গুণ নেই.ব! এতে আসক্তিও দেখা দেয় না। 


বেধলা "নাশক 


195 


সংশ্ক্েবিত বেদনা্নাশক ওষুধের ঘযধ্যে 
এখানে মাত্র কেকটির উল্লেখ করা হলেও এগুলি 
সংখ্যায় জনেক। কিন্তু এগুলির সবই গুণের দিক 
দিয়ে মরফিনের তুলনা নিরষ্টতর হওয়।য় অসহ্থ 
যক্রণ! কমাবার জন্তে ডাক্তারের! সাধারণত: মর ফিন 
দিছে খাকেন। আগেই বল! হয়েছে যে, বেদনা-নাশক 
গুণের সঙ্গে শ্বাপকার্ধ কমে যাওয়া] এবং আসকি-্" 
এই দোঁষ ছুটি এক সঙ্গে খাকে। দোষের কোন 
একটি কমাতে গেলে অন্তগুলিও কমে যাত়। 
কিছুদিন আগে পর্যস্ত এদের কোনদটিকে আলাদা 
কর! বেত না। 

প্রান পঞ্ধাশ বছর আগে জুলিয়াস পল 
দেখলেন, তিনি একটা গযুধ আবির 
করেছেন, যেটা! মরফিনের এই শ্বাসকার্ধয দমিয়ে 
দেওয়াকে রোধ করতে পারে। এটা ছিলি 
কোডিন-এর একটা বিশেষ রূপাস্তর। জীবজস্তর 
উপর পরীক্ষা করে দেখা গেন ব্যাপাঁকট। সতা। 
কিন্তু তখন এপিকে কেউ নজর দেন নি। এরর 
বন্ধ বছর পর, 1942 সালে 1010) ৬৬০111813 
এবং £৯. [. 70110155018 কোডিনের মত মরফিলে 
সেই একই রূপাস্তর ঘটিত দেখলেন-স-সেট! মর" 
ফিনের সমস্ত শারীরিক - প্রতিক্রিত্বার একটা 
প্রতিষেধক ব্ূপে কাজ করে-.এমন কি, মরফিন- 
জনিত সাংঘাতিক বিষক্রিয়ার এটা একট! খুব ভাঁল 
প্রতিষেধক। এর নাম দেওয়া হলো নালরফিন। 
কিন্ত জীবজন্তর উপর পরীক্ষা করে দেখা গেন 
যে, নালরফিনের কোন বেদনা-নাশিক গুণ নেই। 

জীবজস্তর উপর পরীক্ষা করে নালরফিনের 
কোদ বেদন[-নাশক গু নেই দেখে সবাই খুব 
হড়াশ হলেন। তাই আরও বারে! বছর কেটে 
গেল। 1954 সালে [6125 ৫. 9০০০179: এবং 


[50813 15952881591 ভাবলেন, মরফিন এবং নাল” 


রফিন এক সঙ্গে মান্ষের উর প্রক্মোগ করলে 
ছস্বতে! ছুটির ফজই এক সঙ্গে পাখছা খাষে। 


ম্যাপাচুসেট জেদায়েল হাসপাতালে দু-দল রোগীয় 


196 


মধ্যে একদলকে শুধু নালরফিন এবং অন্তদের 
মরফিন এবং নালরফিন এক সঙ্গে দেওয়া হলো। 
অত্যস্ক আশ্চর্যের সঙ্গে দেখ! গেল যে, দু-দল রোগীর 
উপরে একই রকম কাজ হচ্ছে। মাচুষের উপর 
নালরফিনের অন্তান্ত গুপের সঙ্গে বেদনা-নাশক 
গুণটিও রয়েছে। এরপর আরও আনেকে এর 
সত্যতা পরীক্ষা! করে দেখেন। আরঙ দেখা গেল 
বে, নালরফিনে কোন আপক্তি-্দোষ দেখ! দেয় না। 

এই প্রথম বেদনানাশক থেকে আসক্তিদোষকে 
পৃথক কর] গেল। কিন্তু পরে দেখা গেল যে, 
মালরফিনের বেদনাঁনাঁশ করবার মত পরিমাণ 
থেকে দিবাম্বপ্র দেখবার মত (75111101075 0010) 
ভাব হর। এই কারণে এই আবিষ্কার বিশেষ 
কারও দৃষ্টি আকর্ষণ করতে পারলো না। 

1958 সালে ড্টর সিভশী আচার এবং 
ভার সহকমীঁরা 967259050271780 জাতীন্ন পদার্থ- 
গুলির মধ্যে মরফিনের প্রতিষেধক ও আসক্তি 
দোষমুক্ত কোন বেদনা-নাশক ওষুধ খুজতে সুরু 
করেন এবং 05০13008076 এবং আরও অনেক 
গুলি ওষুধের খোজ পাঁন। 1959 সালের 
জাছয়ারী নাগাদ ডক্টর মার্শাল গেটুস্‌ এবং ভার 
সহকমাঁর। এ একই রকমের পদাথের খোজ সুরু 
করেন। তারা অবশ মরফিনের কোন রাসায়নিক 
গঠনের পরিবর্তন ঘটিয়ে কিছু করা সম্ভব কিনা. 
প্রথম তাই দেখতে খাকেন। এইভাবে তার! বেশ 
করেকটি ওষুধের স্্রি করেন, যেগুলি অতিমাত্রা 
মরফিন এবং পেখিডিনের প্রতিক্রিয়া বিরোধী 
এর মধ্যে সাইক্লোরফ্যান মরফিনের প্রতিক্রিনা 
নাশকাঁরী ক্ষমতার নালরফিনের চেয়ে বেণী 


জাজ ও বিজ্ঞান 


[27তম বর্ষ, ধর সংখ্য! 


কার্ধকরী। এর অনা গুণ প্রা ৫০1০৪০- 
০1১6-এর মত। উইলিগাম আর মার্টিন পরীক্ষা 
করে দেখেছেন 05010259০106-এর সামান্ত 
আপক্িন্দোষ আছে, যেট। বৃদ্ধি পাবার সভাবনা 
বথেই থাকে। 

সাইক্লোজোসিন এবং পাইক্রোছফযান বেদনা- 
নাশক হিসাবে ওজনের দিক দিয়ে মরফিনের 
চেয়ে প্রান্ন 30 থেকে 50 গুণ বেলী কার্যকরী । 
অবশ্ট ছুটিতে দিবাশ্বপ্পের মত ভাব হয়। অবশ্য 
এট মরফ্িনের চেক্ে অনেক কষ, কিন্তু তাও 
উপেক্ষা করবার মত নয়। 

এপর্যন্ত যত বেদনা-নাশক ওষুধ আবিষ্কৃত 
হয়েছে, তার মধ্যে 261)65500176 খুবই আশা প্রদ | 
এটা 8617501009191521) গোঠীর পদার্থ থেকে 
তৈরী করা হত্সেছে। যদিও মরফিনের প্রতিক্রিই] 
নাশকারী ক্ষমতা ০6)692০০12৫-এর খুবই কম, 
কিন্ত বহু পরীক্ষিত সত্য হুচ্ছে--এর কোন 
আপক্তি-দেোষ নেই! এটি অস্ত্রোপচারের বেদন।, 
প্রসবন্বেদন! ইত্যাদি অবিলম্বে দূর করে। সুতরাং 
দেখ! যাচ্ছে 26106920০106-ই হচ্ছে সর্বপ্রথম 
এমন ওযুধ, বার যেদনা-নাশক ক্ষমতা আছে 
অথচ কোন আলকি-দোষ নেই। তবে 
এটাই এই বিষে শেষ ন। কারণ এতেও শ্বাস- 
কার্য দমিত হুস্ব। আমরা আশা করবো, ফিছু- 
পধিনের মধ্যেই এমন ওষুধ আবহিষ্কত হযে, যা 
অসহ্থ বেদনাঁও দুর করবে অথচ এর আলক্ি- 
গোষ থাকবে না, এতে গিবাথপের মত্ত ভাব 
হবে না এব শ্বাপকার্ষের গতি কমিয়ে 
ছেবে না। | 


অধ্যাপক বোস 
রতনলাল ব্রক্মচারী* 


ব্যক্তিগত ন্মৃতিচাঁরণের মাঁধামে অধ্যাপক 
বোসের চরিত্রের দু-একটি দিক তুলে ধরতে চাই! 

অধ্যাপক যোসের সঙ্গে আমার প্রথম সাক্ষাৎ 
ঢাঁকান। তখন স্কুল ছেড়ে কলেজে ঢুকেছি, 
একদিন গেলাম অধ্যাপকের সঙ্গে দেখা করতে! 
কেউ কেউ বলেছিল--অসভব, দেখা না করেই 
ফিরে আসতে হবে। কিন্তু তাদের ভবিষ্য্বাথি 
ব্যর্থ করে দিয়ে গটু গটু করে চলে গেলাম 
অধ্যাপকের কঙ্গে শর ঢুকেই গড় গড় করে বলে 
গেপাম--আগে ভেবে রাখ। ইংরেজী বল্গানে-- 
'মহ্থাশয় আপনার সঙ্গে একটি ঠবজ্ঞানিক ব্যাপারে 
আঁলোচন! করতে চাই। সঙ্গে ছিল একটি 
খাতা, তাতে অতি কাচা হাতের লেখা একটি 
মৌলিক প্রবন্ধ লিখবার অপচেষ্টা । 

সেদিনের পেই হ্াকফ-প্যা্ট-পরা কিশোর 
ছেলেটির চোঁখে বে ম্বপ্রের মায়া-ঞ্জন মাখানো 
ছিল, বিশ্ববরেণ্য বিজ্ঞানী রূঢ় হত্তে তা মুছে 
দেবার চে! করেন নি। আঙ্গও মনে পড়ে 
ফেলে আসা সেই দুর অতীতের দিন--রমনাঁর 
মাঠে এক পাঁখী-ডাকা সন্ধ্যার কার্জন হলের 
একটি নিক্কৃত কক্ষ । সেখানে এক বিখ্যাত বিজ্ঞানী 
একটি জঅল্পবন্বস্ক ছেলের সঙ্গে অনেকক্ষণ ধরে 
আলোচনা করছেন। আইনষ্াইনের ক্রমবর্ধনান 
বিশ্ব যর্দি উনবিংশ শতাবীর ধারণামত ইথাঁর- 
সমুদ্র বলে. কিছু থাকে, তবে মাইকেলপন-মলি 
একসপেরিমেক্টের উপর তাক কি গ্রতাব, এই 
ধরণের জিজ্ান্ত ছিল ছেলেটির মনে। অনেক 
জিনিষ পে তখনে! বুঝে উঠতে পারে নি, কিন্তু 
বিজ্ঞানী পরম দ্দেছে তার কাঁধে হাত রেখে 
বলেছিলেন-জামি তোমার ভুল ধন্বার চেষ্টা 


করছি ন', 
করছি 

এর পর আবার খ্ল্স সময়ের গন্ধে আর একবার 
দেখ! হত্প, কিন্তু তাঁর পরেই বোধ হয় অধ্যাপক বোপ 
ঢাক1 ছেড়ে চলে গিয়েছিলেন! অনেক দিন পর 
আবার ঢুকে গেলাম খন্বর! লেবোরেটরীতে, কল- 
কাতার, আবার সঙ্গে কিছু কাগজ এবং তাতে 
একটি মৌপিক প্রবন্ধ লিখবার চেষ্টা--আর একটু 
কম কাঁচা হাতের চেষ্টা এবং 2ম নামক এক 
জার্মান বিজ্ঞানীর একটি পরিচন্ম-পত্র | আরও কিছু- 
দিন বাদে খরা লেবোরেটরীতৈে একটি গবেষপা- 
বৃত্তি পেলাম, কিন্তু তার আগেই অধ]াপক বোঁপ 
জেনেছিলেন আমার আধিক অনটনের কথা। 


তোমার বক্তব্য বোঁঝধার চেষ্টা 


, একদিন একটা জার্মান বই দিযে বললেন, এটা 


অনুবাদ করতে লেগে যা, আমি না! হয় গিরিজাঁকে 
বলে ছাপিয়ে কিছু টাকার ব্যবস্থা করে দিই। 
সেই বই ছাপ] হয় নি, কিন্তু অন্গুবাঁদ করতে গিচ্ে 
জার্মান ভাষার উপর আঁমার দখল বেড়ে গেল 
আর অধ্যাপক বোস ব্যক্তিগত ভাবে কিছু অর্থ 
সাহাধ্য করলেন, সেটা ছিল খুবই প্রশ্নোজনীয়। 
সেই সময় থেকে অধ্যাপক বোপ ইউনিফাক্েড 
ফিল্ড খিম্োরী নিয়ে কাজ আরম্ত করেন, কিন্ত 
আমার প্রধান আকর্ষণ ছিল কমস্মোলজী, সেটা 
কোপের চেগ্সে অধ্যাপক সেনের খাওতাগ বেছঈ 
করে আপতো। এই ছই অধ্যাপকের ছাব্রদের 
মধ্যে প্রচুর সহযোগিত| ছিল। অধ্যাপক বোসের 
সঙ্গে আমার সম্পর্ব ততট! ছিল না--শিক্ষক-্ছাত্রের 
বতটা ছিল আশ্রপরপাতা পিতা আর পুত্রের মত। 
এর পয় বিখাঁত জার্মান বিজ্ঞানী জর্ডানের 
. * ইতিান প্টাটহিক্যাল ইনহিটিউট, কলিকাতা 


198 


কাছে একটি গবেষণা-বৃত্তি লাভ কগ্গি। 
আঁশ! ছিল আইনষটাইন আসবেন সুইজারল্যাণ্ডে_ 
বছ দিন পরে ইউক্োপে-এক বিজ্ঞান কংগ্রেসে 
যোগ দিতে। কিন্ত আইনষ্টাইনকে দেখবার 
সৌভাগ্য আমার হুয় নি, আমার প্রথম বিদেশ 
যাত্ার আগেই তিনি ইহলোক ত্যাগ করেন। 
অধ্যাপক বোস এবং জর্ডান সেই কংগ্রেলে যোগ 


দিরেছিলেন--বতদুর মনে পড়ে। 
ধাঙ্ছোক জার্মেনী যাবার সময় অধ্যাঁপক 


বোস আবার আমাকে বাজিগতভাবে অর্থ পাছাধ্য 
করেন। অধ্যাপক খাশ্ুগীরের কাছে শুনেছিলাম, 
ঢাক থেকে বিদায় নেবার সমক় বোসের ব্যাঙ্ক 
ব্যালাজগ গ্রান্ঘ শৃন্ের কোঠায় নেমেছিল । এর 
একট! কারণ তার অকাতরে অর্থদাঁন। 

মনে পড়ে একবার অধ্যাপক বোপকে বলে- 
ছিলাম, এত প্রতিকূল অবস্থায় গবেষণা আমি 
আঁর হৃয়তে! করতে পারবো না, অমি বরং 
অধ্যাপক সাহার গখানে একটা অন্থবাঁদকের কাজ 
নিয়ে নিই (এবং অল্প সময়ের জন্তে নিয়েও 


তখণ 


জান ও বিজাব 


[27তম বর্ষ, ধর্ঘ সংখ্যা 


ছিলাঘ।) অধ্যাপক বোস বলেছিলেন--আরে। 
শ্োতের প্রতিকৃূলেই তো! সাতয়াতে হবে। আজ 
আরও দীর্ঘ পখ-পরিক্রমার পর, বিজ্ঞানের অন্ত 
একটি ক্ষেতে গবেষণা করতে গিয়ে দেখতে পাচ্ছি, 
ক্রমাগত শ্রোতের প্রতিকূলেই এগিক্নে ধেতে চেষ্ট 
করছি এবং আগের ভুপনায় অনেকটা এগিয়েছিও 
বটে। এট! সম্ভব হয়েছে অধ্যাপক মহ্লানবীশের 
কিছুটা উদার ছৃিতঙ্গীর জন্তে। অধ্যাপক মহলা" 
নবীশের সঙ্গে আমার যোগাঁবোগটাও করিগ্ে 
দিয়েছিলেন অধ্যাপক বোসই। 

বোল, সাহ!, যহলানবীশ--এই তিনজনের 
উদ্দেশেই প্রতি জানাই, আর বাঁচিক়ে রাখতে 
চাই তাদের টৈজানিক কৌতুহুলের দেদীপামান 
প্র্দীপশিখ।, স্মরণ করি আইনই&ইাইনের বাধী- 
061100716 
০08129, 016 72081017221) ১1068006, 
70580 580101105 061 0161061-্মানবষনের 
কৌতুছল, একটি পবিত্র, পেলব তক, যাঁকে বাচাতে 
হলে চাই শ্বাধীনতা। বিজ্ঞানীর স্বাধীনতা। 


736111895  1০08161--91658 


বিটা-ক্ষয় ও ডান দিক, বাঁ-দিক 
শ্রীভাপসকুমার চক্রেবর্তী* 


খদি বলা হয় 1957 সালে কলঙগিঙার 
অধ্যাপক 1801)8 1৭0 [1,৪8৪ এবং প্রিজটনের 
০৩7. 23198 ১524-কে পদার্থ-বিজ্ঞানে নোবেল 
পুরঙ্কার দেবায় কারণ--ভার ডান দিক ও বা- 
দিকের মধ্যে পার্থকা প্রমাণ করেছিলেন; তাহলে 
কথাটা অবিশ্বান্তই মনে হবে। ডান দিক ও 
বা-দিক সন্বক্ধে ছোঁটবেল! থেকেই আমাদের একটা 
ধারণা জগ্মে যার, কিন্ত এই ভান দিক ও 
বা-দিকের মধ্যে সত্যই কোন তফাঁৎ আছে কি? 
1956 সালে অধ্যাপক 1.6 এবং 210-এক 
এই আবিষ্কারের আগে পর্যন্ত তাবৎ বৈজ্ঞানিকদের 
কাছে একটাই উত্তর ছিলো--না। 

বাপানট বুঝতে হলে প্রথমেই আমাদের 
জানতে হবে প্রতিসমতা (95107966:5) কাঁকে 
বলে। আমরা কোন ছবি বা কোনো প্যাটার্নকে 
তখনই প্রতিসম বলি, বদি সেই ছবি বা 
প্যাটার্ন টির ডান দিক অবিকল বা-দিকের মত 
দেখতে হুম্। আবাঁর কোন একটি বস্তকে যে- 
দিক থেকে বা যেভাবেই দেখি না! কেন, যদি 
সেটিকে একই রকম দেখা বায়, তবে বস্তটিকে 
প্রতিসম বল! হত্স। প্রক্কতিতে সব কিছুতেই 
আমর! অল্প-বিস্তর প্রতিপমত1 লক্ষ্য করে খাকি। 
গোলকই লন্তবতঃ প্রতিনমতার সহজতম নিদর্শন । 
প্রন্ধতিতে তাই গোলাকতি বস্তর আধিক্য দেখা 
ধান্স। তোঁরবেলার শিশিরকণ। থেকে সুরু করে, 
আকাশের গ্রহ, নক্ষজে ইত্যাদি গোলাকতি। 
ফুলঃ.ফল ইত্যাদির ক্ষেরেও গোলাকতির শ্রাধান্ত 
দেখ! যার। প্রন্কতিতে প্রাপ্ত বিভিন্ন কেলাসেখ 


(085) ব্হ রকম শ্রতিসমতা লক্ষ্য কা 
'ঘাসাষে 


যায়। এরই লব প্রতিলমতা থেকে কঠিন বস্র 


গঠন-তত্ব সম্বদ্ধে অনেক কিছুই জ্বানা সন্তষ 
হয়েছে। অবশ্ত ফুল, ফল, গাছপাল। ইত্যাদিতে 
বে প্রতিসমত। দেখ! যায, ত কেলাঁসের আকুত্িতে 
দৃষ্ট প্রতিসমতার মত ততটা হুক্ম নয়। আবার 
জীবজন্তর দেছের টৈশিষ্ট্টয হলো! তাঙগগের দ্বি- 
পাশ্খিক প্রতিসমতা (93112665191 851027605)। 
এখন ধরা যাক একটি মেক্সে একটি আছঙনার 
লামনে পাড়িয়ে আছে। আক্নায় আমরা 
মেঙ্ছেটর একটি নিখুঁৎ ছবি দেখতে পাব। 
এখন আরমার যেছ্েটির সঙ্গে আসল মেঙ্গেটির 
কোন তঙ্াৎ ধরা বাবে কি? যদি মেয়েটি 
হাসলে তার বাম গালে টোল পড়ে, আয়নার 
মেঙ্ছেটির ডান গালে টোল পড়তে দেখা বাবে। 
অতএব আরমার মেক্কেটির সঙ্গে আসল মেগ্েটির 
পার্থক্য ধরা সম্ভব । উপরের খাঁরণা অন্যান 
মেক্জেটেকে তাই প্রাতসম বলা চলে না। মেঙছেটি 
বদি প্রতিসম হতো, তবে তার ডান গালেই 
টোল পড়ুক অথবা বাম গালেই টোল পড়ুক কিবা 
অ।দে টোল না পড়লেও তার সঙ্গে আত্নায় 


মেয়েটির কোন তফাৎ থাকতো না। প্রতি" 
সঘতাকে আমরা সাধারণতঃ এতাবেই বর্ণনা 
করি । 


পদার্থ-বিজ্ঞানে কিন্তু প্রঙিসমতাঁকে অন্ত ভাবে 
ভাবা হয়েছে! সেখানে এর অর্থ আরও ব্যাপক। 
আমর! জানি, জানার কাজ হলো আমাদের 
ডান দিককে বা-দিক ও বা-দিককে ডাঁদ দিকে 
রূপান্তরিত করা। আমার যেটা ভান হাত, 
আফ়নাক় সেটা বাঁছাতে পরিণত হয়েছে। 

* পদার্থ-বিজ্ঞান বিভাগ, ডিজগাড় বিশ্ববিভ্ঞাবর, 


200 


আমার ডান হাতটা বাস্তব ও আমায় ব। 
হাতটা আমার ডান হাঁতেরই প্রতিবিশ্থ। পদার্থ- 
বিজ্ঞানের মতে, আরনার একটি বস্তার প্রতি- 
বিশ্বের কোন প্রতিকূপ (0০0841766:09:6) যদি 
যাজ্তবে পঞ্ডব হয়, তবে বস্তটি ও তাঁর প্রতিবিদ্গে 
প্রতিমা খকে। আমার খড়ি-পরা বাহাত 
আনায় ঘড়ি-পর1 ডান হাতে পরিণত হয়েছে 
এবং ডান হাতে ঘড়ি পরাও পম্ভব; অতঞব 
আমার বাহাত গু আরনার তার প্রতিবিশ্ব 
অর্থাৎ ডান হাতের মধ্যে, পদার্থ-বিআনের মতে 
প্রতিসমতা রয়েছে; অর্থাৎ আরও ব্যাপক অর্থে 
বলা চলে, আন্বনার এধারে ও ওধারে যা দেখা 
ধায়, ছুয়েছই কোন প্রতিকূপ ধরি বাস্তবে 
সম্ভব হু, তবে আন্ননার ছু-ধারের দৃশ্থের মধ্যে 
প্রতিসমতা বজার থাকে । এখন প্রশ্ন উঠবে, 
আয়নার যা দেখ! বায়, ত1 লবই কি বাত্তবে পন্ভব? 
আকনার আমার বা-হাতের ঘড়ি ডান হাতে 
চলে গেছে এবং ডাঁন হাতে ঘড়ি-পরা হামেশাই 





নং চিত্র আয়না ঘড়ি। এর কাঁটা ছুটি 
ডান দিক থেকে বাঁদিকে খুবছে। সংখ]াগুলিও 
উপ্টাভাবে লেখ। রহ়েছে। 


দেখা যায় সেটা] ঠিক, কিন্ত আত্নানস যে ঘড়িটা 
দেখা বাবে সেটার দিক বদল হক্ে বাবে অর্থাৎ, 
খড় কাট! ভান দিক থেকে বাঁদিকে (4১1১1০19০1- 


গাল ও বিজান 


[27তম র্, ধুর্ঘ সংখ্যা 


৮195) চলবে! সমক্ব চিহিত অঞ্গরগুলিও 
উত্টাভাবে লেখ! খাকষে। একটি 'আরনা 
ঘড়ি'-র ছবি দেওয়া হলো (নং চিন) এ- 
ক্ষেতে তো আনার ওধাদের শঙ্গে এধারের 
প্রতিসমত1 থাকছে না। আসল ঘড়িটি না দেখে 
কেউ বদি আপ্ননার ঘড়িটি দেখে, সে সহজেই 
এটাকে মাসল ঘড়ির প্রান্তবিশ্ব বলে বুঝতে 
পারবে। 

পদার্থ-বিজ্ঞানের মতে “আরনা ঘড়ি' অবাস্তব 
নন, অপ্রচলিত। আমাদের চিন্তাশক্তিকে প্রচলিত 
ধ্যান-ধারণা অনুষাক্ী চালাতেই আঁমবা অভ্যন্ত | 
কিন্ত 'আয়না লিখন' অসম্ভব নম । কালই বদি 
ডান ধিক ও বা-দিক সন্বন্ধে আমাদের ধারণা 
সম্পূর্ণ পাণ্টে যাঁর, তবে আজ পর্বস্ত লেখা সব 
কিছুই আমাদের কাছে উদ্ভট লাঁগবে। মস্ত বড় 
রবীম্্র ভক্তের কাছেও রবীশ্রা রচনাঁবলীর প্রতিটি 
পাতা ওগ্রীক' ভাষা লেখ! বলে মনে হতে 
পারে! আতএব আরনায় বা দেখা গেল, সেগুলির 
কোনটাই অবাস্তব নর। বসত ও আরনার তার 
প্রতিবিস্বের মধ্যে এই প্রতিমমতাকে পদার্থ 
বিজ্ঞানে বলা হয় প্যারিটি (93£105) | প্যার্চিটি 
শক্তি বা ভব্বেগের মতই নিত্য (00286:৮6) $ 
অর্থাৎ আয়নায় দেখা পৃথিবীর সঙ্গে বাস্তব 
পৃথিবীর কোন অমিল নেই। 1924 সালে 
জটিল পরমাণুর (0০90001659০) গবেষণায় 
বিজ্ঞানী [99০1৮ প্রথম পাঁরিটির নিত্যতার 
সন্ধান পান । পরে 1927 সালে ৬1806, 
12700106-র লুত্রগুলি ব্যাখ্যা করে এই পিদ্ধান্তে 
পৌঁছান বে, প্যারিটির নিত্যত! ডান দিক ও 
বঝাদিকের মধ্যে প্রতিসমতার প্রত্যক্গ কল। 
অতঃপর এই গুরুদ্বপূর্ণ হুত্রটি পদার্থবি্ভার বিভিন্ন 
ক্ষেত্রে মেসনঃ কেন্ত্রীন-বিক্রিপ্বা (90168: 
68০00), মেলন মিথক্রিগা (51659 2026679- 
0197), বিটাক্ষয় (86৪ 46০85), আজব পরমীগু- 
বিজ্ঞান ইত্যাদিতে খুব সার্থকভাবেই ' প্রত্নোগ 


এপ্রিল, 1974 ] 


কর হতে লাগলো, কোন কোন ক্ষেত্রে অবস্ঠ 
এর প্রষ্বোগে অস্থবিধা দেখা দিল, যে কথা 
আমর] একটু পরেই আলোচনা করবো । 
. এ-পর্যস্ত দেখ! যাচ্ছে, আঘাদের ডান দিক ও 
বা-দিকের মধ্যে তফাৎ ধরার সত্যই কোন 
উপায় নেই। বলা যেতে পারে, আমাদের বা 
দিকে হাতপিও ধুকৃধুক করছে; বা-দিকের পক্ষে 
এটাই তো যথেষ্ট প্রমাণ । কিন্তু পৃথিবীর কোথাও 
কারও দেহের ডান দিকে ভ্ৃৎপিও খাকাটাও 
নিশ্চয়ই সম্ভব । বাঁদিকে হৃৎপিগ্ডের অবস্থানকে 
তাঁই একটি সাধিক সত্য হিসাবে নেওয়া বায় 
না। অতএব পদার্থ-বিজ্ঞানীদের এই ধারণ! হলে! 
যে, কোন ঠবজ্ঞানিক পরীক্ষা, তা সাধারণ- 
তাবেই কর! হোক কিন্ব। আস়নাত তার প্রতিবিশ্ের 
মতই কর! হোক, ফল একই পাওয়। ধাবে। 
পদ্ার্থ-বিজ্ঞানের খুব কম শুত্ই বোধ হয় 
একাধিপত্য বজায় রাখতে পেরেছে আজ পর্বন্ত। 
যে সংঘাত, দন্ধুপক মতবাদের মধ্যে দিবে 
পদার্থ-বিজ্ঞান, আধুনিক পদার্থ-বিজ্ঞান এগুচ্ছে, 
সে কথা ভাবলে অবাক হতে হম্গ। এককালের 
একচেটিয়া নিউটনের কণাবাধ (আলোব-বিজ্ঞানে) 
বে তরনবাদের ঢেউচ্ে হারিসে গেপ, সেই 
তর্জবাদকেও অনেক ক্ষেত্রেই জায়গা ছেড়ে দিতে 
হলে! 19 01215০-এর ফোঁটন তত্ুকে। এক- 
কাঁলের প্রচলিত ধারণা 'ঈধার'কে হিন্নতির 
করে বে মহামতি আইনস্টাইন আপেক্ষিকতার 
দুত্রে এক নভুম পৃথিবী দেখাতে চাইলেন, 
সেই আইনস্টাইনই ভার বাকী জীবনটা এর 
বিকল্প খুঁজেই কাটিয়ে দিলেন।* প্যারিটির 


সম্প্রতি নিউ ই্গকে তারতীয় হিআনী ই. 


পি. জি, হুদ্শন ট্যাকিয়ন €(79013590) লাথে 
যে কণাটির কথ! বলেছেন, সেট! আইনস্টাইনের 
অমতিক্রদ্য কালোর গতির থারণাকে পাপ্টে 
দেবার অ।শ। রাখে (জ্ঞান ও বিদ্বচান, অগা, 
1973) আবান 1972 পালের 29শে অক্টোবর 


বিটা-ক্ষয় ও ডান দিক, ব1-দিক 


এক সভান্ন এমন একটি 


201 


নিত্যতা সম্বন্ধেও তাই একদিন লন্দেছ উপস্থিত 
হলো। আনেরিকার 3:০91003%210-4 09508০- 
0:00) ও 9321166165-তে :32৮56০% নামক, 
কণাত্বরণ-বঙ্জ ছুটিতে স্ষ্ট কতকগুলি, মেবলিক 


কণ। বিজ্ঞানীদের রীতিমত ধাধা ফেলে 
দিল। বিজ্ঞানীর! এর নাম দিলেন "্টাউ" 
খিটার হ্েোলী? 07:5865602 052215)। 


উপগ্িউক্ত যন্ত্র ছুটিতে কিছু ঘ-কপার হ্টি হলো, 
ধার কিছু ি'-কপা বিয়োজিভ হয়ে তিনটি 
7₹* কণার পরিণত হব, 

(৮০৯ নত শান্তা শীত 

এদের বলা হলো! ₹-0055978 | আবার কিছু 
৮+-কপার বিক্ষোজনে মাত্র ছুটি 7ং- মেসনের 
স্স্্ি হলে] £ 

চ+-৮7তশানতি 

এদের বল হলে! 6-মেশন। পরাক্ষায দেখ! 
গেল, £ ও 6 মেশনের ভর সমান । কণা ছুটি 
একই সমগললীমার মধ্যে বিক্ষোজিত হয়। এ 
রকম আরও কিছু পরীক্ষার পর এই সিদ্ধান্তে 
পৌছানে! গেল যে,হ ও 9-ষেসন একই কণা। 
একই চ*-মেসনের এই অদঙ্গতিপুর্ণ ব্যবছার 
বিজ্ঞানীর] কিছুতেই ব্যাখ্যা! করতে পারলেন না। 
আরও বিস্তারিত বিঙ্সেষণে দেখা গেল॥ শেষ 
পর্যায়ে হ ও 9 কপার প্যারিটি (81165) 
বিপরীত । একই কণার বিম্োজিত অবস্থার 
কখনও স্থযম প্যাঞ্িটি আবার কখনগ্ড বিষম্‌ 
প্যারিটি কেন হবে? তবে কি বিল্োগ্ন পদ্ধতিতে 
প্যারিটি নিত্য নয়? সেই ছোট একটা হেয়ালী 
এক বিরাট জিআসাপান চিহ্ত ছক্ধে বিজ্ঞানীদের যনে 
ঘুরতে লাগলে । কিন্তু তখন প্যারিটির নিত্য 
পদদার্ঘ-বিজ্ঞানের আসরে যেভাবে জাকিয়ে বসেছে, 


গযালান্সির সম্ভাবা 
কমন্তিত্বের কথা বলা হয়েছে, বার গতি আলোর 
গতির চেগ়েও বেশী (0105350ও তকমা ৬০, 


চ55806735 নাধক স্থানে জোতিবিআনীদের 2 2০, 4, 2৮, 183) 


$ 


202 


ভাকে নাকচ করতে হলে পাসের ধরকার 
রীতিমত | অবশেষে 1956 সালে ছু-জন চীনা 
বৈজ্ঞানিক, হাদের কথা আমরা হুচনাতেই 
বলেছি, তারা মে চ্যালেঞ্জ গ্রহণ করলেন। 
অধ্যাপক ছু-জন প্যারিটির শিত্যতা সব্বক্ধে যাবতীয় 
পরীক্ষালষ জান বাচাই করতে সুর করলেন । 


জোন ও বিজ্ঞান 


[ 27 তথ বর্ধ, এ সংখ্য! 


আমরা আগে এক জাগা বলেছি' পদার্থ- 
বিজ্ঞানের কোন কেন ক্ষেত্রে পযারিটির নিতাতার 
প্রয়োগ অন্ুব্ধার কই করেছিল। প্রকৃতিতে 
আমরা চার রককের মূল বল বা থিখক্ষিয়ার 
(07661556190) কথা জানি । নীচে তাদের 
একটি তালিক! পেওয়া হলে! ( তালিকা-) 


1লং তালিকা 
শ্রেণী (01955) শক্তি (901615861) 
1, কেন্দ্রীন বল--য। প্রোটন ও নিউউ্রনকে পরমাণু কেন্ত্রে আবদ্ধ রাখে ]- 
2. তড়িচ্ছুস্বকীব বল-_-য। পরমাঁপুগুলিকে একত্রিত করে অগুস্থষ্টি করে 10-8 
3. দুর্বল মিথঙ্রিা, তেজস্রিয়্তায় যার উদ্ভব হয় 10-45 
4. মহাকবাঁর বল 10-88 
অধ্যাপক 7,66€ ও 5৪76 লক্ষ্য করলেন, তেমনি, পরমাণুর নিউক্রিগাপে কোন ইলেকট্রন 


একমাত্র ছুর্বল যিথক্কি্। বাদে উপরিউক্ত তিনটি 
ক্ষেত্রেই প্যারিটির নিত্যতা সফলভাবে প্রবোজ্য। 
ভুর্ধল মিথক্কিঘার পরীক্ষালক্ধ তথ্য সংগৃহীত 
হয়েছে প্রচুর, কিন্তু তার মধ্যে উপগ্নিউক্ত 
প্রশ্নটির কোন সমাধান পাঁওক বার না; অর্থাৎ 
কোন বিজঞ!নীই নিউক্রিপাসের বা মৌলিক কণার 
তেজক্রিয়তাঁজনিত কয়ের ক্ষেত্রে প্যারিটির 
নিত্যতা বাচাই করে দেখেন নি। এই ছূর্বল 
মিথক্রিগার দরুণই' মৌলিক কণাগুণ ধীরে 
ধীরে ক্ষরপ্রাপ্ত হু | বিটা-ক্ষয় (7০৫9 0৩০৪5), 
মিউওন-ক্ষয় (1001) 02095), পাইওন-ক্ষর 
(0107 06০85) ইত্যাদি ছুর্যল মিতক্রিগার 
অন্তভূক্ি। অতঃপর [6৫ ও 5136 হুর্বল মিথ- 
ক্রিছার বিস্তারিত বিশ্লেষণের শেষে দৃঢ়তার সঙ্গে 
রায় দ্রিলেন যে, ছুর্বল মিথক্রিগায় প্যাহিটি অনিত্য। 

কোন তেজক্কির পরমাণুর নিউক্রিপ্নাস থেকে 
ইলেকউ্রনের (বা পজিউ্রনের ) নিঙর্মনকেই বিটা- 
ক্ষয় €9 ৫০95) বলা হযন। এটা অনেকট।! 
পরমাণু খেকে “ফোঁটন' বা শক্ষি-কণার নির্গধনের 
মতই। পরমাণুর মধ্যে কোন ফোটন নেই? 
কোন পরমাণুর একটি পক্তিত্তর খেকে অপর একটি 
শত়িত্তয়ে উত্তরণে ফোনের হি হয়। টিক 


নেই 2 বিটা-ক্ষপ্র পঞ্চতিতে ইলেকট্রন শ্ই হুয়। 
এই পন্ধতিতে আরও একটি কণার হাতি হয়, 
ধার নাম নিউটনে। বিটা-ক্ষয় পদ্ধতিতে 
পরমাণুর ন্াকুক্লাসের একটি নিউটনের (3) 
একটি প্রোটন (0), একটি ইলেকট্রন (6) ও একটি 
আযান্টি-নিউটিনোক (৮) রূপান্তর ঘটে। অর্থাৎ 
7)-৮7+০+5 

এই পঙ্ধতিটি অন্তভাবেও হয়| এক্ষেত্রে 
পরমাণুর নিউক্রিক্নাসের একটি প্রোটন (০), নিউট্রন 
(০), পজিউন €+) ও নিউটিনোক় (১) রূপান্তরিত 
হয়ঃ [7-৮16175 

1933 লালে এই বিটা-ক্ষর তত্বের ব্যাখ)া 
করতে গিয়ে ৬/, 2৪011 বখন “নিউটি,নো” কখাটির 
অস্তিত্ব ঘোষণ! করেন, তখন 11615 8০00 মন্তব্য 
করেছিলেন, “বিটা-ক্ষয় তত্তে আমাদের আরও 
আশ্চর্য কিছুর জণ্ডে তরী থাকতে হবে। [66 
এবং ৪78-এর তত্বে সে কথাটাই অত্যন্ত নাট- 
কীয়ভাবে সত্য হন্গে গেল। 

1957 লালে 1085202 015127-91051808 
৬৬০৪, ইনিগ একজন চীনা টবজ্ঞানিক ও তার 
প হকার (00012 মুত এ৪105 1255065 আধং 
চ704560) আমেরিকান .য86107821 88:688 9£ 


এপ্রিল, 1974 ] 


5090081£08-এ প্যাঙ্গিটির অনিতাতার পরীক্ষা 
করেন। ভারা 0০৮৪1-60 নিউক্রিক়াস থেকে 
নির্গত 9 কণার অপ্রতিসমতা নির করেন। তাদের 
পরীক্ষার উদ্দেশ্টা ছিল, 0০৫০ নিউক্রিঃ(সগুলিকে 
একই অক্ষর়েখায় স্পিন (5017) করানো ও লক্ষ্য 
কর] 9 কপাগুলি অগ্ষরেধার দু-্দিকেই সমান 
সংখ্যায় নির্গত হয় কিনা। তাপীক্ন বিশৃঙ্খল গতি 
ধাতে নিউক্রিয়ানগুলির হশৃঙ্খল বিন্তাসে বাধা 
না দেস, লেজন্তে কেলাসটিকে অত্যন্ত কম তাঁপ- 
মাত্রান্স (পরম শুস্ত _-273170 খেকে মাত্র 
0010 উপরে ) শীতল করা হুলো। পরীক্ষান্থ 


বিটা-ক্ষয়,ও ডান দিক, ব-দিক 


203 


9 কপার পশীক্ষায় দেখা গেছে, নিউটিনোর 
স্পিন একটি বামাবতাঁ জর (66 1790060 
৪০16৬) মত। একে ছ্ন্তভাবে বলা হয়ঃ 
নিউটনোর ভেলিপিটি (776115165) খণাত্বক। 
আবার আাপ্টি-নিউটিলোর হেলিপিটি (77611515) 
ধনাত্মক, অর্থাৎ এই কণাগুলি একটি দক্ষিপাবতী, 
জুন (চ01)0 13217060 ৪০৫6৬) মত জগ্রপরর 
হন্ব। এখন আগনায় এই ৫+--7৩+ -৮ বিজ্িয়ার 
প্রতিবিষ্ব লক্ষা করলে দেখ! ধাবে (2নং চিত্র) 
সেখানে নিউট্িনোঁর হেলিপিটি ধনাত্বক ছিসাবে 
দেখা যাচ্ছে। কিন্তু হেপিপিটি জ্যান্টি-নিউটিলোর 


বাল দৃশ্য 





[রান চরে 





2নৎ চিত্র এখানে দৃশ্ত ও আয়না তাঁর প্রতিবিদ্ব